মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে স্কুল ব্যাগ ও শিক্ষা উপকরণ বিতরণ

শিক্ষাই জাতির মেরুদন্ড। সেই শিক্ষার সূচনা হয় মায়ের কোল থেকে পরে প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে। দেশ যখন উন্নয়নের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে, মানুষের ক্রয় ক্ষমতা যখন বৃদ্ধি পাচ্ছে তখন ধনীরা শহরমুখী হচ্ছে আর গরীবেরা গ্রামবাংলায় অবস্থান করছে। গ্রামের মধ্যে যারা আবার স্বচ্ছল তারা সন্তানদের পড়ান স্থানীয় বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে। গ্রামের প্রান্তিক কৃষক ও গরীব মানুষের সন্তানেরাই গ্রামে থেকে লেখাপড়া করে। সেই গরীব ও দিনমজুর খেটে খাওয়া মানুষের সন্তানদের লেখাপড়ায় উৎসাহিত করার জন্য গতকাল দুপুরে সাফ’র আয়োজনে স্বর্ণা রাইচ মিলের সহযোগিতায় মুজিববর্ষ উপলক্ষে কুষ্টিয়ার পোড়াদহের চিথলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একশ ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে স্কুল ব্যাগ ও সহায়ক শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করা হয়। প্রধান শিক্ষক কামরুন নাহারের সভাপতিত্বে সাফ‘র নির্বাহী পরিচালক মীর আব্দুর রাজ্জাকের পরিচালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, স্বর্ণা রাইচ মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হাজী আব্দুস সামাদ। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মো: হায়দার আলী। বক্তাগণ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে তাঁর সুযোগ্য কন্যা ও বর্তমান সরকার প্রধান কর্তৃক ঘোষিত ২০২০ সালকে মুজিব বর্ষ ঘোষণা করায় ভাল কাজের অংশহিসাবে তোমাদের মাঝে তাঁর  জীবন আদর্শ তুলে ধরা ও শিশুদের বিদ্যালয়মুখি রাখতে উৎসাহিত করতে আমাদের এই প্রয়াস। তোমরা নিয়মিত স্কুলে আসবে ও টিফিন নিয়ে আসবে সেইলক্ষে অন্যান্য উপকরণের সাথে টিফিন বক্স দেওয়া হলো। তেমারা বড় হয়ে পরিবার ও দেশের কল্যাণে কাজ করবে এবং টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ভূমিকা রাখবে এই প্রত্যাশা রইল। এই সময় সাফ‘র স্বেচ্ছাসেবক হিসাবে দায়িত্বপালন করেন, লাকী খাতুন ও জাহিদা খাতুন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

কালুখালী দাখিল মাদরাসায় শান্তিপূর্ণভাবে স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন সম্পন্ন

ফজলুল হক \ গতকাল শনিবার রাজবাড়ীর কালুখালীতে সারা দেশের ন্যায় কালুখালী দাখিল মাদরাসায় শান্তিপূর্ণভাবে স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন-২০২০ সম্পন্ন হয়েছে। সকাল ৯ টা থেকে ২টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ চলাকালীন সার্বিক দায়িত্ব পালন করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে দশম শ্রেণীর সাদিয়া খাতুন, সহ-নির্বাচন কমিশনার হিসেবে নবম শ্রেণীর আজিজুল ইসলাম ও অষ্টম শ্রেণীর তানিয়া খাতুন এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন মাদরাসা ভারপ্রাপ্ত সুপার খোন্দকার আব্দুল ওহাব, সহ সুপার আবু নূর মোহাম্মদ ইমারত আলী খান, শিক্ষক মোঃ মারুফ হোসেন, মোঃ মোতালেব হাসান, এখলাছুর রহমান, মোয়াজ্জেম হোসেন, আঃ মালেক ও মোঃ আক্তার হোসেন সহ অন্যান্য শিক্ষকমন্ডলী উপস্থিত ছিলেন। নির্বাচনে ২০ জন  প্রার্থীর মধ্যে ৮জন নির্বাচিত হয়। এদের মধ্যে দশম শ্রেণীর মোঃ জাকারিয়া, নবম শ্রেণীর ইয়াসমিন খাতুন, মেহেদী হাসান, অষ্টম শ্রেণীর সুমি আক্তার, সপ্তম শ্রেণীর বানী খাতুন, মোঃ আল আমিন শেখ, ষষ্ঠ শ্রেণীর কোহিনুর নেছা কেয়া ও রিহাদ খান নির্বাচিত হয়।

খোকসার কালী প্রতিমা বিসর্জন সম্পন্ন

খোকসা প্রতিনিধি \ গড়াই নদীতে প্রতিমা বির্সজনের মধ্যদিয়ে খোকসার কালী বার্ষিক পূজা প্রথম পর্ব শেষ হয়েছে। রবিবার সপ্তমী পূজার মধ্যদিয়ে বার্ষিক পূজার আনুষ্ঠানিকতা শেষ হবে। শনিবার গোধুলীতে উপজেলা সদরের গড়াই নদীতে প্রতিমা বিসর্জনের সময় নদীর দুই পারে হাজার হাজার ধর্মপ্রাণ মানুষ ভিড় জমায়। উলুধ্বনী শাঁখ ও বাদ্য বাজানো হয়। মাঘি অমাবস্যার তীথিতে কালীর বার্ষিক পূজা শুরু হয়েছিল শুক্রবার বিকালে। সারা রাতব্যাপী পূজা অর্চনা ও মানষা সামগ্রী নিয়ে ভক্ত পূর্ণাথীরা উপস্থিত ছিলেন। অমাবস্যার তীথিতে কালীর বার্ষিক পূজা উপলক্ষে খোকসা উপজেলা সদরের কালীবাড়ীর মাঠে আয়োজিত গ্রামীণ মেলায় পসরা সাজিয়ে বসেছে কয়েকশ ব্যবসায়ী।

ফেয়ারের উপদেষ্টা বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহাবুব আলী স্মরণে সভা

কুষ্টিয়া জেলা জাসদের সাবেক সভাপতি, সামাজিক উন্নয়ন সংস্থা   ফেয়ারের উপদেষ্টা বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহাবুব আলীর স্মরনসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার বিকাল ৪ টায় শহরের থানাপাড়াস্থ বে-সরকারী সংস্থা ফেয়ার মিলনায়তনে ফেয়ার কার্যনির্বাহী কমিটির   চেয়ারম্যান শামসুন নাহারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত স্মরণসভায় উপস্থিত থেকে প্রয়াত শাহবুব আলীর কর্মময় জীবদ্দশার স্মৃতি চারণসহ আলোচনা করেন রবীন্দ্র মৈত্রী বিশ^বিদ্যালয়ের কলা অনুষদের ডীন প্রফেসর ডঃ শহিদুর রহমান, অধ্যাপক অজয় বিশ্বাস, সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন কুষ্টিয়ার সভাপতি বীর মুক্তিযুদ্ধা নজরুল ইসলাম, জাসদ কুষ্টিয়া জেলার প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক কারশেদ আলম, কুষ্টিয়া জেলা বাসদের আহŸায়ক কমরেড শফিউর রহমান শফি, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব কনক চৌধুরী, মিরপুর উপজেলা জাসদের সাধারন সম্পাদক আহাম্মদ আলী, বীর মুক্তিযোদ্ধা এনামুল হক বিশ্বাস, প্রয়াত শাহাবুব আলীর পিতৃহারা সন্তান মেহেদী আলম সজিব, ফেয়ার পরিচালক দেওয়ান আকতারুজ্জামানসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের  নেতৃবৃন্দ। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

ধনী গার্ডেন রেস্টুরেন্টের বর্ষপূর্তি উদযাপনে প্রধান অতিথি ছিলেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনসী

নিজ সংবাদ \ কুষ্টিয়ার স্বনামধন্য ধনী গার্ডেন রেস্টেুরেন্টর বর্ষপূর্তি উদযাপিত হয়েছে। গতকাল শহরের পেয়ারাতলা মোড়ে অবস্থিত ধনী গার্ডেন রেস্টুরেন্টের নিজস্ব হলরুমে দিনব্যাপী এই বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলদেশ সরকারের বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনসী। ধনী রেস্টুরেন্টের কর্নধার হাসান হাফিজ হামিমের সঞ্চলনায় বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কুষ্টিয়ার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিক ও সূধীজনরা। উল্লেখ্য, প্রতিষ্ঠার পর থেকে ধনী রেস্টুরেন্ট সর্বশ্রেনীপেশার মানুষের কাছে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জনের পাশাপাশি মানসম্মত খাবার পরিবেশন ও সাশ্রয়ী মূল্যের জন্য ব্যাপক সুনাম অর্জন করেছে।

ঝিনাইদহে ৩ দিনব্যাপী জাতীয় নজরুল সম্মেলন শুরু

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি \ ঝিনাইদহে শুরু হয়েছে ৩ দিনব্যাপী জাতীয় নজরুল সম্মেলন। এ উপলক্ষে শনিবার সকালে শহরের পুরাতন ডিসি কোর্ট চত্বর থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালী বের করা হয়। র‌্যালিটি শহরের বিভিন্ন সড়ক ঘুরে জেলা শিল্পকলা একাডেমীতে গিয়ে শেষ হয়। পরে সেখানে বেলুন উড়িয়ে সম্মেলনের উদ্বোধন করা হয়। পরে শিল্পকলা একাডেমী মিলনাতনে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা। জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর ড. প্রফেসর হারুন-উর-রশিদ আসকারী বলেন, নজরুল ছিলেন একজন বিস্ময়কর বাঙালী প্রতিভা। মাত্র ২৩ বছরেই তিনি বিপুল প্রতিভার জন্ম দিয়ে গেছেন। তিনি ছিলেন, অকুতোভয় ও দ্রোহী কবি। তিনি ছিলেন মানবতাবাদী ও সকল ধর্মের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তিনি নজরুলকে মননে গ্রহণ করার জন্য নতুন প্রজন্মের প্রতি আহŸান জানান। এতে একেক জন সুপারম্যান হতে পারবে বলেও তিনি আশা করেন। অনুষ্ঠানে মুখ্য আলোচক ছিলেন কবি নজরুল ইসলাম ইনস্টিটিউটের নির্বাহী পরিচালক আব্দুর রাজ্জাক ভূঞা। এসময় আরও বক্তব্য রাখেন সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য খালেদা খানম, পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামান, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের প্রধান প্রফেসর ড. আনোয়ার হোসেন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন কবি নজরুল ইসলাম ইনস্টিটিউটের সচিব মো: আব্দুর রহিম। সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের আয়োজনে ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় শনিবার থেকে শুরু হওয়া এ সম্মেলন শেষ হবে আগামী ২৭ জানুয়ারি। ৩ দিনব্যাপী এ অনুষ্ঠানে কবি গান পরিবেশন, আলোচনা সভা ও তার জীবন দর্শণ নিয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে।

ইবিতে মোটরযান আইন ও পেশাগত দক্ষতা উন্নয়ন বিষয়ক কর্মশালা

ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারী (ড. রাশিদ আসকারী) বলেছেন, মোটরযান আইন সকলের জানা প্রয়োজন। এ আইনের প্রতি সকলকে শ্রদ্ধাশীল হতে হবে। তিনি বলেন, মোটরযান আইন সংস্কার হয়েছে। বিশেষ করে যারা মোটরযান পেশায় জড়িত তাদেরকে অবশ্যই সংস্কার আইন সম্পর্কে জানতে হবে। তিনি বলেন, মোটরযান আইন সম্পর্কে জনসচেতনতা বৃদ্ধি করতে না পারলে সড়ক দূর্ঘটনা নিয়ন্ত্রন করা খুব কঠিন হবে পড়বে। ড. রাশিদ আসকারী বলেন, আমাদের পরিবহন অফিসকে আরো শক্তিশালী করতে আজকের এই কর্মশালার আয়োজন করা হয়েছে। প্রয়োজনে এ কর্মশালা অব্যাহত রাখা হবে। গতকাল শনিবার সকালে প্রশাসন ভবনের সভাকক্ষে ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ে অভ্যন্তরীন প্রশিক্ষণ কর্মসূচির অংশহিসেবে পরিবহন অফিসের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা, গাড়ী চালক ও হেলপারদের মটরযান আইন এবং পেশাগত দক্ষতা উন্নয়ন বিষয়ে প্রশিÿণ কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় ড. রাশিদ আসকারী এসব কথা বলেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন রেজিস্ট্রার (ভার:) এস এম আব্দুল লতিফ। অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন পরিবহন প্রশাসক প্রফেসর ড. মোঃ রেজওয়ানুল ইসলাম। রিসোর্সপারসন হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অর্থরিট কুষ্টিয়া সার্র্কেলের সহকারী পরিচালক এটিএম জামাল উদ্দিন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার (ভারঃ) ড. নওয়াব আলী খান। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন উপ-রেজিস্ট্রার মোঃ আলমঙ্গীর হোসেন খান। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে রিসোর্স পারসন এটিএম জামাল উদ্দিন সেমিনারে মুল প্রবদ্ধ উপস্থাপন করেন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

‘গরু আনতে গিয়ে সীমান্তে নিহত হলে দায়িত্ব নেবে না সরকার’ – খাদ্যমন্ত্রী

ঢাকা অফিস \ ভারতে অনুপ্রবেশ করে গরু আনতে গিয়ে কেউ সীমান্তে নিহত হলে সরকার কোনো দায়িত্ব নেবে না বলে জানিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার। শনিবার দুপুরে রাজশাহীর পবা উপজেলার দামকুড়াহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের হীরক জয়ন্তী অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান। গত ২২ জানুয়ারি খাদ্যমন্ত্রীর নির্বাচনী এলাকা পোরশা সীমান্তে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) গুলিতে তিন বাংলাদেশি নিহত প্রসঙ্গে সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেন, আমরা গরুর বিট খুলতে দেবো না। এজন্য উপজেলা ও জেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটি এবং বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) রেজুলেশন করা হয়েছে। এরপরও কেউ যদি সীমান্তের কাঁটা তারের বেড়া কেটে গরু আনতে গিয়ে গুলিতে মারা যান তার দায়-দায়িত্ব সরকার নেবে না।  এর আগে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুর নির্দেশে বাঙালিরা স্বাধীনতা যুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়ে এবং দীর্ঘ নয় মাস রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মাধ্যমে দেশ স্বাধীন করে। ২০৪১ সালের মধ্যে আমাদের যে ভিশন উন্নত রাষ্ট্রে উপনীত হওয়া তা প্রধানমন্ত্রীর দৃঢ় নেতৃত্বের ফলে ২০৩১ সালের মধ্যেই অর্জিত হবে। দেশে খাদ্য নিরাপত্তা আছে, এখন প্রয়োজন নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করা। এ লক্ষ্যেই সরকার কাজ করছে। তবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে লেখাপড়ার মূল লক্ষ্য শুধু চাকরি পাওয়া নয়। একজন আদর্শ মানুষ হওয়াটাই বেশি প্রয়োজন। ছেলে-মেয়েদের দেশ প্রেমে উদ্বুদ্ধ করতে হবে, তাহলেই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তোলা সম্ভব। তিনি বলেন, অনেক অভিভাবক আছেন যারা ছেলে-মেয়েদের খোঁজ-খবর রাখেন না, এতে তারা বিপথে যেতে পারে। মোবাইল ফোন যাতে ভালো কাজে ব্যবহার হয় সে ব্যাপারেও অভিভাবকদের সচেতন থাকতে পরামর্শ দেন মন্ত্রী। এ সময় স্কুলটির বিভিন্ন উন্নয়নে সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাসও তিনি। অনুষ্ঠানে রাজশাহী বিসিক এর (অব.) এজিএম আব্দুল লতিফ এর সভাপতিত্বে মূল আলোচক হিসেবে রাজশাহী-৩ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) আয়েন উদ্দিনসহ বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান মোকবুল হোসেন, পবা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুনসুর রহমান, পবা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন প্রমুখ। এছাড়া অনুষ্ঠানে বিদ্যালয়টির সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা অংশ নেন।

কুষ্টিয়া কলকাকলি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন অনুষ্ঠিত

আনন্দঘন উৎসবমুখর পরিবেশে কুষ্টিয়া কলকাকলি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন-২০২০ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শনিবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচনে ৫৫০জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করে ১৪জন প্রতিযোগীর মধ্যে ৮জনকে স্টুডেন্টস কেবিনেট সদস্য নির্বাচিত করেন।  শ্রেণীভিত্তিক নির্বাচিত ৫জন কেবিনেট সদস্যরা হলেন- ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ওয়ারিদ আলী কাফি, ৭ম শ্রেণীর সাব্বির হোসেন, ৮ম শ্রেণীর নওরিন তাসনিম লাকি, ৯ম শ্রেণীর আয়েশা আক্তার তিন্নি ও ১০ম শ্রেণীর নাফিজ আহমেদ এবং সর্বাধিক  ভোটাধিকারের মাধ্যমে আরও ৩জন সদস্য নির্বাচিত হন। এরা হলেন ৮ম শ্রেণীর ফাহিম মাহমুদ, ৯ম শ্রেণীর আনিসুজ্জামান ও ১০ম শ্রেণীর শাহিনুল ইসলাম। ৮জন নির্বাচিত সদস্যের মধ্যে সর্বোচ্চ ভোট পেয়ে ১০ম শ্রেণীর নাফিজ আহমেদ কেবিনেট প্রধান মনোনিত হন। নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার এর দায়িত্ব পালন করেন রাশেদ মাহামুদ। কলকাকলি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন পরিদর্শন করেন জেলা শিক্ষা অফিসার জায়েদুর রহমান। এ সময় কলকাকলি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জেব-উন-নিসা সবুজ, সহকারী প্রধান শিক্ষক পারভীন আক্তারসহ অন্যান্য শিক্ষকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

 

সন্ত্রাস, মাদকমুক্ত সমাজ গঠন, বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ এবং  যৌতুকের মত সামাজিক ব্যাধি দুরীকরণ

ভেড়ামারায় সপ্তাহব্যাপী বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন

আল-মাহাদী \ কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় উপজেলা পরিচালন ও উন্নয়ন প্রকল্প এবং জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সী (জাইকা)’র সহযোগিতায় গতকাল শনিবার সকাল ১০টায় হালিমা বেগম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের হলরুমে সন্ত্রাস, মাদকমুক্ত সমাজ গঠন, বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ এবং যৌতুকের মত সামাজিক ব্যাধিকে দুর করতে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সপ্তাহব্যাপী সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন এর শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে। কুষ্টিয়া জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও ভেড়ামারা উপজেলা মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান মোছাঃ বলাকা পারভীন স্বপ্না’র সভাপতিত্বে উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ভেড়ামারা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী আক্তারুজ্জামান মিঠু। সপ্তাহব্যাপী সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন এর শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উদ্বোধক ছিলেন ভেড়ামারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহেল মারুফ। উপজেলা জাতীয় মহিলা সংস্থার সমন্বয়কারী মোহাঃ আসমান আলী’র উপস্থাপনায় এসময় বিশেষ অতিথি ছিলেন ভেড়ামারা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ শাহ জালাল, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মোছাঃ ইন্দোনেশিয়া খাতুন, উপজেলা মাধ্যমিক শিÿা অফিসার মোঃ ফারুক আহম্মেদ, উপজেলা প্রধান শিক্ষক সমিতি’র সভাপতি ও জুনিয়াদহ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ মোয়াজ্জেম হোসেন, চন্ডিপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আব্দুল ওহাব, হালিমা বেগম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ শফিকুল ইসলাম শফি, সহকারী শিক্ষক মোছাঃ ফামিদা পারভীন পলি, ভেড়ামারা থানার সেকেন্ড অফিসার মোঃ রিফাজ উদ্দিন, উপজেলা পরিচালন ও উন্নয়ন প্রকল্প কর্মকর্তা উত্তম কুমার বিশ^াস, ভেড়ামারা প্রেসক্লাবের যুগ্ন আহবায়ক ও খোলা কাগজের প্রতিনিধি এস.এম.আবু ওবাইদা-আল-মাহাদী, দৈনিক মাটির পৃথিবী’র প্রতিনিধি মাসুদ রানা প্রমূখ। উদ্বোধন ও প্রকল্প পরিচিতি শেষে বাল্যবিবাহ এবং যৌতুক প্রথার কারণ, কুফল ও এর সামাজিক প্রভাব, বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ আইন বিষয়ে আলোচনা ও প্রশ্নোত্তর পর্বে মূল্যবান বক্তব্য প্রদান করেন ভেড়ামারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহেল মারুফ। এছাড়াও সন্ত্রাস দমন, নারী নির্যাতন, মাদকাসক্ত ও ইফটিজিং প্রতিরোধ আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর তৎপরতা বিষয়ে আলোচনা ও প্রশ্নোত্তর পর্বে মূল্যবান বক্তব্য প্রদান করেন ভেড়ামারা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ শাহ জালাল। এসময় হালিমা বেগম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সকল শ্রেনীর ছাত্র/ছাত্রীরা অংশগ্রহন করেন। অনুষ্ঠানের শুরুতেই সম্মানীত সকল অতিথিবৃন্দকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

 

খোকসা প্রতিপক্ষের হামলায় মা-মেয়ে আহত

খোকসা প্রতিনিধি \ জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় মাসহ কলেজ পড়–য়া মেয়ে গুরুতর আহত হয়েছে। জানা গেছে, উপজেলার খোকসা ইউনিয়নের হেলালপুর গ্রামের শহিদুল ইসলামের সাথে প্রতিবেশী আক্কাস আলীর বাড়ির জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছে। এ ঘটনার সুত্র ধরে শুক্রবার দিনগত রাতে শহিদুলের বাড়িতে প্রতিপক্ষের লোকেরা হামলা চালায়। এ সময় শহিদুলকে না পেয়ে তার স্ত্রী রিনা খাতুন (৫০) ও মেয়ে কুষ্টিয়া সরকারী কলেজের ছাত্রী ফারজানা বেবী (২৪) এর উপর হামলা চালায়। রাতেই আহতদের প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি ঘটলে তাৎক্ষনিকভাবে আহত মা-মেয়েকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে স্থানন্তর করা হয়। হামলায় রিনা খাতুনের ডান হাত ভেঙ্গে গেছে। এ ছাড়া তার সম¯Í শরীর জুড়ে ৩০ টি ক্ষত হয়েছে বলে হাসপাতাল সূত্র জানায়। শনিবার দুপুরের সরেজমিন হিলালপুর গ্রামে গিয়ে আহতদের পরিবারের সদস্য নারী ও পুরুষের সাথে কথা বলা হয়। তারা জানায়, বাড়ির জমি নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। শুক্রবার রাতের হামলা দিয়ে প্রতিপক্ষ শহিদুলের বাড়িতে চার দফায় হামলা করেছে। প্রতিপক্ষের টাকার জোরে প্রতিবারই পার পেয়ে যায়। আহত গৃহবধূর স্বামী শহিদুল ইসলাম জানান, হামলাকারীরা তাকে না পেয়ে তার স্ত্রী ও মেয়েকে পিটিয়েছে। তাদের হামলায় তার স্ত্রীর ডান হাত ও পা ভেঙ্গে গেছে। রোগীদের চিকিৎসার জন্য সে মামলা করতে করতে পারেনি। আজ (শনিবার) রাতে সে মামলা করতে থানায় যাবে। হামলার নেতৃত্ব দেওয়া আক্কাস আলীর ছেলে এনামূল জানায়, প্রতিপক্ষ তার কাছে চাঁদা দাবি করে আসায় তারা বাধ্য হয়ে হামলা করেছে। তবে সংবাদটি পরিবেশন না করার জন্য তিনি অনুরোধ করেন।

মিয়ানমারকে অবশ্যই আন্তর্জাতিক আদালতের রায় মানতে হবে – তথ্যমন্ত্রী

ঢাকা অফিস \ তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, মিয়ানমারকে আন্তর্জাতিক আদালতের রায় অবশ্যই মানতে হবে। এই রায় প্রত্যাখ্যান করার তাদের কোন সুযোগ নাই। এটি একটি ঐতিহাসিক রায়। সেখানে যতজন বিচারক ছিলেন তারা সর্বসম্মতভাবে এই রায় দিয়েছেন। আন্তর্জাতিক আদালতের রায়ে মিয়ানমারকে ৪ মাস পর আদালতকে এই রায়ের কতটুকু বা¯Íবায়ন করেছে তার রিপোর্ট করতে বলা হয়েছে বলেও জানান তিনি। তথ্যমন্ত্রী গতকাল শনিবার দুপুরে চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ‘বিশেষ এলাকার জন্য উন্নয়ন সহায়তা’ শীর্ষক কর্মসূচীর আওতায় উপজেলার ক্ষুদ্র নৃ-জনগোষ্ঠির মাঝে বিভিন্ন উপকরণ বিতরণ ও ক্যান্সার রোগীদের অনুদানের চেক হ¯Íান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। হাছান মাহমুদ বলেন, ‘যেসম¯Í দেশগুলো এই রায়ের আগে মিয়ানমার যে মানবতা বিরোধী অপরাধ সংগঠিত করেছে, এবং রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীকে নির্মূল করেছে তা নিয়ে এতদিন দ্বিধাদ্বন্ধে ছিল। আমি মনে করি এই রায়ের পর তারা মিয়ানমারকে চাপ প্রয়োগ করবে। এতদিন যারা মিয়ানমারকে এই কাজ থেকে নিবৃত্ত করার ক্ষেত্রে পর্যাপ্ত চাপ প্রয়োগ করেনি তারা রোহিঙ্গাদের যাতে পূর্ণাঙ্গ নাগরিক অধিকার দিয়ে বাংলাদেশ থেকে ফেরত নিয়ে যায় সেজন্য মিয়ানমারের উপর চাপ প্রয়োগ করবে।’ তথ্যমন্ত্রী বলেন, মিয়ানমার যেভাবে সেখানে মানুষ হত্যা করেছে, ছোট শিশুদের হত্যা করেছে, সন্তানের সামনে মাকে ধর্ষণ করেছে। নির্বিচারে জবাই করে হত্যা করা হয়েছে, সেটা মানবতা বিরোধী অপরাধ। সেই অপরাধের বিরুদ্ধে ওআইসি’র সকল সদস্য রাষ্ট্রের পক্ষে গাম্বিয়া আন্তর্জাতিক আদালতে (ইন্টারন্যাশনাল ক্রিমিনাল কোর্ট অব জাস্টিসে) মামলা করেছে। সেই মামলায় মিয়ানমারের বিরুদ্ধে একটি ঐতিহাসিক রায় হয়েছে। তিনি বলেন, সেই মামলায় আন্তর্জাতিক আদালত অন্তর্বর্তীকালীন আদেশে বলেছে মিয়ানমারকে অবিলম্বে মানবতা বিরোধী অপরাধ বন্ধ করতে হবে। সেখানে যে আরও রোহিঙ্গারা রয়েছে তাদের যাতে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা দেওয়া হয় এবং ইতিপূর্বে যে অপরাধ সংগঠিত হয়েছে সেগুলো সংরক্ষণ করতে হবে। মিয়ানমারের সেনাবাহিনীসহ অন্যান্য যে সম¯Í বাহিনী অপরাধ সংগঠিত করেছে তারা যাতে আর কোনভাবেই এ ধরণের কাজে যুক্ত না থাকে তা রায়ে উল্লেখ করা হয়েছে বলেও জানান তিনি। রাঙ্গুনিয়া উপজেলার ক্ষুদ্র নৃ-জনগোষ্ঠির শিক্ষার্থীদের জন্য শিক্ষা বৃত্তি হিসেবে প্রাথমিকে ১০১ জন শিক্ষার্থীকে ১২শ’ টাকা করে, ৬ষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণির ৯৪ জন শিক্ষার্থীকে ১৫শ’ টাকা করে, একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণীর ৯ জন শিক্ষার্থীকে ৩২শ’ টাকা এবং ডিগ্রী ও অনার্স পর্যায়ে ২ জন শিক্ষার্থীকে ৪ হাজার ৫শ’ টাকা করে দেওয়া হয়। প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ে ২শ’ জন শিক্ষার্থীকে শিক্ষা উপকরণ এবং ২টি সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানকে ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সামগ্রী এবং ৩০ জনকে বাইসাইকেল দেওয়া হয়। এছাড়া ২১ জন ক্যান্সার, কিডনি, লিভার সিরোসিস, স্ট্রোক, প্যারালাইসিস ও জন্মগত হৃদরোগীদের র্আর্থিক অনুদানের চেক বিতরণ করা হয়। উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে ইউএনও মো. মাসুদুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান খলিলুর রহমান চৌধুরী, পৌরসভার মেয়র শাহজাহান সিকদার, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার শামসুল আলম তালুকদার প্রমূখ।

 

মিয়ানমারে সেনাবাহিনীর গোলায় ২ রোহিঙ্গা নারী নিহত – এমপি

ঢাকা অফিস \ জাতিসংঘের সর্বোচ্চ আদালত রোহিঙ্গাদের সুরক্ষায় মিয়ানমারকে জরুরি ভিত্তিতে চার দফা অন্তর্বর্তীকালীন পদক্ষেপ নিতে নির্দেশ দেওয়ার দুই দিনের মাথায় দেশটির সেনাবাহিনীর নিক্ষিপ্ত গোলায় গর্ভবতী একজনসহ দুই রোহিঙ্গা নারী নিহত হয়েছে বলে অভিযোগ এসেছে। গতকাল শনিবার রোহিঙ্গাদের একটি গ্রামে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর গোলাবর্ষণে ওই দুই নারী নিহত ও আরও সাত জন আহত হয়েছে বলে দেশটির একজন পার্লামেন্ট সদস্য ও একজন গ্রামবাসীর বরাত দিয়ে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। রাখাইন রাজ্যের উত্তরাঞ্চলীয় শহর বুথিডাং থেকে নির্বাচিত পার্লামেন্ট সদস্য মং কিয়াও জান জানান, গভীর রাতে নিকটবর্তী ব্যাটেলিয়ন থেকে ছোড়া গোলা কিন তায়ুং গ্রামে আঘাত হানে। টেলিফোনে রয়টার্সকে তিনি বলেন, “কোনো যুদ্ধ ছাড়াই একটি গ্রামে কামানের গোলা নিক্ষেপ করেছে তারা, সেখানে কোনো লড়াই ছিল না।” চলতি বছরে এই নিয়ে দ্বিতীয়বার সেখানে বেসামরিকদের হত্যা করা হল বলে জানিয়েছেন তিনি। কিন তায়ুং থেকে মাইলখানেক দূরে বসবাসকারী রোহিঙ্গা গ্রামবাসী সো তুন ওও ফোনে রয়টার্সকে গোলার বিস্ফোরণে দুটি বাড়ি ধ্বংস হওয়ার কথা জানিয়েছেন। তিনি বলেন, “মিলিটারিরা সব সময় ভারী অস্ত্র থেকে গোলাবর্ষণ করে। যে এলাকাকেই সন্দেহজনক মনে হয় সেখানেই ভারী অস্ত্রের গোলাবর্ষণ করে তারা। আমরা ভয়ে থাকলেও অন্য কোথাও পালিয়ে যাওয়া অসম্ভব।” এ হামলার দায় অস্বীকার করেছে মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী। হামলার দায় বিদ্রোহীদের দিয়েছে তারা। ভোররাতে বিদ্রোহীরা একটি সেতুতে আক্রমণ চালিয়েছিল বলে জানিয়েছে তারা। রাশিয়ার সামাজিক যোগাযোগ নেটওয়ার্ক ভিকে-তে পোস্ট করা এক বিবৃতিতে মিয়ানমার সেনাবাহিনী, দুই রোহিঙ্গা নারী নিহত হওয়ার কথা নিশ্চিত করলেও এর জন্য আরাকান আর্মিকে দায়ী করেছে। দুই পক্ষের সংঘর্ষের সময় আরাকান আর্মির গোলা ওই গ্রামে আঘাত হেনেছে বলে দাবি করেছে তারা। হতাহতের এ ঘটনা নিয়ে মন্তব্যের জন্য ফোন করা হলেও মিয়ানমারের দুই সামরিক মুখপাত্র জবাব দেননি বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

রাখাইনে মিয়ানমারের সরকারি বাহিনী এক বছরেরও বেশি সময় ধরে স্থানীয় নৃগোষ্ঠীগত বিদ্রোহী বাহিনী আরাকান আর্মির বিরুদ্ধে লড়াই করছে। ২০১৭ সালে এই রাজ্যের উত্তরাঞ্চলে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিমদের বিরুদ্ধে মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর নিষ্ঠুর দমনাভিযান চালিয়েছিল। তখন প্রায় সাড়ে সাত লাখ রোহিঙ্গা জান বাঁচাতে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে প্রতিবেশী বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়। গণহত্যার অভিপ্রায় নিয়ে ওই দমনাভিযানটি চালানো হয়েছিল বলে জাতিসংঘ জানিয়েছে। এখনও রাখাইনে ছয়-সাত লাখ রোহিঙ্গা রয়েছে। তাদের অনেকেই জাতিবিদ্বেষের মতো পরিস্থিতিতে আটকা পড়ে আছেন। তারা মুক্তভাবে চলাচল করতে পারছেন না, এমনকী হাসপাতালে ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেও যেতে পারছেন না। স¤প্রতি রাখাইনের স্থানীয় সংখ্যাগরিষ্ঠ বৌদ্ধ স¤প্রদায়ের সদস্যদের নিয়ে গঠিত বিদ্রোহী গোষ্ঠী আরাকান আর্মির (এএ) সঙ্গে দেশটির সামরিক বাহিনীর লড়াই শুরু হয়েছে। এ লড়াইয়ে বহু লোক নিহত ও হাজার হাজার লোক বা¯Íুচ্যুত হয়েছেন। রোহিঙ্গারা এই লড়াইয়ের মাঝে আটকা পড়ে গেছে। রাখাইন রাজ্যে মুক্তভাবে চলাচলের ওপর বিধিনিষেধ থাকায় লড়াই শুরু হলে বৌদ্ধ প্রতিবেশীদের চেয়ে রোহিঙ্গাদের পালানো সুযোগ সীমিত হয়ে পড়েছে বলে ধারণা পাওয়া যাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে নেদারল্যান্ডের দ্য হেগ-ভিত্তিক ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অব জাস্টিস (আইসিজে) বৃহস্পতিবার মিয়ানমারকে রোহিঙ্গাদের ওপর যেন আর কোনো নৃশংসতা না হয় তা নিশ্চিত করে তাদের সুরক্ষা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে। নভেম্বরে পশ্চিম আফ্রিকার দেশ গাম্বিয়া মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গণহত্যার অভিযোগ এনে আইসিজেতে একটি অভিযোগ দাখিল করে। ওই অভিযোগ ও গাম্বিয়ার একটি আবেদনের প্রেক্ষিতে রোহিঙ্গাদের সুরক্ষা দেওয়ার পাশাপাশি মিয়ানমারকে কথিত অপরাধের আলামত সংরক্ষণসহ চার দফা অন্তর্বর্তীকালীন পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অব জাস্টিস।

 

আমরা আছি গণসংযোগে, তারা অভিযোগ নিয়ে – তাপস

ঢাকা অফিস \ রাজধানীবাসীর জন্য উন্নয়ন পরিকল্পনা নয়, বরং জাতীয় রাজনীতির অংশ হিসেবে বিভিন্ন অভিযোগ নিয়ে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীরা ব্য¯Í বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়রপ্রার্থী শেখ ফজলে নূর তাপস। গতকাল শনিবার বাবুবাজার সেতু এলাকায় গণসংযোগ শুরুর আগে এক পথসভায় তিনি বলেন, “আমরা গণসংযোগ করছি, বিপুল নেতাকর্মীসহ আমরা দ্বারে দ্বারে যাচ্ছি। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে আমরা লক্ষ্য করছি, আমাদের প্রতিপক্ষ শুধু অভিযোগ নিয়ে ব্য¯Í। “তাদের ঢাকাবাসীর জন্য কোনো উন্নয়নের রূপরেখা নেই। ঢাকাবাসীর উন্নত জীবনযাত্রার মান উন্নয়নে তাদের কোনো কার্যক্রম নেই। তারা জাতীয় রাজনীতি নিয়ে ব্য¯Í, আর আমরা ঢাকাবাসীর উন্নয়ন নিয়ে গণসংযোগ নিয়ে ব্য¯Í।” আগামী ২৮ অথবা ২৯ তারিখের মধ্যে নির্বাচনী ইশতেহার প্রকাশ করা হতে পারে জানিয়ে নৌকার প্রার্থী বলেন, “আমাদের পাঁচটি রূপরেখা- ঐতিহ্যের ঢাকা, সুন্দর ঢাকা, সচল ঢাকা, সুশাসিত ঢাকা এবং উন্নত ঢাকা গড়ার লক্ষ্যে আগামী ১ ফেব্র“য়ারি নির্বাচন। আমি মনে করি ঢাকাবাসীর জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচন। এই নির্বাচনে ঢাকাবাসীর রায়ের মাধ্যমেই উন্নত ঢাকা গড়ার লক্ষ্যে একটি নবসূচনা, নবযাত্রা আমরা করতে চাই। “আমি আশা করি, ঢাকাবাসী সেই উন্নত ঢাকা গড়তে তাদের রায় নৌকা মার্কায় দিয়ে তাদের সেবক হিসেবে আমাকে নির্বাচিত করবে। একই সঙ্গে স্ব স্ব ওয়ার্ডের কাউন্সির প্রার্থীদের নির্বাচিত করে উন্নত ঢাকা গড়ার পক্ষে রায় দেবে।” এ সময় ৩২ নম্বর ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগ সমর্থিত কাউন্সিলরপ্রার্থী হাজী এম এ মান্নান (লাটিম প্রতীক) এবং ৩৭ নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলরপ্রার্থী মো. আব্দুর রহমান মিয়াজীকে (ঘুড়ি প্রতীক) পরিচয় করিয়ে দেন তাপস। এর আগে বাবুবাজার সেতুর নিচে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, যুব মহিলা লীগ, ছাত্রলীগসহ দলটির সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা জড়ো হয়। ব্যানার, ফেস্টুন নিয়ে মিছিল ও ¯ে¬াগানে তারা মুখর করে তুলে আশপাশের এলাকা। বেলা আড়াইটার দিকে শেখ ফজলে নূর তাপস সেখানে উপস্থিত হলে নেতাকর্মীরা তার হাতে ফুলের নৌকা প্রতীক তুলে দিয়ে শুভেচ্ছা জানায়। পরে তাপস গণসংযোগ শুরু করেন।

শহীদ জিয়া তরুণদের রাজনীতিতে এনেছেন – মির্জা আব্বাস

ঢাকা অফিস \ শহীদ জিয়া তরুণদের রাজনীতিতে এনেছেন বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস। তিনি বলেন, ‘শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের সময় আমরা যারা এখন জাতীয় রাজনীতিতে আছি তাদের অনেককেই শহীদ জিয়া সেই সময় কমিশনার নির্বাচনের মাধ্যমে রাজনীতিতে এনেছেন। অথচ এখন তেমনটা না দেখে কষ্ট পাই, তবে হতাশ নই, কারণ ইশরাকের মতো তরুণরাও আসছে। কাজেই তরুণ সমাজকে রাজনীতিতে আসার চিন্তা মাথায় রেখে পড়াশোনা করে যেতে হবে।’ শনিবার সকাল থেকে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের আরামবাগ, ফকিরাপুলসহ ঢাকা-৮ আসনের নির্বাচনী এলাকায় বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী ইশরাক ও কাউন্সিলর প্রার্থীদের পক্ষে প্রচারণার সময় তিনি এ সব কথা বলেন। পরিচ্ছন্ন নগরী ও দুর্নীতিমুক্ত রাষ্ট্র গঠনে তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে আসার আহŸান জানিয়ে তিনি বলেন, যুব ও তরুণ সমাজের হাতেই রাষ্ট্র পরিচালনার ভার আসবে ভবিষ্যতে, কিন্তু আহত হই তেমন কোনো ভবিষ্যৎ নেতৃত্ব আমরা রাজনীতিতে দেখছি না।

বিএনপি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর অজুহাত খুঁজছে – সেতুমন্ত্রী

ঢাকা অফিস \ আওয়ামী লীগর সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি সিটি করপরোশন নির্বাচনে হেরে যাওয়ার আশঙ্কায় নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর অজুহাত খুঁজছে। গতকাল শনিবার সকালে মহাখালির ব্র্যাক সেন্টারে এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। নারী গাড়িচালকদের প্রশিক্ষণ পরবর্তী সার্টিফিকেট বিতরণ উপলক্ষে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে ব্র্যাক। ‘সিটি করপোরেশন নির্বাচনে জেতার জন্য সরকার সবকিছু ব্যবহার করছে’ বিএনপি নেতাদের এমন বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমরা উল্টো চিত্রটাই জানি। বিএনপি’র নির্বাচনে হেরে যাবার আশঙ্কা আছে। তাই বিএনপি নির্বাচন থেকে সওে দাঁড়ানোর জন্য নানামুখি অজুহাত খুঁজছে।’ তিনি বলেন, ‘বিএনপি তথ্যপ্রমাণ দিক। কোথায় কোথায় সরকারের মাধ্যমে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন দেখছেন। সেটাতো প্রমাণ করতে হবে, তার প্রমাণ তারা দিক। দেশবাসী জানুক, শুধু মনগড়া কথা বললে তো হবে না। বিএনপি তো অন্ধকারে ঢিল ছুঁড়ে।’ সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘অন্ধকারে ঢিল ছোঁড়ার মতো বক্তব্য দিলে তো হবে না। কোথায় সরকার আচরণবিধি লঙ্ঘন করেছে, নির্বাচনকে প্রভাবিত করেছে বলুক। আমি পার্টির সেক্রেটারি। একটা অফিসেও আমি আজ পর্যন্ত যাইনি। তাহলে কীভাবে প্রভাবিত হচ্ছে আমি জানি না।’ বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির ব্যাপারে তার পরিবারের বিশেষ আবেদন করার ব্যাপারে তিনি বলেন, যারা বিশেষ আবেদনের কথা বলছেন, তারা আসলে আবেদন কার কাছে করবেন? আদালত নাকি সরকারের কাছে? বেগম জিয়া কিন্তু এখন আদালতের এখতিয়ারে। এখানে সহমর্মিতা-সহানুভূতির বিষয় নয়, এটা লিগ্যাল ব্যাপার। আসলে, সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম জিয়ার ব্যাপারে সরকারের পক্ষ থেকে সহমর্মিতা বা সহানুভূতির ঘাটতি নাই। কিন্তু এক্ষেত্রে সহানুভূতির কথা বলে তো আমরা আদালতকে প্রভাবিত করতে পারি না।

সিটি নির্বাচান প্রসঙ্গে সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজনের) বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, সদ্য সমাপ্ত চট্টগ্রাম উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী জয় লাভ করেছেন। আবার বগুড়ার দুপচাঁচিয়া পৌরসভা নির্বাচনে ইভিএম পদ্ধতিতে বিএনপির প্রার্থী জয়লাভ করেছেন। যদি ইভিএমে কারচুপি করার সুযোগ থাকে এবং নির্বাচন নিয়ে কোনো জালিয়াতি হয় তাহলে চট্টগ্রাম ও উপ-নির্বাচনে ভোটার উপস্থিতি কম কেন? সরকারের যদি এখানে খারাপ কোনো উদ্দেশ্য থাকতো তাহলে তো নির্বাচনে উপস্থিতির সংখ্যা বেড়ে যেতো। নির্বাচনে কারচুপি হয়েছে এমন অভিযোগ করা যুক্তিহীন। তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত যতগুলো নির্বাচন ইভিএম পদ্ধতিতে হয়েছে তারা বলুক কোন জায়গায়, কখন কিভাবে নির্বাচনে জালিয়াতি হয়েছে, একটা অন্তত উল্লেখ করুক। কোনো তথ্য প্রমাণ নেই তারা শুধু বলার জন্য বলেই যাচ্ছেন। এর আগে নারী গাড়িচালকদের প্রশিক্ষণ পরবর্তী সার্টিফিকেট বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, নারী গাড়িচালকেরা নিয়ম মেনে চলেন, ঠান্ডা মাথায় গাড়ি চালান। তাঁরা নেশা করেন না, দায়িত্ব পালনের সময় মোবাইল ফোনে কথাও বলেন না। তাই যত বেশি নারীচালক নিয়োগ দেওয়া হবে, সড়ক দুুর্ঘটনার ঝুঁকি ততটাই কমবে।’ ব্র্যাকের নির্বাহী পরিচালক আসিফ সালেহের সভাপতিত্বে মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব কাজী রওশন আখতার বক্তব্য রাখেন। ব্র্যাকের প্রশাসন এবং সড়ক নিরাপত্তা কর্মসূচির পরিচালক আহমেদ নাজমুল হোসাইন ‘উইমেন বিহাইন্ড দ্য হুইল ফর রোড সেফটি’ বিষয়ে প্রেজেন্টেশন উপস্থাপন করেন। এ সময়ে বিশ্বব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর মার্সি মিয়াং টেমবন, সাহিত্যিক ও গবেষক সৈয়দ আবুল মকসুদ, ব্র্যাকের পরিচালক আন্না মিনজসহ গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র, নিরাপদ সড়ক চাই ও পরিবহন মালিক সমিতির প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানের শুরুতেই ব্র্যাকের প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত স্যার ফজলে হাসান আবেদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

মায়েরাই আদর্শলিপি, তারাই বাল্যশিক্ষা – গণপূর্ত মন্ত্রী

ঢাকা অফিস \ গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম এমপি বলেছেন, সমাজ ব্যবস্থায় নারীদের প্রতি পুরুষদের দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন সূচিত হচ্ছে। রক্ষণশীলতা থেকে এখন আমরা অনেকটাই বেরিয়ে এসেছি। এই পরিবর্তন সকলের জীবনে আনার উপর গুরুত্বারোপ করে তিনি বলেন,“সন্তানের পরিবর্তনের শিক্ষা ও ভিত্তি মা গড়ে দিতে পারেন। তাই মায়েরাই আদর্শলিপি, তারাই বাল্যশিক্ষা, তারাই সন্তানের জন্য নৈতিকতা ও মূল্যবোধের প্রশিক্ষণ কেন্দ্র।” মন্ত্রী গতকাল শনিবার রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে বিসিএস উইমেন নেটওয়ার্কের বার্ষিক সাধারণ সভা ২০২০-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। তথ্য কমিশনার ও বিসিএস উইমেন নেটওয়ার্কের সভাপতি সুরাইয়া বেগমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা এবং স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে তথ্য সচিব কামরুন নাহারসহ বিসিএস উইমেন নেটওয়ার্কের সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। গণপূর্ত মন্ত্রী বলেন, ‘কোন কোন ক্ষেত্রে পুরুষদের চেয়ে নারীদের ধারণ করার শক্তি অনেক বেশী। দাপ্তরিক কর্মকান্ডে অনেকেই আস্থা ও বিশ্বাসের জায়গা ধারণ করতে পারেন না। এক্ষেত্রে দাপ্তরিক দায়িত্ব নারীরা নিজের মধ্যে সফলভাবে ধারণ করেন বলে আমার মনে হয়। আমি চাই সকলে মিলে এ জায়গা ধারণ করবে।’ গণপূর্ত মন্ত্রী নারীদের উদ্দেশে বলেন, ‘নিজেদেরকে শুধু নারী ভাবা যাবে না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে চোখ বন্ধ করে বিবেচনা করে দেখেন, তাঁকে দল সামলাতে হয়, প্রশাসনিক দিক সামলাতে হয়ে, মন্ত্রী-এমপিরা কী করছেন তা সামলাতে হয়, বিরোধী দলের রাজনীতি দেখতে হয়, আইন-শৃংখলা বাহিনীর কর্মকান্ড দেখতে হয়, বিশ্ব কুটনীতি দেখতে হয়। দেশকে তিনি সফলভাবে অদম্য গতিতে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন।’ বিসিএস উইমেন নেটওয়ার্কের সদস্যদের উদ্দেশে মন্ত্রী আরও বলেন,আপনাদের সবার ভিতরে বেগম রোকেয়া, কবি সুফিয়া কামাল, ড. নীলিমা ইব্রাহিম এবং শেখ হাসিনার দুঃসাহসী প্রতিচ্ছবি দেখতে চাই। কারণ এগিয়ে যাবার যুদ্ধে তাঁরা সাফল্য দেখিয়েছেন। ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা বলেন, সরকার নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে অনেক পদক্ষেপ নিয়েছে। এককভাবে সরকারের প্রচেষ্টায় শতভাগ কোনকিছু করা সম্ভব নয়। তিনি বলেন, দেশে নারীর ক্ষমতায়ন, নারী-পুরুষের সমতার পরও অনেক চ্যালেঞ্জ রয়ে গেছে। নারীরা ঐক্যবদ্ধভাবে দায়িত্ব পালন করলে ২০৪১ সালে বাল্যবিবাহ, নারী নির্যাতন আমরা রোধ করতে পারবো। নারীদের সাথে সাথে পুরষদেরও এগিয়ে আসতে হবে। তাহলেই নারীদের সমস্যা সমাধান করা সম্ভব হবে।

 

শালঘর মধুয়া হাজী হাছিয়া খাতুন মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে নবীন বরণ ও বিদায় সংবর্ধনায় সাবেক সাংসদ রউফ

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কোন দলাদলি চলবে না

কুমারখালী প্রতিনিধি \ কুষ্টিয়া-৪ (কুমারখালী-খোকসা) আসনের সাবেক সংসদ সংসদ বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রউফ বলেছেন- হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু  শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা দেশরতœ শেখ হাসিনা যখন শিক্ষার মানোন্নয়নে নিরলস কাজ করছে তখন এক শ্রেণির সুবিধাভোগী মানুষ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে দলাদলি করছে। আন্দোলন সংগ্রাম করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শান্তি নষ্ট করে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে।

গতকাল শনিবার সকালে কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার শালঘর মধুয়া হাজী হাছিয়া খাতুন মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের নবীন বরণ ও এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রউফ আরো বলেন- বঙ্গবন্ধু কন্যা মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিত ও শিক্ষার্থীদের ঝরে পড়ারোধে দৃষ্টিনন্দন ভবণ নির্মাণ, শিক্ষাবৃত্তিসহ নানান কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। সেখানে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা ও মনোরম পরিবেশ  তৈরির লক্ষ্যে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে দলাদলি বন্ধ করতে হবে।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক প্রসেনজিৎ কুমার বিশ্বাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কুমারখালী মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সাবেক ভারপ্রাপ্ত কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মোকাদ্দেস হোসেন, বাগুলাট ইউনিয়নের  চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন আহমেদ খান, বাঁশগ্রাম আলাউদ্দিন আহমেদ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ আব্দুস সাত্তার ও বর্তমান অধ্যক্ষ আব্দুল আলীম, বীরমুক্তিযোদ্ধা জুলমত আলী প্রমূখ। এসময় বিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষিকা, শিক্ষার্থীসহ এলাকার বিশিষ্টজন ও অভিভাবকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

পুলিশের দাবি হৃদরোগ

দৌলতপুরে ৩ জনের অস্বাভাবিক মৃত্যু! অসুস্থ-৩

বিশেষ প্রতিনিধি \ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে ৩ জনের অস্বাভাবিক মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে এবং আরো ৩ জন অসুস্থ রয়েছে বলে জানাগেছে। নিহতরা হলেন, উপজেলার হোসেনাবাদ এলাকার সফের মিয়ার ছেলে খায়ের কসাই (৫৫), একই এলাকার এজবার আলীর ছেলে মফিজুল ওরফে মুক্তি (৩৪), ফিলিপনগর ইউনিয়নের বাহিরমাদি মসজিদপাড়া এলাকার চুন্নু কসাই (৪৫)। খায়ের কসাই ও চুন্নু কসাই একই সাথে মাংসের ব্যবসা করতেন। অসুস্থদের মধ্যে হোসেনাবাদ এলাকার জিল¬ু (৪৪) ও হান্নান (৪২) কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন এবং লিপু নামের অপর এক যুবক অসুস্থ অবস্থায় বাড়িতে রয়েছেন। পুলিশ নিহতদের মধ্যে একজনের মৃত্যু নিশ্চিত করলেও সে হৃদরোগে মারা গেছেন বলে জানিয়েছেন। স্থানীয় বিভিন্ন সুত্রে জানাগেছে, শুক্রবার রাতে দৌলতপুর উপজেলার হোসেনাবাদ বাজারের রাসেল ফার্মেসী থেকে ৭ জন স্পিরিট বা এ্যালকোহল কিনে পান করেন। পরে এদের মধ্যে গভীর রাতে খায়ের কসাই অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যায়। গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় রাতেই ঢাকায় নেওয়ার পথে মফিজুল ওরফে মুক্তি মারা যান। গতকাল ভোরে নিজ বাড়িতে মারা যান বাহিরমাদি মসজিদপাড়ার চুন্নু কসাই। কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন হান্নানের চাচা ময়েন উদ্দিন জানান, চিকিৎসাধীন দুজনই চোখে ঝাপসা দেখছেন। এদের অবস্থা ভাল নয় বলে তিনি জানিয়েছেন। মথুরাপুর ইউনিয়ন পরিষদের দফাদার নাসির উদ্দিন জানান, শুক্রবার দিবাগত রাতে স্পিরিট খেয়ে অসুস্থ হলে কুষ্টিয়ায় হাসপাতালে নেওয়ার পথে খায়ের কসাই মারা যায়। আর ঢাকায় মারা গেছে মফিজুল ওরফে মুক্তি। এ ঘটনার পর থেকেই রাসেল ফার্মেসী বন্ধ করে মালিক রাসেল পালিয়ে গেছে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছে। তবে রাসেল ফার্মেসীর পিছন থেকে শতাধিক স্পিরিটের বোতল উদ্ধার করেছে দৌলতপুর থানা পুলিশ। দৌলতপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপে¬ক্সের কর্তব্যরত চিকিসক ডা. সবুজ জানান, অ্যালকোহোল পান করে একজন দৌলতপুর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তিনি আজকে ভর্তি হয়েছেন। তবে গতকাল অসুস্থ হয়ে কে কে এসেছিলেন তা জানাতে পারেননি তিনি। দৌলতপুর থানার ওসি এস এম আরিফুর রহমান গতকাল শনিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে জানান, আমরা খবর পেয়ে খায়ের কসাইয়ের বাড়িতে যায়। তার পরিবার হৃদরোগে মারা যাবার সনদ দেখিয়েছেন। নিহত অন্যদেরও খোঁজ নেয়া হচ্ছে।

কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২

নিজ সংবাদ \ কুষ্টিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় দুইজন নিহত হয়েছেন। গতকাল শনিবার বেলা ১১টায় কুষ্টিয়া-রাজবাড়ী মহাসড়কের দবির মোল্লা গেট এলাকায় গরু বোঝাই নসিমনের ধাক্কায় ইউসুফ আলী শেখ(৮০) নামে এক বৃদ্ধ’র মৃত্যু হয়েছে। সে কুমারখালী উপজেলার পশ্চিম লাহিনীপাড়া গ্রামের মৃত আদু শেখের ছেলে। এ ঘটনায় উত্তেজিত জনতা নসিমন চালককে আটক করেছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সকালে ইউসুফ কুষ্টিয়া-রাজবাড়ী মহাসড়কের দবির মোল্লা গেট এলাকার একটি চায়ের দোকানে দাঁড়িয়ে ছিল। এ সময় কুমারখালী থেকে আসা একটি গরু বোঝাই নসিমন নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে তাকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই ইউসুফের মৃত্যু হয়। কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহাঙ্গীর আলম জানান, স্থানীয়রা ঘটনাটি জানানোর পর ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ লাশ উদ্ধার করেছে। এ দিকে বেলা ১টার দিকে কুষ্টিয়া-ঈশ্বরদী মহাসড়কের মিরপুর তালবাড়িয়া নামক স্থানে রা¯Íা পারাপারের সময় বাসের ধাক্কায় রাজিব মল্লিক (২৩) নামে এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। সে একই এলাকার রাহাত মল্লিকের ছেলে।

কাজী নজরুল ছিলেন সাম্যের কবি

কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারী (ড. রাশিদ আসকারী) বলেছেন, কাজী নজরুল ইসলাম ছিলেন প্রধানত সাম্যের কবি। তিনি ছিলেন একাধারে কবি, সাহিত্যিক, লেখক ও শিল্পি। তাঁর জীবনের ২৩টি বছর সাহিত্যকর্ম নিয়ে কেটেছে। এরপর তিনি নিথর ¯Íব্ধ বোবা হয়ে যান। তিনি বলেন, আজকের প্রজন্ম যদি নজরুল সম্পর্কে জানে এবং মগজে ও মননে লালন করে তাহলে এরাই একদিন জাতীয় সম্পদ হয়ে উঠবে। তিনি নজরুল চর্চার প্রতি সকলকে আহবান জানান। গতকাল শনিবার সকালে ঝিনাইদহ জেলা শিল্পকলা একাডেমীতে ৩ দিনব্যাপী জাতীয় নজরুল সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায়  ড. রাশিদ আসকারী এসব কথা বলেন। ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি ছিলেন ঝিনাইদহ-মাগুরা সংরক্ষিত মহিলা আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য মোছাঃ খালেদা খানম। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ঝিনাইদহ পুলিশ সুপার মোঃ হাসানুজ্জামান পিপিএম ও ঝিনাইদহ পৌরসভার চেয়ারম্যান সাইদুল করিম মিন্টু। মুখ্য আলোচক ছিলেন অতিরিক্ত সচিব ও কবি নজরুল ইনস্টিটিউটের নির্বাহী পরিচালক মোঃ আব্দুর রাজ্জাক ভূঞা। আলোচক ছিলেন ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন কবি নজরুল ইনস্টিটিউটের সচিব ও প্রকল্প পরিচালক মো. আব্দুর রহিম। উল্লেখ্য ঝিনাইদহ কবি নজরুল ইনস্টিটিউটের আয়োজনে, সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে এবং জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় “নজরুলের অপ্রচলিত গানের সুর সংগ্রহ, স্বরলিপি  প্রণয়ন সংরক্ষণ, প্রচার এবং নবীন প্রজন্মকে উদ্বুদ্ধকরণ” শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় ২৫-২৭ জানুয়ারি তিনব্যাপী এ জাতীয় নজরুল সম্মেলন শুরু হয়েছে। অনুষ্ঠানের শুরুতে শান্তির প্রতীক পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন ড. রাশিদ আসকারী। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি