গাংনীতে প্রতিবন্ধীদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ

গাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের গাংনীতে ৫০জন প্রতিবন্ধীদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুর ১টার দিকে নাগদা খাল-পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতির উদ্যোগে নিজস্ব কার্যালয়ে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়। বিতরণ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সমিতির সভাপতি আব্দাল হক। প্রধান অতিথি হিসাবে শীতবস্ত্র বিতরণ করেন গাংনী উপজেলা নির্বাহী অফিসার দিলারা রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন রাইপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম সাকলায়েন ছেপু,উপজেলা মৎস্য অফিসার রবিউল ইসলাম, উপজেলা সমবায় অফিসার মাহবুবুল হক। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সমিতির সাধারণ সম্পাদক জুম্মা আলমসহ সদস্য-সদস্যাবৃন্দ।

তাহের মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে মিড-ডে মিল চালু

আল-মাহাদী ॥ ভেড়ামারায় তাহের মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে মিড-ডে মিল বা মধ্যাহ্ন ভোজের শুভ উদ্বোধন করেছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহেল মারুফ। অতিথি ছিলেন ভেড়ামারা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী আক্তারুজ্জামান মিঠু, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার ফারুক আহমেদ, ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব আব্দুল মান্নান মন্ডল, প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, সহকারী প্রধান শিক্ষক মোঃ জামারুল ইসলাম। মিড-ডে মিলে অংশগ্রহন করেন তাহের মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও পশ্চিম বাহিরচর ১২মাইল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষার্থী এবং শিক্ষকমন্ডলী। এসময় শিক্ষার্থীদের মাঝে টিফিন বাটিও বিতরণ করা হয়।

নওদাপাড়া চৌদুয়ার মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে বিদায়-বরণ

আমলা অফিস ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার ফুলবাড়ীয়া ইউনিয়নের নওদাপাড়া চৌদুয়ার মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় ও ৬ষ্ঠ শ্রেনীর শিক্ষার্থীদের নবীন বরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সকালে বিদ্যালয় চত্বরে এ বিদায়-বরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি সৈয়দ রাশেদুল আলম রুবেল’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা জুলফিকার হায়দার। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিষ্টার গৌরব চক্রবর্তী, বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য অধ্যাপক আব্দুল করিম, আমিরুল ইসলাম, আহসান আলী শেখ, আবু সিদ্দিক, পৌর যুবলীগের সাবেক আহ্বাক হাসানুর রহমান খান তাপস, ফুলবাড়ীয়া ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মীর জাকিরুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সৈয়দ রুহুল আমিন। বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক শফিকুল ইসলামের পরিচালনায় এ সময়ে সহকারী শিক্ষক সাইফুল ইসলাম, নূরুল আমিন খান, রাজিয়া সিদ্দিকা, ওসমান গণি, সেলিম হোসেন, আবু নাঈম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। পরে বিদায়ী শিক্ষার্থীদের মঙ্গল কামনা করে দোয়া মোনাজাত পরিচালনা করেন বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সাবেক সদস্য হাজী আব্দুল মান্নান। শেষে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

দৌলতপুর প্রেসক্লাবের যুগ্মসম্পাদকের বাসভবনে সাংবাদিকবৃন্দ 

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুর প্রেসক্লাবের যুগ্মসম্পাদক আহমেদ রাজুর বাসভবনে তার সাথে দেখা করতে গিয়েছিলেন দৌলতপুর প্রেসক্লাবের সাংবাদিকবৃন্দ। আহমেদ রাজু বেশ কিছুদিন ধরে অসুস্থ হয়ে বাড়িতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার তারাগুনিয়া মন্ডলপাড়াস্থ বাসভবনে অসুস্থ রাজু’র সাথে দেখা করতে যান দৌলতপুর প্রেসক্লাবের সাংবাদিকবৃন্দ। এসময় দৌলতপুর প্রেসক্লাবের উপদেষ্টা এম মামুন রেজা, সাধারণ সম্পাদক শরীফুল ইসলাম, দপ্তর সম্পাদক সাইদুল আনাম, কোষাধ্যক্ষ এস এম জাহিদ হোসেন, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক মাহফুজুল আলম, নির্বাহী সদস্য জাহাঙ্গীর আলম, সাইদুর রহমান ও সাংবাদিক আশরাফুল ইসলাম মাষ্টার অসুস্থ আহমেদ রাজুর সার্বিক খোঁজ খবর নেন এবং তার দ্রুত সুস্থতা কামনা করেন।

ইবিতে “বঙ্গবন্ধু আন্তঃবিভাগ ও আন্তঃহল ফুটবল কাপ” টুর্ণামেন্টের পুরস্কার বিতরণ

ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারী (ড. রাশিদ আসকারী) বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদ্যাপনের মাহেন্দ্রক্ষণে জাতীয় অনুষ্ঠানের সাথে সম্পর্ক রেখে আবার নিজেদের মত করে বছরব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে ক্যাম্পাস মুখরিত থাকবে। তিনি বলেন, আমাদের বিশ^বিদ্যালয় ইতোমধ্যে যে কয়টি ক্ষেত্রে জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক পর্যায়ে খ্যাতি অর্জন করেছে তার অন্যতম হলো ক্রীড়া। ড. রাশিদ আসকারী বলেন, আমরা প্রগতিশীল ও আধুনিক বিশ^বিদ্যালয় গড়তে চাই। আমরা চাই শিক্ষার্থীরা লেখাপড়ার পাশাপাশি ক্রীড়া ও সংস্কৃতি চর্চায় মনোযোগী হবে। তিনি বলেন, ইতোমধ্যে আমাদের ক্যাম্পাসকে জঙ্গিবাদ ও মাদকমুক্ত ঘোষণা করা হয়েছে। র‌্যাগিংমুক্ত হয়েছে, সেসন জট নেই। তিনি বলেন, এ টুর্ণামেন্টে খেলোয়াড়দের ক্রীড়া নৈপুণ্য দেখে আমি মুদ্ধ হয়েছি। বিজয়ীদের অভিনন্দন এবং বিজিতদের আগামীর জন্য প্রস্তুত হওয়ার আহবান জানাই। গতকাল দুপুরে বিশ^বিদ্যালয়ের ফুটবল মাঠে, বিশ^বিদ্যালয়ের আয়োজেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদ্যাপন উপলক্ষ্যে বছরব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচির অংশহিসেবে “বঙ্গবন্ধু আন্তঃবিভাগ এবং আন্তঃহল ছাত্র ও ছাত্রী ফুটবল কাপ” টুর্ণামেন্টের পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় ড. রাশিদ আসকারী এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তৃতায় প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর ও ক্রীড়া কমিটির সভাপতি প্রফেসর ড. মোঃ শাহিনুর রহমান বলেন, আজকের এ টুর্ণামেন্টের গুরুত্ব অনেক। এ টুর্ণামেন্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে উৎসর্গ করা হয়েছে। বন্ধুত্বসুলভ আচরণের মধ্যদিয়ে মুজিববর্ষের সকল ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্য তিনি শিক্ষার্থীদের প্রতি আহবান জানান। বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় ট্রেজারার প্রফেসর ড. মোঃ সেলিম তোহা বলেন, পাকিস্তান আমলে আমাদের প্রচন্ড যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও বাঙালি হওয়ার অপরাধে আমরা জাতীয় পর্যায়ে খেলার সুযোগ পাইনি। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে দেশ স্বাধীনের পর আমরা জাতীয় পর্যায়ের খেলার সুযোগ পেয়েছি। তাই এদেশের ক্রীড়াবিদদের ক্রীড়ার মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদ্যাপন করার আহবান জানান। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন শারীরিক শিক্ষা বিভাগের পরিচালক ড. মোহাম্মদ সোহেল। উপস্থাপনা করেন শারীরিক শিক্ষা বিভাগের সহকারী পরিচালক প্রশিক্ষক মাবিলা রহমান। মাসব্যাপী বঙ্গবন্ধু ফুটবল কাপ টুর্ণামেন্টে আন্তঃবিভাগ পর্যায়ে ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগ চ্যাম্পিয়ন এবং ইংরেজি বিভাগ রানার-আপ হওয়ার গৌরব অর্জন করে। অপরদিকে আন্তঃহল ছাত্রী পর্যায়ে দেশরতœ শেখ হাসিনা হল চ্যাম্পিয়ন ও বেগম খালেদা জিয়া হল রানার-আপ এবং ছাত্র হল পর্যায়ে শেখ রাসেল হল চ্যাম্পিয়ন ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল রানার-আপ হওয়ার গৌরব অর্জন করেন। টুর্ণামেন্টের বিজয়দের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করে অতিথিবৃন্দ। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

নওদা বহলবাড়ীয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা

মিরপুর প্রতিনিধি  ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুরে নওদা বহলবাড়ীয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ২০২০ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা, ৬ষ্ঠ শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের বরণ ও কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ও উপজেলা জাসদের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মহাম্মদ শরীফের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন মিরপুর উপজেলা জাসদের সাধারন সম্পাদক আহম্মদ আলী। বিশেষ অতিথি ছিলেন, নওদা বহলবাড়ীয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শামসুজ্জোহা, সহকারী প্রধান শিক্ষক মজিবর রহমান, বহলবাড়ীয়া ইউনিয়ন জাসদের সভাপতি সাইদুর রহমান মন্টু, বিদ্যুৎসাহী সদস্য খবিরুদ্দিন মাষ্টার, ইদ্রিস আলী মাষ্টার, সমাজ সেবক বীর মুক্তিযোদ্ধা আয়ুবুর রহমান, আবু বক্কর বিশ্বাস, খালেকুজ্জামান রতন, হাজী আশরাফুল হক, নওদা বহলবাড়ীয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সিনিয়র সহকারী শিক্ষক নুরুল ইসলাম, ওলিউর রহমান, কিয়ারুল ইসলাম, মহিমা খাতুন, তারিকুলজ্জামান, সেলিনা খাতুন, সানজীব হোসেন, সহকারী শিক্ষক আজিজুর রহমান, শাহীনুল ইসলাম প্রমুখ।

মিরপুরে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অগ্নিসংযোগ

আমলা অফিস ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুরে পূর্ব শক্রতার জেরধরে এক ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অগ্নিসংযোগের অভিযোগ পাওয়া গেছে। তবে এ ঘটনায় বড় ধরণের কোন ক্ষয়-ক্ষতি হয়নি। এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী শওকত আলী থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। থানায় লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, সোমবার দিবাগত রাতে কে বা কাহারা ধুবইল ইউনিয়রেন লক্ষিধড়দিয়াড় গ্রামস্থ মিজান মোড়ে মুদির দোকানে পুরাতন কাপড়ে কেরসিন তেল দিয়ে অগ্নিসংযোগ করে। পরে আগুন লবণের বস্তায় লেগে ক্রমশই দূর্বল হয়ে নিভে যায়। এ কারণে প্রতিষ্ঠানটি বড় ধরণের কোন ক্ষয়-ক্ষতি থেকে রক্ষা পায়। মুদির দোকান ছাড়াও ওই প্রতিষ্ঠানে পশু খাদ্য বিক্রয় করা হয়। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে মিরপুর থানার এসআই কামরুজ্জামান ও ধুবইল ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক বাজার কমিটির সভাপতি মিজানুর রহমান মিজান ঘটনাস্থল পদির্শন করেন। ধুবইল ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক বাজার কমিটির সভাপতি মিজানুর রহমান মিজান ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানান।

শৈলকুপায় নারী নির্যাতন মামলায় ৪ শিক্ষক-কর্মচারী কারাগারে

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ॥ ঝিনাইদহের শৈলকুপায় নারী ও শিশু নির্যাতন মামলায় একটি বিদ্যালয়ের ৪ শিক্ষক ও কর্মচারীর জামিন না মঞ্জুর করে জেলহাজতে প্রেরণ করেছেন আদালত। তারা হলেন- শৈলকুপা পাইলট উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ফজলুর রহমান, শিক্ষক রবিউল ইসলাম, পিওন সাইদুল ইসলাম ও কেরানী আবুল কালাম আজাদ। সোমবার বিকেলে ঝিনাইদহের বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক এ আদেশ দেন। মামলার বিবরণে জানা যায়, যায় গত কয়েক মাস আগে প্রধান শিক্ষক দিলারা ইয়াসমিনকে তার অফিস রুমে শ্লীলতাহানীর চেষ্টা করেন সহকারী প্রধান শিক্ষক ফজলুর রহমান, সহকারী শিক্ষক রবিউল ইসলাম, ল্যাব এসিস্টেন্ট আবুল কালাম, চায়না আফরোজ, পিয়ন শহিদুল ইসলামসহ ৭ শিক্ষক কর্মচারী। এ ঘটনায় তিনি ঝিনাইদহ নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনালে মামলা দায়ের করলে আদালত তা আমলে নিয়ে আসামীদের হাজির হওয়ার সমন জারী করেন। আসামীরা সোমবার দুপুরে আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করলে বিজ্ঞ আদালত চায়না আফরোজকে জামিন দিয়ে সহকারী প্রধান শিক্ষক ফজলুর রহমানসহ ৪ শিক্ষক কর্মচারীকে কারাগারে পাঠনোর আদেশ দেন।

বাহাদুরপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে বাল্যবিবাহ, সন্ত্রাস ও মাদকমুক্ত সমাজ গঠনে ক্যাম্পেইন

ভেড়ামারা অফিস ॥ কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় জাতীয় মহিলা সংস্থার তত্ত্বাবধানে স্থানীয় সরকার বিভাগের উপজেলা পরিচালন ও উন্নয়ন প্রকল্প এবং জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সী (জাইকা)’র সহযোগিতায় গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১০টায় বাহাদুরপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মাঠে সন্ত্রাস, মাদকমুক্ত সমাজ গঠন, বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ এবং যৌতুকের মত সামাজিক ব্যাধিকে দুর করতে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সপ্তাহব্যাপী সচেতনতা মূলক ক্যাম্পেইন এর অংশ হিসেবে ৪র্থ দিনের ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত হয়। বাহাদুরপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক সাইফুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কুষ্টিয়া জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও ভেড়ামারা উপজেলা মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান মোছাঃ বলাকা পারভীন স্বপ্না। উপজেলা জাতীয় মহিলা সংস্থার সমন্বয়কারী মোহাঃ আসমান আলী’র উপস্থাপনায় বিশেষ অতিথি ছিলেন ভেড়ামারা প্রেসক্লাবের যুগ্ন আহবায়ক এস.এম.আবু ওবাইদা-আল-মাহাদী, সহকারী শিক্ষক আ.খ.ম. গোলাম ফারুক, সহকারী শিক্ষিকা মোছাঃ আইরিন ডলরিচ পপি ও মোছাঃ শারমীন সুলতানা। উক্ত অনুষ্ঠানে বিদ্যালয়ের ২০০ ছাত্র-ছাত্রী অংশগ্রহণ করেন।

জি কে শামীম ও তার দেহরক্ষীরা অস্ত্র মামলায় অভিযুক্ত

ঢাকা অফিস ॥ যুবলীগ নেতা পরিচয়ে ঠিকাদারি ব্যবসা চালিয়ে আসা জি কে শামীম ও তার সাত দেহরক্ষীর বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনের মামলায় অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দিয়েছে আদালত। ঢাকার ৪ নম্বর বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. রবিউল আলম গতকাল মঙ্গলবার এ মামলার আট আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে সাক্ষ্যগ্রহণ শুরুর জন্য ২৬ ফেব্র“য়ারি দিন ঠিক করে দেন। জি কে শামীম এবং তার সাত দেহরক্ষী দেলোয়ার হোসেন, মুরাদ হোসেন, জাহিদুল ইসলাম, সহিদুল ইসলাম, কামাল হোসেন, সামসাদ হোসেন ও আমিনুল ইসলাম এ সময় আদালতে কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন। বিচারক তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ পড়ে শুনিয়ে জানতে চান- তারা দোষী না নির্দোষ। উত্তরে তারা সবাই নিজেদের নির্দোষ দাবি করে সুবিচার প্রার্থনা করেন। অভিযোগ গঠনের শুনানিতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন সালাউদ্দিন হাওলাদার। অন্যদিকে জিকে শামিমের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী শওকত ওসমান। শামীম রাজধানীর সবুজবাগ, বাসাবো, মতিঝিলসহ বিভিন্ন এলাকায় প্রভাবশালী ঠিকাদার হিসেবে পরিচিত। গণপূর্ত ভবনে ঠিকাদারি কাজে তার দাপটের খবর বিভিন্ন সময়ে সংবাদ মাধ্যমের শিরোনাম হয়েছে। র‌্যাব সদর দপ্তর, সচিবালয় ও কয়েকটি হাসপাতালের নতুন ভবনসহ অন্তত ২২টি নির্মাণ প্রকল্পের ঠিকাদারি কাজ রয়েছে শামীমের প্রতিষ্ঠান জিকে বিল্ডার্সের হাতে রয়েছে। এসব প্রকল্পে বরাদ্দের পরিমাণ প্রায় ৬ হাজার কোটি টাকা। ক্যাসিনোবিরোধী অভিযোগের মধ্যে গতবছর ২০ সেপ্টেম্বর গুলশানের নিকেতনে শামীমের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানেও অভিযান চালায় র‌্যাব। ওই ভবন থেকে নগদ প্রায় দুই কোটি টাকা, পৌনে ২০০ কোটি টাকার এফডিআর, আগ্নেয়াস্ত্র ও মদ পাওয়ার কথা জানানো হয় অভিযান শেষে। তখনই শামীম ও তার সাত দেহরক্ষীকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরদিন তাদের বিরুদ্ধে গুলশান থানায় তিনটি মামলা করে র্যাব। এর মধ্যে অস্ত্র ও মুদ্রা পাচার মামলায় সবাইকে আসামি করা হলেও মাদক আইনের মামলায় শুধু শামীমকে আসামি দেখানো হয়। প্রত্যেক মামলাতেই তাদের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। মামলা হওয়ার এক মাসের মাথায় গতবছর ২৬ অক্টোবর অস্ত্র আইনের মামলায় শামীম ও তার দেহরক্ষীদের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা র্যাব-১ এর উপ-পরিদর্শক শেখর চন্দ্র মল্লিক। সেখানে বলা হয়, জি কে শামীম একজন চিহ্নিত ‘চাঁদাবাজ, টেন্ডারবাজ, অবৈধ মাদক এবং জুয়ার ব্যবসায়ী’ হিসেবে পরিচিত। তার অস্ত্রের লাইসেন্স থাকলেও তিনি শর্ত ভঙ্গ করে তা অবৈধ কাজে ব্যবহার করে আসছিলেন। তার দেহরক্ষীদের উচ্চ বেতনভোগী ‘দুষ্কর্মের সহযোগী’ হিসেবে বর্ণনা করে অভিযোগপত্রে বলা হয়, “তারা অস্ত্রের লাইসেন্সের শর্ত ভঙ্গ করে প্রকাশ্যে অস্ত্রশস্ত্র বহন ও প্রদর্শন করেছেন। এর মাধ্যমে জনমনে ভীতি সৃষ্টি করে বিভিন্ন বড় বড় টেন্ডারবাজি, মাদক ব্যবসাসহ স্থানীয় বাস টার্মিনাল ও গরুর হাট-বাজারে চাঁদাবাজি করে আসছিলেন।”

কালুখালীতে শীতার্থদের মাঝে শেখ সহিদুর রহমানের কম্বল বিতরণ

ফজলুল হক ॥ রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার মৃগী ইউপির বথুনদিয়ায় শেখ আজাহার আলী ডেইরি এন্ড এগ্রো এর তত্ত্বাবধায়নে বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও ব্যবসায়ী শেখ সহিদুর রহমানের সার্বিক সহযোগিতায় দুস্থ হতদরিদ্র ও শীতার্থদের মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে এবং রাজবাড়ী-২ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ জিল্লুল হাকিমের নির্দেশনায় গতকাল মঙ্গলবার দুপুর ২টার দিকে মৃগী ইউপির বথুনদিয়া ঈদগাহ্ ময়দান প্রাঙ্গনে উপস্থিত শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণের উদ্বোধন করেন মোছাঃ সুফিয়া বেগম। এসময় অতিথি ছিলেন সমাজ সেবক ও ব্যবসায়ী শেখ সহিদুর রহমান। অন্যান্যের মধ্যে সাবেক ইউপি সদস্য ময়েনউদ্দিন বিশ্বাস, ইউপি সদস্য মোঃ আব্দুস সোবাহান, মোঃ আকছেদ আরী মাস্টার, আতিয়ার রহমান মাস্টার, মোঃ হান্নান খান, নাসির উদ্দিন,  মোঃ বাবু, মোঃ জসিম. উত্তম কুমার ও শ্যামল সহ স্থানীয় গণ্যমান ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

গাংনীতে ভ্রাম্যমাণ প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত

গাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের গাংনীতে একদিনের ভ্রাম্যমাণ প্রশিক্ষণ (রাজস্ব কোর্স) অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে গাংনী উপজেলার রাইপুর ইউনিয়নের নাগদা খাল পানি ব্যবস্থাপনা সমিতির কার্যালয়ে এ প্রশিক্ষণের আয়োজন করা হয়। এলাকার সম্ভাবনাময় সমবায় সমিতির সদস্য-সদস্যারা প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ করেন। উপজেলা সমবায় কার্যালয় প্রশিক্ষণের আয়োজন করে। এতে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা সমবায় অফিসার মাহবুবুল হক। প্রধান অতিথি হিসাবে প্রশিক্ষণ উদ্বোধন করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার দিলারা রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা মৎস্য অফিসার রবিউল ইসলাম, রাইপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম সাকলায়েন ছেপু। এসময় উপস্থিত ছিলেন নাগদা খাল পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতির সভাপতি আব্দাল হক,সাধারণ সম্পাদক জুম্মা আলমসহ সমিতির সদস্য-সদস্যাবৃন্দ। প্রশিক্ষণ প্রদা করেন উপজেলা সমবায় অফিসের প্রশিক্ষক নুরুজ্জামান ও রোকনুজ্জামান।

দৌলতপুরে ফেনসিডিল ও গাঁজাসহ আটক-২ 

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে পুলিশের পৃথক অভিযানে ফেনসিডিল ও গাঁজাসহ ২জন মাদক ব্যবসায়ী আটক হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সকাল সোয়া ১০টার দিকে উপজেলার আদাবাড়িয়া ইউনিয়নের তেকালা-ব্যাঙগাড়ী মোড়ে অভিযান চালিয়ে মাদক ব্যবসায়ী নদী বেগম (২৫) কে ১ কেজি গাঁজাসহ আটক করে দৌলতপুর থানা পুলিশ। আটক ওই নারী মাদক ব্যবসায়ী রাজবাড়ী জেলার রায়নগর গ্রামের মৃত জিল্লুর রহমানের স্ত্রী। অপরদিকে সোমবার সন্ধ্যায় উপজেলার ফিলিপনগর ইউপি’র সিরাজনগর টলটলিপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৩০ বোতল ফেনসিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী গফুর আলী মন্ডল (৫২) কে আটক করেছে পুলিশ। সে একই এলাকার মৃত ইব্রাহিম মন্ডলের ছেলে।  দৌলতপুর থানার ওসি এস এম আরিফুর রহমানর নির্দেশে দৌলতপুর থানা পুলিশ পৃথক অভিযান চালিয়ে গাঁজা ও ফেনসিডিলসহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করে। পরে তাদের বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা দিয়ে গতকাল মঙ্গলবার আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

বিএনপি ইভিএম দেখতে না এলে কী করার আছে – ইসি সচিব

ঢাকা অপিস ॥ ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) কোনোভাবে জাল ও কারচুপির সুযোগ নেই দাবি করে নির্বাচন কমিশনের সচিব মো. আলমগীর বলেছেন, ইভিএম নিয়ে সবাই সন্তোষ প্রকাশ করেছে। ইভিএম নিয়ে বিএনপির বিরোধিতার প্রেক্ষাপটে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে নির্বাচন ভবনে তিনি বলেন, “এটা (ইভিএম) ওপেন, যে কেউ এসে দেখতে পারে। “নির্বাচনী কেন্দ্রগুলোতে ইভিএম দেওয়া রয়েছে, দেখতে পারেন। ইভিএম প্রদর্শনী ও মক ভোটিং রয়েছে ১ ফেব্রুয়ারির আগেও। এতে কোনো জাল-জালিয়াতির সুযোগ নেই।” যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্যসহ বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূতরা ইভিএম দেখে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন বলেও জানান ইসি সচিব। কিন্তু যাদের নিয়ে ভোট করছেন, সেই বিএনপি তো সন্তুষ্ট না- সাংবদিকদের এমন কথার জবাবে মো. আলমগীর বলেন, “তাদেরকে বলেছি আপনারা দেখেন; তারা তো আসে না। আমরা তো ওপেন রেখেছি, না এলে কী করতে পারি? তারা যদি না আসেন, আমরা তাদের কিভাবে আনব?” ঢালাওভাবে আচরণবিধি লঙ্ঘনের বিষয়ে জানতে চাইলে ইসি সচিব জানান, সুনর্দিষ্টভাবে কিছু অভিযোগ পাওয়া গেছে। তাতে বড় ধরনের আচরণবিধি লঙ্ঘিত হয়েছে এমন নয়। দুটি ঘটনা উত্তর ও দক্ষিণে রয়েছে। “দুটো ঘটনাই অতর্কিতে হয়েছে। ২৪ ঘণ্টা আগে পুলিশকে না জানিয়ে পথসভা হয়েছে; এটা নিয়ে দুই দলের সঙ্গে কমিশনের কথা হয়েছে। ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনা না করার জন্য বলা হয়েছে। রিটার্নিং অফিসারকেও নির্দশনা দেওয়া হয়েছে। ছোটোখাটো জিনিস থেকে এসব হয়েছে।” মাইকিং, লেমিনেটেড পোস্টার নিয়ে আদালতের নির্দেশনা অনুসরণ করা হবে বলেও জানান তিনি। “এ ধরনের উল্লাসপূর্ণ ও পার্টিসিপেটিং ইলেকশন করতে গেলে এটা কন্ট্রোল করা খুবই কঠিন। তবে কমিশন ভবিষ্যতে এটা নিয়ে চিন্তা করবে। আচরণবিধি সময়োপযোগী করারও প্রয়োজন রয়েছে। যাতে মানুষের কষ্ট না হয়, প্রার্থীরাও যেন প্রচার করতে পারে।” সচিব জানান, আচরণবিধি লঙ্ঘনের বিষয়ে অনেককে সতর্ক করা হয়েছে। ইভিএমে ভোট দিতে যেহেতু ভোটারের আঙুলের ছাপ লাগবে, সেহেতু এতে জালিয়াতির কোনো সুযোগ নেই বলে জানান ইসি সচিব। “যদি কারো আঙুল না থাকে তাহলে জাতীয় পরিচয়পত্র অনুযায়ী ওই ব্যক্তি ভোটগ্রহণ কর্মকর্তারা মাধ্যমে ভোট দিতে পারবেন। এ ধরনের ঘটনায় মাত্র এক শতাংশ ভোটারদের শনাক্ত করতে পারবেন ভোটগ্রহণ কর্মকর্তা। “এক শতাংশের বেশির প্রয়োজন হলে রিটার্নিং কর্মকর্তার অনুমতি নিতে হবে। আরো বেশি লাগলে কমিশনের অনুমতি লাগবে। পরবর্তীতে চাইলে এই ইভিএমের তথ্য জানা যাবে।” আইডি কার্ড মিলেছে, আঙুলের ছাপ মিলছে না বা আঙুল নেই- এমন ভোটারদের ক্ষেত্রে এ সুযোগ ব্যবহার করা যাবে। মো. আলমগীর বলেন, “ভোটের তথ্য আমাদের কাছে ডিজিটালি সংরক্ষণ করা থাকে। মামলা করারও সুযোগ রয়েছে। কেউ ইচ্ছা করলে এ নিয়ে আদালতেও যেতে পারেন। কেউ চ্যালেঞ্জ করলে তথ্য দেখানো যাবে।” দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে কিছু কিছু কেন্দ্র সিসি ক্যামেরার আওতায় থাকবে বলে জানান সচিব। তিনি বলেন, “ভোটকেন্দ্র হিসেবে নির্ধারিত যেসব প্রতিষ্ঠানে আগে থেকেই সিসি ক্যামেরা আছে, সেগুলোকে সচল রাখতে বলা হয়েছে, যাতে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটলে দোষীদের চিহ্নিত করা যায়। তবে কেন্দ্রগুলোর বুথে কোনোভাবেই যাতে কোনো সিসি ক্যামেরা না থাকে সে বিষয়ে সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে।”

ঢাবি ছাত্রীর ধর্ষকের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন ২৩ ফেব্রয়ারি

ঢাকা অফিস ॥ রাজধানীর কুর্মিটোলায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় করা মামলায় গ্রেফতার মজনুর বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আগামী ২৩ ফেব্র“য়ারি দিন ধার্য করেছেন আদালত। গতকাল মঙ্গলবার ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আবু সাঈদ এ দিন ধার্য করেন। সকালে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য দিন নির্ধারিত ছিল। কিন্তু তদন্ত প্রতিবেদন না আসায় বিচারক নতুন দিন নির্ধারণ করেন। ৬ জানুয়ারি সকালে অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিকে আসামি করে ঢাবি ছাত্রীর বাবা ক্যান্টনমেন্ট থানায় মামলা করেন। এর পর এ মামলায় মজনুকে শেওড়া থেকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের পর আদালতে হাজির করা হলে, তাকে রিমান্ডে পাঠানো হয়। এর পর আদালতে ধর্ষণের ঘটনা স্বীকার করে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয় মজনু।আদালত সূত্রে জানা গেছে, মামলার অভিযোগপত্র দাখিল করার সময়ে ডিএনএ প্রতিবেদন দাখিল করা হবে।উল্লেখ্য, গেল ৫ জানুয়ারি বিকাল সোয়া ৫টার পর বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে করে বান্ধবীর বাসায় যাচ্ছিলেন ওই ছাত্রী। কুর্মিটোলা বাস স্টেশনে নামার পর তাকে অজ্ঞাত এক ব্যক্তি অনুসরণ করে। মাঝপথে শিক্ষার্থীকে ধরে নির্জন স্থানে নিয়ে ধর্ষণ করে সে।ওই দিন সন্ধ্যা ৭টা থেকে ৮টার মধ্যে ঘটনাটি ঘটে। রাত ১০টার দিকে জ্ঞান ফেরে ওই ছাত্রীর। পরে রিকশায় করে বান্ধবীর বাসায় যান তিনি। সেখান থেকে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (ঢামেক) নিয়ে যান তার বান্ধবীসহ অন্য সহপাঠীরা।ঘটনার পরের দিন সকালে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিকে আসামি করে ক্যান্টনমেন্ট থানায় মামলা করেন ওই ছাত্রীর বাবা। ৮ জানুয়ারি মজনুকে গ্রেফতার করে র্যা ব। সে এখন কারাগারে রয়েছে।

নগরপিতা নয়, নগরের সেবক হতে চাই – আতিক

ঢাকা অফিস ॥ নগরপিতা নয়, সেবক হিসেবে কাজ করে অপরিকল্পিত ঢাকাকে একটি ‘পরিকল্পিত শহরে’ রূপান্তরের চ্যালেঞ্জ নিতেই মেয়র হওয়ার লড়াইয়ে নামার কথা বলেছেন আতিকুল ইসলাম। গত বছর ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের উপ-নির্বাচনে জয়ী হয়ে নয় মাস মেয়রের দায়িত্ব পালন করেন গার্মেন্ট ব্যবসায়ী আতিক। তিনি বলেন, “আপনারা দেখেছেন, আমি দায়িত্ব নেওয়ার পর নয় মাসে একটি দিনও নষ্ট করি নাই। নগরপিতা নয়, নগরের সেবক হিসেবে সবার সঙ্গে কাজ করার চেষ্টা করেছি। সেটি অত্যন্ত কঠিন কাজ ছিল। সেটা একটা অনুশীলন ছিল। নির্বাচিত হলে সিটি করপোরেশনের কাজগুলো এগিয়ে নিতে সে অভিজ্ঞতা কাজে দেবে।” গতকাল মঙ্গলবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে সাংবাদিক ফোরাম আয়োজিত মতবিনিময় সভায় নিজের এই অবস্থান ব্যক্ত করে নগরবাসীর কাছে চ্যালেঞ্জ বাস্তবায়নের সুযোগ দেওয়ার অনুরোধ জানান তিনি। নৌকার প্রার্থী আতিক বলেন, “বিশ্বের বিভিন্ন দেশে দেখেছি, আগে শহর পরিকল্পনা করে নগর গড়ে ওঠে। কিন্তু আমাদের দেশে শহর সেভাবে গড়ে ওঠে না। এটাই বড় চ্যালেঞ্জ। কাউকে না কাউকে সেই চ্যালেঞ্জটা নিতে হবে। সেটা নেওয়ার জন্যই আজ আপনাদের সামনে নৌকার প্রার্থী হিসেবে এসেছি। এজন্য আমাদের সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে।” মতবিনিময় সভায় ইকবাল সোবহান চৌধুরীসহ সাংবাদিক সংগঠনের নেতারা উপস্থিত ছিলেন। পরে মিরপুরের পপ্লবী এলাকায় গণসংযোগ করেন আতিকুল ইসলাম। সেখানে এক পথসভায় বক্তব্যে এবার মেয়র হতে পারলে এলাকা থেকে মাদক নির্মূলে সর্বোচ্চ পদক্ষেপ নেওয়ার প্রতিশ্র“তি দেন তিনি। আতিক বলেন, “এলাকার রাস্তাঘাটের উন্নয়ন হয়েছে। এখন মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করতে হবে। মাদককে এলাকা থেকে বিতাড়িত করতেই হবে। আমাদের এত উন্নয়ন, এত অর্জন বিফলে যাবে যদি আমরা যুব সমাজকে মাদক থেকে বিরত রাখতে না পারি।” নির্বাচনী ইশতেহারে দেওয়া অনলাইনের মাধ্যমে ট্যাক্স আদায়ের প্রতিশ্রুতি নিয়ে একটি পক্ষ অপপ্রচার চালাচ্ছে বলে অভিযোগ করেন আতিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, তারা বলছে এতে নাকি ট্যাক্স বেড়ে যাবে। “আমরা বলতে চাই, নির্বাচিত হলে কোনো ট্যাক্স বাড়ানো হবে না। কিন্তু সরাসরি ট্যাক্স না নিয়ে অনলাইনে নেব, এতে দুর্নীতির সুযোগ থাকবে না। এতে আমরা আরও বেশি ট্যাক্স আদায় করতে পারব। তাই এ ধরনের অপপ্রচার থেকে বিরত থাকুন।” নির্বাচনী প্রচারের যে দুই দিন আছে, এই সময়ে সবার ঘরে ঘরে গিয়ে নৌকার পক্ষে ভোট চাইতে নেতাকর্মীদের প্রতি অনুরোধ জানান আতিকুল ইসলাম।

মিন্নি-নয়ন বন্ডের বিয়ের গোপন তথ্য আদালতে ফাঁস করলেন কাজি

ঢাকা অফিস ॥ বহুল আলোচিত বরগুনার রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় গতকাল মঙ্গলবার জেলা ও দায়রা জজ আদালতে সাক্ষ্য দিয়েছেন আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি ও নয়ন বন্ডের বিয়ের কাজি মো. আনিচুর রহমান। একই দিন আদালতে আরও সাক্ষ্য দেন মামলার অপর দুই সাক্ষী মো. কামাল হোসেন এবং মিনারা বেগম। এ নিয়ে মামলার প্রাপ্তবয়স্ক আসামিদের বিরুদ্ধে ২৯ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ সম্পন্ন করেছেন বরগুনা জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. আছাদুজ্জামান। এ বিষয়ে রিফাত হত্যা মামলার বাদীপক্ষের আইনজীবী মজিবুল হক কিসলু বলেন, মিন্নি ও নয়ন বন্ডের বিয়ের কাজি মো. আনিচুর রহমান মঙ্গলবার আদালতে সাক্ষ্য দিয়েছেন। কাজি আনিচুর রহমান বলেছেন, ‘২০১৮ সালের ১০ অক্টোবর মিন্নি ও নয়ন বন্ডের বিয়ে আমি সম্পন্ন করি। ওই দিন নয়ন বন্ডের কয়েকজন বন্ধু আমাকে নয়ন বন্ডের বাসায় নিয়ে যায়। তখন বাসায় নয়ন বন্ডের মা এবং মিন্নিসহ অনেক লোক উপস্থিত ছিলেন। নয়ন বন্ডের বাসায় বসেই পাঁচ লাখ টাকা দেনমোহরে মিন্নি ও নয়ন বন্ডের বিয়ে দেই আমি।’ আদালতে আনিচুর রহমান আরও বলেন, ‘বিয়ে সম্পন্ন করার পর আমি জানতে পারি মিন্নি বরগুনা পৌরসভার আবু সালেহ কমিশনারের ভাইয়ের মেয়ে। তখন আমি সালেহ কমিশনারকে আমার মোবাইল থেকে কল দিয়ে মিন্নি ও নয়ন বন্ডের বিয়ের খবর জানাই। তিনি আমাকে বিয়ের কথা গোপন রাখতে বলেন। এরপর মিন্নির বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোরও আমাকে ফোন করে বিবাহের বিষয়টি গোপন রাখতে অনুরোধ করেন।’ কাজি আনিচুর রহমান আদালতে আরও বলেন, ‘এরপর আমি জানতে পারি কুমারী পরিচয়ে রিফাত শরীফের সঙ্গে মিন্নির বিয়ে হয়েছে। রিফাত শরীফের সঙ্গে বিয়ের পরদিন মিন্নির বাবা আমাকে ফোনে বলেন, মিন্নি ও নয়ন বন্ড আগামীকাল আপনার কাছে যাবে। আপনি তাদের ডিভোর্স করিয়ে দিয়েন। কিন্তু মিন্নির বাবার কথা অনুযায়ী ওই দিন তারা আমার কাছে আসেনি। এর পরদিন ফোন করে আবারও আমাকে একই কথা বলেন মিন্নির বাবা কিশোর। ওই দিনও ডিভোর্সের জন্য মিন্নি ও নয়ন বন্ড আমার কাছে না আসায় মিন্নির বাবাকে ফোন দেই। তখন মিন্নির বাবা আমাকে বলেন, ওরা দুজনে কমিটমেন্ট করেছে বিয়ের কথা কাউকে জানাবে না। গোপন রাখবে। আপাতত থাক।’ আইনজীবী মজিবুল হক কিসলু বলেন, সাক্ষ্য দেয়ার সময় মিন্নি ও নয়ন বন্ডের বিয়ের কাজি মো. আনিচুর রহমান আদালতে বিয়ের রেজিস্টার বালাম উপস্থাপন করেন। এটি গ্রহণ করেন আদালত। এতে বুঝা যায় মিথ্যা বলছেন মিন্নি, নয়নের সঙ্গেও বিয়ে হয়েছিল তার। গত ২৬ জুন বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে রিফাত হত্যাকান্ড ঘটে। গত ১ সেপ্টেম্বর ২৪ জনকে অভিযুক্ত করে প্রাপ্ত ও অপ্রাপ্তবয়স্ক; দুভাগে বিভক্ত করে আদালতে প্রতিবেদন দেয় পুলিশ। এর মধ্যে প্রাপ্তবয়স্ক ১০ জন এবং অপ্রাপ্তবয়স্ক ১৪ জন। মামলার চার্জশিটভুক্ত প্রাপ্তবয়স্ক আসামি মো. মুসা এখনও পলাতক। পাশাপাশি রিফাতের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি এবং মামলার অপ্রাপ্তবয়স্ক ছয় আসামি জামিনে। বাকিরা কারাগারে। গত ১ জানুয়ারি রিফাত হত্যা মামলার প্রাপ্তবয়স্ক ১০ আসামির বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেন বরগুনা জেলা ও দায়রা জজ আদালত। এরপর ৮ জানুয়ারি অপ্রাপ্তবয়স্ক ১৪ আসামির বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেন বরগুনার শিশু আদালত।

রিফাত হত্যা মামলার প্রাপ্তবয়স্ক আসামিরা হলেন রাকিবুল হাসান রিফাত ফরাজি, আল কাইউম ওরফে রাব্বি আকন, মোহাইমিনুল ইসলাম সিফাত, রেজওয়ান আলী খান হৃদয় ওরফে টিকটক হৃদয়, মো. হাসান, মো. মুসা, আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি, রাফিউল ইসলাম রাব্বি, মো. সাগর এবং কামরুল ইসলাম সাইমুন।

দেশে করোনাভাইরাসের রোগী নেই – স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ঢাকা অফিস ॥ চীনসহ বেশ কয়েকটি দেশে মহামারি আকার ধারণ করা করোনা ভাইরাস বাংলাদেশে এখনও আসেনি। বাংলাদেশে এখনও করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত কোনো রোগীর সন্ধান পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক। গতকাল মঙ্গলবার সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে যেখানে চীনারা থাকেন, সেখানে বিশেষ সতর্কতা অবলম্বন করা হচ্ছে। চীন থেকে আসা নাগরিকদের দুই স্তরে মনিটরের ব্যবস্থা করা হয়েছে। আতঙ্কিত হওয়ার কোনো কারণ নেই। তবে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী আপাতত চীনে অপ্রয়োজনীয় কাজে না যাওয়ার জন্য বাংলাদেশিদের অনুরোধ করেন। বলেন, এখনও এ ভাইরাসের ভ্যাকসিন আবিষ্কার হয়নি। তবে জ্বর ও সর্দি কাশি হলে হাসপাতালে যাওয়ার অনুরোধ করেন তিনি। তিনি সারা দেশের জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারকে কোনো রোগী পাওয়া গেলে মন্ত্রণালয়কে জানাতে বলেন। জাহিদ মালেক বলেন, চীনের উহানে ৩০০ ছাত্রছাত্রী আছে, তারাও আক্রান্ত হয়নি, নিরাপদ আছে। সংবাদ সম্মেলনের আগে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিদের নিয়ে আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠক করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আপাতত চীনে অপ্রয়োজনীয় কাজে না যাওয়ার জন্য বাংলাদেশিদের অনুরোধ করছি আমি। তিনি বলেন, এখনও এ ভাইরাসের ভ্যাকসিন আবিষ্কার হয়নি। তবে জ্বর ও সর্দি কাশি হলে হাসপাতালে যাওয়ার অনুরোধ করেন তিনি। জাহিদ মালেক বলেন, চীনের উহানে বাংলাদেশের ৩০০ ছাত্রছাত্রী আছেন, তারাও আক্রান্ত হয়নি, নিরাপদ আছে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, এই ভাইরাস খুব শিগগির ছড়িয়ে যায়। এটি যাতে বাংলাদেশে আসতে না পারে, এ জন্য দেশের সব বন্দরে প্রস্তুতি নেয়ার জন্য বার্তা পাঠানো হয়েছে। সেখানে স্ক্যানার যন্ত্র বসানো হয়েছে। প্রস্তুতির অংশ হিসেবে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল ও মহাখালী সংক্রামক ব্যাধি হাসপাতালে আলাদা ওয়ার্ড করা হয়েছে। এছাড়া সব জেলা হাসপাতালগুলোতে আলাদা ওয়ার্ড করার জন্য সিভিল সার্জনকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। করোনাভাইরাসের ব্যাপারে দেশের সবাইকে সতর্ক থাকারও পরামর্শ দেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। ঢাকায় সর্দি কাশি নিয়ে ভর্তি এক রোগী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বলে যে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে, সে বিষয়ে প্রশ্নের জবাব দেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক আবুল কালাম আজাদ। তিনি বলেন, একজন রোগী ভর্তি হয়েছিলেন। তিনি এখন সুস্থ, বাড়ি ফিরে যেতে চাইছেন। তাঁর স্বাস্থ্যের বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়েছে। সেগুলোর রিপোর্ট এখনো হাতে আসেনি।

ভেড়ামারায় ৩ দিনব্যাপী কৃষি প্রযুক্তি মেলার উদ্বোধন

ভেড়ামারা অফিস ॥ বৃহত্তর কুষ্টিয়া ও যশোর অঞ্চল কৃষি উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ভেড়ামারা উপজেলা পরিষদ চত্বরে তিনদিন ব্যাপী কৃষি প্রযুক্তি মেলা শুরু হয়েছে। স্বতঃস্ফূর্তভাবে মেলা করার লক্ষ্যে গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১০ টার সময় শহরে বর্ণাঢ্য এক র‌্যালী ও পরে লাল ফিতা কেটে মেলার উদ্বোধন করা হয়। র‌্যালীটি ভেড়ামারা উপজেলার বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে উপজেলা চত্বরে এসে শেষ হয়। র‌্যালী শেষে উপজেলা পরিষদ চত্বরে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন ভেড়ামারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার  সোহেল মারুফ। প্রধান অতিথি ছিলেন ভেড়ামারা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আক্তারুজ্জামান মিঠু। বিশেষ অতিথি ছিলেন কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত উপ পরিচালক (পিপি), ডিএই এ.কে.এম হাসিবুল হাসান, বৃহত্তর কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত উপ পরিচালক (সম্প্রসারণ ও সমন্বয়) মোঃ সেলিম হোসেন, ভেড়ামারা  পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব শামিমুল ইসলাম ছানা, কেন্দ্রীয় জাসদের সাংগঠনিক সম্পাদক ও কুষ্টিয়া জেলা জাসদের সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব আব্দুল আলীম স্বপন, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস  চেয়ারম্যান মোছাঃ ইন্দোনেশিয়া খাতুন, উপজেলা জাসদের সভাপতি ইমদাদুল ইসলাম আতা। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ভেড়ামারা উপজেলা কৃষি অফিসার মোঃ শায়খুল ইসলাম।

ভাটা মালিকদের প্রশাসনের সতর্কতা

ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান

দৌলতপুরে ৪টি অবৈধ ইটভাটায় ১ লাখ ৬০ হাজার টাকা জরিমানা

শরীফুল ইসলাম ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে ৪টি ইটভাটায় ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালিয়ে ১ লাখ ৬০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন। গতকাল মঙ্গলবার দুপুর ১টা বিকেল ৩টা পর্যন্ত চলা ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে ইটভাটা মালিকদের এ অর্থদন্ড করা হয়। ভ্রাম্যমান আদালত সূত্র জানায়, দৌলতপুরের বিভিন্ন এলাকায় গড়ে ওঠা ইটভাটায় জ¦ালানী হিসেবে কাঠ ব্যবহার করা হচ্ছে এমন অভিযোগের ভিত্তিতে উপজেলার ডাংমড়কা এলাকার ৪টি ইটভাটায় অভিযান চালানো হয়। দৌলতপুর সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মো. আজগর আলী ও কুষ্টিয়া পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিদর্শক কমল কুমার বর্মনের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়। অভিযানে জ¦ালানী হিসেবে কাঠ ব্যবহারের দায়ে ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রন)/ সংশোধন ২০১৯ এর ৬/১৬ আইনের ধারায় এমআরএন ব্রীক্সের মালিক ময়েন উদ্দিনের ৫০ হাজার টাকা, এইচএলবি ব্রীকস্রে মালিক মামুন হোসেনের ২০হাজার টাকা, এনবিএল ব্রীকস্রে মালিক মহায়মিনুল পলাশের ৪০ হাজার টাকা এবং বিএসবি ব্রীকস্রে মালিক আবুল কালাম আজাদের ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ড করা হয়। এসময় ইটভাটা মালিকদের ইট পোড়ানোর বিষয়ে জ¦ালানী হিসেবে কাঠ ব্যবহারে সতর্ক করা হয় এবং আইন মেনে চলার নির্দেশনা দেওয়া হয় বলে ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক দৌলতপুর সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মো. আজগর আলী জানিয়েছেন। একইসাথে এ অভিযান অন্যান্য ইটভাটাগুলোতেও চালানো হবে তিনি উলে¬খ করেছেন। উলে¬খ্য দৌলতপুরের স্বরূপপুর, মানিকদিয়াড়, সাদীপুর, কল্যানপুর, চকদৌলতপুর, দৌলতপুর হাসপাতাল রোড সংলগ্ন মাঠ, নারানপুর, বড়গাংদিয়া, খলিশাকুন্ডি, বোয়ালিয়া, আদাবাড়িয়া, থানারপাশে চন্দনাপাড়া-সোনাইকান্দি, রিফায়েতপুর, গলাকাটিসহ বিভিন্ন এলাকায় ২৬টি অনুমোদনহীন অবৈধ ইটভাটা চালানো হচ্ছে। আর এসব ইটভাটায় অবাঁধে পোড়ানো হচ্ছে জ¦ালানি কাঠ। ভূক্তভোগী এলাকাবাসীর দাবি এসব অবৈধ ইটভাটাতে অভিযান অব্যাহত রাখার।

কুষ্টিয়ায় এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস চক্রের এক তরুণ গ্রেপ্তার

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়ায় র‌্যাপিড অ্যকশন ব্যাটলিয়ান (রাব-১২) সদস্যরা গতকাল মঙ্গলবার সকাল নয়টায় অভিযান চালিয়ে এক তরুণকে গ্রেপ্তার করেছে। র‌্যাব বলছে, ওই তরুণ আসন্ন এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্নফাঁস চক্রের সদস্য। তারিকুল ইসলাম নামে ওই তরুণ জেলার মিরপুর উপজেলার অঞ্জনগাছী চাঁদপাড়া গ্রামের আবদুল আজিজের ছেলে। রাতে গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে র‌্যাব জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব আবদুল আজিজের বাড়িতে অভিযান চালায়। এসময় বাড়ির শয়ন কক্ষ থেকে একটি মোবাইলফোনসহ তারিকুলকে আটক করে। উদ্ধারকৃত মোবাইলফোনে তার ফেসবুক আইডিতে দেখতে পায় আসন্ন এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার প্রশ্নপত্র পাওয়ার প্রবণতার মাধ্যমে বিভিন্ন ছাত্রছাত্রীর কাছ থেকে বিকাশে টাকা নিচ্ছে। বর্তমানে প্রশ্নপত্র ফাঁস সংক্রান্তে অপরাধটি ছাত্রছাত্রী ও অভিভাবকদের মধ্যে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে। পরবর্তীতে উদ্ধারকৃত আলামতসহ আসামীকে মিরপুর থানায় ২০১৮ সালের ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের  করে র‌্যাব।