ঝিনাইদহে পর্ণগ্রাফী মামলার বাদী মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে হয়রানি করার অভিযোগ

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ॥ ঝিনাইদহে গৃহবধু কু-প্রস্তাবে রাজী না হওয়ায় তার নগ্ন ছবি ছড়ানোর অভিযোগে মামলা করায় মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করার অভিযোগ উঠেছে আসামীর স্বজনদের বিরুদ্ধে। সোমবার সকালে ঝিনাইদহ প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করে ভুক্তভোগী গৃহবধু। এসময় তিনি অভিযোগ করেন, ২০১৮ সালে শৈলকুপা উপজেলার চরধলহরাচন্দ্র গ্রামের মৃত ইয়াকুব মন্ডলের ছেলের সাথে বিয়ে হয় একই গ্রামের রাবেয়া আক্তারের। বিয়ের পর স্বামী সিঙ্গাপুরে পাড়ী জমান। এরপর থেকেই রাবেয়া আক্তারের ভাসুরের ছেলে ইউনুস তাকে কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। কুপ্রস্তাবে রাজী না হওয়ায় ইউনুস তার নগ্ম ছবি বানিয়ে গ্রামে প্রচার করতে থাকে। বিষয়টি স্থানীয় চেয়ারম্যানে কাছে জানালেও তারা কোন সুরাহা করতে পারেনি। ভুক্তভোগী বাদী হয়ে শৈলকুপা থানায় পর্ণগ্রাফী নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা দায়ের করে। বর্তমানে মামলার আসামী জেল-হাজতে রয়েছে। এরপর থেকেই বাদী ও তার পরিবারকে নির্যাতন শুরু করে আসামীর স্বজনরা। বাদী ও তার চাচার বিরুদ্ধে ধর্ষণ চেষ্টা, চুরি-ডাকাতিসহ ৩ টি মামলা দিয়ে প্রতিনিয়ত হয়রানি করে আসছে। সংবাদ সম্মেলন থেকে নির্যাতিতা ও তার পরিবার এর সুষ্ঠু বিচার দাবী করেন। সংবাদ সম্মেলনে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা তোয়াজ উদ্দিন, আব্দুল বারিক, শরিফুল ইসলাম, আবু দাউদ, লুৎফর রহমান, আব্দুল কুদ্দুস, সিদ্দিকুর রহমানসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

 

আজ কুষ্টিয়া কেন্দ্রিয় ঈদগাহে মাহফিলে বক্তব্য রাখবেন ভারতের জনপ্রিয় বক্তা ২৬ ইঞ্চি লম্বা মাওলানা মনির উদ্দিন

জামিউল উলুম মাদ্রাসার উদ্যেগে আজ ১৪ জানুয়ারী মঙ্গলবার কুষ্টিয়া কেন্দ্রিয় ঈদগাহে তাফসিরুল কোরআন মাহফিলে প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখবেন ভারতের পশ্চিম বঙ্গের জনপ্রিয় বক্তা ২৬ ইঞ্চি লম্বা হাফেজ মাওলানা মনির উদ্দিন। ভারতের মালদাহের এই বক্তা বাংলা ভাষাভাষীদের মধ্যে এবং সামাজিক বিভিন্ন গনমাধ্যম ইউটিউব ও ফেইসবুকে ব্যাপক জনপ্রিয়। আল্লাহর কুদরতের লীলা মাত্র ২৬ ইঞ্চি লম্বা ৪০ বছর বয়স্ক এই হাফেজ মাওলানার দুটি হাত মাত্র ১২ ইঞ্চি, পা মাত্র ৬ ইঞ্চি। এদিকে তাফসিরুল কোরআন মাহফিলে বিশেষ বক্তা টেলিভিশন আলোচক মাওলানা নাজমুল হক ছাবেরী, জামিউল উলুম মাদ্রাসার পরিচালক হাফেজ ক্বারী মাহবুব হাসান। মাহফিলে সভাপতিত্ব করবেন নাগরিক পরিষদ কুষ্টিয়ার সভাপতি সাইফুদ দৌলা তরুন। আছরের নামাজের পর এ মাহফিল শুরু হবে। মাহফিলে সকলকে যোগদানের আহবান জানানো হয়েছে মাহফিল এন্তেজামিয়া কমিটির পক্ষ থেকে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

দৌলতপুর সীমান্তে বিজিবি’র কম্বল বিতরণ

দৌলতপর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুর সীমান্তে বিজিবি শীতবস্ত্র কম্বল বিতরণ করেছে। গতকাল সোমবার বিকেল ৪টায় উপজেলার প্রাগপুর ইউনিয়নের জামালপুর আশ্রয়ন প্রকল্পে বসবাসরত শীতার্তদের মাঝে এ শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়। শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, ৪৭ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল রফিকুল আলম পিএসসি। এছাড়ও উপস্থিত প্রাগপুর ইউপি চেয়ারম্যান আশরাফুজ্জামান মুকুল সরকার ও প্রাগপুর কোম্পানী কমান্ডার নায়েক সুবেদার সুবোধ পাল। ১৩৩জন শীতার্তদের হাতে শীতবস্ত্র কম্বল তুলে দেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথিসহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দ।

নির্বাচনী প্রচারণায় গিয়ে ৮ কাপ চা বানালেন আতিকুল

ঢাকা অফিস ॥ আসন্ন ঢাকা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন যত ঘনিয়ে আসছে ততই উত্তাপ ছড়াচ্ছে ভোটের মাঠে। প্রার্থীরা নির্বাচনী প্রচারণায় নেমে ভোটারদের মন যোগাতে ব্যস্ত। একেকজন একেকভাবে ভোটারদের মন যোগাতে চেষ্টা করছেন। যখন মেয়র প্রার্থী চা বিক্রেতার ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়ে ভোটারদের চা বানিয়ে খাওয়ান সেটি বাড়তি আগ্রহ তৈরি করাই স্বাভাবিক। তেমনটিই করেছেন ঢাকা উত্তর সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আতিকুল ইসলাম। সোমবার বিকালে রাজধানীর রামপুরা ও আফতাবনগর এলাকায় প্রচারণা চালাচ্ছিলেন আতিকুল ইসলাম। হঠাৎই তিনি একটি চা দোকানের সামনে গিয়ে চা বানাতে বসে গেলেন। সবাই আগ্রহভরে মেয়র প্রার্থীর চা বানানো দেখতে লাগলেন। পর পর আট কাপ চা বানান তিনি। পান করালেন ভোটার ও কর্মীদের। সেটি পান করে মেয়র প্রার্থীর উচ্ছ্বসিত প্রশংসাও করলেন তারা। চা দোকানদার ইয়াসিন বলেন, ওনার মতো একজন সম্মানিত মানুষ আমার দোকানে বসে চা বানিয়েছেন সেটি আমার জন্য গর্বের। আট কাপ চায়ের দাম হিসেবে উনি ৮০০ টাকা দিয়ে গেছেন।

গাংনীতে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলার উদ্বোধন

গাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের গাংনীতে ৪১তম জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ এবং বিজ্ঞান মেলার উদ্বোধন করা হয়েছে। গতকাল সোমবার দুপুর ১২টার দিকে গাংনী উপজেলা পরিষদ চত্বরে দু’দিন ব্যাপি এ মেলার উদ্বোধন করা হয়। মেলায় বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান স্টলের মাধ্যমে তথ্য-প্রযুক্তি প্রদর্শন করেছে। উপজেলা প্রশাসন এ মেলার আয়োজন করে। প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন গাংনী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও মেহেরপুর জেলা আ.লীগের সংগ্রামী সাধারণ সম্পাদক জননেতা এমএ খালেক। এ সময় তিনি বক্তব্য প্রদানও করেন। উদ্বোধন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার দিলারা রহমান। গাংনী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের একাডেমীর সুপার ভাইজার মাসুম-আল মামুনের সঞ্চালনায়-অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওবাইদুর রহমান,উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান রাশেদুল হক জুয়েল, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফারহানা ইয়াসমিন,গাংনী সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আশরাফুজ্জামান লালু প্রমুখ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান,বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক,শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মীর হাবিবুল বাসার।

ঝিনাইদহে প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষার ফলাফল পুন:মুল্যায়নের দাবীতে মানববন্ধন

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ॥ ঝিনাইদহ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ২০১৯ সালের প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষার ফলাফলে জালিয়াতিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ ও খাতা পুন:মুল্যায়নের দাবীতে মানববন্ধন কর্মসূচী পালিত হয়েছে। সোমবার সকালে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের সামনে এ কর্মসূচী পালন করা হয়। এতে ব্যানার ফেস্টুন নিয়ে সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকরা অংশ নেয়। এসময় তারা অভিযোগ করেন, প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার খাতা উপজেলার মহেশপুরে পাঠানো হয়েছে যা ফাঁস হয়েছিল। এতে অসাধু শিক্ষকরা শিক্ষার্থীদের কম নাম্বার দিয়েছে। এসময় তারা খাতা পুন:মুল্যায়নের দাবী জানান। পরে শিক্ষার্থীরা জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের নিকট তাদের দাবী জানান।

সভাপতি আসাদুজ্জামান চৌধুরী লোটন, সম্পাদক আনিছুর রহমান সাগর

দৌলতপুর উপজেলা মাদক প্রতিরোধ কমিটির অনুমোদন

নিজ সংবাদ ॥ বাংলাদেশ মাদক প্রতিরোধ কমিটি (বিএমপিসি) দৌলতপুর উপজেলা শাখা কমিটির অনুমোদন করা হয়েছে। কুষ্টিয়া জেলা মাদক প্রতিরোধ কমিটি (বিএমপিসি)’র প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি হাসিবুর রহমান রিজু ও সাধারণ সম্পাদক এম সোহাগ হাসান আগামী ২ বছরের এই কমিটির অনুমোদন দেন। কমিটিতে সভাপতি আসাদুজ্জামান চৌধুরী লোটন ও আনিছুর রহমান সাগর সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়াও সহ-সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন আব্দুল্লাহ আল আজম বিকো, আবু সালেহ মজনুল কবির পান্না, জাহিদুল ইসলাম জাহিদ, সোহেল রানা বুলবুল ও জুলমত হোসেন। যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এখলাছ উদ্দিন চঞ্চল, সাংগঠনিক সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম ও সাদ্দাম হোসেন, প্রচার সম্পাদক ছাদিয়ার রহমান, সহ-প্রচার সম্পাদক আলিফ মাহমুদ পাপ্পু এবং নির্বাহী সদস্য হয়েছেন কামরুল হাসান। আগামী ১ মাসের মধ্যে পূর্নাজ্ঞ কমিটি করার নির্দেশ দেওয়া হয়।

দৌলতপুরে আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

দৌলতপর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে চোরাচালান নিরোধ, নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ এবং আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তারের সভাপতিত্বে উপজেলা পরিষদ কনফারেন্স রুমে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বক্তব্য রাখেন, দৌলতপুর উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাড. এজাজ আহমেদ মামুন, দৌলতপুর সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আজগর আলী, প্রাগপুর ইউপি চেয়ারম্যান আশরাফুজ্জামান মুকুল সরকার ও আদাবাড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান মকবুল হোসেন। সভায় উপজেলা পরিষদের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা ও সুধীজন উপস্থিত ছিলেন।

ইউনূসকে শ্রম আদালতে তলব

ঢাকা অফিস ॥ ফৌজদারি মামলায় গ্রামীণ কমিউনিকেশনসের চেয়ারম্যান হিসেবে নোবেলজয়ী মুহাম্মদ ইউনূসকে তলব করেছে ঢাকার শ্রম আদালত। তাকে আগামী ৬ ফেব্র“য়ারি হাজির হতে সমন জারির নির্দেশ দিয়েছেন ঢাকার তৃতীয় শ্রম আদালতের বিচারক রহিবুল ইসলাম। ওই আদালতের পেশকার মিয়া মো. জামাল উদ্দিন তথ্যটি জানিয়ে সোমবার বলেন, আসামি সমন পেয়ে আদালতে হাজির না হলে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির বিধান রয়েছে। গত ৫ জানুয়ারি আদালতে মামলাটি করেন কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের শ্রম পরিদর্শক (সাধারণ) তরিকুল ইসলাম। মামলায় ইউনূস ছাড়াও গ্রামীণ কমিউনিকেশনসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাজনীন সুলতানা, পরিচালক আব্দুল হাই খান ও উপ-মহাব্যবস্থাপক (জিএম) গৌরি শংকরকে বিবাদী করা হয়েছে। এর আগে ট্রেড ইউনিয়ন গঠনের কারণে গ্রামীণ কমিউনিকেশন্সের চাকরিচ্যুত তিন কর্মীর পৃথক তিনটি মামলায় একই আদালত গত ৯ অক্টোবর ইউনূসের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছিল। এরপর ৩ নভেম্বর আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন নেন তিনি।  নতুন মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, ২০১৯ সালের ৩০ এপ্রিল একজন পরিদর্শক প্রতিষ্ঠানটি গ্রামীণ কমিউনিকেশন্স পরিদর্শন করে বিভিন্ন ত্রুটি দেখতে পেয়ে সেসব সংশোধনের নির্দেশনা দেন। তার পরিপ্রেক্ষিতে পর ৭ মে ডাকযোগে বিবাদী পক্ষ জবাব দেয়। এরপর মামলার বাদী একই বছরের ১০ অক্টোবর প্রতিষ্ঠানটিতে পরিদর্শনে গিয়ে ১০টি বিধি লঙ্ঘনের প্রমাণ পান এবং ২৮ অক্টোবর তা অবহিত করেন। তবে বিবাদী পক্ষ সময়ের আবেদন করেও নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে জবাব দাখিল করেনি। এতে বিবাদীরা বাংলাদেশ শ্রম আইন ২০০৬, বাংলাদেশ শ্রম (সংশোধন) আইন, ২০১৩ এর ধারা ৩৩ (ঙ) এবং ৩০৭ মোতাবেক দন্ডনীয় অপরাধ করেছেন বলে মামলায় বাদী অভিযোগ করেছেন। গ্রামীণ কমিউনিকেশন্সের বিরুদ্ধে যেসব বিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ আনা হয়েছে তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো- বিধি মোতাবেক শ্রমিক/কর্মচারীদের নিয়োগপত্র, ছবিসহ পরিচয়পত্র ও সার্ভিস বই না দেওয়া; শ্রমিকের কাজের সময় এর নোটিস পরিদর্শকের কাছ থেকে অনুমোদিত নয়, কোম্পানিটি বার্ষিক ও অর্ধবার্ষিক রিটার্ন দাখিল করেনি, কর্মীদের বৎসরান্তে অর্জিত ছুটির অর্ধেক নগদায়ন করা হয় না। এছাড়া কোম্পানির নিয়োগবিধি মহাপরিদর্শক কর্তৃক অনুমোদিত নয়, ক্ষতিপূরণমূলক সাপ্তাহিক ছুটি ও উৎসব ছুটি প্রদান-সংক্রান্ত কোনো রেকর্ড/রেজিস্টার সংরক্ষণ করা হয় না, কোম্পানির মুনাফার অংশ ৫% শ্রমিকের অংশগ্রহণ তহবিল গঠনসহ লভ্যাংশ বণ্টন করা হয় না, সেফটি কমিটি গঠন করা হয়নি, কর্মীদের অন্য প্রতিষ্ঠানে কাজ করালেও কোনো ঠিকাদারি লাইসেন্স এবং কারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর থেকে লাইসেন্স নেওয়া হয়নি।

দৌলতপুর সীমান্তের ভারত ভূ-খন্ড থেকে বিএসএফ হাতে ২জন মাদক চোরাকারবারী আটক

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুর সীমান্তের ওপার ভারত ভূ-খন্ড থেকে বিএসএফ হাতে ২জন মাদক চোরাকারবারী আটক হয়েছে বলে জানাগেছে। রবিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার প্রাগপুর ইউনিয়নের মাঠপাড়া সীমান্তের ওপার ভারত ভূ-খন্ডের কুমড়িপাড়া সীমান্ত থেকে রুবেল (২৫) ও বাদল (৩৭) নামে ওই দু’জন মাদক চোরাকারবারীকে আটক করা হয়েছে। আটক মাদক চোরাকারবারীরা দৌলতপুর উপজেলার মহিষকুন্ডি মাঠপাড়া এলাকার টেংগর আলী ও জামালপুর আশ্রয়ন এলাকার নজিবুলের ছেলে। স্থানীয়রা জানায়, ৮-১০জনের একদল মাদক চোরাকারবারী ভারতের চরমেঘনা সীমান্ত দিয়ে কাটাতারের বেড়া ভেদ করে বাংলাদেশে মাদক পাচারকালে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের নদীয়া জেলার করিমপুর থানার চরমেঘনা বিএসএফ ক্যাম্পের টহল দল তাদের ধাওয়া করে। এসময় মাদক চোরাকারবারী রুবেল ও বাদল বিএসএফ’র হাতে আটক হলে অপর মাদক চোরাকারবারীরা পালিয়ে আসে। পরে আটক চোরাকারবারীদের করিমপুর থানা পুলিশে সোপর্দ করা হলে তাদের কৃষ্ণনগর জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। তবে বিএসএফ’র হাতে দু’জন বাংলাদেশী মাদক চোরাকারবারী আটক হওয়ার বিষয়ে জয়পুর বিজিবি ক্যাম্প ইনচার্জ হাবিলদার নাসির জানান, এমন খবর তাদের জানা নেই এবং কেউ অভিযোগও করেনি।

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় ৫ শ হতদরিদ্রকে শীতবস্ত্র দান করলেন পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম

আলমডাঙ্গা অফিস ॥ চয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গার প্রায় ৫শ হতদরিদ্র মানুষের হাতে কম্বল বিতরন করলেন চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম। গতকাল  ১৩ জানুয়ারি বিকেলে আলমডাঙ্গা থানা চত্ত্বরে আনুষ্ঠানিক ভাবে এ শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়। আলমডাঙ্গা থানা পুলিশ ওই শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। আলমডাঙ্গা থানা অফিসার ইনচার্জ সৈয়দ আশিকুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কলিম উল্লাহ, আলমডাঙ্গা প্রেসক্লাব সভাপতি খন্দকার শাহ আলম মন্টু,সম্পাদক হামিদুল ইসলাম আজম, আলমডাঙ্গা বণিক সমিতির সম্পাদক হাজী মীর শফিকুল ইসলাম ও আলমডাঙ্গা একাডেমির অধ্যক্ষ এনামুল হক। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন ওসি ( তদন্ত )  গাজী শামীমুর রহমান।

ডাঃ এস.এম. মুসতানজীদ লোটাসের বিবাহ বার্ষিকীতে শীতার্ত দরিদ্র ও অসহায় মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ

আল-মাহাদী ॥ কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ, ভেড়ামারার কৃতি সন্তান অধ্যাপক ডাঃ এস.এম. মুসতানজীদ লোটাস এবং তার সহধর্মিণী অধ্যাপক ডাঃ ফাতেমা আশরাফ ব্যতিক্রমধর্মী আয়োজনের মধ্য দিয়ে তাদের ৩৩তম বিবাহ বার্ষিকী পালন করেছেন। এই দম্পতি তাদের বিবাহ বার্ষিকীতে হৈ-হুল্লোড় বা খাওয়া দাওয়ার আয়োজন না করে তার পরিবর্তে ভেড়ামারা উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের শীতার্ত দরিদ্র অসহায় মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণের মধ্য দিয়ে তাদের বিবাহ বার্ষিকীর আনন্দ ভাগাভাগি করেন। গত রবিবার সকালে গোলাপনগরে নিজ বাড়ীতে মোকারিমপুর ও বাহাদুরপুরের মানুষের মধ্যে কম্বল বিতরনের মধ্য দিয়ে শুরু করে ভেড়ামারা উপজেলার ধরমপুর ইউনিয়ন, জুনিয়াদহ ইউনিয়ন এবং শেষে দৌলতপুর উপজেলার মরিচা ইউনিয়নের দরিদ্র শীতার্ত মানুষের মাঝে কম্বল বিতরন করেন। এসময় ভেড়ামারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহেল মারুফ, মোকারিমপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুস সামাদ, বাহাদুরপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আশিকুর রহমান ছবি, বাহাদুরপুর আওয়ামী লীগের সভাপতি শামিম হোসেন, বাহাদুরপুর আওয়ামী লীগের নেতা বাবুল ডাক্তার, জুনিয়াদহ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শওকত হোসেন, ভেড়ামারা সরকারী মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুর রাজ্জাক রাজা, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ ফারুক আহম্মেদ, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) মোঃ মিজানুর রহমান, কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজের বিভিন্ন বর্ষের বেশ কিছু ছাত্রছাত্রী ও সাংবাদিকসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তি বর্গ উপস্থিত ছিলেন।

হামলা হলে কোনো ছাড় দেয়া হবে না – ইশরাক

ঢাকা অফিস ॥ ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরশনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন ভোটের মাঠে প্রতিপক্ষের হামলার প্রতি ইঙ্গিত করে বলেছেন, এবার হামলা হলে কোনো ছাড় দেয়া হবে না। প্রতিপক্ষের সব হামলা মোকাবিলা করতে ও কঠোর জবাব দিতে এবার প্রস্তুত আছি। সোমবার সকালে রাজধানীর শেরেবাংলানগরে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত জিয়াউর রহমানের মাজার জিয়ারত করে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন। ইশরাক হোসেন বলেন, সন্ত্রাসীরা আমাদের দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার গাড়িবহরে হামলা চালিয়েছে। ২০১৮ সালের জাতীয় নির্বাচনে আমাদের সিনিয়র নেতাদের গাড়িবহরে হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত করা হয়েছে। এ নির্বাচনেও এ ধরনের হামলা হচ্ছে। তবে আমরা এবার প্রতিপক্ষের সব হামলা মোকাবিলা করতে প্রস্তুত আছি। জিয়াউর রহমানের মাজার জিয়ারত শেষে ইশরাক হোসেন তার গোপীবাগের বাসায় যান। সেখান থেকে চতুর্থ দিনের মতো গণসংযোগে নামার আগে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ফিল্ড একটা তৈরি হয়েছে, সেটা ভোট ডাকাতির, ভোট কারচুপির। প্রতিপক্ষকে দমন করার একটা ফিল্ড তৈরি করা হচ্ছে। এটাকে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড বলে কি-না, জানি না। প্রচারে নেমে মানুষের কাছ থেকে ব্যাপক সাড়া পাচ্ছেন বলে দাবি করেন ইশরাক। তিনি বলেন, যে এলাকায় যাচ্ছি সেখানের বাসিন্দারা স্বতঃস্ফূর্তভাবে আমাদের গণসংযোগে অংশ নিচ্ছেন। ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) নিয়ে দলীয় অবস্থান থেকে সরে আসেননি জানিয়ে ইশরাক বলেন, প্রতিনিয়ত বলে আসছি, ইভিএমের মাধ্যমে ভোট কারচুপির সম্ভাবনা আছে। নিভৃতে ইভিএমে কারচুপি করা সম্ভব। ভোটারদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আমরা মুক্তিযোদ্ধার জাতি। কোনো অপশক্তির কাছে আমরা মাথানত করব না। ৩০ জানুয়ারি অবশ্যই আপনারা ভোট দিতে যাবেন। সুষ্ঠুভাবে যাতে ভোট দিতে পারেন, আমরা আপনাদের পাশে থাকব। নির্বাচনী প্রচার প্রসঙ্গে এক প্রশ্নের জবাবে ইশরাক বলেন, প্রচার অর্থবহ হচ্ছে। আমরা অলিগলিতে ঘুরছি। আমার জন্ম ঢাকায়। এই নগরীর প্রতিটি গলি আমার চেনা। যেখানে যাচ্ছি, স্থানীয় লোকজন এসে অংশ নিচ্ছেন, কথা বলছেন, কুশল বিনিময় করছেন। মেয়র নির্বাচিত হলে তিন মাসের মধ্যে প্রতি ওয়ার্ডে জনসংখ্যা এবং ঘনত্ব বিবেচনায় গণশৌচাগার নির্মাণ করার প্রতিশ্রুতি দেন ইশরাক। সাংবাদিকদের আরেক প্রশ্নের জবাবে বিএনপির প্রার্থী বলেন, গণশৌচাগার ব্যবহারের ক্ষেত্রে নারীদের জন্য আলাদা ব্যবস্থা থাকবে এবং প্রতিবন্ধী মানুষদের জন্য আলাদা ব্যবস্থা থাকবে। পর্যাপ্ত গণশৌচাগারের অভাবে নারী এবং প্রতিবন্ধী মানুষেরা প্রায়ই হয়রানির শিকার হন, অস্বস্তিতে পড়েন। গণসংযোগে তার সঙ্গে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সভাপতি ও বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কাজী আবুল বাশার, যুব দল, স্বেচ্ছাসেবক দল এবং স্থানীয় বিপুলসংখ্যক নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। পরে ইশরাক নেতা-কর্মী নিয়ে টিকাটুলির অভয়দাস লেনের সেন্ট্রাল উইমেন্স কলেজ থেকে নির্বাচনী প্রচার শুরু করেন। এ সময় বিভিন্ন অলি-গলি দিয়ে প্রচারকালে রাস্তার দু’পাশ থেকে নারী, পুরুষ বাসা ও দোকান থেকে হাত নেড়ে বিএনপি প্রার্থীকে শুভেচ্ছা জানান। এ সময় তিনি জনসাধারণের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন এবং ধানের শীষে ভোট চান। লিফলেট বিতরণও করেন। পরে দুপুরে তিনি বংশালে যুবদলের কার্যালয়ে এক কর্মিসভায় অংশ নেন। কর্মিসভায় ইশরাক বলেন, ঢাকার নির্বাচন শুধু নির্বাচনই নয়, এটা গণতন্ত্রের লড়াই, দেশনেত্রীর মুক্তির লড়াই। এ লড়াইয়ে মনোবল অটুট রেখে নেতাকর্মীদের সাহসের সঙ্গে কাজ করতে হবে।

ইবি আইন অনুষদের নতুন ডিন ড. হালিমা খাতুন

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুষদের নতুন ডিন হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন আইন বিভাগের প্রফেসর ড. হালিমা খাতুন। প্রফেসর ড. রেবা মন্ডলের ডিনের মেয়াদ শেষ হওয়ায় আগামী ২ বছরের জন্য ড. হালিমা তাঁর স্থলাভিষিক্ত হলেন। আজ সকালে আইন অনুষদের সেমিনার কক্ষে এক আনুষ্ঠানিকতার মধ্যদিয়ে দায়িত্ব হস্থান্তর করা হয়। দায়িত্ব হস্থান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারী (ড. রাশিদ আসকারী) বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের একামেডিক উন্নয়নে একজন ডিনের দায়িত্ব অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিশনÑমিশনের সাথে সমন্বয় রেখে ডিনকে অনুষদের কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে। গতানুগতিক কোন কাজ না করে, নতুন-নতুন আবিষ্কারের মাধ্যমে অনুষদের উন্নয়নের প্রত্যাশা করেন ড. রাশিদ আসকারী। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ শাহিনুর রহমান বলেন, বিদায়ী ডিন সফলভাবে দায়িত্ব পালন করেছেন। আশারাখি নতুন ডিন তাঁর কর্মদক্ষতা দিয়ে অনুষদকে আরো এগিয়ে নিয়ে যাবেন। অপর বিশেষ অতিথি ট্রেজারার প্রফেসর ড. মোঃ সেলিম তোহা বলেন, বিদায়ী ডিন ছিলেন একজন সৃষ্টিশীল মানুষ। নতুন ডিন বিদায়ী ডিনের অসমাপ্ত কাজ সম্পন্ন করবেন এই প্রত্যাশা করি। বিদায়ী ডিন প্রফেসর ড. রেবা মন্ডলের সভাপতিত্বে এবং আইন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আরমিন খাতুনের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সমাজবিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. নাসিম বানু, ধর্মতত্ত্ব ও ইসলামী শিক্ষা অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মুহাম্মদ সোলায়মান, অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষক ড. মোহাম্মদ মামুন, প্রক্টর প্রফেসর ড. পরেশ চন্দ্র বর্ম্মন, আইন বিভাগের প্রফেসর ড. মোঃ জহুরুল ইসলাম,  শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ড. মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান, আইন বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. নুরুন নাহার, আল-ফিকহ্ এন্ড লিগ্যাল স্টাডিজ বিভাগের সভাপতি মোঃ আনোয়ারুল ওহাব, ল’ এন্ড ল্যান্ড ম্যানেজমেন্ট বিভাগের প্রভাষক মোঃ মেহেদী হাসান।

কুষ্টিয়ায় র‌্যাবের অভিযানে ইয়াবা ট্যাবলেটসহ ০১ জন আসামী গ্রেফতার

র‌্যাব-১২, সিপিসি-১, কুষ্টিয়া ক্যাম্পের র‌্যাবের একটি অভিযানিক দল ১৩ জানুয়ারি ২০২০ ইং তারিখ দুপুর ১৩.৫০ ঘটিকার সময় ‘‘কুষ্টিয়া জেলার মিরপুর থানাধীন চার মাইল বিভাগ গ্রামস্থ চুনুœ শেখ এর বাইসাইকেল মেকানিক্স দোকানের সামনে কাঁচা রাস্তার উপর হতে’’ একটি মাদক অভিযান পরিচালনা করে। উক্ত অভিযানে ১৯৭ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট, ০১টি মোবাইল ফোন, ০২টি সিমকার্ড সহ ০১ জন আসামী মোঃ মফিদুল ইসলাম (২৬), পিতা- মৃত মুনতাজ ইসলাম, সাং-বারখাদা মধ্য পাড়া, থানা-কুষ্টিয়া মডেল, জেলা-কুষ্টিয়া’কে গ্রেফতার করা হয়। পরর্বতীতে উদ্ধারকৃত আলামতসহ ধৃত আসামীর বিরুদ্ধে কুষ্টিয়া জেলার মিরপুর থানায় একটি মাদক মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং গ্রেফতারকৃত আসামীকে কুষ্টিয়া জেলার মিরপুর থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

‘লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড’ নিয়ে ইসি নির্বিকার – মোশাররফ

ঢাকা অফিস ॥ ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থীদের বিরুদ্ধে বিএনপির প্রার্থীর নির্বাচনী প্রচারে বাধা দেওয়া ও বিধিভঙ্গের অভিযোগ তুলে খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, প্রার্থীদের সমান সুযোগ সৃষ্টিতে নির্বাচন কমিশন পদক্ষেপ এখনো নেয়নি। নির্বাচনে প্রচারণার চতুর্থ দিন সোমবার সকালে শেরেবাংলা নগরে চন্দ্রিমা উদ্যানে দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের সমাধিস্থলে সাংবাদিকদের সামনে একথা বলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য। তিনি বলেন, “আপনারা দেখছেন, আমাদের প্রচার অভিযানে সরকার দলীয় প্রার্থী বাধা সৃষ্টি করেছে, বিভিন্ন জায়গায় হামলা করা হচ্ছে, আমাদের কাউন্সিলরদের বাড়ি আক্রমণ করা হচ্ছে; তাদেরকে ভয়-ভীতি দেখানো হচ্ছে, প্রচারের মাইক ছিনতাই করা হচ্ছে। এটা অত্যন্ত দুঃখজনক।” ‘ভোট ডাকাতির ’ সরকার ও তার ‘পদলেহী’ নির্বাচন কমিশন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে পারবে না মন্তব্য করে বিএনপির জ্যেষ্ঠ এই নেতা। “তবুও আমরা একটি গণতান্ত্রিক উদার রাজনৈতিক দল হিসেবে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার, বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য আন্দোলনের অংশ হিসেবে জন্য নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছি।” দক্ষিণ সিটিতে বিএনপির নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক মোশাররফ বলেন, নির্বাচনী আইনে রঙ্গিন পোস্টার ও দেয়ালে পোস্টার লাগানো নিষেধ থাকলেও দেয়ালে আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা মানছে না। কিন্তু নির্বাচন কমিশন কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে না। অর্থাৎ এখন পর্যন্ত লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি হয়নি। নির্বাচন কমিশনের কাছে ইভিএমে ভোটগ্রহণের সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, ভয়মুক্ত পরিবেশে ভোট হলে উত্তর ও দক্ষিণ সিটির দুই মেয়র প্রার্থীসহ দলীয় সমর্থিত কাউন্সিলররা বিজয়ী হবে। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উত্তরে বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল ও দক্ষিণের ইশরাক হোসেনকে নিয়ে মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জিয়ার কবরে ফুল দেন। পরে প্রয়াত নেতার আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাতে অংশ নেন তারা। আবদুল্লাহ আল নোমান, মোহাম্মদ শাহজাহান, জয়নুল আবদিন ফারুক, মশিউর রহমান, আবদুস সালাম, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, হাবিব-উন নবী খান সোহেল, শহীদউদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, নাজিম উদ্দিন আলম, মীর সরফত আলী সপু, আমিনুল হক, সাইফুল ইসলাম নিরব, সুলতানা আহমেদ, হেলেন জেরিন খান ও নিপুন রায় চৌধুরীসহ দল ও সহযোগী সংগঠনের নেতারা সেখানে ছিলেন। সকালে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতার কবরে ফাতেহা পাঠ করে প্রয়াত নেতার আত্মার মাগফেরাতে মোনাজাত করে চতুর্থ দিনের প্রচারণার কাজ শুরু করেন তাবিথ ও ইশরাক। বেলা ১২টায় ফার্মগেইট থেকে তাবিথ এবং টিকাটুলির অভয়দাশ লেন থেকে ইশরাক প্রচারণা শুরু করেন।

 

চট্টগ্রামে সব ভোটকেন্দ্র দখল করেছে আওয়ামী লীগ ক্যাডাররা – রিজভী

ঢাকা অফিস ॥ চট্টগ্রাম-৮ আসনের উপনির্বাচনের ভোটকেন্দ্র আওয়ামী-যুবলীগ-ছাত্রলীগের ক্যাডাররা দখল করে নিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। সোমবার দুপুরে হাতিরপুল এলাকায় ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়ালের পক্ষে প্রচারে অংশ নিয়ে তিনি এ অভিযোগ করেন। রিজভী বলেন, চট্টগ্রাম-৮ আসনের উপনির্বাচনের ভোটকেন্দ্র আওয়ামী-যুবলীগ-ছাত্রলীগের ক্যাডাররা দখল করে নিয়েছে। সেখানে ১৭০টি ভোটকেন্দ্র নির্বাচন হচ্ছে, কিন্তু বেলা ১১টার মধ্যে সবগুলো কেন্দ্র দখল নিয়ে ধানের শীষের এজেন্টদের বের করে দেওয়া হয়েছে। উপনির্বাচনে মোবারক নামে একজন আওয়ামী কাউন্সিলর নির্বাচনি এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছে। তিনি বলেন, ভোটকেন্দ্র দখল করাই হচ্ছে আওয়ামী নির্বাচনের সংস্কৃতি। ৩০ জানুয়ারি ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনে কী পরিস্থিতি হবে তা নিয়ে জনগণ গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। জাতীয় নির্বাচনের মতো ঢাকা সিটি নির্বাচনেও ভোটাধিকার কেড়ে নিতে সরকার বিভিন্ন নীলনকশা করছে। তিনি বলেন, ভোটগ্রহণে ইভিএম পদ্ধতি বিশ্বের প্রায় সবদেশেই প্রত্যাখ্যাত। তবে জালিয়াতির মেশিন ইভিএমের মাধ্যমে ঢাকা সিটি নির্বাচনে ভোটগ্রহণে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদাসহ কমিশনের সদস্যদের তোড়জোড় প্রমাণ করে তারা আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থীদের বিজয়ী করতে চান। তিনি বলেন, সোমবার চট্টগ্রাম-৮ আসনের উপনির্বাচনে বিষয়টি পরিষ্কার হয়েছে, সেখানে সকাল থেকে কে এম নুরুল হুদা মার্কা নির্বাচন শুরু হয়েছে। ঢাকা সিটি নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হলে বিএনপি সমর্থিত দুই মেয়র প্রার্থীসহ কাউন্সিলর প্রার্থীরা বিপুল ভোটে বিজয়ী হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন রিজভী।

গাংনী উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত

গাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের গাংনী উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ ও আইন-শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল সোমবার সকাল ১০টার দিকে গাংনী উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা প্রশাসন চোরাচালান প্রতিরোধ ও আইন-শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভার আয়োজন করে। সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার দিলারা রহমান। সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও মেহেরপুর জেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক জননেতা এমএ খালেক। বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন গাংনী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইয়ানুর রহমান,গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওবাইদুর রহমান,উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফারহানা ইয়াসমিন। এ সময় বক্তব্য রাখেন নারীনেত্রী সমাজ সেবক নুরজাহান বেগম,গাংনী র‌্যাব ক্যাম্পের প্রতিনিধি এএসআই শাহ আলম,কাজীপুর বিজিবি ক্যাম্পের সুবেদার বাদশা মিয়া,গাংনী উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সাবেক কমান্ডার মুনতাজ আলী। এছাড়াও বক্তব্য রাখেন গাংনী পৌরসভার প্যানেল মেয়র নবীরুদ্দীন,কাজীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রাহাতুল্যা,বামন্দী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম বিশ্বাস,ধানখোলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আখেরুজ্জামান,কাথুলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান রানা,সাহারবাটী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম ফারুক,মটমুড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সোহেল আহমেদ,রাইপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম সাকলায়েন ছেপু,তেঁতুলবাড়ীয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম,ষোলটাকা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান,গাংনী উপজেলা ইটভাটা মালিক সমিতির সভাপতি এনামুল হক প্রমুখ। এছাড়াও এদিন সকাল ১১টার সময় উপজেলা সমন্বয় কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার দিলারা রহমান। সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এমএ খালেক।

 

ভোটের প্রচারে মন্ত্রী-এমপি নিষিদ্ধে পরিপত্র চান ইসি মাহবুব

ঢাকা অফিস ॥ ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের নির্বাচনে সংসদ সদস্য ও মন্ত্রিপরিষদ সদস্যদের প্রচারে অংশ নেওয়া নিষিদ্ধ করতে পরিপত্র জারির দাবি জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার। সোমবার প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) এবং ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণের রিটার্নিং অফিসারের কাছে দেওয় নোটে ইউও নোটে (আনঅফিসিয়াল নোট) তিনি এ দাবি করেন। ঢাকা সিটির নির্বাচনে মন্ত্রী ও সংসদ সদস্যদের নির্বাচনি প্রচারণা বা নির্বাচনি কার্যক্রমে অংশগ্রহণ সম্পর্কে বিভ্রান্তির প্রেক্ষাপট তুলে ধরেছেন এই নির্বাচন কমিশনার। নোটে মাহবুব তালুকদার বলেন, বিদ্যমান আচরণবিধি অনুযায়ী নির্বাচন সম্পর্কিত যে কোনো কমিটিতে মন্ত্রী ও সংসদ সদস্যদের অংশগ্রহণের সুযোগ নেই। এই নির্বাচনি কার্যক্রম ঘরে বা বাইরে যে কোনো স্থানে হতে পারে। “এবিষয়ে আচরণ বিধিমালা, ২০১৬-এর বিধান অত্যন্ত সুস্পষ্ট। সর্বাধিক দুঃখজনক বিষয় হচ্ছে, এই বিধিমালা যারা প্রণয়ন করেছেন, তারাই এখন এর বিরোধিতা করছেন।” তিনি বলেন, বিধিমালা নিয়ে যাতে বিভ্রান্তির অবকাশ না থাকে সে জন্য নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে সুস্পষ্ট নির্দেশনাসহ একটি পরিপত্র জারি করা ‘অত্যাবশ্যক’। না হলে সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ হবে। “আসন্ন ঢাকা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে নির্বাচনি আচরণবিধি কঠোরভাবে পরিপালন নিশ্চিত করতে না পারলে নির্বাচন কমিশন আস্থার সংকটে পড়বে, যা কোনোভাবেই কাম্য নয়।” ইউও নোট বাকি তিন নির্বাচন কমিশনারকেও পাঠান তিনি। এর আগে নির্বাচনি প্রচারণা ও নির্বাচনি কার্যক্রমে সংসদ সদস্যরা অংশ নিচ্ছেন বলে গত ৯ জানুয়ারি দেওয়া ইউও নোটে তিনি উদ্বেগ প্রকাশ করেন। সংসদ সদস্য আমির হোসেন আমু ও তোফায়েল আহমেদকে আওয়ামী লীগের সিটি করপোরেশন নির্বাচন পরিচালনা কমিটির প্রধান করা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য তোফায়েলকে ঢাকা উত্তর এবং আমুকে ঢাকা দক্ষিণে মেয়র প্রার্থীদের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির নেতৃত্বে রেখেছে আওয়ামী লীগ। বিএনপি দুই সাংসদের নির্বাচন পরিচালনায় থাকাকে আচরণবিধি লঙ্ঘন হিসেবে বর্ণনা করে আপত্তি জানিয়েছে। এক সপ্তাহ পর শনিবার তোফায়েল আহমেদের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদার সঙ্গে বৈঠকও করেন। পরে সিইসি সাংবাদিকদের বলেছেন, সংসদ সদস্য ও গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা স্থানীয় নির্বাচনের কোনো কার্যক্রমে সম্পৃক্ত হতে পারবেন না। এমপিরা নির্বাচনী কার্যক্রম ও প্রচারণা করতে পারবেন না; ভোটের সমন্বয় করতে পারবেন না। তোফায়েল-আমুর নেতৃত্বে নির্বাচন পরিচালনা কমিটি বৈধ কি না প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, “আমি বলতে পারব না অফিসিয়ালি কারা আছে না আছে- তা তো আমি জানি না।…তারা আমাদের সঙ্গে বৈঠকে কারও পক্ষে-বিপক্ষে বলতে আসেননি, আইনের ব্যাখ্যা জানতে এসেছেন।” তবে এই দুজনকে দলীয় প্রার্থীর ভোটের কাজে সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন থেকে বিরত থাকার পক্ষে মত দিয়েছেন সিইসি।তবে বৈঠক শেষে তোফায়েল সাংবাদিকদের বলেন, ঢাকা সিটি নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীর পক্ষে ভোট চাওয়া ছাড়া সবই করতে পারবেন সংসদ সদস্যরা।

কিছু বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার মান নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে – শিক্ষামন্ত্রী

ঢাকা অফিস ॥ শিক্ষামন্ত্রী ডাক্তার দীপু মনি বলেছেন, বর্তমানে দেশে সরকার অনুমোদিত ১১৫টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে। এরমধ্যে ৯৪টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম চলমান রয়েছে। অধিকাংশ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার মান ভালো। তবে কিছু বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার মান নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে। সোমবার জাতীয় সংসদের নাছিমুল আলম চৌধুরীর প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, যে সব বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় সার্টিফিকেট বাণিজ্যের অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে তাদের মধ্যে অধিকাংশ বিশ্ববিদ্যালয় আদালতের স্থগিতাদেশ নিয়ে পরিচালিত হচ্ছে। একটি বিশ্ববিদ্যালয় (দারুল ইহসান বিশ্ববিদ্যালয়) আদালতের রায় অনুযায়ী সরকার কর্তৃক বন্ধ করা হয়েছে। শিক্ষামন্ত্রী বলেন, শিক্ষার গুণগত মান বজায় রাখার স্বার্থে তথা সার্টিফিকেট বাণিজ্য বন্ধ করার জন্য কমিশন থেকে নিয়মিত বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়সমূহ মনিটরিং করা হচ্ছে। বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি প্রোগ্রামের জন্য মোট ক্রেডিট আওয়ার সেমিস্টার পূর্ব থেকে নির্ধারিত করার মাধ্যমে প্রতিটি প্রোগ্রামের নির্দিষ্ট সংখ্যক আসনের ভিত্তিতে শিক্ষার্থী ভর্তি করায় শিক্ষার নামে সার্টিফিকেট বাণিজ্য বহুলাংশে বন্ধ হয়েছে। কমিশন কর্তৃপক্ষসহ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়সমূহ আকস্মিকভাবে পরিদর্শন করা হচ্ছে। প্রতিটি অসাধু চক্রের যোগসাজশে পরিচালিত বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়সমূহ বন্ধ করা হয়েছে এবং অনুমোদিত ক্যাম্পাসসমূহ বন্ধের বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে। শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা বন্ধ করা হয়েছে। দীপু মনি বলেন, প্রত্যেক বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় আইন অনুযায়ী অভ্যন্তরীণগুণগত মান নিশ্চিতকরণ সেল বা ইউনিট গঠন করা হয়েছে। শিক্ষার্থী এবং অভিভাবকদের জ্ঞাতার্থে বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে সব সময় জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে কমিশনের ওয়েবসাইটে আপলোড করা হচ্ছে। বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি ইচ্ছুক শিক্ষার্থীদের ভর্তির যোগ্যতা এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম ও অনুমোদিত প্রোগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের মঞ্জুরি কমিশনের ওয়েবসাইটে নিয়মিত আপলোড করা হচ্ছে।

মেঘনায় দুই লঞ্চের সংঘর্ষে মা-ছেলের মৃত্যু

ঢাকা অফিস ॥ মধ্যরাতে মেঘনা নদীতে দুই লঞ্চের সংঘর্ষে এক নারী ও তার সাত বছরের ছেলের মৃত্যু হয়েছে, আহত হয়েছেন অন্তত ১০ যাত্রী। রোববার রাত পৌনে ১টার দিকে বরিশাল ও চাঁদপুরের সীমান্তবর্তী মেঘনা নদীর মাঝের চর এলাকায় ঢাকাগামী কীর্তনখোলা-১০ ও পিরোজপুরের হুলারহাটগামী ফারহান-৯ লঞ্চের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার গারুরিয়া ইউনিয়নের রুবেল খান আব্বাসের স্ত্রী মাহমুদা বেগম (২৫) ও তার ছেলে মমিন খান (৭)। তারা কীর্তনখোলা-১০ লঞ্চের যাত্রী ছিলেন। বরিশাল নৌবন্দরে বিআইডব্লিউটিএ এর কর্মকর্তা আজমল হুদা মিঠু বলেন, ফারহান-৯ লঞ্চের সামনের দিক কীর্তনখোলা-১০ লঞ্চের মাঝামাঝি অংশে সজোরে ধাক্কা দেয়। তাতে কীর্তনখোলা লঞ্চের ডান দিকের অনেকটা অংশ দুমড়ে মুচড়ে যায়। দুর্ঘটনার সময় লঞ্চের নিচতলার ডেকে স্ত্রী-সন্তানকে নিয়ে ঘুমিয়ে ছিলেন রুবেল খান। সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই মারা যান মাহমুদা ও মমিন। রুবেলসহ ১০ যাত্রী এ ঘটনায় আহত হন। তাদের মধ্যে গুরুতর কয়েকজনকে নৌ পুলিশের সহায়তায় চাঁদপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকেরগঞ্জের গারুরিয়া ইউনিয়নের বাসিন্দা মো. সাইফুজ্জামান জানান, রুবেল খান পেশায় একজন গাড়ী চালক। পরিবার নিয়ে তিনি ঢাকাতেই থাকেন। শীতের ছুটিতে কয়েকদিন আগে গ্রামের বাড়িতে এসছিলেন। ছুটি শেষে ঢাকায় ফেরার পথে তারা দুর্ঘটনায় পড়েন। নিহত মা-ছেলের লাশ নিয়ে কীর্তনখোলা লঞ্চটি সোমবার সকাল ৯টার দিকে ঢাকা সদরঘাটে পৌঁছায় জানিয়ে বিআইডবি¬উটিএ এর পরিবহন পরিদর্শক মো. সেলিম বলেন, “লঞ্চটি আপাতত জব্দ করা হয়েছে। দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা পুলিশ লাশ দুটির সুরতহাল তৈরি করছে।” ঢাকা সদরঘাট নৌ থানার ওসি রেজাউল করিম ভূঁইয়া যাত্রীদের বরাত দিয়ে বলেন, বরিশাল থেকে যাত্রী নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসা কীর্তনখোলা-১০ চাঁদপুরের কাছাকাছি এসে ঘন কুয়াশার মধ্যে চরে আটকে যায়। ঢাকা থেকে পিরোজপুরের হুলারহাটগামী ফারহান-৯ চরে আটকে থাকা কীর্তনখোলা লঞ্চের মাঝামাঝি জায়গায় গিয়ে সজোরে ধাক্কা খায়। দুর্ঘটনার কারণ খতিয়ে দেখতে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে বলে বরিশাল বিআইডবি¬উটিএ-এর কর্মকর্তা আজমল হুদা মিঠু জানান।