ভাষা শহীদদের প্রতি পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টার কুষ্টিয়া শাখার বিনম্র শ্রদ্ধা

নিজ সংবাদ ॥ অমর একুশে ফেব্র“য়ারি মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে, পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টার কুষ্টিয়া শাখার পক্ষ থেকে ভাষা শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানিয়ে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়েছে। কুষ্টিয়া কালেক্টরেট চত্বরে অবস্থিত কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে একুশের প্রথম প্রহরে পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টার লিঃ কুষ্টিয়া শাখা ব্যাবস্থাপক রেজাউল করিম এর নেতৃত্ব্ েপুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। এ সময় পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টার লিঃ কুষ্টিয়া শাখার কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দও পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

ভেড়ামারায় একান্নবর্তী বইয়ের মোড়ক উন্মোচন

আল-মাহাদী ॥ কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় একান্নবর্তী বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে ভেড়ামারা উপজেলা চত্ত্বরে শহীদ মিনার সংলগ্ন ৩দিনব্যাপী বইমেলার উদ্বোধনী দিনে বাংলাদেশ সরকারের সচিব ও বিআরডিবি’র মহাপরিচালক মোঃ গিয়াস উদ্দিন আহমেদ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে কাব্যকথা পরিষদের যৌথ কাব্যগ্রন্থ নবীন প্রবীণ মিলিয়ে একান্নজন লিখিয়ের লেখা “একান্নবর্তী” বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করেন। এসময় জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ তবিবুর রহমান, ভেড়ামারা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী আক্তারুজ্জামান মিঠু, ভেড়ামারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহেল মারুফ, সচিবের সহধর্মীনি মোছাঃ সিদ্দিকা খাতুন, ইউএনও’র সহধর্মীনি ফারহানা ইসলাম তিম্মি, উপজেলা চেয়ারম্যানের সহধর্মীনি বলাকা পারভীন স্বপ্না, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আহসান আরা, সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোঃ শহিদুল ইসলাম, কাব্যকথা পরিষদ ভেড়ামারা’র সভাপতি ডা. মোহাঃ আসমান আলী, ভেড়ামারা প্রেসক্লাবের যুগ্ন আহবায়ক এস.এম.আবু ওবাইদা-আল-মাহাদী, তাহের মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ রফিকুল ইসলাম, কবি শাইজী আতিয়ার রহমান, মোঃ আজমল হক, মিনু রহমান, রোকশানা লিপি, আলেয়া বেগম, রোকসানা খাতুন ও নাহিদা আক্তার প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

‘স্বাগত জানাতে আসবেন ৭০ লাখ’, ট্রাম্পের দাবিতে টুইটারে ব্যঙ্গ

ঢাকা অফিস ॥ ভারতে প্রথম সফরে সাদর অভ্যর্থনা পেতে চলেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প। তাকে অভ্যর্থনা জানাতে আসবেন ৭০ লাখ মানুষ। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এমন কথাই বলেছেন দাবি করে ট্রাম্প টুইটারে ব্যাপক হাস্য-রসিকতার শিকার হয়েছেন। এনডিটিভি জানায়, ওয়াশিংটনে একটি ট্রিপে যাওয়ার আগে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ট্রাম্প বলেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তাকে কথা দিয়েছেন, গুজরাটে আহমেদাবাদের বিমানবন্দরে তাকে স্বাগত জানাতে আসবেন ৭০ লাখ মানুষ। তিনি বলেন, ‘‘আমাদের সঙ্গে ভারত খুব ভাল ব্যবহার করেনি। কিন্তু আমি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে খুব পছন্দ করি। তিনি বলেছেন, বিমানবন্দর এবং ওই ইভেন্টে আসবেন ৭০ লাখ মানুষ।” ট্রাম্প যে ইভেন্টের কথা বলছেন সেটি হচ্ছে ‘নমস্তে ট্রাম্প’ মিছিল পূর্ববর্তী একটি রোডশো’। ট্রাম্পের স্বভাবসুলভ এমন অতিরঞ্জিত দাবিকে ঘিরেই টুইটার ভেসে গেছে ব্যাঙ্গ-বিদ্রুপে। অনেকেই বলেছেন, ২০১১ সালের জনগণনা অনুযায়ী আহমেদাবাদের জনসংখ্যা ৫৫ লাখ। ২০২০ সালে তা বেড়ে হওয়ার কথা প্রায় ৮৬ লাখ। সে হিসেবে ট্রাম্পের দাবি সত্য হলে তার সফরের দিন শহরের ৮০ শতাংশ মানুষ তাকে স্বাগত জানাতে আসবেন! আগামী সোমবার দু’দিনের ভারত সফরে যাচ্ছেন ডনাল্ড ট্রাম্প। মার্কিন প্রেসিডেন্টের এবারের এ ভারত সফরের মূল উদ্দেশ্য বাণিজ্য চুক্তি হলেও দু’দেশের সর্বোচ্চ নেতৃত্বের মধ্যে সন্ত্রাসবাদ রোধে একসঙ্গে পদক্ষেপ নেওয়াসহ আরও নানা বিষয়েও আলোচনা হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

কুষ্টিয়াতে অটবি লিমিটেড এর নতুন শোরুম-এর উদ্বোধন

নিজ সংবাদ ॥ জনপ্রিয় ও দেশের শীর্ষস্থানীয় ফার্নিচার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অটবি লিমিটেড, থানাপাড়া, কুষ্টিয়াতে তাদের নতুনতম  শোরুমের যাত্রা শুরু করেছে গতকাল ২০ ফেব্র“য়ারী বৃহস্পতিবার। অটবি লিমিটেডের সিইও সুদীপ্ত গোস্বামী এবং মোঃ তবিবুর রহমান, ডিপিইও, কুষ্টিয়া, শোরুমটি সম্মিলিতভাবে উদ্বোধন করেন। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন অটবি লিমিটেড এর হেড অফ সেলস আহাম্মেদ শুকাইরী এবং প্রতিষ্ঠানটির অন্যান্য ব্যক্তিবর্গ। অটবি শোরুমে পাবেন আপনার হোম ও অফিসের আধুনিক ফার্নিচার সল্যুশন।

ঝিনাইদহে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে সড়ক আলপনা

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ॥ আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ঝিনাইদহে ২ কিলোমিটার সড়ক আলপনা আঁকা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে শহরের পায়রা চত্বরে আলপনা আঁকার উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ। এসময় সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য খালেদা খানম, জেলা পরিষদের সচিব রেজাই রাফিন সরকার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) সেলিম রেজা, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বদরুদ্দোজা শুভ, এনডিসি খায়রুল ইসলাম, ঝিনাইদহ প্রেসক্লাবের সভাপতি এম রায়হান, অংকুর নাট্য একাডেমীর সাধারণ সম্পাদক নাজিম উদ্দিন জুলিয়াস, স্বপ্নচারু আর্ট স্কুলের পরিচালক চিত্র শিল্পী শাহীন চারুদেশ, চিত্র শিল্পী শফিক মাহমুদ, নিধির বিশ্বাসসহ নানা শ্রেণী পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন। জেলা প্রশাসন ও স্বপ্নচারু আর্ট স্কুলের আয়োজনে শহরের পুরাতন ডিসি কোর্ট চত্বর থেকে পায়রা চত্বর, পায়রা চত্বর থেকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বর পর্যন্ত আলপনা আঁকার কাজ করা হয়। রং-তুলির আঁচড়ে ফুটিয়ে তোলা হয় একুশের চিত্র। এতে অংশ নেয় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অর্ধ শতাধিক শিক্ষার্থী। শিক্ষার্থী তথা বর্তমান প্রজন্মের মাঝে একুশের চেতনা ছড়িয়ে দিতেই এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ।

আড়–য়াপাড়া তরুণ সংঘ পাঠাগার ও  ক্লাবের ৮৩তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী

তাথৈ-তাহিয়া  টি-টেন ক্রিকেট লীগ ও  একাডেমির লীগের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত

গতকাল বৃহস্পতিবার বিকালে হাউজিং তরুণ সংঘ মাঠে তাথৈ-তাহিয়া টি-টেন ক্রিকেট লীগ ও তাথৈ-তাহিয়া  ক্রিকেট একাডেমির লীগের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। কুষ্টিয়া পৌরসভার জননন্দিত মেয়র ও তরুণ সংঘ পাঠাগার ক্লাবের  সভাপতি আনোয়ার আলী’র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নেশনটেক কমিউনিকেশন লিমিটেডের ম্যানেজিং ডাইরেক্টর ইফতেখারুল ইসলাম শিমুল। বিশেষ অতিথি ছিলেন এম.এন্ড. বি প্লাইউড ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেডের ম্যানেজিং ডিরেক্টর মনিরুল ইসলাম। প্রধান অতিথির বক্তব্যে ইফতেখারুল ইসলাম শিমুল বলেন- আমি প্রথমত কৃতজ্ঞ জানাই নগর পিতা আনোয়ার আলী  সহ এই ক্লাবের পরিচালনা পরিষদকে। সেই সাথে ধন্যবাদ জানাই ক্রীড়াবিদ পারভেজ আনোয়ার তনুকে। এত সুন্দর একটি অনুষ্ঠানে আমাকে আমন্ত্রন করার জন্য। এখানে এসে দেখছি ছোট ছোট শিশুদের জন্য ক্রিকেট একাডেমীর মাধ্যমে ক্রিকেট প্রশিক্ষন কেন্দ্রের ব্যবস্থা করা হয়েছে। অসাধারন এই আয়োজনে আমি মুগ্ধ। তিনি আরো বলেন, আমিও এক সময় ক্রিকেট খেলোয়াড় ছিলাম। আজকে এখানে এসে আমার সেই দিনের কথা মনে পড়ে গেল। এই ক্রিকেট একাডেমী পরিচালনার জন্য আমি আমার সামর্থ অনুযায়ী সহযোগীতা করবো। সভাপতির বক্তব্যে জননন্দিত মেয়র আনোয়ার আলী বলেন, ক্রিড়া দেয় সুস্থ দেহ, সুস্থ্য মন। এছাড়াও লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলাধুলার কোন বিকল্প নেই। তিনি আরো বলেন, বর্তমানে আমাদের যুব সমাজকে নেশাই গ্রাস করে রেখেছে। এতে পরিবার,  সমাজ ও রাষ্ট্র ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। এ থেকে পরিত্রানের একমাত্র উপায় খেলাধুলা। এজন্য এই টুর্নামেন্টের আয়োজন। এই আয়োজনকে ঘিরে শহরের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে খেয়োয়াড় তৈরি হবে বলে আমি আশা করি। তিনি আরোও বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান’র জন্মশতবর্ষ পূর্তি উপলক্ষে যে বর্ষবরণ উৎসব চলছে এই আয়োজনের তার মধ্যে অন্যতম। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন আড়–য়াপাড়া তরুন সংঘ পাঠাগার ও  ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আমান উল্লাহ, শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন জেলা ক্রীড়া সংস্থার যুগ্ম-সম্পাদক ও এই ক্রিকেট লীগের আহবায়ক পারভেজ আনোয়ার তনু। খেলায় সবুজ সিড়িকে ৬ উইকেট  হারিয়ে জয়বাংলা ক্রিকেট একাদশ বিজয়ী হয়। এছাাড়াও তাথৈ-তাহিয়া ক্রিকেট একাডেমির নিজস্ব টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হয়েছিল। সেই টুর্নামেন্টের সুরমা ক্রিকেট একাদশকে আট উইকেটে হারিয়ে  মেঘনা ক্রিকেট একাদশ চ্যাম্পিয়ন হয়। পরে বিজয়ীদের মাঝে পুরষ্কার তুলে দেন অতিথিবৃন্দ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাবা উদ্দিন সওদাগর, আড়–য়াপাড়া তরুন সংঘ পাঠাগার ও  ক্লাবের কর্মকর্তাসহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। এছাড়াও ফাইনাল খেলাকে ঘিরে তরুন সংঘ মাঠ সেজেছিল নুতন সাজে। খেলা দেখার জন্য বিভিন্ন শ্রেনী পেশার শতশত মানুষের ঢল নেমেছিল। উল্লেখ্য, স্থানীয় শিশু-কিশোররা সেজেছিল যেমন খুশি তেমন সাজে। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন ক্লাবের সাংস্কৃতিক সম্পাদক কাজল হোসেন।  ক্রিকেট লীগের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছিলেন আশরাফুল  ইসলাম ও আরিফুল ইসলাম । সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

 

ইবি ভিসির শোক

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারী (ড. রাশিদ আসকারী) এক শোক বার্তায়, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থ ও হিসাব বিভাগের উপ-হিসাব পরিচালক গোলাম কাওছারের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন। প্রেরিত শোক বার্তায় তিনি, মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। অপর শোক বার্তায়, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থ ও হিসাব বিভাগের উপ-হিসাব পরিচালক গোলাম কাওছারের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ শাহিনুর রহমান এবং ট্রেজারার প্রফেসর ড. মোঃ সেলিম তোহা। তাঁরা, মরহুমের  আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। এছাড়াও রেজিস্ট্রার (ভারঃ) এস এম আব্দুল লতিফ এবং কর্মকর্তা সমিতির সভাপতি মোঃ শামছুল ইসলাম জোহা ও সাধারণ সম্পাদক মীর মোঃ মোর্শেদুর রহমান গোলাম কাওছারের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

মিরপুরে শাহিনা হত্যার রহস্য উন্মোচন

আমলা অফিস ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুরে শাহিনা খাতুন (৩২) হত্যার রহস্য উন্মোচন করেছে পুলিশ। পুলিশ হত্যাকান্ডের মূলহোতা সেলিমের ব্যবহৃত মুঠোফোন ট্যাকিং করে তাকেসহ আরো ৩ জনকে আটক করতে সক্ষম হয়। সূত্র জানায়, উপজেলার ফুলবাড়ীয়া ইউনিয়নের নওদাপাড়া গ্রামের  লোকমান শাহ’র ছেলে সেলিম গত ২০১৯ সালের ৩০ নভেম্বর মুঠোফোনে ঝিনাইদহ জেলার শৈলকুপা উাপজেলার লাঙ্গলবাধ গ্রামের মহব্বুল মন্ডলের স্ত্রী শাহিনাকে ডেকে নিয়ে নয়নপুর ক্যানাল পাড়ে রাতভর পালাক্রমে ধর্ষণ করে। পরে ধর্ষণকারীরা ওই নারীকে হত্যা করে নওদাপাড়া গ্রামস্থ জনৈক লুৎফর রহমানের পারিবারিক গোরস্থানের পশ্চিম পাশে বাগানের মধ্যে ফেলে রেখে যায়। পরের দিন সকালে পুলিশ হাত ও মুখ বাঁধা অজ্ঞাত নারীর লাশ উদ্ধার করে। পরে পুলিশ ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) সহায়তায় ভিকটিমের আঙ্গুলের ছাপ সংগ্রহ করে তার পরিচয় জানতে পারে। তবে এ হত্যাকান্ডের সাথে জড়িতদের সনাক্তে পুলিশকে হিমশিম খেতে হয়। অবশেষে ঘটনার আড়াই মাস পর ১৮ ফেব্র“য়ারি রাতে পুলিশ এ হত্যাকান্ডের মূলহোতা সেলিমকে ঢাকার আশুলিয়া এলাকা থেকে আটক করে। পরে তাকে আদালতে হাজির করা হলে সে বিজ্ঞ ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দিতে হত্যাকান্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেন। আদালতে দেয়া জবানবন্দিতে সেলিম জানায় ঘটনার রাতে সে ও তার আরো তিন বন্ধু মিলে ধর্ষণের পর তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। এ ধর্ষণ ও হত্যাকান্ডে সেলিম ছাড়াও নওদাপাড়া গ্রামের মৃত হান্নান শেখের ছেলে শিহাব আলী (৩৮), রহমত মন্ডলের ছেলে শাহানুর ইসলাম ওরফে বুড়ো (৩২) ও আব্দুল মালেকের ছেলে ময়নাল (২৮) জড়িত রয়েছে বলে জানান। ধর্ষণের পর শাহিনাকে তারা জোরপূর্বক ঘটনাস্থলের অদূরে কুষ্টিয়া-মেহেরপুর সড়কের পরিবহনের তুলে দেয়ার চেষ্টা করে। পথিমধ্যে শাহিনা চিৎকার শুরু করলে সেলিম তাকে ওই বাগানের মধ্যে নিয়ে যায়। এ সময়ে অভিযুক্ত আসামী শাহানুর ইসলাম ওরফে বুড়ো শাহিনার গলায় ওড়না প্যাচিয়ে ধরে, শিহাব আলী গামছা দিয়ে দু’হাত পিছমোড়া করে বেধে ফেলে, ময়নাল তার মাথার চুল এবং সেলিম দুই পা চাপিয়া ধরে হত্যা নিশ্চিত করে। এ ব্যাপারে মামলা তদন্তকারী কর্মকর্তা মিরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল কালাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, প্রযুক্তির সাহায্যে হত্যাকান্ডর আড়াই মাসের মাথায় জড়িতদের আটক করতে সক্ষম হই। তিনি আরো জানান সেলিমের স্বীকারোক্তি মোতাবেক অপর ৩ জনকে নিজ নিজ বাড়ী থেকে আটক করা হয়। আটককৃতদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

দৌলতপুরের দিব্যধামে অনুষ্ঠিত হলো সাধুসঙ্গ

শরীফুল ইসলাম ॥ ‘ভবে মানুষ গুরু নিষ্ঠা যায়, সর্ব সাধন সিদ্ধ হয় তার’ লালন সাঁইজির এই বাণীকে প্রতিপাদ্য করে কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার নিভৃত পল্লী ভেড়ামারা গ্রামের রওশন সাধুর দিব্যধামে অনুষ্ঠিত হয়েছে দু’দিনব্যাপি সাধুসঙ্গ। বুধবার বিকেলে সাধুদের আগমনে দিব্যধাম পরিপূর্ণ হয়ে উঠলে সেখানে বসে সাধুদের হাট, ঘটে ভাবের আদান-প্রদান। সাধুদের আমন্ত্রন ও অধিবাসের মধ্যদিয়ে দিব্যধামের ৩১তম সাধুসঙ্গের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়। ‘পাবিরে অমূল্য নিধি বর্তমানে, সহজ মানুষ ভজে দেখ্নারে মন দিব্য জ্ঞানে’ অথবা ‘চাতক স্বভাব না হলে .. অমৃত মেঘেরও বারি’ লালন সাঁইজির এমন সব আধ্যাত্মবানী পরিবেশনে ভাবগাম্ভীর্যপূর্ণ হয়ে উঠে সাধুসঙ্গস্থল এবং তা চলে গভীর রাত পর্যন্ত। এতে যোগ দেন দেশ বরেণ্য বাউল শিল্পিবৃন্দ ও সাধুগণ। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে পূণ্যসেবা গ্রহনের মধ্যদিয়ে শেষ হয় দু’দিনব্যাপী সাধুসঙ্গ।

মিরপুরে গাঁজাসহ স্বামী-স্ত্রী আটক

মিরপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুরে পুলিশ গাঁজাসহ স্বামী-স্ত্রীকে আটক করেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মিরপুর থানার এসআই পার্থ শেখর ঘোষের নেতৃত্বে এএসআই আবু তাহের, এএসআই শাকিল বিশ্বাস মশানবাজারে অভিযান চালিয়ে বলিদাপাড়া গ্রামের মৃত কফিল উদ্দিনের ছেলে নজরুল ইসলাম (৪৫) ও তার স্ত্রী সখিনা খাতুনকে (৪০) ৭৫০ গ্রাম গাঁজাসহ আটক করে। আটককৃতদের বিরুদ্ধে স্থানীয় থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা হয়েছে। মিরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল কালাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চত করেন।

কুষ্টিয়া শহরের উদিবাড়ী কলোনীর রাস্তা ও ড্রেণ নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করলেন মেয়র আনোয়ার আলী

গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে কুষ্টিয়া পৌরসভার ১৮নং ওয়ার্ডের উদিবাড়ী কলোনীর রাস্তার ও ড্রেণ নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করলেন কুষ্টিয়া পৌরসভার জননন্দিত মেয়র আনোয়ার আলী। উদ্বোধনকালে মেয়র আনোয়ার আলী বলেন- বাংলাদেশ সরকার, এডিবি এবং এফআইসি সহায়তাপুষ্ট তৃতীয় নগর পরিচালন ও অবকাঠামো উন্নতিকরণ (সেক্টর) প্রকল্পের আওতায় বেসিক সার্ভিস টু দি আরবান পুয়র খাতে বস্তি উন্নয়ন কমিটি (সিচ) এর মাধ্যমে কুষ্টিয়া পৌরসভার বাস্তবায়নে এই অঞ্চলে ১০৫২.৪৭ মিটার আরসিসি রাস্তা, ৭০৬ মিটার আর সিসি ড্রেন, ৭টি টুইন পিট টয়লেট, ৫ টি হাত টিউবয়েল, ১ টি ডাস্টবিন, ১ সোলার স্ট্রিট লাইট স্থাপন করা হবে এবং  ফুটপাতের পাশে ১০০টি গাছ লাগানো হবে। তিনি আরো বলেন, পৌর এলাকায় ২১টি ওয়ার্ডে ৪১টি সিডির মাধ্যমে নারীর সহিংসতা প্রতিরোধে ও নারীর ক্ষমতায়ন বৃদ্ধি এবং অবকাঠামো উন্নয়নসহ দারিদ্র দূরিকরনের জন্য হাতের কাজ শেখানোর পাশাপাশি ব্যবসা অনুদান, দারিদ্র ও মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের শিক্ষাবৃত্তি এবং মায়েদের পুষ্টি সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে। মেয়র মায়েদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনার ছেলে-মেয়েরা যদি মেধাবী হয় তাহলে তাদের লেখাপড়ার খরচের যোগান দিবো আমি। আর যদি মেধাবী না হয় তাহলে লেখাপড়ার পাশাপাশি হাতের কাজ শেখানোর পরামর্শ দেন। মেয়র আরোও বলেন, ২১টি ওয়ার্ডে আরো নতুন সিডিসি গঠন করা হচ্ছে। প্রতিটি ওয়ার্ডে চাহিদা অনুযায়ী পর্যায়ক্রমে অবকাঠামো নির্মানের পাশাপাশি টিউবয়েল, ডাস্টবিন, সোলার সহ পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষারর্থে বৃক্ষরোপন করা হবে। আপনাদের সহযোগীতায়   পৌরবাসীর সকল নাগরিক সেবা প্রদানের জন্য কাজ করে যাচ্ছি। পরে স্থানীয়দের সাথে এলাকার বিভিন্ন সমস্যা ও উন্নয়নমূলক কাজের বিষয়ে মতবিনিময় করেন। এসময় স্থানীয়রা পৌর এলাকার চলমান উন্নয়ন অব্যাহত রাখার জন্য পূনরায় মেয়র আনোয়ার আলীকে নির্বাচন করার আহবান জানান। এসময় উপস্থিত ছিলেন কাউন্সিলর শাহ জালাল, নির্বাহী প্রকৌশলী রবিউল ইসলাম, বস্তি উন্নয়ন কর্মকর্তা একেএম মঞ্জুরুল ইসলামসহ এই প্রকল্পের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

 

গণআন্দোলন শুরু করতে আর দেরি নয় – রিজভী

ঢাকা অফিস ॥ দুর্বার গণআন্দোলনের মধ্য দিয়ে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেছেন, এই গণআন্দোলন গড়ে তোলতে আর দেরি করা হবে না। কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি এবং দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে হওয়া সব মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে বৃহস্পতিবার নয়াপল্টনে মিছিল শেষে সমাবেশে এসব কথা বলেন তিনি। রিজভী বলেন, অবিলম্বে খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য এবং দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের জন্য আমাদের দুর্বার গণআন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। এই গণআন্দোলন শুরু করতে আর বিলম্ব করা যাবে না, এ মুহূর্তে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে আন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে। কারণ বর্তমান সরকার অগণতান্ত্রিক সরকার, অনির্বাচিত সরকার। ‘এই সরকারের মাধ্যমে সুষ্ঠু নির্বাচন এবং গণতন্ত্রের অধিকার ফিরে পাওয়া সম্ভব নয়। দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে মুক্তির মধ্য দিয়ে দেশে গণতন্ত্র ফিরে আসবে, মানুষের ব্যক্তিস্বাধীনতা ফিরে আসবে। দেশে যে গুম-খুনের আতঙ্ক বিরাজ করছে, সেই ভয়াল পরিস্থিতি থেকে মানুষ উদ্ধার হবে’-যোগ করেন বিএনপির এই নেতা। সরকারের সমালোচনা করে রিজভী বলেন, এই সরকার দেশের অর্থনীতিটা ধ্বংস করে দিয়েছে। অসংখ্য বেকার তরুণ হতাশার মধ্যে নিমজ্জিত। চারদিকে শুধু নৈরাজ্যের বিভীষিকা। দেশের জনগণ এক ভয়ঙ্কর অশান্তির মধ্যে দিনযাপন করছে। ক্ষমতাসীন গোষ্ঠী ভয় দেখিয়ে দেশ শাসন করছে। কিন্তু এই ভয়কে উপেক্ষা করেই দেশের জনগণ এই সরকারের পতনের জন্য এখন ঐক্যবদ্ধভাবে লড়াইয়ের প্রস্তুতি নিচ্ছে। মিছিলে আরও উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবদলের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মাওলা শাহিন, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাবেক কেন্দ্রীয় সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান মনির, সাবেক সদস্য ডা. জাহিদুল কবির, সাবেক ছাত্রনেতা আহসান উদ্দিন খান শিপন, মামুন ভূঁইয়া, মেহেবুব মাসুম শান্ত, কায়সার আপেল, নাজমুল হুদা, ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের সহসভাপতি ওমর ফারুক কাওসার, যুগ্ম সম্পাদক শাহ নেওয়াজ, সহসাংগঠনিক সম্পাদক মশিউর রহমান রনি, সরিষাবাড়ী উপজেলার সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুদুর রহমান হীরু প্রমুখ।

একুশে পদক হস্তান্তর করলেন প্রধানমন্ত্রী

ঢাকা অফিস ॥ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অমর একুশে ফেব্রুয়ারি এবং আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের প্রাক্কালে ২০ ব্যক্তি এবং এক প্রতিষ্ঠানের মাঝে ‘একুশে পদক-২০২০’ হস্তান্তর করেছেন। তিনি গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেসরকারী সম্মাননা ‘একুশে পদক’ এ বছরের বিজয়ী ব্যক্তি এবং প্রতিষ্ঠানের মাঝে বিতরণ করেন।এরআগে, গত ৫ ফেব্রুয়ারি নিজ নিজ ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ সরকারের সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় ২০২০ সালের একুশে পদক বিজয়ী হিসেবে ২০ ব্যক্তি এবং এক প্রতিষ্ঠানকে পদক প্রদানের তালিকা ঘোষণা করে।পদকপ্রাপ্তরা হলেন- ভাষা আন্দোলনে মরহুম আমিনুল ইসলাম বাদশা (মরণোত্তর), শিল্পকলায় (সংগীত) বেগম ডালিয়া নওশিন, শঙ্কর রায় ও মিতা হক, শিল্পকলায় (নৃত্য) মো. গোলাম মোস্তফা খান, শিল্পকলায় (অভিনয়) এম এম মহসীন, শিল্পকলায় (চারুকলা) অধ্যাপক শিল্পী ড. ফরিদা জামান, মুক্তিযুদ্ধে মরহুম হাজি আক্তার সরদার (মরণোত্তর), মরহুম আব্দুল জব্বার (মরণোত্তর), মরহুম ডা. আ আ ম মেসবাহুল হক (বাচ্চু ডাক্তার) (মরণোত্তর), সাংবাদিকতায় জাফর ওয়াজেদ (আলী ওয়াজেদ জাফর), গবেষণায় ড. জাহাঙ্গীর আলম, হাফেজ-ক্বারী আল্লামা সৈয়দ মোহাম্মদ ছাইফুর রহমান নিজামী শাহ, শিক্ষায় অধ্যাপক ড. বিকিরণ প্রসাদ বড়ুয়া, অর্থনীতিতে অধ্যাপক ড. শামসুল আলম, সমাজসেবায় সুফি মোহাম্মদ মিজানুর রহমান, ভাষা ও সাহিত্যে ড. নুরুন নবী, মরহুম সিকদার আমিনুল হক (মরণোত্তর) ও কবি,সহিত্যিক, মুক্তিযোদ্ধা বেগম নাজমুন নেসা পিয়ারি এবং চিকিৎসা ক্ষেত্রে প্রসূতি মায়ের জীবন রক্ষায় সায়েবা’স কীটের উদ্ভাবক অধ্যাপক ডা. সায়েবা আখতার। পাশাপাশি ‘গবেষণা’য় একুশে পদকের জন্য মনোনীত হয়েছে বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউট। পদক বিজয়ীরা প্রত্যেকে নিজ নিজ এবং মরণোত্তর পদক বিজয়ীদের পক্ষে তাঁদের পুত্র ও কন্যাগণ প্রধানমন্ত্রীর নিকট থেকে পদক গ্রহণ করেন। বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউট’র পক্ষে পদক গ্রহণ করেন এর মহাপরিচালক ড.ইয়াহিয়া মাহমুদ।বায়ান্ন’র একুশে ফেব্র“য়ারি ভাষা আন্দোলনের শহীদদের মহান আত্মত্যাগ স্মরণে সরকার প্রতি বছর বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে এই পুরস্কার দিয়ে আসছে।পুরস্কারপ্রাপ্ত প্রত্যেককে ৩ তোলা ওজনের ১৮ ক্যারেট সোনার তৈরী একটি স্বর্ণপদক, পুরস্কারের অর্থের চেক এবং একটি সম্মাননাপত্র প্রদান করা হয় । সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রনালয়ের সচিব ড.মো.আবু হেনা মোস্তফা কামাল স্বাগত বক্তৃতা করেন। মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বিজয়ীদের সাইটেশন পাঠ করেন। মন্ত্রিপরিষদ সদস্যবৃন্দ, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টাবৃন্দ, বিচারপতিবৃন্দ, সংসদ সদস্যবৃন্দ, তিন বাহিনী প্রধানগণ, সরকারের উর্ধ্বতন সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তাবৃন্দ, বিভিন্ন পাবলিক ও প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যগণ, কবি, সাহিত্যিক, লেখক, শিল্পী, সাংবাদিক সহ বিশিষ্ট নাগরিকবৃন্দ, অতীতে একুশে পদক বিজয়ীগণ, বিভিন্ন দেশের কূটনীতিক ও সংস্থার প্রধান এবং আমন্ত্রিত অতিথিগণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

করোনা ভাইরাসে ইরানের দুই জনের মৃত্যু

ঢাকা অফিস ॥ চীনে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে করোনা ভাইরাস। ইতমধ্যে এই ভাইরাস বিশ্বের ২৭টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। করোনা আক্রান্ত হয়ে ইরানে দুই জনের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার রাতে তাদের মৃত্যুর খবর জানানো হয়। তবে মৃত দুই জনের যে দুইজন পরিচয় প্রকাশ করা হয়নি। আলজাজিরার খবরে খবরে বলা হয়েছে, এই ভাইরাসে চীনে কমপক্ষে ২,০০৪ জন মারা গেছে। সমগ্র চীনে মোট ৭৪,১৮৫ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। তাদের বেশিরভাগ হুবেই প্রদেশ এবং এর রাজধানী উহান প্রদেশের। যাত্রীরা বিচ্ছিন্ন ডায়মন্ড প্রিন্সেস ক্রুজ জাহাজ ছেড়ে যাত্রা শুরু করায় নতুন করোনাভাইরাসের জন্য ইতিবাচক পরীক্ষার পর ইরানে দু’জনের মৃত্যু হয়েছে। এর আগে সোমবার তেহরানের একটি হাসপাতালে এক নারীর মৃত্যু হয়। কিন্তু দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র খাইনুস জোহানপুর ওই নারীর মৃত্যুর তথ্য অস্বীকার করেন।

কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষায় যাচ্ছে না বুয়েট

ঢাকা অফিস ॥ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষায় যাচ্ছে না বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট)। আগের মতোই স্নাতক প্রথম বর্ষে ভর্তি পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বুয়েট প্রশাসন। বুধবার বুয়েটের শিক্ষা পরিষদের (অ্যাকাডেমিক কাউন্সিল) সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রকল্যাণ উপদেষ্টা অধ্যাপক মিজানুর রহমান। এ বিষয়ে অধ্যাপক মিজানুর রহমান বৃহস্পতিবার গণমাধ্যমে বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে বুয়েটে যে প্রক্রিয়া অবলম্বন করা হতো সেই প্রক্রিয়া অনুযায়ী পরবর্তী শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিলে এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়েছে।’ তাহলে ইউজিসির সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষায় যাচ্ছে না বুয়েট? এমন প্রশ্নে মিজানুর রহমান বলেন, ‘পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়েগুলোতে সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষায় সাধুবাদ জানায় বুয়েট কর্তৃপক্ষ। তবে এতে যোগ না দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বুয়েট।’উল্লেখ্য, গত ২৩ জানুয়ারি দেশের সব কটি বিশ্ববিদ্যালয়কে নিয়ে সমন্বিতভাবে ভর্তি পরীক্ষার প্রাথমিক সিদ্ধান্ত নেয় ইউজিসি। সে সময় থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বুয়েটসহ দেশের বড় ৫ বিশ্ববিদ্যালয় এ বিষয়ে অনাগ্রহ দেখিয়ে আসছে। সম্প্রতি এ বিষয়ে ইউজিসিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় এবং বুয়েটের উপাচার্যদের নিয়ে একটি সভা অনুষ্ঠিত হলে সেখানে বিশ্ববিদ্যালয় একাডেমিক কাউন্সিলের মাধ্যমে সিদ্ধান্ত জানাবেন বলে জানান উপাচার্যগণ। গতকাল বুয়েট তাদের সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিল। প্রসঙ্গত, বুয়েট প্রথমে শিক্ষার্থীদের কাছে আবেদন আহ্বান করে। এরপর সেগুলো প্রাথমিক বাছাই করে নির্ধারিতসংখ্যক পরীক্ষার্থী নিয়ে ভর্তি পরীক্ষা নেয়। এর ভিত্তিতে শিক্ষার্থী ভর্তি করে।

দৌলতপুরে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন

শরীফুল ইসলাম ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের প্রথম প্রহর রাত ১২.০১টায় স্থানীয় সংসদ সদস্য ও উপজেলা প্রশাসনসহ বিভিন্ন সংগঠন উপজেলা পরিষদ চত্বরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পন করে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন। কুষ্টিয়া-১ দৌলতপুর আসনের সংসদ সদস্য আ কা ম সরওয়ার জাহান বাদশা প্রথমে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পন করে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এরপর দৌলতপুর উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাড. এজাজ আহমেদ মামুন ও দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তার-এর নেতৃত্বে উপজেলা পরিষদ ও উপজেলা প্রশাসন, দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তার-এর নেতৃত্বে দৌলতপুর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড, দৌলতপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এস এম আরিফুর রহমানের নেতৃত্বে দৌলতপুর থানা পুলিশ, দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও উপজেলা শিল্পকলা একাডেমির সভাপতি শারমিন আক্তার ও সাধারণ সম্পাদক সরকার আমিরুল ইসলামের নেতৃত্বে উপজেলা শিল্পকলা একাডেমি, দৌলতপুর কলেজের অধ্যক্ষ মো. ছাদিকুজ্জামান খানের নেতৃত্বে দৌলতপুর কলেজের শিক্ষকবৃন্দ, দৌলতপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি এ্যাড. এমজি মাহমুদ মন্টু ও সাধারণ সম্পাদক শরীফুল ইসলামের নেতৃত্ব দৌলতপুর প্রেসক্লাবের সদস্যবৃন্দসহ দৌলতপুর যুবলীগ, ছাত্রলীগ, কৃষকলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, বঙ্গবন্ধু পরিষদসহ বিভিন্ন সংগঠন ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পন করেন। এদিকে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে দৌলতপুর উপজেলা প্রশাসন আজ শুক্রবার সকালে র‌্যালি, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। অপরদিকে দৌলতপুর কলেজ শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে র‌্যালি ও আলোচনা সভার আয়োজন করেছে। এছাড়াও দৌলতপুরের বিভিন্ন সংগঠন ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দিবসটি যথাযোগ্য মর্যদায় পালনের প্রস্তুতি নিয়েছে। এছাড়াও শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে গতকাল বৃহস্পতিবার চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, রচনা প্রতিযোগিতা ও কবিতা আবৃত্তি প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

কুমারখালীর গড়াই সড়ক ও রেল সেতুর নীচ থেকে অবৈধ বালু উত্তোলন

ভ্রাম্যমান আদালতে যানবাহন জব্দ ও ধ্বংস, দুইজনের জেল জরিমানা

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়া কুমারখালী উপজেলার গড়াই সড়ক ও রেল সেতুর নীচ থেকে অবৈধ বালু উত্তোলন বন্ধে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালিত হয়েছে। গতকাল বৃহষ্পতিবার বেলা ১১টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ আবু রাসেলের নেতৃত্বে এই অভিযান পরিচালিত হয়। যে কোন সেতুর নিরাপদ দুরত্ব এক কি:মি’র  মধ্যে থেকে বালু উত্তোলন আইনত সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ হওয়ার পরও আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে প্রভাবশালী মহল কর্তৃক দীর্ঘদিন ধরেই চলছিলো অবৈধভাবে বালু উত্তোলন। ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার সময় ঘটনাস্থলে বালু উত্তোলনরত মাটি কাটা যন্ত্র ফেলুটার, ড্রাম ট্্রাক, মিনি ট্রাক, ট্রলিসহ বিভিন্ন যানবাহন জব্দ ও ধ্বংস করে তা রাষ্ট্রীয় কোষাগারে বাজেয়াপ্ত এবং বালু উত্তোলন থেকে টাকা আদায়কারী দুইজনকে আটক করা হয়। পরে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে আটকদ্বয়কে বালু মহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন-২০১০এর বিধিমতে তিন মাসের কারাদন্ডসহ প্রত্যেকের ১লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও দুই মাসের কারাবাসের দন্ডাদেশ দেয়া হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন ভ্রাম্যমান কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসনে সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ আবু রাসেল। দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন-কুমারখালী উপজেলার লাহিনী গ্রামের আবু বক্করের ছেলে সুমন (৩৮) এবং অপরজন ফারুক (৩৫)। এছাড়া জব্দ করে ধ্বংস করে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে ২টি ড্রাম ট্রাক, ২টি মাটি কাটা যন্ত্র, ১২টি ট্রলি, ২টি মিনি ট্রাক। স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীদের ভাষ্যে কুষ্টিয়াতে অবৈধ বালু উত্তোলন বন্ধে এটিই ছিলো সর্ববৃহৎ অভিযান ও ভ্রাম্যমান আদালত। বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সংবাদটি ছড়িয়ে পড়লে জেলার ওয়াকিবহাল মহল জেলা প্রশাসনের এমন যুগান্তকারী উদ্যোগকে সাধুবাদ ও ধন্যবাদ জানান। উল্লেখ্য জেলার ২১টি বালিমহল থেকে প্রভাবশালী মহল এসব অবৈধ বালি উত্তোলন ও সরবরাহ থেকে প্রতিদিন লাখ লাখ ঘনফুট বালু বিক্রি করে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিলেও রাষ্ট্রীয় এই সম্পদ থেকে বার্ষিক হাজার কোটি টাকার অর্থনৈতিক প্রবাহ সৃষ্টি হয়। কিন্তু এখাত থেকে সরকারী কোন রাজস্ব পাননা জেলার রাজস্ব বিভাগ। নাম সর্বস্ব অস্তিত্বহীন মামলাবাজ চক্রের সৃষ্ট আইনী জটিলতা জিইয়ে রেখে টোলের নামে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিলেও জেলার রাজস্ব বিভাগের প্রাপ্তি শুন্য। অভিযোগ আছে, সংশ্লিষ্ট প্রশাসন ও কর্তৃপক্ষের অবহেলা, ব্যর্থতা অথবা যোগসাজসে সৃষ্ট এই আইনগত জটিলতা বিদ্যমান থাকায় দীর্ঘ ১০বছর যাবত ইজারাবিহীন ২১টি বালিমহল থেকে সরকার অন্তত: ২শ কোটি টাকা রাজস্ব হারিয়েছে বলে সত্যতা নিশ্চিত করেন জেলার রাজস্ব বিভাগ। এবিষয়ে বিস্তারিত প্রতিবেদনও প্রকাশ হয়েছে বিভিন্ন জাতীয় প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়াসহ স্থানীয় গণমাধ্যমে। সড়ক ও রেল সেতুর ঝুকিপূর্ন জোন থেকে বালু উত্তোলন বন্ধে পরিচালিত ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ আবু রাসেল বলেন- কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেনের নির্দেশে আমরা কুষ্টিয়া জেলা প্রশসন থেকে দুইজন ম্যাজিষ্ট্রেট এখানে এসেছি, আপনারা দেখছেন, এখনে সড়ক ও রেল লাইনের দুইটি গুরুত্বপূর্ন সরকারী স্থাপনা সেতু রয়েছে। আইন অনুযায়ী এর ১কি:মি:র মধ্যে থেকে কোন ভাবেই মাটি বা বালু উত্তোলন করা যাবে না। অথচ কে বা কারা আইন ভঙ্গ করে এখান থেকে বালু উত্তোলন করছে এমন সংবাদ পেয়েই আমরা আইন শৃংখলা বাহিনীর সমন্বয়ে অভিযান পরিচালনা করছি। এখানে বালু উত্তোলরত যন্ত্রসহ যানবাহন জব্দ করে তা রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এসম বালু উত্তোজনে জড়িত অভিযোগে দুইজনকে আটক করে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত বিধিতে ভ্রাম্যমান আদালতে জেল ও জরিমানা আদেশ দেয়া হয়ে।

দৌলতপুরে ইটভাটায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে ৩০ হাজার টাকা দন্ড

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে বিএইচএন ইটভাটায় ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালিয়ে ভাটা মালিকের ৩০ হাজার টাকা অর্থদন্ড করেছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট শারমিন আক্তার এ দন্ড দেন। ভ্রাম্যমান আদালত সূত্র জানায়, উপজেলার রিফায়েতপুর ইউনিয়নের গলাকাটি গ্রামের জনবসতিপূর্ণ এলাকায় ফসলি জমিতে গড়ে উঠা বিএইচএন ইটভাটায় নির্ধারিত মাপের চেয়ে ইটের সাইজ ছোট হওয়ায় ভোক্তা অধিকার আইন ২০০৯ এর ৪৮ ধারায় ইটভাটা মালিক নজরুল ইসলামের ৩০ হাজার টাকা অর্থদন্ড করেন ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তার।

মিরপুরে প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের সাথে মতবিনিময়কালে ডিসি আসলাম হোসেন

মানবিক দৃষ্টিতে সহানুভূতি নিয়ে প্রতিবন্ধীদের পাশে দাঁড়াতে হবে

আমলা অফিস ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুরে প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার সদরপুর ইউনিয়নের জনসেবা প্রতিবন্ধী ও অটিস্টিক বিদ্যালয়ে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। জনসেবা প্রতিবন্ধী ও অটিস্টিক বিদ্যালয়ের সভাপতি আতিয়ার রহমান বাবলুর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক মোঃ আসলাম হোসেন। এসময় তিনি বলেন, প্রতিবন্ধীদের অবহেলার চোখে দেখার সুযোগ নেই। প্রতিবন্ধীরা সমাজের বোঝা নয়, ওরাও আমাদের সন্তান। তাদেরকে সুন্দর পরিচর্যার মাধ্যমে গড়ে তুলতে হবে। সাধারণ মানুষের মতো বাঁচার অধিকার তাদেরও রয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, মানবিক দৃষ্টিতে সহানুভূতি নিয়ে শারীরিক ও মানসিক প্রতিবন্ধীদের পাশে দাঁড়াতে হবে তাহলে তারাও জীবনে ঘুরে দাঁড়াতে পারবে। তাদেরকে অবহেলার চোখে  দেখা যাবে না। কারণ তারাও আমার আপনার আত্মীয়-স্বজন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) লিংকন বিশ্বাস, মিরপুর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আবুল কাশেম  জোয়ার্দার, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) রকিবুল হাসান, সদরপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রবিউল হক রবি, আমলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম মালিথা, আমলা সদরপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক মকবুল হোসেন বিশ্বাস, বীর মুক্তিযোদ্ধা মারফত আলী মাস্টার। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জনসেবা প্রতিবন্ধী ও অটিস্টিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ফজলুল হক, আলামিন মাহমুদ, লাল্টু আল মামুন, আব্দুর রহমান, জেসমিনা বুলবুল, আব্দুল হান্নান, আফসানা বুলবুলসহ অভিভাবকবৃন্দ।

অমর একুশে ফেব্র“য়ারি ভাষা শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা

কুষ্টিয়া প্রেসক্লাব পুষ্পস্তবক অর্পণ

নিজ সংবাদ ॥ অমর একুশে ফেব্র“য়ারি মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে, ভাষা শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানিয়ে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেছে কুষ্টিয়া প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দ। কুষ্টিয়া কালেক্টরেট চত্বরে অবস্থিত কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে একুশের প্রথম প্রহরে কুষ্টিয়া প্রেসক্লাব’র সাধারণ সম্পাদক আনিসুজ্জামান ডাবলু (সম্পাদক দৈনিক আন্দোলনের বাজার ও জেলা প্রতিনিধি চ্যানেল আই) এর নেতৃত্ব্ েপুষ্পস্তবক অর্পণ করেন নেতৃবৃন্দ।

এ সময় পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন কুষ্টিয়া প্রেসক্লাব’র সহ-সভাপতি লুৎফর রহমান কুমার (সম্পাদক দৈনিক মাটির ডাক), এডিটরস ফোরাম কুষ্টিয়ার সাধারন সম্পাদক নুর আলম দুলাল (সম্পাদক কুষ্টিয়ার কাগজ ও প্রতিনিধি এসএটিভি) প্রেসক্লাবের যুগ্ম-সম্পাদক নুরুন্নবী বাবু (ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক দৈনিক সময়ের কাগজ), যুগ্ম-সম্পাদক শরিফ বিশ্বাস (সম্পাদক দৈনিক দি টিচার ও স্টাফ রিপোর্টার চ্যানেল ২৪ ), কোষাধ্যক্ষ আবু মনি জুবায়েদ রিপন (সম্পাদক দৈনিক কুষ্টিয়ার খবর ও জেলা প্রতিনিধি দৈনিক যুগান্তর), প্রচার প্রকাশনা ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক তৌহিদী হাসান (জেলা প্রতিনিধি দৈনিক প্রথম আলো), ক্রীড়া ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক আ.ফ.ম নূরুল কাদের (জেলা প্রতিনিধি দৈনিক নয়া দিগন্ত), দেবাশীষ দত্ত (ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক দৈনিক আজকের আলো-সাপ্তাহিক কুষ্টিয়ার মুখ ও জেলা প্রতিনিধি খোলা কাগজ), সুজন কুমার কর্মকার (সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার দৈনিক আন্দোলনের বাজার ও জেলা প্রতিনিধি দৈনিক সকালের সময়), মোকাদ্দেস হোসেন সেলিম (সম্পাদক দৈনিক সূত্রপাত), নিজাম উদ্দিন (জেলা প্রতিনিধি দেশ টেলিভিশন) সহ সাংবাদিকবৃন্দ।

শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস আজ

ঢাকা অফিস ॥ আজ শুক্রবার ২১ ফেব্র“য়ারি শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। মাতৃভাষা আন্দোলনের ৬৮ বছর পূর্ণ হল আজ। বাঙালি জাতির জন্য এই দিবসটি হচ্ছে চরম শোক ও বেদনার, অনদিকে মায়ের ভাষা বাংলার অধিকার আদায়ের জন্য সর্বোচ্চ ত্যাগের মহিমায় উদ্ভাসিত। জাতিসংঘের উদ্যোগে বাংলাদেশসহ সারাবিশ্বে ভাষাশহীদদের স্মরণে দিবসটি যথাযথ মর্যাদায় পালন করা হবে। রাজধানী ঢাকায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের বেদীতে পুষ্পস্তবক অর্পণ এবং বিভিন্ন স্থানে আলোচনা সভাসহ নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে জাতি একুশের মহান শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাবে। রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ একুশের প্রথম প্রহরে ১২টা ১ মিনিটে সর্বপ্রথম কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করবেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এর পরপরই শহীদদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন। দিবসটি উপলক্ষে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। আওয়ামী লীগের দু’দিনব্যাপী কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- রাত ১২টা ১ মিনিটে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদনের পর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ, সকালে সংগঠনের কেন্দ্রীয় কার্যালয় বঙ্গবন্ধু ভবনসহ সংগঠনের সকল শাখা কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা অর্ধনমিতকরণ ও কালো পতাকা উত্তোলন। সকাল ৭টায় কালো ব্যাজ ধারণ, প্রভাতফেরি সহকারে আজিমপুর কবরস্থানে শহীদদের কবরে ও কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ ও শ্রদ্ধা নিবেদন। এ ছাড়াও ২২ ফেব্র“য়ারি শনিবার বিকাল ৩টায় বঙ্গবন্ধু আর্ন্তজাতিক সন্মেলন কেন্দ্রে এ উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। এতে সভাপতিত্ব করবেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা ইতোমধ্যেই অমর একুশে পালনের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার, আজিমপুর কবরস্থানসহ একুশের প্রভাতফেরি প্রদক্ষিণের এলাকায় বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে, প্রণয়ন করা হয়েছে শহীদ মিনারে প্রবেশের রোডম্যাপ। এ উপলক্ষে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ঘিরে চার স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম। তিনি গতকাল বুধবার আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালনে ডিএমপির গৃহীত নিরাপত্তা ব্যবস্থা পরিদর্শন শেষে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে উপস্থিত সাংবাদিকদের একথা জানান। ডিএমপি কমিশনার বলেন, অন্যান্য বছরের ন্যায় এবারও শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে শহীদ মিনারকে ঘিরে থাকবে চার স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা। শহীদ মিনার কেন্দ্রীক প্রত্যেক জায়গা সিসি ক্যামেরার আওতায় থাকবে। শহীদ মিনার চত্ত্বরে আর্চওয়ে ও তল্লাশী ছাড়া কোন ব্যক্তিকে প্রবেশ করতে দেয়া হবে না। নিরাপত্তায় ২৪ ঘন্টা ফোর্স মোতায়েন থাকবে। যে কোন জাতির জন্য সবচেয়ে মহৎ ও দুর্লভ উত্তরাধিকার হচ্ছে মৃত্যুর উত্তরাধিকার- মরতে জানা ও মরতে পারার উত্তরাধিকার। ১৯৫২ সালের একুশে ফেব্র“য়ারি শহীদরা জাতিকে সে মহৎ ও দুর্লভ উত্তরাধিকার দিয়ে গেছেন। ১৯৫২ সালের এদিনে ‘বাংলাকে’ রাষ্ট্রভাষা করার দাবিতে বাংলার (তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান) ছাত্র ও যুবসমাজসহ সর্বস্তরের মানুষ সে সময়ের শাসকগোষ্ঠির চোখ-রাঙ্গানি ও প্রশাসনের ১৪৪ ধারা উপেক্ষা করে স্বতঃস্ফূর্তভাবে রাজপথে নেমে আসে। মায়ের ভাষা প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে দুর্বার গতি পাকিস্তানি শাসকদের শংকিত করে তোলায় সেদিন ছাত্র-জনতার মিছিলে পুলিশ গুলি চালালে সালাম, জব্বার, শফিক, বরকত ও রফিক গুলিবিদ্ধ হয়ে শহীদ হন। তাদের এই আত্মদান নিয়ে বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ সরদার ফজলুল করিম তার ‘বায়ান্নরও আগে’ প্রবন্ধে লিখেছেন ‘বরকত সালামকে আমরা ভালবাসি। কিন্তু তার চেয়েও বড় কথা বরকত সালাম আমাদের ভালবাসে। ওরা আমাদের ভালবাসে বলেই ওদের জীবন দিয়ে আমাদের জীবন রক্ষা করেছে। ওরা আমাদের জীবনে অমৃতরসের স্পর্শ দিয়ে গেছে। সে রসে আমরা জনে জনে, প্রতিজনে এবং সমগ্রজনে সিক্ত।’ এদের আত্মদানের মধ্যদিয়ে আমরা অমরতা পেয়েছি উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আজ আমরা বলতে পারি দস্যুকে, বর্বরকে এবং দাম্ভিককে : তোমরা আর আমাদের মারতে পারবে না । কেননা বরকত সালাম রক্তের সমুদ্র মন্থন করে আমাদের জীবনে অমরতার স্পর্শ দিয়ে গেছেন।’ ২১ ফেব্র“য়ারি জাতীয় ছুটির দিন। এদিন সূর্যোদয়ের সাথে সাথে সকল সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও বেসরকারি ভবনসমূহে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হবে। শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিবেন। ২১ ফেব্র“য়ারি উপলক্ষে সংবাদপত্রগুলো বিশেষ ক্রোড়পত্র এবং বাংলাদেশ বেতার, বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বেসরকারি স্যাটেলাইট চ্যানেলগুলো একুশের বিশেষ অনুষ্ঠান সম্প্রচার করবে।