আলমডাঙ্গায় স্থানীয়ভাবে উদ্ভাবিত লাগসই প্রযুক্তির প্রয়োগ ও সম্প্রসারন প্রদর্শনী; পুরস্কার বিতরণ

আলমডাঙ্গা অফিস ॥ আলমডাঙ্গা উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে স্থানীয়ভাবে উদ্ভাবিত লাগসই প্রযুক্তির প্রয়োগ ও সম্প্রসারন প্রদর্শনীর সমাপনি ও কুইজ প্রতিযোগীতায় বিজয়িদের মাঝে পুরস্কার বিতরন করা হয়েছে। গতকাল বেলা ১২টার দিকে অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ লিটন আলী। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান আইয়ুব হোসেন। তিনি বলেন এই বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলায় অংশগ্রহন করে কুইজ প্রতিযোগীতায় বিজয়ি হয়েয়ে তাদেরকে আমার ও উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে অভিনন্দন জানাচ্ছি। তোমরা বিজ্ঞান শিখে মানুষকে কিছু দেবার চেষ্টা করবে, দেশ ও জাতি তোমাদের কাছ থেকে অনেক কিছু প্রত্যাশা করে, যারা বিজয়ি হতে পারনি তারা মন খারাপ করনা, তোমরা তাদের মত লেখাপড়া শিখে সত্যিকারের সুশিক্ষায় শিক্ষিত হও। সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থাত ছিলেন ঢাকা থেকে আগত বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা জন লিটন মুন্সি, ড.মাহবুবুর রহমান, ড.সানজিদা মুস্তাফিজ, জুলিয়া খানম, আব্দুল্লাহ আল আসাদ, আজিজুল হক ও সুমন চন্দ্র, আলমডাঙ্গা প্রেসক্লাবের সভাপতি খন্দকার শাহ আলম মন্টু। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের একোডেমিক সুপারভাইজার ইমরুল হকের উপস্থাপনায় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জুনিয়ার টেকনিসিয়ান মদন মিয়া, আব্দুস সোবহান আকন্দ, গোলাম মোহাম্মদ, ইসমাইল হোসেন, আবুল নাশির, বাবুল মিয়া। অনুষ্ঠানে কুইজ প্রতিযোগীতায় আল ইকরা ক্যাডেট একাডেমী ও ব্রাইট মডেল স্কুলের শিক্ষার্থীরা বেশির ভাগ বিজয়ী হয়েছেন।

দৌলতপুর সীমান্তে ফেনসিডিল উদ্ধার

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুর সীমান্তে ফেনসিডিল উদ্ধার হয়েছে। রবিবার রাত পৌনে ৭টার দিকে রামকৃষ্ণপুর বিওপি’র টহল দল উপজেলার সীমান্ত সংলগ্ন চাইডোবা মাঠে অভিযান চালিয়ে ৬২ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করেছে। তবে উদ্ধার হওয়া মাদকের সাথে জড়িত কেউ আটক হয়নি। এছাড়াও সীমান্তের বিভিন্ন এলাকা থেকে বিজিবি’র টহল দল ১৯৫ বোতল ভারতীয় মদ উদ্ধার করেছে।

অনুমতি ছাড়া কর্মকর্তাদের বদলি নয় – ইসি

ঢাকা অফিস ॥ ঢাকার ২ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের তফসিল ঘোষিত হওয়ায় নির্বাচন কমিশনের অনুমতি ছাড়া নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বদলি না করতে মন্ত্রিপরিষদ সচিবকে চিঠি দিয়েছে ইসি। গত ২২ ডিসেম্বর এ দু সিটির তফসিল ঘোষণা করে ইসি। ভোটগ্রহনের দিন ধার্য করা হয়েছে ৩০ জানুয়ারী। গতকাল সোমবার (৩০ ডিসেম্বর) ইসির জ্যেষ্ঠ সচিব মো. আলমগীর স্বাক্ষরিত এ চিঠিতে বলা হয়েছে, ঢাকার ২ সিটি নির্বাচন পরিচালনার জন্য রিটার্নিং অফিসার এবং সহকারী রিটার্নিং অফিসার নিয়োগ করা হয়েছে। রিটার্নিং অফিসার কর্তৃক মনোনয়নপত্র গ্রহণ ও বাতিল আদেশের বিরুদ্ধে আপিল গ্রহণ এবং আপিল নিষ্পত্তির জন্য বিভাগীয় কমিশনার, সংশ্লিষ্ট বিভাগকে আপিল কর্তৃপক্ষ হিসাবে নিয়োগ করা হয়েছে। স্থানীয় সরকার (সিটি কর্পোরেশন) নির্বাচন বিধিমালা অনুযায়ী নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার তারিখ থেকে নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার পর ১৫ দিন অতিক্রান্ত না হওয়া পর্যন্ত নির্বাচন কমিশনের অনুমতি ব্যতিরেকে নির্বাচনে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাগণকে অন্যত্র বদলি করা যায় না বলে জানান হয়েছে ইসির এ চিঠিতে। সচিবের এ চিঠিতে আরো বলা হয়েছে-নির্বাচন সংক্রান্ত কাজ সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা ও সম্পাদনের জন্য বিভিন্ন সরকারি দপ্তর, স্বায়ত্তশাসিত সংস্থা ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্য থেকে প্রয়োজনীয় সংখ্যক প্রিজাইডিং অফিসার, সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার এবং পোলিং অফিসার নিয়োগ করা হবে। এছাড়া বিভিন্ন পর্যায়ের সরকারি এবং সরকারি অনুমোদনপ্রাপ্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদেরও নির্বাচনে দায়িত্ব দেওয়া হবে। এছাড়া ভোটকেন্দ্রের আইনশৃঙ্খলা রক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যক ম্যাজিস্ট্রেট ও আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী সংস্থার সদস্যদের মোতায়েনের পাশাপাশি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও সংস্থার স্থাপনা ভোটকেন্দ্র হিসেবে ব্যবহৃত হবে। ইসি ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, আগামী ৩০ জানুয়ারি ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোট হবে। ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে অংশ নিতে আগ্রহীদের মনোনয়নপত্র দাখিল শেষ হচ্ছে কাল মঙ্গলবার।

 

সৈয়দ মুয়াজ্জেম আলীর মরদেহ দেখতে সিএমএইচে প্রধানমন্ত্রী

ঢাকা অফিস ॥ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাবেক রাষ্ট্রদূত সৈয়দ মুয়াজ্জেম আলীর মরদেহ দেখতে গতকাল বিকেলে ঢাকা ক্যান্টনমেন্টের সমন্বিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) যান। এখানে রাষ্ট্রদূত আলী গতকাল সকালে মৃত্যুবরণ করেন। প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম জানান, প্রধানমন্ত্রী দুপুর দু’টার দিকে সিএমএইচে যান। সেখানে তিনি মুয়াজ্জেম আলীর স্ত্রীসহ পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলেন এবং তাদের সান্তনা দেন। তিনি আরো বলেন, এছাড়া প্রধানমন্ত্রী তার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন। অভিজ্ঞ কূটনীতিবিদ সৈয়দ মুয়াজ্জেম আলী অল্প কিছুদিন আগে ভারতে বাংলাদেশের হাইকমিশনার হিসেব দায়িত্ব পালন করেন। এর আগে তিনি পররাষ্ট্র সচিবের দায়িত্ব পালন করেন। গতকাল সকাল ১১টা ৪৫ মিনিটে আলী সিএমএইচে বার্ধক্যজনিত কারণে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। এ সময়ে তার বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর। সিএমএইচে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে পররাষ্ট্র মন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম, সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ, প্রধানমন্ত্রীর মূখ্য সচিব মোহাম্মদ নজিবুর রহমান এবং প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের সিনিয়র সচিব সাজ্জাদুল হাসান ছিলেন। এর আগে এক শোক বার্তায় শেখ হাসিনা আলীর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন। প্রধানমন্ত্রী ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধকালে এবং এর পরে কূটনৈতিক অঙ্গনে আলীর অসামান্য অবদানের কথা স্মরণ করেন।

 

পদত্যাগ করলেন আতিকুল ইসলাম

ঢাকা অফিস ॥ এনএনবি : ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন আতিকুল ইসলাম। সোমবার বিকালে তার পদত্যাগপত্র স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে পাঠান। আতিকুল ইসলাম বলেন, মেয়র পদে থেকে কেউ নির্বাচন করতে পারবেন না। এটাই আইন। তাই পদত্যাগপত্রে স্বাক্ষর করে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়ে দিয়েছি। শনিবার রাতে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনে আতিকুল ইসলামকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়। আর দক্ষিণে ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস নৌকার কান্ডারি হন। আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার নির্বাচন মনোনয়ন বোর্ডের বৈঠকে সর্বসম্মতিক্রমে তাদের মনোনয়ন দেওয়া হয়।

জামজামি ইউপির ওয়ার্ড আ’লীগের কমিটি গঠন অনুষ্ঠানে এমপি ছেলুন

সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে

আলমডাঙ্গা অফিস ॥ আলমডাঙ্গা উপজেলার জামজামি ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডের কমিটি গঠন উপলক্ষে উপজেলা আওয়ামীলীগের অফিস কক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি পৌর মেয়র হাসান কাদীর গনু। প্রধান অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দার ছেলুন এমপি। এ সময় এমপি ছেলুন বলেন আপনাদের সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। মনে রাখবেন আমরা সকলেই মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাস করি, আলমডাঙ্গা উপজেলার জামজামি ইউনিয়ন নৌকার ঘাটি বলে পরিচিত। তাই একে অপরের বিরুদ্ধে কুৎসা না রটিয়ে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করেন। আগামিতে আমাদের চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হয়ে কাজ করতে হবে। আমরা উন্নয়নে বিশ্বাস করি, আমার নেত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা নবীন, প্রবীনদের সমম্বয়ে কাজ করছেন, আপনাদেরও প্রতিটি ওয়ার্ড কমিটি গঠনের পর ১০ দিনের মধ্যে ইউনিয়ন কমিটি গঠন করতে হবে। সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মুন্সি আলমগীর হান্নান, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক সহিদুল ইসলাম খান। উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ইয়াকুব আলী মাষ্টারের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি খন্দকার শাহ আলম মন্টু, হামিদুল ইসলাম আজম, পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি দেলোয়ার হোসেন, সম্পাদক মতিয়ার রহমান ফারুক, রেজাউল হক তবা, জামজামি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা দিদার আলী, সম্পাদক রাহাব উদ্দীন, ডেভিড মেম্বার, রিপন শাহ প্রমুখ। সভায় সর্বসম্মতিক্রমে ৯টি ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের কমিটি গঠন করা হয়। সভা শেষে ৯টি ওয়ার্ড কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকবৃন্দ প্রধান অতিথি ছেলুন এমপির সাথে কুশল বিনিময় করেন।

কূটনীতিবিদ সৈয়দ মোয়াজ্জেম আলী আর নেই

ঢাকা অফিস ॥ সাবেক পররাষ্ট্র সচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম আলী আর নেই, যিনি বাংলাদেশের জন্মলগ্ন থেকেই বিশ্বের সামনে কূটনীতিবিদ হিসেবে দেশের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। সোমবার সকালে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সাবেক এই কূটনীতিকের মৃত্যু হয় বলে আইএসপিআরের পরিচালক আবদুল্লাহ ইবনে জায়েদ জানান। সরকারি চাকরি থেকে অবসরের পরও চুক্তিভিত্তিক নিয়োগে দিল্লিতে বাংলাদেশের হাই কমিশনারের দায়িত্ব পালন করেন মোয়াজ্জেম আলী। গত নভেম্বরে মেয়াদ শেষে তিনি দেশে ফিরে আসেন। তার বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর। সৈয়দ মোয়াজ্জেম আলীর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। লেখক সৈয়দ মুজতবা আলীর ভাতিজা সৈয়দ মোয়াজ্জেম আলীর জন্ম ১৯৪৪ সালে সিলেটে। বড় ভাই এসএম আলী ছিলেন ডেইলি স্টারের প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রাণিবিদ্যায় স্নাতকোত্তর ডিগ্রিধারী মোয়াজ্জেম আলী ১৯৬৮ সালে পাকিস্তান ফরেন সার্ভিসে যোগ দেন।১৯৭১ সালে ওয়াশিংটনে কর্মরত অবস্থায় বিদ্রোহ করে স্বাধীন বাংলাদেশের প্রতি আনুগত্যের ঘোষণা দেন তিনি। এরপর ওয়াশিংটনে বাংলাদেশ দূতাবাস প্রতিষ্ঠায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন।দীর্ঘ কর্মজীবনে ভুটান, ইরান ও ফ্রান্সে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের দায়িত্ব পালন করেন মোয়াজ্জেম আলী। ওয়াশিংটন, ওয়ারশ, জেদ্দার পাশাপাশি নয়া দিল্লি মিশনেও তিনি কাজ করেছেন।মোয়াজ্জেম আলী বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি হিসেবে ইউনেস্কোর কাছে ২১ শে ফেব্র“য়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস খসড়া প্রতিবেদন দিয়ে ভাষা আন্দোলনকে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পেতে ভূমিকা রাখেন। পররাষ্ট্র সচিবের দায়িত্ব পালনের পর ২০০১ সালে অবসরে যান পেশাদার এই কূটনীতিক। পরে ২০১৪ সালে আওয়ামী লীগ সরকার আবার তাকে কূটনৈতিক দায়িত্বে ফিরিয়ে এনে হাই কমিশনার করে দিল্লি পাঠায়। প্রতিমন্ত্রীর মর্যাদায় ওই দায়িত্ব পালন শেষে সম্প্রতি তিনি দেশে ফেরেন। বাংলাদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম এই কূটনীতিকের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন। ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্করও শোক প্রকাশ করে টুইট করেছেন।

আলমডাঙ্গায় ভ্রাম্যমান আদালতে মাদকসেবীকে জরিমানা

আলমডাঙ্গা অফিস ॥ আলমডাঙ্গায় ভ্রাম্যমান আদালতে এক মাদক সেবীকে  ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছে। গতকাল আলমডাঙ্গা থানা পুলিশের এস আই আসিকুর রহমান সঙ্গায় ফোর্সসহ অভিযান চালিয়ে স্টেশন এলাকা থেকে নাগদা ইউনিয়নের খেজুরতলা গ্রামের মৃত নস্কর মোল্লার ছেলে মাদক সেবী আলক (৬০) কে আটক করে। আটকের পর তার দেহ তল্লাশি করে ২ পুরিয়া গাজা উদ্ধার করে। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ লিটন আলী ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মাদকসেবী আলেককে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করে।

কালুখালীতে বর্তমান সরকারের অর্জিত সাফল্য ও উন্নয়ন পরিকল্পনা বিষয়ক আলোচনা সভা

ফজলুল হক ॥ গতকাল সোমবার রাজবাড়ীর কালুখালীতে সমৃদ্ধির অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশ শীর্ষক প্রচার কার্যক্রমের আওতায় বর্তমান সরকারের অর্জিত সাফল্য ও উন্নয়ন পরিকল্পনা বিষয়ক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে সকাল ১১টায় রতনদিয়া ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তনে জেলা তথ্য অফিস রাজবাড়ীর আয়োজনে উপজেলা প্রশাসন কালুখালীর সহযোগীতায় অনুষ্ঠিত এ আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) শেখ নুরুল আলম। প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলিউজ্জামান চৌধুরী (টিটো)। তিনি তার বক্তব্যে বর্তমান সরকারের বিভিন্ন কাজের সাফল্যের কথা উল্লেখ করে সরকারের হাতকে শক্তিশালী করতে সকলকে  সার্বিকভাবে নৈতিক দায়িত্ব হিসেবে সচেষ্ট থাকতে বলেন। দিলিপ কুমার মন্ডলের সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা তথ্য অফিসার শাহিন মিয়া। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন রতনদিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মেহেদী হাচিনা পারভীন নিলুফা, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক খায়রুল ইসলাম খায়ের প্রমুখ। এ সময় ইউনিয়নের সদস্য ও স্থানীয় গণ্যমাণ্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

ঝিনাইদহে হিজড়া জনগোষ্ঠীর মধ্যে পুলিশের কম্বল বিতরণ

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ॥ ঝিনাইদহে হিজড়া জনগোষ্ঠীর মধ্যে কম্বল বিতরণ করেছে জেলা পুলিশ। সোমবার বিকালে জেলা পুলিশের আয়োজনে সদর থানা চত্বরে এ কম্বল বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থেকে কম্বল বিতরণ করেন ঝিনাইদহের পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামান (পিপিএম)। এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মিলু মিয়া বিশ্বাস, সদর সার্কল’র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কনক কুমার দাস, সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাঈন উদ্দিন, থানার (তদন্ত) কর্মকর্তা ইমদাদুল হক, কর্মকর্তা (অপারেশন) আবুল খায়ের। পরে ৫৫জন হিজড়ার মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়।

ভেড়ামারা সাব-রেজিস্ট্রার অফিসের কর্মকর্তাদের দেখে নেয়ার হুমকি দিলেন দলিল লেখক আনারুল

আল-মাহাদী ॥ কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা সাব-রেজিস্ট্রার অফিসের কর্মকর্তাদের দেখে নেওয়ার হুমকি দিলেন গোলাপনগর গ্রামের আবুল কাশেমের পূত্র দলিল লেখক আনারুল ইসলাম (৪০)। ভেড়ামারা সাব-রেজিস্ট্রার অফিস সূত্রে জানা যায়, গত রবিবার সকাল সাড়ে ১১টায় পরানখালী গ্রামের মৃত ইয়াদ আলী’র পূত্র দলিল লেখক হাবিবুর রহমান (৩৮) সাব-রেজিস্ট্রারের এজলাস কক্ষে প্রকাশ্যে ধূমপান করলে সাব-রেজিস্ট্রার অফিসের কর্মকর্তারা তাকে ধূমপান করতে নিষেধ করেন। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে দলিল লেখক আনারুল ইসলাম ও হাবিবুর রহমান সাব-রেজিস্ট্রার অফিস কর্মকর্তাদের দেখে নেওয়ার হুমকি দেয়। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন কর্মকর্তা জানান, রবিবার সকালে সিগারেট হাতে হাবিবুর অফিস কক্ষে প্রবেশ করলে আমরা তাকে সিগারেটটি বাহিরে ফেলে আসার জন্য অনুরোধ করি। কিন্তু তিনি আমাদের কথা না শুনে আমাদের অফিসের কর্মকর্তাদের সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন। একপর্যায়ে দলিল লেখক হাবিবুর এর সহকর্মী আনারুল এসে আমাদেরকে দেখে নেওয়ার হুমকি দেয়। পরে এই বিষয়টি আমরা মৌখিকভাবে সাব- রেজিস্ট্রার জুবায়ের হোসেন স্যারকে জানিয়েছি। ভেড়ামারা সাব-রেজিস্ট্রার জুবায়ের হোসেন জানান- বিষয়টি আমি শুনেছি। অফিস কক্ষে প্রকাশ্যে ধূমপান সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। এব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। এদিকে দলিল লেখক হাবিবুর ও আনারুল এর সাথে একাধিকবার  যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাদের কাউকেই পাওয়া যায়নি।

 

দৌলতপুর সীমান্তে বিজিবি’র মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুর সীমান্তে বিজিবি’র মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল সোমবার দিনব্যাপী উপজেলার চিলমারী ইউনিয়নের পূর্ব খারিজারথাক সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এ ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়। মেডিকেল ক্যাম্পের উদ্বোধন করেন কুষ্টিয়া সেক্টর কমান্ডার কর্নেল জিয়া সাদাত খান, পিএসসি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ৪৭ বিজিবি ব্যাটালিয়ন-এর অধিনায়ক লে. কর্নেল মো. রফিকুল আলম-পিএসসি। মেডিকেল ক্যাম্পে চুয়াডাঙ্গা বিজি হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক লে. কর্নেল এ টি শাহরিয়ার আহমেদ-এমএস, মেজর মইনুল ইসলাম এবং মেজর ফেরদৌস রহমান উপস্থিত ছিলেন। মেডিকেল ক্যাম্পে চরচিলমারী বিওপি‘র আশে-পাশের সীমান্তবর্তী এলাকার ৭৩৫ জন গরীব ও দুস্থ জনসাধারনের মধ্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান এবং বিনামূল্যে ঔষধ বিতরণ করা হয়। এরমধ্যে পুরুষ-৩০৭ জন এবং মহিলা-৪২৮ জন।

সমাবেশের অনুমতি না পেয়ে বিক্ষোভের ডাক বিএনপির

ঢাকা অফিস ॥ একাদশ জাতীয় নির্বাচনের বর্ষপূর্তির দিনে সমাবেশের অনুমতি না পেয়ে আজ মঙ্গলবার ঢাকার থানায় থানায় বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বিএনপি। গতকাল সোমবার সকালে নয়া পল্টনের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন। তিনি বলেন, “আজকে বিএনপির ঢাকা মহানগরীতে সমাবেশের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছিল গণতন্ত্র হত্যা দিবস উপলক্ষে। কিন্তু সরকার দিনটিকে এমনভাবে ভয় পেয়েছে যে, গণতন্ত্র হত্যা দিবসে বিরোধী দলকে কোনো কর্মসূচি তারা করতে দিচ্ছেন না। “আমাদের পূর্বঘোষিত সমাবেশ বানচাল করতে পোশাক ও সাদা পোশাকে পুলিশ সকাল থেকে দলীয় কার্যালয়ের সামনে ও আশপাশের সড়ক এবং অলিগলিতে অবস্থান নিয়ে যুদ্ধংদেহী পরিবেশ তৈরি করে রেখেছে গোটা নয়া পল্টন সড়ক এলাকায়।” ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর একাদশ নির্বাচনে ২৫৮ আসনে অভাবনীয় জয় পায় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। অন্যদিকে মাত্র ছয়টি আসনে জয় পেয়ে ভরাডুবি হয় বিএনপির। ওই নির্বাচনে ভোট ডাকাতির অভিযোগ এনে বিএনপি ওই ফলাফল প্রত্যাখ্যান করে। শুরুতে শপথ না নেওয়ার অবস্থানে অনড় থাকলেও শেষ পর্যন্ত বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ছাড়া নির্বাচিত বাকিরা সংসদে যান।  কিন্তু সেই নির্বাচনের বর্ষপূর্তিকে ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ হিসেবে পালনের ঘোষণা দিয়ে বিএনপি সমাবেশ ডেকেছিল। কিন্তু তাতে পুলিশের অনুমতি মেলেনি। এর আগে ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দিনকেও ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ হিসেবে পালন করেছে ওই ভোটবর্জনকারী দলটি। রিজভী বলেন, “সারা দেশ যেন আওয়ামী লীগের তালুকদারিতে পরিণত হয়েছে। যখন তখন যে কোনো সময়ে আওয়ামী লীগ যে কোনো স্থানে সভা-সমাবেশ করতে পারে। অথচ বিরোধী দল ও ভিন্ন মতের মানুষদের সেই অধিকার নেই। “এদেশে শুধুমাত্র একজনেরই গণতান্ত্রিক অধিকার আছে- তিনি হলেন শেখ হাসিনা। বাংলাদেশে এক ব্যক্তিকেন্দ্রিক গণতন্ত্র চলছে। একমাত্র শেখ হাসিনার কণ্ঠস্বরের স্বাধীনতাই রয়েছে চরম পর্যায়ে। আর শেখ হাসিনার এই দুঃশাসনে বিরোধী দলের নেতা-কর্মী ও ভিন্নমতের মানুষরা সাব-হিউম্যান পর্যায়ে।” দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে ‘অন্যায়ভাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিহিংসায় বন্দি করে রাখা হয়েছে’ বলেও মন্তব্য করেন তিনি। নয়া পল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সকাল থেকে ব্যাপকসংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়। পুলিশের ব্যাপক উপস্থিতির কারণে কেন্দ্রীয় কার্যালয় প্রায় নেতা-কর্মী শূন্য।  বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক এজেডএম জাহিদ হোসেন, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরফত আলী সপু, সহ-সংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।

কুষ্টিয়া জেলা কারাগার এখন মাদক ও নিরক্ষরমুক্ত

বন্দিদের আলোর পথ দেখাতে ব্যতিক্রমী উদ্যোগ, সাবলম্বী হচ্ছে বিভিন্ন ট্রেডে প্রশিক্ষন নিয়ে

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ নুর মোহাম্মদ। কুষ্টিয়া শহরের চৌড়হাস এলাকার মুনসাদ আলীর ছেলে। একটি মামলায় সে বেশ কিছুদিন কুষ্টিয়া কারাগারে বন্দি ছিল। বন্দি থাকা অবস্থায় নুর মোহাম্মদ তিন মাস মেয়াদী ইলেকট্রিক এন্ড হাউজ ওয়ারিং হিসেবে ট্রেনিং গ্রহণ করে। জামিনে বের হয়ে এসে সে এখন ইলেকট্রিক ওয়ারিংকে পেশা হিসেবে বেছে নিয়েছে। প্রতিদিন তার গড়ে ৫০০ থেকে ৬০০ টাকা উপার্জন হয়। এ দিয়ে তার সংসার চলে। তারমত নাহিদ হাসান, নাসিম, চান্নু মিয়া, সুমন আহমেদ, রুবেল হোসেন, ফজলে রাব্বিসহ অনেকেই এখন পেশাদার ইলেকট্রিক মিস্ত্রি। কারাগার তাদের আলোর পথ দেখিয়েছি। অপরাধ ছেড়ে বেছে নিয়ে পেশা। এতে তাদের মর্যাদা বেড়েছে সমাজের কাছে।

খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, কারা কর্তৃপক্ষের নেয়া বেশ কয়েকটি পদক্ষেপে আমূল বদলে গেছে কারাগার। বিশেষ করে বন্দিদের আলোর পথে নিয়ে আসার জন্য বর্তমান জেল সুপার জাকের হোসেন নানা উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। বিশেষ করে গত দুই বছরে কারাগার বদলে গেছে। প্রথম দিকে নানা চ্যালেঞ্জ থাকলেও এখন সুবিধা পাচ্ছেন কয়েদি ও হাজতিরা। জেল সুপার জাকের হোসেনের আন্তরিক প্রচেষ্টায় কুষ্টিয়া জেলা কারাগার এখন মাদক ও নিরক্ষরমুক্ত।

কারা কর্তৃপক্ষ সুত্রে জানা গেছে,‘ সরকারের একটি কর্মসূচী আছে নিরক্ষর কেউ থাকবে না। সেই কর্মসুচী বাস্তবায়ন হচ্ছে কুষ্টিয়া কারাগারে। নতুন কোন আসামী কারাগারে আসলে তার তথ্য সংগ্রহ করা হয়। কেউ লেখাপড়া ও নাম স্বাক্ষর না জানলে তাকে আলাদা ওয়ার্ডে রাখা হয়। কারগারে আসার পর দিনই শুরু হয় নাম স্বাক্ষর শেখানো। বর্তমানে একটি মামলায় যাবজ্জীবন জেল হওয়া উচ্চ শিক্ষিত সোহেল রানা শিক্ষক হিসেবে কাজ করছেন।

সোহেল রানা বলেন, তিনি এখন পর্যন্ত কারাগারে আসার পর থেকে ৯০০জনকে স্বাক্ষরসহ লেখাপড়া শিখিয়েছেন। ২০১৭ সাল থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত ৩ হাজার ২৮৮জনকে স্বাক্ষরসহ লেখাপড়া শেখানো হয়েছে।

লাহিনীপাড়া এলাকায় বাড়ি পারুল নামের এক নারী বলেন, তার স্বামী ইসমাইল কারাগারে আছেন। নাম স্বাক্ষরসহ লেখাপড়া জানতেন না। কারাগারে আসার পর এখন পড়তে পারেন নামও লিখতে পারেন। এছাড়া কুরআন শিক্ষা গ্রহণ করেছেন তিনি।’

কারাগার সুত্রে জানা গেছে, কারাগারকে প্রকৃত পক্ষেই সংশোধনাগার করতে পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। যাতে মাদক ব্যবসায়ী, ছিনতাইকারী, চুরিসহ নানা অপরাধ করে আসা আসামীরা কারাগার বের হয়ে কাজ করে জীবন যাপন করতে পারে। সেই উদ্যোগের অংশ হিসেবে তাঁতপল্লী ও হস্তশিল্প, পাওয়ার লুম, দর্জি প্রশিক্ষণ, পুথির কাজ, ইলেকট্রিক এন্ড হাউজ ওয়ারিং এর মত বিষয়গুলো হাজতিদের ট্রেনিং করানো হচ্ছে। পাশাপাশি কয়েদিরাও শিখছে এসব কাজ।

কুষ্টিয়ার কুমারখালী থেকে কয়েকজন শিক্ষক এসে প্রথমে কয়েদিদের প্রশিক্ষন দেয়। এরপর কয়েদিরা প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত হয়ে নিজেরায় হস্তশিল্প ও পাওয়ার লুমে প্রশিক্ষণ প্রদান করছেন। তারা নিজেরায় শাড়ি, লুঙ্গী উৎপাদন করেছে কারাগারে। এসব উৎপাদনকৃত পন্য কুষ্টিয়া কারাগারের সামনে তৈরীকৃত কারা পন্য প্রদর্শনী ও বিক্রয় কেন্দ্রে বিক্রি হচ্ছে।

কারাগার থেকে এ বিষয়ে প্রশিক্ষন নিয়েছেন বিপ্লব, শাজাহান, রুবেলসহ আরো অনেকেই। মুক্তি পেয়ে তারাও এখন এ কাজ করে উপার্জন করছে  ।

জানুয়ারি মাস থেকে পাওয়ার লুম ও হস্ত চালিত তাঁতা পুরোদমে উৎপাদনে যাবে। তখন চাহিদা অনুযায়ী সরবরাহ করা হবে। উৎপাদনকৃত পণ্য বিক্রির অর্ধেক পাবেন কয়েদিরা। কয়েদিরা কারাগারে একতারা তৈরী করছেন। এই একতারা লালন একাডেমীর অনুষ্ঠানে অতিথিদের উপহার দেয়া হয়।

পাশাপাশি প্রতিদিন সকালে ইসলামিক ফাউন্ডেশন ও কারাগার থেকে পৃথকভাবে কুরআন শিক্ষা দেয়া হচ্ছে বন্দিদের।

ভাদালিয়া এলাকায় বাড়ি রুবেল হুসাইন বলেন, ‘কারাগার থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে বাইরের একটি দোকানে চাকুরি শুরু করেছি। প্রতিমাসে ১০ হাজার টাকা বেতন পান তিনি। ভাদালিয়া বাজারে মা টেলিকমে কাজ করেন রুবেল।

একই সাথে বিনোদনের জন্য জেল সুপার জাকের হোসেন সাংস্কৃতিক টিম গঠন করেছেন। কয়েদিদের নিয়ে বিশেষ টিম গঠন করেছেন তিনি। নিয়মিত সঙ্গীত প্রশিক্ষনসহ পরিবেশন করেন শিল্পীরা।  জেলা ও দায়রা জজ এবং জেলা প্রশাসকসহ উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা কারাগার পরিদর্শনে গেলে এ টিমের সদস্যরা গান পরিবেশন করেন।

একই সাথে কারা অভ্যন্তরে একটি লাইব্রেরি স্থাপন করা হয়েছে। বন্দিদের বই পড়ার সুযোগ দিতে এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। তবে অর্থের অভাবে লাইব্রেরির অনেক কাজ বাকি রয়েছে।

কারাগার বিশেষ করে যারা মাদক ব্যবসায়ী আছেন তাদের পুনর্বাসন করতে উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। মাদক ব্যবসায়ীদের প্রশিক্ষন দিয়ে তাদের কর্মের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এতে অনেক মাদক ব্যবসায়ী প্রশিক্ষন নিয়ে এখন কাজ করে উপার্জন করছে।

তবে প্রশিক্ষন নিয়ে যারা বাইরে কাজ করছেন এমন কয়েকজন বলেন, তারা প্রশিক্ষন নিয়ে লোন পাচ্ছেন না। লোন পেলে তারা নিজেরাই সাবলম্বী হতে পারতেন। প্রশিক্ষনের পাশাপাশি যাতে লোন পাওয়া যায় সে বিষয়টি বিবেচনার দাবি করেন তারা।

জেল সুপার জাকের হোসেন বলেন,‘ বন্দিদের আলোর পথে আনতে বিভিন্ন উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। বিভিন্ন ট্রেডে প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে। বিশেষ করে নাম স্বাক্ষরসহ লেখাপড়া শেখা বাধ্যতামূলক। পাশাপাশি পাওয়ার লুম, দর্জি, হস্তচালিত তাঁত, ইলেকট্রিক, সঙ্গীত চর্চার ব্যবস্থা করা হয়েছে। বন্দিদের মাঝে পরিবর্তন আনার পাশাপাশি মাদক ব্যবসায়ীসহ অন্য আসামীদের আলোর পথে আনতে এসব উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। অনেকেই আলোর পথ খুঁজে পেয়েছেন। তারা উপার্জন করে সংসার চালাচ্ছে। এছাড়া বন্দিরা নানা ধরনের পন্য উৎপাদন করছে। এ পন্য বিক্রির অর্থ তারাও পাচ্ছে।’

জেলা প্রশাসক মোঃ আসলাম হোসেন বলেন,‘ জেল সুপারের তৎপরতায় কারাগারে নানা ধরনের প্রশিক্ষন পাচ্ছে বন্দিরা। পাশাপাশি যারা প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন তাদের যাতে অর্থ দিয়ে পূর্ণবাসন করা যায় এমন বিষয় উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নজরে আনা হবে। যাতে তারা কর্মসংস্থানের পথ করে নিতে পারে। আর যাতে নতুন করে কোন অপরাধে না জড়ায়।’

বাম জোটের কালো পতাকা মিছিলে পুলিশের লাঠিচার্জ, সাকিসহ আহত ২০

ঢাকা অফিস ॥ একাদশ নির্বাচনের বার্ষিকীতে সরকারের পদত্যাগ ও নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে পুনর্নির্বাচনের দাবিতে বাম গণতান্ত্রিক জোটের কর্মসূচিতে লাঠিচার্জ করে পন্ড করে দিয়েছে পুলিশ। এ সময় পুলিশের হামলায় গণসংহতি আন্দোলনের সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকিসহ অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ১৪ জনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে বাম জোটের কালো পতাকা মিছিলে এ হামলা হয়। ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনের প্রথম বার্ষিকী ছিল গতকাল। এদিনটিকে ‘কালো দিবস’ হিসেবে পালনের অংশ হিসেবে সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে কালো পতাকা মিছিল নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে রওনা হন বাম জোটের নেতারা। মিছিলটি কদম ফোয়ারার সামনে গেলে পুলিশ বাধা দেয়। এ সময় পুলিশের দেয়া ব্যারিকেড ভেঙে এগিয়ে যান নেতাকর্মীরা। বেলা ১টার দিকে মৎস্য ভবনের সামনে আবারও পুলিশি বাধার মুখে পড়েন বাম জোটের নেতাকর্মীরা। তারা ব্যারিকেড ভেঙে এগোতে চাইলে পুলিশের সঙ্গে বাকবিতন্ডা ও একপর্যায়ে হাতাহাতি হয়। একপর্যায়ে মিছিল থেকে ইটপাটকেল ছুড়ে মারার অভিযোগ তুলে পুলিশ সদস্যরা নেতাকর্মীদের ওপর শুরু করে লাঠিচার্জ। তাদের মারধর করে সড়ক থেকে সরিয়ে দেয়। এতে ২০-২৫ নেতাকর্মী আহত হন। এ সময় মৎস্য ভবন মোড় থেকে প্রেসক্লাবের দিকে যান চলাচল প্রায় ২০ মিনিট বন্ধ থাকে। বাম গণতান্ত্রিক জোটের সমন্বয়ক সিপিবি নেতা ক্বাফী রতন এ বিষয়ে বলেন, পুলিশের হামলায় জোটের নেতা বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকিসহ ২০-২৫ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। তারা ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন গণংসহতি আন্দোলনের সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি বলেন, আমাদের কর্মসূচিতে পুলিশ অতর্কিত হামলা চালিয়েছে। এতে আমার মাথা ফেটে গেছে। অনেকে আহত হয়েছেন। লাঠিচার্জের অভিযোগের বিষয়ে ডিএমপি রমনা জোনের ডিসি সাজ্জাদুর রহমান বলেন, আমরা তাদের (বাম জোটের নেতাদের) অনুরোধ করেছিলাম যেন সহিংসতা না করে, ব্যারিকেড না ভাঙে। কিন্তু বাম জোটের নেতাকর্মীরা কথা শোনেননি। তারা প্ল্যাকার্ডের সঙ্গে থাকা লাঠি ও বাঁশ দিয়ে পুলিশের ওপর হামলা করে। এতে আমাদের ৫ পুলিশ সদস্য আহত হন। তিনি বলেন, পুলিশ অনেক ধৈর্যের পরিচয় দিয়েছে। পরে তাদের সরিয়ে দিয়েছে। এ সময় আটক করা হয়েছে পাঁচজনকে। এর আগে সকালে প্রেসক্লাবের সামনে সমাবেশে বক্তৃতা করেন সিপিবি সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম, সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম, বাম গণতান্ত্রিক জোটের নতুন সমন্বয়ক আবদুল্লাহ আল ক্বাফী রতন, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, বাসদের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য বজলুর রশিদ ফিরোজ, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির সাধারণ সম্পাদক মোশরেফা মিশু, ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের সাধারণ সম্পাদক মোশারফ হোসেন নান্নু সমাবেশে অংশ নেন। এদিকে শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে পুলিশের হামলার প্রতিবাদে মঙ্গলবার বিকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ ডেকেছে গণতান্ত্রিক বাম জোট।

আজ পিইসি-জেএসসি-জেডিসির ফল প্রকাশ

ঢাকা অফিস ॥ আজ ৩১ ডিসেম্বর জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি), জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) এবং প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হবে। মঙ্গলবার সকাল ১০টায় গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে পঞ্চম এবং অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত দুটো সমাপনী পরীক্ষার ফলাফলের অনুলিপি প্রদান করবেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, সংশ্লিষ্ট দুই মন্ত্রণালয়ে পৃথক সংবাদ সম্মেলনে স্ব স্ব মন্ত্রণালয়ে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হবে। শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি সকাল সাড়ে ১১ টায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি), জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করবেন। ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান মুহাম্মদ জিয়াউল হক বাসসকে জানান, পরে, একই সময়ে ২০২০ শিক্ষাবর্ষের প্রথম দিনে প্রাথমিক থেকে মাধ্যমিক স্তরে বিনামূল্যে পাঠ্যবই বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ খায়ের জানান, বেলা ১০ টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে ফলাফল হস্তান্তরের পর বেলা ১২ টায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সভা কক্ষে সংবাদ সম্মেলন করে জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হবে। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা রবীন্দ্রনাথ রায় জানান, বেলা ১ টায় মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সংবাদ সম্মেলনের মধ্য দিয়ে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হবে।

ঢাবির মধুর ক্যান্টিনের পাশে ফের ককটেল বিস্ফোরণ, আহত ১

ঢাকা অফিস ॥ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) মধুর ক্যান্টিনের পাশে দুটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটেছে। এতে ক্যান্টিনের এক কর্মচারী আহত হয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে ছয়টি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটল। সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকের ক্যান্টিনের পাশে গোলঘরে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, কে বা কারা সকালে দুটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। এতে উপস্থিতদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। ককটেলের স্পরিন্টিারের আঘাতে মধুর ক্যান্টিনের এক কর্মচারী আহত হন। তবে তাৎক্ষণিকভাবে তার নাম জানা যায়নি। তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর একেএম গোলাম রব্বানী জানান, আহত মধুর ক্যান্টিনের কর্মচারীকে চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। প্রসঙ্গত, রোববার সকাল ৯টায় তিনটি ও সন্ধ্যায় ৭টায় ১টি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটে।

১৩তম ক্র্যাক ইন্টারন্যাশনাল আর্ট ক্যাম্প

উন্মুক্ত প্রদর্শনীর মাধ্যমে কুষ্টিয়ায় শেষ হল চারুকলার আন্তর্জাতিক আসর

নিজ সংবাদ ॥  কুষ্টিয়ার রহিমপুরে ঢাকা-কুষ্টিয়া মহাসড়কের পাশে স্মরণ মৎস্য বীজ খামারে অনুষ্ঠিত হচ্ছে ত্রয়োদশ ক্র্যাক ইন্টারন্যাশনাল আর্ট ক্যাম্প ২০১৯। ক্যাম্প শুরু হয় গত ২৫ ডিসেম্বর। গতকাল ৩০ ডিসেম্বর সোমবার উন্মুক্ত প্রদর্শনীর মাধ্যম এই আয়োজনের পর্দা নামে। বাংলাদেশসহ বিশ্বের ৪টি দেশের প্রায় ২০ জন শিল্পী এই আন্তর্জাতিক আর্ট ক্যাম্পে অংশ নেয়। কিউরেটরের দায়িত্ব পালন করছেন ভারতের শিল্পী ও কিউরেটর সুরেশ কে. নায়ার। বাংলাদেশ সহ রাশিয়া, জাপান ও ভারত এর  শিল্পীরা এই ক্যাম্পে অংশ নেন। অংশগ্রহণকারী শিল্পীরা হচ্ছেন: জাপানের রেইকো সিমিজু, তামিকো তাকাহাসি, রাশিয়ার লাভরেন্টি রেপিন, ভারতের আশিস রাঠোর, বালাগোপালান বেথুর, সুভাষ কুমার মাসকারা, উর্মিলা বানু, শিরিন শেখ এবং বাংলাদেশের জুয়েল চাকমা, জয়া বড়–য়া, নাজমুল হোসেন নয়ন, এস এম রিয়াদ, সেমিনা ইশরাত, সুতপা বর্মন, পলি লায়লা, মুনতাসিব রহমান, শক্তি নোমান, সাদিয়া শারমিন এবং মো. সামিন শুভ। ২০০৭ সাল থেকে এই মাল্টিডিসিপ্লিনারি আর্ট ক্যাম্পটি নিয়মিত অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। কুষ্টিয়ায় এই আর্ট ক্যাম্পটির সূচনা হয়েছিল বিভিন্ন ধরনের শিল্পী ও সাংস্কৃতিক কর্মীদের উদ্যোগে, শিল্পী ও গবেষক শাওন আকন্দের নেতৃত্বে এবং শিল্পী দেলোয়ার হোসেনের আন্তরিক সহোযোগিতায়। এই ক্যাম্পে শিল্পীরা প্রধানত সাইট-স্পেসিফিক ও কন্সেপচুয়াল আর্টওয়ার্ক নিয়ে কাজ করছেন। শিল্প নির্মাণ উপকরণ হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে স্থানীয় বিবিধ উপাদান ও পারিপার্শিক প্রতিবেশ। স্থানীয় পরিবেশের সাথে সমন্বিতভাবে শিল্প চর্চার ধারাকে সামনে এগিয়ে নিতে ক্যাম্পের শিল্পীরা কাজ করে চলেছেন। অংশগ্রহণকারীরা ইতোমধ্যে কুষ্টিয়া অঞ্চলের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও অঙ্গনের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ন স্থান (রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কুঠিবাড়ি, লালনের ছেউড়িয়া, গোপিনাথ-জিউর মন্দির, মোহিনী মিল প্রভৃতি) ঘুরে দেখেছেন এবং স্থানীয় বিভিন্ন আর্ট উপকরণ সংগ্রহ করেছেন তাদের শিল্পকর্মের জন্য। এবারের আর্ট ক্যাম্পের কিউরেটরিয়াল থিম “রুটস/শেকড়”-এর আলোকে শিল্পীরা তাদের শিল্পকর্ম নির্মাণ আরম্ভ করেছেন যা উন্মুক্ত প্রদর্শনীর মাধ্যমে গতকাল সোমবার দর্শকদের সামনে তুলে ধরা হয়।  সমকালে দাঁড়িয়ে নিজেদের চিন্তাধারা, দর্শন, শিল্পচর্চার ধারাবাহিক অনুশীলনের সাথে বৈশি^ক চিন্তাধারার সমন্বয় সাধন, যৌথতার ভিত্তিতে শিল্প প্রয়াসের আদান-প্রদান আর শিল্পের সামগ্রিক আবহের সাথে সাধারণ মানুষকে অঙ্গীভূত করার প্রচেষ্টার ভেতর দিয়ে ১৩তম ক্র্যাক আন্তর্জাতিক আর্টক্যাম্প সমাপ্তি হয়। বৈশি^ক প্রেক্ষাপটে শিল্পচর্চার ধারাবাহিক ইতিহাসে অনেকগুলো বাঁক আছে। প্রতিটি বাঁক এক একটি সময়ের প্রতিনিধিত্ব করে। এক এক ধরনের উত্তরণের কথা বলে। ১৩ বছরের সফল প্রচেষ্টার পর ক্র্যাক আন্তর্জাতিক আর্টক্যাম্পকে সেই ধারাবাহিক ইতিহাসের অংশ বলা যায়। ক্র্যাক তাদের দীর্ঘ এক যুগের চর্চায় এটি প্রমান করতে সফল হয়েছে যে, বাংলাদেশের চারুশিল্প চর্চার নিজস্ব পথ আছে। সেই পথ কেবল প্রাতিষ্ঠানিকতায় বিকশিত নয়। বরং জনপদের ইতিহাসের সাথে তার রয়েছে গভীর যোগাযোগ।

সরকারের এক বছর পূর্তিতে দৌলতপুর এমপি বাদশাকে উপজেলা প্রশাসনে শুভেচ্ছা

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ বর্তমান সরকারের এক বছর পূর্তি উপলক্ষে কুষ্টিয়া-১ দৌলতপুর আসনের এমপি এ্যাড. সরওয়ার জাহান বাদশাকে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ফুলের শুভেচ্ছা জানানো হয়েছে। গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় ফিলিপনগর গ্রামের সংসদ সদস্য এ্যাড. সরওয়ার জাহান বাদশা’র নিজ বাসভবনে উপস্থিত হয়ে এ ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তার, দৌলতপুর সহকারী কমিশনার (ভূমি) আজগর আলী, দৌলতপুর প্রকৌশলী, দৌলতপুর প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সাইদুর  রহমানসহ অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে কুষ্টিয়ার প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা ইসহাক আলী মাষ্টারের সাক্ষাত

ঢাকা অফিস ॥ জনসভার স্মৃতিচারণ মনোযোগ দিয়ে শোনেন বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা। গত ২০ ডিসেম্বর আওয়ামী লীগের সম্মেলনে লাঠি ভর দিয়ে যোগদান করেন কুষ্টিয়ার সদর উপজেলার আব্দালপুুর গ্রামের  ১০৪ বছর বয়সী ইসহাক আলী মাস্টার। আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম জানান, শতবর্ষী আওয়ামী লীগ নেতা ইসহাক আলী মাস্টারকে গণভবনে ডেকেছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসময় তিনি তার সঙ্গে দীর্ঘ সময় কথা বলেন। ১৯৫০ সালে জাতির পিতা যশোর সফর করেছিলেন। সেই সময় মঞ্চে কে কে উপস্থিত ছিলেন এবং সেই দিন ভাষণে কি বলেছিলেন সেসব স্মৃতিচারণ প্রধানমন্ত্রী তার কাছ থেকে শোনেন। এক পর্যায়ে শতবর্ষী ইসহাক আলী মাস্টার আবেগে আপ্লুত হয়ে প্রধানমন্ত্রীর মাথায় হাত বুলিয়ে দিয়ে দোয়া করেন। এছাড়া গণভবনে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য তাকে ধন্যবাদ জানান শতবর্ষী এই আওয়ামী লীগ নেতা। এসময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আপনাদের মতো বঙ্গবন্ধুপ্রেমী আছে বলেই আওয়ামী লীগের ভীত এতো শক্ত। ইসহাক আলী মাস্টারের সঙ্গে ছিলেন তার ছেলে কুষ্টিয়া জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আলী মূর্তজা খসরু ও তার স্ত্রী কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক শাম্মি আক্তার।

এ নিয়ে ৭০ বার পেছাল সাগর-রুনি হত্যার তদন্ত প্রতিবেদন

ঢাকা অফিস ॥ নির্ধারিত দিনে সাংবাদিক দম্পতি সাগর সারোয়ার ও মেহেরুন রুনি হত্যা মামলার তদন্ত প্রতিবেদন জমা না দেয়ায় নতুন তারিখ দিয়েছেন ঢাকা মহানগর হাকিম দেবব্রত বিশ্বাস। যে কারণে এ নিয়ে ৭০ বার পেছাল সাগর-রুনি হত্যার তদন্ত প্রতিবেদন। গতকাল সোমবার এ হত্যা মামলার তদন্ত দাখিলের দিন ধার্য করা হয়েছিল। কিন্তু তদন্তকারী সংস্থা র‌্যাব তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়নি। সেই কারণে ঢাকা মহানগর হাকিম দেবব্রত বিশ্বাস আগামী ১০ ফেব্রুয়ারি নতুন তারিখ ধার্য করেছেন। সংশ্লিষ্ট থানার সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা (জিআরও) আসাদুজ্জামান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। আলোচিত এ হত্যা মামলায় রুনির বন্ধু তানভীর রহমানসহ ৮ আসামিরা হলেন—বাড়ির নিরাপত্তারক্ষী এনাম আহমেদ ওরফে হুমায়ুন কবির, রফিকুল ইসলাম, বকুল মিয়া, মিন্টু ওরফে বারগিরা মিন্টু ওরফে মাসুম মিন্টু, কামরুল হাসান অরুণ, পলাশ রুদ্র পাল ও আবু সাঈদ। প্রসঙ্গত ২০১২ সালের ১১ ফেব্র“য়ারি মাছরাঙা টেলিভিশনের বার্তা সম্পাদক গোলাম মোস্তফা সারোয়ার ওরফে সাগর সারোয়ার ও এটিএন বাংলার জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক মেহেরুন নাহার রুনা ওরফে মেহেরুন রুনি দম্পতি রাজধানীর পশ্চিম রাজাবাজারে নিজ বাসায় খুন হন। এরপর নিহত রুনির ভাই নওশের আলম রোমান শেরেবাংলা নগর থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। প্রথমে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ছিলেন ওই থানার এক উপ-পরিদর্শক (এসআই)। চারদিন পর চাঞ্চল্যকর এ হত্যা মামলার তদন্তভার ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) কাছে হস্তান্তর করা হয়। দুই মাসেরও বেশি সময় তদন্ত করে রহস্য উদঘাটনে ব্যর্থ হয় ডিবি। পরে হাইকোর্টের নির্দেশে একই বছরের ১৮ এপ্রিল হত্যা মামলাটির তদন্তভার র‌্যাবের কাছে হস্তান্তর করা হয়।