ঝিনাইদহে পুলিশের বাঁধায় বিএনপির মানববন্ধন কর্মসূচী পন্ড

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ॥ ঝিনাইদহে বিএনপির মানববন্ধন কর্মসূচী পুলিশের বাঁধায় পন্ড হয়ে গেছে। গতকাল সোমবার সকালে কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে শহরের এইচ এস এস সড়কের জেলা বিএনপির কার্যালয়ের সামনে বিদ্যুৎ, পানিসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে কর্মসূচীর আয়োজন করা হয়। মানববন্ধন চলাকালে জেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দ সরকার বিরোধী উস্কানিমূলক বক্তব্য রাখছিলেন। এ বক্তব্য চলাকালে সদর থানার ওসি’র নেতৃত্বে পুলিশ মানববন্ধন কর্মসূচীতে বাঁধা দেয়। পরে পুলিশ নেতাকর্মীদের ধাওয়া করলে তারা ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়। ঝিনাইদহ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মিজানুর রহমান জানান বিএনপি মানুষের চলাচলের রাস্তা বন্ধকরে দীর্ঘসময় ধরে মানবন্ধন কর্মসূচী পালন করছিল সে কারনে জনগণের শান্তিপূর্ণ চলাচলে স্বার্থে ও জানমালের নিরাপত্তার কারনে তাদেরকে আমরা ছত্রভঙ্গ করে দিয়েছি।

ঝিনাইদহে জাতীয় ভোটার দিবস পালিত

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ॥ ‘ভোটার হয়ে ভোট দেব, দেশ গড়ায় অংশ নেব’ এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে ঝিনাইদহে জাতীয় ভোটার দিবস পালিত হয়েছে। জেলা প্রশাসন ও জেলা নির্বাচন অফিসের আয়োজনে সোমবার সকালে শহরের পুরাতন ডিসি কোর্ট চত্বর থেকে একটি র‌্যালী বের করা হয়। র‌্যালিটি শহরের বিভিন্ন সড়ক ঘুরে একই স্থানে এসে শেষ হয়। পরে পুরাতন ডিসি কোর্ট মুক্তমঞ্চে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা নির্বাচন অফিসার রোকনুজ্জামান এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ। বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) সেলিম রেজা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আবুল বাশার, জেলা শিক্ষা অফিসার সুশান্ত কুমার দেব। এসময় বক্তারা, বয়স ১৮ হলেই ভোটার হওয়ার জন্য সঠিত তথ্য প্রদান করে নির্ভূল ভোটার প্রনয়ণে সহায়তা করার আহ্বান জানান।

মিরপুরে জাতীয় ভোটার দিবস পালিত

আমলা অফিস ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুরে জাতীয় ভোটার দিবস পালিত হয়েছে। উপজেলা নির্বাচন অফিস ও উপজেলা প্রশাসনের যৌথ উদ্যোগে “ভোটার হয়ে ভোট দেব, দেশ গড়ায় অংশ নিবো” শ্লোগানে গতকাল সোমবার সকালে এক বর্নাঢ্য র‌্যালী বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা দোলন কান্তি চক্রবর্তী’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লিংকন বিশ্বাস। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের ভাইস-চেয়ারম্যান আবুল কাশেম জোয়ার্দ্দার, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) রকিবুল হাসান, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রমেশ চন্দ্র ঘোষ, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কামান্ডের সাবেক কমান্ডার আফতাব উদ্দিন খান, উপজেলা প্রাণীসম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ সোহাগ রানা, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা জামশেদ আলী, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা জুলফিকার হায়দার, একাডেমিক সুপারভাইজার আশিকুজ্জামান, উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা নূরুল ইসলাম নান্নু, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা তমান্নাজ খন্দকার, মিরপুর প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি কাঞ্চন কুমার হালদার, উপজেলা নির্বাচন অফিসের সাটমুদ্রাক্ষরিক ইদবার আলী, ডাটা এন্টি অপারেটর রানা আহম্মেদ, সরোয়ার হোসেন, অফিস সহায়ক মাসুম প্রমুখ।

বিএনপিকে ‘আন্ডার এস্টিমেট’ করবেন না – ফারুক

ঢাকা অফিস ॥ খালেদা জিয়ার মুক্তি আন্দোলন থেকে জনদৃষ্টি ফেরাতে সরকার ‘পাপিয়া’ আবিষ্কার করেছে বলে মন্তব্য করেছেন দলের চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নুল আবদিন ফারুক। জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে সোমবার সকালে এক মানববন্ধন কর্মসূচিতে তিনি বলেন, “আজকে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলন থেকে জনদৃষ্টি অন্যদিকে ফেরানোর জন্য সরকার পাপিয়া আবিষ্কার করেন। অন্যদিকে সংগ্রামের জন্য আমরা যখন প্রস্তুত থাকি তখন শুরু করেন ক্যাসিনো আবিষ্কার। “একটির পর একটি আপনারা এসব তৈরি করে করে বিএনপির আন্দোলনকে কোনঠাসা করার পরিকল্পনা করছেন। আমি বলব, সেই পরিকল্পনা করে আপনারা বিএনপিকে আন্ডার ইস্টমেট কইরেন না।” পানি ও বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর প্রতিবাদে ‘দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও আন্দোলন’ নামের সংগঠনের উদ্যোগে এই মানববন্ধন হয়। জয়নুল আবদিন বলেন, “বিএনপির প্রতিষ্ঠা হয়েছে স্বাধীনতার ঘোষক শহীদ জিয়ার হাতে। সেই দলকে ১২ বছর আপনারা পুলিশি সরকার দিয়ে ঠেকিয়ে রেখেছেন। এই ঠেকানো স্বৈরাচার এরশাদও রাখতে পারে নাই, মইন ইউ আহমেদ-ফখরুদ্দিন আহমেদও পারে নাই।” তিনি বলেন, “লগি-বৈঠা দিয়ে যারা ক্ষমতায় আসলেন তারা আজকে আবারেও কৌশল করে দেশের জনগণের ক্ষমতাকে কুক্ষিগত করে দেশের সাংবিধানিক ও গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলো শেষ করে দিচ্ছেন। সরকারের প্রতি অনুরোধ জানাব, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিন, পানি-বিদ্যুতের যে মূল্য বৃদ্ধি করেছেন তা বাতিল করুন।” আন্দোলনের প্রস্তুতির কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, “আমরা স্পষ্ট করে বলতে চাই, দেশনেত্রীর মুক্তি ও পানি-বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত থেকে সরকার সরে না আসলে আমরা লক্ষ মামলা মাথায় নিয়ে আন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পড়ব।” মানববন্ধনে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা এবিএম মোশাররফ হোসেন, আবদুস সালাম আজাদ, মহানগর দক্ষিণের ইউনুস মৃধা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

ভোটার উপস্থিতি বাড়ানো ইসির কাজ নয় – সিইসি

ঢাকা অফিস ॥ সিইসি কে এম নুরুল হুদা বলেছেন, ভোটকেন্দ্রে ভোটার উপস্থিত না থাকার অনেকগুলো কারণ থাকতে পারে। এজন্য নির্বাচন কমিশন দায়ী না। ভোটার উপস্থিতি বাড়ানো নির্বাচন কমিশনের (ইসি) কাজ নয়। সুষ্ঠু ভোটের আয়োজন করাই ইসির দায়িত্ব। গতকাল সোমবার ভোটার দিবসের র‌্যালিতে অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন। সিইসি বলেন, ইসির ওপরে মানুষের আস্থা নেই বা আছে, এটা নির্ধারিত করে বলার কোনো সুযোগ নেই। ভোটার ভোট দিতে যাবেন, ইসি ভোটের ব্যবস্থাপনা করবেন। ব্যবস্থাপনার দিক থেকে যা যা করণীয়, আমরা সব করেছি, করে থাকি বা থাকবো। রিটার্নিং কর্মকর্তা, প্রিজাইডিং কর্মকর্তা, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী নিয়োগ, এগুলো করে থাকি। তিনি বলেন, ঢাকা সিটি করপোরেশনে এত বড় একটা নির্বাচন হয়ে গেল, শান্তি-শৃঙ্খলা একেবারেই নিয়ন্ত্রণের মধ্যেই ছিল। এত বড় জায়গায় সামান্য একটু ধাক্কাধাক্কি ছাড়া সম্পূর্ণ শান্তিপূর্ণ পরিবেশ ছিল। শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট দেওয়ার সুযোগ সৃষ্টি করে দিয়েছি আমরা।’ প্রতিবেশ দূষণ কমানোর জন্য নির্বাচনের প্রচার নিয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনার নূরুল বলেন, পরীক্ষামূলকভাবে আমরা শুরু করেছি। ২১টি জায়গায় পোস্টার লাগানোর জন্য জায়গা নির্ধারণ করে দিয়েছি। আমরা বলেছি যে, পাড়ায় পাড়ায় মাইক ব্যবহার করা যাবে না। আমরা বলেছি যে, পথসভাও সংকোচিত করতে হবে। এতে কাজ হলে বিধি পরিবর্তন করে এটা প্রয়োগ করবো। তিনি বলেন, ঢাকা সিটি করপোরেশনের আগের নির্বাচনে দেখেছি যে, পোস্টারে সয়লাভ হয়ে যায়। অন্যান্য জায়গায়ও একই অবস্থা। মাইক ব্যবহার করায় শব্দ দূষণ হয়। এগুলো আমরা প্রার্থীদের সঙ্গে আলোচনা করেছি। তারা আমাদের সমর্থন দিয়েছেন। এটা ইতিবাচক বিষয়। তারা নির্ধিদ্বায় সম্মত হয়েছেন যে, যেভাবে মাইকিং ও পোস্টারিং হলো বিশেষ করে গত সিটি নির্বাচনে, এটা কাম্য নয়। জ্যেষ্ঠ নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার বলেন, এবারের প্রতিপাদ্য ‘ভোটার হয়ে ভোট দেব, দেশ গড়ায় অংশ নেব’। ভোটার হওয়াটাই সবচেয়ে বড় কথা নয়। আর ভোটাররা তো সব দেশ গড়ায় অংশ নেন না। যারা দেশ গড়ায় অংশ নিতে পারেন, এরকম যোগ্য লোককে ভোটাররা ভোট দেবেন, এটাই আশা করা যায়। নির্বাচন কমিশনার মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, ভোটার হয়েছেন, গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় অংশ নিন। দেশটা গড়ে তোলার জন্য অংশগ্রহণ করুন।নির্বাচন কমিশনার কবিতা খানম বলেন, ভোটার হয়ে ভোট দেব, দেশ গড়ায় অংশ নেব-এই প্রতিপাদ্যের মধ্যে একটা স্পিরিট আছে, ফোর্স আছে। নিজের অধিকারকে নিজেদের প্রতিষ্ঠা করতে হয়। অন্য কেউ এসে আপনার অধিকারকে প্রতিষ্ঠা করে দেবে না। ভোটার হবেন, ভোট কেন্দ্রে যাবেন এবং নিজের অধিকার স্বাধীনভাবে প্রতিষ্ঠা করার সর্বাত্মক চেষ্টা করবেন। নির্বাচন কমিশনার শাহাদাত হোসেন চৌধুরী বলেন, স্কুল, কলেজের ছাত্র-ছাত্রী যারা এখনও ভোটার হয়নি ভবিষ্যতে ভোটার হবে, যারা এ বছর নতুন ভোটার হয়েছেন এবং যারা ইতোমধ্যে ভোটার আছেন, তাদের সবার প্রতি আমাদের আবেদন রইল ভোটার হয়ে ভোট দেবেন, দেশ গড়ায় অংশ নেবেন। প্রথমবার ভোটার দিবস পালিত হয় ২০১৯ সালের ১ মার্চ। এখন থেকে প্রতিবছর ২ মার্চ দিবসটি উদযাপন হবে। গতবারের মতো এবারও দেশব্যাপী নানা কর্মসূচির মাধ্যমে দিবসটি পালিত হচ্ছে। বিকেলে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে দিবসটি নিয়ে আলোচনা সভার আয়োজন করেছে ইসি।

 

কালুখালীতে জাতীয় ভোটার দিবস পালন

ফজলুল হক ॥ গত ২ মার্চ রাজবাড়ীর কালুখালীতে আনন্দ ঘন পরিবেশে জাতীয় ভোটার দিবস ২০২০ উদযাপন করা হয়েছে । উপজেলা পশাসন ও উপজেলা নির্বাচন আফিসের আয়োজনে বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা কর্মচারি ও সুধিজনের অংশগ্রহনে উপজেলা চত্বর থেকে বিশাল একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়। র‌্যালিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ( ভারপ্রাপ্ত) শেখ নুরুল আলম, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শেখ এনায়েত হোসেন, উপজেলে নির্বাচন অফিসার মোঃ আঃ আলীম, মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ আব্দুস সালাম, শিক্ষা অফিসার আব্দুর রশিদ, কৃষি সম্প্রসারন কর্মকর্তা সুজিত কুমার নন্দী, নির্বাচন অফিসের অফিস সহায়ক মোঃ সেলিম হোসেন সহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

কুষ্টিয়ায় মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম’র

পুরস্কার বিতরণী এবং “বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ” বিষয়ক আলোচনা সভা

নিজ সংবাদ ॥ ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অধিনে মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম-৫ম পর্যায়ে শীর্ষক প্রকল্পের কুষ্টিয়া জেলার ২০১৯ শিক্ষবর্ষের শ্রেষ্ঠ শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান এবং “বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ” বিষয়ক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল ২ মার্চ সোমবার দুপুরে কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক মৃনাল কান্তি দে। সভাপতিত্ব করেন মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম কুষ্টিয়ার সহকারী পরিচালক মোঃ তোফাজ্জেল হোসেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন কুষ্টিয়া সরকারি কলেজের সহকারী অধ্যাপক তরুণ কুমার বিশ্বাস, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি নরেন্দ্রনাথ সাহা, উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা কুষ্টিয়া সহকারী পরিচালক কবির আহম্মেদ মোল্ল্যা, সহকারী জেলা প্রাথমিক শিক্ষ অফিসার এম.এ হান্নান, বিটিসিএল কুষ্টিয়ার সাবেক উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মোঃ সামসুল আলম প্রমুখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম কুষ্টিয়ার ফিল্ড সুপারভাইজার খায়রুল ইসলাম ও কম্পিউটার অপারেটর কিশোর মন্ডল। প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক মৃনাল কান্তি দে বলেন, ধর্মীয় চর্চ্চার মাধ্যমে সমাজ থেকে সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ-মাদক-ইভটিজিং-বাল্যবিবাহ মুক্ত করা সম্ভব।

টেকনাফে কথিত বন্দুকযুদ্ধে ৭ ‘রোহিঙ্গা ডাকাত’ নিহত

ঢাকা অফিস ॥ কক্সবাজারের টেকনাফের পাহাড়ি এলাকায় কথিত বন্দুযুদ্ধে সাতজন নিহত হয়েছেন, যারা রোহিঙ্গা ডাকাতদল ‘জকি বাহিনীর’ সদস্য বলে র‌্যাবের ভাষ্য। র‌্যাব-১৫ রামু ব্যাটালিয়ানের উপ-অধিনায়ক মেজর মো. রবিউল ইসলাম বলছেন, সোমবার ভোরে উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের মোছনী রোহিঙ্গা ক্যাম্প সংলগ্ন পাহাড়ি এলাকায় গোলাগুলির ওই ঘটনা ঘটে। নিহতদের বিস্তারিত নাম-পরিচয় তাৎক্ষণিকভাবে জানাতে পারেনি র‌্যাব। মেজর রবিউল বলেন, ঘটনাস্থলে ডাকাতদলের অবস্থানের গোপন খবরে র‌্যাবের একটি দল সেখানে অভিযান চালায়। এ সময় ডাকাতরা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি করলে আত্মরক্ষার্থে র‌্যাবও পাল্টা গুলি করে। “এক পর্যায়ে সাতজনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায়। তাদের উদ্ধার করে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকেরা তাদের মৃত ঘোষণা করেন।” র‌্যাবের এ কর্মকর্তা বলেন, ঘটনাস্থল থেকে আগ্নেয়াস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনার বিস্তারিত তথ্য সন্ধ্যায় রামুতে সম্মেলন করে প্রকাশ করা হবে।

দৌলতপুর সীমান্তে ফেনসিডিল ও পাতার বিড়ি উদ্ধার

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুর সীমান্তে ভারতীয় ফেনসিডিল ও পাতার বিড়ি উদ্ধার হয়েছে। গতকাল সোমবার সকাল ৯টার দিকে আশ্রয়ন বিওপি’র টহল দল ভাগজোত মাঠে অভিযান চালিয়ে ৩০ বোতল ফেনসিডিল ও ১৯২০ প্যাকেট পাতার বিড়ি উদ্ধার করেছে। অপরদিকে গতকাল দুপুর আড়াইটার দিকে মহিষকুন্ডি বিওপি’র টহল দল মহিষকুন্ডি মাঠপাড়া এলাকায় অভিযান ২৯ বোতল ভারতীয় বেঙ্গল টাইগার মদ উদ্ধার করেছে। তবে উদ্ধার হওয়া মাদকের সাথে জড়িত কেউ আটক হয়নি।

কুষ্টিয়ার পৌর বাজারের চার ব্যবসায়ীকে জরিমানা

আমলা অফিস ॥ কুষ্টিয়ার পৌর বাজার এলাকায় অভিযান চালিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত। গতকাল দুপুরে “পণ্যে পাটজাত মোড়কের বাধ্যতামূলক ব্যবহার আইন-২০১০” নিশ্চিতে কুষ্টিয়া শহরের পৌর বাজারে এ অভিযান চালায় ভ্রাম্যমান আদালত। কুষ্টিয়ার সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট জুবায়ের হোসেন চৌধুরী এ অভিযান পরিচালনা করেন। অভিযানে পৌর বাজারের চার ব্যবসায়ীকে জরিমানা করেন তিনি। ভ্রাম্যমান আদালত সুত্রে জানা যায়, “পণ্যে পাটজাত মোড়কের বাধ্যতামূলক ব্যবহার আইন-২০১০” নিশ্চিতে কুষ্টিয়া শহরের পৌর বাজারে অভিযান পরিচালনা করা হলে আইন অমান্য করে পলিথিনের মোড়ক ব্যবহার করে চাউল রাখার দায়ে পৌর বাজারের ব্যবসায়ী আনিচুর রহমানকে ৫ হাজার টাকা, হাফিজুর রহমানকে ১ হাজার টাকা, লিখনকে ৩ হাজার টাকা এবং তরুনকে ২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। কুষ্টিয়া পাট অধিদপ্তরের মুখ্য পাট পরিদর্শক সোহরাব উদ্দিন বিশ্বাস উপস্থিত সকলকে উক্ত আইনটি মেনে চলার জন্য আহবান জানান। সেই সাথে তিনি জেলাব্যাপি এ অভিযান অব্যহত থাকবে বলেও জানান।

গাংনীতে ফেনসিডিলসহ আটক-১

গাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার তেঁতুলবাড়ীয়া ইউনিয়নের করমদী গ্রাম থেকে ফেনসিডিলসহ হাফিজুল ইসলাম (৪০) নামের একজনকে আটক করেছে ডিবি পুলিশ। আটককৃত হাফিজুল করমদী গ্রামের মৃত আজিজুল ইসলামের ছেলে। গতকাল সোমবার মেহেরপুর জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের একটিদল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে হাফিজুলকে আটক করে। জেলা ডিবি সূত্র জানায়, করমদী এলাকায় মাদক কারবারিরা অবস্থান করছে, এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ডিবি পুলিশের একটি দল ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে হাফিজুল ইসলাম নামের একজনকে ৩ বোতল ফেনসিডিলসহ আটক করে। আটক হাফিজুল একজন মাদক ব্যবসায়ী। তার নামে মাদক আইনে একটি মামলা হয়েছে।

মোদিকে প্রতিহতের ঘোষণায় বিব্রত নয় সরকার – কাদের

ঢাকা অফিস ॥ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ অনুষ্ঠানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আসা প্রতিহত করার ঘোষণা দিয়েছে বিভিন্ন দল ও সংগঠন। তবে মোদিকে এই প্রতিহতের ঘোষণায় সরকার বিব্রত নয় বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। সোমবার সচিবালয়ে মন্ত্রীর দফতরে ভারতের পররাষ্ট্র সচিব হর্ষ বর্ধন শ্রিংলার নেতৃত্বে প্রতিনিধি দলের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান। মোদির সফর যারা প্রতিহতের ঘোষণা দিচ্ছে তাদের বিষয়ে সরকারের অবস্থান জানতে চাইলে কাদের বলেন, ‘তাদের সাথে কোন প্রকার সংঘাতের কারণ হয়নি । এটা তাদের রিঅ্যাকশন প্রকাশ করছে, বিভিন্ন রাজনৈতিক দল মতের লোকজন। এখানে রিলিজিয়াসলি বিষয়টি অনেকে দেখছে কাজেই এটা সব সময় ছিল আজও আছে ভবিষ্যতেও থাকবে । কাজেই সম্পর্ক এর মধ্যেই এগিয়ে যাবে।’ প্রকাশ্যে এভাবে ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে প্রতিহতের ডাক দেয়ায় সরকার বিব্রত কি না জানতে চাইলে সেতুমন্ত্রী বলেন, আমরা মোটেই বিব্রত নই। আমরা মনে করি যারা এটা করছেন তাদের করা উচিত হচ্ছে না কারণ এটা মুজিববর্ষকে সামনে রেখে ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানানো উচিত। মোদির সফর নিয়ে যে প্রতিহতের ডাক দেয়া হচ্ছে এ নিয়ে ভারত উদ্বিগ্ন কি না জানতে চাইলে কাদের বলেন, ‘না, এটা নিয়ে তারা কোন কিছু বলেননি। তারা মনে করেন এটি ভালো সফর হবে এবং বাংলাদেশের জনগণ ৭১-এর বন্ধনকে স্মরণ করে ভালোভাবে নেবে। মোদি আসছেন মুজিববর্ষের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে। অতিথির সঙ্গে বাংলাদেশের মানুষ ভালো ব্যবহার করবে, এটাই তারা আশা করে।’ তিনি বলেন, ‘প্রতিবেশীর ঘরে আগুন লাগলে পাশের ঘরে আঁচ অবশ্যই যায়। আমাদের এখানে উদ্বেগ ছিল, প্রতিক্রিয়া ছিল। একটা বিষয় নিয়ে আনন্দিত যে বিষয়টি কমুনিয়াল দেখেননি মানুষ, মুসলমানরা যখন বিপদে পড়েছে অনেক হিন্দু মসজিদ রক্ষা করতে এগিয়ে এসেছে।’ অবশ্যই এটা একটা হাইয়েস্ট লেভেলের একটা সফর ও অনুষ্ঠান। নিরাপত্তার বিষয়টা তো সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার। তিনি বলেন, ‘মুজিববর্ষ উপলক্ষে তিনি (মোদি) আসছেন, আমাদের সম্মানিত অতিথি হিসেবে মুক্তিযুদ্ধের প্রধান মিত্র প্রতিনিধি হিসেবে তিনি ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে যোগ দিচ্ছেন। ১৮ তারিখে দ্বিপাক্ষিক আলোচনা হবে পিএম টু পিএম।’ হর্ষবর্ধন শ্রিংলার সঙ্গে বৈঠকের বিষয়ে কাদের বলেন, ‘বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে, বিভিন্ন প্রকল্প আছে ভারতের সঙ্গে, পার্সোনালি আমার সঙ্গে তার ভালো সম্পর্ক ছিল, স্মৃতিতচারণও করেছি।’ ভারতের সঙ্গে যেসব সমস্যা সেগুলো নিয়ে উচ্চ পর্যায়ে আলোচনা হবে। ভারতের সঙ্গে আমাদের যে সুসম্পর্ক আছে তা আরও শক্তিশালী হবে। অনেক সমস্যার সামাধান হয়েছে, আরও কিছু সমস্যা রয়েছে তা সমাধানে অগ্রগতি হবে। এ ভিজিট সম্পর্ক আরও শক্তিশালী হবে জানান ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, দ্বিপাক্ষিক আলোচনা হলে সব বিষয় নিয়ে আলোচনা হবে। মুজিববর্ষে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফর চূড়ান্ত করতে গতকাল সোমবার সকাল ৯টার দিকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান হর্ষবর্ধন শ্রিংলা। এরপর হোটেল সোনারগাঁওয়ে ‘বাংলাদেশ-ভারত : একটি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ ভবিষ্যৎ’ শীর্ষক এক সেমিনারে শ্রিংলা বলেন, আসামে যে নাগরিকপঞ্জি (এনআরসি) হালনাগাদ করা হয়েছে, সেই প্রক্রিয়াটি পুরোপুরিই ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়। বাংলাদেশের জনগণের ওপর ওই প্রক্রিয়ার কোনো প্রভাব থাকবে না।

হাওয়া ভবনের কাজই ছিল ব্যবসায় ১০ শতাংশ কমিশন আদায় – তথ্যমন্ত্রী

ঢাকা অফিস ॥ তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপি ক্ষমতায় থাকতে সরকারের পাশাপাশি ‘হাওয়া ভবন’ বানিয়ে সমান্তরাল সরকার পরিচালনা করছিলো। তিনি বলেন, ‘হাওয়া ভবনের মূল কাজ ছিল যে কোনো ব্যবসায় ১০ শতাংশ কমিশন বসিয়ে তা আদায় করা। একথা দেশের মানুষও জানে।’ বিএনপি’র মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বর্তমান সরকারের দুর্নীতি প্রসঙ্গে যে মন্তব্য করেছেন তার জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন,‘তিনি (ফখরুল) যে কথা বলেছেন, তা তাদের দলের নেতা-নেত্রীদের বেলায়ই প্রযোজ্য।’ এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বিএনপি সরকারের আমলে বাংলাদেশ দুর্নীতিতে পর-পর ৫বার চ্যাম্পিয়ান হয়েছিলো। তাই মির্জা ফখরুল যে-সব কথা বলেছেন, সেটি তাদের বেলায়ই প্রযোজ্য। ড. হাছান সোমবার রাজধানীর বেইলী রোডস্থ অফিসার্স ক্লাবে ‘দৈনিক সময়ের আলো পত্রিকার’ এক বছরপুর্তি উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের দুর্নীতির বিষয়ে এফবিআই বাংলাদেশে এসে সাক্ষ্য দিয়ে গেছে। সে জন্য তার ১০ বছর কারাদন্ড হয়েছে। বিএনপি’র চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া জরিমানা দিয়ে কালো টাকা সাদা করেছেন উলে¬খ করে ড. হাছান বলেন,খালেদা জিয়ার আরেক পুত্র আরাফাত রহমান কোকোর দুর্নীতির মাধ্যমে সিঙ্গাপুরে পাচারকৃত অর্থ সেদেশ থেকে দেশে ফেরত আনা হয়েছে। এসব ঘটনা বিদেশী গোয়েন্দা সংস্থা উদঘাটন করেছে, বাংলাদেশ সরকার নয়। তথ্যমন্ত্রী বলেন,‘বর্তমান সরকার সঠিকভাবে দেশ পরিচালনা করছে বিধায় দেশের উন্নতি হয়েছে। মাথাপিছু আয় ৬শ’ মার্কিন ডলার থেকে বেড়ে এখন ২ হাজার মার্কিন ডলার ছাড়িয়ে গেছে। আমরা সামাজিক, অর্থনৈতিক এবং মানবিক সুচকে পাকিস্তানের চেয়ে এগিয়ে আছি। পাকিস্তান সেজন্য আক্ষেপও করে।’ সরকার কখনোই আদালতের উপর হস্তক্ষেপ করেনি উল্লেখ করে তিনি বলেন,উচ্চ আদালতে তারা (বিএপি) বেগম খালেদা জিয়ার জামিন চেয়ে পায় নি। কারণ বেগম খালেদা জিয়া রাজনৈতিক বন্দি নন। তথ্যমন্ত্রী বলেন, উন্নত চিকিৎসার জন্য তারা (বিএনপি) বেগম জিয়ার জামিন চাচ্ছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে তাকে (খালেদা জিয়া) উন্নত চিকিৎসাও দেয়া হচ্ছে। সে বিবেচনায় আদালত খালেদাকে জামিন দেয়নি,এটি আদালতের এখতিয়ার। ড. হাছান বলেন,‘ আদালত সম্পুর্ন স্বাধীন বিধায় আমাদের দলের মন্ত্রীদেরও হাজিরা দিতে হয়। আমাদের দলেল মন্ত্রী-এমপিরা দুদক’র দায়রকৃত মামলায় জেলেও গেছেন। অপর এক প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন,‘বিএনপির শাসনামলে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ছিল না। কিন্তু বর্তমানে বাংলাদেশের গণমাধ্যম উন্নত অনেক দেশের তুলনায় অনেক বেশী স্বাধীন এবং স্বাধীনভাবে যেমন কাজ করছে, তেমনি পরিপূর্ন স্বাধীনতা ভোগ করছে। ‘গণমাধ্যম-বান্ধব প্রধানমন্ত্রী’ ক্ষমতায় রয়েছে বলেই এটি সম্ভব হযেছে।’ ড. হাছান এ সময় উলে¬খ করেন,১১ বছর আগে দেশে সাড়ে চারশ’ দৈনিক পত্রিকা ছিল। এখন পত্রিকা রয়েছে সাড়ে ১২শ’। আগে যেখানে ‘অন-এয়ারে’ ছিল ১০টি স্যটেলাইট টেলিভিশন চ্যানেল, আর এখন ‘অন-এয়ারে’ রয়েছে ৩৪টি স্যটেলাইট টেলিভিশন চ্যানেল । উল্লেখ্য, তথ্যমন্ত্রী কেক কেটে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন। নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান, প্রধানমন্ত্রীর সাবেক তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান, আমিন মোহাম্মদ গ্রুপের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক রমজানুল হক নিহাদসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাং¯ৃ‹তিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও সাংবাদিকরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

ভোটের গেজেট বাতিল চেয়ে নির্বাচনী  ট্রাইব্যুনালে তাবিথ

ঢাকা অফিস ॥ ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ‘ভোট কারচুপি ও অনিয়মের’ অভিযোগ এনে নির্বাচন কমিশনের জারি করা ফলাফলের গেজেট বাতিল চেয়ে নির্বাচনী ট্রাইব্যুনালে আবেদন করেছেন বিএনপির প্রার্থী তাবিথ আউয়াল। তার পক্ষে তার আইনজীবী এ কে এম এহসানুর রহমান সোমবার সকালে ঢাকার প্রথম যুগ্ম জেলা জজ উৎপল ভট্টাচার্য্যরে আদালতে এ আবেদন করেন। এহসানুর রহমান বলেন, “নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা থেকে শুরু করে নির্বাচনী প্রক্রিয়ার ভোট গ্রহণ ও ফলাফল গণণা পর্যন্ত নানা অনিয়ম ও কারচুপির তথ্য-উপাত্ত উপস্থাপন করে আমরা এই মামলা দায়ের করেছি। “নির্বাচন কমিশন আতিকুল ইসলামকে উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র ঘোষণা করে যে গেজেট প্রকাশ করেছে, তা বাতিল এবং নতুন নির্বাচন চাওয়া হয়েছে মামলার আর্জিতে।” তাবিথ আউয়াল এই মামলা করার জন্য রোববার বিকালে আদালতে গেলে তাকে সোমবার যেতে বলা হয়েছিল। সে অনুযায়ী সোমবার সকালে গিয়ে তিনি আইনজীবীর মাধ্যমে আবেদন দাখিল করেন। এহসানুর রহমান জানান, ২৩৮ পৃষ্ঠার আবেদনের সঙ্গে ৪৮৪ পৃষ্ঠার তথ্য-উপাত্ত যুক্ত করে দেওয়া হয়েছে। মোট ৪১ জনকে সাক্ষী করা হয়েছে মামলায়। তাবিথ আউয়ালের অন্যতম  আইনজীবী আইনজীবী তাহিরুল ইসলাম তৌহিদ বলেন, “আদালত আবেদনটি শুনানির জন্য গ্রহণ করেছেন। শুনানির তারিখ এখনও দেওয়া হয়নি।” গত ১ ফেব্রুয়ারি ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী তাবিথ আউয়ালকে পৌনে ২ লাখ ভোটের ব্যবধানে হারিয়ে মেয়র নির্বাচিত হন আওয়ামী লীগের প্রার্থী আতিকুল ইসলাম। নৌকায় তার ৪ লাখ ৪৭ হাজার ২১১ ভোটের বিপরীতে তাবিথ আউয়াল ধানের শীষে পান ২ লাখ ৬৪ হাজার ১৬১ ভোট। নির্বাচন কমিশন ৪ ফেব্র“য়ারি আতিকুল ইসলামকে উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র ঘোষণা করে গেজেট প্রকাশ করে। সে অনুযায়ী সংক্ষুব্ধ প্রার্থীরা মঙ্গলবার পর্যন্ত নির্বাচনী ট্রাইব্যুনালে মামলা করার সুযোগ পাবেন।

মুজিববর্ষে বড় বাজেটের কর্মসূচি না নেয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

ঢাকা অফিস ॥ মুজিববর্ষে বড় বাজেটের কোনো কর্মসূচি না নেয়ার জন্য মন্ত্রণালয় ও বিভাগগুলোকে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এছাড়া কেন্দ্রীয় কমিটির সঙ্গে সমন্বয় করে মুজিববর্ষের কর্মসূচি নির্ধারণ করারও নির্দেশ দেন তিনি। সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী এ নির্দেশনা দেন বলে জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন শেখ হাসিনা। বৈঠক শেষে সচিবালয়ে ব্রিফিং করেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব। আগামী ১৭ মার্চ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী। এ উপলক্ষে আগামী এক বছরকে মুজিববর্ষ হিসেবে পালন করবে সরকার। মুজিববর্ষের কর্মসূচি নিয়ে মন্ত্রিসভা বৈঠকে কোনো আলোচনা হয়েছে কি না? জবাবে প্রধানমন্ত্রীকে উদ্ধৃত করে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘উনি (প্রধানমন্ত্রী) বলেছেন, আমরা প্রিসাইসলি (ব্যাখ্যা) বলে দিয়েছি, মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রত্যেকটা মন্ত্রণালয় ও বিভাগ তার একটা নোটেবল প্রোগ্রামকে মুজিববর্ষের প্রোগ্রাম হিসেবে ঘোষণা করবে। তার নরমাল বাজেট থেকে। যদি ভিন্ন কোনো কাজ থাকে তার জন্য অতিরিক্ত টাকা চিন্তা করা যেতে পারে। কিন্তু বড় বড় বাজেট দিয়ে নতুন কাজ করার দরকার নেই।’ তিনি বলেন, ‘উদাহরণ হিসেবে এসেছে, অর্থ বিভাগ মুজিববর্ষ ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে প্রোগ্রাম নিল- ডিসেম্বরের মধ্যে ছয় লাখ পেনশনারের বাড়িতে বসে পেনশন দেবে। এ প্রোগ্রামটা তারা মুজিববর্ষের প্রোগ্রাম হিসেবে ঘোষণা করেছে। এরকম ভালো কোনো প্রোগ্রামকে মুজিববর্ষের প্রোগ্রাম হিসেবে ঘোষণা করা যাবে।’ আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ‘কোনো কোনো প্রোগ্রাম করতে গিয়ে যদি ফান্ড লাগে, উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে শিল্পী আনবেন, এটার জন্য পেমেন্ট করতে হবে। স্টেজ হবে, এজন্য আলাদা টাকা দেয়া হবে না। পিডব্লিউডি তার মেইনটেইনেন্স বাজেট থেকে করে দেবে। পেমেন্টের দরকার হলে এএফডি (সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ) তার বাজেট থেকে করে দেবে, এ জন্য আলাদা কোনো টাকা দেয়া হবে না।’ সচিব বলেন, ‘সবাইকে কেন্দ্রীয় কমিটির সঙ্গে সমন্বয় করে প্রোগ্রাম নিতে বলা হয়েছে।’ তিনি আরও বলেন, ‘খালি বাজেট নয়, সবার নতুন নতুন কিছু করার দরকার নেই। আমার যে প্রোগ্রাম আছে মানুষের কল্যাণে বা দেশের উন্নয়নে কনট্রিবিউট করতে পারি ওটা মুবিজববর্ষের সঙ্গে মোর সিনোনিমাস। ওইজাতীয় প্রোগ্রাম, নরমাল যে প্রোগ্রামটা আছে সেটাকে আরও ইফেকটিভ করেন। অনেকে বুঝতে পারেন না, মনে করেছেন নতুন গ্রোগ্রাম নিতে হবে।’

করোনাভাইরাস

মৃত্যু ছাড়ালো ৩০০০

ঢাকা অফিস ॥ অর্ধশতাধিক দেশে ছড়িয়ে পড়া নভেল করোনাভাইরাসে বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা তিন হাজার ছাড়িয়ে গেছে, আক্রান্তের সংখ্যা পৌঁছেছে প্রায় ৯০ হাজারে। নতুন এ করোনাভাইরাসে ৯০ শতাংশের বেশি মৃত্যু ঘটেছে চীনের হুবেই প্রদেশে, যেখানে গতবছরের শেষে এ ভাইরাসটি প্রথম শনাক্ত করা হয়েছিল। চীনের মূল ভূখন্ডের বাইরে আরও ১১টি জায়গায় ১৩৬ জনের মৃত্যুর কারণ হয়েছে নভেল করোনাভাইরাস। এর মধ্যে ইরানে ৫৪ জন এবং ইতালিতে ৩৪ জনের প্রাণ গেছে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে সিএনএন। বিবিসি লিখেছে, চীনের চেয়ে এখন চীনের বাইরে এ ভাইরাস ছড়াচ্ছে দ্রুতগতিতে। তবে অধিকাংশ রোগীর ক্ষেত্রে কেবল মৃদু উপসর্গ দেখা যাচ্ছে।   বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা রোববার জানিয়েছে, নভেল করোনাভাইরাসে মৃত্যু হার ২ থেকে ৫ শতাংশের মধ্যে।   চীনে জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশন জানিয়েছে, রোববার দেশটির মূল ভূখন্ডে ২০২ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে, মৃত্যু হয়েছে ৪২ জনের। সব মিলিয়ে চীনের মূল ভূখন্ডে আক্রান্তের মোট সংখ্যা দাঁড়াচ্ছে ৮০ হাজার ২৬ জনে; আর মৃত্যু হয়েছে মোট ২ হাজার ৯১২ জনে। চীনের মূল ভূখন্ডের বাইরে ইরানে ৫৪ জন, ইতালিতে ৩৪ জন, দক্ষিণ কোরিয়ায় ২৬ জন, জাপানে ১২ জন, হংকং, ফ্রান্স ও যুক্তরাষ্ট্রে ২ জন করে এবং ফিলিপিন্স, তাইওয়ান, অস্ট্রেলিয়া ও থাইল্যান্ডে একজন মনে মারা গেছেন নভেল করোনাভাইরাসে।

সততার পুরস্কার দিলেন কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেন

সুজন কর্মকার ॥ সততার পুরস্কার দিলেন কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক মোঃ আসলাম হোসেন। ২ মার্চ সোমবার জেলা প্রশাসনের কর্মচারী মোঃ রেজাউল করিম’র হাতে সততার এ পুরস্কার তুলে দেন জেলা প্রশাসক মোঃ আসলাম হোসেন। জানাগেছে, গত ২৯ ফেব্র“য়ারি কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসন আয়োজিত বার্ষিক বনভোজনে র‌্যাফেল ড্র অনুষ্ঠিত হয়। র‌্যাফেল ড্র-তে প্রথম পুরস্কার পান রেজাউল করিম। কিন্তু পুরষ্কার নেয়ার সময় তিনি জানান অন্য একজনের ফেলে দেয়া টিকেটে তিনি এই পুরস্কার পেয়েছেন। রেজাউল টিকেটের প্রকৃত মালিকের নিকট সেই পুরস্কার বুঝিয়েও দেন। পরে কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক মোঃ আসলাম হোসেন রেজাউল করিমের সততা দেখে একই মানের পুরস্কার তার হাতে তুলে দেন। সেই সাথে সততার জন্য রেজাউলকে ধন্যবাদও জানান কুষ্টিয়ার এই জেলা প্রশাসক মোঃ আসলাম হোসেন। এ সময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ ওবায়দুর রহমান, নেজারত ডেপুটি কালেক্টর (এনডিসি) মুছাব্বেরুল ইসলামসহ অন্যান্য কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

রাখাইনে সেনা-বিদ্রোহী সংঘর্ষ, ৫ রোহিঙ্গা নিহত

ঢাকা অফিস ॥ মিয়ানমারের সংঘাতবিক্ষুব্ধ পশ্চিমাঞ্চলীয় রাখাইন রাজ্যে সেনাদের সঙ্গে বিদ্রোহীদের সংঘর্ষে এক শিশু-সহ অন্তত পাঁচ রোহিঙ্গা নিহত হয়েছেন। সংঘর্ষে আরও বেশ কয়েকজন আহতও হয়েছেন বলে রোববার স্থানীয় এক এমপি এবং দুই বাসিন্দা জানিয়েছেন। রাখাইনের সশস্ত্র বিদ্রোহীগোষ্ঠী আরাকান আর্মির মুখপাত্র খিন থু খা এবং আঞ্চলিক এমপি তুন থার সেইন বলেন, শনিবার সেনাবাহিনীর গাড়িবহর রাখাইনের এমরাউক ইউ শহর অতিক্রমের সময় তাতে বিদ্রোহীরা হামলা চালালে সংঘর্ষ শুরু হয়। এ ব্যাপারে মন্তব্য জানতে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর দুই মুখপাত্রের সঙ্গে টেলিফোনে যোগাযোগ করেও সাড়া পায়নি রয়টার্স। এ ব্যাপারে সেনাবাহিনী ওয়েবসাইটেও তাৎক্ষণিকভাবে কোনও বিবৃতি দেয়নি। লড়াই-সংঘর্ষে বেসামরিক মানুষ হতাহতের ঘটনায় মিয়ানমারের সরকারি বাহিনীকে দায়ী করেছেন আরাকান আর্মির মুখপাত্র খিন থু খা। তবে দেশটির সরকারি মুখপাত্র এ ব্যাপারে মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। রাখাইনের প্রত্যন্ত ওই অঞ্চলে হামলার বিস্তারিত তথ্য নিরপেক্ষ সূত্রে নিশ্চিত হতে পারেনি রয়টার্স। সহিংসতা বিধ্বস্ত ওই অঞ্চলে সাংবাদিক প্রবেশে কড়াকড়ির আছে। ইন্টারনেট সংযোগও সচল নেই। আরাকান আর্মির মুখপাত্র এক বার্তায় বলেছেন, রাখাইনের বু তা লোন গ্রামে মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর গোলা আঘাত হেনেছে। এতে অন্তত চারজন নিহত হয়েছে। ওদিকে এমপি তুন থার সেইন, স্থানীয় একজন স্বাস্থ্যকর্মী ও একজন গ্রামবাসী বলেছেন, নিপীড়িত সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিম সম্প্রদায়ের কমপক্ষে পাঁচ সদস্য নিহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ১২ বছরের এক শিশুও রয়েছে। তবে আহতের সংখ্যা নিয়ে বিপরীতমুখী তথ্য পাওয়া গেছে।ছয় থেকে ১১ জন আহত হয়েছেন বলে শোনা যাচ্ছে। ২০১৭ সালের আগস্টে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর অভিযানের মুখে ৭ লাখ ৩০ হাজারের বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে আসতে বাধ্য হয়েছে। জাতিসংঘ বলছে, গণহত্যার উদ্দেশ্যে এ অভিযান পরিচালনা করেছে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। তবে মিয়ানমার গণহত্যার এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

ইবির সাথে শিক্ষক-শিক্ষার্থী আদান-প্রদান করবে তুরস্কের তিন বিশ্ববিদ্যালয়

ইবি প্রতিনিধি ॥ তুরস্কের ইগদির, কাবকাস ও চানকিরি কারাতেকিন বিশ^বিদ্যালয়ে উচ্চশিক্ষা ও গবেষণার সুযোগ পাচ্ছেন ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের ১৪৪ জন শিক্ষক-শিক্ষার্থী। গতকাল সোমবার দুপুরে বিশ^বিদ্যালয়ের ইন্টারন্যাশনাল এ্যাফেয়ার্স সেলের আয়োজনে বিভিন্ন বিভাগের সভাপতিদের নিয়ে অনুষ্ঠিত এক মতবিনিময় সভায় এ তথ্য জানানো হয়। ইন্টারন্যাশনাল এ্যাফেয়ার্স সেলের পরিচালক অধ্যাপক ড. শাহাদৎ হোসেন আজাদের সঞ্চলনায় মতবিনিময় সভায় উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. শাহিনুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. সেলিম তোহা, আইআইইআর এর পরিচালক অধ্যাপক ড. মেহের আলী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। তুরস্কের ইগদির, চানকিরি কারাতেকিন ও কাফকাস বিশ^বিদ্যালয়ের সঙ্গে ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ের সমঝোতা চুক্তি (এমওইউ) হওয়ায় পৃথক এ তিনটি বিশ^বিদ্যালয়ে উচ্চশিক্ষা ও গবেষণার জন্য বিশ^বিদ্যালয়ের বিভাগ কর্তৃক মনোনীতরা আবেদন করতে পারবেন। এরপর বিশ^বিদ্যালয়ের ইন্টারন্যাশনাল এ্যাফেয়ার্স  সেলের মাধ্যমে তাদের তালিকা চুড়ান্ত করবে তুরস্কের সংশ্লিষ্ট বিশ^বিদ্যালয়গুলো। এ বিষয়ে অধ্যাপক ড. শাহাদৎ হোসনে আজাদ বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে আমরা তুরস্কের তিনটি বিশ^বিদ্যালয়ের সঙ্গে এমওইউ চুক্তি করেছি। আরও তিনটি বিশ^বিদ্যালয়ের সঙ্গে একটি সমঝোতা চুক্তির প্রক্রিয়া চলছে। এটা হলে বিশ^বিদ্যালয়গুলোর সঙ্গে আমাদের ছাত্র-শিক্ষক বিনিময় আরও বাড়বে।’ উল্লেখ্য, তুরষ্কের এ তিনটি বিশ^বিদ্যালয়ে উচ্চশিক্ষা এবং গবেষণা সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় তথ্যাদি ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট (িি.িরঁ.ধপ.নফ) ও সংশ্লিষ্ট বিশ^বিদ্যালগুলোর ওয়েবসাইটেও পাওয়া যাবে।

কুষ্টিয়াতে সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত জাতীয় হ্যান্ডবল দলের গোলরক্ষক সোহান স্মরণেসভা

নিজ সংবাদ ॥  বাংলাদেশ জাতীয় হ্যান্ডবল দলের গোল রক্ষক কুষ্টিয়ার কৃতি সন্তান সোহানুর রহমান সোহানের স্মরণসভা অনুষ্ঠিত  হয়েছে। গতকাল বিকেলে কুষ্টিয়া জেলা ক্রীড়া সংস্থার কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এ স্মরণসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক মোঃ আসলাম হোসেন। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জেলা শিক্ষা অফিসার মোঃ জায়েদুর রহমান, নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট তাইফুর রহমান, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক এড. অনুপ কুমার নন্দী। সভাপতিত্ব করেন হ্যান্ডবল উপ-পর্ষদের সভাপতি ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার অতিরিক্ত সাধারণ সম্পাদক খন্দকার ইকবাল মাহমুদ। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কুষ্টিয়া জেলা হ্যান্ডবল দলের কোচ ও হ্যান্ডবল উপ-পর্ষদের সদস্য নাফিউল ইসলাম, সরকার আনোয়ার আজম। এসময় উপস্থিত ছিলেন হ্যান্ডবল উপ-পর্ষদের সম্পাদক ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক পারভেজ আনোয়ার তনু, সহ-সভাপতি আলী হাসান মন্টা, শেখ সুলতান আহমেদ, জহুরুল হক চৌধুরী রঞ্জু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রাশিদুল হক মঞ্জু, কোষাধ্যক্ষ বীর মুক্তিযোদ্ধা লিয়াকত আলী খান, নির্বাহী সদস্য শামসুদ্দিন বিশ্বাস সামু, বীর মুক্তিযোদ্ধা কাইয়ুম নাজার, আনিচুর রহমান, হাবিবুর রহমান বাপ্পি, সাব্বির মোহাম্মদ কাদেরী সবু, মীর আইয়ুব হোসেন, জাহাঙ্গীর আলম, খোকন সিরাজুল ইসলাম, আফরোজা আক্তার ডিউ, আলমগীর কবির হেলাল প্রমুখ নেতৃবৃন্দ। সভা শেষে সোহানের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।

অপহরনের নাটক সাজিয়ে ফেঁসে গেলেন দুই সহকর্মি

নিজ সংবাদ ॥ রিপন ও সৌহার্দ। বিক্রয় কর্মির কাজ করেন একটি টোব্যাকো কোম্পানিতে। কোম্পানির দুই লাখ টাকা আত্মসাৎ করার জন্য অপহরণ পরিকল্পনা সাজান। তবে সেই পরিকল্পনাতে ফেঁসে গেছেন দুই সহকর্মি। উল্টো তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করছে কোম্পানিটির কর্মকর্তারা। ঘটনার সুত্রপাত রোববার বিকেলে। বিক্রয় কর্মি রিপন রোববার বিকেলে হন্তদন্ত হয়ে ভেড়ামারা থানায় এসে খবর দেয় টোব্যাকো কোম্পানির টাকা তুলে মটর সাইকেল যোগে বাসায় ফেরার পথে ভেড়ামারা বিদ্যুৎ স্টেশনের কাছে আসার পর একটি মাইক্রোবাস যোগে এসে সন্ত্রাসীরা তার সহকর্মি সৌহার্দকে তুলে নিয়ে গেছে। এ খবর পেয়ে পুলিশের ঘুম হারাম। তাদের একাধিক দল সড়কে তল¬াশী অভিযান শুরু করেন। এরপর রাতে এক পর্যায়ে সৌহার্দ্যকে পাবনা জেলার ঈশ্বরদীর রূপপুর থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। পুলিশের কাছে সৌহার্দ জানায় একটি নীল রঙের হাইয়েচ গাড়িতে তুলে নিয়ে যায়। আর রাজু জানায় সাদা রঙের একটি মাইক্রো এসে তুলে নিয়ে যায়। এ ঘটনার পর পুলিশের সন্দেহ হয়। দুইজনকে গভীর জিজ্ঞাবাসাদে আসল কাহিনী বের হয়ে আসে। পুলিশ জানায়, কোম্পানীর দেড় লাখ টাকা আগেই তছরূপ করে দুইজন মিলে। রোববারও মার্কেট থেকে তারা ৬০ হাজার টাকা আদায় করে। এ টাকা নয়ছয় করতে দুইজন মিলে অপহরণ নাটকের পরিকল্পনা করে। পরিকল্পনা মোতাবেক সৌহার্দ ভেড়ামারা থেকে বাস যোগে ঈশ্বরদীতে চলে যায়। সেখানে গিয়ে সে জুতা ও মোবাইল একটি বাগানে ফেলে দেয়। আর রিপন ভেড়ামারা থানা পুলিশের কাছে এসে খবর দেয় অপহরনের। কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গোলাম সবুর বলেন,‘ দুই সহকর্মি মিলে অপহরণ নাটক তৈরি করেন। তারা এমনভাবে বিষয়টি সাজিয়েছে প্রথমে বোঝার উপায় ছিল না। পরে জিজ্ঞাসাবাদে আসল কাহিনী বের হয়ে আসে। কোম্পানীর অর্থ তছরূপ করতেই তারা অপহরণ পরিকল্পনা করেছিল। প্রতারনা ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ এনে দুই বিক্রয় কর্মির বিরুদ্ধে মামলা করেছে টোব্যাকো কোম্পানিটির কর্মকর্তারা।