দৌলতপুরে ফেনসিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক 

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে ফেনসিডিলসহ আশরাফুল ইসলাম (৩৫) নামে এক মাদক ব্যবসায়ী আটক হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টার দিকে বৈরাগীরচর বাজারপাড়া এলাকার একটি বাড়ি থেকে ২০বোতল ফেনসিডিলসহ তাকে আটক করে পুলিশ। দৌলতপুর থানার ওসি এস এম আরিফুর রহমানের নির্দেশে দৌলতপুর থানা পুলিশ উপজেলার মরিচা ইউনিয়নের বৈরাগীরচর বাজারপাড়া এলাকার মাদক ব্যবসায়ী নাহারুল ইসলামের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ২০বোতল ফেনসিডিলসহ তাকে আটক করে। আটক মাদক ব্যবসায়ী আশরাফুল ইসলাম পাশর্^বতী ভেড়ামারা উপজেলার ১২দাগ এলাকার মৃত ইসমাইল হোসেনের ছেলে।

ঝিনাইদহে গুলিবিদ্ধ মাদকবিক্রেতা গ্রেফতার

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ॥ ঝিনাইদহের মহেশপুরে মনিরুল ইসলাম (৪২) নামে এক মাদকবিক্রেতাকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় গ্রেফতার করেছে জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। বুধবার রাতে উপজেলার যুগিহুদা মাঠ থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। মনিরুল একই উপজেলার ঘুগরিপান্তা পাড়া গ্রামের বাসিন্দা। জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন জানান, যুগিহুদা মাঠে মাদক নিয়ে মনিরুল অবস্থান করছেন এমন গোপন সংবাদে সেখানে অভিযান গেলে ধারালো অস্ত্র দিয়ে পুলিশকে আঘাত করার চেষ্টা করেন মনিরুল। আত্মরক্ষার্থে পুলিশ তখন তার পায়ে একটি গুলি করে এবং আহতাবস্থায় তাকে আটক করে প্রথমে মহেশপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মনিরুলের কাছ থেকে ৫০ বোতল ফেনসিডিল ও একটি ছুরি জব্দ করা হয়েছে। তার নামে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে বিভিন্ন থানায় ১০টি মামলা রয়েছে বলেও জানান ।

মোতালেব সভাপতি ॥ খাকছার সাধারন সম্পাদক

আইলচারা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কমিটি প্রকাশ

নিজ সংবাদ ॥কুষ্টিয়া সদর উপজেলার আইলচারা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কমিটি প্রকাশ করা হয়েছে। কমিটিতে পূর্বে নেতৃত্ব দেয়া নেতারাই নেতৃত্বে এসেছে। গত বুধবার কুষ্টিয়া সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও শহর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আতাউর রহমান আতা কমিটির প্রধানদের নাম প্রকাশ করেন। আইলচারা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কমিটিতে পূনরায় স্থান পেয়ে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন আইলচারা ইউনিয়ন পরিষদের  সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল মোতালেব হোসেন এবং সাধারন সম্পাদক হয়েছেন খাকছার জোয়ার্দ্দার। পরে পূর্নাঙ্গ কমিটি ঘোষনা করা হবে বলে জানা গেছে । তিন বছর মেয়াদি এই কমিটিতে পূনরায় স্থান পাওয়ায় সকল নেতা কর্মীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন দলের সাধারন সম্পাদক খাকছার জোয়ার্দ্দার। এই নেতা পর পর তিন তিনবারের মত আইলচারা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত হলেন।ি তনি বলেন, দলের দুর্দিনে এবং সুদিনে সব সময় দলের সাথেই আছি। তৃণমূল পর্যায়ের নেতা কর্মীদের ঐকান্তিক সহযোগিতায় আমি পূনরায় সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছি । আগামীতে দলকে আরো সুসংগঠিত করার জন্য তৃণমূল নেতা কর্মীদের সাথে নিয়ে ওতোপ্রতভাবে কাজ করে যাবো। এ জন্য তিনি সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন ।

গাংনী উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ ও আইন শৃংখলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত

গাংনী অফিস ॥ গাংনী উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ ও আইন শৃংখলা কমিটির মাসিক সভা উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে বৃহস্পতিবার সকাল  সাড়ে ১০টার সময় অনুষ্ঠিত হয়েছে। গাংনী উপজেলা নির্বাহী অফিসার দিলারা রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উপজেলা আইন শৃংখলা কমিটির সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন গাংনী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও মেহেরপুর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদকএমএ খালেক। বিশেষ অতিথি ছিলেন গাংনী থানার অফিসার ইনচার্জ ওবাইদুর রহমান, এমপির প্রতিনিধি গাংনী উপজেলা আ.লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হুদা বিশ্বাস, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান রাশেদুল ইসলাম জুয়েল, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফারহানা ইয়াসমিন, জেপি নেতা আব্দুল হালিম, কাথূলী কোম্পানী কমান্ডার প্রমুখ। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জেলা আ’লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক শহিদুল ইসলাম শাহ, গাংনী উপজেলার কাথুলী ইউয়িন পরিষদের  চেয়ারম্যান  মিজানুর রহমান রানা, মটমুড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান  সোহেল আহমেদ, রাইপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম সাকলায়েন ছেপু, সাহারবাটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম ফারুক, বামুন্দী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম বিশ্বাস ষোলটাকা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান মনি প্রমুখ।

বৃহত্তর কুষ্টিয়া জেলা মৎস্যজীবী লীগের নেতৃবৃন্দের সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত

আগামী ২৯ নভেম্বর বাংলাদেশ আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের জাতীয় সম্মেলন উপলক্ষে মৎস্যজীবী লীগের কুষ্টিয়া জেলা কার্যালয়ে বৃহত্তর কুষ্টিয়া জেলা মৎস্যজীবী লীগের নেতৃবৃন্দকে নিয়ে এক সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত জেলাগুলোর মধ্যে রয়েছে কুষ্টিয়া, মেহেরপুর, চুয়াডাঙ্গা ও ঝিনাইদহ। উক্ত সমন্বয় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও সম্মেলন অভ্যর্থনা উপ-কমিটির যুগ্ম আহবায়ক ইকবাল হাসান সপন। কুষ্টিয়া জেলা আহবায়ক মোঃ সাইদুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমন্বয় সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন মেহেরপুর জেলা আহবায়ক আবু আবির, চুয়াডাঙ্গা জেলা আহবায়ক শাহাবুল হক ও ঝিনাইদহ জেলা আহবায়ক আব্দুর রশিদ। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন মিরপুর উপজেলা আহবায়ক রফিকুল ইসলাম (ডালিম), কুষ্টিয়া সদর উপজেলা সভাপতি আকতার হোসেন, কুষ্টিয়া শহর আহবায়ক রিকো, দৌলতপুর উপজেলা আহবায়ক আনিচুর রহমান পল্টন, কুমারখালি উপজেলা আহবায়ক ইমরুল হক লিংকন, খোকসা উপজেলা আহবায়ক মোঃ গোলাম সরোয়ার ও যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল্লাহ আল মামুন। তাছাড়াও আরো উপস্থিত ছিলেন ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলা আহবায়ক রানা পারভেজ, হরিণাকুন্ডু উপজেলা আহবায়ক আব্দুস সালাম, মহেশপুর উপজেলা আহবায়ক মোঃ সবুজ, দৌলতপুর যুগ্ম আহবায়ক মনিরুল ইসলাম, কুমারখালী উপজেলা যুগ্ম আহবায়ক রাশেদুল ইসলাম ও জেলা কমিটির সদস্য মোঃ মিজানুর রহমান। উক্ত সমন্বয় সভা সঞ্চালনা করেন মোঃ খলিলুল্লাহ। উক্ত অনুষ্ঠানের বক্তারা আগামী ২৯ নভেম্বরের জাতীয় সম্মেলনকে সফল ও সার্থক করার জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহবান জানান। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

আমলা সদরপুর কিন্ডার গার্টেনে বিদায় সংবর্ধনা

আমলা অফিস ॥ কুষ্টিয়া মিরপুর উপজেলার আমলা সদরপুর কিন্ডার গার্টেনে পিএসসি পরীক্ষার্থীর বিদায় সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে বিদ্যালয় চত্বরে এ বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাসুম আল মাজী’র সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন আমলা সদরপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল গাফফার, জাহানারা মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এনামুল ইসলাম, আজমপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আ স ম পারভেজ, কিন্ডার গার্টেনের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য সাতারু আমিরুল ইসলাম, তৌহিদুজ্জামান, মিরপুর প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি কাঞ্চন কুমার হালদার, মনিরুল ইসলাম,  আমিরুল ইসলাম, সাইফুল ইসলাম, সমাজসেবক আশাদুল হক মিল্টন, সহকারী শিক্ষক আব্দুল কুদ্দুস, সাবিনা ইয়াসমিন, শাহানারা খাতুন, শারমিন আক্তার রজনী, শামসুল আলম মিরাজ, চামেলী খাতুন, ওজিফা খাতুন, বিলকিচ বানু, ফেরদৌসী বেগম, ফারহানা ইয়াসমিন, সোনিয়া খাতুন প্রমুখ। উল্লেখ্য এ বছর কিন্ডার গার্টেন থেকে ৩৯ জন শিক্ষার্থী পিএসসি পরীক্ষায় অংশ নেবে। এর মধ্যে ছাত্র ১৮ জন ও ছাত্রী ২১ জন।

সাগর-রুনি খুন: তদন্তের হাল জানাতে হাই কোর্টের নির্দেশ

ঢাকা অফিস ॥ সাংবাদিক দম্পতি সাগর-রুনি হত্যাকা- নিয়ে র‌্যাবের তদন্তে হতাশা প্রকাশের পর কাজের সর্বশেষ অবস্থা জানাতে নির্দেশ দিয়েছে হাই কোর্ট। আগামী বছরের ৪ মার্চের মধ্যে এই প্রতিবেদন দিতে হবে র‌্যাবকে। আলোচিত এই মামলায় নিম্ন আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলে র‌্যাবের ৬৯তম বারের মতো ব্যর্থতার দিন বৃহস্পতিবার উচ্চ আদালতের এই আদেশ এল। বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাই কোর্ট বেঞ্চ বৃহস্পতিবার এ আদেশ দেয়। একই সঙ্গে নিজের ক্ষেত্রে মামলা বাতিল চেয়ে আবেদনকারী আসামি মো. তানভীর রহমানের সম্পৃক্ততার বিষয়েও প্রতিবেদন চাওয়া হয়েছে। ৪ মার্চ এই প্রতিবেদনও দিতে হবে। ওই দিনই এই মামলা নিয়ে পরবর্তী আদেশ দেবে হাই কোর্ট। মাছরাঙা টেলিভিশনের বার্তা সম্পাদক সাগর সরওয়ার এবং এটিএন বাংলার জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক মেহেরুন রুনি ২০১২ সালের ১১ ফেব্র“য়ারি রাতে ঢাকার পশ্চিম রাজাবাজারে তাদের ভাড়া বাসায় খুন হন। পরদিন ভোরে তাদের ক্ষত-বিক্ষত মরদেহ উদ্ধার করা হয়। থানা পুলিশ ও ডিবির হাত ঘুরে ঘটনার দুই মাস পর র‌্যাব তদন্তের দায়িত্ব পায়। এরপর দফায় দফায় সময় নিলেও এখনও প্রতিবেদন দিতে পারেনি তারা, ফলে শুরু করা যায়নি বিচার। এর মধ্যে তানভীর উচ্চ আদালতে তার বিরুদ্ধে মামলা বাতিলে আবেদন করলে তার শুনানিতে র‌্যাবের তদন্ত নিয়ে গত সোমবার হতাশা প্রকাশ করেছিলেন বিচারকরা। বৃহস্পতিবারের আদেশে আদালত তানভীরকে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল না হওয়া পর্যন্ত নিম্ন আদালতে হাজিরা থেকে অব্যাহতি দিয়েছে।  আদালত বলেছে, দেশের সকল স্তরের মানুষের দৃঢ় প্রত্যাশা ছিল দ্রুততম সময়ের মধ্যে এই হত্যাকান্ডের তদন্ত সমাপ্ত করে হত্যার মোটিভ (প্রকৃত কারণ), প্রকৃত অপরাধীদের চিহ্নিত, গ্রেপ্তার ও বিচারের সম্মুখীন করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করা হবে।

কালুখালীতে স্বল্পমূল্যে চাউল বিতরণে সেরা ডিলার আলম চৌধুরী

কালুখালী প্রতিনিধি ॥ রাজবাড়ী জেলাধীন কালুখালীতে উপজেলার মধ্যে ৬নং মৃগী ইউপির ৪, ৫নং ওয়ার্ড ও ৬, ৮ নং ওয়ার্ডের আংশিক ৫০১জন স্বল্পমূল্য কার্ডধারীদের ডিলার হিসেবে অত্র ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আলিউজ্জামান চৌধুরী আলম সেরা ডিলার হিসেবে বিবেচিত হয়েছেন। তিনি হোগলাডাঙ্গী গ্রামের ঐতিহ্যবাহী পরিবার হাজী আব্দুস সাত্তারের দৌহিত্র ও মরহুম হাজী নুরুজ্জামান চৌধুরীর সুযোগ্য পুত্র। ২০১৬ সাল থেকে তিনি নিষ্ঠার সাথে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া খাদ্য বান্ধব কর্মসূচীর আওতায় এ স্বল্পমূল্যের চাউল শৃঙ্খলার সাথে বিতরণ করে মানুষের মাঝে ব্যপক সুনাম অর্জন করেছেন। দায়িত্ব পালনের ব্যাপারে তিনি এলাকাবাসীর সার্বিক সাহায্য সহযোগীতা কামনা করেন। যেন বাকি জীবন যে কোনো দায়িত্ব নিষ্ঠার সাথে পালন করতে পারেন। গতকাল বড় কলকলিয়া বাজারে চাউল বিতরণকালে সরেজমিনে গিয়ে জনসাধারণের মাঝে সঠিক মাপে চাউল বিতরণ করতে দেখা যায়। এসময় উপজেলা খাদ্য পরিদর্শন মহব্বতুন্নেছা, ট্যাগ অফিসার উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা মোঃ আব্দুর রাজ্জাক, স্থানীয় আফসার আলী মন্ডল, শহিদুল ইসলাম, আয়ুব আলীসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ প্রতিবন্ধী অসহায় পরিবারকে ঢেউটিন দিলেন গাংনীর ইউএনও দিলারা রহমান

গাংনী অফিস ॥ ‘মানুষ মানুষের জন্য’ এই মানবিক অমর বাণীতে উদ্বুদ্ধ হয়ে  গাংনী উপজেলার জোড়পুকুরিয়া গ্রামে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ প্রতিবন্ধী অসহায় পরিবারকে তাৎক্ষনিকভাবে ২ বান্ডিল ঢেউটিন ও নগদ ৬ হাজার টাকা প্রদান করলেন গাংনীর উপজেলা নির্বাহী অফিসার দিলারা রহমান। উপজেলা নির্বাহী অফিসার দিলারা রহমানের ব্যক্তিগত উদ্যোগে গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে ঢেউটিন প্রদান করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন গাংনী উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান রাশিদুল হক জুয়েল, গাংনী উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি আমিরুল ইসলাম অল্ডাম, গাংনী উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কার্যালয়ের অফিস স্টাফ  হাবিব ও দেলোয়ার হোসেন ও  বিধবা মনোয়ারা পরিবারের সদস্যরা। বিধবা মনোয়ারা খাতুন ও প্রতিবন্ধী নিলুফার  জোড়পুকুরিয়া গ্রামের মৃত আলতাফ হোসেনের মেয়ে। পরিবারের দুঃখ কষ্টের কথা ভেবে ইউএনও মনোয়ারা খাতুনকে বিধবা ভাতার কার্ড ও প্রতিবন্ধী নিলুফারকে প্রতিবন্ধী ভাতার কার্ড করে দেয়ার আশ্বাস প্রদান করেন। মাথাগোঁজার ঠাঁই পেয়ে প্রতিবন্ধী নিলুফারের পরিবার ইউএনও দিলারা রহমানকে কৃতজ্ঞতা ও দীঘায়ূ কামনা করেন।

॥ নাজীর আহ্মদ জীবন ॥

রাসুল (সাঃ) কে জানা ও ভালবাসা

হযরত মোহাম্মদ (সাঃ) এমন এক অপ্রতিদ্বন্দ্বী ও অদ্বিতীয় মহান সত্ত্বা যার কোন বিকল্প নেই, ছিল না ও হবে না। কেহ যদি মনে করে থাকেন যে, রাসূল কে আমি বই-কিতাব পড়ে ভালভাবে জেনেছি; এটা তার ভুল করা হবে। কারণ, রাসূল হলেন এমন একজন নবী ও রাসূল ও শ্রেষ্ঠ সৃষ্টি এবং মারিফাত এর জনক তাঁকে বই-কিতাব পড়ে কোন দিন জানা যাবে না তো বটেই; পৃথিবীর কোন নবী রাসূল ও ওলী তাঁকে পরিপূর্র্ণরুপে জানাও তাঁর রহস্য উদ্ঘাটিত করতে সক্ষম হবেন না। আর দ্বিতীয়তঃ তাঁকে ইব্রাহিমী দিয়ে ঢেকে রাখা হয়েছে। তৃতীয়তঃ সৌদী ওহাবিরা তাঁকে তাদের মত মানুষ ও মৃত যার কোন শক্তি নাই প্রচার করে থাকে।

রাসূল (সাঃ) বলেছেন, “জানো হে আবু বকর; আমার রহস্য এক আল্লাহ ছাড়া কেহ জানে না।” আরও বলেছেন, “আল্লাহর সাথে আমার এমন এক গোপন সম্পর্ক আছে, যেখানে কোন উচ্চস্তরের ফেরেশ্তা ও নবীর প্রবেশাধিকার নেই।” তাই বারো শরীফের মহান ইমাম শাহ সূফী মাস্উদ হেলাল (রঃ) বলেছিলেন, “মোহাম্মদ (সাঃ) যে কি তা যদি জানতে চাও তো, আল্লাহ ওলীকে জিজ্ঞাসা কর।” আল্লাহ্ বলেছেন; “যদি তুমি সৃষ্টি না হতে তাহলে; আমি আস্মান সমূহ করতাম না এবং আমার প্রভুত্ব প্রকাশ করতাম না।” (হাদীসে কুদসী) হযরত শেখ সাদী (রঃ) ও এ হাদীস বর্ণনা করেছেন ঃ বলেছেন, “হে রাসূল! আপনার সম্মান ও ইজ্জত বুঝে নেবার জন্য ‘লওলাকা’ বলাই যথেষ্ঠ। অর্থাৎ আল্লাহ তা’য়ালা বলেছিলেনÑহে হাবীব! আপনি যদি সৃষ্টি না হতেন তবে আমি কোন কিছুই সৃষ্টি করতাম না। আপনাকে সৃষ্টি করার কারণেই সমস্ত বিশ্ব জগত সৃষ্টি করেছি। পবিত্র কোরআনে-তাঁহা ও ইয়াসিন প্রভৃতি সূরা গুলো আপনার নাম যোগে আরম্ভ করার মাধ্যমে আপনার সর্বশ্রেষ্ঠ প্রশংসা জেনে নেবার জন্য যথেষ্ট।”

রাসূল (সাঃ কে পর্যবেক্ষন করার দু’টি দিক রয়েছেÑএকটি জাহেরী বা প্রকাশ্য অপরটি বাতেনী বা অপ্রকাশ্য। যে ব্যক্তি উভয় দিক হতে তাঁকে প্রত্যক্ষ করতে সক্ষম হবেন তাঁর তো আর কোন কিছুরই প্রয়োজন বাকি থাকবে না; কারণ তার নিকট দুইজন মোহাম্মদ (সাঃ) উদ্ভাসিত হবেÑএকজন জাহেরী মোহাম্মদ (সাঃ) অপরজন বাতেনী মোহাম্মদ (সাঃ)। তিনি  লাভ করবেন মোহাম্মদ (সাঃ) এর প্রতি দুইটি ঈমান, দুইটি দৃঢ় প্রত্যয়। এমন অবস্থায় পৌঁছালে তার হৃদয়ে হযরতের প্রতি যে ঈমান বা প্রত্যয় থাকবে তাতে কোন দিক হতে দূর্বলতা বা সন্দেহ স্পর্শ করতে পারবে না। মোহাম্মদ (সাঃ) কে জানতে ও ভালবাসতে যে বিষয়টা জরুরী তা হলো ঃ তাঁর জাতিসত্তা বাচক নাম মোহাম্মদ ও আহ্মদ এর মারিফাত জানা। অর্থাৎ “মিম’-হে ‘মিম’ দাল” এর হাকিকত মারিফাত মহব্বত ও সুগন্ধী জানা ও উপলব্ধি করা। তাঁর সাথে যোগাযোগ প্রতিষ্ঠিত হবার সৌভাগ্য নসীব হওয়া।

প্রেমিক কবি নজরুল কত সুন্দর বলেছেন Ñ “কহিলেন প্রভূ; ভয় নেই, দিনু আমার প্রিয়তম/তোমার মাঝারে জ্বলবে সে জ্যোতি তোমাতে আমারি সম।” এখানে কবি স্রষ্টা কর্তৃক বিশ্বে আদি মানব আদম (আঃ) সৃষ্টি এবং তার ভিতরে মোহাম্মদ (সাঃ) এর রূপ ও আলো প্রদানের কথা বলেছেন। “মোহাম্মদ” নামে কোন নুক্তা নেই; বিন্দু নেই দাগ নেই। “মোহাম্মদ” মানে বারবার প্রশংসা করেও যার প্রশংসা শেষ হবে না। আল্লাহ তাঁর প্রশংসা করেন, সমগ্র সৃষ্টি জগৎ যার প্রশংসা করে। আর এক নাম আহ্মদ। উর্দ্ধ জগতে এই নামে পরিচিত। ‘আহ্মদ’ মানে অধিক প্রশংসাকারী; অধিক এবাদতকারি। আল্লাহ জানাতে চাচ্ছেন আমার হাবীবের নামের মধ্যে যেমন বিন্দু নেই, দাগ নেই; ঠিক তেমনি তাঁর পবিত্র চরিত্রের মধ্যে কোন দাগ নেই; কলঙ্ক নেই। লা-ইলাহা ইল্লাল্লাহ বাক্যে  ১২টি অক্ষর; আবার মোহাম্মদুর রাসূলুল্লাহ লিখতে ও ১২টি অক্ষর। এ সকল অক্ষরের কোন নোক্তা নেই। এটাই মোহাম্মদ নামের গৌরব ও বৈশিষ্ট্য। মহান আল্লাহ বলেন ঃ আমার সম্মান ও পরাক্রমের শপথ, মোহাম্মদ নামে যারা নিজের নাম রাখবে তাদের আমি কোন রকম শাস্তি দেব না। আহমাদ নামে যারা নাম রাখবে তাদেরও শাস্তি দেয়া হবে না।” ইনাকে আমাদের ভালবাসতে হবে। আর কেনই বা ভালবাসবো না। তিনি যে, মোমেনদের জন্য দয়াপরবশও পরম দয়ালু। অর্থাৎ বিল মোমেনিনা ইয়া রাউফুর রাহীম (সূরাঃ তওবাহ) ইমাম (রঃ) এর কথায় “দয়ার সাগর।”

বারো শরীফের ওজিফা দরুদ শরীফ ভিত্তিক। কারণঃ বারো শরীফ স্বয়ং রাসূল (সাঃ) এর তরীকা। এটাই শেষ ও সর্বশ্রেষ্ট তরীকা। তাই; দরবারের সর্বশ্রেষ্ঠ অনুষ্ঠান ফাতেহা শরীফ বা ঈদে মিলাদুন্নবী। আল্লাহ চাহেত; বারো শরীফ হতেই প্রকাশিত হবেন, শেষ জামানার আধ্যাত্মিক মহানায়ক হযরত ইমাম মাহ্দী (আঃ)। আজকের এ পবিত্র দিনের সম্মানে একটি কবিতা ঃ

“এ মহামানবের এ মহা মিলন তীর্থে / আজ এ বাৎসরিক মহা মিলনের দিনে/ হে রাসূল! হে দয়ার সাগর/ আমরা এসেছি আপনারই দয়া প্রার্থী হয়ে/ পাপে তাপে জর্জরিত এ হৃদয়/ মুক্তির উপায় আপনি ছাড়া কেই নাই/ একদিকে সংসারের মায়া / অন্যদিকে নাফসের তাড়না/ বড় দুঃখজনক কষ্টকর/ আমরা আজকের এ অবস্থায় / এই নিয়ে এসেছি আপনার মহান দরবারে/ দয় ক্ষমার বড় আশা নিয়ে/ অন্ততঃ আজকের এ দিনের তরে যেন কেউ ফিরে না খালি হাতে/ হে দয়ার সাগর/ আপনার এ দয়ার দরবার হতে। আপনাদের প্রতি রইলো বারো শরীফ তথা মোহাম্মদী তরীকার দাওয়াত। আল্লাহ আমাদের দয়া করুন।

বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবসে কুষ্টিয়ায় র‌্যালী ও আলোচনা সভা

বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস উপলক্ষে কুষ্টিয়া ডায়াবেটিক সমিতি ও মুজিবুর রহমান মেমোরিয়াল ডায়াবেটিক হসপিটাল আয়োজনে কুষ্টিয়ায় বর্নাঢ্য র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় ডায়াবেটিক হসপিটাল চত্বর থেকে এক বর্নাঢ্য র‌্যালী বের করা হয়। র‌্যালীটি শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিন করে মুজিবুর রহমান মেমোরিয়াল ডায়াবেটিক হসপিটালে এসে  শেষ হয়। র‌্যালী শেষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। টেলিকনফারেন্সে মাধ্যমে অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন বঙ্গবন্ধু পরিষদের কেন্দ্রিয় সাধারণ সম্পাদক প্রধানমন্ত্রীর সাবেক রাজনৈতিক উপদেষ্টা ডা.এস এ মালেক এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি প্রফেসর ড.আআমস আরেফীন সিদ্দিক। কুষ্টিয়া ডায়াবেটিক সমিতির সভাপতি মতিউর রহমান লাল্টুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডাঃ এসএম মুসতানজিদ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন কুষ্টিয়া ডায়াবেটিক সমিতির যুগ্ম সম্পাদক মুশফিকুর রহমান টর্লিন। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যলয়ের ট্রুরিজম এন্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্টের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড.মাহবুব আরেফীন, কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজের সহযোগী অধ্যাপক ও মেডিসিন বিভাগীয় প্রধান ডাঃ সালেক মাসুদ, বঙ্গবন্ধু পরিষদ বগুরা জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ডাঃ এসএম মিল্লাত, মুজিবুর রহমান মেমোরিয়াল ডায়াবেটিক হসপিটালের সিনিয়র মেডিকেল অফিসার ডাঃ লাল মহম্মদ। এসময় উপস্থিত ছিলেন কুষ্টিয়া ডায়াবেটিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান, সহসভাপতি হাফিজুর রহমান কালটু, সদস্য এ্যাড. নজরুল ইসলাম সরকার, সদস্য নিলুফার রহমান এ্যানি প্রমুখ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন আফম নুরুল কাদের। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বলেন, আমাদেরকে সুস্থ সবলভাবে বেঁচে থাকতে হলে নিয়মিত ডায়াবেটিস আছে কি-না পরীক্ষা করতে হবে। ডায়াবেটিস হলে হতাশাগ্রস্থ হওয়া যাবে না, নিয়মতান্ত্রীক জীবন যাপন করতে হবে। তাহলেই আমরা সুস্থ সবল থাকতে পারব। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

মিরপুরে দেড় হাজার কৃষক পাচ্ছেন বিনামুল্যে সার-বীজ

আমলা অফিস ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুরে প্রায় দেড় হাজার কৃষক/কৃষানীকে বিনামুল্যে সার ও বীজ বিতরণের শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলা কৃষি অফিস চত্ত্বরে এ সার-বীজ বিতরণ কর্মসূচির শুভ উদ্বোধন করেন মিরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক কামারুল আরেফিন। এসময় উপস্থিত ছিলেন মিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লিংকন বিশ্বাস, কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ রমেশ চন্দ্র ঘোষ, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আবুল কাশেম জোয়ার্দ্দার, মিরপুর পৌর মেয়র এনামুল হক, ধুবাইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহাবুর রহমান মামুনসহ কৃষি অফিসের কর্মকর্তা কর্মচারী বৃন্দ। উদ্বোধন কালে কামারুল আরেফিন বলেন, বর্তমান সরকার কৃষকের পাশে রয়েছে। কৃষকদের পণ্যের ন্যায্য মুল্যে দিচ্ছে। বর্তমানে কৃষকরা সরাসরি সরকারের কাছে ধান বিক্রয় করছে। এছাড়া কৃষি’র উপরে সরকার নানা প্রনোদনার মধ্যদিয়ে কৃষকদের উৎসাহিত করছে। বিনামুল্যে সার-বীজ বিতরণ করছেন। মিরপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ রমেশ চন্দ্র ঘোষ জানান, ২০১৯-২০ অর্থবছরের রবি মৌসুমে কৃষি প্রণোদনার আওতায় মিরপুর উপজেলায় ৯৮০ জন কৃষককে ভুট্টা বীজ ও রাসয়নিক সার দেওয়া হবে। যেখানে প্রতিজন কৃষক ১ বিঘা জমিতে ভূট্টা চাষের জন্য ২ কেজি বীজ, ২০ কেজি ডিএপি সার, ১০ কেজি এমওপি সার পাবেন। ২৮০ জন কৃষককে সরিষা বীজ ও রাসয়নিক সার দেওয়া হবে যেখানে প্রতিজন কৃষক ১ বিঘা জমিতে সরিষা আবাদের জন্য ১ কেজি সরিষা বীজ ২০ কেজি ডিএপি, ১০ কেজি এমওপি সার পাবেন। ১৫ জন কৃষককে পেঁয়াজ বীজ ও রাসয়নিক সার দেওয়া হবে যেখানে প্রতিজন কৃষক ১ বিঘা জমিতে পেঁয়াজ আবাদের জন্য ১ কেজি পেঁয়াজ বীজ ২০ কেজি ডিএপি, ১০ কেজি এমওপি সার পাবেন। ১০০ জন কৃষককে শীতকালীন মুগ বীজ ও রাসয়নিক সার দেওয়া হবে যেখানে প্রতিজন কৃষক ১ বিঘা জমিতে শীতকালীন মুগ আবাদের জন্য ৫ কেজি শীতকালীন মুগের বীজ ১০ কেজি ডিএপি, ১০ কেজি এমওপি সার পাবেন। পরবর্তী খরিপ-১/২০১৯-২০ মৌসুমে ২৫ জন কৃষককে গ্রীষ্মকালীন তিল বীজ ও রাসয়নিক সার  দেওয়া হবে যেখানে প্রতিজন কৃষক ১ বিঘা জমিতে গ্রীষ্মকালীন তিল আবাদের জন্য ১ কেজি তিল বীজ ২০ কেজি ডিএপি, ১০ কেজি এমওপি সার পাবেন। ২০ জন কৃষককে গ্রীষ্মকালীন মুগ বীজ ও রাসয়নিক সার দেওয়া হবে যেখানে প্রতিজন কৃষক ১ বিঘা জমিতে গ্রীষ্মকালীন মুগ আবাদের জন্য ৫ কেজি মুগ বীজ ১০ কেজি ডিএপি, ১০ কেজি এমওপি সার পাবেন।

নব-নির্বাচিত শহর আ’লীগ সাধারন সম্পাদক আতাকে ফুলেল শুভেচ্ছা অব্যাহত

কুষ্টিয়া শহর আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আতা সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ায় তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়েছেন কুষ্টিয়া শহর যুবলীগের সাবেক যুগ্ম-আহবায়ক জেড.এম সম্রাট। এ সময় উপস্থিত ছিলেন কুষ্টিয়া জেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম লিংকন,  জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক টুটুল, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক আশিক অনিক, যুবলীগ নেতা দ্বীন ইসলাম রাসেল, মুসফিকুর রহিম, আতিয়ার রহমান, তৌশিক আহমেদ ও শরীফ বিপুল। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

‘যাচাই’ ছাড়া সংবাদ প্রকাশ না করতে বলল স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়

ঢাকা অফিস ॥ গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি, রাজনীতিক, ব্যবসায়ী ও সরকারি কর্মকর্তাদের নিয়ে ‘বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক’ সংবাদ প্রকাশের জন্য গণবিজ্ঞপ্তি জারি করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। বৃহস্পতিবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এই গণবিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, “স্পর্শকাতর বিষয়ে যথাযথভাবে যাচাইপূর্বক বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ পরিবেশনের জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে।” প্রিন্ট, ইলেক্ট্রনিক, অনলাইন সংবাদপত্রের পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ও রাজনৈতিক ব্যক্তি, ব্যবসায়ী, সরকারি কর্মকর্তা ও প্রতিষ্ঠানের বিষয়ে বিভিন্ন ‘বিভ্রান্তিমূলক সংবাদ’ দেখে এই গণবিজ্ঞপ্তি এসেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের। এতে বলা হয়, “যার ফলে জনশৃঙ্খলার অবনতি, ব্যক্তিগত সুনাম ক্ষুণ্ন ও সামাজিক অস্থিরতা সৃষ্টিসহ জনমনে বিভ্রান্তি তৈরি হচ্ছে।” জনশৃঙ্খলার অবনতি ও সামাজিক অস্থিরতা রোধে গণমাধ্যমের ‘ইতিবাচক ভূমিকার’ প্রতি সরকার যথেষ্ট আস্থাশীল বলেও বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়। বিষয়টি নিয়ে জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা শরীফ মাহমুদ অপু বলেন, “কিছু নামমাত্র অনলাইন পোর্টাল মানুষের চরিত্র হনন করে আজেবাজে নিউজ করছে, আর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও সেইসব খবর ছড়াচ্ছে। এসব বিষয় রোধ করার জন্যই এই গণবিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়েছে।”

জামিনের জন্য আপিল বিভাগে খালেদার আবেদন

ঢাকা অফিস ॥ জিয়া দাতব্য ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় দন্ডিত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া এবার আপিল বিভাগে জামিন চেয়ে আবেদন করেছেন। হাই কোর্টের খারিজ আদেশের বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার আপিল বিভাগের সংশ্লিষ্ট শাখায় আপিলে করেন বিএনপি চেয়ারপারসনের আইনজীবী কায়সার কামাল। পরে খালেদা জিয়ার আইনজীবী কায়সার কামাল বলেন, “এ মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসনের জামিন আবেদন হাই কোর্ট খারিজ করেছিল। সে আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করে জামিন চাওয়া হয়েছে। আগামী সপ্তাহে আপিল বিভাগের চেম্বার আদালতে শুনানির জন্য উপস্থাপন করা হবে।” অপরাধের গুরুত্ব, সংশ্লিষ্ট আইনের সর্বোচ্চ সাজা এবং বিচারিক আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে খালেদাসহ অন্য আসামিদের করা আপিল শুনানির জন্য প্রস্তুত- এ তিন বিবেচনায় বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি এস এম কুদ্দুস জামানের হাই কোর্ট বেঞ্চ গত ৩১ জুলাই খালেদা জিয়ার জামিনের আবেদনটি খারিজ করে দেয়। এর আগে টানা দুই দিন শুনানি করেন খালেদা জিয়া, রাষ্ট্রপক্ষ ও দুদকের আইনজীবীরা। এটিসহ জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় দন্ডিত খালেদা জিয়া বর্তমানে কারা হেফাজতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। সুচিকিৎসার জন্য তার জামিনে মুক্তির দাবি জানিয়েছে আসছে বিএনপি। দুটি মামলায় রায় হওয়ার পর খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে আরও অন্তত ৩৪টি মামলা রয়েছে বলে তার আইনজীবীরা জানিয়েছেন। এর মধ্যে নাইকো মামলা, গ্যাটকো মামলা, বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি মামলার বিচার চলছে। এগুলো দুর্নীতি ও ক্ষমতার অপব্যবহার সংক্রান্ত। বাকি মামলাগুলো রাষ্ট্রবিরোধী ও অপরাধজনিত মামলা। যানবাহনের আগুন দিয়ে মানুষ হত্যা, সহিংসতা, নাশকতা, ভুয়া জন্মদিন পালন ও মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে কটূক্তির অভিযোগ সংক্রান্ত মামলা। এর মধ্যে ২৬টি মামলা হয়েছে ঢাকায়। এছাড়া কুমিল্লায় তিনটি, পঞ্চগড় ও নড়াইলে একটি করে মামলা রয়েছে।

 

জাসদ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা সাহাবুব আলী’র ইন্তেকাল

নিজ সংবাদ ॥ মহান মুক্তিযুদ্ধে বৃহত্তর কুষ্টিয়া জেলার অন্যতম সংগঠক বীর মুক্তিযোদ্ধা, শিক্ষাবিদ, জাসদ নেতা, নিভৃতচারী সজ্জন ব্যক্তি সাহাবুব আলী (৬৫) ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহী…..রাজিউন)। গতকাল বৃহষ্পতিবার সকাল ১০টায় চৌড়হাস টার্মিনালের সামনে তাঁর নিজ বাসভবনে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দুই পুত্রসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে যান।

গতকাল দুপুর আড়াইটায় শহরতলী চৌড়হাস গ্রামে মরহুমের পৈত্রিক ভিটায় ১ম জানাযা শেষে কুষ্টিয়া মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলের উদ্যোগে কুষ্টিয়া ইসলামিয়া কলেজ মাঠে বিকেল সাড়ে ৪টায় নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোসাদ্দেক হোসেন ও মুক্তিযোদ্ধাদের উপস্থিতিতে আইন শৃংখলা বাহিনী গার্ড অব অনার প্রদান শেষে সেখানে ২য় জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। পরে বাদ এশা কুষ্টিয়া বড় মসজিদের ৩য় জানাযা শেষে কুষ্টিয়া পৌর গোরস্থানের মুক্তিযোদ্ধা চত্বরে তাঁর দাফন সম্পন্ন হয়। আজ শুক্রবার বিকেল ৪টায় চৌড়হাস টার্মিনালের সামনে তাঁর নিজ বাস ভবনে মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনায় কুলখানী অনুষ্ঠিত হবে বলে নিশ্চিত করেন তার পরিবার। কুষ্টিয়া জেলার এই বীর যোদ্ধার তড়িৎ বিদায়ে শোকের ছায়া নেমে আসে তার পরিবার, আত্মীয়-স্বজন, দল জাসদ, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও কমান্ড কাউন্সিলসহ বিভিন্ন সংগঠন ও প্রতিষ্ঠানে। অত্যন্ত মর্যাদাবোধ সম্পন্ন আত্মত্যাগী এই বীর যোদ্ধা ব্যক্তিগত জীবনে পেশা হিসেবে বেছে নিয়েছিলেন মানুষ গড়ার কারিগর শিক্ষকতা। তিনি ২০১৬ সালে খাদিমপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে অবসরে যান। মুক্তিযোদ্ধা ভাতা না নেয়া নির্লোভ সজ্জন এই যোদ্ধার আকস্মিক মৃত্যু স্তম্ভিত করেছে সকলকে। বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম সাহাবুব আলীর অন্যতম সহযোদ্ধা ও ঘনিষ্ট সহচর মহান মুক্তিযুদ্ধের মুহুর্তে কুষ্টিয়ায় প্রথম স্বাধীন বাংলার পতাকা উত্তোলনকারী ছাত্রনেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা এ্যাড. আব্দুল জলিল শ্রদ্ধাঞ্জলী দেয়ার সময় শোক কাতর কন্ঠে বলেন, ছাত্র জীবন থেকেই সাহাবুব স্বপ্ন দেখেছিলেন বৈষম্যহীন শোষনমুক্ত সমাজ বির্নিমানের। সেই থেকে লালিত স্বপ্ন পূরণেও আত্ম প্রত্যয়ী লড়াকু সৈনিক হিসেবে আবির্ভুত হয়েছিলেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগে। হানাদার পাক শাসনের মূলোৎপাটনে সংগঠিত জাগড়িত বাঙালীর মুক্তি সংগ্রামেও তিনি আত্মোৎসর্গী প্রানে এগিয়ে যান দৃঢ়তার সাথে। যুদ্ধকালীন সময়ে তার বীরত্বগাথা ইতিহাস দীর্ঘতর। আজীবন শোষনমুক্তির সংগ্রামে অবিচল এই বীর যোদ্ধার নীতি আদর্শ প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে বিকশিত হোক। বীরমুক্তি যোদ্ধা সাহাবুব আলীর প্রতি শ্রদ্ধা ও সম্মান জানিয়ে ফুল দেন- রাষ্ট্রীয়ভাবে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও আইন শৃংখলা বাহিনী, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও কমান্ড কাউন্সিল, জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটি ও জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনুর পক্ষ থেকে কেন্দ্রীয় জাসদের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আলীম স্বপন, কুষ্টিয়া জেলা ও উপজেলা জাসদের নেতৃবৃন্দ, বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টি কুষ্টিয়া জেলা, বাসদ, রবিন্দ্র মৈত্রী বিশ^বিদ্যালয়, উদিচী কুষ্টিয়া, চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্র, সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট, তার স্কুল খাদিমপুর মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়, কাজী আরেফ সংসদ, কুষ্টিয়া জেলা আইজীবি সমিতি, সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন কুষ্টিয়া, মিরপুর মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডসহ বিভিন্ন সংগঠন।

 

দৌলতপুরে ফিলিপনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে ফিলিপনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলার ফিলিপনগর পিএসএস মাধ্যমিক বিদ্যালয় চত্বরে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সদর উদ্দিন খান। সম্মেলন উদ্বোধন করেন দৌলতপুর আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রবীন আওয়ামী লীগ নেতা সাবেক এমপি আফাজ উদ্দিন আহমেদ। প্রধান বক্তা ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আজগর আলী। বিশেষ অতিথি ছিলেন কুষ্টিয়া-১ দৌলতপুর আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড. আ, কা, ম সরওয়ার জাহান বাদশা, সাবেক এমপি আলহাজ¦ রেজাউল হক চৌধুরী, প্রকৌশলী ফারুকুজ্জামান। ফিলিপনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হায়দার আলীর সভাপতিত্বে সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন প্রজন্মলীগ নেতা আসমত আলী মাষ্টার, ফিলিপনগর ইউপি চেয়ারম্যান একেএম ফজলুল হক কবিরাজ, মাহবুব মাষ্টার, মামুন কবিরাজ, ওরুশ কবিরাজসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ। সম্মেলন পরিচালনা করেন দৌলতপুর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. শরীফ উদ্দিন রিমন। বিকেল থেকে রাত পর্যন্ত চললেও সম্মেলন থেকে ইউনিয়ন কমিটির নাম ঘোষনা হয়নি। সম্মেলন স্থলে বাদ্য বাজিয়ে বিপুল সংখ্যক নেতা-কর্মী অংশ নেয়। জাতীয় সংগীতের মধ্যদিয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। এরপর পবিত্র কোরআন তেলোয়াতের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে সম্মেলন শুরু হলে বক্তব্য রাখেন নেতৃবৃন্দ।

ভেড়ামারায় বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস উপলক্ষ্যে র‌্যালী, আলোচনা সভা, চক্ষু শিবির ও মেডিকেল ক্যাম্প

আল-মাহাদী ॥ জাসদ সভাপতি ও সাবেক তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু এমপি বলেছেন, সরকার যখন জঙ্গী দমন করে তখন বিএনপি জঙ্গীর পক্ষ নেয়। শেখ হাসিনার শুদ্ধি অভিযানে দুর্নীতিবাজরা যখন পালাচ্ছে, ধরা পড়ছে তখন বিএনপির দুর্নীতিবাজ সাজা প্রাপ্ত বেগম খালেদা জিয়া ও তারেকের মুক্তি আন্দোলন করছে। শেখ হাসিনার শুদ্ধি অভিযানে দুর্নীতিবাজদের দমন করছে আর বিএনপি দুর্নীতিবাজ খালেদা জিয়া-তারেকের মুক্তি আন্দোলনের হুমকি দিচ্ছে এটা জাতির সঙ্গে রাজনীতির সঙ্গে ঠাট্টা। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার সময় কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা ডায়াবেটিক সমিতির উদ্যোগে বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস উপলক্ষ্যে সুধী সমাবেশে যোগদান করার আগে সাংবাদিকদের একথা বলেন। ভেড়ামারা ডায়াবেটিক সমিতির উদ্যোগে র‌্যালী, আলোচনা সভা, চক্ষু শিবির ও মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ভেড়ামারা ডায়াবেটিক সমিতির সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহেল মারুফ। প্রধান অতিথি ছিলেন সাবেক তথ্যমন্ত্রী ও জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু এমপি। বিশেষ অতিথি ছিলেন জাসদ কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আলীম স্বপন, ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ নুরুল আমিন, ভেড়ামারা থানার ওসি (তদন্ত) শুম্ভ প্রথম দাস, ভেড়ামারা উপজেলা জাসদের সভাপতি এমদাদুল ইসরাম আতা, সাধারন সম্পাদক এস এম আনছার আলী, ভেড়ামারা ডায়াবেটিক সমিতির সহ-সভাপতি আ ফ ম নজিবুদ্দৌলা খাঁন, সাধারন সম্পাদক ড. অমরেন্দ্র নাথ বিশ্বাস, আঃ রাজ্জাক, কৈলাস পন্ডিত প্রমূুখ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন ভেড়ামারা ডায়াবেটিক সমিতির যুগ্ন সম্পাদক আমিনুর রহমান। হাসানুল হক ইনু এমপি আরো বলেন, সুস্থ জাতি গড়তে ভাল স্বাস্থ্য ব্যবস্থা দরকার, ভাল পুষ্টি দরকার, পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা দরকার। তেমনি সুস্থ সমাজ রাষ্ট্র ব্যবস্থার জন্য দুর্নীতি দলবাজী সন্ত্রাস বৈষম্য দমন দরকার। দুর্নীতি নিয়ে যারা সোচ্চার ছিল তারা শেখ হাসিনার শুদ্ধি অভিযান প্রসঙ্গে নীরব হয়ে আছে। শুদ্ধি অভিযানের প্রশংসা না করে রহস্যজনক নীরবতা চক্রান্তের আলামত।

 

কুষ্টিয়া পৌরসভার আয়োজনে বিশ নগর পরিকল্পনা দিবস উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা

বিশ^ নগর পরিকল্পনা দিবস উপলক্ষে কুষ্টিয়া পৌরসভায় পরিচালিত প্রান্তীক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন প্রকল্পের সহযোগিতায় র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে পৌরসভার বিজয় উল্লাস চত্তর হতে র‌্যালীটি বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে পৌরসভায় এসে শেষ হয়। র‌্যালীটির নেতৃত্ব দেন  পৌরসভার জননন্দিত মেয়র আনোয়ার আলী। পরে মেয়র আনোয়ার আলী’র সভাপতিত্বে পৌরসভা অডিটোরিয়ামে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভাপতির বক্তব্যে মেয়র আনোয়ার আলী বলেন, সময় মত কর দিয়ে পৌরসভার উন্নয়নে অংশগ্রহন করুন। তিনি আরো বলেন, পরিকল্পিত নগর গড়তে হলে নগরবাসীকে অবশ্যই পৌর আইন মেনে আবাসিক ও বাণিজ্যিক নির্মাণ কাজ করতে হবে। এছাড়াও জলবায়ু ও জেন্ডার আর প্রতিবন্ধিদের সহনীয় টেকসই নগর পরিকল্পনা তৈরি করে এই পরিকল্পনামত  কাজ করতে হবে। তিনি আরোও বলেন, দরিদ্রমুক্ত নগর গড়ার জন্য কুষ্টিয়া পৌরসভা বহুমুখি পদক্ষেপ গ্রহন করেছে। এজন্য লেখাপড়ার পাশাপাশি হাতের কাজের কোন বিকল্প নেই। সেই কাজটি কুষ্টিয়া পৌরসভা করে যাচ্ছে। এজন্য পৌরবাসীর সহযোগীতা কামনা করেন। এসময় বক্তব্য রাখেন কুষ্টিয়া পৌরসভার প্যানেল অব মেয়র-১ মতিয়ার রহমান মজনু, নির্বাহী প্রকৌশলী রবিউল ইসলাম, পৌরসভা পরিচালিত আরবান প্রাইমারী হেলথ কেয়ার প্রকল্পের প্রকল্প ব্যবস্থাপক রাহেলা পারভীন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন প্রান্তীক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন  প্রকল্পের টাউন ম্যানেজার সেলিম মোড়ল, প্রান্তীক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন  প্রকল্পের হাউজিং এন্ড ইনফ্যাসট্রাকচার এন্ড এক্সপার্ট ঈমাম হোসেন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনায় করেন এই প্রকল্পের কর্মকর্তা কহিনুর খান। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন পৌরসভার কাউন্সিলরবৃন্দ সহ  পৌরসভা ও পৌরসভায় পরিচালিত বিভিন্ন প্রকল্পের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ এবং সিসির নেতৃবৃন্দ। উল্লেখ্য গত ০৮-১১-১৯ ইং তারিখে বিশ^নগর পরিকল্পনা দিবস উদযাপন উপলক্ষে এই আয়োজন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

উল্লাপাড়ায় ট্রেন লাইনচ্যুত, ৪ বগিতে অগ্নিকান্ড

ঢাকা অফিস ॥ সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় ঢাকা থেকে রংপুরগামী রংপুর এক্সপ্রেসের ৮টি বগি লাইনচ্যুত হয়ে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার দুপুর ৩ টার দিকে উল্লাপাড়া স্টেশনে ঢোকার মুখে এ দুর্ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, ৫ টি বগিতে আগুন লেগেছে, এর মধ্যে পুড়ে গেছে ৪ টি বগি। এ দুর্ঘটনায় তাৎক্ষণিকভাবে কোনো প্রাণহানির খবর না পাওয়া গেলেও বহু হতাহতের আশঙ্কা করা হচ্ছে। উল্লাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আরিফুজ্জামান এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত বলেন, উল্লাপাড়া স্টেশনে পয়েন্টিং সিগন্যালের ভুলের কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। ৫ থেকে ৬ জন আহত হয়েছেন। তাদেরকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনায় ১৬ জন নিহতের পর আরও একটি দুর্ঘটনা।

 সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে ওবায়দুল কাদের

বিএনপি একটি ব্যর্থ রাজনৈতিক দল 

ঢাকা অফিস ॥ আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপির রাজনীতি এখন কথা মালার রাজনীতিতে পরিণত হয়েছে।বিএনপিকে একটি ব্যর্থ রাজনৈতিক দল হিসাবে অভিহিত করে তিনি বলেন, এ দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমঙ্গীর একজন ব্যর্থ রাজনীতিক। তাদের নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া কারাগারে। খালেদার মুক্তির জন্য একটি আন্দোলনও তারা করতে পারেনি। দলে ভাঙ্গন ধরেছে।সেতুমন্ত্রী গতকাল বৃহস্পতিবার ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলনের জন্য তৈরি মঞ্চ পরিদর্শন করতে গিয়ে এ কথা বলেন।ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে বলেন, স্বেচ্ছাসেবক লীগ এবং আওয়ামী যুবলীগের নের্তৃত্ব ঠিক করবেন কাউন্সিলররা। তাছাড়া আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রয়েছেন। তিনি জানেন কাকে কোন দায়িত্ব দিতে হবে।সেতুমন্ত্রী আরও বলেন, আওয়ামী লীগের দলীয় প্রতীক নৌকায় নির্মিত মঞ্চে স্বেচ্ছাসেবক লীগ, যুবলীগ এবং আওয়ামী লীগের সম্মেলন হবে।এ সময় আওয়ামী লীগ সভাপতিমন্ডলীর সদস্য কাজী জাফর উল্লাহ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক আফম বাহাউদ্দিন নাছিম, আওয়ামী লীগ নেতা ইঞ্জিনিয়ার আব্দুস সবুর, অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, মির্জা আজম, আনোয়ার হোসেন, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক নির্মল রঞ্জন গুহ, সহ-সভাপতি মতিউর রহমান মতি প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।