ছুটির নোটিশ

আজ রবিবার পবিত্র আশুরা। এ উপলক্ষে দৈনিক আন্দোলনের বাজার পত্রিকার সকল বিভাগ বন্ধ থাকবে।

এ কারনে সোমবার পত্রিকা প্রকাশিত হবে না

(আনিসুজ্জামান ডাবলু)

সম্পাদক

বঙ্গবন্ধুর শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে কুষ্টিয়ায় শ্রমিকলীগের আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল ও খাদ্য বিতরণ

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে কুষ্টিয়া পৌর ১নং ওয়ার্ড ও শহর  শ্রমিকলীগের উদ্দ্যোগে  আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল ও খাদ্য বিতরন করা হয়েছে। গতকাল শনিবার বিকেলে শহরের থানাপাড়া জিকের ঘাট এলাকার শেখ রাসেল সেতুর পাশে অনুষ্ঠিত কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি ছিলেন কুষ্টিয়া জেলা শ্রমিকলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আমজাদ আলী খান।  প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন কুষ্টিয়া জেলা শ্রমিকলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এসএম মতিউর রহমান। বীর মুক্তিযোদ্ধা শামসুর বারীর সভাপতিত্বে এসময় বক্তব্য রাখেন, ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ রবিউল ইসলাম, জেলা শ্রমিকলীগের সহ-সভাপতি জিল্লুর রহমান, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক হামিদুল ইসলাম, জেলা মহিলা শ্রমিকলীগের সাধারন সম্পাদক মেহেরুন নেছা বিউটি, জেলা শ্রমিকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ইলিয়াস হোসেন, প্রচার সম্পাদক মোঃ আব্দুর রশিদ খান, সহ-ক্রীড়া সম্পাদক শফিকুল ইসলাম, ১নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের  সহ-সভাপতি  আঃ সাত্তার, যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক বজলার রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক শরিফুল ইসলাম মানিক, মাসুদুল ইসলাম, প্রচার সম্পাদক আঃ রহমান বিশু, সদস্য জনি মন্ডল। খাদ্য বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুষ্টিয়া শহর শ্রমিকলীগের সভাপতি দেওয়ান মাসুদুর রহমান স্বপন। আলোচনা সভা শেষে দোয়া ও গরীব অসহায় মানুষের মাঝে খাদ্য বিতরণ করা হয়।

ঝিনাইদহে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে ১৫ জন আহত

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ॥ সামাজিক আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ঝিনাইদহের হরিণাকুন্ডু উপজেলার ছোটভাদড়া গ্রামের দু’পক্ষের সংঘর্ষে অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছে। শনিবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা জানায়, দীর্ঘদিন ধরে সামাজিক আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ওই গ্রামের আব্দুর রশিদ ও আব্দুল লতিফ লতা’র বিরোধ চলে আসছিল। শুক্রবার রাতে আব্দুর রশিদের সমর্থক নাজমুল ও লতা’র সমর্থক সবুজের তুচ্ছ বিষয় নিয়ে বাক-বিতন্ডা হয়। এরই জের ধরে শনিবার সকালে উভয় পক্ষের লোক দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে উভয় পক্ষের কমপক্ষে ১৫ জন আহত হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। আহতদের উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল ভর্তি করা হয়েছে। হরিণাকুন্ডু থানার ওসি আব্দুর রহিম মোল্লা বলেন, ছোটভাদড়া গ্রামে একটি ঘটনা ঘটেছে। কোন আহতের খবর পায়নি। পরিস্থিত বর্তমানে স্বাভাবিক রয়েছে।

২০৩০ সাল পর্যন্ত যুক্তরাজ্যের কাছে জিএসপি চাইলো বাংলাদেশ

ঢাকা অফিস ॥ আগামী ২০৩০ সাল পর্যন্ত যুক্তরাজ্যের কাছে ব্রেক্সিট পরবর্তী জিএসপি (শুল্কমুক্ত বাজার) সুবিধা দেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছে বাংলাদেশ। দেশটির অল পার্টি পার্লামেন্টারি গ্রুপের সঙ্গে এক ভার্চ্যুয়াল বৈঠকে যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার সাইদা মুনা তাসনীম ব্রিটিশ সংসদ সদস্যদের (এমপি) কাছে ওই সুবিধা দেওয়ার অনুরোধ করেন। হাইকমিশনার সাইদা মুনা তাসনীম করোনা পরবর্তীকালে বাংলাদেশ-যুক্তরাজ্যের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় সুবিধা বাড়ানোর আহ্বান জানান। বৈঠকে ব্রিটিশ এমপিদের মধ্যে লর্ড জ্যাক উইলসন, ব্যারোনেস নাতালে লুইস, লর্ড অ্যান্ড্র স্টানেল ও ব্যারোনেস রোসেল বয়কট অংশ নেন। গতকাল শনিবার যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশ হাইকমিশন থেকে পাঠানো এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

সিনহা হত্যা

পুলিশের ৩ সাক্ষী ফের র‌্যাব হেফাজতে

ঢাকা অফিস ॥ কক্সবাজারের টেকনাফে মেজর (অব.) সিনহা মো. রাশেদ খান হত্যার ঘটনায় পুলিশের দায়ের করা মামলার তিন সাক্ষীকে ফের নিজেদের হেফাজতে নিয়েছে র‌্যাব। গতকাল শনিবার (২৯ আগস্ট) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তাদের কক্সবাজার জেলা কারাগার থেকে বের করে সদর হাসপাতালে স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর নিয়ে যায় র‌্যাব। জেলা কারাগারের জেল সুপার মো. মোকাম্মেল হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেন। ওই তিনজন হলেন- টেকনাফের মারিশবুনিয়া এলাকার নুরুল আমিন, নিজাম উদ্দিন ও মো. আয়াছ। প্রথম দফা সাতদিনের রিমান্ড শেষে গত ২৫ আগস্ট মামলার তদন্ত কর্মকর্তা র‌্যাবের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মোহাম্মদ খায়রুল ইসলাম তাদের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করে পুনরায় সাতদিনের রিমান্ড আবেদন করেন। শুনানি শেষে দ্বিতীয় দফায় তাদের চারদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন বিচারক তামান্না ফারাহ। সিনহা হত্যার বিষয়ে আরও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাদের ফের হেফাজতে নিল র‌্যাব। সিনহা হত্যার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশের করা মামলার তিন সাক্ষীকে গত ১১ আগস্ট মারিশবুনিয়া এলাকা থেকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে পরে গ্রেফতার দেখানো হয়। গত ৩১ জুলাই পুলিশের গুলিতে মেজর (অব.) সিনহা নিহত হওয়ার পর তার সঙ্গে থাকা সিফাতের বিরুদ্ধে মাদক ও পুলিশকে দায়িত্ব পালনে বাধা দেয়ার অভিযোগে টেকনাফ থানায় মামলা করে পুলিশ। এসআই নন্দদুলাল রক্ষিতের দায়ের করা ওই মামলায় এই তিনজনকে সাক্ষী দেখানো হয়েছিল। উল্লেখ্য, গত ৩১ জুলাই রাতে টেকনাফের পাহাড়ে ভিডিও চিত্র ধারণ করে কক্সবাজার মেরিন ড্রাইভ সড়ক দিয়ে হিমছড়ি এলাকার নীলিমা রিসোর্টে ফেরার পথে শামলাপুর চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন মেজর (অব.) সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান। এ ঘটনায় পুলিশের পক্ষ থেকে তিনটি মামলা করা হয়। দুটি মামলা হয় টেকনাফ থানায়। সরকারি কাজে বাধা প্রদানের মামলার আসামি করা হয় সিনহার সঙ্গে থাকা সিফাতকে। হত্যাচেষ্টা মামলায় সিফাত ও নিহত সিনহাকে আসামি করা হয়। আপরদিকে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে রামু থানায় দায়ের করা মামলায় আসামি করা হয় শিপ্রা দেবনাথকে। একই ঘটনায় ৫ আগস্ট নিহত সিনহার বড় বোন শারমিন শাহরিয়া ফেরদৌস বাদী হয়ে কক্সবাজার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে টেকনাফ থানার বরখাস্ত ওসি প্রদীপ কুমার দাশ, বাহারছড়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক লিয়াকত আলী, থানার এসআই নন্দদুলাল রক্ষিতসহ ৯ পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন। পরদিন সাত পুলিশ সদস্য আদালতে আত্মসমর্পণ করেন। এ মামলার অপর দুই আসামি এসআই টুটুল ও মো. মোস্তফা আদালতে হাজির হননি। পুলিশের দাবি, এই নামে জেলা পুলিশে কেউ নেই। তবে আদালত তাদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন। সিনহা হত্যার ঘটনায় এখন পর্যন্ত সাত পুলিশ সদস্য, আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) তিন সদস্য ও টেকনাফ পুলিশের করা মামলার তিন সাক্ষীসহ ১৩ জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। তাদের মধ্যে প্রথম দফা রিমান্ড শেষ হওয়ার আগেই গ্রেফতার এপিবিএনের তিন সদস্য আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। তারা কারাগারে রয়েছেন। বাকিদের বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ড চলছে।

 

গাংনীতে ১৬ কেজি গাঁজাসহ মাদক বিক্রেতা আটক

গাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার সীমান্তবর্তি রংমহল গ্রাম থেকে নজরুল ইসলাম (৫০) নামের একজনকে আটক করেছে বিজিবি সদস্যরা। আটককৃত নজরুল ইসলাম পার্শ্ববর্তি খাসমহল গ্রামের হুজুর আলীর ছেলে। গতকাল শনিবার ভোররাতে রংমহল বিজিবি ক্যাম্পের সদস্যরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মাদকসহ নজরুল ইসলামকে আটক করে। রংমহল বিজিবি ক্যাম্পের কমান্ডার আব্দুল মান্নান জানান বাংলাদেশ-ভারত আন্তর্জাতিক সীমান্তের ১৩৭/ ৫ এস পিলার এলাকা দিয়ে মাদক পাঁচার হচ্ছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই এলাকায় অভিযান চালানো হয়। অভিযানে নজরুল ইসলাম নামের একজনকে ১৬ কেজি গাঁজাসহ আটক করা হয়।  আটককৃত নজরুলের নামে মাদকদ্রব্য আইনে গাংনী থানায় একটি মামলা হয়েছে।

পবিত্র আশুরা উপলক্ষে হক্কানী দরবারে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল

পবিত্র আশুরা উপলক্ষে হক্কানী দরবারে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। কুষ্টিয়ার আইলচারায় হক্কানী দরবারে এ আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফীল অনুষ্ঠিত হয়। হক্কানী দরবারের পরিচালক এম খালিদ হোসাইন সিপাহীর সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ জাতীয় মুফাস্সীর পরিষদ কুষ্টিয়া জেলা শাখার সভাপতি আলহাজ্ব মুফতি মাওলানা আব্দুল হান্নান। বিশেষ অতিথি ছিলেন মুফাস্সীর পরিষদের কুষ্টিয়া জেলা সেক্রেটারী, বঙ্গবন্ধু উলামা পরিষদের জেলা সভাপতি মাওলানা ফারুক আযম জিহাদী। মুফাস্সীর পরিষদের কুষ্টিয়া জেলা শাখার সহ-সভাপতি আলহাজ্ব মুফতি মাওলানা আলী হুসাইন ফারুকী।

বক্তব্য রাখেন বঙ্গবন্ধু উলামা পরিষদের কুষ্টিয়া জেলা শাখার সিনিয়র সহ-সভাপতি আলহাজ্ব হাফেজ আব্দুল্লাহ আল মামুন, আলহাজ্ব মাওলানা দেওয়ান আব্দুল আজিজ। উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু উলামা পরিষদের নেতা হাফেজ আব্দুল কুদ্দুস, দহকোলা বাজার হাফেজিয়া মাদ্রাসার প্রধান মুফতি গিয়াস উদ্দিন, তেঘরিয়া আইডিয়াল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক মাওলানা সাইদুর রহমান, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী রুহুল কুদ্দুস, বিশিষ্ট সমাজসেবক রোকন মন্ডলসহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দ। করোনার কারণে সংক্ষিপ্ত পরিসরে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা  শেষে কারবালার প্রান্তরে নির্মমভাবে শাহাদাতবরণকারী ও করোনায় মৃত্যু ব্যক্তিদের আত্মার যথাযথ মর্যাদা কামনা করে  দোয়া করা হয়। সেই সাথে এই মাসে বঙ্গবন্ধু তার পরিবার পরিজনদের নির্মমভাবে হত্যা করা হয়। তাদের জন্যও দোয়া করা হয়। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

 

শৈলকুপায় সাপের কামড়ে অন্ত:স্বত্তা নারী মৃত্যু

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ॥ ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার দোহারো গ্রামে সাপের কামড়ে শরিফা খাতুন (২২) নামের অন্ত:স্বত্তা এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। শনিবার সকালে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। শরিফা খাতুন দোহারো গ্রামের রাশিদুল ইসলামের স্ত্রী। শৈলকুপা থানার ওসি জাহাঙ্গীর আলম জানান, রাতে নিজ ঘরে ঘুমিয়ে ছিল ৭ মাসের অন্ত:স্বত্তা শরিফা খাতুন। রাত ৩ টার দিকে বিষাক্ত সাপ তাকে কামড় দেয়। সকালে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। শরিফা খাতুনের ৩ বছরে এক ছেলে সন্তান রয়েছে।

এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়ার মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়নি – শিক্ষামন্ত্রী

ঢাকা অফিস ॥ উচ্চ মাধ্যমিক ও সমমান পরীক্ষা নেওয়ার মতো পরিস্থিতি এখনো তৈরি হয়নি বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তিনি বলেছেন, পরিবেশ পরিস্থিতি অনুকূলে এলে দুই সপ্তাহের প্রস্তুতিতে পরীক্ষা নেওয়া হবে। পরীক্ষা নেওয়ার জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রস্তুত রয়েছে। গতকাল শনিবার জাতীয় জাদুঘরে এক গোলটেবিল আলোচনা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। দীপু মনি বলেন, এইচএসসি পরীক্ষাতে ১৪ লাখ পরীক্ষার্থী অংশ নেবেন। পরীক্ষা প্রশাসনের লোকজনসহ প্রায় ২০ থেকে ২৫ লাখ মানুষ এ পরীক্ষার সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকবেন। যারা গণপরিবহন ব্যবহার করে আসবেন এবং যাবেন। এ মুহূর্তে এত বিশাল স্বাস্থ্যঝুঁকি নেওয়া সম্ভব নয়। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সংক্রমণের হার কমে যাওয়ায় বিশ্বের বিভিন্ন দেশ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিয়েছিল। যার ফল সুখকর হয়নি। সংক্রমণের কারণে আবারো বন্ধ করে দিতে বাধ্য করা হয়েছে। এ ধরনের স্বাস্থ্যঝুঁকি নিয়ে আমরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলবো না। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও পাঠদান অব্যাহত রয়েছে জানিয়ে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, অনলাইনে ক্লাস করার প্রাথমিক জড়তা কাটিয়ে উঠেছে শিক্ষার্থীরা। যার ফলে তাদের বড় ধরনের ক্ষতি হবে না বলে আমরা মনে করছি। তাদের শিক্ষাজীবন ব্যাহত হবে না। যদি আমরা এক মাস ক্লাস নিতে পারি তাহলেই তাদের সিলেবাস শেষ হবে। যদি এ বছর সেটি সম্ভব না হয়, প্রয়োজনে শিক্ষাবর্ষ কিছুটা বাড়ানো যেতে পারে।

গুম হচ্ছে একদলীয় দুঃশাসনের নমুনা – ফখরুল

ঢাকা অফিস ॥ বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘গুমের আতঙ্ক এখন দেশের সর্বত্র পরিব্যাপ্ত। দুঃশাসন থেকে উৎপন্ন হয় গুম ও বিচার বহির্ভূত হত্যার মত মানবতাবিরোধী হিং¯্রতা। গুম হচ্ছে একদলীয় দুঃশাসনের নমুনা। গতকাল শনিবার সকালে ‘আন্তর্জাতিক গুম দিবস’ উপলক্ষে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে তিনি এ কথা বলেন। বিএনপি মহাসচিব বলেন, ৩০ আগস্ট আন্তর্জাতিক গুম দিবস উপলক্ষে আমি হারিয়ে যাওয়া মানুষদের জন্য উদ্বেগ প্রকাশ করছি। তাদের পরিবারের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জ্ঞাপন করছি। বাংলাদেশে গুমের আতঙ্ক এখন সর্বত্র পরিব্যাপ্ত। দুঃশাসন থেকে উৎপন্ন হয় গুম ও বিচার বহির্ভূত হত্যার মত মানবতাবিরোধী হিং¯্রতা। স্বৈরাচারী সরকারের গড়ে তোলা আইন প্রয়োগকারী সংস্থার পরিচয়ে বিরোধী দলের প্রতিবাদী নেতাকর্মীদের তুলে নিয়ে যাওয়া এখন নিত্যকার ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে। গুম হচ্ছে একদলীয় দুঃশাসনের নমুনা। তিনি বলেন, দেশে বর্তমান শাসকগোষ্ঠি ক্ষমতাসীন হওয়ার পর থেকে গুমকে তাদের প্রধান রাজনৈতিক কর্মসূচি করেছে। বিরোধী দল শূন্য একদলীয় কর্তৃত্ববাদী শাসন ব্যবস্থা টিকিয়ে রাখতে গুমকে পথের কাঁটা দূর করার প্রধান হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে। এ নৃশংস গুমের শিকার হয়েছেন সংসদ সদস্য ইলিয়াস আলী, সাইফুল ইসলাম হিরু, চৌধুরী আলম, সুমন, জাকিরসহ অসংখ্য মানুষ। মির্জা ফখরুল বলেন, আরেকটি অভিনব গুমের শিকার হয়েছেন সাবেক মন্ত্রী ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাহউদ্দিন আহমেদ। তাকে দুই মাস গুম করে রাখার পর পাচার করা হয়েছে অন্য দেশে। এই নতুন ধরনের ঘটনা দেশবাসীকে অজানা আতঙ্কে উদ্বিগ্ন করে তুলেছে। রাষ্ট্র সমাজে মানুষের মধ্যে নিরাপত্তাহীনতার বোধ সৃষ্টির জন্যই গুমকে কৌশল হিসেবে ব্যবহার করে নিষ্ঠুর শাসকগোষ্ঠি। তিনি আরও বলেন, জনসমর্থনহীন ও ভোটারবিহীন সরকারের টিকে থাকার অবলম্বনই হচ্ছে গুম। এই ধারা বয়ে চললে দেশ অরাজকতার ঘন অন্ধকারে ডুবে যাবে। মানুষের স্বাভাবিক জীবন-যাপন সম্পূর্ণভাবে বিপর্যস্ত হয়ে যাবে। আসুন, আমরা গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে ঐক্যবদ্ধ হই। কেবলমাত্র একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে প্রকৃত গণতান্ত্রিক সরকার গঠন হলেই গুম, অপহরণ, খুন ও বিচার বহির্ভূত হত্যার মতো মানবতাবিরোধী অপরাধ দূর হবে, জন-জীবনে স্বস্তি ফিরবে।

কয়েক মাসের মধ্যেই করোনার ভ্যাকসিন পাওয়া যাবে – স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ঢাকা অফিস ॥ স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, বিশ্বের অন্যান্য দেশ করোনার ভ্যাকসিন পেলে বাংলাদেশও প্রথম সারির মধ্যে থাকবে। বিভিন্ন দেশে এখন ভ্যাকসিন তৈরি হচ্ছে। আগামী কয়েক মাসের মধ্যেই হয়তো সেই ভ্যাকসিন পাওয়া যাবে। দুদিন আগে বাংলাদেশে চীনা ভ্যাকসিন পরীক্ষামূলকভাবে ব্যবহারের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। গতকাল শনিবার দুপুরে সদর উপজেলার গড়পাড়া ইউনিয়নে কর্নেল মালেক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে শিশুখাদ্য ও ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। অরিষ নামে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন আয়োজিত ওই অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে মানিকগঞ্জের জেলা প্রশাসক এসএম ফেরদৌস, পুলিশ সুপার রিফাত রহমান শামীম, অরিষের চেয়ারম্যান আফসার উদ্দিন সরকার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে দুই শতাধিক পরিবারের মাঝে শিশুখাদ্য ও ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হয়। এর আগে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক ওই এলাকায় শাবানা মডেল কমিউনিটি ক্লিনিকের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন। এরপর মানিকগঞ্জ সরকারি দেবেন্দ্র কলেজ চত্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একটি ম্যুরাল উদ্বোধন করেন।

॥ আলহাজ্ব আব্দুম মুনিব ॥

ইসলামের ইতিহাসে ঐতিহাসিক ও ঘটনাবহুল তাতপর্যময় দিন ১০ মহরম আশুরা

আজ ১০ মহরম ইসলামের ইতিহাসে বিশেষ মর্যাদাপূর্ন দিন। আমাদের মনে রাখতে হবে মহান আল্লাহ তাআলা বছরের যে কয়েকটি দিনকে বিশেষ মর্যাদায় ভুষিত করেছেন, তার মধ্যে আশুরা বা মহররমের ১০ তারিখ অন্যতম। ঐতিহাসিক ও ঘটনাবহুল এই দিনটিকে বলা হয় পৃথিবীর আদি-অন্তের দিন। অর্থাৎ এ দিনেই পৃথিবীর সৃষ্টি হয়েছে, আবার ধ্বংস বা কিয়ামত এই দিনেই সংঘটিত হবে। যে সব ঘটনার কারণে আশুরা তাৎপর্যময় এবং মুসলমানদের ইতিহাসে শোকের পাশাপাশি সুখের নিদর্শন হয়ে আছে সেগুলো সংক্ষেপে হল- ১. আশুরার দিনে আল্লাহ তাআলা পৃথিবী সৃষ্টি করেছিলেন। আবার এ দিনেই কিয়ামত সংঘটিত হবে। ২. আশুরার দিনে হজরত আদম (আ.) বেহেশত থেকে দুনিয়ায় নেমে এসেছিলেন। আবার এ দিনেই আল্লাহ পাক আদম (আ.)-এর দোয়া কবুল করেছেন এবং এ দিনে তিনি স্ত্রী হাওয়া (আ.)-এর সঙ্গে আরাফার ময়দানে সাক্ষাৎ করেছেন। ৩. হজরত নুহ (আ.)-এর জাতির মানুষজন আল্লাহর গজব মহাপ্লাবনে নিপতিত হওয়ার পর আশুরার দিনে নৌকা থেকে ঈমানদারদের নিয়ে দুনিয়ায় অবতরণ করেছেন। ৪. হজরত ইব্রাহিম (আ.) নমরুদের অগ্নিকুন্ডে নিক্ষিপ্ত হওয়ার ৪০ দিন পর আশুরার দিনে সেখান থেকে মুক্তি লাভ করেছেন। ৫. হজরত আইয়ুব (আ.) ১৮ বছর কঠিন রোগ ভোগ করার পর আশুরার দিনে আল্লাহর রহমতে সুস্থতা লাভ করেছেন। ৬. হজরত ইয়াকুব (আ.)-এর পুত্র হজরত ইউসুফ (আ.) তার ১১ ভাইয়ের ষড়যন্ত্রে কুপে পতিত হয়েছিলেন এবং এক বণিক দলের সহায়তায় মিসরে গিয়ে হাজির হয়েছিলেন। তারপর আল্লাহর বিশেষ কুদরতে তিনি মিসরের প্রধানমন্ত্রী হয়েছিলেন। ৪০ বছর পর আশুরার দিনে পিতার সঙ্গে মিলিত হয়েছিলেন। ৭. হজরত ইউনুস (আ.) জাতির লোকদের প্রতি হতাশ হয়ে নদী অতিক্রম করে দেশান্তরিত হওয়ার সময় নদীর পানিতে পতিত হয়েছিলেন এবং মাছ তাকে গিলে  ফেলে। মাছের পেট থেকে তিনি আল্লাহর রহমতে ৪০ দিন পর মুক্তি পেয়েছিলেন আশুরার দিনে। ৮. হজরত মুসা (আ.)  ফেরাউনের অত্যাচারের কারণে তার দলবলসহ অন্যত্র চলে যান। পথে নীল নদ পার হয়ে তিনি ফেরাউনের হাত থেকে আশুরার দিন মুক্তি পান। আর ফেরাউন তার দলবলসহ নীল নদের পানিতে ডুবে মারা যায়। ৯. হজরত ঈসা (আ.)-এর জাতির লোকেরা তাকে হত্যা করার চেষ্টা করলে আশুরার দিনে আল্লাহ তাআলা তাকে আকাশে উঠিয়ে নিয়ে মুক্তি দান করেছিলেন। ১০. আশুরার দিনে ফোরাত নদীর তীরে কারবালার প্রান্তরে নবীর দৌহিত্র হজরত হোসাইন (রা.) অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে গিয়ে শাহাদত বরণ করেছিলেন।

একটি বিষয় বিশেষ ভাবে মনে রাখতে হবে আশুরার দিন  রোজা রাখা সম্পর্কে নবীজি (সা.) বলেছেন, ‘আশুরার দিনের  রোজার ব্যাপারে আল্লাহপাকের নিকট আমি আশাবাদী যে তিনি এক বছর আগের গুনাহ ক্ষমা করে দেবেন।’ (মুসনাদে ইমাম আহমাদ ইবনে হাম্বল রহ.)

লেখক ঃ মাস্টার্স, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় এবং এবং কামিল (অধ্যায়নরত) আল হাদিস বিভাগ।

করোনাকালীন সময়ে যশোর সেনানিবাসের জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম অব্যাহত

বিশ্বব্যাপী মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাস  মোকাবেলায় সরকারী নির্দেশনা মোতাবেক দেশের প্রতিটি  জেলায় নিজেদের জীবন বাজি রেখে জনস্বার্থে কাজ করে যাচ্ছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। এরই ধারাবাহিকতায় জনসমাগম ঠেঁকাতে গতকাল ২৯ আগস্ট বৃহত্তর যশোর অঞ্চলে যশোর সেনানিবাসের দায়িত্বপূর্ণ দশটি জেলায়  সেনাসদস্যরা তাদের নিয়মিত টহল কার্যক্রমের পাশাপাশি সচেতনতামূলক প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করতে দেখা  গেছে। মার্কেট/শপিংমল, হাট-বাজার ও সকল প্রকার জনসমাগম এলাকাসমূহে সামাজিক দূরত্ব ও জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে যশোর  সেনানিবাসের সেনাসদস্যরা। পাশাপাশি অসহায় ও দুস্থদের মাঝে ত্রান বিতরণ, কৃষকদের মাঝে উন্নত জাতের বীজ বিতরণ, গণপরিবহন মনিটারিং, বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা প্রদান এবং রেডজোন চিহ্নিত এলাকাসমূহে ত্রান বিতরণসহ সকল প্রকার জনসেবামূলক কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। অন্যদিকে  খুলনার উপকূলীয় কয়রা এলাকায় ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাঁধ  মেরামতের কাজ অব্যাহত রাখার পাশাপাশি বৃহত্তর যশোর অঞ্চলের বন্যা কবলিত এলাকায় ফ্রী  চিকিৎসা সেবা প্রদান এবং বিশুদ্ধ পানি ও ঔষধ বিতরণ  কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

কুষ্টিয়া ইনস্টিটিউট অব সাইন্স এ্যান্ড টেকনোলজি কর্তৃপক্ষের বিবৃতি

এই মর্মে সকলের জ্ঞাতার্থে জানানো যাচ্ছে যে, জনৈক শিক্ষিকা, জুনিয়র ফ্যাকাল্টি, কওঝঞ কর্তৃক আরোপিত কুষ্টিয়া ইনস্টিটিউট অব সাইন্স এ্যান্ড টেকনোলজি (কওঝঞ)  এর সম্মানিত সিনিয়র শিক্ষক-কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে কুষ্টিয়া মডেল থানায় মোকদ্দমা নাম্বার-৩১, তারিখ-২৪/০৮/২০২০ইং, ধারা- নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন সংশোধিত ২০০৩ এর ধারা ৯(৪)খ/১০(৩০) এবং তদসহ দন্ডবিধি ৫০৬ ধারায়  অভিযোগ আনয়ন করেছেন।

উক্ত অভিযোগ বর্তমানে কুষ্টিয়া মডেল থানায় তদন্তাধীন থাকায় আইনের প্রতি সর্বোচ্চ শ্রদ্ধা প্রদর্শন পূর্বক সঠিক ও ন্যায়ানুগ তদন্তের স্বার্থে এ প্রতিষ্ঠানে কর্মরত অভিযুক্ত ব্যক্তিগণকে অত্র প্রতিষ্ঠানের নির্বাহী পরিচালক অসুস্থ ও ভারতে চিকিৎসাধীন থাকায় তার মৌখিক নির্দেশে সকল কার্যক্রম থেকে সাময়িকভাবে বিরত রাখা এবং বিকল্প ব্যবস্থায় ভর্তি সহ সকল কার্যক্রম চালু রাখা হয়েছে।

এই মোকদ্দমার তদন্ত নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত এই আদেশ বহাল ও বলবৎ থাকবে। তদন্তকালীন সময়ে তদন্তকারী কর্তৃপক্ষকে উত্থাপিত অভিযোগ সম্পর্কে সর্বাত্মক সহযোগিতা করা হবে।

প্রতিষ্ঠানের আভ্যন্তরীন ভিডিও ফুটেজ পরীক্ষান্তে দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি যে, অভিযুক্ত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সম্পূর্ণরূপে মিথ্যা, বানোয়াট, ভিত্তিহীন ও অসৎ উদ্দেশ্য প্রণোদিত।

পরবর্তী আদেশ তদন্তের ফলাফল এবং মাননীয় বিজ্ঞ আদালতের আদেশের পরিপ্রেক্ষিতে গ্রহণ করা হইবে।

নির্বাহী পরিচালক মহোদয়ের মৌখিক নির্দেশক্রমে-

মোঃ শাহজাহান আলী

অধ্যক্ষ, কওঝঞ

বাইডেনের তীব্র সমালোচনা করলেন ট্রাম্প

ঢাকা অফিস ॥ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ডেমোক্রেট প্রার্থী জো বাইডেনের তীব্র সমালোচনা করে তাকে ‘লো-আইকিউ’ বা কমবুদ্ধির লোক এবং কোনমতে সজাগ আছেন বলে বর্ণনা করেছেন। এসব কথার পাশাপাশি নিউ হ্যাম্পশায়ারের ম্যানচেস্টারে বিমানবন্দরে সমর্থকদের উদ্দেশ্যে শুক্রবার ট্রাম্প নির্বাচনে পুনরায় জয়ী হবেন বলেও আশা প্রকাশ করেন। একইসঙ্গে সমাজতান্ত্রিক বিপর্যয় থেকে দেশকে রক্ষাকারী হিসেবেও তিনি নিজেকে বর্ণনা করেন। এর আগে বৃহস্পতিবার হোয়াইট হাউসে রিপাবলিকান কনভেনশনে ট্রাম্প বলেছিলেন, বাইডেনের আমেরিকায় কেউ নিরাপদ থাকতে পারবে না। আগামী ৩ নভেম্বরের নির্বাচনে তিনি নিশ্চিত জয়ী হবেন বলেও বক্তব্যে উল্লেখ করেন। এমনকি এ বিষয়ে কারো কোন সন্দেহ আছে কিনা বলেও তিনি সমর্থকদের উদ্দেশ্যে প্রশ্ন ছুঁড়ে দেন। তিনি বলেন, আমি ‘লো-আইকিউ’র একজন লোকের কাছে হেরে যাবো, আমি তা চাই না। তিনি জো বাইডেনকে ‘স্লিপি জো’ হিসেবে উল্লেখ করে বলেন, এই লোক জানে না যে সে বেঁচে আছে। ডেমোক্রেট নৈরাজ্যকারীদের কাছ থেকে দেশকে রক্ষারও অঙ্গীকার করেন তিনি। যুক্তরাষ্ট্রে করোনা ভাইরাসে মারা গেছে ১ লাখ ৮০ হাজারেরও বেশি লোক। তবু ট্রাম্প বলেন, করোনা নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তিনি আরো বলেন, আমরা সম্ভবত এর কিনারে আছি। ট্রাম্প বলেন, আমরা সকলে আমেরিকান জনগণ ও বামপন্থী উশৃঙ্খল জনতার মাঝে দাঁড়িয়ে আছি। এই উশৃঙ্খলদের কাছ থেকে আপনি গণতন্ত্রকে রক্ষা করতে চাইলে আপনাকে অবশ্যই চরম নি¤œমানের প্রার্থীকে পরাজিত করতে হবে। হাস্যোজ্জ¦ল ও উৎফুল্ল ট্রাম্প(৭৪) বাইডেনকে(৭৭) ুদূর্বল এবং ডেমাক্রেটদের সবচে খারাপ প্রার্থী হিসেবে বর্ণনা করেন। আগের মতোই ট্রাম্প মিথ্যেভাবে বললেন, বাইডেন ঈশ্বরবিরোধী। যদিও বাইডেন আজীবনের ক্যাথলিক। এদিকে হাজার হাজার লোক শুক্রবার ওয়াশিংটন ডিসিতে বর্ণবাদ বিরোধী বিক্ষোভ করেছে। ট্রাম্প জাতিগত সহিংসতার জন্যে নিউজ চ্যানেল সিএনএন ও এমএসএনবিসিকে দায়ি করেন। তিনি বলেন, তারা যে আগুন উস্কে দিচ্ছে তা তারা জানে। ট্রাম্প নিউহ্যাম্পশয়ারে ২০১৬ সালে অল্পভোটে হেরে যান। এ বছর তিনি এখানে জয়ের আশা করছেন। তিনি বলেন, ডেমোক্রেটরা আমেরিকান সীমান্ত মুছে দিতে চায় এবং কর বাড়িয়ে আত্মঘাতী মিশনের পরিকল্পনা করছে। ট্রাম্প বলেন, ভালো হয় আপনারা আমাকে ভোট দেবেন। না হয় যা কখনো দেখেননি সে রকম মহামন্দা প্রত্যক্ষ করবেন। এদিকে হোয়াইট হাউসের সাউথ লনে দলীয় মনোনয়নের আয়োজন করায় শুক্রবার বাইডেন ট্রাম্পের সমালোচনা করেন। তিনি ট্ইুটারে বলেন, মি. প্রেসিডেন্ট আমেরিকানরা তাদের বিয়ের আয়োজন বাতিল করছে ও পরিবার ছাড়াই অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার কাজ সারছে। আমেরিকানরা যাতে মারা না যায় সে জন্যে তারা অনেক ত্যাগ স্বীকার করছে। কিন্তু আপনি উদাহরণ সৃষ্টি না করে সাউথ লনে ব্যাপক আয়োজন করেছেন। প্রেসিডেন্টের দায়িত্বটাকে আপনি কখন গুরুত্বের সঙ্গে নেবেন?

 

মিরপুরে ভ্রাম্যমান আদালতে দন্ড

আমলা অফিস ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুরে চুরির প্রচেষ্টার অপরাধে একরামুল বিশ্বাস (৩০) নামের এক যুবককে দন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। গতকাল শনিবার সকালে মিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক লিংকন বিশ্বাস এ দন্ড প্রদান করেন। দন্ডপ্রাপ্ত একরামুল বিশ্বাস মিরপুর পৌরসভার খন্দকবাড়িয়া এলাকার কোহিনুর বিশ্বাসের ছেলে। ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক লিংকন বিশ্বাস জানান, সকালে বাড়ীর পার্শ্ববর্তী বাড়ী থেকে পানি উত্তোলনের একটি বৈদ্যুতিক মোটর চুরি করে নিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয়রা তাকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। ঘটনাস্থল থেকে মিরপুর থানা পুলিশের এস আই সালাউদ্দিন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে একরামুলকে আটক করে নিয়ে ভ্রাম্যমান আদালতে হাজির করে। ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে চুরির প্রচেষ্টার অপরাধে একরামুল বিশ্বাসকে এক মাসের কারাদন্ড প্রদান করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।

পাঁচ সংসদীয় আসনে আ. লীগ প্রার্থী চূড়ান্ত হবে আজ

ঢাকা অফিস ॥ শূন্য হওয়া পাঁচ সংসদীয় আসনে দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করতে আওয়ামী লীগের সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ডের সভা বসছে আজ রোববার। আওয়ামী লীগের উপ-দফতর সম্পাদক সায়েম খান যুগান্তরকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, বিকাল সাড়ে চারটায় গণভবনে সভাটি অনুষ্ঠিত হবে। একাদশ সংসদের মোট পাঁচটি আসন শূন্য হয়েছে। এরমধ্যে গত রোববার পাবনা-৪ আসনে ২৬ সেপ্টেম্বর, ঢাকা-৫ ও নওগাঁ-৬ শূন্য আসনে ১৭ অক্টোবর উপ-নির্বাচন করার তফসিল ঘোষণা করে ইসি। আর বাকি দুই শূন্য আসন ঢাকা-১৮ ও সিরাজগঞ্জ-১ এর উপ-নির্বাচনের তফসিল ৯০ দিন পিছিয়ে দেয়া হয়েছে। এসব আসনগুলোর উপ-নির্বাচনে ১৪০ জন আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী। যাদের মধ্যে ৫৬ জনই চান ঢাকা-১৮ আসনের মনোনয়ন। প্রয়াত এমপি সাহারা খাতুনের আসনে ৫৬ মনোনয়নপ্রত্যাশীদের মধ্যে রয়েছেন আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, মহিলা লীগ, যুব মহিলা লীগের সাবেক ও বর্তমান নেত্রী, সাবেক সংসদ সদস্য, সাবেক সচিব, পুলিশের সাবেক ডিআইজি, সাবেক জেলা জজ, চিকিৎসক, শিক্ষক ও কাউন্সিলর। এদিকে শূন্য হওয়া ৫টি আসনে প্রার্থী বাছাই করতে গত ১৭ আগস্ট থেকে দলীয় মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু করে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। যা ২৩ আগস্ট শেষ হয়। দলীয় মনোনয়ন ফরম বিক্রির শেষ দিনে আওয়ামী লীগের উপ-দফতর সম্পাদক সায়েম খান গণমাধ্যমকে বলেছিলেন, শূন্য হওয়া পাঁচটি আসনের উপ-নির্বাচনে মোট ১৪০টি মনোনয়ন ফরম বিক্রি করা হয়েছে। এর মধ্যে শুধু ঢাকা-১৮ আসনেই ৫৬টি মনোনয়ন ফরম বিক্রি হয়েছে।

দৌলতপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। করোনা স্বাস্থ্যবিধি মেনে গতকাল শনিবার দুপুরে প্রেসক্লাব কার্যালয়ে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। দৌলতপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি এ্যাড. এমজি মাহমুদ মন্টুর সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন, এম মামুন রেজা, মোশারফ হোসেন খান, জাহাঙ্গীর আলীম, শরীফুল ইসলাম, আহাদ আলী নয়ন, মাহফুজুল আলম, এস আর সেলিম, সাইদুল আনাম, সাইদুর রহমান, আতিয়ার রহমান, আহমেদ রাজু ও এস এম জাহিদ হোসেন। সভায় প্রেসক্লাবের উন্নয়ন ও প্রেসক্লাবের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী নতুন সদস্য নেওয়ার বিষয়সহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়।

 

খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর আবেদন

ঢাকা অফিস ॥ সরকারের নির্বাহী আদেশে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ বাড়াতে পরিবারের পক্ষ থেকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আবেদন করা হয়েছে। খালেদার চিকিৎসার জন্য তার মুক্তির মেয়াদ বাড়াতে এই আবেদন করেন তার ছোট ভাই শামীম ইস্কান্দার। বিষয়টি যাচাই-বাছাইয়ের জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে আবেদনপত্র আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। জানা যায়, গত মঙ্গলবার পরিবারের পক্ষ থেকে আবেদনপত্রটি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খানের কাছে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। বিএনপি চেয়ারপারসনের আইনজীবী ব্যারিস্টার এ এম মাহাবুব উদ্দিন খোকন ও ব্যারিস্টার একেএম এহসানুর রহমান গতকাল শনিবার বলেন, খালেদা জিয়ার পরিবারের পক্ষ থেকে তার মুক্তির জন্য সরকারের কাছে আবেদন করা হয়েছে। ইতোপূর্বে যে ধরনের আবেদনের মাধ্যমে খালেদা জিয়া মুক্তি পেয়েছিলেন এবারও তার স্থায়ী মুক্তির জন্য সেভাবে আবেদন করা হয়েছে। আবেদনে উন্নত চিকিৎসার জন্য কোনো শর্তারোপ না করার অনুরোধ জানানো হয়েছে। গত শুক্রবার আবেদনের বিষয়টি বিভিন্ন গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। তিনি বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসনের লিখিত আবেদন আমরা পেয়েছি। তার আবেদন আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। এর আগে খালেদা জিয়ার পরিবারের পক্ষ থেকে তার মুক্তির জন্য সরকারের কাছে আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গত ২৫ মার্চ মুক্তি পান খালেদা জিয়া। আবেদনে যুক্তরাজ্যে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে নিতে আবেদন করা হয়েছিল। কিন্তু তখন তাকে দেশের বাইরে যাওয়ার অনুমতি দেয়নি সরকার। এবারও বিদেশে নেয়ার অনুমতি চেয়ে আবেদন করা হয়েছে। গত ২৫ আগস্ট খালেদা জিয়ার মুক্তির আবেদন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট শাখায় পাঠানো হয় বলে তিনি জানান। গত ২৪ মার্চ আইনমন্ত্রী আনিসুল হক তার গুলশানের বাসায় এক সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছিলেন, ফৌজদারি কার্যবিধির ৪০১ এর উপধারা ১ অনুযায়ী, খালেদা জিয়ার সাজার কার্যকারিতা স্থগিত করা হয়েছে। তিনি বলেন, বাংলাদেশ সরকার শর্তসাপেক্ষে বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে মুক্তি দেওয়ার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে ছয় মাসের জন্য তার সাজা স্থগিত করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। দু’টি শর্তে তাকে মুক্তি দেওয়া হচ্ছে। সেগুলো হলো- এই সময়ে তার ঢাকায় নিজের বাসায় থাকতে হবে এবং তিনি বিদেশে যেতে পারবেন না। আইনমন্ত্রী তখন আরো বলেন, ঢাকার নিজ বাসায় থেকে চিকিৎসা নেয়া এবং এই সময় বিদেশে না যাওয়ার শর্তে তাকে মুক্তি দেওয়ার জন্য আমি মতামত দিয়েছি। সেই মতামত এখন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পৌঁছে গেছে। আইনমন্ত্রীর বক্তব্যের পরদিন ২৫ মার্চ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) থেকে খালেদা জিয়া জামিনে মুক্ত হয়ে গুলশানের বাসভবন ফিরোজায় যান। এরপর থেকে তিনি সেখানেই আছেন। ৮ ফেব্র“য়ারি ২০১৮ থেকে দুই বছরের বেশি সময় ধরে কারাগারে ছিলেন খালেদা জিয়া। তার মধ্যে ১১ মাস ধরে তিনি বিএসএমএমইউতে চিকিৎসাধীন ছিলেন। ২০০৮ সালে বিএনপি চেয়ারপারসনের বিরুদ্ধে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ মামলা হয়। জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট এবং চ্যারিটেবল ট্রাস্ট সম্পর্কিত দু’টি দুর্নীতির মামলায় ১৭ বছরের সাজা নিয়ে খালেদা জিয়া কারাভোগ করছিলেন।

 

বাংলাদেশের মানুষ কখনও নিষ্ক্রিয়ভাবে বসে থাকে না – ড. কামাল

ঢাকা অফিস ॥ বাংলাদেশের মানুষ কখনও নিষ্ক্রিয়ভাবে মাথায় হাত দিয়ে বসে থাকে না বলে মন্তব্য করেছেন গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন। তিনি বলেন, বিভিন্ন দেশে দেখেছি সমস্যা আসলে মানুষ মাথায় হাত দিয়ে বসে থাকে। কিন্তু বাংলাদেশে দেখেছি মানুষ কখনও নিষ্ক্রিয়ভাবে মাথায় হাত দিয়ে বসে থাকে না। যতই ভয়াবহ পরিস্থিতি সামনে আসে, তখন চেষ্টা করে কিভাবে ঐক্যবদ্ধভাবে এখান থেকে বেরিয়ে আসা যায়। গতকাল শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে গণফোরামারে ২৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় বেইলি রোড়ের নিজ বাসা থেকে টেলিফোনে যুক্ত হয়ে ড. কামাল এসব কথা বলেন। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে প্রেস ক্লাবে ও ড. কামাল হোসেনের বেইলি রোডের বাড়িতে কেক কাটা হয়। এ সময় ড. কামাল বলেন, আমাদের মানুষের মধ্যে যে শক্তি আছে, সেটাই আসল শক্তি। আমাদের ইতিবাচক রাজনীতির মূল উৎস ছিল মানুষ। যদি এসব ব্যাপারে ইতিবাচকভাবে কাজ করে, সমস্যার কারণটা কী চিহ্নিত করে এবং সবাই মিলে চেষ্টা করে তাহলে সমাধান পাওয়া যায়। দেশের সংকটগুলোকে মেনে না নিয়ে আমরা গঠনমূলকভাবে ঐক্যবদ্ধ হয়েছি বলে মন্তব্য করে কামাল হোসেন বলেন, এটা হচ্ছে সুস্থ রাজনীতির অবদান। সুস্থ রাজনীতি মানুষকে সচেতন করে। মানুষের মধ্যে আত্মবিশ্বাস ফিরে আসে। আমাদের অবশ্যই বাঁচতে হবে। বিক্ষিপ্তভাবে কাজ করে এই পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে পারবো না। দেশের অর্থনীতিকে আমাদের পুরোপুরি পুনরুজ্জীবিত করতে হবে উল্লেখ করে কামাল হোসেন বলেন, কারণ অর্থনীতি মানুষের চাহিদা পূরণ করে। সরকার সেই ব্যবস্থা করতে হবে যাতে মানুষ ইতিবাচক অর্থনীতিতে অবদান রাখতে পারে। আমাদের বিদেশের রেমিট্যান্স যোদ্ধারা নিয়মিত দেশে টাকা পাঠাচ্ছে। তারা দেশপ্রেমের পরিচয় দিয়ে যাচ্ছে। প্রেসক্লাবে আলোচনা সভায় গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক ড. রেজা কিবরিয়া বলেন, ভয়-ভীতির রাজনীতি থেকে বের হয়ে জনগণের ভোটাধিকার পুনরুদ্ধার করতে হবে আমাদের। আমাদের ভোটের অধিকার কেড়ে নেওয়া হয়েছে। এটি পুনরুদ্ধারে সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে তা ফিরিয়ে আনব। দেশের রাজনৈতিক সংস্কৃতি পরিবর্তন করতে হবে বলে উল্লেখ করে রেজা কিবরিয়া বলেন, বর্তমান রাজনীতি হচ্ছে জনগণ সব সময় সরকারের ভয়ে থাকে। যে রাজনীতিতে সরকার জনগণকে ভয় পায় আমাদের সেই রাজনীতি করতে হবে। আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন গণফোরামের কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক কমিটির সদস্য মোকাব্বির খান, মোস্তাক আহমেদ, জহিরুল ইসলাম প্রমুখ।

এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা

গুজবে কান না দেয়ার আহ্বান মন্ত্রণালয়ের

ঢাকা অফিস ॥ এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা নিয়ে কোনো ধরনের গুজবে কান না দেয়ার আহ্বান জানিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। গতকাল শনিবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা এম এ খায়ের স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ আহ্বান জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সম্প্রতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নামে ভুয়া ফেসবুকে পেজ ও প্রোফাইলে (মিনিস্ট্রি অব এডুকেশন বোর্ড) শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়া এবং এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা সংক্রান্ত বিভিন্ন কাল্পনিক তারিখ ঘোষণা করে শিক্ষক, অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের বিভ্রান্ত করা হচ্ছে। এ বিষয়ে শিক্ষক, অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের সতর্ক থাকতে বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। উল্লিখিত বিষয়ে গণমাধ্যমের সহযোগিতাও কামনা করা হয়েছে। বলা হয়েছে, এ বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বক্তব্য হলো স্বাস্থ্যঝুঁকি থাকায় কখন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়া হবে এবং কখন এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে সে বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত এখনও নেয়া হয়নি। উপযুক্ত পরিবেশ হলে পরীক্ষা নেয়া হবে এবং তারিখ গণমাধ্যমের মাধ্যমে জানিয়ে দেয়া হবে। একইভাবে উপযুক্ত পরিবেশ তৈরি হলেই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়া হবে। ভুয়া কোনো পেজ বা সামাজিক মাধ্যমের তথ্য বিশ্বাস না করার জন্য সর্বসাধারণের প্রতি আহ্বান জানানো হলো। উল্লেখ্য, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একটি ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজ রয়েছে। এ ছাড়া অন্য কোনো পেজের তথ্য বিশ্বাস করে কেউ বিভ্রান্ত হবেন না।