আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রস্তুতি নিচ্ছি – জিএম কাদের

ঢাকা অফিস ॥ জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা জিএম কাদের বলেছেন, দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রস্তুতি নিচ্ছে জাতীয় পার্টি। যারা দলকে শক্তিশালী করতে কাজ করছেন, দলের জন্য ত্যাগ শিকার করছেন, যাদের গ্রহণযোগ্যতা আছে তারাই দলীয় মনোনয়নে অগ্রাধিকার পাবেন। প্রতিটি নির্বাচনে জাতীয় পার্টি শক্তিশালীভাবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে। গতকাল সোমবার দুপুরে বনানী কার্যালয়ে হবিগঞ্জ জেলা জাতীয় পার্টি নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এ কথা বলেন। জাপা চেয়ারম্যান বলেন, নতুন প্রজন্মের সামনে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির চেয়ে জাতীয় পার্টি অনেক বেশি গ্রহণযোগ্য। জাতীয় পার্টি সবসময় অন্যায়-অবিচারের বিপক্ষে। গণমানুষের স্বার্থ ও অধিকার সংরক্ষণই জাতীয় পার্টির রাজনীতি। তাই নতুন প্রজন্মের সামনে পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের অবদান ও উন্নয়ন কর্মকা- তুলে ধরতে নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান। এসময় জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সিলেট বিভাগীয় অতিরিক্ত মহাসচিব এটিইউ তাজ রহমান, জাতীয় পার্টির সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ মঞ্জুর হোসেন মঞ্জু, হবিগঞ্জ জেলা কৃষক পার্টির সাধারণ সম্পাদক জালাল উদ্দিন আহমেদ, হবিগঞ্জ জাতীয় পার্টি নেতা আবু বকর খান, সেলিম খান, আফরোজ আফগান তালুকদার, মো. নুর মিয়া বক্তব্য দেন।

সাংগঠনিক কার্যক্রম বিএনপির জাতীয় কাউন্সিলের অংশ – গয়েশ্বর

ঢাকা অফিস ॥ বিএনপির সাংগঠনিক কার্যক্রম জাতীয় কাউন্সিলের অংশ বলে মন্তব্য করেছেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। গতকাল সোমবার রাজধানীর শেরে বাংলা নগরে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবরে পুষ্পমাল্য অর্পণের পর সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ মন্তব্য করেন। গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, সাংগঠনিক কার্যক্রম কাউন্সিলের একটা অংশ। অর্থাৎ আমাদের দেশব্যাপী প্রতিটা জেলা, উপজেলা বা থানার যতটা ইউনিট আছে সেগুলো কাউন্সিলের আগেই সম্পন্ন করতে হয়। সেই কাজটা আমাদের শুরু হয়েছে। আমি বলবো, বিশ্ব পরিস্থিতি ও দেশের পরিস্থিতিতে আমাদের কখন কাউন্সিল করার সুযোগ সৃষ্টি হবে সেজন্য আমাদের অপেক্ষা করতে হবে। একটা সময় কাউন্সিল হবে। তিনি বলেন, বিএনপি বাংলাদেশের বৃহৎ রাজনৈতিক দল। এর কাউন্সিল ভার্চুয়াল বা অনলাইনে হয় না। কাউন্সিল মানে হলো ব্যাপক। প্রায় চার হাজারের মতো কাউন্সিলর আছে। তারপরে ডেলিগেইট। আপনারা জানেন যে, আমাদের কাউন্সিলে লাখ লাখ লোক সমবেত হয়। সব কিছু আপনাদের বিবেচনায় রাখতে হবে। ২০১৬ সালের ১৯ মার্চ বিএনপির ষষ্ঠ জাতীয় কাউন্সিল হয় রমনার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিটিউশন প্রাঙ্গণে। দলের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী তিন বছর পর পর জাতীয় কাউন্সিল অনুষ্ঠানের বাধ্যবাধকতা রয়েছে। গত রোববার থেকে বিএনপি তার সাংগঠনিক কার্যক্রম শুরু করে। করোনা মহামারির কারণে গত ২৫ মার্চ থেকে দলের সাংগঠনিক কার্যক্রমসহ কমিটি গঠন ও পুনর্গঠনের কার্যক্রম বন্ধ রাখে দলটি। করোনা ভাইরাস সংক্রামণের বিষয়টি তুলে ধরে বিএনপির স্থাযী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর বলেন, করোনার কারণে স্বাস্থ্যবিধি মানা ও মানুষের জীবনে যে ঝুঁকি সব কিছু মোকাবিলার ক্ষেত্রে আমাদের কতগুলো নিয়ম মেনে চলতে হয় প্রত্যেকের স্বার্থে। আমি নিয়ম মানছি শুধু আমার স্বার্থে না, আরেকজনেরও স্বার্থে। এখন যে স্বাস্থ্যবিধি আছে সেখানে আমাদের সাংগঠনিক কার্যক্রম বড় করার সুযোগ কম। তারপরেও কাজ শুরু করেছি। কাউন্সিল দলের সাংগঠনিক প্রক্রিয়ার একটা অংশ, এটা গঠনতন্ত্রেও নিয়ম আছে। গঠনতন্ত্র তো দলের জন্য, জীবনের জন্যই। সে কারণে আমাদের কাউন্সিলটা যেসময় হওয়ার কথা সেসময়ে হয় নাই। ভবিষ্যতে হবে। জাতীয়তাবাদী তরুণ দলের ২৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সংগঠনটির আহ্বায়ক সাঈদ আহমেদ আসলামের নেতৃত্বে নেতাকর্মীদের নিয়ে গয়েশ্বর চন্দ্র রায় সকালে শেরে বাংলা নগরে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবরে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন। পরে তার আত্মার মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত করা হয়।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে সিনেমা হল খুলছে ১৬ অক্টোবর থেকে

ঢাকা অফিস ॥ করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ পরিস্থিতির আরও অবনতি না হলে স্বাস্থ্যবিধি মেনে আগামী ১৬ অক্টোবর থেকে সিনেমা হল খুলছে। গতকাল সোমবার সচিবালয়ে চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির সঙ্গে বৈঠকের পর তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, সিনেমা হল খোলার বিষয়ে দীর্ঘদিন ধরে আলোচনা চলছে। আগস্ট মাসের শুরুর দিকে একবার বসেছিলাম। সেই বৈঠকে সিদ্ধান্ত ছিল ১৫ সেপ্টেম্বরের পর বৈঠক করে আমরা সিদ্ধান্ত নেব। সেই মর্মে আজ (গতকাল সোমবার) বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে। তথ্যমন্ত্রী বলেন, আলোচনা করে আমরা যে ঐকমত্যে উপনীত হয়েছি সেটি হচ্ছে- যদি করোনা পরিস্থিতি এখন যে পর্যায়ে আছে, ট্রেন্ডটা যদি কমতির দিকেই থাকে, তাহলে ১৬ অক্টোবর থেকে সিনেমা হল খুলতে পারি। এ বিষয়ে আমরা অবশ্যই প্রধানমন্ত্রীর সম্মতি গ্রহণ করব। হাছান মাহমুদ বলেন, সিনেমা হল খুললে সেক্ষেত্রে স্বাস্থ্য বিধি মানতে হবে। ধারণক্ষমতার অর্ধেক দর্শক নিয়ে সিনেমা হল চালু হবে এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। কীভাবে আসন বিন্যাস হবে সেটা নিয়েও আমরা আলোচনা করেছি। সেভাবেই আসন বিন্যাস করতে হবে। উল্লেখ্য, করোনার সংক্রমণ রোধে গত মার্চে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, অফিস-আদালত ও অন্যান্য প্রতিষ্ঠানে ছুটি ও বন্ধ ঘোষণা করা হয়। অর্থনৈতিক কর্মকা- পরিচালনার জন্য স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রয়োজনীয় অফিস-আদালত খুলে দেয়া হলেও বিভিন্ন বিনোদন কেন্দ্র ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এখনও বন্ধ।

সোনামসজিদে আসা ৪০০ ট্রাক পেঁয়াজ ফিরিয়ে নিলো ভারত

ঢাকা অফিস ॥ চাঁপাইনবাবগঞ্জে সোনামসজিদ বন্দর দিয়ে রপ্তানি বন্ধ করে ৪০০ ট্রাক পেঁয়াজ ফিরিয়ে নিয়েছে ভারত। এসব পেঁয়াজ টেন্ডার করা ছিল। বাংলাদেশে রপ্তানি করার জন্য পেঁয়াজের ট্রাকগুলো ভারতের মহদীপুর বন্দরে আনা হয়েছিল। জানা গেছে, চার শতাধিক ট্রাকের মধ্যে মাত্র ৮ ট্রাক পেঁয়াজ তারা সোনামসজিদ বন্দরে পাঠায়। এরপরই রপ্তানি বন্ধ করে দেয়। ওই ৮ ট্রাক পেঁয়াজের তিন ভারে একভাগই পচা বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। চার শতাধিক ট্রাকের মধ্যে শনিবার বিকেলে ৩০০ ট্রাক এবং পরে আরও ১০০ ট্রাক পেঁয়াজ মহদীপুর বন্দর থেকে ফেরত নিয়ে যায় সংশ্লিষ্টরা। সোনামসজিদ স্থলবন্দর সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের আ. আওয়াল বলেন, ১৪ সেপ্টেম্বরের আগে টেন্ডারকৃত পেঁয়াজ সোনামসজিদ বন্দর দিয়ে কি পরিমাণ ছিল তা নিশ্চিত না হওয়া গেলেও টেন্ডারকৃত পেঁয়াজের পরিমাণ আরও বেশি। কিন্তু বন্দরে প্রবেশের অপেক্ষায় থাকা পেঁয়াজ ভারত না দিয়েই ফিরিয়ে নিচ্ছে। তিনি আরও বলেন, মহদীপুর বন্দরে হাতেগোনা কয়েকটি ট্রাকে থাকা পেঁয়াজ নষ্ট হওয়ার ভয়ে স্থানীয় আড়ৎগুলোতে খালাস করা হলেও আটকে পড়া বাকি সব পেঁয়াজ বন্দর থেকে সরিয়ে ফেলে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ। এতে করে এ বন্দর দিয়ে আর বাংলাদেশে পেঁয়াজ প্রবেশের সম্ভবনা নেই। এদিকে, ভারত থেকে আসা ২১৩ মেট্রিক টন পেঁয়াজের এক তৃতাংশই পঁচা হওয়ায় অধিকাংশ পেঁয়াজ পানির দরে বিক্রি করতে দেখা গেছে ব্যবসায়ীদের। আবার বিপুল পরিমাণ পেঁয়াজ একদম পঁচে যাওয়ায় ফেলে দিতে হয়েছে। এতে আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছেন ব্যবসায়ীরা। এ ব্যাপারে খাদিজা এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী আজিজুল ইসলাম জানান, তার ১০ ট্রাক পেঁয়াজ আসার কথা ছিল। কিন্তু পেয়েছেন মাত্র দুই ট্রাক। এসব পেঁয়াজের এক তৃতীয়াংশ ফেলে দিতে হয়েছে। অর্ধেক পেঁয়াজ ২৫-৩০ টাকা কেজি দরে এবং কিছু পেঁয়াজ ৩৫-৪০ টাকা দরে বিক্রি করেছেন। সোনামসজিদ বন্দর পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠান পানামা পোর্ট লিংক লিমিটেডের পোর্ট ম্যানেজার মাঈনুল ইসলাম জানান, মহদীপুর দিয়ে লোক দেখানো আটটি ট্রাকে ২১৩ মেট্রিক টন পেঁয়াজ রপ্তানি করে বাকি পেঁয়াজ সরিয়ে নিয়েছে ভারত। ওই আট ট্রাক পেঁয়াজ অগ্রাধিকার ভিত্তিতে খালাস করে বন্দর থেকে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

কুয়েতে ৫শত জন আইসিইউ নার্স পাঠাবে বাংলাদেশ

ঢাকা অফিস ॥ করোনা দুর্যোগ মোকাবিলায় কুয়েতে ৫০০ জন ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট (আইসিইউ) নার্স পাঠাবে বাংলাদেশ। প্রয়োজনীয় সংখ্যক আইসিইউ নার্স নিয়োগের ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রনালয় থেকে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় সচিবের কাছে চিঠি দিয়েছে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়। ১৭ সেপ্টেম্বর স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রনালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের পার-৩ শাখার উপসচিব মো. আবু রায়হান মিঞা স্বাক্ষরিত ‘কুয়েত সরকার কর্তৃক বাংলাদেশ থেকে ১০০ জন আইসিইউ ডাক্তার ও ৫০০ জন আইসিইউ নার্স নিয়োগ বিষয়ে স্পষ্টিকরণ’ শীর্ষক চিঠিতে বলা হয়, করোনাকালীন দুযোর্গে ১০০ জন আইসিইউ ডাক্তার পাঠানোর সুযোগ নেই তবে স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের নার্সিং সেবা-১শাখার ২০ আগস্টের চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে ৫০০ জন আইসিইউ নার্স পাঠানোর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ জানানো হয়। ইতোপূর্বে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের পার্সোনাল-৩ শাখার উপসচিব মোহাম্মদ আবু রায়হান মিঞা স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়, বর্তমানে সারাবিশ্ব করোনা মহামারিতে বিপর্যস্ত। বাংলাদেশে এর মারাত্মক প্রভাব পড়েছে। এ দুর্যোগ মোকাবিলার জন্য বাংলাদেশ সরকার নতুন করে চিকিৎসক, নার্স নিয়োগ করেছে। করোনাকালীন সময়ে ১০০ জন আইসিইউ চিকিৎসক এবং ৫০০ জন নার্স বিদেশে পাঠানোর সুযোগ নেই মর্মে নির্দেশক্রমে অবহিত করা হলো। তবে শেষ পর্যন্ত ৫০০ জন নার্স পাঠানো হবে বলে জানা গেছে।

কুষ্টিয়া জেলা মটর সাইকেল গ্যারেজ মালিক সমিতির পরিচয়পত্র প্রদান অনুষ্ঠানে আতা

আইন মেনে সংগঠন পরিচালনা করবেন এটাই আমার প্রত্যাশা

কুষ্টিয়া জেলা মটর সাইকেল মেকানিক্যালদের পরিচয়পত্র প্রদান অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত রবিবার সকালে কুষ্টিয়া এলজিইডি অফিসের সামনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এ পরিচয়পত্র প্রদান করা হয়। সমিতির সভাপতি মোঃ শামীম ইসলাম স্বপনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও কুষ্টিয়া শহর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান আতা বলেন- যতক্ষণ না আমরা বাঙ্গালীরা সংগঠিত হয় নাই, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে সাড়া দেয়নি ততক্ষণ আমরা স্বাধীনতা অর্জনে ব্যর্থ ছিলাম। তিনি বলেন, পশ্চিম পাকিস্তানী শাসক গোষ্টির শাসনের যাঁতাকলে দীর্ঘ ২৩ বছর আমরা আষ্টে-পিষ্টে নিষ্পেষিত ছিলাম। বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণে যখন ঐক্যবদ্ধ হয়েছি। তখনই আমরা ঐক্যবদ্ধ হতে পেরেছি, কৃষক, ছাত্র, জনতা, যুবক, নারী, যুবতীসহ সকলে ঐক্যবদ্ধভাবে আন্দোলন সংগ্রাম গড়ে তুলে স্বাধীনতা ছিনিয়ে এনেছিলাম। আজ বিশে^র দরবারে বাংলাদেশ একটি স্বাধীন সার্বভৌম দেশ হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে। সে কারণেই সংগঠিত হওয়ার কোন বিকল্প নেই। যে কোন ভালো কাজ করতে হলে সংগঠিত হতে হবে। তবেই ভালো কিছু করা সম্ভব হবে। তিনি সদ্য প্রতিষ্ঠিত কুষ্টিয়া মটরসাইকেল মেকানিক্যাল নেতৃবৃন্দের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, বিগত দিনে এ সমিতি ছিল না। তখন এ সমিতির সাথে মালিক, শ্রমিক স্বার্থ কতখানি পুরণ হয়েছে তা আপনারাই বলতে পারেন। আজকে এ সংগঠনের আত্মপ্রকাশের মাধ্যমে আগামীতে এই সংগঠন শক্তিশালী ভুমিকা রাখবে সেই সাথে মানুষের সেবা, কল্যাণে, রাষ্ট্রের নীতি, আইন মেনে সংগঠন পরিচালনা করবেন এটাই আমার প্রত্যাশা। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল হক, কুষ্টিয়া মডেল থানার ওসি (অপারেশন) তাপস কুমার সরকার, টিআই সদর ট্রাফিক আব্দুল¬াহ আল জুবায়েদ, এনার্জি ট্রেডার্সের স্বত্বাধিকারী এন এম আব্দুল হাই (তপো), এআর মটরসের মালিক আসাদুল ইসলাম, ইসলাম অটোজের স্বত্বাধিকারী শাহিনুর ইসলাম, কুষ্টিয়া মটর সাইকেল গ্যারেজ মালিক সমিতির সাধারন সম্পাদক সত্য গোপাল রায়। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সংগঠনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সেলিম রেজা । অনুষ্ঠানে সমিতির সাধারণ সদস্যবৃন্দসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

 

শৈলকুপায় সামাজিক দল পরিবর্তন করায় হামলায় আহত-৫

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ॥ ঝিনাইদহে সামাজিক দল পরিবর্তন করায় অপরপক্ষের হামলায় অন্তত ৫ জন আহত হয়েছে। গতকাল সকালে শৈলকুপার বড়বাড়ী বগুড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকে এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। স্থানীয়রা জানায়, বগুড়া ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান নজরুল ইসলামের কর্মকান্ডে বিরক্ত হয়ে ও তার নির্যাতন থেকে বাঁচতে রোববার সন্ধ্যায় ওই গ্রামের আনোয়ার শেখ ও মুকাব্বের হোসেনের নেতৃত্বে ৫০/৬০ আওয়ামী লীগ কর্মী জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক শফিকুল ইসলাম শিমুলের সামাজিক দলে যোগদান করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে বর্তমান চেয়ারম্যান নজরুল ইসলামের নির্দেশে তার কর্মীরা মাঠে কাজ করার অবস্থায় আনোয়ার শেখসহ কয়েকজনের উপর হামলা চালায়। আহতদের উদ্ধার করে শৈলকুপা ও ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ব্যাপারে শৈলকুপা থানার ওসি জাহাঙ্গীর হুসাইন বলেন, এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

কুষ্টিয়া পৌরবাজারে অভিযান, ব্যবসায়ীর জরিমানা

আমলা অফিস ॥ কুষ্টিয়া শহরের পৌরবাজারে পাটজাত মোড়কের বাধ্যতামুলক ব্যবহার নিশ্চিত করতে অভিযান চালায় ভ্রাম্যমান আদালত। এ সময় দুই মুদি ব্যবসায়ীকে জরিমানা করা হয়। গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় শহরের পৌরবাজারে এ অভিযান পরিচালনা করেন কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মুনমুন নাহার আশা। ভ্রাম্যমান আদালত সুত্রে জানা যায়, “পণ্যে পাটজাত মোড়কের বাধ্যতামুলক ব্যবহার আইন-২০১০” নিশ্চিতে শহরের পৌর বাজার এলাকায় অভিযান চালায় ভ্রাম্যামান আদালত। এসময় আইন অমান্য করে প্লাস্টিকের মোড়কে চাউল রাখার দায়ে পৌর বাজারের হুমায়ূন কবীরকে দুইশত টাকা এবং অশীষ কুমার পালকে ৫শ টাকা জরিমানা করা হয়। এসময় উপস্থিত সকলকে উক্ত আইনটি মেনে চলাসহ জেলা ব্যাপি এ অভিযান অব্যহত থাকবে বলে জানায় কুষ্টিয়া পাট অধিদপ্তরের মুখ্য পাট পরিদর্শন সোহবার আলী বিশ্বাস।

করোনা পরিস্থিতিতে বৃহত্তর যশোর অঞ্চলের সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করছেন যশোর সেনানিবাসের  সেনাসদস্যরা

করোনা যুদ্ধে বিপন্ন মানুষের ভেতর শক্তি ও সাহস জুগিয়ে সাধারণ মানুষের সুরক্ষার জন্য ক্লান্তিহীনভাবে কাজ করে যাচ্ছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। এরই ধারাবাহিকতায় বৃহত্তর যশোর অঞ্চলের বিভিন্ন জেলার অসহায় ও দুস্থ মানুষের মাঝে    ফ্রি চিকিৎসা সেবা পৌঁছে দিচ্ছে যশোর সেনানিবাসের  সেনাসদস্যরা। পাশাপাশি গর্ভবতী নারীদের জন্য ফ্রি  মেডিকেল ক্যাম্পেইন পরিচালনা করা হচ্ছে। এছাড়াও নিয়মিত টহলের পাশাপাশি স্থানীয় বাজারগুলোতে মাইকিং এর মাধ্যমে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতকরণ ও জনসচেতনতা সৃষ্টিমূলক কার্যক্রম পরিচালনা অব্যাহত রয়েছে। গণপরিবহনসহ অন্যান্য যানবাহন যাতে করোনাকালীন সময়ে অতিরিক্ত যাত্রী বহন করতে না পারে সেজন্য সেনাসদস্যদের তৎপরতা অব্যাহত রাখার পাশাপাশি অসহায় ও হতদরিদ্র মানুষের বাড়ী বাড়ী গিয়ে খাদ্য সহায়তা পৌছে দেয়া, ফ্রী চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ বিতরণসহ সকল প্রকার মানবিক কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে যশোর সেনানিবাসের  সেনাসদস্যরা। অন্যদিকে খুলনা উপকূলীয় এলাকায় বাঁধ নির্মাণ অব্যাহত রাখার পাশাপাশি জরুরী চিকিৎসা সহায়তা প্রদান, বিশুদ্ধ পানি সরবরাহসহ নানাবিধ জনসেবামূলক কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে যশোর সেনানিবাসের  সেনাসদস্যরা। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

থানায় মামলা দায়ের

অন্তসত্বার পেটে লাথি মেরে আহত করেছেন পাষন্ড কিরন মৃধা

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার পোড়াদহের ট্রাক চালক নাসির উদ্দিনের সাথে ৮ বছর আগে বিয়ে হয় বালিয়াশিসার মৃত মজনু শেখের  কন্যা তানিয়া খাতুনের (২৫)। দীর্ঘদিন তাদের সন্তান না হওয়ায় ডাক্তার কবিরাজের কাছে চিকিৎসা করে এবার তানিয়ার ৭মাসের অন্তসত্বা হয়। সন্তান আগমন উপলক্ষে বেশ আনান্দে আল্লাদে ছিল তানিয়া ও নাসিরের পরিবার। জানা যায়, গত শুক্রবার পাষন্ড বাড়ীর মালিক কিরন মৃধা বেলা ১০টার সময় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে কথা কাটাকাটির এক পর্যায় দরিদ্র ট্রাক চালক নাসিরের অন্তসত্বা স্ত্রীকে বেধড়ক মারধর করে গুরুতর আহত করে। তানিয়ার স্বামী নাসির বলেন, পাষন্ড বাড়ীর  মালিক কিরনের নির্যাতনে আমার অন্তসত্বা স্ত্রী অজ্ঞান হয়ে মাটিতে পড়ে গেলে ক্ষিপ্ত হয়ে তার পেটে  লাথি মারে। এসময় তানিয়ার শরীরে বিভিন্ন জায়গায় যখম হয়ে রক্ত ঝরতে থাকে। এসময় স্থানীয়রা রক্তাক্ত অবস্থায় তানিয়াকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে সজ্ঞাহীন অবস্থায় ভর্তি করে। এ ব্যাপারে তানিয়ার স্বামী নাসির উদ্দিন বাদী হয়ে মিরপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন ধারায় মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং-১৫। এদিকে অন্তসত্বার উপর এমন অমানবিক নিষ্ঠুর নির্যাতন করায় এলাকাবাসী হতবাক। অন্তসত্বা তানিয়ার স্বামী ন্যায় বিচার দাবী করেন।

দৌলতপুর সীমান্তে মদ ও ফেনসিডিল উদ্ধার

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুর সীমান্তে বিজিবি’র পৃথক অভিযানে ১৪৭ বোতল মদ ও ৪৭ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার হয়েছে। গতকাল সোমবার সকাল ও রবিবার রাতে উপজেলার বিভিন্ন সীমান্তে অভিযান চালিয়ে এসব মাদক উদ্ধার করে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ বিজিবি। বিজিবি সূত্র জানায়, মাদক পাচারের গোপন সংবাদ পেয়ে ৪৭ বিজিবি ব্যাটালিয়ন অধিনস্থ উদয়নগর বিওপি’র টহল দল গতকাল সকাল সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার চিলমারী পদ্মা নদীর নালার ধারে অভিযান চালিয়ে ৬০ বোতল জেডি মদ উদ্ধার করেছে। অপরদিকে চিলমারী বিওপি’র টহল দল রবিবার দিবাগত রাত পৌনে ২টার দিকে মরারপাড়া মাঠে অভিযান চালিয়ে ৭০ বোতল জেডি মদ উদ্ধার করেছে। এছাড়াও জয়পুর বিওপি’র টহল দল একইদিন রাত পৌনে ১০টার দিকে মহিষকুন্ডি মাঠে অভিযান চালিয়ে ৪৭ বোতল ফেনসিডিল ও ১৭ বোতল মদ উদ্ধার করেছে। তবে উদ্ধার হওয়া মাদকের সাথে জড়িত কেউ আটক হয়নি বলে বিজিবি সূত্র নিশ্চিত করেছে।

জানা যাবে দু’দিনের মধ্যে

চীনের ভ্যাকসিনের ট্রায়াল শুরুর বিষয়ে

ঢাকা অফিস ॥ চীনা কোম্পানি সিনোভ্যাক বায়োটেক উদ্ভাবিত করোনা ভ্যাকসিনের হিউম্যান ট্রায়ালের অনুমোদন আগেই দিয়েছিল সরকার। এ ট্রায়াল প্রক্রিয়ার বিষয়ে আগামী দুদিনের মধ্যে জানা যাবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য সচিব মো. আবদুল মান্নান। গতকাল সোমবার সচিবালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন। ভ্যাকসিনের ট্রায়ালের বিষয়ে তিনি বলেন, ভ্যাকসিন নিয়ে বিভিন্ন দেশের ৯টি কোম্পানি কাজ করছে। এর মধ্যে পাঁচটি কোম্পানির সঙ্গে সরকারের সার্বক্ষণিক যোগাযোগ আছে। চীনের কোম্পানিকে ট্রায়ালের অনুমোদন দিয়েছি। ব্রাজিল, ইন্দোনেশিয়া আর তুরস্কে তারা অনেক ইনভেস্ট করেছে। তারা ট্রায়াল শুরু করার জন্য দুদিনের মধ্যে চিঠি দিয়ে অফিশিয়ালি সিদ্ধান্ত জানাবে। আমরা আশাবাদী দ্রুততম সময়ের মধ্যে তারা এগিয়ে আসবে। তাদের কাছে জানতে চেয়েছি, কবে শুরু করবে? তারা বলেছে, ফরমাল চিঠি দেবে, যা আগামীকাল (আজ মঙ্গলবার) বা পরদিন হয়তো পাব। আইসিসিডিডিআর,বি সরাসরি তাদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে। সচিব বলেন, এছাড়া ভারতের কোম্পানিও কিছু প্রস্তাব দিয়েছে। রাশিয়ার কোম্পানির সঙ্গে যোগাযোগ করেছি। তারা আমাদের ফার্মাসিউটিক্যালস কোম্পানিগুলোকে কাজে লাগাতে চাচ্ছে। ইনসেপ্টা, পপুলার, বেক্সিমকো, হেলথ কেয়ার, স্কয়ারসসহ বড় কোম্পানিগুলোর কথা বলেছে তারা। বেলজিয়াম ও ফ্রান্সের কোম্পানিও আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে। আমরা পর্যাপ্ত অর্থ বরাদ্দ রেখেছি প্রয়োজনে অর্থের বিনিময়ে ক্রয় করে যেন ভ্যাকসিন নিয়ে আসতে পারি। একটি বিদেশি প্রজেক্টের ১০০ মিলিয়ন ডলার অর্থ আমরা বরাদ্দ রেখেছি। এ ছাড়া আরও কিছু অর্থ রাখা হয়েছে। তিনি আরও বলেন, আমরা প্রথমেই আড়াই থেকে তিন মিলিয়ন ভ্যাকসিন আনতে চাচ্ছি। যারা ফ্রন্টলাইনার তারা বিনামূল্যে ভ্যাকসিন পাওয়ার ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার পাবে। সাংবাদিকরাও ঘরের বাইরে কাজ করছেন, তারাও গুরুত্ব পাবেন। সাধারণ মানুষের জন্য কতটা অ্যাভেইলেবল করা যায় সেটি দেখছি। তবে যারা বয়স্ক মানুষ এবং বিভিন্ন শারীরিক জটিলতায় ভুগছেন তাদের আমরা অগ্রাধিকার দেব। স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিবহন পুলের গাড়িচালক আবদুল মালেকের বিষয়ে আবদুল মান্নান বলেন, তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে এবং তার মতো আর যারা দুর্নীতিবাজ আছে তাদের বিরুদ্ধেও অনুসন্ধান হবে। সচিব মো. আবদুল মান্নান বলেন, দুর্নীতি করে পার পাওয়ার কোনো সুযোগ নেই। যারাই দুর্নীতির সাথে জড়িত থাকুক, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এ ব্যাপারে শক্ত অবস্থানে। সাবেক মহাপরিচালকের গাড়িচালক এখনো কেন বরখাস্ত হচ্ছেন না এ ব্যাপারে আজই জানতে চাওয়া হবে। গত রোববার বিকেল সোয়া ৩টার দিকে তুরাগের বামনারটেক এলাকার একটি সাততলা ভবন থেকে র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার হন আবদুল মালেক। অবৈধ অস্ত্র, জাল নোটের ব্যবসা, চাঁদাবাজি ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের অভিযোগে তাকে গ্রেফতার করার পর র‌্যাব বলছে, তৃতীয় শ্রেণির এই কর্মচারীর বিপুল সম্পদের খোঁজ পেয়েছেন তারা। মালেককে গ্রেফতারের পর র‌্যাব জানায়, তার দুটি সাততলা ভবন, নির্মাণাধীন একটি ১০ তলা ভবন, জমি, গরুর খামার ও বিভিন্ন ব্যাংকে নামে-বেনামে বিপুল পরিমাণ গচ্ছিত অর্থের সন্ধান পাওয়া গেছে। তার সম্পদের অর্থমূল্য শত কোটি টাকারও ওপরে। র‌্যাবের দাবি, এ সময় তার কাছ থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, একটি ম্যাগজিন, পাঁচ রাউন্ড গুলি, দেড় লাখ জাল বাংলাদেশি টাকা, একটি ল্যাপটপ ও একটি মোবাইল জব্দ করা হয়। র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আশিক বিল্লাহ গণমাধ্যমকে জানান, স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিবহন পুলের গাড়িচালক ও তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারী আবদুল মালেক অষ্টম শ্রেণি পাস। তিনি ১৯৮২ সালে প্রথম সাভার স্বাস্থ্য প্রকল্পের গাড়িচালক হিসেবে যোগ দেন। বছর চারেক পর অধিদফতরের পরিবহন পুলে যোগ দেন। গ্রেফতারের আগ পর্যন্ত তিনি প্রেষণে স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিবহন পুলের গাড়িচালক ছিলেন। ভয় দেখিয়ে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে তিনি বিপুল বিত্ত-বৈভবের মালিক হয়েছেন। স্বাস্থ্য অধিদফতরের কর্মকর্তাদের আস্থাভাজন ছিলেন মালেক। সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গের সঙ্গে সম্পর্কের সুবাদে তিনি বিপুল পরিমাণ সম্পদের মালিক হয়েছেন বলে র‌্যাব জানতে পেরেছে।

কুষ্টিয়ায় র‌্যাবের অভিযানে ফেন্সিডিল সহ ৩ জন গ্রেফতার

নিজ সংবাদ ॥ র‌্যাব-১২, সিপিসি-১, কুষ্টিয়া ক্যাম্পের একটি চৌকষ আভিযানিক দল গতকাল সোমবার দুপুর দেড়টার দিকে কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলার ভেড়ামারা বাসষ্ট্যান্ডের পাশে জনৈক মোঃ রেজাউল আলম পিতা-মৃত কোরবান শেখ, সাং-কাচারীপাড়া, থানা-ভেড়ামারা, জেলা-কুষ্টিয়া এর গার্মেন্টস এর সামনে পাঁকা রাস্তার উপর’’ একটি মাদক অভিযান পরিচালনা করে। উক্ত অভিযানে ফেন্সিডিল-৬৭ বোতল, মোবাইল ফোন-৩টি, সীমকার্ড-৪টি ও নগদ-৫শত টাকাসহ মোঃ জিয়া সরকার (৩৫), পিতা-মৃত রহিম সরকার, সাং-তিনগাছা রাজাপুর, মোছাঃ রোজিনা খাতুন (৩২), স্বামী-মোঃ জিয়া সরকার, সাং-তিনগাছা রাজরপুর, ও মোঃ রেজাউল (৪৫), পিতা-মৃত-নুর আলম, (বর্তমানে) সাং-সালগাড়িয়া, (স্থায়ী ঠিকানা) সাং-মাহমুদপুর, উভয় থানা-পাবনা সদর, জেলা-পাবনাদের’কে গ্রেফতার করা হয়। পরবর্তীতে উদ্ধারকৃত আলামতসহ গ্রেফতারকৃতদের  বিরুদ্ধে কুষ্টিয়া ভেড়ামারা থানায় একটি মাদক মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং গ্রেফতারকৃত আসামীদের’কে কুষ্টিয়া ভেড়ামারা থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

জাতিসংঘে ভার্চুয়াল বৈঠকে বক্তব্য দেবেন প্রধানমন্ত্রী

ঢাকা অফিস ॥ জাতিসংঘের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো ভার্চুয়াল বৈঠকে অংশগ্রহণ করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ভার্চুয়াল উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আজ মঙ্গলবার ভোর ৪টায় প্রধানমন্ত্রী বক্তব্য দেবেন। আগামী ১ অক্টোবর পর্যন্ত মোট সাতটি অনুষ্ঠানে ঢাকা থেকে অংশ নেবেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী কোভিড-১৯, রোহিঙ্গা, জলবায়ু পরিবর্তন, লৈঙ্গিক বৈষম্য হ্রাস, অভিবাসী শ্রমিকদের অধিকার, টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রাসহ অন্যান্য বিষয় নিয়ে কথা বলবেন। গতকাল সোমবার পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে একথা বলেন। তিনি বলেন, আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে মূল বক্তব্য দেবেন। সেখানে তিনি রোহিঙ্গা বিষয়সহ অন্যান্য বিষয় নিয়ে আলোচনা করবেন। বক্তব্যে কোভিড-১৯, রোহিঙ্গা, জলবায়ু পরিবর্তন, লৈঙ্গিক বৈষম্য হ্রাস, অভিবাসী শ্রমিকদের অধিকার, টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রাসহ অন্যান্য বিষয় নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বক্তব্য দেবেন বলে আশা করা হচ্ছে। রোহিঙ্গা বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী কী বলবেন জানতে চাইলে মোমেন বলেন, তিনি কী বলবেন আমি জানি না। তবে আগে যা বলেছেন তার ধারাবাহিকতা বজায় রেখে তিনি বক্তব্য দেবেন। তিনি বলেন, প্রতিবারের মতো এবারও জাতিসংঘের অধিবেশনে বাংলাদেশ রোহিঙ্গা সমস্যাটি তুলে ধরবে। বিশেষ করে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে সংঘটিত অপরাধ বিষয়ে সাম্প্রতিক সময়ে আইসিজেতে চলমান মামলা এবং আইসিসিতে রোহিঙ্গা নির্যাতনে দায়ী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে চলমান আইনি প্রক্রিয়ার কারণে এবারের অধিবেশনে রোহিঙ্গা সমস্যা আগের বছরগুলোর মতোই গুরুত্বসহকারে আলোচিত হবে। এবারে ভার্চুয়াল বৈঠক হওয়ার কারণে কোনও সাইডলাইন বৈঠক হবে না বলেও জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, এ বছর জাতিসংঘের ৭৫ বছর পূর্তি। জাতিসংঘ প্রতিষ্ঠার ৭৫ বছর পূর্তিতে অনুষ্ঠিতব্য এই অধিবেশন যেমন বর্তমান বিশ্ব প্রেক্ষাপটে বহুপাক্ষিকতাবাদের প্রাসঙ্গিকতাকে সামনে নিয়ে আসবে, তেমনি বিশ্ব নেতৃবৃন্দ আগামী বছরগুলোতে কী ধরনের জাতিসংঘ দেখতে চান সে বিষয়ে তাদের অভিমত, চিন্তাধারা ও পরিকল্পনা তুলে ধরবেন। কোভিড-১৯ মহামারি দমনে রাষ্ট্রসমূহের সমন্বিত কার্যক্রম পরিচালনার বিষয়টিও এবারের অন্যতম আলোচিত বিষয় হিসেবে গণ্য হচ্ছে বলে তিনি জানান। মন্ত্রী বলেন, এবারের অধিবেশনে অংশগ্রহণের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী একদিকে যেমন কোভিড-১৯ মোকাবিলায় বাংলাদেশ সরকারের গৃহীত নানাবিধ পদক্ষেপের বিষয়ে আলোকপাত করতে পারবেন, তেমনি এসডিজি বাস্তবায়নে বাংলাদেশের সাফল্য ও অগ্রগতি, নারী উন্নয়ন ও নারীর অধিকার প্রতিষ্ঠায় বাংলাদেশের অনুসরণীয় কার্যক্রম, দারিদ্র্য বিমোচনে গৃহীত নানাবিধ পদক্ষেপ, সন্ত্রাসবাদ, জঙ্গিবাদ দমন ও মাদকের বিস্তার রোধ, বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতি, গণতন্ত্র ও সুশাসনের ধারা অব্যাহত রাখা ও সর্বোপরি বিশ্ব শান্তি রক্ষায় বাংলাদেশের অবদানের বিষয়ে বিশ্ববাসীকে অবহিত করতে পারবেন।

তিস্তাসহ অভিন্ন নদীর পানি বণ্টন আলোচনায় ইতিবাচক অগ্রগতি হয়েছে – কাদের

ঢাকা অফিস ॥ তিস্তাসহ অভিন্ন নদীর পানি বণ্টনের আলোচনায় ইতিবাচক অগ্রগতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। গতকাল সোমবার সচিবালয়ের কার্যালয়ে বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের হাইকমিশনার রীভা গাঙ্গুলী দাসের বিদায়ী সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে ব্রিফিংয়ে ওবায়দুল কাদের এ তথ্য জানান। ভারতীয় ঋণ কর্মসূচির আওতায় দেশের সড়ক অবকাঠামো উন্নয়ন, বিআরটিসির জন্য বাস ও ট্রাক এবং সড়ক উন্নয়নে যন্ত্রপাতি সংগ্রহে অর্থায়নের জন্য বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে ভারত সরকারকে ধন্যবাদ জানান সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী। তিনি বলেন, বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বহুমাত্রিক। একুশ বছর দুই দেশের মধ্যে সম্পর্কের যে কৃত্রিম দেয়াল ছিল তা এখন আর নেই। দুই দেশের সরকার এবং জনগণের মাঝে সম্পর্ক উন্নয়নে বাংলাদেশ ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী অত্যন্ত উদার এবং ভবিষ্যৎমুখী বলে জানান ওবায়দুল কাদের। মন্ত্রী বলেন, প্রতিবেশী দেশের সাথে সুসম্পর্ক ও পারস্পরিক বোঝাপড়া ভালো থাকলে যেকোনো সমস্যার সমাধান সহজতর হয়। সীমান্ত সমস্যা ও ছিটমহল বিনিময়ের মতো দীর্ঘকালীন সমস্যার সমাধান তারই উদাহরণ। সাক্ষাৎকালে দেশের সড়ক যোগাযোগ অবকাঠামো উন্নয়নে ভারতীয় ঋণ কর্মসূচির আওতায় গৃহীত প্রকল্পসমূহ এগিয়ে নিতে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতার জন্য হাইকমিশনার মন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান।

করোনায় শনাক্ত সাড়ে ৩ লাখ ছাড়ালো, মৃত্যু ৫ হাজার ছুঁইছুঁই

ঢাকা অফিস ॥ দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্ত হয়েছেন এক হাজার ৭০৫ জন। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত ৩ লাখ ৫০ হাজার ৬২১ জন শনাক্ত হলেন। অন্যদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যুবরণ করেছেন ৪০ জন, এ নিয়ে মোট ৪ হাজার ৯৭৯ জনের মৃত্যু হলো, অর্থাৎ মৃতের সংখ্যা পাঁচ হাজার ছুঁইছুঁই। ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ১৫২ জন, এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ২ লাখ ৫৮ হাজার ৭১৭ জন। গতকাল সোমবার স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত করোনা-বিষয়ক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সর্বশেষ এসব তথ্য জানানো হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১২ হাজার ৯৬৭টি, নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১৩ হাজার ৫৩টি। এখন পর্যন্ত ১৮ লাখ ৩৪ হাজার ৩২৩টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। নমুনা পরীক্ষার মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত হয়েছেন এক হাজার ৭০৫ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ০৬ শতাংশ এবং এখন পর্যন্ত ১৯ দশমিক ১১ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৭৩ দশমিক ৭৯ শতাংশ এবং মৃত্যুর হার এক দশমিক ৪১ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ২৭ জন পুরুষ এবং ১৩ জন নারী। এখন পর্যন্ত পুরুষ ৩ হাজার ৮৭৩ জন এবং নারী মৃত্যুবরণ করেছেন এক হাজার ১০৬ জন। ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়াদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ৬০ ঊর্ধ্ব ২০ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ১০ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ৪ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ৩ জন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে ২ জন এবং ০ থেকে ১০ বছরের মধ্যে একজন রয়েছেন। বিভাগ বিশ্লেষণে দেখা যায়, মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ২৬ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ৯ জন, রংপুর বিভাগে ২ জন এবং রাজশাহী, খুলনা ও বরিশাল বিভাগে একজন করে রয়েছেন। ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেছেন ৩৭ জন, মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়েছে একজনকে এবং বাড়িতে মৃত্যুবরণ করেছেন দুই জন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে স্বাস্থ্য অধিদফতর আরও জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে রাখা হয়েছে ৩ হাজার ৩২৯ জনকে। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১৬ হাজার ৪০২ জন। ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশন থেকে ছাড়া পেয়েছেন ৬৬৩ জন, এখন পর্যন্ত ছাড়া পেয়েছেন ৬২ হাজার ৮৯১ জন। এখন পর্যন্ত আইসোলেশন করা হয়েছে ৭৯ হাজার ২৯৩ জনকে। প্রাতিষ্ঠানিক ও হোম কোয়ারেন্টিন মিলে ২৪ ঘণ্টায় কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে এক হাজার ২৫৮ জনকে। কোয়ারেন্টিন থেকে গত ২৪ ঘণ্টায় ছাড়া পেয়েছেন এক হাজার ৫৯২ জন, এখন পর্যন্ত ছাড়া পেয়েছেন ৪ লাখ ৭৮ হাজার ৭২ জন। এখন পর্যন্ত কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে ৫ লাখ ২৪ হাজার ৯৭৬ জনকে। বর্তমানে কোয়ারেন্টিনে আছেন ৪৬ হাজার ৯০৪ জন।

অ্যান্টিজেন টেস্টের অনুমতি দিল স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়

ঢাকা অফিস ॥ কয়েক মাস আমলাতান্ত্রিক জটিলতার পরে অবশেষে কোভিড-১৯ এর জন্য সরকারি স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রগুলোতে এন্টিজেন ভিত্তিক র‌্যাপিড টেস্টিংয়ের অনুমতি দিয়েছে সরকার। গতকাল সোমবার স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের উপ-সচিব বিলকিস বেগম স্বাক্ষরিত এক আদেশে এ অনুমতি দেয়ার কথা বলা হয়েছে। তবে আদেশে ১৭ সেপ্টেম্বর তারিখ উল্লেখ রয়েছে। আদেশে বলা হয়, সারাদেশে এন্টিজেন টেস্টের চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে অতি স্বল্প সময়ে কোভিড-১৯ শনাক্তকরণের জন্য মহাপরিচালক স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রস্তাবনা এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাইডলাইন অনুসরণপূর্বক দেশের সকল সরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, সরকারি পিসিআর ল্যাব এবং সকল স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটে এন্টিজেন ভিত্তিক টেস্ট চালুর অনুমতি নির্দেশক্রমে প্রদান করা হলো। আদেশে আরও বলা হয়, তবে শর্ত থাকে যে, যাচাই-বাছাইয়ের নিমিত্তে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রক্রিয়াধীন কোভিড-১৯ ল্যাব সম্প্রসারণ নীতিমালাটি চূড়ান্ত হলে তা যথাযথভাবে অনুসরণ করতে হবে। এর আগে গত ৫ জুলাই এন্টিজেন ভিত্তিক র‌্যাপিড টেস্টের অনুমোদন দেয়ার ব্যাপারে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়কে অনুরোধ করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক। এছাড়াও করোনাভাইরাস সম্পর্কিত জাতীয় পরামর্শক কমিটিও এই এন্টিজেন ভিত্তিক র‌্যাপিড টেস্টের অনুমোদন দেয়ার ব্যাপারে কয়েক বার সুপারিশ জানিয়েছিল। এদিকে, দেশে নতুন করে ১ হাজার ৭০৫ জন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছেন। যার ফলে মহামারি করোনাভাইরাসে মোট আক্রান্তের সংখ্যা পৌঁছেছে ৩ লাখ ৫০ হাজার ৬২১ জনে। এছাড়া, করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও ৪০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪ হাজার ৯৭৯ জনে দাঁড়িয়েছে।

মিরপুরে স্বাস্থ্য সচেতনতা ও হাইজিন প্রমোশনমূলক প্রশিক্ষণ

আমলা অফিস ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুরে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্বাস্থ্য সচেতনতা ও হাইজিন প্রমোশনমূলক প্রশিক্ষণ কর্মসূচী উদ্বোধন করা হয়েছে। গতকাল সোমবার সকালে অডিটোরিয়ামে উপজেলা পরিষদের আয়োজনে ও উপজেলা জনস্বাস্থ্য, স্যানিটেশন ও বিশুদ্ধ পানি বিষয়ক কমিটির বাস্তবায়নে এবং উপজেলা পরিচালন ও উন্নয়ন প্রকল্প, স্থানীয় সরকার বিভাগ ও জাপান ইন্টারন্যাশনাল কোঅপারেশন এজেন্সীর (জাইকা) সহযোগিতায় ৪ দিনব্যাপী এ প্রশিক্ষণ কর্মসূচীর উদ্বোধন করা হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লিংকন বিশ্বাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামারুল আরেফিন। উপজেলা জনস্বাস্থ্য অধিদপ্তরের উপ-সহকারী প্রকৌশলী রিপন মিয়ার পরিচালনায় এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান মর্জিনা খাতুন, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) রকিবুল হাসান, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডাঃ মামুন-অর-রশীদ, সহকারী উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা রবিউল ইসলাম, উপজেলা ডেভেলপমেন্ট ফ্যাসিলিটেটর উত্তম কুমার বিশ^াস প্রমুখ।

 

শেখ হাসিনা মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় আইন চূড়ান্ত অনুমোদন

ঢাকা অফিস ॥ ‘শেখ হাসিনা মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা, আইন, ২০২০’ এর খসড়া চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। গতকাল সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে ভার্চুয়াল মন্ত্রিসভা বৈঠকে এ অনুমোদন দেয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে এবং সংশ্লিষ্ট মন্ত্রীরা সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে বৈঠকে যুক্ত হন। বৈঠক শেষে সচিবালয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম আইনটি অনুমোদনের কথা জানান। তিনি বলেন, এর আগেও (গত ১৩ জুলাই) এটি নীতিগত অনুমোদনের জন্য এসেছিল, তখন বিস্তারিত আলাপ-আলোচনা করে এটা অনুমোদন দেয়া হয়। লেজিসলেটিভ বিভাগের মতামত পাওয়ার পর স্বাস্থ্য শিক্ষা বিভাগ থেকে এটা চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য পাঠানো হয়েছে। মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, চিকিৎসা শিক্ষায় উচ্চশিক্ষিত বিশেষজ্ঞ গবেষক তৈরির লক্ষ্যে স্নাতকোত্তর পর্যায়ে চিকিৎসা শিক্ষা ও গবেষণা এবং স্নাতক পর্যায়ে চিকিৎসা শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনার জন্য মেডিকেল কলেজগুলোর শিক্ষার মান সংরক্ষণ ও উন্নয়নে খুলনা বিভাগে একটা মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করা প্রয়োজন। এটা প্রতিষ্ঠিত হলে খুলনা অঞ্চলের মধ্যে যত মেডিকেল কলেজ, নার্সিং ইনস্টিটিউট বা অন্য চিকিৎসা-সংক্রান্ত যেসব ইনস্টিটিউট থাকবে সবই এই খুলনা শেখ হাসিনা মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে চলে আসবেএর আগে রাজশাহী, চট্টগ্রাম ও সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য যে আইন প্রণয়ন করা হয়েছিল তার সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে একই রকম আইন করা হয়েছে বলেও জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব। খসড়া আইনে মোট ৫৫টি ধারা রয়েছে জানিয়ে খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, এতে বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন, এখতিয়ার এবং ক্ষমতার বিষয়ে বর্ণনা করা হয়েছে। পরিদর্শন ও আর্থিক বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের ভূমিকা উল্লেখ রয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য, উপ-উপাচার্য, কোষাধ্যক্ষ, রেজিস্ট্রার, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ও কর্মচারীদের নিয়োগ প্রক্রিয়া, ক্ষমতা ও দায়িত্ব বর্ণনা করা হয়েছে আইনে। তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেট, অ্যাকাডেমিক কাউন্সিল, অনুষদ, বিভাগ, প্রয়োজনীয় কমিটি ও শৃঙ্খলা বোর্ড গঠন এবং এদের ক্ষমতা ও দায়িত্ব বর্ণনা করা হয়েছে খসড়া আইনে। রাষ্ট্রপতি থাকবেন এর চ্যান্সেলর। সমাবর্তন বা অন্য কোনো অনুষ্ঠান যেখানে রাষ্ট্রপতি থাকার কথা, সেখানে যদি উনি থাকতে না পারেন তবে উনি যাকে নির্বাচন করে দেবেন উনি তার পক্ষে সেখানে চিফ হিসেবে থাকবেন। এখন মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সংখ্যা পাঁচটি হচ্ছে বলেও জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম। রহিত হচ্ছে চিকিৎসা ডিগ্রি আইন: মন্ত্রিসভা ‘চিকিৎসা ডিগ্রি (দ্য মেডিকেল ডিগ্রিস) (রহিতকরণ) আইন, ২০২০’ এর খসড়া নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে। মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, মেডিকেল কলেজের ডিগ্রি ও মান সবকিছু নির্ধারিত হতো ‘দ্য মেডিকেল ডিগ্রি অ্যাক্ট, ১৯১৬’ দিয়ে। পরবর্তী সময়ে ২০১০ সালে বিএমডিসি বা ‘বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিল আইন, ২০১০’ করা হলো। ১৯১৬ সালের আইনের যত প্রভিশন ও মোডিফিকেশন প্রয়োজন ছিল সবই ২০১০-এর আইনে নিয়ে আসা হয়েছে। ফলে ‘দ্য মেডিকেল ডিগ্রিস অ্যাক্ট, ১৯১৬’ এর কোনো কার্যকারিতা নেই। সেজন্য এটা ওনারা (চিকিৎসা শিক্ষা বিভাগ) রহিত করার প্রস্তাব নিয়ে এসেছেন।

দৌলতপুরে পদ্মা নদীতে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান

সরকারী নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে অবৈধভাবে বালি উত্তোলনের দায়ে ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ড

শরীফুল ইসলাম ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে সরকারী নিষেধাজ্ঞা অম্যান্য করে পদ্মা নদীতে অবৈধভাবে বালি উত্তোলনের দায়ে তছিকুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তির ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ড করেছেন ভ্রাম্যমান আদালত। গতকাল সোমবার বিকেলে দৌলতপুর উপজেলার মরিচা ইউনিয়নের বৈরাগীরচর এলাকায় পদ্মা নদীতে অভিযান চালিয়ে বালি উত্তোলন করার সময় ওই ব্যক্তির এ অর্থদন্ড করা হয়। ভ্রাম্যমান আদালত সূত্র জানায়, সরকারী নিষেধাজ্ঞা অম্যান্য করে পদ্মা নদীতে অবৈধভাবে বালি উত্তোলন করা হচ্ছে এমন সংবাদ পেয়ে দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তার ও দৌলতপুর সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আজগর আলীর নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত পদ্মা নদীতে অভিযান চালায়। এসময় বৈরাগীরচর পূর্বপাড়া এলাকার আফজাল সরকারের ছেলে অবৈধভাবে বালি উত্তোলনকারী তছিকুল ইসলাম (৩২) কে আটক করে। পরে বালু মহল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন ২০১০ এর ৪/১৫(১) ধারায় তাকে ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ড করেন ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মো. আজগর আলী। এসময় তাকে সতর্ক করা হয়।

গ্রেফতারের ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই ছেড়ে দেয়া হলো নূরকে

গ্রেফতারের ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই ছেড়ে দেয়া হয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের সাবেক সহ-সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুরকে। ডিবির যুগ্ম কমিশনার মাহবুব আলম জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, ‘নুরকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে’। এর আগে গতকাল সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৮টার দিকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। ধর্ষণের মামলার পাশাপাশি পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগেও তাকে আটক করা হয়। এরপর তাকে নেয়া হয় ডিবি কার্যালয়ে। এর কিছুক্ষণ পরই তাকে ছেড়ে দেয়া হয়। নুরসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে লালবাগ থানায় ঢাবি ছাত্রীর করা ধর্ষণের মামলার প্রতিবাদে রাজু ভাস্কর্যে সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) বিকেলে বিক্ষোভ করে বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদ। সেখানেই পুলিশের ওপর হামলা করা হয়েছে বলে অভিযোগ আনা হয়। এ বিষয়ে ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন বিভাগের উপ-কমিশনার ওয়ালিদ হোসেন বলেন, ‘তাকে ডিবি কার্যালয়ে নেয়া হয়েছে। তারা যে সমাবেশ করছিল সে সমাবেশ থেকে পুলিশের ওপর হামলা করা হয়েছে। সে হামলার ঘটনায় একটা মামলা করা হবে। সে মামলায়ও তাকে গ্রেফতার দেখানো হবে।’ তিনি আরও বলেন, ‘তাকে মামলার বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে ডিবি কার্যালয়ে। এরপর তাকে আদালতে পাঠানোর বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।’ এর আগে রোববার (২০ সেপ্টেম্বর) রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) এক শিক্ষার্থী লালবাগ থানায় এ মামলাটি করেন। মামলায় মোট ছয় জনকে আসামি করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ধর্ষণে সহযোগী হিসেবে নুরুল হক নুরের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। এদিকে এ মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য ৭ অক্টোবর দিন ধার্য করেছেন আদালত। সোমবার ঢাকা মহানগর হাকিম বেগম ইয়াসমিন আরা মামলার এজাহার গ্রহণ করে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য এ দিন ধার্য করেন। মামলার প্রধান আসামি করা হয়েছে বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুনকে। ধর্ষণের স্থান হিসেবে লালবাগ থানার নবাবগঞ্জ বড় মসজিদ রোডে হাসান আল মামুনের বাসার কথা উল্লেখ করা হয়েছে। বাদী শিক্ষার্থী ঢাবির বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলে থাকেন। নুর ও মামুন ছাড়া মামলার অন্য আসামিরা হলেন- বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের যুগ্ম-আহ্বায়ক নাজমুল হাসান সোহাগ, বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের যুগ্ম-আহ্বায়ক (২) মো. সাইফুল ইসলাম, ছাত্র অধিকার পরিষদের সহ-সভাপতি মো. নাজমুল হুদা এবং ঢাবি শিক্ষার্থী আবদুল্লাহ হিল বাকি।