কোয়ারেন্টাইন সময়কে প্রিয়াঙ্কা আশীর্বাদ ভাবছেন যে কারণে

বিনোদন বাজার ॥ চলমান করোনাভাইরাস মহামারির কারণে যখন গোটা বিশ্ব চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি,তখন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ৩৮বছর বয়সী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া সময়টা ইতিবাচক করার জন্য সব শক্তি কাজে লাগাচ্ছেন। বিশেষ করে যারা করোনাভাইরাস মোকাবিলায় প্রথম সারির যোদ্ধা হিসেবে কাজ করছেন তাদেরকে সামনে আনার জন্য তিনি বেশি মনোযোগ দিচ্ছেন। প্রিয়াঙ্কা ২০১৮ সালে মার্কিন সঙ্গীতশিল্পী ও অভিনেতা  নিক জোনাসকে বিয়ে করেনে। বর্তমানে তিনি নিকের পরিবারে সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের লসঅ্যাঞ্জেলসে বসবাস করছেন। গত মাসে নিকের ভাই, জো জোনাস এবং তার স্ত্রী সোফি টার্নারের প্রথম সন্তান ভুমিষ্ঠ হয়।এখন তাকে ঘিরেই গোটা পরিবারের ব্যস্ততা বেড়েছে। সম্প্রতি আমেরিকান গণমাধ্যম ইটিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে প্রিয়াঙ্কা কোয়ারেন্টাইনে কাটানো সময় নিয়ে নানা কথা জানিয়েছেন। তিনি বলেন, করোনাকালীন এই সময় বিশ্বের অন্য অনেক লোকের তুলনায় ভালো থাকতে পেরে তিনি নিজেকে ধন্য মনে করছেন। তিনি বলেন,আমরা সুস্থ আছি,আমার পরিবার ও বন্ধুবান্ধবরা সুস্থ আছে। সৃজনশীল কাজ করার সময় পাচ্ছি।।সব মিলিয়ে বলতে হয় এই সময়টা আমার কাছে আশীর্বাদের মতো। কোভিড -১৯ মোকাবিলায় প্রিয়াঙ্কা ত্রাণ তৎপরতাসহ, নানা প্রচারণামূলক কাজ করছেন। সাবেক কোয়ান্টিকো তারকা প্রিয়াঙ্কা এই বছরের শুরুর দিকে ‘টুগেটদার রাইস ইউম্যান ক্যাম্পেইন’ সংগঠনটি চালু করার জন্য ক্রিয়েটিভ অ্যাডভাইজার হিসাবে যোগ দেন।পাঁচ সপ্তাহের এই সিরিজটি দেশজুড়ে ২০ জন নারী চিকিৎসক, নার্স, স্বেচ্ছাসেবক এবং কমিউনিটি নেতাদের সমন্বয়ে সংগঠিত হয়েছিল। সংগঠনের প্রত্যেকে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে প্রতিদিনই অন্যান্যের সেবা দিতেন। সেই সঙ্গে তাদের প্রচেষ্টার জন্য অর্থ অনুদানও দিতেন। সংগঠনটিতে যুক্ত হওয়া প্রসঙ্গে প্রিয়াঙ্কা বলেন,পৃথিবী পরিবর্তনের আগে আমরা একটি প্রচারণা চালাতে যাচ্ছিলাম। কিন্তু করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে প্রচারণা চালানোর মতো অবস্থা ছিল না।

প্রিয়াঙ্কা আরো বলেন, এখন কোন ধরনের প্রচারণা চালানোর সময় নয়। তবে খুব শীঘ্রই কীভাবে কাজে ফিরিয়ে দিতে পারি তা নিয়ে আমাদের কথাবার্তা চলছে।  তিনি বলেন, এটা ভেবে আনন্দ লাগছে যে, সংকটময় এই মুহূর্তে সত্যিকার অর্থে যেসব নারীর অর্থ প্রয়োজন অনুদানের টাকা তাদের কাজে লেগেছে।

প্রিয়াঙ্কার মতে, করোনাকালীন এই সময় প্রত্যেকেরই অন্যান্যের সহযোগিতায় কিছু করা উচিত। তিনি বলেন, মুল কথা হচ্ছে, পৃথিবীর সব ব্যবস্থা ভেঙে পড়ছে। পৃথিবীকে বাঁচাতে এখন কেউ যদি ক্ষুদ্র আকারেও কিছু করেন তাহলে সেটার ফলও অনেক দূর যাবে।

প্রিয়াঙ্কার মতে, এই বছরটি অবশ্যই বিশ্ব মনে রাখবে। তিনি বলেন, এখন থেকে ১০ বছর পেছনে তাকালে ২০২০ সাল যে মানবতার শিক্ষা দিয়েছে তা ইতিবাচকভাবে প্রতিফলিত হবে।

প্রিয়াঙ্কা বলেন, প্রায় ছয় মাস আমরা ঘরে ছিলাম। পেছন ফিরে তাকালে দেখা যাবে বিশ্ব কতটা প্রতিকূলতার মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। এ মহামারি বিশ্বের কত লোককে কীভাবে প্রভাবিত করেছে। সেই সঙ্গে বিশ্ব করোনার চেয়েও কীভাবে দারিদ্র্য, ক্ষুধা মোকাবিলা করেছে তা দেখা যাবে।

প্রিয়াঙ্কা বলেন, মানবতা একত্র হওয়ার এটাই সময়। ১০ বছর পর যখন আমরা পেছন ফিরে তাকাবো তখন আমরা বুঝতে পারবো সময়টা আমরা কীভাবে মোকাবিলা করেছি। তিনি আরো বলেন, মানব চেতনা কী করতে পারে তার প্রমাণ দেওয়ার সময় এখন। এজন্য বর্তমান সময়টা ইতিবাচকভাবে দেখতে হবে।

প্রিয়াঙ্কার ভাষায়, মহামারিকালীন এই সময় পার হবার অন্যতম চাবিকাঠি হলো কিছুটা হাসি, মজা করা। প্রিয়জনদের সাথে বাড়িতে আনন্দ করা। যা নিজের জীবনে তিনি কাজে লাগিয়েছেন।

 

 

 

 

ভালো আছেন রামেন্দু-ফেরদৌসী দম্পতি

বিনোদন বাজার ॥ করোনায় আক্রান্ত রামেন্দু মজুমদার ও ফেরদৌসী মজুমদার দম্পতি এখন ভালো আছেন। একসঙ্গে শক্ত মনে তারা ভাইরাসটিকে মোকাবিলা করছেন। গতকাল শনিবার দুপুরে এ তথ্য জানান নাট্যজন রামেন্দু মজুমদার। তিনি বলেন, ‘ঘরের মধ্যেই দিনগুলো কেটে যাচ্ছে। আমরা দু’জনই ভালো আছি। শক্ত মনে করোনাকে মোকাবিলা করছি। ‘গত ১৮ জুলাই প্রথমে ফেরদৌসী মজুমদারের কোভিড-১৯ ভাইরাসে আক্রান্ত হন। এর ৬ দিন পর ২৪ জুলাই আক্রান্ত হন রামেন্দু মজুমদার। রামেন্দু মজুমদার আরো বলেন, ‘শিগগিরই আমরা দ্বিতীয়বার পরীক্ষা করাবো। এখন পর্যন্ত আমাদের শারীরিক কোন সমস্যা নেই। ‘ সম্প্রতি স্ত্রীসহ করোনায় আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি জানান রামেন্দু মজুমদার। তিনি বলেন, ‘সবার প্রার্থনা ও চিকিৎসকদের পরামর্শ মেনে আপাতত আমরা দু’জনই সুস্থ আছি। সবাই দুশ্চিন্তা করবে বলে কাউকে বিষয়টি তখন জানাইনি।’ ৫০ বছর আগে ১৯৭০ সালের ১৪ মার্চ সংসারজীবন শুরু করেন দেশের সংস্কৃতি অঙ্গনের দুই গুণী ব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার ও ফেরদৌসী মজমুদার।

জীবন খানের সঙ্গে ও মোহনার ‘জানেমান’

বিনোদন বাজার ॥ করোনা ভাইরাসের এই পরিস্থিতেও ঈদুল আজহা উপলক্ষে প্রকাশিত হলো কণ্ঠশিল্পী জীবন খান ও মোহনার গাওয়া ‘জানেমান’ গানটি। জীবন খাঁনের সর্বশেষ ২য় একক অ্যালবাম ‘মায়া ডোরে’ প্রকাশ হয়েছিল ২০১৭ সালের প্রথম দিকে। এর মাঝে তিনি কাজী শুভ ও মোহনার জন্য ‘নেশা’ এবং  ইলিয়াস ও অরিন এর জন্য ‘হয়ে গেলাম তোর’ নামে দুটি গানে সুর করেছিলেন। দীর্ঘদিন বিরতির পর গানে ফিরেছেন জীবন খান। তিনি জানান, এখন থেকে গানে নিয়মিত হচ্ছি, বেশ কিছু নতুন গান রেকর্ডও সম্পন্ন হয়েছে। সেগুলো সামনে রিলিজ করা হবে। এ.কাদেররের লেখায় গানটি সুর করেছেন সংগীত শিল্পী জীবন খান নিজেই এবং মিউজিক করেছেন মুশফিক লিটু। গানের ভিডিও নির্মাণ করেছেন সৈকত রেজা। ঢাকার বিভিন্ন মনোরম লোকেশনে গানটির ভিডিও নির্মাণ করা হয়েছে। গানটিতে মডেল হিসেবে কাজ করেছেন অন্তু এবং সুইটি। নিজের ইউটিউব চ্যানেল থেকেই গানটি প্রকাশ করা হয়েছে।

করোনাক্রান্ত নির্মাতা সোহানুর রহমান সোহান

বিনোদন বাজার ॥ সেরে উঠছেন করোনাক্রান্ত নাট্যজন দম্পতি রামেন্দু মজুমদার ও ফেরদৌসী মজুমদার। এমন স্বস্তির খবর পেতে না পেতে ভাইরাসটির শিকার হলেন চলচ্চিত্রের গুণী নির্মাতা সোহানুর রহমান সোহান। তার স্ত্রীও করোনা পজিটিভ। বিষয়টিনিশ্চিত করেছে পরিচালক সমিতি ও সোহান পরিবারের একাধিক সদস্য। ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’ ছবির এই পরিচালক সস্ত্রীক বর্তমানে নিজেদের বাসাতেই আইসোলেশনে আছেন। নিচ্ছেন চিকিৎসা। নির্মাতা শিবলী সাদিকের সহকারী হিসেবে চলচ্চিত্র জীবন শুরু করেন সোহানুর রহমান সোহান। তার পরিচালিত প্রথম চলচ্চিত্র ‘বিশ্বাস অবিশ্বাস’। এরপর ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’ সিনেমা দিয়ে তুমুল জনপ্রিয়তা পান। তার এ ছবি দিয়েই সিনেমায় যাত্রা করেন সালমান শাহ ও মৌসুমী। সোহানের ‘অনন্ত ভালোবাসা’ ছবির মাধ্যমে সিনেমায় অভিষিক্ত হন শাকিব খান। এটি ছিল এই নায়কেরে মুক্তি পাওয়া প্রথম চলচ্চিত্র।

বিপাশা বসু ও করণ সিং গ্রোভারের ‘ডেঞ্জারাস’ ট্রেলার

বিনোদন বাজার ॥ বলিউড অভিনেত্রী বিপাশা বসু ও তার স্বামী করণ সিং গ্রোভার অভিনীত সিনেমা ‘ড্যাঞ্জারাস’র ট্রেলার প্রকাশ পেয়েছে। সিনেমার ট্রেলারে দেখা যায়, আদিত্য ধনরাজ (করণ)-এর স্ত্রী দিয়া অপহরণ হয়। এ ঘটনাটি নিয়ে সিনেমার কাহিনি আবর্তিত হয়েছে। এ মামলায় তদন্ত করতে দায়িত্ব পান নেহা (বিপাশা)। নেহা ছিলেন আদিত্যের সাবেক প্রেমিকা। নেহা ঘটনা অনুসন্ধানে নেমে কাহিনির আরও গভীরে প্রবেশ করে। চোখে যা দেখা যায় তার চেয়ে বাস্তবতা ছিল আরও জটিল। সিনেমাটি প্রসঙ্গে বিপাশা বসু বলেন, ভক্তরা অনেকদিন ধরেই চাচ্ছিলেন আমি ও করণ একসঙ্গে আবারও পর্দা ভাগ করি। ‘ড্যাঞ্জারাস’র গল্প আমাকে খুব আলোড়িত করে। প্রত্যেক ক্ষণে ক্ষণে কাহিনি নতুন মোচড় নিয়ে দর্শকদের মুগ্ধ করবে আশা করি। ভূষণ প্যাটেল পরিচালিত এবং বিক্রম ভাট ও মিকা সিং প্রযোজিত সিনেমাটি এমএক্স প্লেয়ারে আগামী ১৪ আগস্ট থেকে স্ট্রিমিং শুরু হবে।

কয়েক ঘণ্টা পরই চ্যানেল ফিরে পেলেন নোবেল 

বিনোদন বাজার ॥ পশ্চিমবঙ্গের জি বাংলা চ্যানেলের সারেগামাপা রিয়েলিটি শো’য়ের মাধ্যমে দুই বাংলায় আলোচনায় আসেন নোবেল। পরে নানা কারণে সমালোচিতও হন তিনি। শুক্রবার জানা গেলো তার ১৪ লাখের বেশি সাবস্ক্রাইবার থাকা ইউটিউব চ্যানেলটি বন্ধ করে দিয়েছে ইউটিউব কর্তৃপক্ষ। তবে পরক্ষণেই আবার জানা যায়, চ্যানেলটি কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই ফেরত পেয়েছেন নোবেল। সাইবার নিরাপত্তা বিষয়ক প্রতিষ্ঠান ‘ওএলডি ম্যাক্সট্যান’ এর রিপোর্টের ভিত্তিতে নোবেলের ইউটিউব চ্যানেলটি বন্ধ করে ইউটিউব কর্তৃপক্ষ। শুক্রবার সন্ধ্যায় ‘ওএলডি ম্যাক্সট্যান’ এর ফেসবুক পেজে এক পোস্টে ইউটিউব চ্যানেলটি বন্ধের তথ্য জানানো হয়। পরে কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে আরেক পোস্টে চ্যানেলটি ফেরত পাওয়ার তথ্য জানায় প্রতিষ্ঠানটি। ‘ওএলডি ম্যাক্সট্যান’ এর রি পোস্টে বলা হয়েছে, ‘নোবেল ম্যান এর ইউটিউব চ্যানেল মাস্তানের পক্ষ থেকে রিমুভ করার পর! ইউটিউব কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলে সে তার চ্যানেল ফিরিয়ে আনে! এতে কষ্ট পাওয়ার কিছুই নেই, চ্যানেল একবার ব্যাক করলে আরও একশ’ বার রিমুভ করতে পারবো আমরা! আবারও আপডেট শিগিরই আসবে।

এরপর ইউটিউবে ‘নোবেল ম্যান’ নামের চ্যানেলটি খুঁজে পাওয়া যায়। উল্লেখ্য, বাংলাদেশি যুবক নোবেল জি বাংলায় গান গেয়ে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জনের পর তার বিরুদ্ধে অশ্লীলতা, ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ, কপিরাইট আইন ভঙ্গসহ নানা অভিযোগ ওঠে।

মামা-ভাগ্নে যেখানে বিপদ নেই সেখানে

বিনোদন বাজার ॥ ঈদের বর্ণিল সব আয়োজন নিয়ে হাজির হচ্ছে টিভি চ্যানেলগুলো। ইউটিউব চ্যানেলগুলোতেও দেখা যাবে নানা আমেজের নাটক-টেলিফিল্ম। সেখানে থাকবে অনেক ধারাবাহিকও। নানা প্রজন্মের তারকারা এগুলোতে অভিনয় করবেন। এদিকে ঈদে ৭ পর্বের ধারাবাহিক নিয়ে আসছেন জনপ্রিয় দুই তারকা মীর সাব্বির ও সাজু খাদেম। তাদের নাটকটির নাম ‘মামা-ভাগ্নে যেখানে বিপদ নেই সেখানে’। এ ধারাবাহিকটি রচনা করেছেন মহিন খান এবং পরিচালনা করেছেন কাজী সাইফ আহমেদ। এই প্রথম ঈদের কোন ৭ পর্বে কাজ করলেন ফারিয়া শাহরিন। তার বিপরীতে মীর সাব্বির। এছাড়াও অভিনয় করেছেন মীম চৌধুরী, তানভীর মাসুদ, শফিক খান দিলু, ইমু শিকদার, জান্নাত আক্তার, সঞ্জয় রাজ, মীর শহীদ, শেখ স্বপ্না প্রমুখ। পরিচালক জানান, ধারাবাহিকটি কমেডি ধাঁচের গ্রামীন পটভূমিতে লেখা। ই-ভ্যালি অনলাইন শপ নিবেদিত ধারাবাহিকটি এসজে মোশন পিকচার্স এর ব্যানারে নির্মিত হয়েছে। প্রযোজনা করেছেন কাজী সাইফুল ইসলাম সোহেল। গল্পটি মামা-ভাগ্নেকে নিয়ে। মামা-ভাগ্নে এক সাথেই চলে, খায় ও ঘুমায়। মামা-ভাগ্নে খুব দুষ্ট প্রকৃতির। গ্রামের মানুষদের খুব বিরক্ত করে। গ্রামের চেয়ারম্যানের মেয়ে লতা ও পাতার সাথে প্রেম করতে চায় মামা ও ভাগ্নে। চেয়ারম্যান সেটা মানতে পারেনা। এখানে লতা চরিত্রে অভিনয় করেছেন ফারিয়া শাহরিন। তার বিপরীতে মামা মীর সাব্বির। পাতা চরিত্রে মীম চৌধুরী। তার বিপরীতে ভাগ্নে সাজু খাদেম।

৩ লাখ মানুষকে চাকরি দিবেন সোনু

বিনোদন বাজার ॥ বলিউড অভিনেতা সোনু সুদ। পর্দায় তাকে খল অভিনেতা হিসেবেই বেশি দেখা যায়। কিন্তু করোনার এই সময়ে তিনি হয়ে উঠেছেন সবার হিরো। করোনা মহামারির এই সময়ে দুস্থদের খাবার ব্যবস্থা করেছেন সোনু সুদ। স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য নিজের বিলাসবহুল হোটেল ছেড়ে দিয়েছেন। তবে ভারতের বিভিন্ন স্থান থেকে আসা যে সকল শ্রমিক মুম্বাইয়ে আটকা পড়েছিলেন তাদের বাড়ি ফিরিয়ে সোনু সুদ সবচেয়ে বেশি আলোচনায়। ৩০ জুলাই সোনু সুদের জন্মদিন। বিশেষ এই দিনে করোনাকালে বেকার হয়ে পড়া মানুষের জন্য সুখবর দিলেন তিনি। ৩ লাখ মানুষকে চাকরির সুযোগ করে দিচ্ছেন এই অভিনেতা। মাইক্রোব্লগিং সাইট টুইটারে তিনি লিখেছেন, ‘জন্মদিনের বিশেষ এই মুহূর্তে আমার প্রবাসী ভাইদের জন্য প্রবাসী রোজগার ডটকম। আমার কনট্রাক্টে ৩ লাখ চাকরি। সবগুলোতেই ভালো বেতন, পিএফ, ইএসআই এবং অন্য সুবিধা আছে। এইপিসি, সিআইটিআই, ট্রিডেন্ট, কুয়েস করপোরেশন, অ্যামাজন, সোডেক্স, আরবান কো, পোর্শিয়া এবং অন্য সবাইকে ধন্যবাদ।’ জানা গেছে ‘প্রবাসী রোজগার’ ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আগামী পাঁচ বছরে দুই কোটি মানুষকে চাকরির ব্যবস্থা করতে চান সোনু সুদ। এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে চাকরি প্রার্থীরা সরাসরি ভারতের বিভিন্ন স্থানে কাজের সন্ধান পাবেন। শুধু তাই নয়, চাকরি প্রার্থীদের বিভিন্ন বিষয়ে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থাও করছেন সোন্।ু

ঈদে এক ডজন নাটক নিয়ে আসছেন শামীম জামান

বিনোদন বাজার ॥ মঞ্চ ও টেলিভিশন নাটকের জনপ্রিয় অভিনেতা শামীম জামান। অভিনয়ের পাশাপাশি টিভি নাটক পরিচালনা ও প্রযোজনা করছেন তিনি। প্রতিবছর ঈদে তার অভিনীত ও পরিচালিত একাধিক নাটক বিভিন্ন টেলিভিশনে প্রচার হয়ে থাকে। এবারের ঈদে তার এক ডজন নাটক থাকছে। পরিচালনার পাশাপাশি এসব নাটকে অভিনয়ও করেছেন তিনি। ঈগল মিউজিকের ইউটিউব চ্যানেলে মুক্তি পাবে ‘ঢাকাইয়া জিম’, ‘মামলাবাজ জামাই’ ও ‘পাবলিক ফিগার’। চ্যানেল নাইন-সিডি চয়েসে ‘সাইকেল মেকার’, দীপ্ত টিভি-সিডি চয়েসে ‘পেইনফুল’, শরৎ টেলিফিল্মে ‘ক্ষমতাবান’ ও ‘বুদ্বিমান চোর’, বাংলাভিশন- লাইভ টেকনোলজিসে ‘কন্ট্রাক’, এনটিভিতে ‘টাম কাড’, দীপ্ত টিভি-সিডি চয়েসে ‘প্রতিবেশীকে ভালোবাসো’, হিয়া মাল্টিমিডিয়ায় ‘শ্বশুর বাড়ি লকডাউন’, আরটিভিতে ‘ছোট মিয়া বড় মিয়া’ নাটকগুলো প্রচার করা হবে। শামীম জামান বলেন, ‘করোনা সংক্রমণের কারণে রোজার ঈদে কাজ করতে পারিনি। এবারের ঈদের বেশকিছু নাটক টেলিফিল্মের কাজ করেছি। প্রত্যেকটি নাটকের গল্পে ভিন্নতা রয়েছে। আশা করছি দর্শকদের ভালো লাগবে।’

রিয়ার সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে খুশি ছিলেন না সুশান্ত: অঙ্কিতা

বিনোদন বাজার ॥ বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত। গত ১৪ জুন নিজ ফ্ল্যাটে আত্মহত্যা করেন এই অভিনেতা। মৃত্যুর আগে অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন তিনি। কিন্তু সম্পর্ক নিয়ে নাকি খুশি ছিলেন না। ইন্ডিয়াটিভিনিউজ ডটকম জানিয়েছে, সুশান্তের মৃত্যুর পর দুইবার এই অভিনেতার পাটনার বাড়িতে গিয়েছেন তার প্রাক্তন প্রেমিকা অঙ্কিতা লোখান্ডে। সেখানে গিয়ে ‘কাই পো চে’ অভিনেতার বোন শ্বেতা সিং কৃর্তিকে এই কথা জানিয়েছেন তিনি।  সুশান্তের বোনের সঙ্গে অঙ্কিতার বেশ ভালো সম্পর্ক। ‘পবিত্র রিশতা’ অভিনেত্রী জানিয়েছেন, তার প্রথম বলিউড সিনেমা ‘মণিকর্ণিকা: দ্য কুইন অব ঝাঁসি’ মুক্তির সময় সুশান্তের সঙ্গে তার চ্যাটিং হয়। সেই সময় এই অভিনেতা তাকে জানান, রিয়া তাকে হয়রানি করে। অঙ্কিতার ভাষ্যমতে, সুশান্ত তাকে জানান, প্রেমের সম্পর্ক নিয়ে খুশি নন এবং এটি ইতি টানতে চান কারণ রিয়া তাকে হয়রানি করে।  মঙ্গলবার পাটনার রাজিব নগর থানায় রিয়ার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেন সুশান্তের বাবা কৃষ্ণ কুমার সিং। ভারতীয় দ-বিধি ৩৪১ (অন্যায়ভাবে বাধা দেওয়া), ৩৪২ (অন্যায়ভাবে আটকে রাখা), ৩৮০ (বাসা বাড়িতে চুরি), ৪০৬ (প্রতারণা করে বিশ্বাস ভঙ্গ), ৪২০ (সম্পদের বিষয়ে প্রতারণা এবং অসততা) এবং ৩০৬ (আত্মহত্যার প্ররোচনা) ধারায় অভিযোগ দায়ের হয়। এরপর এ বিষয়ে তদন্তে শুরু করেছেন বিহার পুলিশ। জানা গেছে, সুশান্ত প্রসঙ্গে সকল তথ্য বিহার পুলিশকে জানিয়েছেন অঙ্কিতা। এ বিষয়ে পুলিশ তার জবানবন্দিও রেকর্ড করেছেন।  ‘পবিত্র রিশতা’ টিভি ধারাবাহিকের সেটে সুশান্ত ও অঙ্কিতার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। দীর্ঘ ছয় বছর প্রেম করেন তারা। বিয়ের পরিকল্পনাও করেছিলেন। কিন্তু হঠাৎ করেই তাদের ব্রেকআপ হয়। সর্বশেষ রিয়া চক্রবর্তীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়ান সুশান্ত। বলিপাড়ায় তাদের বিয়ের গুঞ্জনও শোনা যায়।

পরিবারসহ করোনায় আক্রান্ত এস এস রাজামৌলি

বিনোদন বাজার ॥ ‘বাহুবলি’ সিনেমাখ্যাত পরিচালক এস এস রাজামৌলি ও তার পরিবার করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। জানা গেছে, বুধবার তাদের কোভিড-১৯ পরীক্ষার ফল পজিটিভ আসে। চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী তারা বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন। মাইক্রোব্লগিং সাইট টুইটারে এস এস রাজামৌলি লিখেছেন, ‘কয়েকদিন আগে আমি ও আমার পরিবার সামান্য জ¦রে আক্রান্ত হই। এটি এমনিতেই সেরে যায় কিন্তু আমরা করোনা পরীক্ষা করাই। আজ পরীক্ষার রিপোর্টে কোভিড-১৯ পজিটিভ এসেছে। আমরা চিকিৎসাকের পরামর্শে বাড়িতে কোয়ারেন্টাইনে আছি।’ এ নির্মাতা জানিয়েছেন, পরিবারের সদস্যদের করোনার কোনো উপসর্গ ছিল না। তবে তারা সবাই সতর্কতা অবলম্বন করছেন ও চিকিৎসকের নির্দেশনা মেনে চলছেন। পাশাপাশি অ্যান্টিবডি তৈরি করে প্লাজমা দান করতে চান বলে জানান এই নির্মাতা। রাজামৌলি পরিচালিত পরবর্তী সিনেমা ‘রুদ্রম রণম রুধিরাম’ বা ‘ট্রিপল আর’। এই সিনেমার গল্প কামারাস ভীমা ও আলুরি সীতারামা রাজু নামের দুই বীর যোদ্ধাকে নিয়ে। চরিত্র দু’টিতে অভিনয় করছেন জুনিয়র এনটিআর ও রাম চরণ। সিনেমায় নায়িকা চরিত্রে আছেন বলিউড অভিনেত্রী আলিয়া ভাট। এটি তার প্রথম দক্ষিণী সিনেমা। এ ছাড়া একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করছেন অজয় দেবগন। পাশাপাশি এতে রে স্টেভেনসন, অলিভিয়া মরিস, অ্যালিসন ডুডির মতো হলিউড তারকারা অভিনয় করছেন।

প্রেমিকের সঙ্গে বাগদান সারলেন অভিনেত্রী নীহারিকা

বিনোদন বাজার ॥ ভারতের দক্ষিণী সিনেমার বরেণ্য অভিনেতা নাগা বাবুর কন্যা অভিনেত্রী নীহারিকা কোনিড়েলা। অন্ধ্র প্রদেশের চৈতন্যর সঙ্গে দীর্ঘ দিন ধরে প্রেম করছেন নীহারিকা। অবশেষে প্রেমিক চৈতন্যর সঙ্গে বাগদান সারতে যাচ্ছেন এই অভিনেত্রী। আগামী ১৩ আগস্ট আনুষ্ঠানিকভাবে বাগদান সারবেন এই জুটি। নীহারিকার ভাই অভিনেতা বরুণ তেজ ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে বলেনÑআগামী মাসে নীহারিকার বাগদান। তবে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা পরে হবে। নীহারিকার বিয়ে নিয়ে পরিবারের সবাই খুব উচ্ছ্বসিত। এখন বাগদানের অনুষ্ঠানের জন্য সবাই অপেক্ষা করছেন। দক্ষিণী সিনেমার বরেণ্য অভিনেতা চিরঞ্জীবী ও পবন কল্যাণ নীহারিকার চাচা। তারাও বাগদান অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন বলে এ প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে। টেলিভিশন শো উপস্থাপনার মধ্য দিয়ে শোবিজ অঙ্গনে পা রাখেন নীহারিকা। ২০১৬ সালে তেলেগু ভাষার ‘ওকা মানাসু’ সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্রাঙ্গনে পা রাখেন তিনি। পরের বছরই তামিল সিনেমায় অভিষেক হয় তার। নীহারিকা অভিনীত সর্বশেষ চলচ্চিত্র ‘সাইরা নরসিমহা রেড্ডি’। গত বছরের ২ অক্টোবর মুক্তি পায় এটি। ১৮৪৭ সালে ভারতীয় বিপ্লবী নরসিমহা রেড্ডিকে ফাঁসি দিয়েছিল ব্রিটিশ সরকার। এই বিপ্লবীর বায়োপিক এটি। ব্লকবাস্টার এ সিনেমা পরিচালনা করেন সুরেন্দ্র রেড্ডি।

ঈদুল আজহাতেও খুলছে না সিনেমা হল

বিনোদন বাজার ॥ করোনাভাইরাসের কারণে গত ১৮ মার্চ থেকে দেশের সব সিনেমা হল বন্ধ রয়েছে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছে অফিস-ব্যবসা। খুলছে শপিংমলগুলো। কিন্তু এখনও বন্ধ সিনেমা হল। কবে খুলবে তাও নিশ্চিত নয়। তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ জানিয়েছেন, আসছে কোরবানির ঈদে সিনেমা হল খুলবে না। গত ২৬ জুলাই তথ্য মন্ত্রণালয়ে প্রদর্শক সমিতির নেতাদের সঙ্গে আলাপকালে এ সিদ্ধান্ত জানান তথ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, করোনার প্রকোপ চলাকালীন দেশে বন্যার আঘাত এসেছে। এমন সময় সিনেমা হল খোলা ঠিক হবে না। কারণ করোনা বা বন্যায় শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে সিনেমা চালানো সম্ভব নয়। পাশের দেশ ভারত কিংবা পাকিস্তানেও সিনেমা হল খুলছে না।’ এদিকে মুক্তির তালিকায় প্রস্তুত রয়েছে প্রায় ১৬টি ছবি। কিন্তু, করোনার কারণে ঈদুল ফিতরের মতো আসন্ন ঈদেও সিনেমা হলগুলো বন্ধ থাকছে বলে হলে মুক্তি পাচ্ছে না কোনো ছবি। ছবিগুলোর মধ্যে  রয়েছে: ‘বিদ্রোহী’, ‘শান’, ‘মিশন এক্সট্রিম’, ‘মন দেব মন নেব’, ‘বিশ্বসুন্দরী’, ‘নীল মুকুট’, ‘শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদ-২’, ‘চল যাই’, ‘নারীর শক্তি’, ‘ঊনপঞ্চাশ বাতাস’, ‘বান্ধব’, ‘নীল ফড়িং’, ‘জিন’, ‘আমার মা’, ‘পরান’  ও ‘মেকআপ’। গত ১৮ মার্চ থেকে চলচ্চিত্র প্রযোজক সমিতি, প্রদর্শক সমিতিসহ সংশ্লিষ্ট সব সমিতি মিলে সিনেমা হল বন্ধের ঘোষণা দেয়। প্রথমে ২ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধের ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল।

ঈদের গানে জুটি বাঁধলেন আসিফ আকবর-মৌটুসী

বিনোদন বাজার ॥ একজন বাংলা গানের যুবরাজ আসিফ আকবর। অন্যজন মৌটুসী, যিনি মিষ্টি কণ্ঠ ও সুন্দর গায়কী দিয়ে শ্রোতা দর্শককে মুগ্ধ করে আসছেন এক যুগেরও বেশি সময় ধরে নিয়মিত। তাদের দু’জনার পরিচয় প্রায় বিশ বছর। দীর্ঘ বছর সঙ্গীতের এই দুই প্রিয় মুখের সুসম্পর্ক থাকলেও গান গাওয়া হয়নি কোনোদিন। এবার সেই আক্ষেপ ঘুচে গেল। একসঙ্গে গান করলেন এই দুই শিল্পী। গানের শিরোনাম ‘তুমি এলে’। ভারতের রাজীব দত্তের কাব্যমালায় এ গানে সুর দিয়েছেন পার্থ প্রতীম বাপ্পী। আর সংগীতায়োজন করেছেন সৌরভ বাবাই চক্রবর্তী। গানটি প্রকাশ করছে ধ্রুব মিউজিক স্টেশন (ডিএমএস)। এই গান প্রকাশ হবে ভিডিওতে। এরইমধ্যে দারুণ এক গল্পে গানটির ভিডিও নির্মাণ করা হয়েছে। এটি পরিচালনা করেছেন ইয়ামিন ইলান। ভিডিওতে দেখা যাবে আসিফ আকবর এবং মৌটুসীকে।

গানটি প্রসঙ্গে আসিফ আকবর বলেন, ‘মৌটুসী ভাবীর গায়কী আমার খুব ভালো লাগে। জীবন চলার পথে ভাবীর কাজ থেকে পেয়েছি মনোবল। তার সঙ্গে গান করতে পেরে একটা আনন্দ তো হচ্ছেই। আবার দীর্ঘ ১৭ বছর পর পার্থ প্রতীম বাপ্পী ভাইয়ের সুরে গাইলাম সেটাও আনন্দের। আশা করছি মৌটুসী ভাবী এবং আমার কণ্ঠে গানটি শ্রোতাদের ভালো লাগবে।’ মৌটুসী জানালেন, ‘তুমি এলে’ দারুণ একটি মেলোডিয়াস গান। আসিফ আকবরের সঙ্গে এটাই আমার প্রথম গান। গানটির কথা-সুর-সংগীত সব মিলিয়ে বেশ ভালো হয়েছে। বাকিটা শ্রোতারা বিচার করবেন।’ ডিএমএস সুত্র জানায়, ঈদ উপলক্ষে ৩০ জুলাই তাদের ইউটিউব চ্যানেলে অবমুক্ত করা হবে ‘তুমি এলে’ গানটির ভিডিও। এছাড়াও গানটি শুনতে পাওয়া যাবে জিপি মিউজিক, বাংলালিংক ভাইব, রবি স্পø্যাশ এবং স্বাধীন মিউজিক অ্যাপএ।

রিয়ার বিরুদ্ধে সুশান্তের বাবার অভিযোগ দায়ের

বিনোদন বাজার ॥ অসংখ্য প্রশ্নের জন্ম দিয়ে হঠাৎ চলে গেলেন সুশান্ত সিং রাজপুত। এই আত্মহত্যাকে ঘিরে যেসব ধোঁয়াশা তৈরি হলো সেগুলোর জট এখনও খোলেনি। মুম্বাই পুলিশের তদন্তে অনেক তথ্য বেরিয়ে এলেও, সেগুলো থেকে স্পষ্ট কোনও উত্তর মেলে না।

তবে সেসব বিষয়ে স্পষ্ট কোনও ধারণা এখনও মেলেনি পুলিশের পক্ষ থেকে। তার আগেই সুশান্তের জন্মস্থান পাটনার রাজীব নগর থানায় হাজির হলেন তার বাবা কে কে সিং। দায়ের করেছেন রিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ। অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, রিয়া এবং তার পরিবারের সদস্যরা সুশান্তের সঙ্গে প্রতারণা করেছে। তাকে আর্থিকভাবে শোষণ করেছে। সুশান্তের বাবা এটাও মনে করেন, রিয়া তার ছেলেকে নানা কৌশলে তাদের পরিবার থেকে পুরোপুরি আলাদা করে ফেলেছিল। সুশান্তের বাবার দায়ের করা এই অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তের জন্য চার সদস্যের একটি পুলিশি দল গঠন করা হয়েছে। তদন্ত দল এরমধ্যে পাটনা থেকে মুম্বাই উড়ে গেছে অভিযোগটি খতিয়ে দেখতে। এদিকে প্রথম দিন থেকেই মুম্বাই পুলিশ সুশান্তের মৃত্যুর মামলাটি তদন্ত করছে। এখন পর্যন্ত অভিযুক্ত রিয়া চক্রবর্তী, ঘনিষ্ঠ বন্ধু, কাজের সহযোগী এবং চলচ্চিত্র নির্মাতা সঞ্জয় লীলা বানসালি, মহেশ ভাট, ধর্ম প্রোডাকশনের সিইও অপূর্ব মেহতাসহ মোট ৩৯ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে মুম্বাই পুলিশ। গত ১৪ জুন মুম্বাইয়ে বান্দ্রার কার্টার রোডে নিজের ফ্ল্যাটে সুশান্ত সিং রাজপুতের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনে জানা গেছে, বিছানার চাদর গলায় প্যাঁচিয়ে ঝুলে থাকায় অ্যাসপিক্সিয়ার (অক্সিজেনের ঘাটতিতে দম বন্ধ হওয়া) কারণে মারা গেছেন তিনি। তার ঘরে পাওয়া গেছে প্রেসক্রিপশন ও অ্যান্টি ডিপ্রেশন ওষুধ। তবে কোনও সুইসাইড নোট মেলেনি।

১৮ জুন থানায় ডেকে পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে রিয়া উল্লেখ করেন, কয়েক মাস ধরে সত্যিই বিষণ্ণতায় ভুগছিলেন সুশান্ত। তবে ওষুধ ব্যবহার করতেন না তিনি। পুলিশকে এ তথ্যও দিয়েছেন রিয়া। হতাশার বৃত্ত থেকে বেরিয়ে আসতে যোগব্যায়াম ও মেডিটেশনকে বেছে নিয়েছিলেন প্রয়াত তারকা। ওষুধ নিতে প্রেমিককে রাজি করাতে অনেক চেষ্টার পরও ব্যর্থ হন তিনি। সুশান্তের সঙ্গে রিয়ার প্রেমের গুঞ্জন চলছিল অনেকদিন ধরে। তারা একসঙ্গে বিদেশে ঘুরে বেড়িয়েছেন। কিন্তু কখনও সম্পর্কের কথা প্রকাশ্যে মুখ ফুটে বলেননি কেউই। ১৮ জুন মুম্বাই পুলিশের সামনে সুশান্তের সঙ্গে মন দেওয়া-নেওয়ার কথা স্বীকার করে নিয়েছেন রিয়া। তিনি জানান, ভারতে অবরুদ্ধ অবস্থা (লকডাউন) থাকাকালে একই অ্যাপার্টমেন্টে ছিলেন তারা। কিন্তু একদিন ঝগড়ার কারণে রিয়া বেরিয়ে চলে যান। তবে এরপরও মোবাইল ফোনে কথা ও মেসেজ আদান-প্রদান হয়েছে তাদের। পুলিশকে রিয়া আরও জানান, তাকেই বিয়ে করার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন সুশান্ত। এ বছরের নভেম্বরে তাদের সাত পাকে বাঁধা পড়ার কথা ছিল। জীবনের নতুন ইনিংস শুরু করতে নতুন বাড়ি খুঁজছিলেন দু’জনে। বিয়ের আগে রুমি জাফরির পরিচালনায় একটি ও অন্য আরেকটি ছবিতে একসঙ্গে অভিনয়ের পরিকল্পনা ছিল সুশান্ত-রিয়ার। পুলিশকে এ তথ্যটিও জানাতে ভোলেননি সুশান্তের প্রেমিকা। সম্প্রতি রিয়ার বিরুদ্ধে সুশান্তের বাবার সরাসরি অভিযোগ দায়েরের মধ্য দিয়ে গুঞ্জনের বিষয়টি আরও গতি পেলো। কারণ, বলিউড বাতাসে প্রথম থেকেই ভাসছে- রিয়া চক্রবর্তীর অবহেলা আর অসম এক প্রেমের ঘটনাকে কেন্দ্র করেই সুশান্ত চক্রবর্তী অকালে ঝরে পড়লেন। সূত্র: জি নিউজ

করোনামুক্ত ঐশ্বরিয়ার আবেগঘন পোস্ট

বিনোদন বাজার ॥ জনপ্রিয় অভিনেত্রী ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন। সম্প্রতি তিনি ও তার মেয়ে আরাধ্য করোনামুক্ত হয়ে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরেছেন। মঙ্গলবার ফটো শেয়ারিং সাইট ইনস্টাগ্রামে ভক্তদের উদ্দেশ্যে একটি আবেগঘন পোস্ট করেছেন ঐশ্বরিয়া। তিনি লিখেছেন, ‘বাবা, অভিষেক, প্রিয় পরী এবং আমার জন্য আপনাদের প্রার্থনা, উদ্বেগ, শুভকামনা ও ভালোবাসার জন্য ধন্যবাদ। আবেগাপ্লুত হয়েছি ও চিরদিন ঋণী থাকব। ঈশ্বর আপনাদের মঙ্গল করুন। সবসময়ই আপনাদের জন্য নিখাদ, গভীর এবং অন্তরের অন্তস্থল থেকে আমার ভালোবাসা ও প্রার্থনা থাকবে। সুস্থ ও নিরাপদ থাকুন। সৃষ্টিকর্তা সহায় হোন। আপনাদের জন্যও ভালোবাসা।’ গত ১১ জুলাই করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর জানান অমিতাভ বচ্চন। ওই দিন রাতে অভিষেক বচ্চনও কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত হওয়ার খবর দেন। দুজনই মুম্বাইয়ের নানাবতি হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নেওয়া শুরু করেন। পরদিন কোভিড-১৯ টেস্টে পজিটিভ হন ঐশ্বরিয়া রাই ও আরাধ্য। শুরুতে বাড়িতে চিকিৎসা নিলেও কয়েকদিন আগে তাদের হাসপাতালে নেওয়া হয়। এরপর সোমবার সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরেন তারা। তবে অমিতাভ বচ্চন ও অভিষেক এখনো নানাবতি হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। মাইক্রোব্লগিং সাইট টুইটারে অভিষেক লেখেন, ‘তারা (ঐশ্বরিয়া ও আরাধ্য) এখন থেকে বাড়িতে থাকবে। বাবা ও আমি মেডিক্যাল স্টাফদের তত্ত্বাবধায়নে হাসপাতালে থাকব।’ এদিকে পুত্রবধূ ও নাতনির হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পাওয়ার পর অমিতাভ বচ্চন টুইটারে লিখেছেন, ‘“পিচ্চি ও বহুরানি হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরেছে, চোখের জল আটকাতে পারলাম না। ঈশ্বর, আপনার অসংখ্য কৃপা।’

অবশেষে বিয়ে করলেন সংগীতশিল্পী কর্নিয়া

বিনোদন বাজার ॥ বিয়ে করলেন পাওয়ার ভয়েস প্ল্যাটফর্ম থেকে উঠে আসা কণ্ঠশিল্পী জাকিয়া সুলতানা কর্নিয়া। পাত্র নাবিল সালাউদ্দিন। তিনি পেশায় মিউজিসিয়ান। চার বছর চুটিয়ে প্রেমের পর ২৭ মার্চ বিয়ের কথা থাকলেও করোনার কারণে ২৭ জুলাই তারা দুজনে বিয়ে করেছেন। কর্ণিয়া বলেন, দুই পরিবারের সম্মতিতে আমরা বিয়ের দিনক্ষণ চূড়ান্ত করেছিলাম। কিন্তু সে সময়ে করোনা কারণে সম্ভব হয়নি। তাই চার মাস পর পরিবারের মতামতে আমাদের বিয়ে হলো। পাওয়ার ভয়েস প্রতিযোগিতা থেকে উঠে আসেন কর্নিয়া। এরপর নিয়মিত গান প্রকাশ ও মঞ্চ মাতিয়ে চলেছেন। আর নাবিলের শুরুটা হয় ‘সাবকনসাস’ ব্যান্ডের মাধ্যমে। এসএস ব্যান্ডের প্রতিষ্ঠাতা তিনি। এর আগে কাজ করেছেন আর্ক, প্রমিথিউস সহ অনেক একক শিল্পীর সঙ্গে। নিজেদের পরিচয় প্রসঙ্গে গায়িকা বলেন, চার বছর ধরে আমরা একসঙ্গে কাজ করছি। সেখান থেকেই নিজের মধ্যে ঘনিষ্ঠতা ও ভালোলাগা। এরপর আমাদের বিষয়টি পরিবারকে জানাই। তাদের আয়োজনেই বিয়েটা করলাম। জানালেন, মধুচন্দ্রিমার জন্য দেশের বাইরে যাওয়ার পরিকল্পনা ছিল। তবে আপাতত তা হচ্ছে না। করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে তখন যেতে চান। তার আগে আয়োজন করতে চান বিবাহোত্তর সংবর্ধনা।

আধীরা রূপে দেখা দিলেন সঞ্জয়

বিনোদন বাজার ॥ বলিউড অভিনেতা সঞ্জয় দত্ত। ২৯ জুলাই তার জন্মদিন। বিশেষ এই দিনে প্রকাশ পেয়েছে এই অভিনেতার পরবর্তী সিনেমা ‘কেজিএফ: চ্যাপটার টু’র লুক। সিনেমায় সঞ্জয়ের চরিত্রের নাম আধীরা। এতে খল চরিত্রে দেখা যাবে তাকে। প্রকাশিত ছবিতে দেখা যায়, মাথায় চিকন বেণী করা চুল, মুখে ট্যাটু, কানে দুল এবং হাতে একটি তলোয়ার হাতে বসে আছেন সঞ্জয়। পরনে ভারি ধাতব পোশাক। তার মুখে কাঁচা-পাকা দাড়ি। মনে হচ্ছে, তিনি কোনো অন্ধকার ঘরে বসে আছেন। ফটো শেয়ারিং সাইট ইনস্টাগ্রামে আধীরার লুক প্রকাশ করে সঞ্জয় দত্ত লিখেছেন, ‘এই সিনেমায় কাজ করতে পেরে অত্যন্ত খুশি এবং এর চেয়ে ভালো জন্মদিনের উপহার আর হতে পারে না। প্রশান্ত নীল, কার্তিক গাওড়া, যশ, বিজয় কিরুগান্দুর, লিতিকা, প্রদীপসহ কেজিএফ টিমের সবাইকে ধন্যবাদ। বিশেষ করে আমার ভক্তদের ধন্যবাদ, যারা সবসময় আমাকে ভালোবাসা দিয়েছেন এবং সহযোগিতা করেছেন।’ গত বছর সঞ্জয়ের জন্মদিনেও আধীরা রূপে একটি ছবি প্রকাশ করা হয়। তবে সেই ছবিতে তার মুখ ঢাকা ছিল। ছবিটি প্রকাশ করে ‘কেজিএফ-চ্যাপটার টু’ সিনেমায় সঞ্জয়ের অভিনয়ের বিষয়ে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেওয়া হয়। ‘কেজিএফ: চ্যাপটার টু’ সিনেমায় নায়কের ভূমিকায় রয়েছেন যশ। জানা গেছে, সিনেমার ক্লাইম্যাক্স দৃশ্যে সঞ্জয়-যশের ফাইটিং দৃশ্য রয়েছে। এই সিনেমা পরিচালনা করছেন প্রশান্ত নীল। সঞ্জয়-যশ ছাড়াও এর বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করছেনÑ অচ্যুত কুমার,নাসের,অনন্ত নাগ, রাভিনা ট্যান্ডন প্রমুখ। এর আগে ২০১৮ সালে মুক্তি পায় ‘কেজিএফ: চ্যাপটার ওয়ান’। দর্শক-সমালোকদের প্রশংসা কুড়ানোর পাশাপাশি বক্স অফিসেও বাজিমাত করে এটি। বেশ কয়েকটি রেকর্ডও গড়ে সিনেমাটি।

সুশান্ত প্রসঙ্গে মুখ খুললেন মহেশ ভাট

বিনোদন বাজার ॥ বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর ঘটনায় মহেশ ভাটকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে মুম্বাই পুলিশ। এই অভিনেতার আত্মহত্যার পেছনে পেশাগত কোনো বিষয় রয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখছে মুম্বাই পুলিশ। ইতোমধ্যে তারা সঞ্জয় লীলা বানসালি, আদিত্য চোপড়া, রিয়া চক্রবর্তীসহ প্রায় ৩৭ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে। সোমবার মহেশ ভাটের জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়। ইন্ডিয়া টুডের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মহেশ ভাট জানিয়েছেন, ‘সড়ক-টু’ সিনেমার জন্য কখনোই সুশান্তকে প্রস্তাব দেওয়া হয়নি। বরং, এই নির্মাতার সঙ্গে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন ‘দিল বেচারা’ অভিনেতা। শুধু তাই নয়, ‘সড়ক-টু’ সিনেমায় তাকে নেওয়া যায় কিনা তা বিবেচনা করতে বলেছিলেন। মহেশ ভাট আরো জানান, সুশান্তের সঙ্গে তার মোট দুই বার সাক্ষাৎ হয়। প্রথমবার, ২০১৮ সালে সুশান্ত তার সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন। দ্বিতীয়বার, চলতি বছর ফেব্রুয়ারিতে এই অভিনেতা যখন অসুস্থ ছিলেন তাকে দেখতে তার বান্দ্রায় বাসায় গিয়েছিলেন মহেশ। এই নির্মাতা দাবি করেছেন, সুশান্তের সঙ্গে ইউটিউব চ্যানেল, মহেশ ভাটের লেখা বই ও সাহিত্যের অন্য বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়। কাজ নিয়ে তাদের কোনো আলোচনা হয়নি। গত ১৪ জুন নিজের ফ্ল্যাট থেকে সুশান্তের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পরবর্তী সময়ে ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনে বলা হয়, গলায় ফাঁসের কারণে দম বন্ধ হয়ে এই অভিনেতার মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া ফরেনসিক রিপোর্টেও অন্য কোনো ঘটনার প্রমাণ মেলেনি। তবে ভক্তদের দাবি, সুশান্তের মৃত্যুর পেছনে অন্য কোনো ঘটনা রয়েছে। তারা বিষয়টির যথাযথ তদন্তের দাবি জানিয়ে আসছেন। এ ছাড়া সুশান্তের প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তীর সঙ্গে মহেশ ভাটের ঘনিষ্ঠতা থাকায় অনেকেই এই নির্মাতার দিকে সন্দেহের আঙুল তুলেছেন।

চায়ের বিজ্ঞাপনের শুটিং করলেন ইমন-নাদিয়া মিম

বিনোদন বাজার ॥ চিত্রনায়ক ইমন। সিনেমাকে ঘিরেই আজকাল তার যত ব্যস্ততা। তবে তার শোবিজ যাত্রাটা হয়েছিলো মডেল হিসেবেই। বহু দর্শকপ্রিয় বিজ্ঞাপনে তাকে দেখা গেছে। তাই বিজ্ঞাপনের প্রতি তার বিশেষ দুর্বলতা। সুযোগ হলে আর পণ্য এবং আইডিয়া ভালো লাগলেই বিজ্ঞাপনে কাজ করেন ইমন। নতুন এক বিজ্ঞাপনের খবর দিতে গিয়ে এভাবেই বলছিলেন ইমন। গত ২৬ জুলাই প্রিয়াঙ্কা শুটিং স্পটে একটি চায়ের বিজ্ঞাপনের শুটিং করলেন এ অভিনেতা। এখানে তার সঙ্গে ছিলেন ছোট পর্দার আলোচিত মুখ নাদিয়া মিম। আসিফের পরিচালনায় এই টিভিসিটি প্রচারে আসবে শিগগিরই। ইমন বলেন, ‘সেফলি টি নামের একটি চায়ের বিজ্ঞাপনে কাজ করলাম। অনেকদিন পর আবারও মডেল হয়ে ক্যামেরার সামনে দাঁড়ালাম। চমৎকার একটি গল্প আছে। সেটটাও দারুণ ছিলো। সারা রাত জেগে কাজ শেষ করেছি। নাদিয়া মিম মিষ্টি একটা মেয়ে। খুব ভালো অভিনয় করে। এখানে আমরা নবদম্পতি হিসেবে হাজির হবো। একটা রোমান্টিক আমেজ দেখা যাবে বিজ্ঞাপনে৷ আশা করছি এটা প্রচারে এলে ভালো লাগবে সবার।’ প্রসঙ্গত, নায়ক ইমন বর্তমানে প্রস্তুতি নিচ্ছেন অনন্ত জলিলের প্রযোজনায় নতুন ছবিতে শুটিং শুরু করার৷ অন্যদিকে সৈকত নাসির পরিচালিত ‘আকবর’ নামের ছবিতেও নাম ভূমিকায় দেখা যাবে তাকে।

২ কোটি রুপি পারিশ্রমিক দাবি করছেন পূজা

বিনোদন বাজার ॥ ভারতের দক্ষিণী সিনেমার অভিনেত্রী পূজা হেগড়ে। হিন্দি ভাষার সিনেমাতেও এখন নিয়মিত অভিনয় করছেন তিনি। শোনা যাচ্ছে, পারিশ্রমিক বাড়িয়েছেন এই অভিনেত্রী। প্রতি সিনেমার জন্য দেড় কোটি রুপি পারিশ্রমিক নিতেন পূজা হেগড়ে। এমনকি আল্লু অর্জুনের সঙ্গে তার সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত ‘আলা বৈকুণ্ঠপুরামুলো’ সিনেমায় ১.৪০ কোটি রুপি নিয়েছেন তিনি। জানা গেছে, তার পরবর্তী সিনেমার জন্য ২ কোটি রুপি পারিশ্রমিক দাবি করেছেন পূজা। করোনার কারণে অনেক অভিনয়শিল্পী তাদের পারিশ্রমিক কমাচ্ছেন। কিন্তু এই সময় পূজার পারিশ্রমিক বাড়ানোর বিষয়টিতে অনেকেই অবাক হয়েছেন। পূজার পরবর্তী সিনেমা ‘রাধে শ্যাম’। এতে ‘বাহুবলি’ সিনেমাখ্যাত প্রভাসের সঙ্গে জুটি বেঁধে অভিনয় করছেন তিনি। শোনা যাচ্ছে, সিনেমাটিতে অভিনয়ের জন্য ১ কোটি রুপি পারিশ্রমিক নিয়েছেন এই অভিনেত্রী। করোনার কারণে রাধা কৃষ্ণ কুমার পরিচালিত সিনেমাটির শুটিং বর্তমানে বন্ধ রয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে পুনরায় শুটিং শুরুর পরিকল্পনা করছেন নির্মাতা। এছাড়া ‘মোস্ট এলিজিবল ব্যাচেলর’ সিনেমায় দেখা যাবে পূজাকে। সিনেমাটির নায়িকা চরিত্রের জন্য প্রায় একশ জনের অডিশন নেওয়া হয়। তবে শেষ পর্যন্ত পূজাকে চূড়ান্ত করেন নির্মাতারা। এতে অখিল আক্কিনেনির বিপরীতে অভিনয় করছেন তিনি। চলতি বছর অক্টোবরে সিনেমাটি মুক্তি কথা রয়েছে। তবে করোনার কারণে তারিখ পরিবর্তন হতে পারে।