জাপানের নতুন প্রধানমন্ত্রী সুগা

ঢাকা অফিস ॥ জাপানের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে বিদায়ী শিনজো অ্যাবের যোগ্য উত্তরসূরী ইউশিহিদে সুগাকে বেছে নিল ক্ষমতাসীন সরকার দল ডেমোক্র্যাট পার্টি-এলডিপি। করোনাভাইরাসে হিমশিম খাওয়া জাপানের হাল যে তিনিই ধরতে যাচ্ছেন তা স্পষ্ট। ৭১ বছর বয়সী মি. সুগা বর্তমানে জাপানের মন্ত্রিসভার প্রধানের দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি সাবেক প্রধানমন্ত্রী শিনজো অ্যাবের ঘনিষ্ঠজন হিসেবে পরিচিত। সংসদ সদস্য ও আঞ্চলিক প্রতিনিধিদের কাছ থেকে ৫৪৪টি ভোটের মধ্যে ৩৭৭টি ভোট পেয়ে রক্ষণশীল লিবারেল ডেমোক্র্যাটিক পার্টি- এলডিপির সভাপতি পদে বড় ব্যবধানে বিজয়ী হন সুগা।  দেশটিতে জাতীয় নির্বাচন না হওয়া পর্যন্ত আগামী ২০২১ সাল পর্যন্ত অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের নেতৃত্ব দিয়ে যাবেন ইউশিহিদে সুগা। গত (২৮ আগস্ট) শারীরিক অসুস্থতাজনিত কারণ দেখিয়ে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন শিনজো অ্যাবে। দীর্ঘ আট বছর ধরে জাপানের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন তিনি। অ্যাবের হঠাৎ পদত্যাগে দুঃখপ্রকাশ করে তাকে মহানবন্ধু অ্যাখা দেন বিশ্ব নেতারা।

৩ মাস আগে সিটি নির্বাচন, মেয়র-কাউন্সিলরদের ছুটি একমাস

ঢাকা অফিস ॥ সিটি করপোরেশনের মেয়র-কাউন্সিলরদের মেয়াদ পূর্ণ হওয়ার ছয় মাস নয়, তিন মাস আগেই নির্বাচনের বিধান রেখে ‘স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন), (সংশোধন) আইন, ২০২০’ এর খসড়া নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। একই সঙ্গে মেয়র-কাউন্সিলরদের ছুটি তিন মাস থেকে কমিয়ে একমাস করা হয়েছে। সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে ভার্চ্যুয়াল মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ অনুমোদন দেওয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে এবং সংশ্লিষ্ট মন্ত্রীরা সচিবালয় থেকে বৈঠকে সংযুক্ত ছিলেন। সর্বশেষ ঢাকা দক্ষিণ ও উত্তর সিটি করপোরেশনের নির্বাচিত দুই মেয়রকে শপথ নেওয়ার পরও দায়িত্ব পেতে দীর্ঘদিন অপেক্ষা করতে হয়েছিল। কারণ তখনও আগের মেয়র ও কাউন্সিলরদের মেয়াদ শেষ হয়নি। বৈঠক শেষে সচিবালয়ে ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম জানান, বাস্তবে (সিটি করপোরেশন আইন অনুযায়ী) দেখা গেছে, কাজ করতে গেলে কিছু অসুবিধা হয়। এখন নিয়ম রয়েছে, (মেয়াদ উত্তীর্ণের আগে) ছয় মাসের (১৮০ দিন) মধ্যে নির্বাচন করতে হবে। অন্যদিকে যেদিন তারা (মেয়র ও কাউন্সিলর) মিটিং করবে সেই থেকে পাঁচ বছর পর্যন্ত তাদের সময় থাকবে। দেখা গেছে, ৪/৫ মাস আগে যদি নির্বাচন হয়ে যায়, শপথ হলেও তারা দায়িত্ব নিতে পারতেছেন না, এ কন্ট্রাডিকশনের জন্য অনেক দিন তাদের অপেক্ষা করতে হয়। মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, নির্বাচন ছাড়া শপথ নেওয়ার পরও তাদের অপেক্ষা করতে হয়। সেজন্য এটাকে একটু পরিবর্তন করে নিয়ে আসা হযেছে যে তিন মাসের মধ্যে নির্বাচন শেষ করতে হবে। যেদিন শপথ হবে এর ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে দায়িত্ব হস্তান্তর হয়ে যাবে। এ ব্যবস্থায় মেয়র ও কাউন্সিলরদের মেয়াদ থাকার পরও কী তাদের পদ বিলুপ্ত হয়ে যাবে- প্রশ্নে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, এ বিষয়ে হ্যাঁ, বিলুপ্ত হয়ে যাবে। কারণ এখন তো আর ১৮০ দিন অপেক্ষা করতে হচ্ছে না। এতে ১৫ বা ১০ দিনের একটা ভেরিয়েশন হয়। আগে তো তিন থেকে সাড়ে তিন মাস বসে থাকতে হতো। তিনি বলেন, নতুন আইনে বলা হচ্ছে মেয়াদ সম্পর্কে আইনে যাই থাকুক, নতুন পরিষদ যেদিন থেকে শপথ নেবে তার ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে প্রথম মিটিং করবে এবং সেই দিন থেকেই আগের পরিষদ বিলুপ্ত হয়ে যাবে। সংশোধনীতে মেয়র-কাউন্সিলরদের ছুটিও কমিয়ে আনার প্রস্তাব করা হয়েছে বলে জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব। ‘সিটি করপোরেশনগুলোতে যারা (মেয়র ও কাউন্সিলর) ছিলেন বছরে তাদের তিন মাস ছুটি ছিল। মন্ত্রিসভা বলেছে, ওনারা জনপ্রতিনিধি কিন্তু তাদের এক্সিকিউটিভ ফাংশন আছে, সুতরাং বছরে ছুটি একমাস করে দেওয়া হলো।

আমবাড়ীয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের মতবিনিময় সভা

মিলন আলী ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার আমবাড়ীয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি, সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল বারী টুটুলের সভাপতিত্বে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের মতবিনিময় সভা হালসা বাজার ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়।  মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, সিনিয়র সহ সভাপতি সাবান আলী, সহ-সভাপতি মোশারফ হোসেন মুসা, যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক মনিরুজ্জামান বাবু মেম্বর, যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক মাহাবুব আলম ঝন্টু, যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক প্রভাষক সানা উল্লাহ, বীর মুক্তিযোদ্ধা সামসুল আলম, আ.লীগ নেতা আব্দুল মোমিন, সিরাজুল ইসলাম সিরাজ, রাশেদ আহমেদ, আমিরুল ইসলাম, মিলন আলী, রাজিব আহ¤েমদ, জসিম উদ্দিন, আব্দুস সালাম, আবু সামা বাদশা, জাহাঙ্গীর মালিথা। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন- ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক মেম্বর দাউদ আলী। মুলত আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন এবং দলীয় কার্যকলাপকে আরও তরান্বিত করার জন্য ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের এই মতবিনিময় সভা বলে জানিয়েছেন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সাইফুল ইসলাম।

মেজর সিনহা হত্যা মামলায় আরও এক আসামি গ্রেফতার

ঢাকা অফিস ॥ মেজর সিনহা হত্যা মামলায় জড়িত অভিযোগে রুবেল শর্মা নামের আরও এক আসামিকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১৫। তিনি হলেন, টেকনাফ থানার পুলিশ কনস্টেবল রুবেল। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে সোমবার দুপুর ১২টার দিক কক্সবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পাঠানো হয়েছে। র‌্যাব-১৫ কক্সবাজার ব্যাটালিয়নের উপ-অধিনায়ক মেজর মেহেদী হাসান জানিয়েছেন, আলোচিত মেজর সিনহা হত্যা মামলায় আগে গ্রেপ্তারকৃত অন্যান্য আসামিরা রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ করার সময় পুলিশের কনস্টেবল রুবেল শর্মার নাম আসে। এ কারণে রোববার  রাতে র‌্যাবরে একটি দল রুবেলকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে আসে। ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে মেজর সিনহা হত্যা মামলায় জড়িত সন্দেহে তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়। সোমবার তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। তবে তাকে এখনো কোনো রিমান্ড চাওয়া হয়নি। তদন্ত কর্মকর্তা প্রয়োজন মনে করলে পরবর্তীতে তাকে রিমান্ড নেওয়া যেতে পারে। প্রসঙ্গত, ৩১ জুলাই রাতে টেকনাফের শামলাপুর চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন অবসরপ্রাপ্ত সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান। এরপর ৫ আগস্ট এ ঘটনায় ৯ জনের বিরুদ্ধে কক্সবাজার আদালতে মামলা করেন সিনহার বোন শারমিন শাহরিয়ার ফেরদৌস। মামলাটি র‌্যাবকে তদন্তভারও দেওয়া হয়। ৬ আগস্ট আদালতে আত্মসমর্পণ করেন পুলিশের ৭ সদস্য। গত এক মাসে র‌্যাব এপিবিএন’র ৩ সদস্য, পুলিশের মামলার ৩ সাক্ষীকে আটক করে মোট ১৩ জনকে নানা মেয়াদে রিমান্ডে নিয়েছে। ১২ আসামি এ পর্যন্ত আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। এরমধ্যেই সেমাকার আদালতে নতুন আবেদনটি করলেন বাদী।

অস্ত্র মামলার সাহেদের বিরুদ্ধে আরও ৪ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ

ঢাকা অফিস ॥ রিজেন্ট হাসপাতাল ও রিজেন্ট গ্র“পের চেয়ারম্যান মো. সাহেদের বিরুদ্ধে অস্ত্র মামলায় আরও চার জনের সাক্ষ্য গ্রহণ করেছেন আদালত। সোমবার ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশ সাক্ষ্য গ্রহণ করেন। আদালত পরবর্তী সাক্ষ্য গ্রহণের জন্য আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর দিন ধার্য করেছেন। এ নিয়ে নয় জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষ হলো। সংশ্লিষ্ট আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর আব্দুল্লাহ আবু এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। সোমবার সাক্ষ্য দিয়েছেন- তপন চন্দ্র সাহা (পরিদর্শক), রবিউল ইসলাম (উপ-পরিদর্শক ), জাহাঙ্গীর আলম ও হাসান মাহমুদ নামে দুই ব্যক্তি। এর আগে গত ২৭ আগস্ট এ মামলায় ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশ সাহেদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন। গত ১৯ আগস্ট তিনি অভিযোগ গঠনের শুনানির জন্য ২৭ আগস্ট দিন ধার্য করেন। গত ৩০ জুলাই ঢাকা চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক মো. শায়রুল আসামি সাহেদের বিরুদ্ধে এ চার্জশিট (অভিযোগপত্র) দাখিল করেন। গত  ২৬ জুলাই উত্তরা পশ্চিম থানার পৃথক তিন মামলায় এবং উত্তরা পূর্ব থানার আরও এক মামলায় ১০ দিন করে মোট ৪০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেন মামলার তদন্ত সংস্থা র‌্যাব। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক প্রত্যেক মামলায় সাত দিন করে মোট ২৮ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। গত ১৬ জুলাই উত্তরা পশ্চিম থানার প্রতারণা মামলায় ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। এর আগে গত ১৫ জুলাই ভোর সাড়ে ৫টার দিকে সাতক্ষীরার দেবহাটা সীমান্ত থেকে অবৈধ অস্ত্রসহ সাহেদকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। তার বিরুদ্ধে দেবহাটা থানায় অস্ত্র আইনে মামলা হয়েছে। গ্রেফতারের পরই তাকে ঢাকায় নিয়ে আসা হয়। গত ৬ জুলাই র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলমের নেতৃত্বে রিজেন্ট হাসপাতালের উত্তরা ও মিরপুর কার্যালয়ে অভিযান চালানো হয়। পরীক্ষা ছাড়াই করোনার সনদ দিয়ে সাধারণ মানুষের সঙ্গে প্রতারণা ও অর্থ হাতিয়ে নিয়ে আসছিল তারা। র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত কমপক্ষে ছয় হাজার ভুয়া করোনা পরীক্ষার সনদের প্রমাণ পায়। একদিন পর গত ৭ জুলাই স্বাস্থ্য অধিদফতরের নির্দেশে র‌্যাব রিজেন্ট হাসপাতাল ও তার মূল কার্যালয় সিলগালা করে দেয়। রিজেন্ট গ্র“পের চেয়ারম্যান সাহেদসহ ১৭ জনের বিরুদ্ধে ওইদিনই উত্তরা পশ্চিম থানায় নিয়মিত মামলা দায়ের করা হয়। এরপর থেকে সাহেদ পলাতক ছিল। সাহেদের খোঁজে সোমবার মৌলভীবাজারে বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালানো হলেও সেখানে তাকে পাওয়া যায়নি।

 

শৈলকুপায় শিশু ধর্ষনের অভিযোগে কলেজ ছাত্র  আটক

সুলতান আল একরাম ॥ ঝিনাইদহের শৈলকুপায় কলেজ ছাত্র কর্তৃক শিশু ধর্ষন চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার ত্রিবেনী ইউনিয়নের পদমদী গ্রামে। জানা যায়, সোমবার সকালে পদমদী প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন আলমের বাড়ীর ফ্রীজে রাখা মাছ আনতে যায় প্রতিবেশী জনৈক নাহিদুলের শিশু কন্যা (৭)। এসময় আলমের ছেলে ডিএম কলেজের ছাত্র আশিক শিশু কন্যাটি প্রলোভন দেখিয়ে কৌশলে ধর্ষণ চেষ্টা করে। পরে শিশু কন্যাটি ফ্রীজে রাখা মাছ নিয়ে বাড়ী ফিরে তার মাকে এ ঘটনা বলে দেয়। ঘটনা জানাজানি হলে অভিযুক্ত কলেজ ছাত্র আশিক এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায়। এদিকে শিশুটিকে নিয়ে তার পরিবার শৈলকুপা থানায় অভিযোগ দিলে পুলিশ দুপুর গড়ানোর আগেই পলাতক ধর্ষককে আটক করতে সক্ষম হয়েছে। শৈলকুপা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জাহাঙ্গীর আলম জানান, ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে অভিযুক্ত কলেজ ছাত্রকে আটক করা হয়েছে, ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য শিশুটিকে ঝিনাইদহ পাঠানো হয়েছে।

 

বাংলাদেশ-ভারতরে মধ্যে পারস্পারিক সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে – স্পিকার

ঢাকা অফিস ॥ স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, পারস্পারিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে বাংলাদেশ ও ভারতরে মধ্যে সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে। বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের বিদায়ী হাইকমিশনার রীভা গাঙ্গুলী দাশ গতকাল সোমবার সংসদ ভবনে তার সঙ্গে সাক্ষাৎ করলে তিনি এ কথা বলেন। সাক্ষাৎকালে তারা বৈশ্বিক মহামারী করোনা ভাইরাস কোভিড-১৯ এর চলমান প্রেক্ষাপটে পরিবর্তিত বিশ্ব পরিস্থিতি ও জীবনযাত্রার পরিবর্তন সম্পর্কে আলোচনা করেন। স্পিকার বলেন, বৈশ্বিক মহামারী কোভিড-১৯ এর দুর্যোগকালীন সময়ে ঝুঁকি থাকা সত্ত্বেও অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে বাজেট অধিবেশনসহ দু’টি অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়েছে। করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় রেখে চিকিৎসা পদ্ধতিতে অনলাইন প্রক্রিয়ার সংযোজন হয়েছে, যা মানুষের জীবনকে সহজ করেছে।’ হাইকমিশনার রীভা গাঙ্গুলী দাশ করোনা ভাইরাসের এই ক্রান্তিকালে সকলে গৃহবন্দী থাকা সত্ত্বেও ভার্চুয়াল পদ্ধতি অনুসরণ করে সকল কার্যক্রম সফলতার সঙ্গে সম্পন্ন করায় বাংলাদেশ সরকারের প্রশংসা করেন। ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের পথে এটি একটি উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপ বলে তিনি উল্লেখ করেন। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী ভারতকে বন্ধুপ্রতীম দেশ হিসেবে অভিহিত করে বলেন, পারস্পারিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে প্রতিবেশী দুই দেশের মধ্যে সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে। এ সময় সফলতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করার জন্য বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের বিদায়ী হাইকমিশনার রীভা গাঙ্গুলী দাশকে তিনি আন্তরিক ধন্যবাদ জানান। এসময় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করে দিয়েছে ভারত

ঢাকা অফিস ॥ অতিবৃষ্টি ও বন্যায় সরবরাহে ঘাটতি দেখা দেওয়ায় নিজ দেশের বাজারে দাম বৃদ্ধি ঠেকাতে ভারত পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করে দিয়েছে বাংলাদেশে। হিলির কাস্টমস কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে সিএন্ডএফ এজেন্ট শংকর দাস এ তথ্য জানিয়েছেন। শংকর দাস বলেন, সম্প্রতি ভারতের বিভিন্ন প্রদেশে অতিবৃষ্টি ও বন্যা হওয়ায় ভারতের যেসব অঞ্চলে পেঁয়াজ উৎপাদন হতো সেখানে পেঁয়াজের উৎপাদন ব্যাহত হয়েছে। যার কারণে পেঁয়াজের সরবরাহ কমায় ভারতের বাজারেই পেঁয়াজের দাম বাড়ছে। এ অবস্থায় পেঁয়াজের মূল্যবৃদ্ধি রুখতে সোমবার দুপুর ১২টার দিকে ভারত সরকার হিলি কাস্টমসকে এ তথ্য জানিয়েছেন। সে মোতাবেক কাস্টমস কর্তৃপক্ষ তাদের জানিয়েছে, সোমবার থেকে সব ধরনের পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ থাকবে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত। এ-সংক্রান্ত সরকারি প্রজ্ঞাপন এখনও জারি হয়নি, তবে অচিরেই জারি হবে বলে তিনি জানিয়েছেন। একই সঙ্গে পেঁয়াজ আমদানির জন্য যেসব এলসি খোলা রয়েছে এবং টেন্ডার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে সেগুলোর বিপরীতেও কোনও পেঁয়াজ রফতানি হবে না। হিলি স্থলবন্দরের পেঁয়াজ আমদানিকারক সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘কিছুক্ষণ আগে ভারতীয় রফতানিকারক ও সিএন্ডএফ এজেন্ট আমাদের জানিয়েছেন যে ভারত কোনও পেঁয়াজ রফতানি করবে না। ভারত সরকার নাকি কাস্টমসকে নিষেধ করেছেন পেঁয়াজ রফতানি না করতে এবং পেঁয়াজ রফতানি করবে না বলেও বলেছে আমাদের। তাদের এই সিদ্ধান্তের কারণে আমাদের অনেক আমদানিকারকের বিপুল পরিমাণ পেঁয়াজ আমদানির জন্য এলসি খোলা রয়েছে। আমরা তো এখন বিপাকের মধ্যে পড়ে গেছি। আমরা তাদের বলছি আমাদের যেসব এলসি খোলা রয়েছে সেগুলোর পেঁয়াজ রফতানির জন্য। আমাদের অনেক এলসির বিপরীতে অনেক ট্রাক মাল নিয়ে সড়কে দাঁড়িয়ে রয়েছে। এখন যদি তারা পেঁয়াজ না দেয় তাহলে আমাদের এই পেঁয়াজের কী অবস্থা হবে সেই চিন্তায় পড়েছি। এই যে আমাদের ক্ষতি, কার কাছে ক্ষতিপূরণ চাইবো? তাই বিষয়টি অতি সত্বর সরকারি পর্যায়ে বৈঠক করে সিদ্ধান্ত নেওয়া প্রয়োজন।’

কুষ্টিয়া শহরের দত্তপাড়ায় সম্পত্তি আত্মসাতের উদ্দেশ্যে ছোট ভাই কর্তৃক বড় ভাইকে হত্যার অভিযোগ

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়া পৌর এলাকার ৪ নং ওয়ার্ডের  আড়ুয়াপাড়ায় দত্তপাড়ায় বাসিন্দা মোঃ আফসার আলী মোল্লার ছেলে আলতাফ হোসেন (৫৫) কে সম্পত্তি আত্মসাতের লক্ষ্যে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ আলতাফের পরিবারের। সম্পত্তির কোন ভাগ দেবে না বলেই  ছোট ভাই আমজাদ হোসেন (৫০) বড় ভাই আলতাফ হোসেনকে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ করছে আলতাবের স্ত্রী ও সন্তান। বর্তমানে আলতাফের রেখে যাওয়া সমস্ত সম্পত্তি ভোগ করছে তার ছোট ভাই আমজাদ হোসেন । এমন অবস্থায় আলতাফের বিষয় সম্পত্তি স্ত্রী ও সন্তান নিজেদের ভোগ দখলে নেওয়ার জন্য ঘুরছে দ্বারে দ্বারে। কিন্তু  কোন অবস্থাতেই আলতাফের বিষয়-সম্পত্তি বুঝিয়ে দিচ্ছে না ছোট ভাই আমজাদ। আলতাফ গত ১৭ এপ্রিল মারা যান, স্ত্রী সন্তান ঢাকায় থাকার কারনে আলতাফ হোসেন মারা যাওয়ার আগে তিনি তার স্ত্রীকে মোবাইল  ফোনের মাধ্যমে বলেন আমার বাড়িতে বিষয় সম্পত্তি নিয়ে বেশ ঝামেলা চলছে আমাকে হয়তোবা তারা মেরে ফেলতে পারে। এই কথা বলার কিছুদিন পরেই বাথরুম থেকে আলতাফ হোসেনের লাশ উদ্ধার করা হয়। পরবর্তীতে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য তার স্ত্রী সন্তান দাবি উঠালে আত্মীয়-স্বজন তার ঘোর বিরোধিতা করে এবং এক পর্যায়ে লাশ ময়নাতদন্ত ছাড়াই দাফন করে। আলতাফ হোসেনের মৃত্যুর আগে বলে যাওয়া সেই কথার সাথে এখন অনেকটাই মিল খুঁজে পাওয়া যায় বলে জানান তার স্ত্রী ও সন্তান।  আলতাফ হোসেনের পুরো বিষয় সম্পত্তি এখন ভোগ দখল করছে তার ছোট ভাই আমজাদ হোসেন। যার কানা কড়িও ভাগ দিচ্ছেনা আলতাফ হোসেনের পরিবারকে। আলতাফ  হোসেনে মৃত্যুর আগে রেখে  গেছেন কুষ্টিয়া শহরের আড়ুয়াপাড়ার দত্তপাড়ায় ২ তলা বিশিষ্ট ২টি বাড়ি ও বড়বাজারে ২ টা দোকান ও ১ টি বড় গোডাউন। আলতাফের স্ত্রী আফসানা ফেরদৌস যুঁথি (৪৮) বলেন আমাদের যায়গা জমির কোনো ভাগ না দিয়ে আমার দেবর আমজাদ  হোসেন নিজেই সব সহায় সম্পত্তি নিজে একা ভোগ করছে। আমরা আমাদের সম্পত্তি বুঝিয়ে দিতে বললে সে নানা অযুহাত দেখিয়ে ৫ মাস পার করে দিয়েছে। অন্যদিকে আলতাফের এক মাত্র সন্তান প্রত্যয় (১৭) বলেন আমাদের জায়গাগুলো বুঝিয়ে দিতে বললে আমার চাচা ও চাচার পরিবার আমাদের বিভিন্ন হুমিক দিয়ে আসছে। এমন অবস্থায় পরিবারটি পড়েছে বিপাকে। এখন পরিবারের দাবি অনতিবিলম্বে তাদের প্রাপ্য সম্পদ তাদেরকে বুঝিয়ে দেওয়া হোক এবং আলতাফ হোসেনের মৃত্যু স্বাভাবিক কি অস্বাভাবিক তা পুনরায় যাচাই করা হোক। এ ব্যাপারে আমজাদ হোসেনের সাথে কথা হলে তিনি কোনো কথা বলতে চাননি, উল্টো তিনি বলেন এটি আমাদের পারিবারিক বিষয় অন্যদের মাথা ঘামানোর দরকার নেই।

কালুখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে স্বাস্থ্য উপকরণ প্রদান করলেন এমপি পুত্র আশিক মাহমুদ মিতুল

কালুখালী প্রতিনিধি ॥ গতকাল সোমবার রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে স্বাস্থ্য উপকরণ প্রদান করা হয়েছে। রাজবাড়ী-২ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ জিল্লুল হাকিমের পুত্র জেলা আওয়ামীলীগের অন্যতম সদস্য আশিক মাহমুদ মিতুলের পক্ষ থেকে এ স্বাস্থ্য সামগ্রী কালুখালী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ খোন্দকার মুহাম্মদ আবু জালালের নিকট হস্তান্তর করা হয়। বেলা ১২টার দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও স্বাস্থ্য সামগ্রী প্রদানকালে পাংশা উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জালাল উদ্দিন বিশ্বাস, পাংশা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহিদুল ইসলাম মারুফ, কালুখালী উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক সোহেল আলী মোল্লা, যুবলীগ নেতা মাহমুদুল হাসান সুমন, ছাত্রলীগ নেতা শেখ মোহাম্মদ রিপন,  মোঃ সাগর মন্ডলসহ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অন্যান্য মেডিকেল অফিসার ও স্থানীয় গন্যমাণ্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। স্বাস্থ্য সামগ্রীর মধ্যে ছিলো পিপিই, কেএন ৯৫ মাস্ক, সার্জিকাল মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, ফেসশীল্ড, হ্যান্ড গ্লাভস ও ঔষুধ।

আলমডাঙ্গা ডিগ্রী কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ খন্দকার আব্দুর রহমান স্মরণে স্মৃতিচারন ও আলোচনা সভা

আলমডাঙ্গা অফিস ॥ আলমডাঙ্গা ডিগ্রী কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ খন্দকার আব্দুর রহমান স্মরণে স্মৃতিচারন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল সোমবার বিকেল ৫টার দিকে আলমডাঙ্গা সরকারি কলেজের হলরুমে সভায় সভাপতিত্ব করেন মরহুম আব্দুর রহমান স্যার সড়ক সংরক্ষন কমিটির আহবায়ক ফাহমিদুর রহমান মুন। প্রধান অতিথি ছিলেন আলমডাঙ্গা সরকারি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ  গোলাম সরোয়ার মিঠু। তিনি তার বক্তব্যে বলেন স্যার ছিলেন একজন আদর্শবান শিক্ষক। উনার জীবনী থেকে আমাদের অনেক কিছু শেখার আছে। স্যার কলেজের প্রতিষ্ঠা লগ্ন থেকে এই কলেজের সেবা দিয়েছেন। মেধাবি ছাত্র-ছাত্রীরা যদি পরীক্ষার ফিস দিতে না পারত স্যার তার বেতন  থেকে টাকা কর্তন করে পরীক্ষার ফিসের টাকা দিয়েছেন। তিনি সত্যিকারের একজন আদর্শবান শিক্ষক। এই কলেজে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ছিলেন ৭ বার, পরে অধ্যক্ষ হয়ে চাকরি করাবস্থায় উনার মৃত্যু হয়। প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মরহুম আব্দুর রহমান স্যারের ছেলে প্রভাসক খন্দকার রিয়াজুল হক স্বপন। বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রেসক্লাবের সভাপতি খন্দকার শাহ আলম মন্টু, সাধারন সম্পাদক হামিদুল ইসলাম আজম, বনিক সমিতির সম্পাদক হাজী মীর শফিকুল ইসলাম, ৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জহুরুল হক স্বপন, কলেজিয়েট স্কুলের উপাধ্যক্ষ শামিম রেজা, প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি আতিয়ার রহমান মুকুল, যুগ্ম সম্পাদক প্রশান্ত বিশ্বাস। খন্দকার হাসিবুল ইসলামের উপস্থাপনায় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন গোলাম মোক্তাদির বিদ্যুত, সরকারি স্কুলের শিক্ষক গিয়াস উদ্দিন, সরকারি কলেজের প্রদর্শক রাজিউজ্জামান রাজ, সবুজ আহম্মদ, যদবপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক একরামুল হক মিলন, সরকারি ভিজে হাইস্কুলের শিক্ষক শেখ আহসান হাবিব প্রমুখ।এছাড়াও আহবায়ক কমিটির ১৪ জন উপস্থিত ছিলেন

থানায় অভিযোগ দিয়েও প্রতিকার মিলছে না

ঝগড়াটে ছকিনার অত্যাচারে অতিষ্ঠ প্রতিবেশিরা

মিরপুর অফিস ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার কুর্শা ইউপির মাজিহাট গ্রামের জমির আলী স্ত্রীর ব্যবহার আচার ও অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছেন প্রতিবেশি ইকতার মেম্বর  (৫০)এবং কাশেমের ছেলে রবকুল(৬০) ও আশপাশের প্রতিবেশিরা। জানা যায় ছকিনা ইতিপুর্বে ছাতিয়ান ইউনিয়নের তুফানের ছেলে খোকনের সাথে বিয়ে হয়েছিল কিন্তু কিছুদিন পুর্বে খোকনের সাথে সংসার না করে প্রেম করে কুর্শা ইউপির মাজিহাট গ্রামের জমিরের সাথে বিয়ে হয়। জানা যায় ২০১৮ সালে প্রতিবেশির ছেলে ছাত্র জনি (২৫) জামিরুল (৩৫) রফিজুল (৬০) এর নামে একটি মিথ্যা নারী নির্যাতন মামলা দায়ের করে ছকিনা (যার মামলা নং ১৩৫/২০১৮)। এই মামলাটি পিবিআই কয়েকবার তদন্ত করে নারী নির্যাতনের কোন আলামত ও তথ্য না পাওয়ায় বাতিল করার জন্য আদালতে প্রতিবেদন দিলে মামলা খারিজ করে দেয় আদালত। বর্তমান সময় ছকিনা নিজের যাতায়াতের পথ না রেখে বাড়ী নির্মাণ করে প্রতিবেশির জায়গা দিয়ে পানি নিষ্কারশন ও যাতায়াত করার ফলে প্রতিবেশির সাথে ঝগড়া ফ্যাসাদ বাকবিদন্তা লেগেই আছে। যার ফলে প্রতিবেশি জনি ছকিনার বিরুদ্ধে মিরপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করে যা তদন্ত করে মামলা নথিভুক্ত করার জন্য কোর্টে পাঠানো হয়েছে।

চীনের নজরদারিতে ভারতের ১০ হাজার বিশিষ্ট ব্যক্তি, গোপন তথ্য ফাঁস

ঢাকা অফিস ॥ লাদাখ সীমান্তে সংঘাতের জেরে তিন দফায় শতাধিক চীনা অ্যাপ বাতিল করেছে ভারত। এ বিষয়ে বিজেপি সরকারের অভিযোগ, ওই সব অ্যাপ ভারতের নিরাপত্তা ও সার্বভৌমত্বের পক্ষে বিপজ্জনক। এমন পরিস্থিতিতে চীনা তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থাগুলি ভারতের বহু বিষয়ে নজরদারি চালাচ্ছে বলে দাবি করেছে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো। তারা জানাচ্ছে, ভারতের রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী থেকে শুরু করে বিভিন্ন ক্ষেত্রের অন্তত ১০ হাজার বিশিষ্ট ব্যক্তি এবং তাদের পরিবারের সদস্যদের ওপর নজরদারি চালাচ্ছে শেংঝেনের এক তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা। ‘দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস’-এর ওই তদন্তমূলক প্রতিবেদন অনুযায়ী, রাজনীতি থেকে বিনোদন, ক্রীড়া থেকে সংবাদমাধ্যমÑ এমনকি অপরাধী ও জঙ্গিদের সম্পর্কেও বিস্তারিত তথ্য সংগ্রহ করছে দক্ষিণ পশ্চিম চীনের গুয়াংডং প্রদেশের শেনঝেন শহরের ‘শেনহুয়া ডেটা ইনফরমেশন টেকনোলজি কোম্পানি লিমিটেড’ নামে ওই সংস্থা। তাদের অন্যতম ‘ক্লায়েন্ট’ চীনের শি জিং পিং সরকার, চীনের সেনাবাহিনী পিপল্স লিবারেশন আর্মি (পিএলএ) এবং চীনা কমিউনিস্ট পার্টি। যদিও ওই সংস্থার কেউ সংবাদপত্রের পক্ষে পাঠানো কোনো প্রশ্নের জবাব দেননি। সংস্থার এক কর্মকর্তা ব্যাপারটি ‘অভ্যন্তরীণ বিষয়’ বলে বিশদ মন্তব্য এড়িয়ে গেছেন। তদন্তমূলক প্রতিবেদনটির দাবি, নজরদারির তালিকায় রয়েছেন ভারতের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, কংগ্রেসের অন্তর্বর্তীকালীন সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী ও তার পরিবারের সদস্যরা, প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংহসহ শীর্ষ রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব। রাজনাথ সিংহ, নির্মলা সীতারামন, স্মৃতি ইরানি, পীযূষ গয়ালের মতো ভারতের কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরাও নজরদারির আওতায়। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতাসহ ওড়িশার নবীন পট্টনায়ক, রাজস্থানের অশোক গহলৌত, মহারাষ্ট্রের উদ্ধব ঠাকরে, পাঞ্জাবের অমরেন্দ্র সিংহের মতো অনেক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর তথ্যও সংগ্রহ করছে ওই সংস্থা। প্রধান বিচারপতি এস এ বোবদে, রতন টাটা, গৌতম আদানির মতো শিল্পপতি এবং বিভিন্ন নিউজ চ্যানেলের সম্পাদক, ইউপিএ আমলে প্রধানমন্ত্রীর দফতরের প্রাক্তন মিডিয়া উপদেষ্টা সঞ্জয় বারু এবং বিভিন্ন সাংবাদিক ও সংবাদব্যক্তিত্বও রয়েছেন। এদের মধ্যে অনেকের পরিবারের সদস্যদের তথ্যও সংগ্রহ করা হয়েছে বলে দাবি। দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের দাবি সচিন টেন্ডুলকারের মতো কিংবদন্তি ক্রিকেটারের তথ্যও তারা সংগ্রহ করেছে। এ ব্যক্তিদের কাজকর্ম, তাদের গতিবিধিসহ যাবতীয় তথ্য প্রতিনিয়ত সংগ্রহ করছে শেনহুয়ার ওই সংস্থা। তথ্যসংগ্রহের উৎস বিভিন্ন ওয়েবসাইট ও সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম, গবেষণাপত্র, প্রতিবেদন বা নিয়োগের বিজ্ঞপ্তির মতো বহুবিধ বিষয়। শেনহুয়ার নিজস্ব ‘মনিটরিং ম্যাপ’ও রয়েছে। সংস্থার পরিভাষায় যা হল ‘পার্সন ইনফর্মেশন অ্যান্ড রিলেশনশিপ মাইনিং’। শেনহুয়ার ওয়েবসাইটে রয়েছে ‘ওভারসিজ কি ইনফরমেশন ডেটাবেস’ (ওকেআইডিবি)। প্রতিবেদনটিতে দাবি করা হয়েছে, গত প্রায় দু’মাস ধরে সংস্থার ‘মেটা ডেটা’ ও ‘লগ ফাইল’ ঘেঁটে তথ্য বার করেছে তারা। দেখা গিয়েছে, শুধু ভারত নয়, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, জাপান, অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, জার্মানি, সংযুক্ত আরব আমিরশাহির মতো বহু দেশের বিশিষ্ট ব্যক্তিদের তথ্যও সংগ্রহ করে শেনহুয়া। ২০১৮ সালে প্রতিষ্ঠিত এই সংস্থার ২০টি প্রসেসিং সেন্টার রয়েছে বিভিন্ন দেশে। গত ১ সেপ্টেম্বর সংস্থার ওয়েবসাইটে দেওয়া ই-মেলে এই সংক্রান্ত প্রশ্নপত্র পাঠিয়ে কর্তৃপক্ষের বক্তব্য জানতে চেয়েছিল ‘ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস’। কিন্তু কোনো জবাব আসেনি। উল্টে ৯ সেপ্টেম্বর থেকে শেনহুয়ার ওয়েবসাইট দেখা যাচ্ছে না। ওই সংবাদপত্রের এক প্রতিনিধি সংস্থার শেনঝেনের প্রধান কার্যালয়েও গিয়েছিলেন। এক কর্মকর্তা তাকে বলেন, ‘এ সব প্রশ্ন ব্যবসায়িক গোপনীয়তার পরিপন্থী। তাই প্রকাশ করা যাবে না।’

 

দৌলতপুরে পুকুর ও জলাশয়ে পোনা মাছ অবমুক্ত

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ ‘নিরাপদ মাছে ভরবো দেশ, মুজিব বর্ষে বাংলাদেশ’ এই প্রতিপাদ্য নিয়ে কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে বিভিন্ন প্রাতিষ্ঠানিক পুকুর ও জলাশয়ে পোনা মাছ অবমুক্ত করা হয়েছে। গতকাল সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় দৌলতপুর উপজেলা পরিষদ পুকুরে বিভিন্ন প্রজাতির পোনা মাছ অবমুক্ত করে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়। দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তারের সভাপতিত্বে পোনা মাছ অবমুক্তকালে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা মৎস্য কর্মকর্তা ড. মো. মাহবুবুর রহমান তালুকদার। বিশেষ অতিথি ছিলেন দৌলতপুর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সাক্কির আহমেদ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন দৌলতপুর মৎস্য কর্মকর্তা খন্দকার সহিদুর রহমান, দৌলতপুর কৃষি কর্মকর্তা একেএম কামরুজ্জামান, ভেড়ামারা খামার ব্যবস্থাপক মো. আলাউদ্দিন, দৌলতপুর নির্বাচন অফিসার মো. গোলাম আজম ও দৌলতপুর প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আব্দুল হান্নান। দৌলতপুর মৎস্য অফিসের আয়োজনে ২০২০-২০২১ আর্থিক সালে রাজস্ব খাতের আওতায় দৌলতপুরের ১৫টি সরকারী বেসরকারী বিভিন্ন প্রাতিষ্ঠানিক পুকুর ও জলাশয়ে ৪০০ কেজি পোনা মাছ অবমুক্ত করা হয়।

করোনার বিশ্ব রেকর্ড

ঢাকা অফিস ॥ বিশ্বে একদিনে রেকর্ড সর্বোচ্চ ৩ লাখ ৭ হাজার ৯৩০ জন করোনা শনাক্ত হয়েছেন বলে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। এত মানুষ একদিনে এর আগে আর কখনও আক্রান্ত হননি। এরআগে একদিনের সর্বোচ্চ সংক্রমণ ছিল ৩ লাখ সাড়ে ৬ হাজার প্রায়। দেশে দেশে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে যাওয়ায় বাড়ছে সংক্রমণ। সংস্থাটি বলছে, রোববার রেকর্ড সর্বোচ্চ সংক্রমণের দিনে সবচেয়ে বেশি মানুষ কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়েছেন ভারত, যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিলে। একইদিন বিশ্বজুড়ে আরও ৫ হাজার ৫৩৭ জন রোগী মারা যান। ভাইরাসে মোট মৃতের সংখ্যা এখন প্রায় ৯ লাখ ৩০ হাজার। গেল কয়েকদিনে করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যায় শীর্ষে ভারত। যুক্তরাষ্ট্রে মৃতের সংখ্যা কমলেও আক্রান্ত সে হারে কমছে না। তবে ব্রাজিলে আগের চেয়ে পরিস্থিতি কিছুটা উন্নতি হয়েছে। এই তিন দেশই এখন শীর্ষ অবস্থানে রয়েছে মৃত্যু ও সংক্রমণে।

প্রধানমন্ত্রী পাহাড়ে শান্তির পায়রা উড়িয়েছেন – ওবায়দুল কাদের

ঢাকা অফিস ॥ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তিচুক্তি বাস্তবায়নের মাধ্যমে শান্তির যে সুবাতাস প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছড়িয়ে দিয়েছেন, তার পথ ধরেই এগিয়ে যাচ্ছে সম্ভাবনাময় পার্বত্য এলাকা। ওবায়দুল কাদের বলেন, এর আগে কোনো সরকারই পাহাড়ের উন্নয়নকে অগ্রাধিকার দেয়নি। শান্তিচুক্তির মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শান্তির পায়রা উড়িয়েছেন এবং দুর্গমকে করেছেন সুগম। গতকাল সোমবার তিন পার্বত্য জেলা ও কক্সবাজারের সড়ক উন্নয়ন বিষয়ক এক সভায় তিনি এসব কথা বলেন। ওবায়দুল কাদের তার সরকারি বাসভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সভায় যুক্ত হন। শান্তিচুক্তির অধিকাংশ শর্ত ইতোমধ্যে বাস্তবায়িত হয়েছে জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘ভূমি-সংক্রান্ত দীর্ঘদিনের সমস্যাও নিষ্পত্তির প্রচেষ্টা অব্যাহত আছে। চুক্তির অবশিষ্ট শর্ত বাস্তবায়নে শেখ হাসিনা সরকার প্রতিশ্র“তিবদ্ধ। তিনি বলেন, দুর্গম পাহাড়ে শান্তির বার্তা ছড়িয়ে দেয়ার পাশাপাশি শেখ হাসিনা এখন উন্নয়নের স্বর্ণদুয়ার খুলে সংকটকে সম্ভাবনায় রূপ দিয়েছেন। উন্নয়নের সঙ্গে রাজনীতির সম্পর্ক নেই জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, উন্নয়ন সবার, উন্নয়নের ধারাকে ব্যাহত না করে দলমত নির্বিশেষে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। সড়ক পরিবহন মন্ত্রী বলেন, পার্বত্য তিন জেলার সড়ক অবকাঠামো উন্নয়নের মাধ্যমে রাজস্ব আয় বাড়ানোর অসীম সম্ভাবনাকে কাজে লাগিয়ে সরকার এ অঞ্চলের মানুষের জীবন ও জীবিকার স্বকীয়তা বজায় রেখে উন্নয়ন প্রক্রিয়ায় এগিয়ে যাচ্ছে এবং বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করে চলেছে। সেতুমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি এবং বান্দরবান পার্বত্য জেলার সীমান্তঘেঁষে প্রায় ৩১৭ কিলোমিটার দীর্ঘ সড়ক নির্মাণকাজ এগিয়ে চলছে। এর মধ্যে ১০০ কিলোমিটার লিংক রোড এবং ২১৭ কিলোমিটার সীমান্ত বরাবর কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে।

দৌলতপুর থানার নবাগত ওসি সমীপে..

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়া জেলার সীমান্তবর্তী বৃহৎ উপজেলা দৌলতপুর। ১৪টি ইউনিয়নের সমন্বয়ে গঠিত এ উপজেলা পাশর্^বতী মেহেরপুর জেলার সমতুল্য। এ উপজেলার পশ্চিমে রয়েছে প্রায় ৪৬ কি. মি. ভারত সীমান্ত। উত্তরে রয়েছে পদ্মা নদীর তীর বেষ্টিত রাজশাহী জেলার বাঘা উপজেলা ও নাটোর জেলার লালপুর উপজেলা। পশ্চিম-দক্ষিণে রয়েছে মেহেরপুর জেলার গাংনী উপজেলা। প্রমত্তা পদ্মার সাথে লড়াই করে জীবন ও জীবিকা নির্বাহ করে থাকে রামকৃষ্ণপুর, চিলমারী, ফিলিপনগর ও মরিচা ইউনিয়নের জনগন। এরমধ্যে চিলমারী ইউনিয়নটি আলাদা বলয় বেষ্টিত।

আপনি কুষ্টিয়া জেলার শেষ প্রান্ত খোকসা উপজেলায় কর্মরত ছিলেন, তাই দৌলতপুর সম্পর্কে সবকিছু অবগত আছেন। যদি কিছু মনে না করেন দু’একটি অনুরোধ করবো, রাখার দায়িত্ব আপনার। ইতিপূর্বে অফিসার ইনচার্জ হিসেবে দৌলতপুর থানায় যারা যোগ দিয়ে সততার বুলি আওড়িয়ে নিজ নিজ কর্মদক্ষতা দেখিয়েছেন তাদের মধ্যে দু’একজন বাদে কথার বুলি সাথে কর্মের বুলির খুব একটা মিল খুঁজে পাওয়া যায়নি। এদিক থেকে আপনি হয়তো ব্যতিক্রম হবেন, সেটা ভেবে নিয়েই একজন গণমাধ্যম কর্মী হিসেবে কিছু প্রস্তাবনা রয়েছে আপনার সমীপে।

দৌলতপুর থানা কেন্দ্র্রিক একটি দালাল চক্র রয়েছে, যারা সকাল ১০টায় অফিসে যাওয়ার মত প্রতিদিন থানায় হাজির হয়ে থাকেন। এদের কাজ কেউ থানায় অভিযোগ করতে আসলে সব কাজ করে দেওয়ার কথা বলে ভূক্তভোগীকে অর্থিক লেনদেনের মাধ্যমে চুক্তিবদ্ধ করান। এরপর শুরু বিভিন্ন তালবাহানা ও ওই ব্যক্তিকে হয়রানি করা। তবে সবার সাথে এমনটি করা হয় না। গ্রামের সহজ সরল কাউকে পেলে এমনটি হয়ে থাকে। তুচ্ছ ঘটনা সহ সব ধরণের ঘটনাকে ঘিরে ওই দালাল চক্র নিয়মিত শালিস দরবার করে থাকে। এদের মধ্যে দু’টি পক্ষ করা হয়। গঠন করা হয় জুরিবোর্ড। ভয় দেখিয়ে জুরিবোর্ডের সিদ্ধান্ত মানতে বাধ্য করা হয় ভূক্তভোগীদের। সেক্ষেত্রে লেনদেন হয় মোটা অংকের অর্থ।

মাদকের স্বর্গরাজ্য হিসেবে খ্যাত দৌলতপুর সেটি নিশ্চয় ইতোমধ্যে অবগত হয়েছেন।

দৌলতপুর সীমান্তের ওপার ভারত ভূখন্ডে তারকাটার বেড়া বেষ্টিত থাকলেও অর্ধেকের বেশী সীমান্তে রয়েছে তারকাটা বিহীন। মাদক ব্যবসার সাথে সীমান্তের অনেকেই জড়িত রয়েছে। চিহ্নিত ওইসব মাদক ব্যবসায়ীদের গড়ে তোলা সিন্ডিকেট চক্রের ছাত্রছায়ায় প্রতিদিনই সীমান্ত দিয়ে মাদক পাচার হয়ে হাত বদল হয়ে দেশের নানা প্রান্তে পৌঁছে যাচ্ছে। আর এ চক্রের সাথে পূর্বে যারা ছিলেন এবং বর্তমানে আপনার অধীনস্থ অনেকেই সম্পৃক্ত রয়েছেন বলে সীমান্ত এলাকাবাসীর এমন অভিযোগ রয়েছে। আমার বিশ^াস এ বিষয়টি আপনি দেখবেন। এরআগে যাঁরা ছিলেন, তাঁদের অনেকেই দৌলতপুরকে মাদকমুক্ত করতে না পারলে হাতে চুরি পরে চলে যাওয়ার ঘোষনা দিলেও বাস্তবে তার কোনটাই হয়নি। সীমান্তের মাদক ব্যবসায়ীদের একজন নিয়ন্ত্রক ও গডফাদার রয়েছেন যিনি সীমান্তের ‘বড়ভাই’ হিসেবে সবার কাছে পরিচিতি। সেই বড়ভাইয়ের সাথেও আপনাদের অনেকের গভীর সখ্যতা রয়েছে। বড়ভাইয়ের ছোট ভাই সীমান্তের শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ীদের একজন। অথচ সে সব সময়ই বড়ভাইয়ের আশির্বাদে থাকে ধরা ছোঁয়ার বাইরে। বড়ভাই ছোটভাইসহ সবধরণের ভাইদের আপনি দেখে শুনে ব্যবস্থা নিলে দৌলতপুর শতভাগ মাদকমুক্ত না হলেও নিয়ন্ত্রনে থাকবে এ বিশ^াস দৌলতপুরের সচেতন মহলের।

আর একটি বিষয় নাম সর্বস্ব ভুইফোড় সামাজিক যোগাযোগ নির্ভর কথিত সব গণমাধ্যম কর্মী দাবি করে কারনে অকারনে আপনার সাথে সখ্যতা গড়ে তুলে তার অসৎব্যবহার করার চেষ্টা করবে সেবিষয়টিও নিশ্চয় সৎ ও দক্ষ কর্মকর্তা হিসেবে সচেতনতার লক্ষ্য রাখবেন।

সর্বপরি দৌলতপুরের একজন নাগরিক হিসেবে আপনার কাছে এমন দাবি করতেই পারি। অন্যভাবে না নিয়ে দেশের গর্বিত জনসেবক ও বন্ধু হিসেবে নিজের দায়বদ্ধতা থেকে সৎ ও দক্ষতার সাথে দায়িত্ব পালন করলে আপনার সমীপে রাখা প্রস্তাবগুলি আপনা আপনি বন্ধ হবে। এ বিশ^াস আমার আছে। ভাল থাকবেন। দৌলতপুর থানায় ওসি হিসেবে যোগদানের জন্য আপনাকে অভিনন্দন ও রইলো শুভকামনা।

কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় সেনাবাহিনীর উদ্যোগে গর্ভবতী মায়েদের চিকিতসা সেবা প্রদান

মহামারী করোনাকালীন এই কঠিন সময়ে নিরাপদ মাতৃত্ব নিশ্চিত করণ ও প্রসূতি মায়েদের দূর্ভোগ কমানোর লক্ষ্যে মানবতার সেবায় নিজেদেরকে সম্পৃক্ত করে নিয়মিত কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ৫৫ পদাতিক ডিভিশন। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে জিওসি, ৫৫ পদাতিক ডিভিশন ও এরিয়া কমান্ডার, যশোর এরিয়া এর নির্দেশনায়  বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের সমন্বয়ে গত ১০ জুন ২০২০ তারিখ হতে বৃহত্তর যশোর অঞ্চলের বিভিন্ন জেলায় গর্ভবতী মায়েদের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ বিতরণ করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ ( সোমবার) কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলার ভেড়ামারা কলেজে সকাল ১১টা  থেকে বিকাল ৩ টা পর্যন্ত সর্বমোট ৩ জন সেনাবাহিনীর বিশেষজ্ঞ ডাক্তার এবং স্থানীয় ডাক্তারের সমন্বয়ে গর্ভবতী মায়েদের জন্য একটি অস্থায়ী মেডিক্যাল ক্যাম্পেইন পরিচালিত হয়। এই ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে ২৬২ জন গর্ভবতী  মায়েদের  বিনামূল্যে  বিভিন্ন ধরনের পরীক্ষা-নিরীক্ষা, চিকিৎসা সেবা এবং ঔষধ বিতরনের পাশাপাশি স্বাস্থ্যবিধি সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা প্রদান করা হয়।  পাশাপাশি চিকিৎসা সেবা নিতে আগত গর্ভবতী মায়েদের মাঝে মাস্ক, হ্যান্ড, স্যানিটাইজার, সাবান এবং ত্রাণ বিতরণ করেন সেনা সদস্যরা। এছাড়াও করোনা মোকাবেলায়  সেনাবাহিনীর নিজস্ব অর্থায়নে দরিদ্র ও অসহায় মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ, সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা, স্বাস্থ্যবিধি সংক্রান্ত নীতিমালা বাস্তবায়ন, গণপরিবহন মনিটারিং, অসহায় কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে বীজ বিতরণসহ বহুমূখী জনকল্যানমূলক কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে যশোর সেনানিবাসের সেনাসদস্যরা। অন্যদিকে খুলনা উপকূলীয় এলাকায় বাঁধ নির্মাণ অব্যাহত রাখার পাশাপাশি  জরুরী চিকিৎসা সহায়তা প্রদান, বিশুদ্ধ পানি সরবরাহসহ নানাবিক জনসেবামূলক কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে যশোর সেনানিবাসের  সেনাসদস্যরা। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

করোনায় চলে গেলেন অভিনেতা সাদেক বাচ্চু

ঢাকা অফিস ॥ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত অভিনেতা সাদেক বাচ্চু মারা গেছেন। আজ (১৪ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২টা ৫ মিনিটে মহাখালীর ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন এই শিল্পী (ইন্না লিল্লাহি… রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর। বিষয়টিনিশ্চিত করেছেন হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. আশীষ কুমার চক্রবর্তী। তিনি বলেন, ‘গত কয়েকদিন ধরেই তার অবস্থার অবনতি হচ্ছিল। দুর্ভাগ্যবশত আজ সকাল থেকে দুবার তার কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট হয়। দুপুর ১২টা ৫ মিনিটে তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়েছে।’ জানা যায়, শ্বাসকষ্ট দেখা দিলে গেল ৬ সেপ্টেম্বর চলচ্চিত্রের অন্যতম এ অভিনেতাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পাশাপাশি ছিল করোনা উপসর্গও। ১১ সেপ্টেম্বর তার করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। সাদেক বাচ্চু পাঁচ দশকের দীর্ঘ অভিনয় ক্যারিয়ারে মঞ্চ, বেতার, টিভি ও সিনেমায় বিচরণ করেছেন। নব্বই দশকে এহতেশামের ‘চাঁদনী’ সিনেমায় অভিনয়ের পর জনপ্রিয়তা পান খলনায়ক হিসেবে। এই পরিচয়েই দেশজুড়ে খ্যাতি ছড়িয়ে পড়ে গুণী এই অভিনেতার। এছাড়াও বিভিন্ন চরিত্রে তিনি তার দক্ষতার প্রমাণ দিয়েছেন। সাদেক বাচ্চুর উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্রের মধ্যে রয়েছে-জোর করে ভালোবাসা হয় না (২০১৩), জজ ব্যারিস্টার পুলিশ কমিশনার (২০১৩), জীবন নদীর তীরে (২০১৩), তোমার মাঝে আমি (২০১৩), ঢাকা টু বোম্বে (২০১৩), ভালোবাসা জিন্দাবাদ (২০১৩), এক জবান (২০১০), আমার স্বপ্ন আমার সংসার (২০১০), মন বসে না পড়ার টেবিলে (২০০৯), বধূবরণ (২০০৮), ময়দান (২০০৭), আমার প্রাণের স্বামী (২০০৭), আনন্দ অশ্র“ (১৯৯৭), প্রিয়জন (১৯৯৬), সুজন সখি (১৯৯৪)। নায়ক আলমগীর পরিচালিত ‘একটি সিনেমার গল্প’ ছবিতে অভিনয়ের সুবাদে ২০১৮ সালে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন সাদেক বাচ্চু।

কুষ্টিয়ায় সাবেক স্বামীর ছোড়া এসিডে ঝলসে গেলেন মা-মেয়ে

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় সাবেক স্বামীর ছোড়া এসিডে ঝলসে গেছেন এক নারী ও তার মা। রোববার সন্ধ্যা ৭টায় উপজেলার গোলাপনগর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। আহত বেবি খাতুন (৬৫) ও মেয়ে মিনা খাতুনকে (৩০) ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। মিনা খাতুনের চাচাতো ভাই বাবর আলী জানান, ২ বছর আগে বাহাদুরপুর গ্রামের মোক্তার আলীর ছেলে প্রবাসী রিন্টু আলীর সাথে মিনা খাতুনের বিয়ে হয়। তাদের বনিবনা না হওয়ায় এক বছর আগে পারিবারিকভাবে বিচ্ছেদ হয়। এরপর থেকে রিন্টু বিভিন্ন সময় মিনাকে উত্যক্ত করতো। রবিবার সন্ধ্যার পরে রিন্টু আলী সাবেক স্ত্রী মিনাকে জোরপূর্বক তুলে নেওয়ার চেষ্টা করে। এসময় মিনার মা বেবি খাতুন বাধা দিলে রিন্টু তরল জাতীয় কিছু তাদের দিকে ছুড়ে মারে। তাদের চিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটি এসে উদ্ধার করে ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক ডা: নুরুল আমিন জানান, হাসপাতালে ভর্তি ওই দুই নারীর শরীরে এসিড জাতীয় কিছু নিক্ষেপ করা হয়েছে। নমুনা সংগ্রহ করে ল্যাবে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে। তিনি জানান, মা ও মেয়েকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে এবং তারা এখন সুস্থ আছে। ভেড়ামারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ জালাল জানান, ‘আমরা মৌখিকভাবে অভিযোগ পেয়েছি। এ ঘটনার সাথে মিনা খাতুনের সাবেক স্বামী জড়িত বলে তারা জানিয়েছে। এখনো মামলা হয়নি তবে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও তিনি জানান। পুলিশ অভিযুক্ত রিন্টু আলীকে ধরতে অভিযানে নেমেছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা

করোনায় আরো ২৬ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৮১২

ঢাকা অফিস ॥ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যার দিক দিয়ে এ মহামারির উৎপত্তিস্থল চীনকে ছাড়িয়ে গেছে বাংলাদেশ। জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের করোনাভাইরাস রিসোর্স সেন্টারের ওয়েবসাইটে গতকাল সোমবার পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, কোভিড-১৯ রোগে চীনে এ পর্যন্ত মারা গেছেন চার হাজার ৭৩৪ জন। অন্যদিকে, বাংলাদেশে মোট মৃতের সংখ্যা চার হাজার ৭৫৯ জনে পৌঁছেছে বলে গতকাল সোমবার স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে পাঠানো করোনা সংক্রান্ত নিয়মিত স্বাস্থ্য সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও ২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া, নতুন করে ১ হাজার ৮১২ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। যার ফলে মোট আক্রান্তের সংখ্যা পৌঁছেছে ৩ লাখ ৩৯ হাজার ৩৩২ জনে। জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট অনুযায়ী, চীনে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৯০ হাজার ১৯৭ জন। এদিকে, স্বাস্থ্য অধিদফতর জানিয়েছে যে করোনা শনাক্তের জন্য দেশের সরকারি ও বেসরকারি ৯৪টি ল্যাবে গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১৩ হাজার ৮৪৭টি এবং পরীক্ষা করা হয়েছে আগের নমুনাসহ ১৪ হাজার ২১৬টি। এ নিয়ে মোট নমুনা পরীক্ষা করা হলো ১৭ লাখ ৪২ হাজার ৬৯৬টি। ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১২.৭৫ শতাংশ। আর মোট পরীক্ষায় এ পর্যন্ত শনাক্ত হয়েছেন ১৯.৪৭ শতাংশ। নতুন যে ২৬ জন মারা গেছেন তাদের মধ্যে পুরুষ ২২ এবং নারী চারজন। aএখন পর্যন্ত মোট মারা যাওয়াদের মধ্যে পুরুষ ৩ হাজার ৭০৮ জন বা ৭৭.৯২ শতাংশ এবং নারী ১ হাজার ৫১ জন বা ২২.০৮ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় মোট মৃত্যুর হার ১.৪০ শতাংশ। এদিকে, করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন আরও ২ হাজার ৫১২ জন। এ নিয়ে দেশে মোট সুস্থ ব্যক্তির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ লাখ ৪৩ হাজার ১৫৫ জনে। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার এখন পর্যন্ত ৭১.৬৬ শতাংশ। গত ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্তের পর ১৮ মার্চ প্রথম একজনের মৃত্যু হয়।