মিরপুরে ট্রেনের ধাক্কায় বৃদ্ধার মৃত্যু

আমলা অফিস ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার হালসা রেলওয়ে ষ্টেশনে আউটার সিগন্যালের নিকট ট্রেনের ধাক্কায় অজ্ঞাত এক বৃদ্ধের (৬৫) মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় খুলনা থেকে ঢাকাগামী আপ চিত্রা আন্তনগর ট্রেন হালসা ষ্টেশনে প্রবেশের সময় রেললাইন পার হতে গেলে ইঞ্জিনের আঘাতে অজ্ঞাত এক বৃদ্ধ ট্রেনের নিচে পড়ে মারা যায়।  পোড়াদহ রেলওয়ে থানা খবর পেয়ে লাশটি উদ্ধার করে। এ ব্যাপারে পোড়াদহ জিআরপি থানার ওসি জসিম উদ্দিন খন্দকার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন লাশের সুরতহাল ও অপমৃত মামলা সম্পন্ন করা হয়েছে। ময়না তদন্তের জন্য লাশ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। লাশের  কোন পরিচয় না পাওয়া গেলে বেওয়ারিশ হিসেবে পোড়াদহ রেলওয়ে কবরস্থানে জিআরপির অধীনে দাফন কাজ সম্পন্ন হবে।

২ সাংবাদিক আহত

চুয়াডাঙ্গায় পেঁয়াজের আড়তে অবরুদ্ধ ম্যাজিস্ট্রেট

ঢাকা অফিস ॥ অতিরিক্ত দামে পেঁয়াজ বিক্রির অভিযোগে চুয়াডাঙ্গার পাইকারি আড়তে অভিযানে গিয়ে ব্যবসায়ীদের হাতে অবরুদ্ধ হয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের এক ম্যাজিস্ট্রেট। এসময় ছবি তুলতে গিয়ে পেঁয়াজ ব্যবসায়ীদের হামলার শিকার হয়েছেন স্থানীয় দুই সাংবাদিক। আহতরা হলেন- এসএম শাফায়েত ও তৌহিদুর রহমান তপু।শনিবার দুপুরে শহরের নিচের বাজারের পাইকারি বাজারে এ ঘটনা ঘটে।জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গার খুচরা ও পাইকারি বাজারে অতিরিক্ত দামে পেঁয়াজ বিক্রির সংবাদ পেয়ে চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসনের এডিসি সিব্বির আহমেদ ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আমজাদ হোসেন শনিবার দুপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।এসময় বড় বাজারের (নিচের বাজার) আড়ত পট্টির নাফিসা বাণিজ্যালয়কে ২০ হাজার টাকা এবং জাহাঙ্গীর বাণিজ্যালয়কে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।এতে ব্যবসায়ীরা ক্ষিপ্ত হয়ে অভিযানে থাকা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে অবরুদ্ধ করেন। অভিযানে থাকা পুলিশ সদস্যরা বাধা দিলে উত্তেজিত ব্যবসায়ীরা পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে মারমুখী আচরণ করেন। লাঞ্ছিত করেন দুই পুলিশ সদস্যকে।এসময় ছবি তুলতে গেলে সাংবাদিকদের ওপর হামলা করেন তারা। এতে স্থানীয় দুজন সাংবাদিক আহত হন। তাদেরকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।পরে খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে দুই নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটসহ পুলিশ ও সাংবাদিকদের উদ্ধার করে।মারধরের শিকার শাফায়েত জানান, অভিযানের খবর পেয়ে তিনিসহ দুজন সংবাদ সংগ্রহে যান। এসময় ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশকে ঘেরাও করে রাখার ছবি তুলতে গেলে তাকে এবং তৌহিদুর রহমান তপু নামের আরেক সাংবাদিকে মারধর করে ব্যবসায়ীরা। ভেঙে ফেলে তার ব্যবহৃত একটি স্মার্টফোন।ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট (এডিসি) সিব্বির আহমেদ জানান, অভিযান চলাকালে অতিরিক্ত মূল্যে পেঁয়াজ বিক্রির যথাযথ প্রমাণ ও মূল্য তালিকা না টানিয়ে ইচ্ছামতো পণ্য বিক্রির প্রমাণ পাওয়া গেছে।এ ব্যাপারে চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার জানান, বাজার মনিটরিং করার সময় ব্যবসায়ীরা যে ঘটনা ঘটিয়েছে তা ন্যক্কারজনক। অবশ্যই এ বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ইতিমধ্যে আমি এ ব্যাপারে কঠোর নির্দেশনা দিয়েছি।

মিরপুরে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে ৩ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

আমলা অফিস ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুরে ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালিয়ে ৩ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করেছে। গতকাল শনিবার দুপুরে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) রকিবুল হাসানের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত “তহ” বাজারে অভিযান চালিয়ে মেয়াদ উত্তীর্ণ পণ্য রাখা অপরাধে ২০০৯ এর ৫১ ধারায় তুহিন ষ্টোরের মালিক তুহিনকে ২ হাজার টাকা, ইউসুফ ষ্টোরের মালিক ইউসুব আলীকে ২ হাজার টাকা এবং মুড়ির প্যাকেটের মুল্য তালিকা থাকায় ২০০৯ এর ৫১ধারায় দত্ত  ষ্টোরের মালিক শ্যামল কুমার দত্তকে ২ হাজার টাকাসহ সর্বমোট ৬ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন। এ সময়ে মিরপুর থানার এসআই আবু বক্কর প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মুক্তিযোদ্ধা শাহাবুব আলীর মৃত্যুতে কাজী আরেফ আহমেদ স্মৃতি সংসদের শোক

জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য, কাজী আরেফ স্মৃতি সংসদের সভাপতি, সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন কুষ্টিয়া জেলা শাখার অন্যতম উপদেষ্টা, বংশীতলা যুদ্ধের প্রধান কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহাবুব আলীর মৃত্যুতে গভীর শোক ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন কাজী আরেফ আহমেদ স্মৃতি সংসদের উপদেষ্টা অ্যাড. লালিম হক, বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাড. আব্দুল জলিল, অ্যাড. আসম আখতারুজ্জামান মাসুম, কাজী রবিউল আলম, সাধারণ সম্পাদক কারশেদ আলম, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মফিজ উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক সাংবাদিক জহুরুল ইসলাম, সাংবাদিক শরীফ বিশ্বাস, অ্যাড. জয়দেব কুমার বিশ্বাস, সুমন আলী, কাজী হাবিবুর রহমান রঞ্জু, সাব্বির আহামেদ প্রমুখ। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

 

 

মেহেরপুরে গ্রীন লাইফ টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ট্রফি উন্মোচন করলেন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন

গাংনী সংবাদদাতা ॥ মেহেরপুরে গ্রীন লাইফ টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ট্রফি উন্মোচন করা হয়েছে। গতকাল শনিবার বিকেলে মেহেরপুর জেলা স্টেডিয়াম মাঠে গ্রীন লাইফ ডায়াগনস্টিক সেন্টারের উদ্যোগে আয়োজিত টি-টোয়েন্টি  ক্রিকেট টুর্নামেন্ট এর ট্রফি উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন মেহেরপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ও জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী অধ্যাপক ফরহাদ হোসেন। ট্রফি উন্মোচন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন গ্রীন লাইফ ডায়াগনস্টিক সেন্টারের পরিচালক ও সাংবাদিক আবু আক্তার করণ। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন মেহেরপুর জেলা প্রশাসক আতাউল গনি, পুলিশ সুপার এসএম মুরাদ আলী,  জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক আতাউল হাকিম লাল মিয়া, মেহেরপুর প্রেসক্লাব ক্লাবের সভাপতি ফজলুল হক মন্টু, সাধারণ সম্পাদক আলামিন হোসেন, সাংবাদিক  দিলরুবা খাতুন, বিসিবির জেলা কোর্স হাসানুজ্জামান হিলনসহ টুর্নামেন্টে অংশ নেওয়া দলের ক্যাপ্টেন ও কর্মকর্তারা। প্রধান অতিথি জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী অধ্যাপক ফরহাদ হোসেন টি- টোয়েন্টি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ট্রফি উন্মোচন করেন। আগামী ২২ শে নভেম্বর মেহেরপুর সরকারি কলেজ মাঠে এই টুর্নামেন্টের শুভ উদ্বোধন করা হবে। টুর্ণামেন্টে মেহেরপুর  জেলার ৭টি টিমসহ মোট ১৩ জেলার ২০টি দল অংশগ্রহণ করবে।

সমীর দে সভাপতি ॥ চঞ্চল মাহমুদ সম্পাদক

আলমডাঙ্গা বেলগাছি ইউনিয়নের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত

আলমডাঙ্গা অফিস ॥ ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যদিয়ে আলমডাঙ্গা বেলগাছি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন গতকাল শনিবার সকাল ১০টার দিকে বেলগাছি ইউনিয়ন চত্বরে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সম্মেলনে সমীর কুমার দে সভাপতি এবং মাহমুদ হাসান চঞ্চল সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত হয়।  এতে প্রধান অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য সোলায়মান হক জোয়ার্দার ছেলুন। সম্মেলন এর শুভ উদ্ভোধন করেন  আলমডাঙ্গা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি  পৌর মেয়র হাজী হাসান কাদির গণু। বিশেষ অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি খুস্তার জামিল, প্রশান্ত অধিকারি, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দার টোটন, সাংগঠনিক সম্পাদক মুন্সি আলমগীর হান্নান, মাসুদুজ্জামান লিটু বিশ্বাস, উপজেলা চেয়ারম্যান আইয়ুব হোসরন, উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত ইয়াকুব আলী মাষ্টার, পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি আবু মুসা, সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক কাজী রবিউল হক, সাংগঠনিক সম্পাদক আতিয়ার রহমান, কাজী খালেদুর রহমান অরুন,  জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য দেলোয়ার হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা হেলাল উদ্দিন। সভায় সর্বসম্মতিক্রমে বেলগাছি ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি সমীর কুমার দে কে  সভাপতি ও মাহমুহ হাসান চঞ্চলকে সাধারন সম্মাদক করে ৭১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে।

শাবিতে শিক্ষার্থী ভর্তিতে ‘ডোপ টেস্ট’

ঢাকা অফিস ॥ শিক্ষার্থী মাদকাসক্ত কি না, তা পরীক্ষা করেই এবার প্রথম বর্ষে ভর্তি করাচ্ছে সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে নবীন শিক্ষার্থীদের ‘ডোপ টেস্ট’ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেছেন, বিশ্ববিদ্যালয়কে মাদকমুক্ত রাখতেই তাদের এই উদ্যোগ। মাদকের বিরুদ্ধে সরকারের অভিযানের মধ্যে শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এই উদ্যোগ নিল। উপাচার্য ফরিদ বলেন, “আমরা বিশ্ববিদ্যালয়কে মাদকমুক্ত রাখতে চাই। প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলেও এখন মাদকের বিষাক্ত কবলে তরুণরা আসক্ত। আমরা ডোপ টেস্টের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা মাদকাসক্ত কি না, তা নির্ণয় করতে চাই।” তবে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী মাদকাসক্ত বলে পরীক্ষায় ধরা পড়লেও তাকে ভর্তি করা হচ্ছে বলে জানান উপাচার্য। তিনি বলেন, “আমরা তাকে ভর্তি করে নজরদারিতে রাখব। তার পরিবারকে অবহিত করব। বিশ্ববিদ্যালয়ের খরচে তার রিহ্যাবের, সংশোধনের ব্যবস্থা করব।” ১২ নভেম্বর থেকে বিজ্ঞান শাখার ‘বি-১’ ইউনিটের ভর্তির মাধ্যমে এবারের ভর্তি কার্যক্রম শুরু হয়। ১৭ নভেম্বর সোমবার মানবিক শাখার ‘এ’ ইউনিটের ভর্তির মাধ্যমে ভর্তি কার্যক্রম শেষ হওয়ার কথা। তবে আসন খালি থাকা সাপেক্ষে পরবর্তী মেধাক্রম অনুসারে শিক্ষার্থীদের সাক্ষাতকারের জন্য ডাকা হবে। ভর্তি গ্রহণের সময়ই শিক্ষার্থীদের ‘ডোপ টেস্ট’ করা হচ্ছে। শিক্ষার্থীদের মুত্র সংগ্রহ করে চারটি পরীক্ষা করে মাদকাসক্ত কি না, তা নির্ণয় করছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োকেমেস্ট্রি অ্যান্ড মলিকুলার বায়োলজি বিভাগের শিক্ষকরা। এ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শেখ মির্জা নুরুন্নবী বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “ইয়াবার জন্য এএমপি, মারিজুয়ানার জন্য টিএইচসি, পাথেড্রিনের জন্য ওপিআই এবং স্লিপিং পিলের জন্য বিজেডও টেস্ট করা হচ্ছে।” ‘ডোপ টেস্ট’ বাবদ ৩০০ টাকা ও স্বাস্থ্যবীমা বাবদ আরও ২০০ টাকা ফি ধরে গত বছরের তুলনায় এ বছর ভর্তি ফি বাড়ানো হয়েছে ৫০০ টাকা। ফলে ভর্তি ফি ৭ হাজার ৫০০ টাকা থেকে বেড়ে হয়েছে ৮ হাজার টাকা। ভর্তি ফি বাড়িয়ে শিক্ষার্থীদের ডোপ টেস্ট ও স্বাস্থ্যবীমার আওতায় নিয়ে যাওয়ায় প্রতিবাদ জানিয়েছেন সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট ও জাতীয় ছাত্রদলের নেতা-কর্মীরা। তারা ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করে উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপিও দিয়েছেন। ছাত্রফ্রন্টের বিশ্ববিদ্যালয় সভাপতি নাযিরুল আযম বলেন, “ডোপ টেস্ট ও স্বাস্থ্যবীমার নামে ফি বাড়িয়ে শিক্ষা ব্যবস্থাকে বাণিজ্যকরণের দিকেই নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। ডোপ টেস্ট করলে বিশ্ববিদ্যালয় নিজের টাকায় করুক। শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে টাকা নেওয়া অযৌক্তিক।” বিশ্ববিদ্যালয়ে এসে যারা মাদকে আসক্ত হয়, তাদের বিষয়ে প্রশাসনের পদক্ষেপহীনতার কথাও বলেন তিনি।

স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতৃত্বে নির্মল-বাবু

ঢাকা অফিস ॥ সম্মেলনের মধ্য দিয়ে নতুন নেতৃত্ব পেয়েছে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ। আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনটির নতুন সভাপতি হয়েছেন নির্মল রঞ্জন গুহ, সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন আফজালুর রহমান বাবু। শনিবার সকালে প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী সম্মেলন উদ্বোধনের পর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে কাউন্সিল অধিবেশনে স্বেচ্ছাসেবক লীগের দুই শীর্ষ নেতার নাম ঘোষণা করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। নতুন সভাপতি নির্মল আগের কমিটিতে সহসভাপতি ছিলেন, সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়কের দায়িত্বেও ছিলেন তিনি। সাধারণ সম্পাদক বাবুও ছিলেন আগের কমিটির সহসভাপতি। তাদের উপরই দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে পূর্ণাঙ্গ কেন্দ্রীয় কমিটি গঠন করার। ক্যাসিনোকা-ে নাম আসা আগের কমিটির সভাপতি মোল্লা মোহাম্মদ আবু কায়সারের পাশাপাশি সাধারণ সম্পাদক পঙ্কজ দেবনাথও বাদ পড়েছেন স্বেচ্ছাসেবক লীগের কর্মকা- থেকে। প্রায় সাত বছর তারা সংগঠনটির নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন। কেন্দ্রের পাশাপাশি ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের নতুন নেতার নামও ঘোষণা করেন ওবায়দুল কাদের। দক্ষিণের সভাপতি হয়েছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি কামরুল হাসান রিপন, সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তারেক সাঈদ। উত্তরের সভাপতি উত্তর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ইসহাক মিয়া, সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন আনিসুর রহমান নাঈম। কমিটি ঘোষণার সময় আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, “কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি পদে ছয়জন ও সাধারণ সম্পাদক পদে ১২ জনের নাম প্রস্তাব করা হয়। এই প্রার্থীদের মধ্যে সমঝোতা না হওয়ায় আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এবং মহানগর উত্তর দক্ষিণের সভাপতি সাধারণ সম্পাদক মনোনীত করার নির্দেশনা দিয়েছেন। আমরা আশা করি, সবাই নেত্রীর সিদ্ধান্ত মেনে নেবেন।” নতুন সভাপতি নির্মল বলেন, “মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে যে দায়িত্ব দিয়েছেন, সেই দায়িত্ব আমি অক্ষরে অক্ষরে পালন করব। সারা দেশে স্বেচ্ছাসেবক লীগকে সুসংগঠিত রাখব।” নতুন সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান বাবু বলেন, “মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া দায়িত্ব সততা ও নিষ্ঠার সাথে পালন করব।”

কুষ্টিয়া সদর উপজেলা আ’লীগের নব-নির্বাচিত সাধারন সম্পাদক রেজাউল হককে জেড এম সম্রাটের ফুলেল শুভেচ্ছা

কুষ্টিয়া সদর থানা আওয়ামীলীগের নব-নির্বাচিত সাধারন সম্পাদক রেজাউল হককে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী, শহর যুবলীগের সাবেক যুগ্ন-আহবায়ক  জেড এম সম্রাট। সদর থানা  আ’লীগের সাধারন-সম্পাদক রেজাউল হকের বাড়িতে উপস্থিত হয়ে তাকে এই ফুলেল শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানানো হয়। উল্লেখ্য রেজাউল হক সদর থানা  আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক হিসাবে দায়িত্ব পাওয়ায় আওয়ামী সংগঠনের নেতাকর্মী সহ বিভিন্ন সংগঠন দিনব্যাপী তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানায়। এ সময় জেড. এম, সম্রাট বলেন, আমরা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সৈনিক, বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সংগঠনের কাজ করার  চেষ্টা করি। তিনি বলেন, আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক কুষ্টিয়ার উন্নয়নের রুপকার জননেতা মাহবুবউল আলম হানিফ এমপি মহোদয়ের দিক নির্দেশনা ও আতাউর রহমান আতা মহোদয়ের নেতৃত্বে সংগঠনের কাজ করছি এবং আগামীতেও করতে চায়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ন-সাধারন সম্পাদক জহুরুল ইসলাম মুক্তার, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ন-সাধারন সম্পাদক তহিদুল ইসলাম লিংকন, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক  সহ-সম্পাদক আশিক অনিক, শহর যুবলীগ নেতা দ্বীন ইসলাম রাসেল, মুসফিকুর রহিম, তৌসিক আহমেদ, শাফি, আতিয়ার রহমান। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

ঝিনাইদহে ছুরিকাঘাতে এসএসসি পরীক্ষার্থী খুন

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ॥ ঝিনাইদহে ছুরিকাঘাতে শনিবার দুপুরে সিফাত হোসেন (১৬) নামে এসএসসি পরীক্ষার্থী নিহত হয়েছে। এ সময় আহত হয় মাহি (১৭) নামে আরো এক যুবক। নিহত সিফাত ঝিনাইদহ শহরের কালিকাপুর গ্রামের মনোয়ার হোসেনের ছেলে এবং উজির আলী মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহনের কথা ছিল। গ্রামবাসি জানায়, নেশা করা নিয়ে কালীকাপুর গ্রামে শুক্রবার সন্ধ্যায় দু’দল যুবকদের মধ্যে মারামারি হয়। এ ঘটনার জের ধরে শনিবার দুপুরে সিফাতকে ছুরিকাঘাত করে প্রতিপক্ষরা। রক্তাক্ত অবস্থায় কালীকাপুর গ্রামের আকরাম হোসেন ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করে সিফাতকে। অবস্থা খারাপ হলে চিকিৎসকরা তাকে ঢাকায় রেফার্ড করেন। ঢাকায় যাওয়ার পথে সিফাতের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় কালিকাপুর গ্রামের তৈয়বের ছেলে মাহিকেও মারধর করা হয়। সে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি (তদন্ত) ইমদাদুল হক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, নেশা কারণে দু’দল যুবকদের মধ্যে বিরোধের কারণে সিফাত খুন হতে পারে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। এখনো মামলা হয়নি। খুনিদের চিহ্নিত ও নাম ঠিকানা সংগ্রহ করতে পুলিশ মাঠে

ইবি শিক্ষকের মৃত্যুতে শোক

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারী (ড. রাশিদ আসকারী), প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ শাহিনুর রহমান, ট্রেজারার প্রফেসর ড. মোঃ সেলিম তোহা বিশ্ববিদ্যালয়ের আল-হাদীস এন্ড ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের প্রফেসর ড. মুহাম্মাদ মুজাম্মিল আলীর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। পৃথক-পৃথক শোক-বার্তায় তাঁরা মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোক-সন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানান। প্রফেসর ড. মুহাম্মাদ মুজাম্মিল আলীর মৃত্যুতে আরও শোক জানিয়েছেন আল-হাদীস এন্ড ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আশরাফুল আলম, ইসলামী বিশ^বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর ড. মোঃ কামাল উদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ড. মোঃ আলমগীর হোসেন ভূঁইয়া। প্রফেসর ড. মুহাম্মাদ মুজাম্মিল আলী গতকাল ১৬ নভেম্বর বেলা সাড়ে ১১টায় অসুস্থতাজনিত কারণে ইন্তেকাল করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। বিকাল ৩টায় ইসলামী বিশ^বিদ্যালয় ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত মরহুমের নামাজে জানাযায় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারী,  প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ শাহিনুর রহান, ট্রেজারার প্রফেসর ড. মোঃ সেলিম তোহা, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস. এম. আব্দুল লতিফসহ বিভিন্ন পর্যায়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন।  সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

শৈলকুপায় স্কুল ছাত্রী ধর্ষণ

শৈলকুপা প্রতিনিধি ॥ ঝিনাইদহের শৈলকুপার গাবলা গ্রামে ষষ্ঠ  শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রীকে (১২) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার রাত আনুমানিক ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। পরে বাড়ির পার্শ¦বর্তী একটি ধানক্ষেত থেকে মেয়েটিকে উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদিকে ঘটনার পর থেকেই পলাতক রয়েছে অভিযুক্ত ধর্ষক রিফাত (১৭)। সে ওই গ্রামের রুহুল মোল্লার ছেলে। ধর্ষণের শিকার শিক্ষার্থী বলেন, তার বাবাকে ডাকতে পাশের বাড়িতে যাচ্ছিলাম। সে সময় একই গ্রামরে রিফাতসহ তিনজন তার মুখ বেঁধে পাশের মাঠে নিয়ে খারাপ কাজ করে। মুখ বাঁধা থাকায় রিফাত ছাড়া বাকি দু-জনকে সে চিনতে পারেনি। ধর্ষিতার বাবা জানান, রাতে বাড়িতে গিয়ে দেখি মেয়ে ঘরে নেই। এরপর সবাই মিলে খুঁজতে থাকি। পরে বাড়ির পাশের একটি কলাক্ষেতে মেয়েটির কাপড় পড়ে থাকতে দেখে গ্রামের অন্যান্য লোকদের নিয়ে অনেক খোঁজা-খুঁজির পর ধানক্ষেতে মুখ বাধা অবস্থায় মেয়েকে অর্ধনগ্ন অবস্থায় পায়। এরপর সবাই মিলে তাকে উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করি। যারা আমার মেয়ের এতো বড়ক্ষতি করল আমরা তাদের কঠোর শাস্তি চাই। ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা: নাইম সিদ্দিকী জনান, মেয়েটি ধর্ষণ কেস নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। তার আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে। অন্যান্য পরীক্ষা শেষে বলা যাবে প্রকৃতই সে ধর্ষণ হয়েছে কিনা এবং তার কতটুকু ক্ষতি হয়েছে। এদিকে শৈলকুপা থানার ওসি তদন্ত মহসিন হোসেন জানান, ভাটই মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। ধর্ষক রিফাতসহ তার সহযোগীরা পলাতক রয়েছে। চেষ্টা করছি তাদের আটক করতে।

ভারতের সঙ্গে দর কষাকষির শক্তি সরকারের নেই – ফখরুল

ঢাকা অফিস ॥ ‘দর-কষাকষি’র সক্ষমতা নেই বলে আওয়ামী লীগ সরকার ভারতের সঙ্গে অমীমাংসিত সমস্যার সমাধান করতে পারছে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। বাংলাদেশ-ভারত বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক এখন সর্বোচ্চ মাত্রায় বলে ক্ষমতাসীনদের দাবি করে আসার মধ্যে শনিবার এক আলোচনা অনুষ্ঠানে এই মন্তব্য করেন তিনি। ফখরুল বলেন, “আমরা ভারতের বিরুদ্ধে কথা বলতে তো কখনও বলি না, ভারতের সঙ্গে আমাদের তো বিরোধ নেই। সমস্যাটা হচ্ছে যে, আজকে এমন একটা সরকার, যে আমার সমস্যাগুলো নিয়ে ভারতের সঙ্গে কথা বলতে পারে না। সেই শক্তি তার নেই, সেই বার্গেনিং ক্যাপাবিলিটি তার নেই। কারণ সে তাদের ওপর নির্ভর করে ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য। এটা হচ্ছে মূল কথা, এটা বাস্তবতা। “এই বিষয়গুলো যদি আমরা উপলব্ধি করতে পারি যে, সরকার যতদিন থাকবে ততই বাংলাদেশের স্বার্থ ক্ষুন্ন হবে, একে একে নষ্ট হবে এবং বাংলাদেশ নিঃস্ব হয়ে যাবে।” আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় যাওয়ার পর গত নয় বছরে স্থল সীমান্ত চুক্তি কার্যকরসহ বেশ কিছু অমীমাংসিত সমস্যার সমাধান হলেও তিস্তার পানি বণ্টন চুক্তি ঝুলে আছে। বিএনপি মহাসচিব ফেনী নদীর পানি ভারতকে দেওয়ার বিষয়ে বলেন, “এটা অভিন্ন নদী নয়। সেই ফেনী নদীর পানি নিয়ে যাচ্ছে অথচ আমাদের প্রধানমন্ত্রী বলছেন যে, খাওয়ার পানি চাইলে পানি দেব না? “ভালো কথা পানি দেবেন। তা আমার যে লক্ষ লক্ষ মানুষ তিস্তার অববাহিকাতে আজকে পুরোপুরিভাবে নিঃস্ব হয়ে যাচ্ছে, তাদের ফসল নষ্ট হয়ে যাচ্ছে, জীবন-জীবিকা ধবংস হয়ে যাচ্ছে- সে বিষয়ে আপনি (প্রধানমন্ত্রী) একটি কথাও বলবেন না?” “সীমান্তে আমার লোকদের গুলি করে মেরে ফেলে দিচ্ছে-আপনারা বলছেন যে, এটা কমে এসছে। আমরা তো কমতে দেখছি না,” বলেন ফখরুল। ভারতের সঙ্গে চুক্তিগুলো সম্পূর্ণ প্রকাশের দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, “এটা এমন একটা সংসদ যে, চুক্তিগুলো নিয়েও একটা আলোচনা হয়নি। আমাদের সংবিধানে বলা আছে, যে কোনো চুক্তি সংসদে উপস্থাপন করতে হবে। সেখানে আলোচনা করতে হবে এবং সেটাকে রেটিফাই করতে হবে সংসদে। সেটা কখনোই করা হয় না।” বিদেশে নারী শ্রমিকদের নির্যাতন প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল বলেন, “এই যে সৌদি আরব থেকে আমাদের মহিলা ও নারী শ্রমিকরা যারা ফিরে আসছেন তার মধ্যে ৫৩ জন নিহত হয়েছে। সবচেয়ে মারাত্মক হচ্ছে যে, আমাদের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন যে, এটা স্বাভাবিক ব্যাপার, সংখ্যা কম। “তার আগে ভারতের সাথে সম্পর্কের ব্যাপারে উনি (পররাষ্ট্রমন্ত্রী) বলেছেন যে, আমাদের সম্পর্ক এমন সুন্দর জায়গায় গেছে আমি সেটা বলতে চাই না।” সরকারের সমালোচনা করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, “দেশের অর্থনীতির অবস্থা একদম ভঙ্গুর হয়ে পড়েছে। খুব বড়াই করে তারা (সরকার) বলছে যে বাংলাদেশ রোল মডেল। সেই রোল মডেল এমন হয়েছে যে, শুধু ঋণের উপর তাদেরকে টিকে থাকতে হচ্ছে। সমস্ত ব্যাংক ফোকলা হয়ে গেছে। “অর্থনীতিবিদরা অনেকে বলেই ফেলছেন যে, অর্থনীতির ভবিষ্যত কিন্তু খারাপ। আজকের পত্রিকাতে দেখবেন, গার্মেন্টসের রপ্তানি বহু কমে গেছে। বহু গার্মেন্টস ফ্যাক্টরি বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। ম্যানুফ্যাকচারড ইন্ডাষ্ট্রিজ আজকে বাংলাদেশে হচ্ছে না। কৃষকরা ধানের দাম পায় না। তাহলে স্বয়ংসম্পূর্ণতা থাকবে কী করে?”এই অবস্থা থেকে উত্তরণে সরকার পরিবর্তনের কোনো বিকল্প নেই বলে মন্তব্য করেন ফখরুল। তিনি বলেন, “এই সরকারকে সরাতে হবে। সমস্ত দলমত নির্বিশেষে সকলকে এক করে এই যে দানবের মতো বসে আমাদের সবকিছু তছনছ করে দিয়েছে, তাকে সরাতে হবে। এই নির্বাচন করেছে তারা ডাকাতির নির্বাচন, এই নির্বাচনের ফলাফল বাতিল করে অবিলম্বে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের পরিচালনায় একটি নতুন নির্বাচন হবে।” সেই আন্দোলনকে এগিয়ে নিতে খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলনে সবাইকে নেমে পড়ার আহ্বান জানান বিএনপি মহাসচিব। হোটেল পূর্বাণীতে অ্যাসোসিয়েশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স, বাংলাদেশ(এ্যাব) এর উদ্যোগে ‘ফেনী নদীর পানি প্রত্যাহার চুক্তি : বাংলাদেশের সম্ভাব্য বিপর্য্য়’ শীর্ষক আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন ফখরুল। এতে রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) পুরকৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. আখতার হোসেন মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। বিএনপি সমর্থক প্রকৌশলীদের সংগঠনটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রিয়াজুল ইসলাম রিজুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বিএনপি নেতা এ জেড এম জাহিদ হোসেন, মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক জি কে মোস্তাফিজুর রহমান, সাংবাদিক ইউনিয়নের নেতা এম আবদুল্লাহ, কাদের গনি চৌধুরী, এগ্রিচালচারিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের শামীমুর রহমান শামীম, এ্যাবের আবদুস সালাম, আশরাফ উদ্দিন বকুল, গোলাম মাওলা, একেএম জহিরুল ইসলাম, সাহাদাত হোসেন বিপ্লব।

কুষ্টিয়া শহর ও সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান ও রেজাউলকে

১৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নবনির্বাচিত কমিটির ফুলেল শুভেচ্ছা

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়া শহর আওয়ামী লীগের নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আতা এবং সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক রেজাউল হককে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়েছে ১৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নবনির্বাচিত নেতৃবৃন্দ। গতকাল সন্ধ্যায় কমিটির সভাপতি আব্দুর রশিদ বিশ্বাস ও সাধারণ সম্পাদক ডা: আব্দুল মোমিনের নেতৃত্বে ওয়ার্ডের নেতাকর্মী কুষ্টিয়া শহরের পিটিআই রোডস্থ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও কুষ্টিয়া-৩(সদর) আসনের সংসদ সদস্য মাহবুবউল আলম হানিফের বাসভবনে এই শুভেচ্ছা জানানো হয়। এসময় শহর আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক ও পৌর কাউন্সিলর মীর রেজাউল ইসলাম বাবু, স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা জাকির হোসেন বিশ্বাস, সামিউল ইসলাম, রুবেল হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সড়ক পরিবহন আইন-১৮ সংশোধনসহ বিভিন্ন দাবীতে

কুষ্টিয়ায় উত্তরবঙ্গ এবং দক্ষিণবঙ্গ ট্রাক মালিক গ্র“প-সমিতির ৩৭ জেলার নেতৃবৃন্দের মতবিনিময়

নিজ সংবাদ ॥ সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮ সংশোধন করা, ট্রাক/পন্যপরিবহন ফেডারেশন আলাদাভাবে গঠন করাসহ বিভিন্ন দাবী জানিয়েছেন, উত্তরবঙ্গ এবং দক্ষিণবঙ্গ ট্রাক মালিক গ্র“প/সমিতির ৩৭ জেলার নেতৃবৃন্দ। কুষ্টিয়া জেলা ট্রাক মালিক গ্র“পের আয়োজনে, ১৬ নভেম্বর শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় সাদ্দাম বাজার মোড়ে জেলা ট্রাক মালিক গ্র“পের নতুন অফিসে ৩৭ জেলার নেতৃবৃন্দের সমন্বয়ে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় ট্রাক/পন্য পরিবহন ফেডারেশন আলাদাভাবে গঠন করা, সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮ সংশোধন করা, অতিরিক্ত লোডের ব্যাপারে সুনির্দিষ্টভাবে সিদ্ধান্ত, গাড়ীর কাগজপত্র সঠিকভাবে থাকলে পুলিশ হয়রানি বন্ধ বা মামলা না দেয়া, সুনির্দিষ্ট স্থান ছাড়া পুলিশ কাগজপত্র চেকের নামে গাড়ীকে অযথা হয়রানি না করা, অনতিবিলম্বে পুলিশের চাঁদাবাজী বন্ধ করা, সকল প্রকার অবৈধ যানবাহনকে মহাসড়কে চলচল করতে না দেয়াসহ বিভিন্ন দাবী জানান উত্তরবঙ্গ এবং দক্ষিণবঙ্গ ট্রাক মালিক গ্র“প/সমিতির ৩৭ জেলার নেতৃবৃন্দ। সভায় সভাপতিত্ব করেন কুষ্টিয়া জেলা ট্রাক মালিক গ্র“পের সভাপতি হাজী আব্দুর রশীদ। রাজশাহী জেলা ট্রাক  মালিক গ্র“পের সাধারণ সম্পাদক সাদরুল ইসলামের পরিচালনায়, সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা ট্রাক মালিক গ্র“পের সাধারণ সম্পাদক নরেন্দ্রনাথ সাহা, উত্তরবঙ্গ ট্রাক ট্যাঙ্কলড়ী পন্য পরিবহন মালিক সমিতির সভাপতি সামসুর রহমান মানিক, খুলনা জেলা মালিক সমিতির কার্যকরি সভাপতি মোড়ল আব্দুস সোবহান, সাধারণ সম্পাদক অহিদুল ইসলাম সহ উত্তরবঙ্গ এবং দক্ষিণবঙ্গের ট্রাক মালিক গ্র“প/সমিতির ৩৭ জেলার নেতৃবৃন্দ। এ সময় কুষ্টিয়া জেলা ট্রাক মালিক গ্র“পের সহ-সভাপতি হাজী সিরাজ, সহ-সভাপতি মোঃ আখতারুজ্জামান, সহ-সভাপতি হাজী আব্দুল মালেক, যুগ্ম-সম্পাদক গণেশ জোয়ার্দ্দার, দপ্তর সম্পাদক আসাদুর রহমান লোটন, কোষাধ্যক্ষ স্বপন কুমার সাহা, প্রচার সম্পাদক হাজী আব্দুর রাজ্জাক, সদস্য মাসুদুজ্জামান, খাদেমুল ইসলাম, আহসান হাবিব আসকার, রাজু আহম্মেদ, হাসান্জ্জুামান, জিন্না, মতিয়ার রহমান মতি, রেজাউল করিম, তারাদাস ভৌমিক, আইনুর রহমান টিটু সহ অন্যান্য সকল নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

জালিয়তি করে ইবি শিক্ষকের নামে বই প্রকাশ: প্রকাশকের বিরুদ্ধে মামলা

ইবি প্রতিনিধি ॥ চলতি বছরে ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ড. মনজুর রহমানের নামে সৃজনী প্রকাশনী থেকে ‘দ্য গ্রেট মিথোলোজি’ নামে একটি বই প্রকাশ করা হয়। বইটির সঙ্গে উনিশশো ষাট সালে তুলি-কলম থেকে প্রকাশিত সুধাংশুরঞ্জন ঘোষের ‘গ্রীক পুরান কথা’ বইয়ের কিছু অংশের মিল রয়েছে। বইটি কলকাতায় অনুষ্ঠিত ১ থেকে ১০ নভেম্বর বই মেলায় বিক্রিও করা হয়। এরপর বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক ও লেখক সমাজে ব্যাপক সমালোচিত হয়। বিষয়টি ড. মনজুর জানতে পারলে ফেসবুকে তৎক্ষনাত একটি প্রতিবাদলিপি দেন। এই বইয়ের বিষয়ে তিনি কিছু জানেন না দাবি করে সৃজনী প্রকাশনীর সত্ত্বাধিকারী মশিউর রহমানের নামে বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করেছেন ড. মনজুর। গতকাল শনিবার বিশ^বিদ্যালয় প্রেসকর্ণারে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে সাংবাদিকদের সামনে এসব তথ্য তুলে ধরেন এ শিক্ষক। ষড়যন্ত্রমূলকভাবে অন্যের লেখা বই ওই শিক্ষকের নামে প্রকাশ করায় তিনি এ মামলা করেছেন। সংবাদ সম্মেলনে অধ্যাপক ড. মনজুর রহমান বলেন,  আমার নামে সম্প্রতি সৃজনী প্রকাশনী থেকে ‘দ্য গ্রেট মিথোলোজি’ বইটি প্রকাশিত হয়। যার লেখক আমি নই। এই বিষয়ে আমি তাদের কাছে কোন পান্ডুলিপি জমা দেয়নি। আমার নাম ব্যবহার করে প্রকাশক ষড়যন্ত্রমূলকভাবে এ বই প্রকাশ করেছে। তিনি আরো বলেন, চলতি মাসে কলকতায় বই মেলায় এই বইটি প্রকাশিত হওয়ার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ও লেখক সমাজে আমার বিষয়ে দেশে-বিদেশে সমালোচনা শুরু হয়। পরবর্তীতে আমি গত ১৪ নভেম্বর সৃজনী প্রকাশনীর সত্ত্বাধিকারী মশিউর রহমানের নামে ঝিনাইদহ সদরের বিজ্ঞ সহকারী জজ আদালতে আইন ও ইক্যুইটি মতে মামলা করেছি। একইসঙ্গে প্রকাশনী হতে প্রকাশিত সকল বই পুড়িয়ে দেওয়ার জন্য তাদেরকে জানিয়েছি। প্রকাশক ষড়যন্ত্রমূলকভাবে তাকে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য এ কাজ করেছেন বলে মামলার এজহারে ড. মনজুর রহমান উল্লেখ করেন। এ বিষয়ে সৃজনী প্রকাশনীর সত্ত্বাধিকারী মশিউর রহমান বলেন, বইটি প্রকাশের সময় আমি ইন্ডিয়ায় অবস্থান করায় লেখকের নামের বিষয়টি ভূল বসত হয়েছে। যে কোন কারণে বইটি অন্য একটি বইয়ের সঙ্গে মিলে গেছে। বইটি বাজারে যাচ্ছে না। আমি ইন্ডিয়া থেকে আসার পরে বইটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

ইবির ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদভূক্ত ‘সি’ ইউনিটের ফল প্রকাশ

ইবি প্রতিনিধি ॥  ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদভূক্ত ‘সি’ ইউনিটের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়েছে। শনিবার সন্ধ্যা ৭টায় উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-উর রশিদ আসকারীর নিকট আনুষ্ঠানিকভাবে ফল হস্তান্তর করেন ‘সি’ ইউনিটের সমন্বয়কারী অধ্যাপক ড. জাকারিয়া রহমান। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার এসএম আব্দুল লতিফ, ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. কাজী আকতার হোসেন, হিসাব বিজ্ঞান ও তথ্য পদ্ধতি বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ড. আব্দুস শাহীদ মিয়া, প্রক্টর অধ্যাপক ড. পরেশ চন্দ্র বর্ম্মন প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন। ইউনিট সমন্বয়কারী অধ্যাপক ড. জাকারিয়া রহমান বলেন, গত ৮ নভেম্বর ‘সি’ ইউনিটের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ‘সি’ ইউনিটে এ বছর ৪৫০টি আসনের বিপরীতে ৮ হাজার ৯৩০ জন শিক্ষার্থী আবেদন করেন। পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন ৭ হাজার ৭২৬ জন। এর মধ্যে পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন এক হাজার ৯২৯ জন শিক্ষার্থী। ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে (িি.িরঁ.ধপ.নফ) পাওয়া যাবে।

কুষ্টিয়ায় পেঁয়াজের বাজার

পুলিশ সুপার বাজারে নামতেই এক লাফে দাম কমলো ২৫ থেকে ৩০ টাকা

নিজ সংবাদ ॥  সকাল ৮টা। কুষ্টিয়া পৌরবাজার। বাজারের আড়তে ও খুচরা দোকানে প্রতিকেজি পেঁয়াজ ব্যবসায়ীরা বিক্রি করছিল ২২৫ টাকা কেজিতে। তবে ৫ মিনিটের ব্যবধানে সেই চিত্র হঠাৎ হাওয়ায় মিলিয়ে গেল। পুলিশ সুপা র পেঁয়াজ সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে অভিযানে নেমেছেন এমন খবরে বদলে গেল বাজারের চিত্র। এক লাফে ২৫ টাকা কমিয়ে ২০০ টাকা কেজিতে পেয়াঁজ বিক্রি শুরু করে ব্যবসায়ীরা। এ সময় ভোক্তারা ধন্যবাদ জানান পুলিশ সুপারকে।

তবে জেলা প্রশাসন, বাজার মনিটরিং কর্মকর্তা ও ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন কর্মকর্তার তেমন কোন কার্যক্রম চোখে পড়েনি।

পেঁয়াজের অব্যাহত মূল্য বৃদ্ধি ও সিন্ডিকেটের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিত কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার এসএম তানভীর আরাফাত গতকাল শনিবার সকালে জেলার সবচেয়ে বড় পাইকারি ও খুচরা বাজার পৌর মার্কেটে আড়তে অভিযানে নামেন।

এ সময় পুলিশ সুপার ছাড়াও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান, বাজার মনিটরিং কর্মকর্তা রবিউল ইসলাম, কুষ্টিয়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আনিসুজ্জামান ডাবলুসহ পুলিশের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এসপি বাজারে ঢুকেই প্রথমে পেঁয়াজের আড়তে ঢোকেন। এ সময় সেখানে অনেকে ২২৫ টাকা কেজি পেঁয়াজ বিক্রি করছিল। এ সময় কোন ব্যবসায়ীর ঘরে মূল্য তালিকা ছিল। পুলিশ সুপারকে দেখে সবাই দ্রুত মূল্য তালিকায় ২০০ টাকা লিখেন। এ সময় বেশ কয়েকজন ক্রেতা পুলিশ সুপারের কাছে অভিযোগ করে ব্যবসায়ীরা ২২৫ থেকে ২৩০ টাকা কেজিতে পেয়াজ বিক্রি করছিল। অভিযানের পরে দাম এক লাফে ২৫ থেকে ৩০ টাকা কমিয়ে দেয়।

ব্যবসায়ীরা জানান, তারা পাইকারি থেকে সকালে ১৯০ টাকা কেজিতে পেঁয়াজ ক্রয় করেন। এ সময় ব্যবসায়ীরা ২২৫ টাকা কেজিতে বিক্রি করছিল। এক কেজি পেঁয়াজে ব্যবসায়ীরা লাভ করছিল ৩৫ টাকা।

ব্যবসায়ী সাজ্জাদ হোসেন জানান,‘ পেঁয়াজের সরবরাহ অনেক কম। আড়তে ১৯০ টাকা কেজি বিক্রি হয়েছে। খুচরা বাজারের অনেক ব্যবসায়ী ইচ্ছামত দামে বিক্রি করছেন। এটা নিয়ন্ত্রণে এ ধরনের অভিযান পরিচালনা করা দরকার।

এ সময় পাইকারি ও খুচরা বাজারের প্রতিটি দোকানে গিয়ে পেয়াজের দরের বিষয়ে খোঁজ ও দাম যাচাই করেন পুলিশ সুপার। তিনি প্রতিটি ব্যবসায়ীকে সাবধান করে দেন দামের ব্যাপারে। কেউ যদি অতিরিক্ত ও বেশি মুনাফা করে তাদের তালিকা তৈরি করে ব্যবস্থা নেয়ার ঘোষনা দেন। প্রায় এক ঘন্টারও বেশি তিনি বাজারে অভিযান পরিচালনা করেন।

পরে সাংবাদিকদের বলেন, পেঁয়াজ নিয়ে কেউ সিন্ডিকেট করলে তাৎক্ষনিক তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। বাজারে গোয়েন্দা পুলিশ কাজ করছে। তারা সব তথ্য সংগ্রহ করছে। দাম নিয়ন্ত্রণে না আসা পর্যন্ত ব্যবস্থা নেয়া হবে। সাবধান করা হয়েছে ব্যবসায়ীদের। এরপর অনিয়ম পেলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে। তিনি সকলে এ ব্যাপারে সজাগ হওয়ার অনুরোধ করেন।

পুলিশ সুপার বাজার থেকে চলে আসার পর একজন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটও বাজারে অভিযান পরিচালনা করেন। তবে ভয়ে অনেক ব্যবসায়ী পেঁয়াজ বিক্রি বন্ধ করে দেন। এতে ভোগান্তিতে পরেন ভোক্তারা। ব্যবসায়ীরা বলেন, এক সপ্তাহের মধ্যে পেঁয়াজের দাম সাধারন মানুষের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে চলে আসবে। সরবরাহ বাড়লে দামও কমে যাবে। এ ধরনের অভিযানকে তারা সাধুবাদ জানান।

অফিস ভাংচুর : কারাখানা অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা

দৌলতপুরে আকিজ বিড়ি কারখানার ম্যানেজার লাঞ্ছিত

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে আকিজ বিড়ি কারখানার ম্যানেজারকে লাঞ্ছিত করা হয়েছে। একই সাথে তার অফিস কক্ষ ভাংচুর করেছে বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা। গতকাল শনিবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলার হোসেনাবাদ আকিজ বিড়ি কারখানার ম্যানেজারের কক্ষে হামলা ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানাগেছে, আকিজ বিড়ির ব্যান্ডরোল ঘাটতি ও যোগাযোগ ব্যবস্থায় সমস্যা হওয়ায় দীর্ঘদিন আকিজ বিড়ি কারাখানা বন্ধ ছিল। গতকাল শনিবার কারখানা খোলার পর আকিজ বিড়ি কারখানার ম্যানেজার পলাশ আহমেদ রাসেল রবিবার থেকে আবারও কারখানা বন্ধ রাখার ঘোষনা দেন। কারখানার শত শত শ্রমিক ম্যানেজার পলাশ আহমেদ রাসেলের অফিস কক্ষে গিয়ে কারখানা বন্ধ ঘোষণার কথা জানতে চাইলে কারখানার ম্যানেজার পলাশ আহমেদ রাসেল উত্তেজিত হয়ে শ্রমিকদের সাথে অসাদাচারন করেন। এরই জের ধরে কারখানার শ্রমিকরা বিক্ষুব্ধ হয়ে ম্যানেজার পলাশ আহমেদ রাসেলের ওপর হামলা চালাতে গেলে কর্তব্যরত গার্ডরা শ্রমিকদের বাঁধা দেওয়ার চেষ্টা করে। এসময় বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা গার্ড ও ম্যানেজার পলাশ আহমেদ রাসেলকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে তার অফিস কক্ষ ভাংচুর করে। আকিজ বিড়ি কারখানার ম্যানেজারকে লাঞ্ছিত করার খবর পেয়ে দৌলতপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করে। এ ঘটনার পর অনির্দিষ্টকালের জন্য কারখানা বন্ধ ঘোষনা করা হয়। এ বিষয়ে দৌলতপুর থানার ওসি এস এম আরিফুর রহমান বলেন, আকিজ বিড়ি কারখানার শ্রমিকদের মধ্যে অসন্তোষ দেখা দিলে ঘটনাস্থলে গিয়ে তা নিয়ন্ত্রন করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

আমলায় ব্যাডমিন্টন কোর্টের উদ্বোধন

আমলা অফিস ॥ গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার আমলাসদরপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবনির্মিত ব্যাডমিন্টন কোর্টের উদ্বোধন করা হয়েছে। আমলাসদরপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি কামারুল আরেফিনের সভাপতিত্বে এ কোর্টের উদ্বোধন করেন দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রান মন্ত্রনালয়ের যুগ্ম-সচিব একেএম টিপু সুলতান। এসময় বিশেষ অতিথি ছিলেন সদরপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রবিউল হক রবি, আমলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম মালিথা, সদরপুর ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান নিয়াত আলী লালু, আমলা সদরপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল গাফ্ফার, সাবেক প্রধান শিক্ষক মকবুল হোসেন বিশ্বাস, বীর মুক্তিযোদ্ধা আশকর আলী, সাঁতারু আমিরুল ইসলাম, সদরপুর ইউপি আ’লীগের সভাপতি মাজেদুর আলম বাচ্চু, আমলা সদরপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক তৌহিদুজ্জামান প্রমুখ। এসময় এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গরা উপস্থিত ছিলেন। উদ্বোধনী ম্যাচে এলাকার কৃতি খেলোয়াড়রা অংশগ্রহণ করেন।

দৌলতপুরে স্কুল ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করার দায়ে যুবকের কারাদন্ড

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে স্কুল ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করার দায়ে কামাল হোসেন (২১) নামে যুবকের কারাদন্ড ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত। গতকাল শনিবার দুপুর দেড়টার দিকে উপজেলার সদর ইউনিয়নের দৌলতখালী গোডাউন বাজার এলাকায় ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালিয়ে ওই যুবকের কারাদন্ড দেন। দন্ডিত যুবকের বাড়ি উপজেলার ফিলিপনগর ইউনিয়নের চরসাদীপুর গ্রামে এবং সে দৌলতখালী গোডাউন বাজার এলাকার একটি ওয়ার্কশপের কর্মচারী। ভ্রাম্যমান আদালত সূত্র জানায়, ওই এলাকার এক স্কুলছাত্রী স্কুলে যাওয়ার পথে প্রতিদিনই তাকে উত্ত্যক্ত করে থাকে বখাটে যুবক কামাল। স্কুলে যাওয়ার পথে গতকালও ওই ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করা হলে বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে জানানো হয়। পরে দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তারের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালিয়ে বখাটে যুবক কামালকে আটক করে ১৮৬০ সনের দ. বি. ৫০৯ ধারায় ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেন। পরে তাকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়।