আমলায় প্রতিবন্ধীদের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা

আমলা অফিস ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুরের আমলায় প্রতিবন্ধীদের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরষ্কার বিতরনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বুধবার দিনব্যাপি মিরপুর উপজেলার আমলা ইউনিয়নের অঞ্জনগাছী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে আলোর পথিক প্রতিবন্ধী সংস্থার আয়োজনে ও বাংলাদেশ এনজিও ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় এ ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। ক্রীড়া প্রতিযোগিতা শেষে বিকেলে অঞ্জনগাছী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে পুরষ্কার বিতরনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এতে আলোর পথিক প্রতিবন্ধী সংস্থার সভাপতি আব্দুল হালিমের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন আমলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম মালিথা। অনুষ্ঠানে আলোর পথিক সংস্থার উন্নয়ন কর্মী ময়েজ উদ্দিনের পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন আমলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি একলেমুর রেজা সাবান জোয়ার্দ্দার, বাংলাদেশ সুইমিং ফেডারেশনের সাবেক যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক আমিরুল ইসলাম, সদরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি রুহুল আমীন, অঞ্জনগাছী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গোলাম সরোয়ার নাসির, অঞ্জনগাছী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোজাম্মেল হক, আমলা ইউপি সদস্য আমানউল্লাহ আমান, বিশিষ্ট সমাজ সেবক নজরুল ইসলাম মন্ডল প্রমুখ। ক্রীড়া প্রতিযোগতায় ২০টি ইভেন্টে ৬০জন প্রতিবন্ধীদের মাঝে পুরষ্কার বিতরণ করেন অতিথিরা।

 

শেষের রোমাঞ্চে রিয়ালকে জয়বঞ্চিত করল পিএসজি

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ গোলপোস্টের নিচে দুর্ভেদ্য দেয়াল হয়ে ওঠা কেইলর নাভাসের বাধা ভেঙে জয়ের সম্ভাবনা জাগিয়েছিল রিয়াল মাদ্রিদ। তবে তাদের এক ভুলের সুযোগ কাজে লাগিয়ে ঘুরে দাঁড়ানো পিএসজি দুই মিনিট পর আদায় করে নিল আরেক গোল। শেষের নাটকীয়তায় মূল্যবান একটি পয়েন্ট নিশ্চিত করে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হলো প্যারিসের দলটি। সান্তিয়াগো বের্নাবেউয়ে মঙ্গলবার রাতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ‘এ’ গ্র“পের হাইভোল্টোজ ম্যাচটি ২-২ ড্র হয়েছে। করিম বেনজেমার জোড়া গোলের পর ব্যবধান কমান কিলিয়ান এমবাপে। খানিক পরই সমতা টানেন পাবলো সারাবিয়া। সেপ্টেম্বরে ফরাসি চ্যাম্পিয়নদের মাঠে ৩-০ গোলে হেরে ইউরোপ সেরার লড়াই শুরু করেছিল রিয়াল। ফিরতি লড়াইয়ে বল দখলের পাশাপাশি আক্রমণে আধিপত্য করলেও জয়ের দেখা পেল না তারা। তবে নকআউট পর্বের টিকেট নিশ্চিত হয়ে গেছে রেকর্ড চ্যাম্পিয়নদের। কয়েক সপ্তাহ জুড়ে দাপুটে ফুটবল উপহার দেওয়া রিয়ালকে এদিন শুরুতে ঠিক ছন্দে দেখা যায়নি। তবে সপ্তদশ মিনিটে প্রথম গোছালো আক্রমণেই গোল আদায় করে নেয় প্রতিযোগিতার সফলতম দলটি। গোলটির উৎস এ মৌসুমেই দলে আসা এদেন আজার। নিজেদের সীমানায় দুজনের মধ্যে দারুণভাবে ড্রিবল করে এগিয়ে গিয়ে ডান দিকে বল বাড়ান বেলজিয়ান ফরোয়ার্ড। দুই সতীর্থের পা ঘুরে ডি-বক্সে বল পেয়ে ইসকোর সাইড ফুট শট লাগে পোস্টে। আলগা বল অনায়াসে জালে পাঠান বেনজেমা। এগিয়ে গিয়ে যেন আত্মবিশ্বাসী হয়ে ওঠে রিয়াল। খেলতে থাকে চাপ ধরে রেখে। ছয় মিনিটের ব্যবধানে দুবার দূরপাল্লার শটে ভীতি ছড়ান টনি ক্রুস, ঝাঁপিয়ে পড়ে ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক কেইলর নাভাস। মাঝে একবার কিলিয়ান এমবাপের প্রচেষ্টা ঠেকিয়ে জাল অক্ষত রাখেন রিয়াল গোলরক্ষক থিবো কোর্তোয়া। বিরতির আগে মাউরো ইকার্দিকে ফাউল করে সরাসরি লাল কার্ড দেখেন কোর্তোয়া। ফাউলটি ডি-বক্সের মধ্যে কি না, দেখার জন্য রেফারি ভিএআরের সাহায্য নিলে ঘটনা নাটকীয় মোড় নেয়। আক্রমণে শুরুতে মাঝমাঠে মার্সেলোকে অহেতুক ধাক্কা মেরেছিলেন ইদ্রিসা গেয়ি, উল্টো ফ্রি-কিক পায় রিয়াল। আক্রমণের ধার বাড়াতে বিরতির পরপরই মিডফিল্ডার গেয়িকে বসিয়ে নেইমারকে নামায় পিএসজি। দ্বিতীয়ার্ধের ২৫ সেকেন্ডের মধ্যে ব্যবধান দ্বিগুণ হতে পারতো; তবে বেনজেমার আরেকটি শট রুখে দেন নাভাস। ১২ মিনিট পর আবারও নাভাস-নৈপুণ্যে স্কোরলাইন অপরিবর্তিত থাকে। এবার ইসকোর প্রচেষ্টা ঠেকিয়ে দেন তিনি। ৬৪তম মিনিটে তমা মুনিয়ের ট্যাকলে পায়ে ব্যথা পান আজার। মাঠে কিছুক্ষণ প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে দুই ফিজিওর কাঁধে ভর দিয়ে মাঠ ছাড়েন তিনি। বদলি নামেন গ্যারেথ বেল। ৭৯তম মিনিটে আরেকটি দারুণ আক্রমণে ব্যবধান দ্বিগুণ করে রিয়াল। বাঁ দিক থেকে মার্সেলোর দুর্দান্ত ক্রসে লাফিয়ে নেওয়া হেডে নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন বেনজেমা। মৌসুমে ফরাসি এই স্ট্রাইকারের মোট গোল হলো ১৪টি। দুই মিনিট পর রাফায়েল ভারানের ভুলে লড়াইয়ে ফেরে পিএসজি। সারাবিয়ার ক্রসে আপাত কোনো হুমকি ছিল না। তা ঠেকাতে ঝাঁপিয়ে ছিলেন কোর্তোয়া, কিন্তু আগমুহূর্তে বলে পা লাগিয়ে বসেন ডিফেন্ডার ভারানে। গোলরক্ষকের গায়ে লেগে ছুটে যাওয়া আলগা বল জালে ঠেলে দেন ফরাসি ফরোয়ার্ড এমবাপে। সে ভুলের ধাক্কা কাটিয়ে ওঠার আগেই দ্বিতীয় গোল হজম করে রিয়াল। ৮৩তম মিনিটে হুয়ান বের্নাতের ক্রস একজনের পায়ে লাগার পর আলগা বল পেয়ে নিচু হাফ-ভলিতে ঠিকানা খুঁজে নেন সারাবিয়া। বাকিটা সময় আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে আরও জমে ওঠে লড়াই। যোগ করা সময়ের শেষ মিনিটে ভাগ্যের ফেরে গোলবঞ্চিত হয় রিয়াল। বেলের দারুণ এক ফ্রি-কিক পোস্টে লাগলে দারুণ খেলেও পয়েন্ট হারানোর হতাশায় মাঠ ছাড়ে স্বাগতিকরা। পাঁচ ম্যাচে চার জয় ও এক ড্রয়ে পিএসজির পয়েন্ট ১৩। দুটি করে জয় ও ড্রয়ে ৮ পয়েন্ট নিয়ে গ্র“প রানার্সআপ রিয়াল। গ্র“পের অন্য ম্যাচে গালাতাসারাইয়ের মাঠে ১-১ ড্র করায় ক্লাব ব্র“জের পরের রাউন্ডে ওঠার আশা শেষ হয়ে গেছে, ৩ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছে তারা। গালাতাসারাইয়ের পয়েন্ট ২।

 

হেলমেট মাথায় দিয়ে বোলিং!

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ ব্যাট থেকে ছুটে আসা বল সজোরে লাগল বোলারের মাথায়, উড়ে গিয়ে পার হয়ে গেল সীমানা!  শুনতে বেশ নাটকীয় মনে হলেও অ্যান্ড্রু এলিসের জন্য ব্যাপারটা মোটেই সুখকর ছিল না। বোলার যে ছিলেন তিনিই! গত বছর ফোর্ড কাপের ওই অভিজ্ঞতা থেকে শিক্ষা নিয়ে নিউ জিল্যান্ডের এই অলরাউন্ডার এবার দারুণ সাবধানী। বল করছেন হেলমেট মাথায় দিয়ে! নিউ জিল্যান্ডের ঘরোয়া ওয়ানডে টুর্নামেন্টের তৃতীয় প্রিলিমিনারি ফাইনালে গত বছর মুখোমুখি হয়েছিল অকল্যান্ড ও এলিসের দল ক্যান্টারবুরি। সেই ম্যাচেই জিত রাভালের একটি জোরালো শট লাগে ফলো থ্রুতে থাকা এলিসের মাথায়। মাথায় ছোবল দিয়ে আরও প্রায় ৭০ মিটার উড়ে গিয়ে পড়ে সীমানার বাইরে। আঘাতটা প্রথমে গুরুতর মনে হলেও কনকাশন টেস্টে উতরে গিয়েছিলেন এলিস। পরে আরও ৬ ওভার বল করে নিয়েছিলেন দুই উইকেট, তার মধ্যে ছিল রাভালের উইকেটটিও। আঘাত পাবার পর ক্রিকেটারদের সুরক্ষার ব্যাপারে নিউ জিল্যান্ড ক্রিকেটকে (এনজেডসি) আরও তৎপরতা দেখানোর আহবান জানিয়েছিলেন নিউ জিল্যান্ডের হয়ে ১৫টি ওয়ানডে এবং পাঁচটি টি-টোয়েন্টি খেলা এই পেস বোলিং অলরাউন্ডার। টুর্নামেন্টে এবারের আসরে অবশ্য বোর্ডের তৎপরতার জন্য অপেক্ষা করেননি এলিস। অনেকটা হকি গোলকিপারদের হেলমেটের মতো বিশেষ এক হেলমেট পরে এই মৌসুমে করে চলেছেন বোলিং। যা সুরক্ষা দিচ্ছে তার মাথা, মুখম-লকে। টুর্নামেন্টে এখনও পর্যন্ত ৪ ম্যাচ খেলে ৮ উইকেট নিয়েছেন এলিস। ধরে নেওয়া যায়, হেলমেটের অনভ্যস্ততা কিংবা অস্বস্তি তার বোলিংয়ে খুব একটা প্রভাব ফেলছে না!

 

রান না পেয়ে ৩ কিলোমিটার দৌড়ালেন স্মিথ

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ ব্যাট হাতে সফল হলে নিজেই নিজেকে চকলেট উপহার দেন। সেক্ষেত্রে ব্যর্থতায় শাস্তির বিধানও তো থাকা উচিত! নিজের আদালতে কোনো ছাড় নেই স্টিভেন স্মিথের। ঠিকই নিজেকে দিয়েছেন শাস্তি! পাকিস্তানের বিপক্ষে ব্রিজবেন টেস্টে রান না পাওয়ায় দৌঁড়েছেন ৩ কিলোমিটার পথ! গ্যাবায় সিরিজের প্রথম টেস্টে দল ইনিংস ও ৫ রানের ব্যবধানে জিতলেও ব্যাট হাতে স্মিথ ছিলেন ব্যর্থ। দল বড় রান করলেও তিনি ৪ রান করে আউট হন ইয়াসির শাহর বলে। রোববার ম্যাচের চতুর্থ দিনেই অস্ট্রেলিয়া জিতে যাওয়ার পর মাঠ থেকে হোটেলে ফেরার টিম বাস ধরতে পারেননি স্মিথ। এ সময়ই তার মাথায় আসে নিজেকে শাস্তি দেওয়ার ভাবনা। শাস্তির মাত্রাটাও বেশ কঠোর। মাঠ থেকে টিম হোটেলে ফিরতে হবে দৌঁড়ে! যে ভাবনা, সেই কাজ। তিন কিলোমিটার পথ পুরোটাই দৌঁড়ান সময়ের অন্যতম সেরা এই ব্যাটসম্যান। মঙ্গলবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে স্মিথ জানান, নিজেকে শাস্তি দেওয়ার এই নিয়ম তার ক্ষেত্রে নতুন নয় মোটেই। “রান না পেলে আমি সবসময়ই নিজেকে শাস্তি দিই, ঠিক যেভাবে রান পেলে নিজেকে পুরস্কৃত করি। সেঞ্চুরি পেলে রাতে আমি নিজেকে একটা চকলেট বার উপহার দিই।” “রান না পেলে আমি এরকম দৌঁড়ে বা জিমে গিয়ে ঘাম ঝরিয়ে বা অন্য কোন উপায়ে নিজেকে কিছুটা শাস্তি দিই।” নিজের সাথে এই পরীক্ষায় পাস মার্ক কত, অকৃতকার্য হবার মানদন্ডটাই বা কি? প্রশ্ন ছিল স্মিথের কাছে। “সেঞ্চুরি করতে পারলে সেটা পাশ মার্ক। আর যদি আমার মনে হয় আমি নিজের সেরাটা দিতে পারিনি, তাহলে অকৃতকার্য।” এক বছর নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে অ্যাশেজ দিয়ে টেস্টে ফেরার পর অবশ্য ভালোভাবেই ‘পাশ মার্ক’ পেয়েছেন স্মিথ। অগাস্টে টেস্ট জার্সিতে ফেরার পর ব্রিজবেন টেস্টের আগে খেলা ৭ ইনিংসে ১১০.৫৭ গড়ে করেছেন ৭৭৪ রান।

 

স্মিথের খুব কাছে কোহলি

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ ইন্দোরের ব্যর্থতা পেছনে ফেলে কলকাতায় দিবা-রাত্রির টেস্টে আলো ছড়িয়েছিল বিরাট কোহলির ব্যাট। বাংলাদেশের বোলারদের দারুণভাবে সামলে ভারত অধিনায়ক তুলে নিয়েছিলেন ২৭তম টেস্ট সেঞ্চুরি। সেই ইনিংসে টেস্ট ব্যাটসম্যানদের র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষস্থানে থাকা স্টিভেন স্মিথের সাথে পয়েন্ট ব্যবধান অনেকটা কমিয়েছেন কোহলি। অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যানের চেয়ে পিছিয়ে আছেন কেবল ৩ পয়েন্টে। কলকাতা টেস্টে দলের একমাত্র ইনিংসে ১৩৬ রানের ইনিংসে কোহলির পয়েন্ট বেড়েছে ১৬। নতুন র‌্যাঙ্কিংয়ে তার পয়েন্ট ৯২৮। অন্যদিকে শীর্ষস্থান ধরে রাখলেও পাকিস্তানের বিপক্ষে ব্রিজবেন টেস্টে রান না পাওয়ায় ৬ পয়েন্ট হারিয়েছেন স্মিথ। তার বর্তমান পয়েন্ট ৯৩১। ব্রিজবেনে ক্যারিয়ার সর্বোচ্চ ১৮৫ রানের ইনিংস খেলেছিলেন আরেক অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যান মার্নাস লাবুশেন। ২১ ধাপ এগিয়ে তিনি উঠে এসেছেন ক্যারিয়ার সেরা ১৪তম অবস্থানে। ক্যারিয়ার সেরা অবস্থানে উঠে এসেছেন নিউ জিল্যান্ডের কিপার ব্যাটসম্যান বিজে ওয়াটলিংও। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্টে ডাবল সেঞ্চুরি করে ১২ ধাপ এগিয়ে উঠেছেন ১২ নম্বরে। কিউইদের বিপক্ষে ম্যাচের দুই ইনিংসে ৯১ ও ২৮ রান করে বেন স্টোকস প্রথমবারের মতো উঠে এসেছেন সেরা দশে। তিন ধাপ এগিয়ে তার অবস্থান নবম। এক ধাপ এগিয়েছেন ভারতীয় ওপেনার মায়াঙ্ক আগারওয়াল। প্রথম সেরা দশে উঠে আসা এই ব্যাটসম্যানের অবস্থান দশম। ব্রিজবেনে জয়ের ম্যাচে দলের একমাত্র ইনিংসে ১৫৪ রান এসেছিল ডেভিড ওয়ার্নারের ব্যাট থেকে। ছয় ধাপ এগিয়ে তিনি উঠে এসেছেন ১৭তম স্থানে। ভারত সফরে ব্যর্থতার ভিড়ে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে যা একটু সাফল্য এসেছে মুশফিকুর রহিমের ব্যাটে। ইন্দোরের পর কলকাতা টেস্টেও অভিজ্ঞ এই ব্যাটসম্যান পেয়েছেন ফিফটির দেখা। চার ধাপ এগিয়ে ২৬তম অবস্থানে উঠে এসেছেন তিনি। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচে ৮ উইকেট নেয়া কিউই পেসার নিল ওয়েগনার বোলারদের র‌্যাঙ্কিংয়ে পাঁচ ধাপ এগিয়ে উঠে এসেছেন ক্যারিয়ার সেরা তৃতীয় অবস্থানে। তার বর্তমান রেটিং পয়েন্ট ৮১৬। রিচার্ড হ্যাডলি (৯০৯) ও ট্রেন্ট বোল্টের (৮২৫) পর যা নিউ জিল্যান্ডের কোন বোলারের সর্বোচ্চ রেটিং। কলকাতা টেস্টে ৯ উইকেট পাওয়া ভারতীয় পেসার ইশান্ত শর্মা তিন ধাপ এগিয়ে আছেন ১৭তম স্থানে। তুলে নিয়েছেন ক্যারিয়ারের সর্বোচ্চ ৭১৬ পয়েন্ট। ক্যারিয়ার সেরা পয়েন্ট পেয়েছেন উমেশ যাদবও। ৬৭২ পয়েন্ট নিয়ে তার অবস্থান ২১তম,এগিয়েছেন এক ধাপ। নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে ইনিংস পরাজয়ের ম্যাচে ব্যাটিং ব্যর্থতায় পাঁচ বছরের মধ্যে প্রথমবারের মতো সেরা দশে জায়গা হারিয়েছেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক জো রুট। চার ধাপ পিছিয়ে নেমে গেছেন ১১তম স্থানে।

‘অনেক আগে থেকেই’ এমবাপের গুণমুগ্ধ জিদান

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে মঙ্গলবার রাতে মুখোমুখি হতে যাচ্ছে ইউরোপিয়ান জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদ ও ফ্রেঞ্চ চ্যাম্পিয়ন পিএসজি। গ্র“প পর্বের জমজমাট এই ম্যাচকে সামনে রেখে আবারও পিএসজি তারকা কিলিয়ান এমবাপের প্রতি নিজের মুগ্ধতা প্রকাশ করেছেন রিয়াল কোচ জিনেদিন জিদান। আগে থেকেই এমবাপে বলে আসছেন, একদিন প্রিয় ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে খেলতে চান তিনি। বিশ্বকাপ জয়ী ফরাসি তরুণ এই ফরোয়ার্ডের সামনে সুযোগ সান্তিয়াগো বের্নাবেউয়ে হতে যাওয়া ম্যাচে নিজেকে মেলে ধরে তাদের মন জয় করার। যদিও অনেক আগে থেকেই তার প্রেমে মজে আছেন রিয়াল কোচ। ম্যাচকে সামনে রেখে সংবাদ সম্মেলনে সেই কথাই মনে করিয়ে দিলেন জিদান। “আপনারা তো জানেনই যে অনেক আগে থেকেই আমি ওর সম্পর্কে জানিৃ ওর প্রতি আমার তীব্র একটা ভালো লাগা আছেই, মূলত মানুষ হিসেবে ও যেমন, সেটির কারণে। অনেক আগে সে এখানে এসেছিল ট্রায়ালের জন্য… তবে, সে এখন প্রতিপক্ষ, আপাতত তাই আর কিছু বলছি না।” গত কয়েক সপ্তাহে রিয়াল দারুণ ফুটবল খেলেছে। তবে পিএসজির বিপক্ষে এ দিন জিদানের দলের জন্য কাজটা সহজ নাও হতে পারে। প্রথম লেগে প্যারিস থেকে ৩-০ গোলে হেরে এসেছিল রিয়াল। এই ম্যাচকে তাই বাড়তি গুরুত্ব দিচ্ছেন জিদান। “এটিই মৌসুমের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ। খুব ভালো একটি দলের বিপক্ষে আমরা খেলতে যাচ্ছি এবং এজন্য আমাদের প্রস্তুত থাকতে হবে। মাথা খাটিয়ে ও হৃদয় দিয়ে খেলতে হবে আমাদের, উপহার দিতে হবে ভালো ফুটবল।” গত সেপ্টেম্বরে হওয়া সেই ম্যাচের দিকে ফিরে তাকিয়ে জিদান তুলে ধরলেন, এই সময় থেকে এখন দলের অনেক কিছুই পরিবর্তন হয়েছে। “আমরা বদলে গেছি এবং আগের ম্যাচের মতো হবে না। আমরা ভালো খেলে ফর্মের ধারাবাহিকতা রাখতে চাই। আমরা যে সত্যিই ঘুরে দাঁড়িয়েছি, সেই নিশ্চিত করার ম্যাচ এটি।” ‘এ’ গ্র“পে চার ম্যাচে শতভাগ জয়ে ১২ পয়েন্ট নিয়ে আগেই শেষ ষোলো নিশ্চিত করেছে পিএসজি। দুই জয় ও একটি করে ড্র ও হারে ৭ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে রিয়াল মাদ্রিদ।

‘ব্যর্থ হলেই গেইল সবচেয়ে বাজে ক্রিকেটার’

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ ব্যাটে রান নেই। দলও পাচ্ছে না জয়ের দেখা। ক্রিস গেইলের হতাশ হওয়াটা অস্বাভাবিক নয়। তবে জোযি স্টার্স দলকে বিদায় বলার আগে ক্রিস গেইল যা বললেন, তাতে ব্যর্থতার হতাশা ছাপিয়েও ফুটে উঠলো আবেগ, ক্ষোভ, অভিমান। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের এই কিংবদন্তী জানালেন, ব্যর্থ হলে অনেক ক্ষেত্রেই তাকে মনে করা হয় দলের বোঝা। দক্ষিণ আফ্রিকার ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট মযানজি সুপার লিগের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন জোযি স্টার্স এবারের আসরে এখনও পর্যন্ত পায়নি জয়ের দেখা। ৬ ম্যাচ খেলে ক্রিস গেইল করেছেন ১০১। এক ম্যাচেই করেছেন ৫৪, যেটি ছিল এবারের আসরে তার শেষ ম্যাচ। যিনি নিজেকে বলেন ‘ইউনিভার্স বস’, তার এমন পারফরম্যান্সে সমালোচনা হচ্ছে স্বাভাবিকভাবেই। এটিই ক্ষুব্ধ করেছে গেইলকে। ক্রিকেট দুনিয়া জুড়ে ফ্র্যাঞ্চাইজি টি-টোয়েন্টি লিগ খেলেছেন তিনি । ওয়েস্ট ইন্ডিজের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে সই না করে ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটে খেলেছেন বছরের পর বছর ধরে। ক্যারিয়ারের গোধূলীবেলায় সেই ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট নিয়েই তার কণ্ঠে শোনা গেল অভিমানের সুর। এবারের টুর্নামেন্টে ছয় ম্যাচের জন্য চুক্তিবদ্ধ হওয়া এই ব্যাটসম্যান বিদায়ের আগে বললেন, ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটে কখনোই প্রাপ্য সম্মান পাননি তিনি। “যখনই আমি টানা দুই-তিন ম্যাচে পারফর্ম করতে ব্যর্থ হই, তখন আমি দলের জন্য বোঝা হয়ে দাঁড়াই। আমি কেবল এই দলের কথা বলছি না। অনেক বছর ধরে ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট খেলার পর এটা আমার পর্যবেক্ষণ। দুই, তিন, চার ম্যাচে রান না করলেই ক্রিস গেইল দলের বোঝা। মনে হয় যেন এই একজনই দলে বোঝা।  কটু কথা শুনতে হয়। লোকে মনে রাখে না, দলের জন্য কী করেছি। আমি কোনো সম্মান পাই না।” “শুধু এই ফ্র্যাঞ্চাইজি নয়, সব মিলিয়েই বলছি আমি। আমি এমনকি ক্রিকেটারদের কথাও বলছি। ক্রিকেটার, ম্যানেজমেন্ট, বোর্ড সদস্যÑ ক্রিস গেইল কারও কাছ থেকেই কখনো সম্মান পায়নি। গেইল যখন ব্যর্থ হয়, তখনই যেন তার ক্যারিয়ার শেষ, সে আর চলে না, সে সবচেয়ে বাজে ক্রিকেটার, এসব শোনা যায়। আমি এসবকে জয় করেই খেলেছি। এসবই আমি আশা করি, এগুলো নিয়েই এগিয়ে গেছি।” গত আসরের চ্যাম্পিয়ন স্টার্স দল এবারের টুর্নামেন্টে এসেছে বেশ কিছু পরিবর্তন নিয়ে। দলের প্রধান কোচের দায়িত্ব পেয়েছেন সাবেক সহকারী কোচ ডোনোভান মিলার। গত আসরের অধিনায়ক ডেইন ভিলাসকে ডারবান হিট দলে ভেড়ানোয় এবার স্টার্সের নেতৃত্ব দিচ্ছেন টেম্বা বাভুমা। বর্তমান দলটির ব্যাপারেও গেইল নিজের অসন্তুষ্টির কথা জানিয়েছেন অকপটে। “এই দলটা চ্যাম্পিয়ন হবার মতো নয়। শিরোপা ধরে রাখার জন্য খেলতে নামা কোন দলের এভাবে পারফর্ম করা উচিত নয়। বেশিরভাগ সময়ই খেলোয়াড়দের মধ্যে একটা অনিশ্চয়তা কাজ করে। আমি জানি না এটা মাঠের বাইরের কোন সমস্যার জন্য হচ্ছে কি না। আমি জানি না সমস্যাটা কি, তবে ফ্র্যাঞ্চাইজি কর্তৃপক্ষকে এটা বের করতে হবে।” “গত বছর আমি খুব মজা করেছি। এবার আমার খেলতে আসার কোন পরিকল্পনা ছিল না। কিন্তু গত বছরের সেই আমেজ, ড্রেসিংরুমের আবহের কথা মাথায় রেখেই আমি খেলতে এসেছিলাম। অর্থের কোন ব্যাপার ছিল না এখানে, এ নিয়ে কোন আলোচনাও হয়নি। আমি শুধু এই দলের ড্রেসিংরুমে আরও কিছুটা মুহূর্ত কাটাতে চেয়েছিলাম। ”

ইডেন টেস্টে টাইগারদের ভরাডুবি নিয়ে যা বললেন কোহলি

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ ইডেন টেস্টে ভরাডুবি হলো টাইগারদের। ইতিহাস রচনা করল ভারত। এ যেন ইন্দোরের প্রতিচ্ছবিটাই দেখা গেল। এবারও ইনিংস ব্যবধানে হার এড়াতে পারেননি মুমিনুলরা। শুধু রানের ব্যবধানটাই যা কমাতে পেরেছেন তারা। আড়াই দিনে শেষ হওয়া পিঙ্ক টেস্টে বাংলাদেশ দলের অর্জন মুশফিকের ফিফটিই। সঙ্গে বোনাস চার ইনজুরি। কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে গোলাপি বলের ডে-নাইট টেস্টে ইনিংস ও ৪৬ রানে বাংলাদেশের অসহায় আত্মসমর্পণ দেখল বিশ্ব। এদিকে একতরফাভাবে টেস্ট সিরিজ জয়ের উৎসবে মেতেছে ভারত। টেস্ট র্যাং কিয়ে ১-এ থাকা দলের সঙ্গে বাংলাদেশ দলের ভরাডুবির বিষয়ে প্রশ্ন করা হয়েছিল ভারত দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে। এর ব্যাখ্যায় কোহলি প্রথমেই জানান, মুসফিক-মুমিনুলদের মেধা ও যোগ্যতা নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই তার। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ দলের সবচেয়ে অভিজ্ঞ দুই ক্রিকেটার সাকিব ও তামিম এ সিরিজে ছিলেন না। তাদের অভাব বোধ করেছে দলটি। কারণ মুশফিক ও মাহমুদউল্লাহর মতো শুধু দুজন অভিজ্ঞ ক্রিকেটার দিয়ে আপনি দলের কাছ থেকে খুব বেশি কিছু প্রত্যাশা করতে পারেন না। এ ছাড়া দলের বাকি সব ক্রিকেটার তরুণ, তারা এখান থেকে শুধুই অভিজ্ঞতা নিয়েছে।’ টাইগারদের খারাপ খেলার যে আরেকটি বড় কারণ চিহ্নিত করলেন কোহলি তা হচ্ছে, বাংলাদেশ দলের কম টেস্ট খেলা। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ যত বেশি টেস্ট খেলবে ততই অভিজ্ঞ হবে। হুট করেই টেস্ট খেলা যায় না। এতে ফল আসে না। দুটি টেস্ট খেলার দেড় বছর পর ফের টেস্ট খেলতে নামলে আপনি কখনও বুঝতে পারবেন না মাঠের লড়াইয়ে চাপ কী করে মোকাবেলা করতে হয়। টেস্ট খেলার পরিমাণ আরও বাড়াতে হবে মুশফিকদের।’ টিম ইন্ডিয়ার ক্যাপ্টেন বলেন, ‘বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের দক্ষতা রয়েছে অনেক, কিন্তু শুধু দক্ষতা দিয়েই হচ্ছে না। তাদের ক্রিকেটের দীর্ঘ সংস্করণ টেস্টকে আরও বেশি গুরুত্ব দিতে হবে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বেশ ভালো পারফরম করছে বাংলাদেশ। নিজেদের যোগ্যতার প্রমাণ দিচ্ছে তারা। তবে টেস্টে আরও বেশি মনোযোগী হতে হবে তাদের।’ শুধু খেলোয়াড়রাই নয়, টেস্ট খেলার বিষয়টি নিয়ে ভাবতে হবে ক্রিকেট বোর্ডকেও। এমনটিই জানালেন বিরাট কোহলি। তিনি বলেন, ‘টেস্ট ক্রিকেটের উন্নতিতে বড় ভূমিকা রাখতে পারে দেশটির ক্রিকেট বোর্ড। ক্রিকেটারদের অর্থনৈতিক অবকাঠামো আরও দৃঢ় করতে হবে তাদের। ভারত দলে অধিনায়ক বলেন, ‘এখন সব দেশেই টাকার জন্য ক্রিকেটাররা টি-টোয়েন্টির দিকে বেশি ঝুঁকছে। টি-টোয়েন্টিতে চার ওভার বোলিং করে ১০ গুণ বেশি আয় করা যায়। তাই টেস্ট ক্রিকেটাররা আর্থিক নিরাপত্তার নিশ্চয়তা না পেলে উৎসাহ হারিয়ে ফেলে। এ বিষয়টি বেশ গুরুত্বপূর্ণ দিয়ে অনুধাবন করতে হবে বোর্ডকে। এটি হলেই আপনি টেস্ট ক্রিকেটে সামনে এগিয়ে যেতে পারবেন।’

 

শ্বাসরুদ্ধকর লড়াইয়ে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে রুখে দিল শেফিল্ড

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ মৌসুম জুড়ে হোঁচট খাওয়া ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড হারের শঙ্কায় পড়েছিল আবারও। সেখান থেকে দুর্দান্তভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে সাত মিনিটের মধ্যে তিন গোল করে উল্টো জয়ের সম্ভাবনা জাগিয়েছিল তারা। তবে বারবার রং বদলের ম্যাচে শেষ সময়ের গোলে তাদের মুঠো থেকে জয় ছিনিয়ে নেয় উজ্জীবিত শেফিল্ড ইউনাইটেড। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে রোববার প্রতিপক্ষের মাঠ থেকে ৩-৩ ড্র করে ফেরে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ছয় গোলের পাঁচটিই হয় দ্বিতীয়ার্ধে। এই নিয়ে তিন বড় দলের বিপক্ষে পয়েন্ট পেল এক দশক পর প্রিমিয়ার লিগে উঠে আসা শেফিল্ড। চেলসিকে তাদেরই মাঠে ২-২ গোলে রুখে দেওয়া দলটি অক্টোবরে আর্সেনালকে ১-০ ব্যবধানে হারিয়েছিল। মৌসুমের শুরু থেকে ভীষণ অধারাবাহিক ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ম্যাচের উনবিংশ মিনিটে পিছিয়ে পড়ে। সতীর্থের শট গোলরক্ষক দাভিদ দে হেয়া ফেরানোর পর আলগা বল জালে পাঠান ইংলিশ মিডফিল্ডার জন ফ্লেক। দ্বিতীয়ার্ধের সপ্তম মিনিটে দ্বিতীয় গোল হজম করে সুলশারের দল। ২৫ গজ দূর থেকে জোরালো নিচু শটে ঠিকানা খুঁজে নেন ফরাসি ফরোয়ার্ড লিস মুসে। আরও কয়েকটি ভালো আক্রমণ করেছিল শেফিল্ড; তবে ব্যবধান বাড়াতে পারেনি তারা। এরপরই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের দুর্দান্ত ঘুরে দাঁড়ানোর গল্প। সাত মিনিটের মধ্যে তিন গোল করে এগিয়ে যায় প্রতিযোগিতার সফলতম দলটি। ৭২তম মিনিটে ডান দিক থেকে সতীর্থের বাড়ানো ক্রস প্রতিপক্ষের হেডের পর ফাঁকায় পেয়ে যান ব্র্যান্ডন উইলিয়ামস। জোরালো হাফ-ভলিতে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন ১৯ বছর বয়সী এই ইংলিশ ডিফেন্ডার। পাঁচ মিনিট পর মার্কাস র‌্যাশফোর্ডের দারুণ ক্রস গোলমুখে পেয়ে স্লাইড শটে বল জালে পাঠান খানিক আগেই বদলি নামা ১৮ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড ম্যাসন গ্রিনউড। আর ৭৯তম মিনিটে বাঁ দিক দিয়ে দারুণ গোছালো এক আক্রমণে এগিয়ে যায় ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। মার্সিয়ালের সঙ্গে বল দেওয়া নেওয়া করে ড্যানিয়েল জেমসের কাটব্যাক পেয়ে বাঁ পায়ের শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন ইংলিশ ফরোয়ার্ড র‌্যাশফোর্ড। ওই গোলে জেগে উঠেছিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের জয়ের আশা। তবে নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটে জটলার মধ্যে বল পেয়ে জালে পাঠিয়ে মূল্যবান ১ পয়েন্ট নিশ্চিত করেন শেফিল্ডের ফরোয়ার্ড ম্যাকবার্নি। ১৩ ম্যাচে চার জয় ও ছয় ড্রয়ে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে ষষ্ঠ স্থানে উঠেছে শেফিল্ড ইউনাইটেড। ১ পয়েন্ট কম নিয়ে নবম স্থানে আছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। শীর্ষে থাকা লিভারপুলের পয়েন্ট ৩৭। ২৯ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে লেস্টার সিটি। তিনে থাকা ম্যানচেস্টার সিটির পয়েন্ট ২৮। ২৬ পয়েন্ট নিয়ে চার নম্বরে আছে চেলসি। পাঁচ নম্বরে থাকা উলভারহ্যাম্পটন ওয়ানডারার্সের পয়েন্ট ১৯। শেফিল্ডের সমান ১৮ পয়েন্ট বার্নলি ও আর্সেনালেরও। গোল ব্যবধানে পিছিয়ে যথাক্রমে সাত ও আট নম্বরে আছে দল দুটি।

 

‘বর্ণবাদের শিকার’ আর্চার

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে সদ্য শেষ হওয়া টেস্টে ‘বর্ণবাদের শিকার’ হয়েছিলেন বলে জানিয়েছেন ইংল্যান্ডের ফাস্ট বোলার জফরা আর্চার। দেশের বাইরে প্রথম টেস্ট খেলা ২৪ বছর বয়সী পেসার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জানান, সোমবার বে ওভালে তার উদ্দেশে ‘এক জন’ এমন মন্তব্য করেন। মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে ম্যাচটি ইনিংস ও ৬৫ রানে হারে ইংলিশরা। “দলের জন্য লড়াই করার সময় অপমানজনক বর্ণবাদী মন্তব্য শুনে কিছুটা বিরক্ত বোধ করছিলাম। সপ্তাহ জুড়ে দর্শকরা ছিল অসাধারণ কেবল ওই একজন বাদে। বার্মি-আর্মিরা বরাবরের মত ভালো ছিল।” এজন্য আর্চারের কাছে ক্ষমা চাওয়া হবে বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে নিউ জিল্যান্ড ক্রিকেট। তবে এখনও ওই ব্যক্তিকে সনাক্ত করা যায়নি বলেও জানিয়েছে বোর্ডটি। ম্যাচে দুই ইনিংসে ৩৪ রান করার পাশাপাশি একটি উইকেট নেন বার্বাডোজে জন্ম নেওয়া আর্চার।

 

ওয়েগনারের তোপে ইনিংস ব্যবধানে হার ইংল্যান্ডের

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ শেষ দিনে ম্যাচ বাঁচাতে কঠিন লড়াই করতে হতো জো রুট-জস বাটলারদের। তবে নিল ওয়েগনারের দুরন্ত বোলিংয়ের সামনে সেভাবে দাঁড়াতে পারলেন না কোনো ইংলিশ ব্যাটসম্যান। চা বিরতির পর সফরকারীদের গুটিয়ে দিয়ে মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্টে ইনিংস ও ৬৫ রানে জয় তুলে নিল নিউ জিল্যান্ড। দ্বিতীয় ইনিংসে ৩ উইকেটে ৫৫ রান নিয়ে সোমবার মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে পঞ্চম দিন শুরু করে ইংল্যান্ড। সকালে সাবধানী শুরুর পর বিদায় নেন রুট। ৫১ বলে ১১ রান করে কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমের বলে টম ল্যাথামের হাতে ধরা পড়েন ইংলিশ অধিনায়ক। প্রথম সেশনের বাকিটা সময়ে আর কোনো বিপদ ঘটতে দেননি জো ডেনলি ও বেন স্টোকস। লাঞ্চের পর টিম সাউদির অফ-স্ট্যাম্পের বাইরের বল উইকেটে টেনে এনে বোল্ড হয়ে যান স্টোকস। এরপর পাঁচ ওভারের মধ্যে তিন উইকেট তুলে নিয়ে ইংল্যান্ডের কাজ প্রায় অসম্ভব করে তোলেন ওয়েগনার। সর্বোচ্চ ৩৫ রান করা ডেনলিকে ফেরান রিভিউ নিয়ে। নিজের পরের ওভারে অলি পোপকেও ফিরিয়ে দেন বাঁহাতি এই পেসার। রানের খাতাই খুলতে পারেননি কিপার-ব্যাটসম্যান জস বাটলার।

নবম উইকেটে ৫৯ রানের জুটিতে প্রতিরোধ গড়েন স্যাম কারান ও জফরা আর্চার। ৩০ রান করা আর্চারকে ফিরিয়ে এই জুটিও ভাঙেন ওয়েগনার। পরের বলেই স্টুয়ার্ট ব্রডকে তুলে নিয়ে ইংলিশদের গুটিয়ে দেন টেস্টে অষ্টমবারের মতো ৫ উইকেট নেওয়া এই পেসার। এই ম্যাচে ৪৪ রানে ৫ উইকেট নিয়ে ওয়েগনারই স্বাগতিকদের সেরা বোলার। ৫৩ রানে ৩ উইকেট নেন স্যান্টনার। আর রেকর্ড গড়া ডাবল সেঞ্চুরিতে ম্যাচ সেরা হয়েছেন কিউই কিপার-ব্যাটসম্যান বিজে ওয়াটলিং। ২৮ নভেম্বর হ্যামিল্টনে শুরু হবে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট। সংক্ষিপ্ত স্কোর: ইংল্যান্ড ১ম ইনিংস: ৩৫৩। নিউজিল্যান্ড ১ম ইনিংস: ৬১৫/৯ ডি.। ইংল্যান্ড ২য় ইনিংস: (চতুর্থ দিন ৫৫/৩) ৯৬.২ ওভারে ১৯৭/১০ (বার্নস ৩১, সিবলি ১২, ডেনলি ৩৫, লিচ ০, রুট ১১, স্টোকস ২৮, পোপ ৬, বাটলাস ০, কারান ২৯*, আর্চার ৩০, ব্রড ০; সাউদি ২০-৪-৬০-১, বোল্ট ৬-৪-৬-০, ডি গ্র্যান্ডহোম ১০-৩-১৫-১, স্যান্টনার ৪০-১৯-৫৩-৩, ওয়েগনার ১৯.২-৬-৪৪-৫, উইলিয়ামসন ১-০-৬-০)। ফল: নিউ জিল্যান্ড ইনিংস ও ৬৫ রানে জয়ী। ম্যাচ সেরা : বিজে ওয়াটলিং।

সোসিয়েদাদকে হারিয়ে জয়ের ধারায় রিয়াল

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ শুরুতেই অধিনায়ক সের্হিও রামোসের ভুলে গোল হজম করল রিয়াল মাদ্রিদ। বিরতির আগে সমতা আনলেন ছন্দে থাকা করিম বেনজেমা। দ্বিতীয়ার্ধে ফেদেরিকো ভালভেরদে ও লুকা মদ্রিচের গোলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ল জিনেদিন জিদানের দল। লা লিগায় শনিবার সান্তিয়াগো বের্নাবেউয়ে রিয়াল সোসিয়েদাদের বিপক্ষে ৩-১ গোলে জিতেছে রিয়াল। ঘরের মাঠে গত মৌসুমের লিগ ম্যাচে জানুয়ারিতে সোসিয়েদাদের কাছে ২-০ গোলে হেরেছিল মাদ্রিদের দলটি। দ্বিতীয় মিনিটেই সফরকারীদের এগিয়ে নেন উইলিয়ান জোসে। গোলরক্ষক থিবো কোর্তোয়ার উদ্দেশ্যে বাড়ানো ব্যাকপাস ধরে সহজেই বল জালে জড়ান ব্রাজিলিয়ান এই ফরোয়ার্ড। ৩৭তম মিনিটে স্বাগতিকদের সমতায় ফেরান বেনজেমা। মদ্রিচের ফ্রি-কিক থেকে পাওয়া বল বুক দিয়ে ঠেলে জালে পাঠান ফরাসি এই ফরোয়ার্ড। আসরে এটি তার দশম গোল। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই রিয়ালকে এগিয়ে নেন ভালভেরদে। ডি-বক্সের ঠিক বাইরে থেকে উরুগুয়ের এই মিডফিল্ডারের নেওয়া জোরালো শট প্রতিপক্ষের এক ডিফেন্ডারের গায়ে লেগে দিক পালটে জালে জড়ায়। ৭৪তম মিনিটে বেনজেমার হেড পাস পেয়ে ডি-বক্সের ভেতর থেকে দারুণ এক ভলিতে লক্ষ্যভেদ করেন মদ্রিচ। ১৩ ম্যাচে আট জয় ও চার ড্রয়ে ২৮ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে রিয়াল। সমান পয়েন্ট নিয়ে গোল পার্থক্যে এগিয়ে শীর্ষে দিনের আরেক ম্যাচে লেগানেসকে ২-১ গোলে হারানো বার্সেলোনা।

 

দেশের বাইরে খেলা শিখতে হবে বাংলাদেশকে ঃ রবি শাস্ত্রি

ঢাকা অফিস ॥ বাংলাদেশের সাম্প্রতিক টেস্ট পারফরম্যান্স ভয়াবহ। তবু দেশের মাটিতে তাদেরকে শক্তিশালী দল বলে মনে করেন রবি শাস্ত্রি। ভারতীয় কোচের মতে, দেশের বাইরে ভালো খেলা শিখতে হবে বাংলাদেশকে। এজন্য ম্যাচ খেলতে হবে আরও বেশি। আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়শিপে বাংলাদেশের শুরুটা হয়েছে দুঃস্বপ্নের মতো। ভারতের বিপক্ষে দুই টেস্টের একটিও নিতে পারেনি চতুর্থ দিনে। দুটিতেই হার এসেছে ইনিংস ব্যবধানে। এই সিরিজের আগে সবশেষ টেস্টে দেশের মাটিতেই নবীন টেস্ট দল আফগানিস্তানের কাছে ২২৪ রানে হেরেছিল বাংলাদেশ। বছরের শুরুতে নিউজিল্যান্ড সফরে দুটি টেস্টেও তারা হেরেছিল ইনিংস ব্যবধানে। কলকাতা টেস্টের তৃতীয় দিনের খেলা শুরুর আগে বাংলাদেশের এই দল ও ক্রিকেটারদের একরকম ধুয়ে দেন সুনীল গাভাস্কার। প্রশ্ন তোলেন ক্রিকেটারদের নিবেদন ও তাড়না নিয়ে। তবে ভারতীয় কোচের কণ্ঠে ততটা তীব্র সমালোচনা নেই। ম্যাচ শেষে টিভির আলোচনায় শাস্ত্রি বরং বললেন, আরও অনেক ম্যাচ খেলার সুযোগ দিতে হবে বাংলাদেশকে। দেশের বাইরে ভালো করতে পেস আক্রমণ শক্তিশালী করার পরামর্শও দিলেন সাবেক এই স্পিনিং অলরাউন্ডার। “বাংলাদেশকে আরও ম্যাচ খেলতে হবে। দেশের মাঠে ওরা অনেক শক্তিশালী। তবে দেশের বাইরে ভালো করা শিখতে হবে ওদের। “এখানে ওরা সাকিব ও তামিমের মতো দুজন ক্রিকেটারকে পায়নি। মুশফিক বেশ লড়াই করেছে। বাংলাদেশকে আরও ম্যাচ খেলার সুযোগ দেওয়া উচিত, তাহলে তারা উন্নতি করবে। ওদের পেস আক্রমণ আরও শক্তিশালী করে তুলতে হবে, তাহলে দেশের বাইরে ভালো করবে এবং আরও প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবে।”

 

২২

নাটকীয় জয়ে কোপা

লিবের্তাদোরেস চ্যাম্পিয়ন ফ্লামেঙ্গো

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ শেষ বাঁশি বাজতে আর মিনিট কয়েক বাকি। রিভার প্লেটের সমর্থকরা তখন আগাম উৎসবের আমেজে। এমন সময় গাব্রিয়েল বারবোসার গোল! যোগ করা সময়ে আরও এক গোল করলেন ‘গাবিগোল’ নামে পরিচিত ব্রাজিলিয়ান এই ফরোয়ার্ড। রোমাঞ্চে ঠাসা লড়াইয়ে আর্জেন্টিনার ক্লাবকে হারিয়ে কোপা লিবের্তাদোরেস চ্যাম্পিয়ন হলো ব্রাজিলের দল ফ্লামেঙ্গো। দক্ষিণ আমেরিকার ক্লাব ফুটবলের শীর্ষ প্রতিযোগিতার ফাইনালে শনিবার ২-১ গোলে জিতেছে ফ্লামেঙ্গো। ১৯৮১ সালের পর প্রথম ও সব মিলে দ্বিতীয়বারের মতো লাতিন শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট উঠল ফ্লামেঙ্গোর মাথায়। আগামী ডিসেম্বরে কাতারে হতে যাওয়া ক্লাব বিশ্বকাপে দক্ষিণ আমেরিকার প্রতিনিধিত্ব করবে তারা। টানা ২৬ ম্যাচ অপরাজিত থেকে মাঠে নামা ফ্লামেঙ্গো চতুর্দশ মিনিটে গোল খেয়ে বসে। রাফায়েল সান্তোসের গোলে এগিয়ে যায় প্রতিযোগিতার চার বারের চ্যাম্পিয়ন রিভার প্লেট। নির্ধারিত সময়ের এক মিনিট আগ পর্যন্ত ব্যবধান ধরে রাখে ২০১৮ সালের চ্যাম্পিয়নরা। এরপরই ভোজবাতির মত পাল্টে যায় ম্যাচের চিত্র। কাছ থেকে আলতো টোকায় প্রতিপক্ষকে স্তব্ধ করে দেন বারবোসা। আর যোগ করা সময়ে তার ১৫ গজ দূর থেকে নেওয়া শটে উৎসবে মাতে ফ্লামেঙ্গো। শেষ বাঁশি বাজার কয়েক সেকেন্ড আগে বিবাদে জড়িয়ে সরাসরি লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন বারবোসা ও রিভার প্লেটের এসেকুয়েল পালাসিওস। প্রতিযোগিতার ৬০ বছরের ইতিহাসে এই প্রথম নিরপেক্ষ ভেন্যুতে এক লেগের ফাইনাল হলো। গতবার রিভার প্লেট ও বোকা জুনিয়র্সের মধ্যকার শিরোপা লড়াইয়ের দ্বিতীয় লেগ ঘিরে তুমুল উত্তেজনা সহিংস রূপ নিলে ম্যাচটি মাদ্রিদে সরিয়ে নিতে বাধ্য হয়েছিল কর্তৃপক্ষ।

গোলাপি টেস্টে বাংলাদেশকে হারিয়ে ভারতের বিশ্বরেকর্ড

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ দ্বিতীয় ইনিংসে উমেশ যাদবের ৫ ও ইশান্ত শর্মার ৪ উইকেটের সুবাদে বাংলাদেশের বিপক্ষে নিজেদের প্রথম গোলাপি বলের টেস্ট এক ইনিংস এবং ৪৬ রানে জিতল ভারত। এতে ২-০ ব্যবধানে সিরিজও জিতল তারা। এ নিয়ে পরপর ৪টি টেস্ট ইনিংস ব্যবধানে জিতে বিশ্ব ক্রিকেটে নতুন রেকর্ড গড়লেন বিরাট কোহলি ব্রিগেড। একই সঙ্গে টানা ৭টি টেস্ট জিতে কিংবদন্তি মহেন্দ্র সিং ধোনির রেকর্ড ভাঙলেন অধিনায়ক বিরাট। ঐতিহ্যবাহী ইডেন গার্ডেন্সে ঐতিহাসিক গোলাপি বলের টেস্ট শুরু হয় রাজকীয় ঢঙে। টেস্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত হন বাংলাদেশ প্রধামনমন্ত্রী শেখ হাসিনা, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলি। হাজির ছিলেন ভারতীয় ক্রিকেটের মাস্টার ব¬াস্টার শচীন টেন্ডুলকার, রাহুল দ্রাবিড়, ভিভিএস লক্ষ্মণ, হরভজন সিং, অনিল কুম্বলেরা। উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ-ভারতের ক্রিকেটের রথী-মহারথীরা। ম্যাচ ঘিরে আগ্রহ ও উন্মাদনা ছিল তুঙ্গে। নিমিষে টেস্টের প্রথম চার দিনের টিকিটও শেষ হয়ে গিয়েছিল। গোটা কলকাতা সাজে গোলাপি রঙে। তাতে বাড়তি মাত্রা যোগ করে দুই দেশের সেলেব্রেটিদের বর্ণিল পদচারণা। দুই দলের প্রথম গোলাপি বলের টেস্টে তুমুল লড়াই আশা করেন ক্রিকেটপ্রেমীরা। তবে তাতে পানি ঢেলে তৃতীয় দিনের প্রথম ঘণ্টায় ১৯৫ রানে গুটিয়ে গেল বাংলাদেশ। পেস সহায়ক উইকেটে টসে জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় টাইগাররা। বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস কার্যত এক হাতে শেষ করে দেন ভারতীয় পেসার ইশান্ত। প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেট নেন তিনি। ৩ উইকেট নেন উমেশ। ১০৬ রানে শেষ হয়ে যায় সফরকারীদের প্রথম ইনিংস। জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা খারাপ হয় ভারতের। তবে অধিনায়ক বিরাট কোহলির ইতিহাস গড়া ১৩৬, চেতেশ্বর পূজারার ৫৫ ও অজিঙ্ক রাহানের ৫১ রানে প্রথম ইনিংসে ৯ উইকেটে ৩৪৭ তোলেন মেন ইন ব¬ুরা। এতে ২৪১ রানের লিড নেন তারা। জবাবে দ্বিতীয় ইনিংসে মুশফিকুর রহিম (৭৪ রান) ছাড়া ভারতীয় বোলারদের সামনে কোনো বাংলাদেশি ব্যাটসম্যান দাঁড়াতে পারেননি। দলের আরেক অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান মাহমুদউল্লাহ ৩৯ রান করে রিটায়ার্ড হার্ট হন। ভারতের প্রথম গোলাপি বলের টেস্টে মোট ৯ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা হয়েছেন ইশান্ত। সব মিলিয়ে গোটা সিরিজে দুর্দান্ত পারফরম সিরিজসেরাও হয়েছেন তিনি।

সেই পাকিস্তানের কাছেই শিরোপার স্বপ্নভঙ্গ বাংলাদেশের

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ এশিয়া কাপে আবারও সেই পাকিস্তানের বিপক্ষে শিরোপার স্বপ্নভঙ্গ বাংলাদেশের। ২০১২ সালের এশিয়া কাপে মাত্র দুই রানের জন্য জাতীয় দল হেরে গেলেও আশা ছিল অনূর্ধ্ব-২৩ দল ইমার্জিং এশিয়া কাপের শিরোপা জিতবে। কিন্তু সেই পাকিস্তানের কাছেই সেই মিরপুরের শেরেবাংলায় ৭৭ রানে হেরে শিরোপা জয়ের স্বপ্ন ভেস্তে যায়। শনিবার মিরপুরে টস জিতে প্রথমে বোলিং করে বাংলাদেশ। আগে ব্যাটিংয়ে নেমে রোহেল নাজিরের সেঞ্চুরিতে ৬ উইকেটে ৩০১ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়ে পাকিস্তান। দলের হয়ে ১১১ বলে ১২ চার ও ৩ ছক্কায় সর্বোচ্চ ১১৩ রান করেন নাজির। এ ছাড়া ৬২ রান করেন ইমরান রফিক। ৪২ রান করেন অধিনায়ক সৌদ শাকিল। বাংলাদেশ ইমার্জিং দলের হয়ে ৩ উইকেট নেন সুমন খান। দুই উইকেট নেন হাসান মাহমুদ। টার্গেট তাড়া করতে নেমে পাকিস্তান জাতীয় দলের তরুণ তারকা পেসার মোহাম্মদ হাসনাইনের গতির মুখে পড়ে ২২৪ রানে অলআউট হয় বাংলাদেশ। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৯ রান করেন আফিফ হোসেন। ৪৬ রান করেন অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। এ ছাড়া ৪২ রান করেন মেহেদি হাসান। পাকিস্তান ইমার্জিং দলের হয়ে হাসনাইন শিকার করেন ৩ উইকেট। এছাড়া দুটি করে উইকেট নেন খুশদিল শাহ ও সাইফ বাদর।

ইকার্দি-দি মারিয়ার গোলে পিএসজির জয়

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ লিগ ওয়ানে মাউরো ইকার্দি ও আনহেল দি মারিয়ার গোলে লিলকে হারিয়েছে পিএসজি। ঘরের মাঠে শুক্রবার ২-০ গোলে জিতেছে টমাস টুখেলের দল। প্রথমার্ধেই দুই গোলে এগিয়ে গিয়েছিল তারা। গত এপ্রিলে সবশেষ মুখোমুখি লড়াইয়ে লিলের মাঠে ৫-১ গোলে উড়ে গিয়েছিল পিএসজি। ছন্দে থাকা ইকার্দির গোলে ম্যাচের সপ্তদশ মিনিটে এগিয়ে যায় প্যারিসের দলটি। ইদ্রিসা গেয়ির বাড়ানো বল গোলমুখে পেয়ে অনায়াসে জালে পাঠান আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড। ইন্টার মিলান থেকে এ মৌসুমে ধারে আসা ইকার্দির লিগ ওয়ানে মোট গোল হলো ছয়টি। এ সময়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগেও চারটি গোল করেছেন তিনি। ম্যাচের ৩১তম মিনিটে দারুণ এক গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন দি মারিয়া। ইউলিয়ান ড্রাক্সলারের পাস ধরে ডান দিক দিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে কোনাকুনি শটে আগুয়ান গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন আর্জেন্টাইন মিডফিল্ডার। আসরে তারও মোট গোল হলো ছয়টি। হ্যামস্ট্রিংয়ের চোটে প্রায় ছয় সপ্তাহ বাইরে থাকার পর মাঠে ফিরে নিজেকে তেমন মেলে ধরতে পারেননি নেইমার। ৬৫তম মিনিটে তাকে তুলে চোট থেকে ফেরা আরেক ফরোয়ার্ড কিলিয়ান এমবাপেকে নামান কোচ টুখেল। বাকি সময়ে দুটি ভালো সুযোগ পেলেও ব্যবধান বাড়াতে পারেনি শিরোপাধারীরা। ১৪ ম্যাচে ১১ জয়ে ৩৩ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে পিএসজি। ২২ পয়েন্ট নিয়ে দুই নম্বরে আছে এক ম্যাচ কম খেলা মার্সেই। ১৪ ম্যাচে লিলের পয়েন্ট ১৯।

চ্যালেঞ্জ উপভোগ করছেন গুয়ার্দিওলা

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ শীর্ষে থাকা লিভারপুলের চেয়ে নয় পয়েন্ট পিছিয়ে পড়ায় ম্যানচেস্টার সিটির জন্য ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা ধরে রাখার লড়াইটা হয়ে উঠেছে বেশ কঠিন। তবে এই চ্যালেঞ্জ উপভোগ করছেন ক্লাবটির স্প্যানিশ কোচ পেপ গুয়ার্দিওলা। ক্লাব চাইলে আগামী মৌসুমেও থাকতে চান দলের দায়িত্বে। আন্তর্জাতিক বিরতির আগে নিজেদের শেষ ম্যাচে লিভারপুলের মাঠে ৩-১ গোলে হারে সিটি। তাতে করে ১২ রাউন্ড শেষে আট জয় ও এক ড্রয়ে ২৫ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের চারে আছে তারা। ৩৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে থাকা লিভারপুল ছাড়াও সমান ২৬ পয়েন্ট নিয়ে সিটির ওপরে আছে লেস্টার সিটি ও চেলসি। শনিবার বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে এগারোটায় গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে চেলসির মুখোমুখি হচ্ছে সিটি। এর আগে দলের অবস্থা নিয়ে চিন্তিত নন গুয়ার্দিওলা। “কেন মানুষ এমনটা ভাবছে যে আমি সুখি নই? কারণ কি এটাই যে আমরা অ্যানফিল্ডে হারলাম অথবা এই মৌসুমে আমি তিনটা ম্যাচ হেরেছি?” “আমি এখানে সুখি বা সন্তুষ্ট নই এটা বলার জন্য এগুলো খুব হাস্যকর কারণ। আমি থাকতে চাই।” ২০১৭-১৮ মৌসুমে প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা জয়ের পথে প্রতিযোগিতার ইতিহাসে প্রথম ক্লাব হিসেবে একশ পয়েন্টের মাইলফলক স্পর্শ করে সিটি। পরের মৌসুমে ৯৮ পয়েন্ট নিয়ে শিরোপা ধরে রাখে গুয়ার্দিওলার দল। দুই আসরের সাফল্যের পর চলতি মৌসুমের চ্যালেঞ্জটা উপভোগ করছেন বলে জানান গুয়ার্দিওলা। “আমি জানি, বিশ্বের সবখানেই মানুষ বলছে যে প্রিমিয়ার লিগের শিরোপার নিষ্পত্তি হয়ে গেছে।” “কিন্তু যদি মানুষ মনে করে যে এইসব ফলাফলের জন্য আমি দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়াব, তাহলে তারা আমাকে চিনে না। আমি এই চ্যালেঞ্জটা পছন্দ করি।… যদি ক্লাব আমাকে পরের মৌসুমে চায়, আমি শতভাগ এখানে থাকতে চাই।”

লাবুশেনের ক্যারিয়ার সেরা ব্যাটিংয়ের পর বিপাকে পাকিস্তান

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ অ্যাশেজের দুর্দান্ত ফর্ম ধরে রেখে ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস খেললেন মারনাস লাবুশেন। তিনশ ছাড়ানো লিড পেল অস্ট্রেলিয়া। শেষ বিকেলে দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুতেই তিন ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে ইনিংস হারের শঙ্কায় পড়েছে পাকিস্তান। ব্রিজবেন টেস্টের তৃতীয় দিন শেষে দ্বিতীয় ইনিংসে ৩ উইকেটে ৬৪ রান তুলেছে পাকিস্তান। প্রথম ইনিংসে ৫৮০ রানে অলআউট হওয়া অস্ট্রেলিয়ার চেয়ে এখনও ২৭৬ রানে পিছিয়ে আছে তারা। শান মাসুদ ২৭ ও বাবর আজম ২০ রানে অপরাজিত আছেন। এক উইকেটে ৩১২ রান নিয়ে দিন শুরু করা অস্ট্রেলিয়াকে প্রথম ধাক্কা দেন অভিষিক্ত নাসিম শাহ। ১৬ বছর বয়সী পেসার ফিরিয়ে দেন ডেভিড ওয়ার্নারকে। আগের দিনের ১৫১ রানের সঙ্গে আর মাত্র ৩ রান যোগ করেন বাঁহাতি ওপেনার। স্কোরে আর ৭ রান যোগ হতে স্টিভ স্মিথকে ফেরান ইয়াসির শাহ। টেস্টে সপ্তমবারের মতো স্মিথকে আউট করলেন এই লেগ স্পিনার। চতুর্থ উইকেটে ম্যাথু ওয়েডকে নিয়ে ১১০ রান যোগ করেন লাবুশেন। ১৬১ বলে ১২ চারে তুলে নেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি। ৬০ রান করে হারিস সোহেলের বলে ওয়েড উইকেটের পেছনে ধরা পড়লে ভাঙে জুটি। ট্রাভিস হেড ও অধিনায়ক টিম পেইনকে নিয়ে দুটি কার্যকর জুটিতে লিড ৩০০ পার করেন লাবুশেন। ১৮৫ রান করে শাহীন শাহ আফ্রিদির বলে বাবর আজমের হাতে ক্যাচ দেন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান। টেস্টে তার আগের সর্বোচ্চ ইনিংস ছিল ৮১, আর প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ১৮২। অস্ট্রেলিয়ার শেষ ছয় ব্যাটসম্যানের কেউ ছুঁতে পারেননি ত্রিশ। ৩৫ রানে শেষ ৫ উইকেট হারায় স্বাগতিকরা। ৪ উইকেট নিয়ে পাকিস্তানের সেরা বোলার ইয়াসির। অবশ্য এজন্য তাকে খরচ করতে হয়েছে ২০৫ রান। প্রথম বোলার হিসেবে টেস্টে তিনবার ইনিংসে দুইশর বেশি রান দেওয়ার বিব্রতকর এক রেকর্ডও গড়েছেন তিনি। ৩৪০ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করা সফরকারীরা শুরুতেই হারায় আজহার আলিকে। রিভিউ নিয়েও এলবিডব্লিউ থেকে বাঁচতে পারেননি পাকিস্তান অধিনায়ক। নিজের পরের ওভারেই হারিসকেও ফিরিয়ে দেন মিচেল স্টার্ক। প্রথম ইনিংসে ফিফটির দেখা পাওয়া আসাদ শফিক প্যাট কামিন্সের বলে স্লিপে ধরা পড়লে পাকিস্তানের বিপদ আরও বাড়ে। সংক্ষিপ্ত স্কোর: পাকিস্তান ১ম ইনিংস: ৮৬.২ ওভারে ২৪০ অস্ট্রেলিয়া ১ম ইনিংস: (আগের দিন ৩১২/১) ১৫৭.৪ ওভারে ৫৮০/১০ (ওয়ার্নার ১৫৪, বার্নস ৯৭, লাবুশেন ১৮৫, স্মিথ ৪, ওয়েড ৬০, হেড ২৪, পেইন ১৩, কামিন্স ৭, স্টার্ক ৫, লায়ন ১৩*, হেইজেলউড ৫; শাহিন শাহ ৩৪-৭-৯৬-২, ইমরান ২৪-৩-৭৩-১, নাসিম ২০-১-৬৮-১, ইফতিখার ১২-০-৫৩-০, ইয়াসির ৪৮.৪-১-২০৫-৪, হারিস ১৯-১-৭৫-২) পাকিস্তান ২য় ইনিংস: ১৭ ওভারে ৬৪/৩ (মাসুদ ২৭*, আজহার ৫, হারিস ৮, আসাদ ০, বাবর ২০*; স্টার্ক ৪-০-২৫-২, কামিন্স ৫-১-১৬-১, হেইজেলউড ৬-১-১৬-০, লায়ন ২-১-৪-০)

যৌন হয়রানির অভিযোগে টেনিসের সাধারণ সম্পাদক বরখাস্ত

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ এক নারী খেলোয়াড় যৌন হয়রানির অভিযোগ তোলার পর বরখাস্ত করা হয়েছে টেনিস ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোরশেদকে। বাংলাদেশ টেনিস ফেডারেশনের বর্তমান এডহক কার্যনির্বাহী কমিটির সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোরশেদকে অসদাচারণ ও শৃঙ্খলা পরিপন্থি কার্যকলাপের দায়ে সাধারণ সম্পাদকের পদ হতে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে বলে বৃহস্পতিবার যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে জানানো হয়। তার আগে তার বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ তোলেন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী বাংলাদেশের সাবেক এক খেলোয়াড়ের মেয়ে। গত ১৪ নভেম্বরে গুলশান থানায় মোরশেদের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগও করেন ওই মেয়ের চাচা। মেয়েটি যুক্তরাষ্ট্র থেকে বাংলাদেশের হয়ে আইটিএফ টুর্নামেন্টে খেলতে গত মে মাসে ঢাকায় আসেন। তিনি গোলাম মোরশেদের মাধ্যমে ঢাকা ক্লাবের গেস্ট হাউজে উঠেছিলেন। থানায় দেওয়া অভিযোগে বলা হয়, গত ৪ নভেম্বর সন্ধ্যায় ওই মেয়েটিকে ডিনারের প্রস্তাব দিয়ে নিয়ে যৌন হয়রানি করেছিলেন মোরশেদ।

 

ম্যারাডোনার মন বদল

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ আর্জেন্টিনার প্রথম বিভাগের ক্লাব হিমনাসিয়ার কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছেন দিয়েগো ম্যারাডোনা। ক্লাবটির দায়িত্বে থাকছেন বলে জানিয়েছেন দেশটির কিংবদন্তি এই ফুটবলার। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে বৃহস্পতিবার এই সিদ্ধান্ত জানান ম্যারাডোনা। তার আইনজীবী মাতিয়াস মোরলাও এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান। মঙ্গলবার হিমনাসিয়ার দায়িত্ব ছেড়ে দেওয়ার কথা জানিয়েছিলেন ম্যারাডোনা। ইনস্টাগ্রামে বিশ্বকাপ জয়ী তারকা বলেন, “ম্যানেজার হিসেবে আমি দায়িত্ব পালন করে যাব এটা বলতে পেরে আমি খুব খুশি।” ২০১০ সালে জাতীয় দলের কোচের পদ ছাড়ার পর দেশে কোচ হিসেবে প্রথম হিমনাসিয়ার দায়িত্ব নেন মারাদোনা। তিনি কোচ হয়ে আসার মুহূর্তে লিগে পয়েন্ট টেবিলের তলানিতে ছিল হিমনাসিয়া। বিশ্বকাপ জয়ী তারকার অধীনে আট ম্যাচের তিনটিতে জয় পেয়ে টেবিলের ২২ নম্বরে উঠে আসে তারা। এর আগে মেক্সিকোর দ্বিতীয় স্তরের ক্লাব দোরাদোস দে সিনালোয়াকে ৯ মাস কোচিং করিয়ে তাদের শীর্ষ লিগে তুলে আনতে ব্যর্থ হন মারাদোনা। কাঁধে ও হাঁটুতে অস্ত্রোপচার করানোর জন্য গত জুনে ওই দলের দায়িত্ব ছাড়েন ১৯৮৬ সালে আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ জয়ে নেতৃত্ব দেওয়া এই তারকা।