শৈলকুপা সরকারি ডিগ্রি কলেজ শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ মিছিল ও সড়ক অবরোধ

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ॥ ঝিনাইদহের শৈলকুপায় সরকারি ডিগ্রি কলেজে ক্লাসে শিক্ষক অনুপস্থিত, অনিয়মিত ক্লাসগ্রহণ, বিজ্ঞান বিষয়ের প্রাক্টিক্যাল না নেওয়া ও পর্যাপ্ত শিক্ষকের দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ ও সড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীরা। এ সময় ক্ষোভে ফুঁসে ওঠা সাধারণ শিক্ষার্থীরা কলেজ ক্যাম্পাসের ফটকে বসে উপজেলা শহরের প্রধান সড়ক অবরোধ করে ন্যায়সংগত দাবি বাস্তবায়নের জন্য বিক্ষোভ দেখায়। ফলে দীর্ঘসময় অফিসপাড়া জুড়ে বিশাল যানজটের সৃষ্টি হয়। শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, সরকারি ডিগ্রি কলেজ অধ্যক্ষসহ বেশিরভাগ শিক্ষক নিয়মিত কলেজে আসেনা, রুটিন মোতাবেক ক্লাস হয়না। এছাড়া বিজ্ঞান বিভাগের কোন প্রাক্টিক্যাল ক্লাস এবং শীতকালীন খেলাধুলাসহ আনুসাঙ্গিক সমগোত্রীয় বিষয়ে কোন লেখাপড়ার বালাই নেই। শিক্ষার্থীদের দাবি তারা বেশিরভাগ সরকারি সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। বিতর্ক, বার্ষিক ক্রীড়া না থাকলেও আছে ক্লাস ফাঁকির পাঁয়তাড়া। অধ্যক্ষের গাফিলতির কারনে পূরনো শিক্ষাব্যবস্থার তেমন পরিবর্তন নেই কলেজটিতে। আধুনিক শিক্ষা কার্যক্রমসহ অনার্স কলেজ খোলার দাবিও রেখেছে শিক্ষার্থীরা। বস্তুুত বিভিন্ন অনিয়ম দুর্নীতিতে জেঁকে বসা কলেজের দিকে খেয়াল নেই উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের। যে কারনে দিনের পর দিন সরকারি ডিগ্রি কলেজের শিক্ষার গুনগত মান কমতে শুরু করেছে কলেজটিতে। সকাল ১০টায় কলেজ গেট থেকে শুরু হওয়া বিক্ষোভ মিছিলটি সময় বাড়ার সাথে সাথে জনাকীর্ণ সাধারণ শিক্ষার্থীদের বিশাল মিছিলে পরিনত হয়। তাদের দাবি আধুনিক শিক্ষা ব্যবস্থার সকল সরকারি সুযোগ সুবিধা বঞ্চিত কলেজ ক্যাম্পাসের সব ধরনের অনিয়ম দূর করে নিয়মিত পাঠদান শুরু করা হোক। সকাল সাড়ে ১১টায় উপজেলা চেয়ারম্যান শিকদার মোশারফ হোসেন, অধ্যক্ষ প্রফেসর আব্দুস  সোবহান, ভাইস চেয়ারম্যান জাহিদুন্নবী কালু, শৈলকুপা থানার তদন্ত কর্মকর্তা মহসিন হোসেনসহ আওয়ামী অঙ্গ সংগঠনের সাবেক ও বর্তমান নেতৃবৃন্দ আগামী ১৫দিনের মধ্যে তাদের দাবি পূরনের আশ্বাস দিলে অবরোধ তুলে নেয় শিক্ষার্থীরা।

‘কুমিরকে’ ফাঁসিতে ঝোলাল ইরান !

ঢাকা অফিস  ॥ উপসাগরের কুমির নামে পরিচিত এক মাদক সম্রাটের ফাঁসি কার্যকর করেছে ইরান। শনিবার ইরানের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম এই তথ্য নিশ্চিত করেছে। তবে ফাঁসি কার্যকর হওয়া ৩৬ বছর বয়সী ওই ব্যক্তির নাম প্রকাশ করেনি ইরান। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, প্রায় ১০০ টন মাদক চালানের সময় তাকে উপসাগর থেকে আটক করা হয়েছিল। প্রায় ১ বছরের প্রচেষ্টার পর গত বছর সহযোগী সহ উপসাগরের কুমির নামে পরিচিত মাদক সম্রাটকে আটক করে ইরানের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এই ফাঁসির বিষয়ে ইরানের হরমোজগান প্রদেশের প্রধান বিচারপতি আলি সালেহি বার্তা সংস্থা ইসনাকে বলেন, সে (উপসাগরের কুমির) ইরানের এবং এর আশেপাশের অঞ্চলে বড় মাদক চালানের নেতৃত্ব দিত। এছাড়া ওই উপসাগরের কুমিরকে আটকের পর তার দলের অনেক সদস্যকেই আটক করা হয়েছে। যাদেরকে সর্বোচ্চ পাঁচ বছরের সাজা এবং জরিমানা করা হয়েছেও বলে জানায় হরমোজগান প্রদেশের প্রধান বিচারপতি আলি সালেহি। প্রসঙ্গত, প্রতি বছর কয়েকশত কারাবন্দীকে ফাঁসি দেয় ইরান। আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের পক্ষ থেকে জানানো হয়, ২০১৮ সালে ২৫৩ জনের ফাঁসি কার্যকর করেছিল ইরান।

বাহাদুরপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

ভেড়ামারা অফিস ॥ কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলার বাহাদুরপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে বাহাদুরপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি সোহেল রানা পবনের সভাপতিত্বে ও বাহাদুরপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের আয়োজনে গতকাল রবিবার সকাল ১০টায় এক বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা, পুরস্কার বিতরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান-২০ অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভেড়ামারা উপজেলার ্য নির্বাহী অফিসার সোহেল মারুফ। বিশেষ অতিথি ছিলেন কুষ্টিয়া জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান  আবু হেনা মোস্তফা কামাল (মুকুল)। এসময় উপস্থিত ছিলেন মোকারিমপুর ইউনিয়ন পরিষদের  চেয়ারম্যান ও সভাপতি, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ মোকারিমপুর ইউনিয়ন শাখা মোঃ আব্দুস সামাদ। বাহাদুরপুর ইউনিয়ন পরিষদের  চেয়ারম্যান ও সভাপতি জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ বাহাদুরপুর ইউনিয়ন শাখা, আশিকুর রহমান ছবি। ভেড়ামারা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার ফারুক আহমেদ। বি জে এম ডিগ্রী কলেজ’র অধ্যক্ষ আসলাম উদ্দিন প্রমূখ।

গাংনীর ভাটপাড়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে নবীন বরণ ও বিদায়ী অনুষ্ঠান

গাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার ধানখোলা ইউনিয়নের ভাটপাড়া (কসবা) মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে নবীন বরণ ও বিদায়ী এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল রোববার দিনব্যাপি এ উপলক্ষে বিদ্যালয় চত্বরে নানা আয়োজন করা হয়। সকাল ১০টার দিকে বিদ্যালয়ের  নবীন শিক্ষার্থীদের বরণ ও বিদায়ী এসএসসি (পরীক্ষার্থী)’দের আনুষ্ঠানিকভাবে বিদায় জানানো হয়। প্রথমে জাতীয় সঙ্গীতের তালে-তালে নবীন শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন ফুলের পাঁপড়ি ছিটিয়ে ও রজনীগন্ধার ফুল হাতে দিয়ে বরণ করা হয়। পরে বিদায়ী শিক্ষার্থীদের উপহার সামগ্রী প্রদান করা হয়। বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদ ও শিক্ষক-শিক্ষিকাদের পক্ষ থেকে বরণ ও বিদায় জানানো হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রোমানুল হক। বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নাসির উদ্দীনের সঞ্চালনায়- অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে দিক নির্দেশনামূলক বক্তব্য রাখেন মেহেরপুর-২ (গাংনী) আসনের সংসদ সদস্য মোহাম্মদ সাহিদুজ্জামান খোকন। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আলী আজগর, গাংনী উপজেলা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও হিজলবাড়ীয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনিরুজ্জামান, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের আহবায়ক আবুল বাসার। এসময় বক্তব্য রাখেন সাবেক ছাত্রনেতা আনিসুজ্জামান লুইস, উপজেলা বিআরডিবির চেয়ারম্যান আলী আজগর, ধানখোলা ইউনিয়ন আ.লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আক্তারুজ্জামান বাবু, কসবা পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ সাহাবুদ্দীন, জেলা আ.লীগের সদস্য ও ভাটপাড়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পিটিএ সদস্য ফেরদৌস রহমান, বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক হাসানুজ্জামান, সহকারী শিক্ষক আজিজুল হক, সমাজসেবক আবুল কালাম। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন,বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থী ও ধানখোলা ইউনিয়ন যুবলীগের সদস্য আরিফুল ইসলাম, প্রাক্তন শিক্ষার্থী ও ধানখোলা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ওয়াজ্জেল হক,আ.লীগ নেতা মুক্তারুল ইসলাম, শ্রমিকলীগ নেতা মোতালেব হোসেন। এছাড়াও বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যে বক্তব্য রাখে যথাক্রমে-এসএসসি পরীক্ষার্থী ইসরাফিল আলম, একা খাতুন ও সোহেল রানা, দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থী সাহাজুল ইসলাম, জান্নাতি খাতুন, আহসান কবির, হিরা খাতুন, অষ্টম শ্রেণীর শিক্ষার্থী সাজিদুল ইসলাম, তাসনিন ফাতেমা, সপ্তম শ্রেণীর শিক্ষার্থী হিমা খাতুন, তানভির আহমেদ  ও সূচনা উর্মি প্রমুখ। অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে (বিকেলে) সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে গান, কবিতা আবৃতি নৃত্য পরিবেশনা করে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

কাশ্মীরের বন্দী নেতার দুরাবস্থা, চিনতে পারেননি মমতা

ঢাকা অফিস ॥ জম্মু কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের পর গত বছরের আগস্ট থেকে গৃহবন্দি রয়েছেন রাজ্যটির সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লাহ। তবে সম্প্রতি তার একটি ছবি সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়েছে। সেখানে দেখা গেছে খুব দুরাবস্থায় আছেন কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী। আর সেই ছবি নিজের টুইটার টাইমলাইনে পোস্ট করে বিস্ময় প্রকাশ করলেন ভারতের পশ্চিম বঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। খবর এনডিটিভি’র। শনিবার একটি টুইট পোস্টে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ওমর আব্দুল্লাহ’র ছবির নিচে লেখেন, “এ কী অবস্থা! আমি এই ছবিতে ওমরকে চিনতেই পারিনি।” ওই ছবিতে দুঃখপ্রকাশ করে মমতা লেখেন, “আমার খুব খারাপ লাগছে, গণতান্ত্রিক দেশেও এসব চলছে। কবে এসব থামবে?” যে ছবি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় টুইটারে পোস্ট করেছেন, তাতে দেখা গিয়েছে, শীত পোশাক আর প্রায় বুক সমান ধূসর দাড়ি নিয়ে দাঁড়িয়ে ওমর আব্দুল্লাহ । প্রসঙ্গত, গত বছরের ৫ আগস্ট জম্মু-কাশ্মীর থেকে সংবিধানের ৩৭০ ধারা তুলে দিয়েছিল ভারতের কেন্দ্র সরকার। সেই ধারা ওই রাজ্যকে বিশেষ মর্যাদা দিত। তাই অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে প্রায় শতাধিক রাজনীতিবিদকে সেই মাসেই গৃহবন্দি করেছিল ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার।

কুষ্টিয়া জেলা তামাক নিয়ন্ত্রণ টাস্কফোর্স কমিটির মিটিং অনুষ্ঠিত

ধূমপান ও তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ আইন জনস্বার্থে একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ। তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন বাস্তবায়নে ত্রৈমাসিক জেলা তামাক নিয়ন্ত্রণ টাস্কফোর্স কমিটির মিটিং গতকাল  বেলা ১২টার সময় এডিসি জেনারেলের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক এডিসি জেনারেল মো: আজাদ জাহানের সভাপতিত্বে বিগত মিটিং এর রেজুলেশন পাঠ করেন সিভিল সার্জনের প্রতিনিধি এমওসিএস ডা: মো: রাকিবুল হাসান। এ পর্যায়ে আইনের বাস্তবায়ন ও চ্যালেজ্ঞগুলো তুলে ধরে সাফ‘র নির্বাহী পরিচালক মীর আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ধারা ৪ অনুযায়ী পাবলিক প্লেসে ধূমপানের জরিমানা ৩০০টাকা, ধারা ৫ অনুযায়ী তামাকজাত দ্রব্য বা সিগারেটের বিজ্ঞাপন দন্ডনীয় অপরাধ- আইন অমান্যে জরিমানা অনধিক এক লক্ষ টাকা বা অনূর্ধ্ব ৩ মাস বিনাশ্রম কারাদন্ড, ধারা ৬ক অনুযায়ী অপ্রাপ্ত বয়স্কদের নিকট সিগারেট বিক্রয় করা দন্ডনীয় অপরাধ, আইন অমান্যে জরিমানা ৫০০০ টাকা, ধারা ৭ অনুযায়ী ধূমপানমুক্ত এলাকা নিশ্চিত করা কর্তৃপক্ষের দায়িত্ব, ব্যর্থহলে জরিমানা ৫০০ টাকা, ধারা ৮ অনুযায়ী প্রতিটি পাবলিক প্লেস ও পরিবহনে “ধূমপানমুক্ত এলাকা” লিখা সাইনেজ লাগানো বাধ্যতামূলক, আইন অমান্যে জরিমানা ১০০০ টাকা, ধারা ১০ অনুযায়ী প্রতিটি তামাকজাত দ্রব্যের প্যাকেটে সচিত্র স্বাস্থ্য সর্তকবাণী প্রদান বাধ্যতামূলক, আইন অমান্যে জরিমানা অনধিক ২ লক্ষ টাকা বা অনূর্ধ্ব ৬ মাস বিনাশ্রম কারাদন্ড। এপর্যায়ে এডিসি জেনারেল মহদয় বলেন, আমরা যারা কমিটির সদস্য নিজেদের অফিসগুলোতে যেন নোস্মোকিং সাইনেজ লাগানো নিশ্চিত করি এবং জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে এব্যাপারে চিঠি প্রদান করা হবে এবং ব্যক্তিগতভাবে উপজেলা নির্বাহী অফিসারদের অবহিত করবো। তামাক কোম্পানী কর্তৃক বিজ্ঞাপন প্রদর্শণ দন্ডণীয় অপরাধ। নিয়মিত মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হবে। আইন বাস্তবায়নে টাস্কফোর্স কমিটির সকল সদস্যকে সক্রিয় ভূমিকা রাখার জন্য অনুরোধ জানায়। আলোচনা শেষে সাফ‘র পক্ষ থেকে সবাইকে মাদক ও ধূমপান বিরোধী পতাকা প্রদান করা হয় এবং জনসচেতনতার লক্ষে এডিসি সবাইকে সাথে নিয়ে ফটোসেশনে অংশগ্রহন করেন। এসময় উপস্থিত থেকে আলোচনায় অংশগ্রহনকরেন পরিবার পরিকল্পনার ডিডি মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী, সহকারি তথ্য অফিসার শিল্পী মন্ডল, জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা মো: মখলেছুর রহমান, চেম্বার অব কর্মাসের প্রতিনিধি সহ-সভাপতি এস এম কাদেরী শাকিল, ইসলামিক ফাউন্ডেশন‘র অফিস সহকারি মো: আবু আইয়ুব আনছারী, জেলা শিক্ষা অফিসের গবেষণা কর্মকর্তা শেখ মশিউর রহমান, স্যানেটারী ইন্সপেক্টর মো: ইনসাফ হোসেন, ফায়ার সার্ভিসের সহকারি পরিচালক রফিকুল ইসলাম, সিএস অফিসের ডিএইচএস মো: নজরুল ইসলাম, সাফ‘র নির্বাহী পরিচালক মীর আব্দুর রাজ্জাক, বাংলাদেশ মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতি সভাপতি মো: আসাদুর রহমান, পিএসটিসি‘র শাহানাজ খাতুন, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের মৎস্য বিষয়ক প্রশিক্ষক মো: জাহাঙ্গীর আলম, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো: তবিয়ুর রহমান, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের এডিডি রঞ্জন কুমার প্রামানিক। সার্বিক উপস্থাপনায় ছিলেন সিনিয়র ও জুনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষা অফিসার মো: আব্দুর রহমান ও মো: শামছুল আলম। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

মিরপুরে ধলসা-পয়ারী দাখিল মাদরাসায় বিদায় সংবর্ধনা ও অভিভাবক সমাবেশ

মিরপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার ধলসা-পয়ারী হযরত ওমর ফারুক (রাঃ) দাখিল মাদ্রাসার দাখিল পরীক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা, ৬ষ্ঠ  শ্রেনীর ছাত্র-ছাত্রীদের বরণ, মা ও অভিভাবক সমাবেশ গতকাল রোববার সকালে মাদরাসা প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয়েছে।  মাদ্রাসার সুপার মাওলানা মোঃ আজিজুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা জাসদের সাধারন সম্পাদক আহাম্মদ আলী। প্রধান আলোচক ছিলেন মোঃ  মোজাম্মেল হক রাসেল। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা একাডেমির সুপারভাইজার মোঃ আশিকুজ্জামান, সাগরখালী আদর্শ ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ রবিউল ইসলাম, ছাতিয়ান আঃ রাফেত বিশ্বাস কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ আঃ মজিদ, মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা সদস্য মোঃ বাছের আলী জোয়ার্দার, বিদ্যুৎশাহী সদস্য সহকারী অধ্যাপক রোকনুজ্জামান চৌধুরী পপলু, সহকারী শিক্ষক মাওলানা মোঃ আঃ হান্নান, মাওলানা মোঃ আঃ মাজেদ, মোঃ তৌহিদুল ইসলাম প্রমুখ। এসময় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকগণ, মাদরাসা পরিচালনা পর্ষদের সদস্যবৃন্দ, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ ও মাদরাসার শিক্ষক কর্মচারী সহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

মিরপুর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ক্রীড়ানুষ্ঠানে কামারুল আরেফিন

শিক্ষিত জাতি গঠনে নারী শিক্ষার ভূমিকা অপরিসীম

আমলা অফিস ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠান গতকাল রোববার দুপুরে বিদ্যালয়ের খেলার মাঠে বিতরণ করা হয়। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আসাদুজ্জামানের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন মিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কামারুল আরেফিন। তিনি তার বক্তব্যে বলেন- খেলাধুলার মাধ্যমে দেশ ও জাতি বিশ্ববাসীর কাছে সহজেই পরিচিতি লাভ করে। যুব সমাজকে ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা করতে ক্রীড়া চর্চা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। সুষ্ঠু ও সুন্দর জাতি গঠনে লেখাপড়ার পাশাপশি খেলাধুলার বিকল্প নেই।  খেলাধুলায় শরীর ও মন সুস্থ থাকে। খেলাধুলা বিনোদনের অন্যতম মাধ্যম। নারী শিক্ষার গুরুত্বারোপ করে বলেন, শিক্ষিত মাতা জাতি গঠনের শ্রেষ্ঠ সেনানী। তাই শিক্ষিত জাতি গঠনে নারী শিক্ষার ভূমিকা অপরিসীম। তিনি শিক্ষার্থীদেরকে সৎ যোগ্য ও দেশপ্রেমিক নাগরিক হিসেবে নিজেদেরকে গড়ে তোলার আহ্বান জানান। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা জুলফিকার হায়দার, উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুস সামাদ, জেলা পরিষদের সদস্য আলহাজ্ব মহাম্মদ আলী, মিরপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক রাশেদুজ্জামান রিমন, সাবেক সভাপতি আছাদুর রহমান বাবু, উপজেলা শ্রমিকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আশরাফুল আলম হীরা, বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ফারজানা জামান, আরিফুল ইসলাম, বিলাল হোসেন, শফিউল ইসলাম, জয়শ্রী পাল, আসাদুজ্জামান রনি, শেখ সেলিনা আক্তার, তাসমিয়াহ তানিন বৃষ্টি, ইসমা খাতুন, অফিস ষ্টাফ তরিকুল ইসলাম, লিখন প্রমুখ। পরে ক্রীড়া প্রতিযোগিতার বিভিন্ন ইভেন্টে বিজয়ী শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরষ্কার বিতরণ করা হয়।

কুষ্টিয়ায় চাঁদাবাজী মামলা থেকে অব্যাহতি পেলেন যুবলীগ-ছাত্রলীগের ৬ নেতা

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়া ইবি থানায় দায়েরকৃত চাঁদাবাজীর মামলা থেকে জেলা যুবলীগ নেতা আনিসুর রহমান বিকাশ, সদর উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজু, ইবি ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাইফুল ইসলাম, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সামসুজ্জামান তুহিন, সদর উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক আনিসুর রহমান আনিচ ও কুষ্টিয়া শহর যুবলীগের আহবায়ক আশরাফুজ্জামান সুজনকে অব্যাহতি দিয়েছে আদালত। গতকাল রবিবার বিজ্ঞ আদালত  চাঁদাবাজী মামলা থেকে তাদের অব্যাহতি প্রদান করেন। একই সঙ্গে মামলাটি খারিজ করে দেওয়া হয়। গতকাল রবিবার ইবি বিচারিক আমলি আদালতের হাকিম মহসিন আলী পুলিশ প্রতিবেদন ও মামলা পর্যালোচনা করে ওই আদেশ দেন। গত বছর ২০ শে সেপ্টেম্বর ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থানার পার্শ্ববর্তী শেখপাড়া এলাকার ব্যবসায়ী আলামিন জোয়ার্দার যুবলীগ ও ছাত্রলীগের ছয় নেতার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির মামলা দায়ের করেন। মামলার পর কুষ্টিয়া সদর উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজু ও কুষ্টিয়া শহর যুবলীগের আহ্বায়ক আশরাফুজ্জামান সুজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে জামিনে মুক্ত হয় এ দুজন। মামলায় আসামি পক্ষের আইনজীবীরা ছিলেন এ্যাড. গোলাম রসুল। পুলিশ তদন্ত শেষে মামলার অভিযোগ মিথ্যা হওয়ায় আসামিদের অব্যাহতি দেওয়ার জন্য আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করে।

দৌলতপুরে জাসদের কর্মী সভা অনুষ্ঠিত

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে জাসদের কর্মী সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বিকেল ৪টায় উপজেলার বোয়ালিয়া ইউনিয়নের গোয়ালগ্রাম মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। ইমদাদ হোসেনের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, কেন্দ্রীয় জাসদের জনসংযোগ বিষয়ক সম্পাদক শরিফুল কবীর স্বপন। বক্তব্য রাখেন দৌলতপুর জাসদের সভাপতি ছহির উদ্দিন, যুগ্মসাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম নান্নু মাষ্টার, সাংগঠনিক সম্পাদক সাইদুর রহমান, জাসদ নেতা নুরুজ্জামান খান, আতিয়ার রহমান, ফজল হক প্রমুখ। শেষে প্রভাষক সেন্টুকে আহ্বায়ক ও নুরুজ্জামান খানকে যুগ্মআহ্বায়ক করে ২১ সদস্যের ইউনিয়ন জাসদের আহ্বায়ক কমিটির ঘোষনা করা হয়।

আলমডাঙ্গার এরশাদপুর একাডেমিতে নবীনবরণ ও এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধণা

আলমডাঙ্গা অফিস ॥ আলমডাঙ্গার এরশাদপুর একাডেমিতে নবীনবরণ ও এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধণা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বেলা ১১টায় বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান শিক্ষক ফজলুল হক শামীমের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন আলমডাঙ্গা পৌর মেয়র ও এরশাদপুর একাডেমির পরিচালনা পরিষদের সভাপতি হাসান কাদির গনু। বিশেষ অতিথি ছিলেন – আলমডাঙ্গা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুল বারী, উপজেলা অ্যাকাডেমিক সুপারভাইজার ইমরুল হক, আলমডাঙ্গা পৌরসভার কাউন্সিলর আব্দুল গাফফার, বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য রোজিনা খাতুন, আরেফিন হক মিলন মিয়া, নাজমুল হক বাবলু, শহিদুল ইসলাম, বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষক মাওলানা আবুল হোসেন, বিদায়ী শিক্ষক শরিফুজ্জামান লাকী, সহকারি প্রধান শিক্ষক মীর কানজুল আরেফিন।  একাডেমির দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী রিয়া আকতার ও আতিক হোসেনের সাবলিল ও ছান্দিকের উপস্থাপনায় সন্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সিনিয়র সহকারি শিক্ষক হামিদুল ইসলাম, রহমান মুকুল, আমজাদ হোসেন, আশিকুজ্জামান স্বপন, আলেয়া ফেরদৌস, লিমা খাতুন, সালমা খাতুন, মহাবুল হক, রানা আহমেদ প্রমুখ। প্রারম্ভেই অতিথিদের ফুলেল অভ্যর্থনায় বরণ করে নেওয়া হয়। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন প্রধান শিক্ষক ফজলুল হক শামীম। নবীনদের উদ্দেশ্যে অভিনন্দনপত্র পাঠ করেন বিদায়ী ছাত্রী শারমিন আক্তার। বক্তব্য রাখেন বিদায়ি ছাত্রী সাবা খাতুন, জুয়েল রানা,  বিদায়ি শিক্ষার্থিদের উদ্দেশ্যে শ্রদ্ধাঞ্জলি পাঠ করেন ১০ম শ্রেণির ছাত্রী মায়া খাতুন। শেষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থিরা ছাড়াও স্থানীয় সাংস্কৃতিক সংগঠণের শিল্পীরা সঙ্গীতে দর্শক-শ্রোতা মাতান। আয়োজনের সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন মিজানুর রহমান ও মিরাজুল ইসলাম প্রমুখ।

ভেড়ামারায় জাতীয় মহিলা সংস্থার তত্ত্বাবধানে চন্ডিপুর হাইস্কুলে বাল্যবিবাহ, সন্ত্রাস ও মাদকমুক্ত সমাজ গঠনে ক্যাম্পেইন

আল-মাহাদী ॥ কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় জাতীয় মহিলা সংস্থার তত্ত্বাবধানে স্থানীয় সরকার বিভাগের উপজেলা পরিচালন ও উন্নয়ন প্রকল্প এবং জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সী (জাইকা)’র সহযোগিতায় গতকাল রবিবার সকাল ১০টায় চন্ডিপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের হলরুমে সন্ত্রাস, মাদকমুক্ত সমাজ গঠন, বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ এবং যৌতুকের মত সামাজিক ব্যাধিকে দুর করতে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সপ্তাহব্যাপী সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন এর অংশ হিসেবে ২য় দিনের অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। চন্ডিপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আব্দুল হক এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন চাঁদগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও চন্ডিপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি’র সভাপতি আব্দুল হাফিজ তপন। উপজেলা জাতীয় মহিলা সংস্থার সমন্বয়কারী মোহাঃ আসমান আলী’র উপস্থাপনায় বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা সমাজসেবা অফিসার আবু নাসির, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মোছাঃ জান্নাতুল ফেরদৌস, উপজেলা সমাজসেবা অফিসের আব্দুল ওদুদ, উপজেলা পরিচালন ও উন্নয়ন প্রকল্পের ডেভোল্পমেন্ট ফ্যাসিলিটেটর উত্তম কুমার বিশ^াস, ভেড়ামারা প্রেসক্লাবের যুগ্ন আহবায়ক এস.এম.আবু ওবাইদা-আল-মাহাদী প্রমূখ। এসময় চন্ডিপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সকল শ্রেনীর ছাত্র-ছাত্রীরা অংশগ্রহন করেন। অনুষ্ঠানের শুরুতেই সম্মানিত সকল অতিথিবৃন্দকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। উক্ত অনুষ্ঠানে চন্ডিপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ২০০ছাত্র-ছাত্রী অংশগ্রহণ করেন।

দৌলতপুরে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে ৩ ড্রাম ট্রাক মালিকের দন্ড

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে রাতের আধাঁরে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে ৩ ড্রাম ট্রাক মালিকের অর্থদন্ড করা হয়েছে। গতকাল রবিবার রাত ১০টার দিকে ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক এ দন্ড দেন। ভ্রাম্যমান আদালত সূত্র জানায়, ড্রাম ট্রাকে অতিরিক্ত মাটি ও বালি ভর্তি করে বিভিন্ন অবৈধ ইটভাটায় সরবরাহ করা হচ্ছে এমন অভিযোগে দৌলতপুর সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মো. আজগর আলীর নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত উপজেলার পাশর্^বতী বাজুডাঙ্গা-মানিকদিয়াড় মাঠে অবৈধ ইটভাটায় অভিযান চালায়। এসময় অতিরিক্ত বালি ও মাটি ভর্তি ৩টি ড্রাম ট্রাক আটক করে সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ এর ৪৩(১)/৮৬ ধারায় প্রত্যেককে ৫ হাজার করে ১৫হাজার টাকা অর্থদন্ড করা হয়। দন্ডিত ড্রাম ট্রাক মালিকরা হলেন, ভেড়ামারার এনামুল হক, নাহিদ ও সাতবাড়িয়ার আবুল কালাম আজাদ।

পুনর্বাসন ছাড়া বস্তিবাসীদের উচ্ছেদ করা হবে না – তাবিথ

ঢাকা অফিস ॥ পুনর্বাসন ছাড়া কোনো বস্তিবাসীকে উচ্ছেদ করা হবে না বলে ঘোষণা দিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল। গতকাল রোববার সকাল পৌনে ১১টায় রাজধানীয় কাড়াইল বস্তি সংলগ্ন মোশাররফ বাজার গেট এলাকায় গণসংযোগ পূর্ব সংক্ষিপ্ত পথসভায় তিনি এ মন্তব্য করেন। কাড়াইল বস্তিবাসীদের উদ্দেশ্যে তাবিথ আউয়াল বলেন, গুলশান-বনানীতে সবচেয়ে ধনীরা বসবাস করেন, তারপাশে কাড়াইল বস্তিতে সবচেয়ে হত দরিদ্রদের বসবাস। ধনী দরিদ্রের এমন বৈষম্য থাকতে পারে না। তাই তাদের জন্য আগে দীর্ঘ মেয়াদী পুনর্বাসন ব্যবস্থা করতে হবে। ভোটারদের উদ্দেশ্যে তবিথ আউয়াল বলেন, সময় এসেছে অপশক্তিকে রুখে দাঁড়ানোর। সামনে অনেক ভয়-ভীতি আসতে পারে। ভয়কে জয় করে ঐক্যবদ্ধ হয়ে ব্যালটের মাধ্যমে অপশক্তির বিরুদ্ধে জবাব দিবেন। নিজেদের উন্নয়নে, ঢাকার উন্নয়নে ১ ফেব্রুয়ারি ধানের শীষে ভোট দিবেন। দুর্নীতি, দুঃশাসনের জবার ব্যালটের মাধ্যমে দিতে হবে। পরিবর্তনের সময় এসেছে। ১ ফেব্রুয়ারি ভোটের মাধ্যমে পরিবর্তন আনতে হবে, খালেদা জিয়ার মুক্তির পথ তরান্বিত করতে হবে। গণসংযোগে অংশ নেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সেলিমা রহমান, বিএনপি নেতা মোহাম্মদ শাহজাহান, খন্দকার আবু আশফাক, আহসান উল্লাহ হাসান, সাবেক এমপি শাম্মী আক্তার, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের দপ্তর প্রধান জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু, যুবদলের সভাপতি সাইফুল আলম নিরব, সাবেক সহ সভাপতি আলী আকবর চুন্নু, ঢাকা মহানগর উত্তর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক এস এম জাহাঙ্গীর হোসেন, সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম মিলটন প্রমুখ। এছাড়াও ঢাকা উত্তর সিটি নির্বাচনে ১৯ নম্বর ওয়ার্ডে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী ফারুক হোসেন ভুঁইয়া (ঠেলাগাড়ি মার্কা) ২০ নম্বর ওয়ার্ডে বিএনপির প্রার্থী মিজানুর রহমান বাচ্চু (ব্যাডমিন্টন মার্কা), সংরক্ষিত ওয়ার্ডে বিএনপির প্রার্থী পেয়ারা মোস্তফা গণসংযোগে অংশ নেন। এসময় বিএনপি ও অঙ্গ এবং সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরাও প্রচারণায় অংশ নেন।

খোকসায় আসামীর হামলায় দারোগা আহত

খোকসা প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার খোকসার গ্রামে ওয়ারেন্টের আসামী ধরতে গিয়ে আসামী ও তার পরিবারের লোকদের হামলায় থানা পুলিশের এক এএসআই আহত হয়েছে। আহত পুলিশ জানায়, গতকাল রবিবার বিকালে উপজেলার শিমুলিয়া ইউনিয়নের মানিকাট গ্রামে একটি সিআর মামলার ওয়ারেন্টের আসামী সিদ্দিক আলীর বাড়িতে থানা পুলিশের এএসআই গোলাম রসুল সঙ্গীয় ফোর্সসহ অভিযানে যায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে সিদ্দিক তার ঘরে একটি খাটের নিচে আত্মগোপন করে। আসামী সিদ্দিকে পুলিশ আটকাতে চেষ্টা করে। এ সময় সিদ্দিকের পরিবারের লোকে পুলিশের উপর চড়াও হায়। পুলিশের হাতে থাকা হ্যান্ডকাপ ছিনিয়ে নিয়ে এএসআই গোলাম রসুলের মাথায় আঘাত করে। এ হামলায় এএসআই গুরুতর আহত হয়। পরে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনার পর থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে পালাতক ওয়ারেন্টের আসামী সিদ্দিক ও হামলায় জড়িত তিন মহিলাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। আটক সিদ্দিক হেকমত আলীর ছেলে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডাঃ আশরাফুল আলম জানান, গোলাম রসুলের মাথায় কয়েকটি সেলাই লেগেছে। এ ছাড়া ফুলে আছে। তবে রোগী মোটামুটি ভালো আছেন। থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মজিবর রহমান বলেন, পুলিশের ওপর হামলার ঘটনার মামলা প্রক্রিয়াধীন। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য কয়েকজনকে থানায় আনা হয়েছে বলে তিনি জানান।

পুরনো সব রেল সেতু মেরামতের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

ঢাকা অফিস ॥ সারা দেশে পুরনো রেল সেতুগুলো মেরামতের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল রোববার গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে একগুচ্ছ উন্নয়ন কাজের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর এ নির্দেশনা আসে। তিনি বলেন, যে রেলব্রিজ পুরনো হয়ে যাওয়ায় অত্যন্ত ধীরগতিতে ট্রেন চলে, সময় বেশি লাগে, দুর্ঘটনার ঝুঁকি বেশি থাকে, সেসব সেতুর বিষয়ে তিনি নিজে খোঁজ খবর নিয়েছেন। “কাজেই আমি মনে করব সারা বাংলাদেশে একটা সার্ভে করে যেখানে যত পুরনো জরাজীর্ণ রেল ব্রিজ আছে, সেগুলো সব মেরামত করতে হবে। সেজন্য একটা প্রজেক্ট আলাদাভাবে আমি মনে করি তৈরি করে আনবে। তাহলে আমরা সেটা করে দিতে পারি এবং দ্রুত কাজগুলো করতে পারি।” অতীতের সরকারগুলো রেল যোগাযোগকে ‘সম্পূর্ণ বন্ধ করে দিতে চেয়েছিল’ মন্তব্য করে সরকারপ্রধান বলেন, “সে কারণে  তারা যেমন গোল্ডেন হ্যান্ডশেকের মাধ্যমে লোকবল বিদায় দিয়ে দেয়, আর বিভিন্ন জায়গায় লাইনগুলো বন্ধ করে দেয়। আমি মনে করি এটা একটা আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত ছিল।” আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর রেলওয়ের উন্নয়নে কী কী উদ্যোগ নিয়েছে- সেসব বিষয়েও বিস্তারিত তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, “রেলওয়েকে আমরা এখন সম্প্রসারণ করে যাচ্ছি। এক্ষেত্রে আমার একটা অনুরোধ থাকবে যে আমরা রেললাইন বাড়াচ্ছি, নতুন নতুন বগি এবং যাত্রী পরিবহনের সুযোগ সৃষ্টি করেছি। তবে রেলওয়ের পুরনো যে সমস্ত ব্রিজগুলো আছে বিভিন্ন কালভার্টের ওপর এবং বিভিন্ন ব্রিজ- এই ব্রিজগুলো ভালোভাবে মেরামত করতে হবে। তার কারণ হল এগুলো এত পুরনো…।” দেশবাসীকে পানি ব্যবহারে মিতব্যয়ী হওয়ার আহ্বান জানিয়ে সরকারপ্রধান বলেন, অনেক অর্থ খরচ করে পানি শোধন করে সেই পানি সরবরাহ করা হয়। এই পানি ব্যবহারের ক্ষেত্রে মিতব্যয়ী হতে হবে। পানির অপচয় বন্ধ করতে হবে। ক্ষুদ্রঋণ ব্যবস্থা টেকসই উন্নয়নের ক্ষেত্রে কার্যকর নয় মন্তব্য করে শেখ হাসিনা বলেন, “ক্ষুদ্র ঋণ ব্যবস্থা.. সেখানে এক সময় আমি নিজেও খুব উৎসাহিত করতাম। কিন্তু পরবর্তীতে লক্ষ্য করলাম যে ঋণের পরিমাণ এত বেড়ে যায় যে শেষে মানুষ ঋণগ্রস্ত হয়ে হয় আত্মহত্যা করে, না হয় এলাকা ছেড়ে ভাগে, না হয় ছেলে মেয়ে বিক্রি করে, বাড়িঘর বিক্রি করে। নিঃস্ব হয়ে যায়। সে আর নিজের পায়ে দাঁড়াতে পারে না। অর্থাৎ সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট এর জন্য ক্ষুদ্রঋণ কার্যকর হয় না।  শোষিত-বঞ্চিত মানুষের অধিকার আদায়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আজীবন সংগ্রামের কথা অনুষ্ঠানে তুলে ধরার পাশাপাশি তাকে সপরিবারে নির্মমভাবে হত্যা করার কথাও মনে করিয়ে দেন তার মেয়ে শেখ হাসিনা। বঙ্গবন্ধু হত্যাকান্ডের পর ছয় বছর নির্বাসিত জীবন কাটিয়ে দলীয় নেতাকর্মী ও জনগণের সমর্থনে আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্ব নিয়ে দেশে ফেরার কথাও তিনি স্মরণ করেন। যে চেতনা নিয়ে দেশ স্বাধীন হয়েছিল, জাতির পিতাকে হত্যার পর সেটা কার্যকর ছিল না মন্তব্য করে শেখ হাসিনা বলেন, “উন্নয়নের দিক থেকে গ্রামের মানুষ বা সাধারণ মানুষ সম্পূর্ণভাবে বঞ্চিত ছিল। কারণ যারা ক্ষমতায় এসেছিলৃ। মিলিটারি ডিক্টেটররা যখন ক্ষমতায় আসে সংবিধান লঙ্ঘন করে, অবৈধভাবেৃ তখন তারা একটা এলিট শ্রেণি তৈরি করে বা কিছু লোককে তারা অর্থ সম্পদের মালিক করে। তাদেরকে দিয়ে তারা ক্ষমতার ভিত্তিটা শক্ত করতে চায়। বঞ্চিত থেকে যায় অবহেলিত জনগোষ্ঠী। “আমরা যারা রাজনীতি করে জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়ে সরকারে আসি আমাদের লক্ষ্যই থাকে দেশের জনগণের সার্বিক কল্যাণ, সার্বিক উন্নতি।” প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব আহমদ কায়কাউসের সঞ্চালনায় এ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের অপর প্রান্তে থাকা বিভিন্ন জেলার মানুষের কথাও শোনেন। রেলওয়ের ঢাকা-বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব-তারাকান্দি-জামালপুর-ঢাকা রুটে একজোড়া নতুন আন্তঃনগর ট্রেন ‘জামালপুর এক্সপ্রেস’; ঢালারচর-পাবনা-রাজশাহী রুটে ‘ঢালারচর এক্সপ্রেস’ ও ফরিদপুর রুটে ‘রাজবাড়ী এক্সপ্রেস’ ট্রেনের রুট বর্ধিতকরণ এবং চট্টগ্রাম-সিলেট-চট্টগ্রাম রুটে উদয়ন ও পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনের বহর পরিবর্তন কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয় এ অনুষ্ঠান থেকে। পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের মোবাইল অ্যাপ ভিত্তিক ডিজিটাল আর্থিক সেবা ‘পল্লী লেনদেন’ কার্যক্রমের উদ্বোধন, এলজিইডির বাস্তবায়নাধীন ‘গুরুত্বপূর্ণ নয়টি ব্রিজ নির্মাণ’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নবীনগর উপজেলায় ১৫ হাজার মিটার চেইনেজে তিতাস নদীর ওপর ৫৭৫ মিটার দৈর্ঘ্য পিসি গার্ডার সেতু এবং মানিকগঞ্জ জেলার সদর উপজেলাধীন মানিকগঞ্জ-সিঙ্গাইর আরএইচডি রাস্তায় কালিগঙ্গা নদীর ওপর ৪৫৬ মিটার পিসি গার্ডার সেতু উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। এছাড়া চট্টগ্রাম ওয়াসার ‘চট্টগ্রাম পানি সরবরাহ উন্নয়ন ও স্যানিটেশন প্রকল্প’র (১ম সংশোধিত) আওতায় নির্মিত ‘শেখ রাসেল পানি শোধনাগার’, খুলনা ওয়াসার ‘খুলনা পানি সরবরাহ প্রকল্প’র আওতায় নবনির্মিত ‘বঙ্গবন্ধু ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট’ উদ্বোধন করেন তিনি। বাংলাদেশ টেলিভিশন চট্টগ্রাম কেন্দ্রের ১২ ঘণ্টা অনুষ্ঠান সম্প্রচার কার্যক্রমেরও উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।

গাংনী পৌর মেয়রের বিরুদ্ধে  দুর্নীতির অভিযোগে মানববন্ধন

গাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের গাংনী পৌরসভার মেয়র আশরাফুল ইসলামের বিরুদ্ধে অতিরিক্ত কর, অনিয়ন্ত্রান্ত্রিকভাবে নিয়োগ বাণিজ্যসহ বিভিন্ন দুর্নীতির অভিযোগে মানববন্ধন করা হয়েছে। গতকাল রোববার সকাল ১১টার দিকে গাংনী উপজেলা শহরের বাসস্ট্যান্ডে মানববন্ধনের আয়োজন পৌর কাউন্সিলররা। মানববন্ধনে  নেতৃত্ব প্রদান করেন পৌরসভার প্যানেল মেয়র নবীরুদ্দীন। এ সময় পৌরসভার কাউন্সিলরসহ পৌর এলাকার বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ অংশগ্রহণ করেন।

মিরপুরে ফুলবাড়ীয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা

মিরপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার ফুলবাড়ীয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ২০২০ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা ও ৬ষ্ঠ শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের বরণ অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে। গতকাল রোববার দুপুরে বিদ্যালয় হলরুমে প্রধান শিক্ষক শাহ আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ও ফুলবাড়ীয়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আতাহার আলী। তিনি বলেন- শিক্ষায় জাতির মেরুদন্ড। যে জাতি যত বেশি শিক্ষিত, সে জাতি তত বেশি উন্নত। তাই তিনি ছাত্র-ছাত্রীদের সু-শিক্ষায় শিক্ষিত হওয়ার আহবান জানান। তিনি ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্দেশ্যে আরও বলেন, তোমরায় দেশের ভবিষ্যৎ। তোমরা ভালভাবে লেখাপড়া করে দেশের জন্য কাজ করবে। দেশের উন্নয়নে অংশগ্রহণ করবে। তোমরা শিক্ষিত হয়ে  যেমনটি চাইবে তাই হবে। তোমরা শিক্ষিত হয়ে কেউ ডাক্তার, কেউ ইঞ্জিনিয়ার আবার কেউ বিজ্ঞানী হয়ে দেশের মুখ উজ্জ্বল করবে। তিনি ছাত্র-ছাত্রীদের লক্ষ্য স্থির করে লেখাপড়া করার আহবান জানান। তিনি শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে বলেন-আপনারা হলেন মানুষ গড়ার কারিগর। আপনারা মানুষ গড়ার কাজে নিয়োজিত থাকলেই দেশের স্বপ্ন পুরণ হবে। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সদস্য জয়নাল আবেদীন, রুহুল আমিন, শুকুর আলী, আব্দুর রাজ্জাক, সালমা খাতুন, সাবেক সদস্য আব্দুল মান্নান, রফিকুল ইসলাম, ফুলবাড়ীয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মো: আব্দুর রাজ্জাক, সাবিনা ইব্রাহিম, ফজলুর রহমান, ইয়ার আলী, আব্দুর রাজ্জাক, মনিরুল ইসলাম, ফিরোজা খাতুন ও ফুলবাড়ীয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নুরুল ইসলাম।

দৌলতপুরে প্রতারক মনির ও তার বড় ভাই শরিফুলের ভূমি অফিস থেকে মাসিক চাঁদা দাবি

ছোট ভাই সবুজ পুলিশের ওপর হামলা মামলার প্রধান আসামী

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের শীর্ষ প্রতারক মনিরুজ্জামান মনির ও তার বড় ভাই শরিফুল ইসলাম মহিষকুন্ডি ও ভাগজোত ইউনিয়ন ভূমি অফিস থেকে মাসিক মোটা অংকের চাঁদা দাবি করেছে। চাঁদার টাকা না দিলে সংবাদ প্রকাশসহ বিভিন্ন ধরণের হুমকি দিয়েছে প্রতারক মনিরের বড় ভাই শরিফুল। এছাড়াও প্রতারক দুই সহোদরের ছোট ভাই সবুজ কর্তব্যরত অবস্থায় পুলিশের ওপর হামলা চালিয়ে পুলিশকে মারপিট ও লাঞ্ছিত করার প্রধান আসামী হয়েও সে এলাকায় বিভিন্ন অপকর্মের সঙ্গে জড়িত রয়েছে। তাদের বিভিন্ন অপরাধ ও অপকর্মে এলাকাবাসী চরমভাবে অতিষ্ট হয়ে পড়েছে। মনিরুজ্জামান মনির বিভিন্ন সময় পুলিশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তা ও বিভিন্ন দপ্তরের সচিব তার ঘনিষ্ঠজন দাবি করে এলাকায় অবাধে অনৈতিক কর্মকান্ড ও বিভিন্ন অপরাধ কর্মকান্ড ঘটিয়ে থাকে। সচিব ও পুলিশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তা তার কাছের মানুষ এই ভেবে এলাকার সাধারণ মানুষ মনিরুজ্জামান মনিরসহ তার অপর দুই ভাই ও বাবার অন্যায়, অত্যাচার ও চাঁদাবাজি কর্মকান্ড নীরবে সহ্য করে এবং মুখ খুলতেও ভয় করে। উপজেলার প্রাগপুর ইউনিয়নের ইসলামনগর বাগানপাড়া (বাঁধেরবাজার সংলগ্ন) গ্রামে সরেজমিনে গিয়ে এমনটায় জানাগেছে। ফজর আলী দেওয়ান তার চাঁদাবাজ ও প্রতারক ছেলেদের এমন কর্মকান্ডে নিজেকে গর্বিত ভেবে সেও দৌলতপুর উপজেলা ভূমি অফিসসহ বিভিন্ন অফিস ও দপ্তরে দালালি কর্মকান্ড করে থাকেন বলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকার অনেকে জানিয়েছেন।

প্রাগপুর ইউনিয়ন ভূমি অফিসের কর্মকর্তা জানান, মনিরুজ্জামান মনিরের বড় ভাই শরিফুল ইসলাম তার কাছে মালিককে দেওয়ার কথা বলে মাসিক মোটা অংকের চাঁদা দাবি করে। না দিলে সংবাদ প্রকাশসহ অন্যত্র বদলি করে দেওয়ার হুমকি দেয়। একই ধরনের কথা বলে মাসিক চাঁদা দাবি করে রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়ন ভূমি অফিসের কর্মকর্তা মাসুদ উদ্দিনের কাছেও। মাসিক চাঁদা না দিলে তাকে একই ধরণের হুমকি দেয় মনিরুজ্জামান মনিরের বড় ভাই শরিফুল।

এসএসসি গণিত পরীক্ষা চলাকালে জেএমজি মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে প্রবেশ করতে বাঁধা দেওয়ায় ওই কেন্দ্রের কর্তব্যরত পুলিশকে মারপিট ও লাঞ্ছিত করে মনিরুজ্জামান মনিরের ছোট ভাই সবুজ। তৎক্ষনাত পুলিশ ও পরীক্ষা কেন্দ্রের সচিব আশরাফুল ইসলাম নান্নু এবং পরীক্ষা কেন্দ্রের দায়িত্বে নিয়োজিত কর্তাব্যক্তিরা পুলিশের ওপর হামলাকারী সবুজকে আটক করে দৌলতপুর থানায় সোপর্দ করে। এ ঘটনায় দৌলতপুর থানায় মামলা হলে সবুজ দীর্ঘদিন হাজত খেটে বাইরে বের হয়ে আবারও বেপরোয়া কর্মকান্ডে লিপ্ত হয়।

২০০৮ সালে ভেড়ামারা উপজেলার দামুদিয়া গ্রামে বিয়ে করা প্রথম স্ত্রীকে তালাক দিয়ে তা গোপন করে দুই লক্ষ টাকা যৌতুক নিয়ে দৌলতপুরের মহিষকুন্ডি মাঠপাড়া এলাকার তুজামের মেয়েকে বিয়ে করতে গেলে তৎকালীন কুষ্টিয়া পুলিশ সুপার গাজী জসিম উদ্দিনের নির্দেশে দৌলতপুর থানার ওসি প্রয়াত আব্দুস সামাদ বিয়ের আসর থেকে মনিরুজ্জামান মনিরকে আটক করে মামলা দিয়ে জেলহাজতে পাঠায়। দীর্ঘ একমাস হাজতবাস শেষে কুষ্টিয়া জেলা কারাগার থেকে বের হয়ে মনিরুজ্জামান মনির গাজীপুরের চন্দ্রা এলাকায় গার্মেন্টস্ ফ্যাক্টরীতে শ্রমিক পদে কাজে যোগ দেয়। মনিরের প্রতারণার বিষয় মানুষের মন থেকে আড়াল হলে আবারও নতুন করে প্রতরাণা শুরু করে। চাকুরী দেওয়ার নাম করে অথবা মানুষের বিভিন্ন কাজ করে দেওয়ার নাম করে নিজ এলাকার বিভিন্ন মানুষের কাছে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিয়ে আবারও ঢাকায় গা ঢাকা দেয়। এলাকার মানুষ জেনে যাবে ভেবে কয়েক মাস পর পর সে ঢাকার ঠিকানাও বদল করে। শুধু তাই নয় তার আপন চাচা আমির দেওয়ানকে মারপিট করে আহত করে তার বাড়ির জমি ভয়ভীতি দেখিয়ে জোর করে রেজিষ্ট্রি করে নেয় প্রতারক মনির ও তার দুই ভাই এবং বাবা। এনিয়ে আমির দেওয়ানের দায়ের করা মামলা চলমান রয়েছে। এছাড়াও গতবছরে পারিবারিক তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে প্রতারক মনির তার বাবা ও মা’কে কুপিয়ে জখম করে আহত করে। এলাকাবাসীর হস্তক্ষেপে প্রাণে বাঁচে বাবা মা।

সর্বশেষ গতবছরের (২০১৯) ডিসেম্বরে দৌলতপুরের বাজুডাঙ্গা গ্রামের মৃত জামিরুলের ছেলে সোহেলের মাধ্যমে মনিরুজ্জামান মনির দৌলতপুর সোনালী ব্যাংক শাখায় পে-অর্ডার জালিয়াতি করে ৯৬ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়ে আবারও ঢাকায় গা ঢাকা দিয়েছে তারা। এনিয়ে ব্যাপক তোলপাড় হলেও তাদের বিরুদ্ধে কোন আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি। প্রতারক মনির সোহেলের বাড়ির জমি কৌশলে নিজ নামে রেজিষ্ট্রি করতে গিয়ে ধরা পড়ে। এ ঘটনায় স্থানীয় একটি রাজনৈতিক অফিসে তাদের নিয়ে মনিরকে মারপিট করে দিনভর আটকিয়ে রেখে মুচলেখা নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়। সেই থেকে প্রতারক মনির ও সোহেল ঢাকায় গা ঢাকা দিয়ে রয়েছে। সচেতন মহলের জিজ্ঞাসা প্রতারক মনির, সোহেল, শরিফুল ও সবুজের প্রতারণার জ¦ালায় অতীষ্ট এলাকাবাসী ও ভূক্তভোগীরা সঠিক বিচার পাবে কি?

জাহানারা মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে নবীনবরণ ও এসএসসি শিক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠানে হাজী রবিউল ইসলাম

আগামী দিনের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় শিক্ষার্থীদের দক্ষ ও যোগ্যভাবে গড়ে উঠতে হবে

কাঞ্চন কুমার ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার আমলা জাহানারা মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের নবাগত শিক্ষার্থীদের নবীনবরণ ও এসএসসি-২০২০ শিক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠান গতকাল রবিবার সকালে বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয়েছে। জাহানারা মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের পরিচালনা পরিষদের সভাপতি ও আমলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম মালিথার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কুষ্টিয়া জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী রবিউল ইসলাম। তিনি তার বক্তব্যে বলেন- শিক্ষার্থীদের বড় বড় স্বপ্ন দেখতে হবে। সেই স্বপ্ন পূরণের জন্য এখন থেকেই কাজ করতে হবে। আগামী দিনের চ্যালেঞ্জ  মোকাবেলায় নিজেদের দক্ষ ও যোগ্য করে গড়ে তুলতে হবে। পাস করে  বেকার থাকা লজ্জার। যোগ্যরা কখনো বেকার থাকে না। সে জন্য পাস করার পরে নয়, আগে থেকেই নিজেদের লক্ষ্য স্থির করে নিয়ে শিক্ষার্থীদের সেই লক্ষ্য পুরণে কাজ করতে হবে। নবীন শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘একটি মোমবাতি থেকে লক্ষ লক্ষ মোমবাতি জ্বালানো যায়। তেমনি তোমরা লেখাপড়া শেষ করে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দেবে। তিনি মাদকাসক্তির বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের রুখে দাঁড়ানোর আহবান জানান। প্রধান বক্তা হিসাবে বক্তব্য রাখেন মিরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামারুল আরেফিন। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জাহানারা মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা জাহানারা বেগম, মিরপুর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) মর্জিনা খাতুন, সদরপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রবিউল হক রবি, মিরপুর উপজেলা শিক্ষা অফিসার জুলফিকার হায়দার, বাংলাদেশ সুইমিং ফেডারেশনের সাবেক যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক আমিরুল ইসলাম, জাহানারা মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এনামুল হক, আমলা সদরপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল গাফ্ফার, সাবেক প্রধান শিক্ষক মকবুল হোসেন বিশ্বাস, জেলা পরিষদের সহকারী প্রকৌশলী শফিকুল আজম, আমলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক শফিকুল ইসলাম আজম, সদরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি রুহুল আলম, জাহানারা মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের পরিচালনা পরিষদের সদস্য সিদ্দিক আলী, তসলিম উদ্দিন, অভিভাবক সদস্য বজলুর রশিদ, লাইলী খাতুন প্রমুখ। অনুষ্ঠানের শুরুতেই বিদ্যালয়ে ২০২০ শিক্ষাবর্ষের নতুন শিক্ষার্থীদের ফুল দিয়ে বরণ করে নেয় অধ্যায়নরত শিক্ষার্থীরা। পরে ২০২০ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় দেয়া হয়। এসময় বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষা উপকরণ তুলে দেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী রবিউল ইসলামসহ আমন্ত্রিত অতিথিরা। পরে জাহানারা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবনির্মিত ভবনের উদ্বোধন করা হয়।

ইউনাইটেড মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে নবীন বরণ ও বিদায়ী সংবর্ধনায় সাবেক সাংসদ রউফ

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশে নারী শিক্ষায় উন্নতি হয়েছে

কুমারখালী প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়া-৪ (কুমারখালী-খোকসা) আসনের আওয়ামীলীগের সাবেক সাংসদ বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রউফ বলেছেন- বঙ্গবন্ধু কন্যা  দেশরতœ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশে নারী শিক্ষায় উন্নতি হয়েছে। নারীর ক্ষমতায়ন বৃদ্ধি পেয়েছে। গতকাল রবিবার সকালে কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার বাঁশগ্রাম ইউনাইটেড মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের নবীন বরণ ও এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রউফ বলেন, শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আছে বলেই আজ মেয়েরা স্পিকার হচ্ছে, এসপি, ডিসি হচ্ছে। নারী পুরুষের ব্যবধান হ্রাস পেয়েছে। তিনি আরো বলেন- বঙ্গবন্ধু কন্যা মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিত ও শিক্ষার্থীদের ঝরে পড়ারোধে দৃষ্টিনন্দন ভবণ নির্মাণ, শিক্ষাবৃত্তি সহ নানান কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। সেখানে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা ও মনোরম পরিবেশ তৈরির লক্ষ্যে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে দলাদলি বন্ধ করতে হবে। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফারুক হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কুমারখালী মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সাবেক ভারপ্রাপ্ত কমান্ডার বীরমুক্তিযোদ্ধা মোকাদ্দেস হোসেন, বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য গোলাম সরোয়ার, অভেদানন্দ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি মদন কুমার কর্মকার। এসময় বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষিকা-শিক্ষার্থীসহ অভিভাবক ও সুধীজন উপস্থিত ছিলেন।