ভোটবিহীন নির্বাচন সম্ভব হলে পেঁয়াজ ছাড়া রান্নাও সম্ভব – গয়েশ্বর

ঢাকা অফিস ॥ ভোটবিহীন ভোটে নির্বাচন হয়ে সংসদ গঠন সম্ভব হলে, পেঁয়াজ ছাড়া রান্নাও সম্ভব হয় বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। শুক্রবার (১৫ নভেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের আকরাম খা হলে নাগরিক অধিকার আন্দোলন ফোরাম আয়োজিত বিএনপি’র ভাইস চেয়ারম্যান সাদেক হোসেন খোকার স্মরণ সভা ও দোয়া মাহফিলের অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধির কারণ সিন্ডিকেটের কারসাজি। বর্তমানে পেঁয়াজের অভাবের চেয়ে, পেঁয়াজের সঙ্কটের প্রচার পেঁয়াজের সিন্ডিকেটের আরো বেশি সুযোগ করে দিয়েছে। কারণ কোন জিনিসের অভাব হলে তার দাম এমনিতেই বেড়ে যায়। গয়েশ্বর বলেন, বর্তমান সময়ে বিএনপি’র আন্দোলন দুই ধারায় প্রবাহিত হচ্ছে একটি প্রেসক্লাব কেন্দ্রিক আন্দোলন, সংবাদ সম্মেলন এবং আরেকটি বিএনপি কার্যালয় কেন্দ্রিক আন্দোলন। বর্তমানে বিএনপির রাজনীতি হয়ে উঠেছে আত্মরক্ষামূলক রাজনীতি। আত্মরক্ষামূলক রাজনীতি করে জয়ী হওয়ার সম্ভাবনা নেই। তারচেয়ে আক্রমনাত্মক রাজনীতি করলে জয়ী হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। বিএনপি নেতাদের উদ্দেশ্য করে গয়েশ্বর চন্দ্র বলেন, এখানে যারা উপস্থিত হয়েছেন বিদ্যালয় উপস্থিতির তালিকার মত করে তাদের নাম বলতে হয়। পত্রিকায় তাদের নাম ছবি না আসলে ক্ষুব্ধ হন। পত্রিকার নাম না আসলে কি আন্দোলন হয় না। এরশাদ বিরোধী আন্দোলনের সময় অনলাইন পত্রিকা, এত টেলিভিশন এবং ফেসবুক ছিলনা। তাহলে সেই সময় কি আন্দোলন হয় নাই। সুতরাং আমাদেরকে পত্রিকায় নাম ও ছবি আসা, নিজেকে জাহির করার মন মানসিকতা থেকে বেরিয়ে আন্দোলনে মনোনিবেশ করতে হবে। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সরকারের সদিচ্ছা ছাড়া আইনি প্রক্রিয়ায় বেগম জিয়ার মুক্তি সম্ভব নয়। আন্দোলন সংগ্রাম করেই বেগম জিয়ার মুক্তি অর্জন করতে হবে। আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলায় আন্দোলন করে শেখ সাহেব কে মুক্ত করতে না পারলে, তার ফাঁসি হয়ে যেত। জনগণের আন্দোলনের ফলেই তিনি মুগ্ধ হয়ে আসেন এবং সেইসব মামলাও কোথায় গিয়েছে তারও কোন হদিস নেই । বিএনপির জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার সমালোচনা করে তিনি বলেন, নির্বাচনের আগে বিএনপি সাতটি দফা দিয়েছিল। একদফা দাবি খালেদার মুক্তি যদি চাইতাম তাহলে খালেদার মুক্তি না হয়ে যেত না। নির্বাচনের ফলাফল যে এমন হবে এটা তো আমরা আগে থেকেই জানতাম। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তো আমাদেরকে দাওয়াত দেয়নি। ড. কামাল হোসেন দাওয়াত চেয়েছেন। চেয়ে দাওয়াত নিলে সেখানে অতিথি আপ্যায়নও তেমনি হয়। নাগরিক অধিকার আন্দোলন ফোরামের উপদেষ্টা সাঈদ আহমেদ আসলাম এর সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক এম জাহাঙ্গীর আলমের সঞ্চালনায় শোক সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপি’র নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, জাতীয়তাবাদী ওলামা দলের আহ্বায়ক প্রিন্সিপাল শাহ মোহাম্মদ নেসারুল হক, বগুড়া ৪ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোঃ মোশাররফ হোসেন, প্রয়াত সাদেক হোসেন খোকার বড় ছেলে প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযুদ্ধা ফরিদ উদ্দিন, জাতীয়তাবাদী তাঁতী দলের যুগ্ম আহ্বায়ক কাজী মনিরুজ্জামান মনির, তেজগাঁও থানা বিএনপির সহ-সভাপতি হাফিজুর রহমান কবির,কোতোয়ালি থানা কৃষকদলের সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার মোফাজ্জল হোসেন হৃদয়, কৃষকদলের রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ, আব্দুল্লাহ আল নাঈম প্রমুখ।

গাংনীতে বাজার দ্রব্যমূল্যে নিয়ন্ত্রণে জরুরী সভা

গাংনী প্রতিনিধি ॥  মেহেরপুরের গাংনীতে বাজারে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি বিশেষ করে পেঁয়াজের বাজার নিয়ন্ত্রণে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দিলারা রহমানের সভাপতিত্বে জরুরী সভার আহবান করা হয়। গতকাল শুক্রবার বিকেলে গাংনী উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে  সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ খালেক। বিশেষ অতিথি ছিলেন গাংনী পৌর সভার মেয়র আশরাফুল ইসলাম, গাংনী ইটভাটা মালিক সমিতির সভাপতি এনামুল হক। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন গাংনী থানার অফিসার ইনচার্জ এর প্রতিনিধি এসআই হাবিবুর রহমান, গাংনী বাজার কমিটির সভাপতি মাহবুবুর রহমান স্বপন ও সাধারণ সম্পাদক বজলুর রহমান বুলু, গাংনী উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি আমিরুল ইসলাম অল্ডামসহ প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ। আজ শনিবার থেকে “বাজার মনিটরিং কমিটির সম্মানিত সদস্যবৃন্দ সরেজমিনে নিবিড় পর্যবেক্ষণ করবেন, প্রয়োজনে আইনের সর্বোচ্চ প্রয়োগ করা হবে। দ্রব্যমূল্য সহনীয় পর্যায়ে রেখে জনজীবনে স্বস্তি আনতে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, গাংনী বাজারের কাঁচা মালের আড়ৎদার (পেঁয়াজ) সাহাজুল ইসলামসহ বিভিন্ন ব্যবসায়ীবৃন্দ।

শৈলকুপায় মন্দির থেকে ৯৩ কেজি ওজনের কোষ্টি পাথর চুরি!

শৈলকুপা প্রতিনিধি ॥  ঝিনাইদহের শৈলকুপায় মন্দির থেকে ৯৩ কেজি ওজনের শিবের প্রতিমূর্তীর পাথর চুরির ঘটনা ঘটেছে। মনোহরপুর ইউনিয়নের বিজুলিয়া গ্রামের কালী মন্দিরে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতের কোন এক সময় এ ঘটনা ঘটে। মন্দিরে রাখা এ পাথরটি ঘিরে যুগ যুগ ধরে কালীপূঁজাসহ প্রতিদিন পূঁজা অর্চনা করে আসছে বিজুলিয়া এলাকার হিন্দু সম্প্রদায়। পুঁজারীরা জানিয়েছেন, আনুমানিক ৯৩ কেজি ওজনের এ পাথরটি চোরাকারবারীরা কোষ্টি পাথর মনে করে চুরি করে থাকতে পারে। মন্দির কমিটির সদস্যরাও এমনটি ধারনা করছেন। বিজুলিয়া গ্রামের স্বরজিত বিশ^াস, দূর্জয় মৌলিক ও লিটন কুমার বিশ^াস বলেন, বাপ দাদার আমল থেকে তারা এ পাথরটি ঘিরে প্রতিদিন পূঁজা অর্চনা করে আসছেন। হঠাৎ সকালে উঠে দেখেন মন্দিরের শিব ঠাকুরের প্রতিকী এ পাথরটি সেখানে নেই। প্রতিদিন গোসলের পর মা বোনেরা দুধ, ফুল, বেলপাতা আরো অন্যান্য পূঁজার সামগ্রী এ পাথরে রেখে তারা পূজা করে থাকে। বৃহস্পতিবার সন্ধায় তারা এ পাথরটি দেখেছেন অথচ শুক্রবার সকালে আর দেখা যায়নি। বিজুলিয়া কালী মন্দিরের সাধারন সম্পাদক লক্ষীকান্ত গড়াই বলেন, ব্রিটিশ আমল থেকে তাদের দাদা, বাবারা এ পাথরটি ঘিরে পূঁজা অর্চনা করে আসছেন। তার ধারনা মূল্যবান ভেবে পাথর চোরাকারবারীরা এ ঘটনা ঘটিয়ে থাকতে পারে। শৈলকুপা থানার অফিসার ইনচার্জ বজলুর রহমান বলেন, মন্দিরের পাথর চুরির ঘটনায় পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।  তদন্ত চলমান রয়েছে।

কুষ্টিয়া নাগরিক পরিষদের পক্ষ থেকে শহর আ’লীগের সাধারন সম্পাদক আতাকে ফুলেল শুভেচ্ছা

কুষ্টিয়া সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আতা পূনরায় কুষ্টিয়া শহর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ায় গতকাল কুষ্টিয়া নাগরিক পরিষদের পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। শান্তিপূর্ণ পরিবেশে গনতান্ত্রিকভাবে পূনরায় শহর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক  নির্বাচিত হওয়ায় এবং কাউন্সিল অধিবেশন বাস্তবায়নের জন্য কুষ্টিয়া নাগরিক পরিষদের নেতৃবৃন্দ জননেতা আতাউর রহমান আতা মহোদয়কে অভিনন্দন জানায় এবং আগামী দিনেও সকল উন্নয়ন কর্মকান্ডের সাথে কুষ্টিয়া নাগরিক পরিষদ পাশে থাকবে বলেও অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন। সেসময় উপস্থিত ছিলেন কুষ্টিয়া নাগরিক পরিষদের সভাপতি সাইফুদ- দৌলা তরুন, সহ-সভাপতি মীর রেজাউল ইসলাম বাবু, সহ সভাপতি এম সম্পা মাহমুদ, সদস্য সচিব কাউন্সিলর শাহিন উদ্দিন, কাউন্সিলর এজাজুল হাকিম, মনিরুল ইসলাম বাবু, মোহাম্মদ আলী নিশান, ইমরান খান পলাশ, মুসাব উদ্দিন, কে এম মামুনুর রহমান, আব্দুল হালিম, শেখ মোহাম্মদ মহসিন, লিংকন, শাওন প্রমূখ। শহর আওয়ামীলীগের সম্মেলনকে কেন্দ্র করে কুষ্টিয়ার মানুষের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ ও উদ্দীপনা লক্ষ্য করা যায়। কুষ্টিয়া শহর জুড়ে বর্ণিল সাজ-সজ্জায় সজ্জিত হয়ে উৎসবমূখর পরিবেশে সম্মেলন সম্পন্ন হওয়ায় কুষ্টিয়া নাগরিক পরিষদের নেতৃবৃন্দ জননেতা আতাউর রহমান আতা মহোদয়কে ধন্যবাদ জানান। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

দৌলতপুরে সাংবাদিক পিতার ইন্তেকাল

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে কুষ্টিয়ার কন্ঠ প্রত্রিকার সম্পাদক  খন্দকার  আবুল কালাম আজাদের পিতা আলহাজ্ব খন্দকার রওশন আলী (৮৫) ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহী—- রাজিউন)। বার্ধক্য জনিত কারণে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১.৩০ সময় ঢাকায় তিনি ইন্তেকাল করেন। গতকাল শুক্রবার বাদ আছর মরহুমের নামাজে জানাজা শেষে তারাগুনিয়াস্থ পারিবারিক কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন হয়।

চট্টগ্রামে আ. লীগে অনুপ্রবেশকারীদের তালিকা যাচাই-বাছাই হচ্ছে – তথ্যমন্ত্রী

ঢাকা অফিস ॥ চট্টগ্রামে আওয়ামী লীগে ৫০ জন অনুপ্রবেশকারীর প্রাথমিক তালিকা যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ হচ্ছে একটি গণসংগঠন। এখানে অন্য দল থেকে যোগ দিতে পারবে না এটি নয়। যেকোনো দল থেকে যোগ দিতে পারে। তবে অবশ্যই তাকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের আদর্শ, উদ্দেশ্য, নীতিতে বিশ্বাস করতে হবে। আমরা কোনো যুদ্ধাপরাধীকে, যুদ্ধাপরাধী দলের সঙ্গে যুক্ত এমন কাউকে দলে নেওয়া সমীচীন নয়। যারা নানা ভাবে অপকর্মের সঙ্গে যুক্ত কিংবা আমাদের দলের বিরুদ্ধে, দলের নেতাকর্মীদের নির্যাতনের সঙ্গে যুক্ত তারা আমাদের দলে আসা সঠিক নয়। উচিত নয়। যে তালিকা হয়েছে তাতে সব অনুপ্রবেশ নয়। এটি প্রাথমিক তালিকা, যাচাই-বাছাই হচ্ছে। যোগ দিলেই অনুপ্রবেশ বলা যাবে না। যাচাই বাছাই করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বুধবার দুপুরে জিইসি কনভেনশন সেন্টারে সেরা করদাতা সম্মাননা অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন। রেল দুর্ঘটনা নিয়ে বিএনপির বক্তব্য প্রসঙ্গে এক প্রশ্নের উত্তরে মন্ত্রী বলেন, রেল দুর্ঘটনা কেন ঘটেছে সেটি ইতোমধ্যে পত্রপত্রিকায় এসেছে। চালকের ভুলের কারণে, সিগন্যাল অমান্য করার কারণে দুর্ঘটনা ঘটেছে। সেটি নিয়ে তদন্ত হচ্ছে। তদন্তে নিশ্চয় পুরো ঘটনাটি কীভাবে ঘটেছে তা উঠে আসবে। সবকিছুতে রাজনীতি খোঁজা বিএনপির অভ্যাস। দুর্ঘটনা হলে রাজনীতি খোঁজা এটি বিএনপির রাজনৈতিক দৈন্যতা ছাড়া আর কিছুই নয়। বরং যারা আহত হয়েছেন, যে সব পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তাদের পাশে দাঁড়ানো হচ্ছে রাজনীতিবিদদের জন্য আমি মনে করি দায়িত্ব ও কর্তব্য। রাজনীতি হচ্ছে জনসেবার জন্য। আমাদের দলের সংশ্লিষ্ট এলাকার নেতা-কর্মীদের বলা হয়েছে দুর্ঘটনায় আহত হয়েছে, ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তাদের পাশে থাকার জন্য। দুর্নীতিবিরোধী অভিযান প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বিএনপি তো বাংলাদেশকে পরপর পাঁচবার চ্যাম্পিয়ন বানিয়েছিল, নিশ্চয় আপনাদের মনে আছে। দুর্নীতির মাধ্যমে অর্জিত অর্থ অর্থাৎ অপ্রদর্শিত অর্থ বেগম খালেদা জিয়া নিজে কালো টাকা জরিমানা দিয়ে সাদা করেছিলেন। তাদের অর্থমন্ত্রী সবাইকে অবাক করে দিয়ে যিনি সবসময় ন্যায়-নীতির কথা বলতেন, সাইফুর রহমান নিজে কালো টাকা সাদা করেছেন জরিমানা দিয়ে। বেগম খালেদা জিয়ার তার দুই পুত্রের দুর্নীতি বিদেশে উদঘাটিত হয়েছে। তারেক জিয়ার ব্যাপারে বাংলাদেশে এসে সাক্ষ্য দিয়ে গেছে এফবিআই। এটি বাংলাদেশের ইতিহাসে কখনো ঘটেনি। তার প্রয়াত পুত্র কোকোর দুর্নীতি উদঘাটিত হয়েছে সিঙ্গাপুরে। কোকোর দুর্নীতির মাধ্যমে পাচারকৃত টাকা বাংলাদেশে ফেরত আনা হয়েছিল। যাদের সারা অঙ্গে দুর্নীতি তারা এ নিয়ে কথা বলার কোনো নৈতিক অধিকার রাখে না। এখনো তো বিএনপির যারা দুর্নীতিবাজ তাদের ধরা হয়নি তো সে জন্য তারা হয়তো মনে করেছে অভিযান শেষ হয়ে গেছে। বিএনপিতেও যারা দুর্নীতিগ্রস্ত, যারা দুর্নীতির মাধ্যমে নানা কিছু অর্জন করেছেন এবং সরকার, দেশ, জনগণকে ক্ষতিগ্রস্ত করেছেন সেই তথ্য সরকারের কাছে আছে। সেগুলো নিয়েও সরকার নিশ্চয় কাজ করছে।

 

সভাপতি নাসির ॥ সম্পাদক মান্নান

হাজী মোছাঃ আছিয়া খাতুন এতিমখানার কমিটি গঠন

কুমারখালী প্রতিনিধি ॥ সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের আওয়াতাধীন সমাজসেবা অধিদপ্তরের ক্যাপিটেশন গ্রান্টপ্রাপ্ত এতিমখানা ও হাজী মোকাদ্দেস হোসেন ফাউন্ডেশন কর্তৃক পরিচালিত কুষ্টিয়ার কুমারখালীর হাজী মোছাঃ আছিয়া খাতুন এতিমখানার ১৫ সদস্য বিশিষ্ট নতুন কমিটি গঠন করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার বিকাল ৪টায় এতিমখানার কার্যালয়ে সভাপতি মকবুল  হোসেনের সভাপতিত্বে সাবেক সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রউফ, উপজেলা সমাজসেবা অফিসার মোহাম্মদ আলী ও এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে উক্ত কমিটি গঠন করা হয়। কমিটিতে সভাপতি পদে  মোঃ নাসির উদ্দীন ও সম্পাদক পদে মোঃ আব্দুল মান্নানকে ঘোষনা করা হয়। কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন সহ-সভাপতি জাবেদ আলী মন্ডল ও আব্দুস সালাম বিশ্বাস, সহ-সম্পাদক গোলাম মওলা ও নিজাম উদ্দিন, কোষাধ্যক্ষ হুমায়ন কবির, সদস্য আব্দুর রউফ, রেজন আলী খান, মসলেম উদ্দিন, মফিজ উদ্দিন, আলাউদ্দিন খান, জয়নদ্দিন শেখ, আব্দুর রশিদ মন্ডল ও তারেক আজিজ।

শৈলকুপায় ১১০ বছরের বৃদ্ধার ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার

শৈলকুপা প্রতিনিধি ॥ ঝিনাইদহের শৈলকুপা থেকে ১১০ বছরের এক বৃদ্ধার ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল শুক্রবার সকালে শৈলকুপার লক্ষীপুর গ্রামে নিজ বাড়ি থেকে ছবিরন নেছা নামের এ বৃদ্ধার মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে তা ময়না তদন্তের জন্য ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে মর্গে পাঠিয়েছে। সে আত্মহত্যা করেছে নাকি হত্যা করা হয়েছে এ নিয়ে এলাকার মানুষের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে। এদিকে নিহতের পুত্রবধু রেবেকা পারভিন দাবি করেছেন, তার শাশুড়ি আত্মহত্যা করেছে। কিন্তু বৃদ্ধার মেয়েরা এমন মৃত্যুতে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন। শৈলকুপা থানার এসআই এমদাদ হোসেন জানিয়েছেন, সকালে এলাকাবাসীর কাছ থেকে খবর পেয়ে লক্ষীপুর গ্রামে বৃদ্ধার বাড়ি থেকে তার মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এর আগে পরিবারের সদস্যরা ঝুলন্ত মৃতদেহটি মাটিতে নামিয়ে রাখে। রাতে তার ঘরের দরজা খোলা ছিল। নিহতের গলায় রসির দাগ রয়েছে। তবে এটি আত্মহত্যা না হত্যা তা ময়না তদন্তের পরে নিশ্চিত হওয়া যাবে বলে পুলিশ জানিয়েছে। বৃদ্ধা ছবিরন নেছা লক্ষীপুর গ্রামের মৃত মসলেম উদ্দিনের স্ত্রী। ১১০ বছর বয়সী এ বৃদ্ধার ৭ ছেলে, ৩ মেয়ে রয়েছে। এলাকাবাসী বলছে, মৃত্যুর আগের দিনেও সে স্বাভাবিকভাবে পারিবারিক কাজকর্ম করেছে ও ঘুরে ফিরে বেড়িয়েছে।

মরহুম আব্দুল খালেক মন্ডল স্মৃতি আন্তর্জাতিক রেটিং দাবা টুর্ণামেন্ট’র সমাপনী অনুষ্ঠান

সুজন কর্মকার ॥ আমলাপাড়া স্পোর্টিং ক্লাবের উদ্যোগে মরহুম আব্দুল খালেক মন্ডল স্মৃতি আন্তর্জাতিক রেটিং দাবা টুর্ণামেন্টের সমাপনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। দাবা টুর্ণামেন্টটি পরিচালনায় সার্বিক সহযোগিতা করেন খালেক ব্রিকস্, কুষ্টিয়া। ১৫ নভেম্বর শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টায় ক্লাব অভ্যন্তরে এ সমাপনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আমলাপাড়া স্পোর্টিং ক্লাবের সভাপতি ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক (পি.পি) এ্যডঃ অনুপ কুমার নন্দী, মরহুম আব্দুল খালেক মন্ডল’র পুত্র খালেক ব্রিকস্, কুষ্টিয়া’র স্বত্তাধিকার আব্দুল কাদের জুয়েল, আমলাপাড়া স্পোর্টিং ক্লাবের সহ-সভাপতি ফারুক কোরাইশী, সহ-সভাপতি আক্তারুজ্জামান হাসান, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক রবিউল হক প্রমুখ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন আমলাপাড়া স্পোর্টিং ক্লাবের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আজিজুল ইসলাম মানিক। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন আমলাপাড়া স্পোর্টিং ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সাইদুল ইসলাম। এ সময় স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ ও আমলাপাড়া স্পোর্টিং ক্লাবের সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। এর আগে গত ৯ নভেম্বর ২০১৯ তারিখ শনিবার বিকেল সাড়ে ৩ টায় উক্ত ক্লাব প্রাঙ্গনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে  দাবা টুর্ণামেন্টটির উদ্বোধন করেন কুষ্টিয়া জেলা পরিষদ’র চেয়ারম্যান হাজী রবিউল ইসলাম।

বঙ্গবন্ধুকে হত্যার কারণে বাংলাদেশকে ঘুরে দাঁড়াতে সময় লাগছে – নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা অফিস ॥ নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি বলেছেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করা হয়েছিলো বলেই বাংলাদেশকে ঘুরে দাঁড়াতে সময় লাগছে। শুক্রবার বেলা ১১টায় দিনাজপুরে আয়কর মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। স্বাধীনতার ৪৮ বছরে আয়কর নেওয়ার মেলা করাকে দুর্ভাগ্যজনক উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘যে দেশে স্বাধীনতার জন্য ৩০ লাখ মানুষ প্রাণ দিয়েছে, সে দেশের মানুষ আয়কর দেবে না এটা হতে পারে না ’ এজন্য বঙ্গবন্ধু হত্যার পরবর্তী রাজনীতিবিদদের দায়ী করেন তিনি। নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও অর্থমন্ত্রী সাইফুর রহমানের নাম উল্লেখ করে বলেন, ‘তারাই নিজেদের কালো টাকা সাদা করেছে। এটা দেশের জন্য একটা দুর্ভাগ্যজনক।’ এ সময় আয়কর দেওয়ার জন্য সকলকে উৎসাহী হওয়ার আহ্বান জানান তিনি। রংপুর কর অঞ্চলের কর কমিশনার আব্দুল লতিফের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আজিজুল ইমাম চৌধুরী, জেলা প্রশাসক মাহমুদুল আলম এবং দিনাজপুর শিল্প ও বনিক সমিতির সভাপতি সুজা-উর-রব চৌধুরী। এর আগে প্রধান অতিথি ফিতা কেটে ও বেলুন উড়িয়ে তিন দিনব্যাপী এই আয়কর মেলার উদ্বোধন করেন। দিনাজপুর উপ-কর কমিশনারের কার্যালয় প্রাঙ্গণে আয়োজিত এই মেলায় আয়কর জমা দেওয়ার জন্য বিভিন্ন স্টল বসানো হয়েছে।

নব-নির্বাচিত কুষ্টিয়া শহর আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান আতাকে ফুলেল শুভেচ্ছা অব্যাহত

সুজন কর্মকার ॥ নব-নির্বাচিত কুষ্টিয়া শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আতাকে ফুলেল শুভেচ্ছা দেয়া অব্যাহত রেখেছেন নেতা-কর্মী ও বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের পক্ষ থেকে।  ১২ নভেম্বর মঙ্গলবার কুষ্টিয়া ইসলামিয়া কলেজ মাঠে শহর আওয়ামীলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এ সম্মেলনে কুষ্টিয়া সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আতা কুষ্টিয়া শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়। সম্মেলন শেষ হবার সাথে সাথে শতশত নেতা-কর্মী আতাউর রহমান আতাকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান। সেই থেকে হাজারো নেতা-কর্মী ও বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের পক্ষ থেকে কুষ্টিয়া শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান আতাকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান। ১৫ নভেম্বর শুক্রবার রাতে আইলচারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সিদ্দিকুর রহমানের নেতৃত্বে তার লোকজন আতাউর রহমান আতাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। কুষ্টিয়া সদর উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি দেলোয়ার হোসেন বিশ্বাসের নেতৃত্বে তার লোকজন আতাউর রহমান আতাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। এছাড়াও বিভিন্ন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সহ বিভিন্ন নেতা-কর্মী ও সামাজিক সংগঠনের পক্ষ থেকে নব-নির্বাচিত কুষ্টিয়া শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান আতাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয় । এ সময় শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান আতার পক্ষ থেকে সকলকে মিষ্টি মুখ করানো হয়। আতাউর রহমান আতা সকলকে দেশ ও জাতির কল্যাণে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ বুঁকে ধারণ করে কাজ করার আহবান জানান।  সেই সাথে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আরো শক্তিশালী করতে নেতা-কর্মীদের ঐক্যবদ্ধ থেকে কাজ করার আহবান জানান।

স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলন আজ

ঢাকা অফিস ॥ বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের জাতীয় সম্মেলন আজ শনিবার। সকাল ১১ টায় রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ২০১২ সালের ১১ জুলাই স্বেচ্ছাসেবক লীগের সর্বশেষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। গত বৃহস্পতিবার বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে স্বেচ্ছাসেবক লীগ আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক নির্মল রঞ্জন গুহ জানিয়েছেন, স্বেচ্ছাসেবক লীগের তৃতীয় জাতীয় সম্মেলনের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। ইতোমধ্যে সম্মেলন স্থলের মঞ্চ এবং প্যান্ডেলসহ যাবতীয় প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে বলে জানান তিনি। তিনি আরো জানান, এবারের সম্মেলনে ১৯শ ৭৫জন কাউন্সিলর এবং প্রায় ১৮ হাজার ডেলিগেট উপস্থিত থাকবেন। এছাড়াও অতিথি থাকবেন প্রায় ১৫ হাজার। নির্মল রঞ্জন গুহ বলেন, সম্মেলন সফল করার লক্ষ্যে ১৩টি উপ কমিটি গঠন করা হয়েছে। এছাড়াও সম্মেলন বর্ণাঢ্য এবং জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হবে।

পেঁয়াজ সিন্ডিকেটের সাথে সরাসরি মন্ত্রী-এমপি জড়িত – রিজভী

ঢাকা অফিস ॥ পেঁয়াজ সিন্ডিকেটের সাথে মন্ত্রী-এমপি সরাসরি জড়িত অভিযোগ করে অবিলম্বে ব্যর্থমন্ত্রী ও সরকারের পদত্যাগ দাবি করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী আহমেদ। শুক্রবার (১৫ নবেম্বর)সকালে নয়াপল্টনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী মুক্তিযুদ্ধের প্রজন্ম দলের উদ্যোগে খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে অনুষ্ঠিত এক বিক্ষোভ মিছিল শেষে তিনি এ দাবি জানান। নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে শুরু হয়ে মিছিলটি নাইট এঙ্গেল মোড় ঘুরে আবার দলটির কার্যালয়ের সামনে শেষ হয়। রিজভী বলেন, পেয়াজের পর্যাপ্ত সরবরাহ থাকার পরও ক্ষমতাসীন দলের সিন্ডিকেটের কারণে পিয়াজের কেজি দেড় শতকের পর ডাবল সেঞ্চুরি পেরিয়ে গেছে। সর্বশেষ গতকাল যোগ হয়েছে আরো ৪০ টাকা। ২৪০ টাকা ছাড়িয়েও থামেনি দাম। দাম আর কতো বাড়বে এই নিশ্চয়তা কেউ দিতে পারছেন না। বরং সংসদে বাণিজ্যমন্ত্রীর পক্ষে শিল্পমন্ত্রী যেদিন বললেন বাজার নিয়ন্ত্রণে তার পর দিনই এক লাফে ৩০ থেকে ৪০ টাকা বেড়ে যায় কেজিতে। মন্ত্রীর বক্তব্যের পর পিয়াজের দাম আরও বেড়ে গেছে। তাদের বক্তব্য সিন্ডিকেটকে উস্কে দিচ্ছে। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী গতবছর থেকে এখন পর্যন্ত যে পরিমাণ পেঁয়াজ দেশে আছে তা চাহিদার চেয়ে অনেক বেশি। তাহলে এভাবে লাগামহীনভাবে পেঁয়াজের দাম বাড়ছে কেন? স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের গণবিজ্ঞপ্তি নিয়ন্ত্রণমূলক উল্লেখ করে বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন, মূলত; সরকারদলীয় লোক ও প্রশাসনের দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের খবর যাতে প্রকাশ না পায় সেজন্যই এ আদেশ জারি করা হয়েছে।

খালেদা জিয়া শারীরিক অবস্থা আরও অবনতি হয়েছে দাবি করে রিজভী বলেন, সারা শরীর ব্যথায় কাতরাচ্ছেন। হাত-পা নাড়াতে পারছেন না। বিএনপি চেয়ারপারসনকে কোন প্রকার চিকিৎসাই দেওয়া হচ্ছে না। গত ৮ দিন তাঁর কাছে কোন চিকিৎসক যাননি। জরুরি ভিত্তিতে তাঁর উন্নত চিকিৎসা না দিলে তাঁর বড় ধরণের ক্ষতি হয়ে যাবে। আমি অবিলম্বে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করছি। মিছিলে বিএনপি’র যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি’র সভাপতি হাবিব উন নবী খান সোহেল, বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক ও মুক্তিযুদ্ধ প্রজন্ম দলের সভাপতি শামা ওবায়েদ, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক কাজী আবুল বাশার, বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য সাইফুল ইসলাম পটু প্রমুখ অংশ নেন।

দৌলতপুরে ৪ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে রামকৃষ্ণপুর, চিলমারী, মরিচা ও হোগলবাড়িয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার বিকেলে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। দৌলতপুর আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রবীন আওয়ামী লীগ নেতা সাবেক এমপি আফাজ উদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে সম্মেলন উপস্থিত ছিলেন, কুষ্টিয়া-১ দৌলতপুর আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড. আ, কা, ম সরওয়ার জাহান বাদশা, সাবেক এমপি আলহাজ¦ রেজাউল হক চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্মসম্পাদক প্রকৌশলী ফারুকুজ্জামান, জেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক এ্যাড. হাসানুল আসকার হাসু ও দৌলতপুর উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাড. এজাজ আহমেদ মামুন। সম্মেলন পরিচালনা করেন দৌলতপুর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. শরীফ উদ্দিন রিমন। সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ। সম্মেলনে ৪ ইউনিয়ন থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিদের প্যানেল জমা নেওয়া হয়।

‘যুদ্ধাপরাধের বিচারের মূল উদ্দেশ্য সঠিক ইতিহাস এবং সত্যের অনুসন্ধান’

ঢাকা অফিস ॥ যুদ্ধাপরাধের বিচারের মূল উদ্দেশ্য সঠিক ইতিহাস এবং সত্যের অনুসন্ধান করে সেটিকে তুলে আনা। তাই এ ধরনের বিচারে অভিযুক্ত অনুপস্থিত থাকলেও এর গুরুত্ব কোনো অংশে কম নয়। গতকাল শুক্রবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ের মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরে আয়োজিত প্যানেল আলোচনায় অংশ নেন গণহত্যা ও যুদ্ধাপরাধ নিয়ে বিশ্লেষণ করা দেশি-বিদেশি অনেক গবেষক। তারা যুদ্ধাপরাধ এবং গণহত্যার বিচার নিয়ে এমনটাই বলেন। বাংলাদেশে যুদ্ধাপরাধ এবং এর বিচার নিয়ে ষষ্ঠবারের মতো আয়োজিত আন্তর্জাতিক সম্মেলনের দ্বিতীয় দিনের শুরুতেই এই প্যানেল আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। যুদ্ধাপরাধ এবং নৃশংস গণ অপরাধের বর্তমান সময়ের বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে এই প্যানেল আলোচনায় অংশ নেন আর্জেন্টিনার রাজধানী বুয়েন্স আয়ার্সের অপরাধ বিষয়ক উচ্চ আদালতের দূত এবং অধ্যাপক ইরেনে ভিক্তোরিয়া মাসিমিনো, নটরডেম ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের আইন বিভাগের প্রধান তাহসিন খান এবং পোল্যান্ডের সমাজবিজ্ঞানী রাফাল প্যানকোয়াস্কি। এতে সভাপতিত্ব করেন এশিয়া জাস্টিস অ্যান্ড রাইটসের জ্যেষ্ঠ আইনি উপদেষ্টা নিকোল জেনিসুইচ। আলোচনায় ইরেনে ভিক্তোরিয়া বলেন, যুদ্ধাপরাধ বা গণহত্যার বিচারে অনেক সময়ই কম গুরুত্ব দেওয়া হয়। কারণ অভিযুক্ত পক্ষ অনুপস্থিত থাকে বলে। কিন্তু এ ধরনের বিচারিক কার্যক্রমে এটাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় না। গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে সত্যকে খুঁজে বের করা। সমাজবিজ্ঞানী রাফাল প্যানকোয়াস্কি বলেন, পোল্যান্ডে নাৎসি বাহিনী যে ব্যাপক গণহত্যা চালায়, এর সঙ্গে ৭১ এ বাংলাদেশের ঘটনার ব্যাপক মিল রয়েছে। এখানে বাংলাদেশকে দেখতে হবে যে, পোল্যান্ড কীভাবে সেসব ঐতিহাসিক সত্যতা রক্ষার অভিভাবক হিসেবে কাজ করেছে। বাংলাদেশকে এখান থেকে শিক্ষা নিতে হবে। তবে আনন্দের বিষয় হচ্ছে, শুরু থেকেই পোল্যান্ডকে পাশে পেয়েছে বাংলাদেশ। প্যানেল আলোচনায় রোহিঙ্গা এবং মিয়ানমার ইস্যুতেও বক্তব্য রাখেন আলোচকেরা। তারা বলেন, ইতিহাস থেকে যদি মিয়ানমার শিক্ষা না নেয়, তাহলে ইতিহাসের ফলাফল তাদেরও বরণ করতে হতে পারে। তাই যত দ্রুত সম্ভব রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে মিয়ানমারকে আন্তরিক হওয়ার আহবান জানান তারা।

মুজিববর্ষের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা মোদি

ঢাকা অফিস ॥ ২০২০ সালের ১৭ মার্চ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী। মুজিববর্ষের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে ভাষণ দেবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ২০২০ সালের ১৭ মার্চ থেকে ২০২১ সালের ২৬ মার্চ পর্যন্ত সময়কে মুজিববর্ষ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। ভারতসহ বিভিন্ন দেশের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গ এই আয়োজনে অংশ নেবেন। ভারতে নিযুক্ত বাংলাদেশি হাই কমিশনার সৈয়দ মুয়াজ্জেম আলী জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এই আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছেন এবং তিনি এই আয়োজনে অংশ নেবেন বলে নিশ্চিত করেছেন। বাংলাদেশের তরফ থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে যে, নরেন্দ্র মোদি এই আয়োজনে বক্তৃতা দেবেন। পশ্চিমবঙ্গের রাজধানী কলকাতায় বাংলাদেশি বই মেলায় সৈয়দ মুয়াজ্জেম আলি বলেন, ভারতের অনেক রাজনীতিবিদকেও আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। দ্য হিন্দুকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে সৈয়দ মুয়াজ্জেম আলি বলেন, ভারতের অনেক মুখ্যমন্ত্রী এবং বিরোধী দলীয় নেতাকেও আমন্ত্রণ জানানো হবে। দিল্লি, কলকাতা এবং আগরতলায় বিভিন্ন আয়োজন করা হবে। ভারতে অবস্থিত আমাদের দূতাবাস বিভিন্ন ধরনের আয়োজনের পরিকল্পনা করছে। অপরদিকে, ঢাকার তরফ থেকে জানানো হয়েছে, বিশ্বের কমপক্ষে শীর্ষ ৩০ জন নেতাকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। এর মধ্যে অনেকেই আসার ব্যাপারটি নিশ্চিত করেছেন। তারা এই আয়োজনে অংশ নেবেন বলে জানিয়েছেন। তবে এই আয়োজনে প্রতিবেশী পাকিস্তানকে আমন্ত্রণ জানানো হবে না বলে জানানো হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী উদযাপন কমিটির প্রেসিডেন্ট কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশ এবং ভারতের পাশাপাশি লন্ডন, নিউ ইয়র্ক, টোকিও এবং মস্কোতেও বিভিন্ন আয়োজনের পরিকল্পনা রয়েছে। সৈয়দ মুয়াজ্জেম আলি বলেন, ২০২০ সালে কলকাতার বইমেলা বঙ্গবন্ধুকে উৎসর্গ করা হবে। কলকাতা এবং আগরতলায় যৌথ প্রকাশনা, সংবাদ সম্মেলন এবং সেমিনারের আয়োজন করা হবে। ১৯৭১ সালে যেসব সাংবাদিক মুক্তিযুদ্ধের সংবাদ প্রচার বা সংগ্রহ করেছেন তাদেরও ঢাকায় আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। তারা মুক্তিযুদ্ধের সময় তাদের যেসব অভিজ্ঞতা হয়েছে তা তুলে ধরবেন।

চারদিনের সফর শেষে নেপাল থেকে দেশে ফিরেছেন রাষ্ট্রপতি

ঢাকা অফিস ॥ চারদিনের রাষ্ট্রীয় সফর শেষে নেপাল থেকে দেশে ফিরেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশে বিমানের একটি ভিভিআইপি ফ্লাইটে রাষ্ট্রপতি কাঠমান্ডু থেকে ঢাকায় পৌঁছান। সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে রাষ্ট্রপতিকে স্বাগত জানান। এছাড়া ডিপ্লোমেটিক কোরের ডিন, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, তিন বাহিনী প্রধান, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব, আইজিপিসহ পদস্থ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন। নেপালের স্থানীয় সময় বিকেল সোয়া ৫টায় রাষ্ট্রপতি ঢাকার উদ্দেশ্যে কাঠমান্ডু ছাড়েন। ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে রাষ্ট্রপতিকে বিদায় জানান নেপালের প্রেসিডেন্ট বিদ্যা দেবী ভা-ারী। রাষ্ট্রপতিকে এ সময় গার্ড অব অনার দেওয়া হয়। আবদুল হামিদকে বিদায় জানাতে একুশ বার তোপধ্বনি করা হয়। বিদ্যা দেবীর আমন্ত্রণে মঙ্গলবার কাঠমা-ু পৌঁছান আবদুল হামিদ। বিমানবন্দরে রাষ্ট্রপতিকে দেওয়া হয় লাল গালিচা সংবর্ধনা। ওই দিন ইউনেস্কো বিশ্ব ঐতিহ্যভুক্ত ভক্তপুর দরবার স্কয়ারে যান রাষ্ট্রপতি। বুধবার নেপালের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করেন রাষ্ট্রপতি। বিদ্যা দেবীর দেওয়া নৈশভোজেও তিনি অংশ নেন। একই দিন নেপালের প্রধানমন্ত্রী কে পি শর্মা অলিও সাক্ষাৎ করেন বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতির সঙ্গে। এ ছাড়া নেপালের ভাইস প্রেসিডেন্ট নন্দ বাহাদুর পুন, নেপাল পার্লামেন্টের উচ্চ কক্ষ ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির চেয়ারপার্সন গনেশ প্রসাদ তিমিলসিনা, বিরোধী দলীয় নেতা ও নেপালি কংগ্রেস পার্টির প্রেসিডেন্ট শের বাহাদুর দেউবা, সাবেক প্রধানমন্ত্রী পুষ্প কমল দহল (প্রচন্ড) রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। বিদ্যা দেবী ও আবদুল হামিদের দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবজনিত সমস্যা ও প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় আন্তর্জাতিক অঙ্গনে জোরালো পদক্ষেপ নিতে যৌথভাবে কাজ করার বিষয়ে একমত হয় বাংলাদেশ ও নেপাল। এছাড়া জলবিদ্যুৎ, দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য-বিনিয়োগ সম্পর্ক, জনগণের মধ্যে সম্পর্ক বাড়ানো এবং কানেকটিভিটি বাড়াতে পদক্ষেপ নেওয়ার বিষয়ে আলোচনা হয়। নেপালের পক্ষ থেকে বলা হয়, ২০৩০ সালের মধ্যে উন্নয়নশীল দেশে পরিণত লক্ষ্যে যে কর্মসূচি তারা নিয়েছে, তা সফল করতে বাংলাদেশকে পাশে চায় তারা। বাংলাদেশের পক্ষ থেকেও এ বিষয়ে সহযোগিতার প্রতিশ্র“তি দেওয়া হয়। স্ত্রী রাশিদা খানমকে সঙ্গে নিয়ে গত বৃহস্পতিবার নেপাল সেনাবাহিনীর একটি হেলিকপ্টারে চড়ে পোখারা যান রাষ্ট্রপতি হামিদ। সেখানে মনোরম ফেওয়া লেক এবং হিমালয় পর্বতমালার সৌন্দর্য্য উপভোগ করেন তারা। পরে স্থানীয় রূপাকোট রিসোর্টে গিয়েও কিছু সময় কাটান রাষ্ট্রপতি। রাষ্ট্রপতির এই সফর উপলক্ষে কাঠমান্ডুর বিভিন্ন সড়কে তোরণ নির্মাণ করা হয়। বিভিন্ন স্থানে বসানো হয় আবদুল হামিদের ছবি সম্বলিত প্ল্যাকার্ড। পোখারা শহরও একইভাবে সাজানো হয়।

শিগগিরই পেঁয়াজের দাম স্বাভাবিক হয়ে যাবে – তোফায়েল

ঢাকা অফিস ॥ বাণিজ্য মন্ত্রণালয় বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও ভোলা-১ আসনের সংসদ সদস্য তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, আমরা আশা করি খুব শিগগিরই পেঁয়াজের দাম স্বাভাবিক হয়ে যাবে। কারণ এই মুহূর্তে প্রায় ৫০ হাজার মে.টন পেঁয়াজ দেশের পথে জাহাজে করে আসছে। আশা করি আর ১০-১২ দিনের মধ্যে এ জাহাজগুলি বাংলাদেশে এসে পৌঁছাবে। আমাদের যে চাহিদা সে চাহিদা পূরণ হবে। শুক্রবার ভোলা সদরের পূর্ব ইলিশা ইউনিয়নের ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের আঘাতে ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে ত্রাণ বিতরণকলে সম্প্রতি পেঁয়াজের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। এ সময় তিনি ক্ষতিগ্রস্ত ৪০টি পরিবারের মধ্যে নগদ এক লাখ ৫৯ হাজার টাকা, ৪০ বান ঢেউটিন ও ৩০ কেজি করে চাল বিতরণ করেন। একটা দল যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত নেতার নেতৃত্বে চলতে পারেনা বলে মন্তব্য করে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগে যারা সৎ, নিষ্ঠাবান ও আদর্শবান তাদেরকে নিয়েই এবার দল সংগঠিত হবে। এ সময় জেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

রোহিঙ্গাদের মানবাধিকার নিয়ে জাতিসংঘের তৃতীয় কমিটিতে প্রস্তাব পাস

ঢাকা অফিস ॥ মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলিমসহ সংখ্যালঘুদের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে তৃতীয়বারের মতো জাতিসংঘে একটি প্রস্তাব পাস হয়েছে। জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৪তম অধিবেশনের সামাজিক, মানবিক ও সাংস্কৃতিক বিষয়ক কমিটিতে (তৃতীয় কমিটি) বৃহস্পতিবার বিপুল ভোটে প্রস্তাবটি পাশ হয়। এবারের প্রস্তাবে রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে বিভিন্ন উপায়ের সঙ্গে মিয়ানমারকে কী কী পদক্ষেপ নিতে হবে তা স্পষ্টভাবে উল্লেখ করা হয়েছে বলে জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন জানিয়েছেন। সাংবাদিকদের তিনি বলেন, এই প্রস্তাব নিরাপত্তা পরিষদকে রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধানে সুস্পষ্ট পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে, যা নিরাপত্তা পরিষদের উপর সরাসরি চাপ সৃষ্টি করবে। “রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের ব্যর্থতার জন্য মিয়ানমারকে দায়ী করে সুস্পষ্ট রাজনৈতিক সদিচ্ছা প্রদর্শন ও প্রত্যাবর্তনের উপযোগী পরিবেশ তৈরিসহ সুনির্দিষ্ট ১০টি বিষয়ে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে বলা হয়েছে।” প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দিয়েছে ১৪০টি দেশ; বিপক্ষে দিয়েছে চীন ও রাশিয়াসহ নয়টি দেশ; এবং ভোট দেওয়া থেকে বিরত ছিল ৩২টি দেশ। প্রস্তাবটি ভোটে যাওয়ার আগে এর পক্ষে ভোট দেওয়ার যৌক্তিকতা তুলে ধরে বক্তব্য রাখে ফিনল্যান্ড (ইইউ), কানাডা, যুক্তরাষ্ট্র, তুরস্ক, সৌদি আরব ও সুইজারল্যান্ডের প্রতিনিধিরা। তৃতীয় কমিটিতে গৃহীত এই প্রস্তাব আগামী মাসে সাধারণ পরিষদের প্লেনারিতে উপস্থাপিত হবে। ওআইসি ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের পক্ষে প্রস্তাবটি এবার উপস্থাপন করে সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ফিনল্যান্ড। জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশন শুরু থেকেই এই প্রস্তাব প্রক্রিয়াকরণ, উপস্থাপন ও গ্রহণের ক্ষেত্রে নিবিড়ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। মিয়ানমারে সেনা নিপীড়নের মুখে ২০১৭ সালের অগাস্টে লাখ রোহিঙ্গা নাগরিক পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়ার পর ওই বছরই এই কমিটিতে প্রথম প্রস্তাব পাস হয়।

১৩তম গ্রেড প্রত্যাখ্যান সহকারী শিক্ষকদের

ঢাকা অফিস ॥ বেতন বৈষম্য নিরসনে ১৩তম গ্রেড প্রত্যাখ্যান করে ১১তম গ্রেডে বেতনের দাবিতে সংবাদ সম্মেলনে করেছে বাংলাদেশ সহকারী প্রাথমিক শিক্ষক মহাজোট। গতকাল শুক্রবার বেলা ১১টায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির ক্রাইম রিপোর্টার্স মিলনায়তনে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষক নেতারা বলেন, সহকারী শিক্ষকদের ১১তম গ্রেডে বেতনের দাবিতে দীর্ঘ পাঁচ বছর শিক্ষক মহাজোট আন্দোলন কর্মসূচি পালন করছে। সম্প্রতি প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সহকারী শিক্ষকদের ১৩তম গ্রেডে বেতন উন্নীতকরণের প্রস্তাব অর্থ মন্ত্রণালয়ে পাঠায়, যা সহকারী শিক্ষকদের কাম্য নয়। অর্থ মন্ত্রণালয় চলতি বছরের ৮ সেপ্টেম্বরে ১২তম গ্রেডে উন্নীতকরণের সুযোগ নেই মর্মে প্রস্তাবটি প্রত্যাখান করে ও ৭ নভেম্বর ১৩তম গ্রেডে বেতন উন্নীতকরণে সম্মতি দেয়। বক্তারা বলেন, ১৩তম গ্রেডে সব শিক্ষকের বেতন কমে যাবে, এমনকি ১২তম গ্রেডেও সহকারী শিক্ষকদের এক টাকাও বেতন বাড়বে না। গ্রেডে বৈষম্য দূর হলেও টাকার অংকে এই বৈষম্য থেকেই যাবে। ১৩তম গ্রেডে বেতন উন্নীত করা সহকারী শিক্ষকদের সঙ্গে প্রহসন ছাড়া আর কিছুই নয়। সুতরাং, বেতন বৈষম্য নিরসনে ১১তম গ্রেডের কোনো বিকল্প নেই। সংবাদ সম্মেলনে ১৩তম গ্রেড প্রত্যাখান করে সহকারী শিক্ষকদের ১১তম গ্রেডে বেতন উন্নীতকরণের প্রস্তাব ফের পঠানোর জোর দাবি জানানো হয়। ১১তম গ্রেডে বেতন উন্নীতকরণে ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত যে সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছে, এর মধ্যে দাবি আদায় না হলে কঠোর কর্মসূচির হুঁশিয়ারি দেন শিক্ষকরা। সংবাদ সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক মহাজোটের শাহীনুর আকতার, লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মো. আসাদুজ্জামান। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন মো. আমিনুল হক, মো. এনামুল হক, মো. এখলাচুর রহমান, আবদুল ওয়াহাব শেখ, সাজ্জাদুর রহমান খোশনবীস, আবদুর রউফ শাহীন, আহম্মেদ কায়সার, মনসুর আলম টিপু, কবিরুল ইসলাম, মো. আলমেরাজ, শামসুল হক, রফিকুল ইসলাম, বিপ্লব চন্দ্র দাস প্রমুখ।

 

হাজী মোকাদ্দেস হোসেন ফাউন্ডেশনের সাধারন সভায় আব্দুর রউফ

শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার কারনেই দেশে উন্নয়ন হয়েছে

কুমারখালী প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়া-৪ (কুমারখালী-খোকসা) আসনের সাবেক সাংসদ, কুমারখালী ও খোকসার উন্নয়নের রূপকার, বিশিষ্ট সমাজসেবক ও শিক্ষানুরাগী বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রউফ বলেন- একমাত্র বঙ্গবন্ধু কন্যা  দেশরতœ শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার কারনেই দেশে উন্নয়ন হয়েছে। এখন আর কেউ না খেয়ে দিন কাটায় না। বঙ্গবন্ধু কন্যার সাহসী পদক্ষেপে বাংলাদেশ এখন সারা বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল। গতকাল শুক্রবার সকালে কুমারখালীর বাঁশগ্রাম আলাউদ্দিন আহম্মেদ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ অডিটোরিয়ামে মানবতার কল্যাণে স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা হাজী মোকাদ্দেস হোসেন ফাউন্ডেশনের সাধারন সভা ও নির্বাচন-২০১৯ অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।  আব্দুর রউফ বলেন, বঙ্গবন্ধুর’ ডাকে সারা দিয়ে বাঙালিরা যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ে বাংলাদেশকে শক্রমুক্ত করেছিল। আর বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধু’র স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয় নিয়ে সামনের দিকে এগিয়ে চলেছে। হাজী মোকাদ্দেস হোসেন ফাউন্ডেশনের সাধারন সম্পাদক অধ্যক্ষ মোঃ আব্দুস সাত্তারের পরিচালনায় এসময় বাঁশগ্রাম আলাউদ্দিন আহম্মেদ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আব্দুল আলীম, বীরমুক্তিযোদ্ধা হামিদুর রহমান, জেলা পরিষদের সদস্য মফিজ উদ্দিন সহ বীরমুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ, হাজী মোকাদ্দেস হোসেন ফাউন্ডেশনের সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।