গাংনী ইউএনও’র লুৎফুন্নেছা মাধ্যমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন

গাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার লুৎফুন্নেছা (গোপালনগর) মাধ্যমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) দিলারা রহমান। গতকাল মঙ্গলবার তিনি আকস্মিক বিদ্যালয় পরিদর্শন করেন। পরিদর্শনকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিক্ষার মান উন্নয়নে দিক নির্দেশকমূলক বক্তব্য প্রদান করেন। এ সময় বাল্যবিবাহের ভয়াবহতার বিষয়গুলো তুলে ধরেন।

কালুখালীতে জলাশয়ের তীরবর্তী স্থানে বৃক্ষরোপন

ফজলুল হক ॥ রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার রতনদিয়া, কালিকাপুর, বোয়ালিয়া ও মদাপুর ইউনিয়নে জলাশয় সংস্কারের মাধ্যমে মৎস্য উৎপাদন বৃদ্ধি প্রকল্পের আওতায় ১৪টি জলাশয়ের তীরবর্তী স্থানে ৬২২টি চারা রোপণ করা হয়েছে। এতে মেহগনি, নারিকেল, আম ও পেয়ারার চারা রোপন শুভ উদ্বোধন করেন কালুখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) শেখ নুরুল আলম। এসময় উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ আব্দুস সালাম, কালিকাপুর ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ আতিউর রহমান নবাব এছাড়াও সহকারী মৎস্য কর্মকর্তা শাহরিয়ার জামান সাবু, লিফ আশরাফ সিদ্দিকী বাচ্চু, আব্দুল মতিন ও সুফলভোগী সহ এলাকার সূধীজন উপস্থিত ছিলেন।

দৌলতপুর সীমান্তে মাদক উদ্ধার

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুর সীমান্তে বিজিবি’র পৃথক অভিযানে ৪৮ বোতল ভারতীয় মদ উদ্ধার হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুর সোয়া ১টার দিকে চরচিলমারী বিওপি’র টহল দল ডিগ্রিরচরে অভিযান চালিয়ে ২৮ বোতল এবং সোমবার রাত সাড়ে ৭টার দিকে বিলগাথুয়া বিওপি’র টহল বিলগাথুয়া পশ্চিম মাঠে অভিযান চালিয়ে ২০ বোতলসহ মোট ৪৮ বোতল মদ উদ্ধার করেছে। তবে উদ্ধার হওয়া মদের সাথে জড়িত কেউ আটক হয়নি।

খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য রিপোর্ট প্রকাশ করা হচ্ছে না – ফখরুল

ঢাকা অফিস ॥ বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, দলীয় চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার অঙ্গ-প্রত্যঙ্গগুলো পঙ্গু হয়ে যাচ্ছে। খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের সঠিক তথ্য প্রকাশ করা হচ্ছে না। অথচ সরকারের মদদপুষ্ট হাসপাতালের ডাইরেক্টর বলেন, তিনি আগের চাইতেও সুস্থ। দেশনেত্রীর স্বাস্থ্য নিয়ে এই মিথ্যা ব্যাখ্যা দেয়ার জন্য বিচার হওয়া উচিত। মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ আয়োজিত মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। মির্জা ফখরুল বলেন, খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য নিয়ে যে রিপোর্ট দিয়েছেন তা প্রকাশ করা হচ্ছে না। আমরা এখান থেকে স্পষ্ট ভাবে বেগম জিয়ার স্বাস্থ্যের সঠিক তথ্য প্রকাশ করার দাবি জানাচ্ছি। সরকার জনগণের কাছ থেকে বিচ্ছিন্ন সম্পূর্ণ। প্রত্যেকটি পণ্যের দাম জনগণের ক্রয় ক্ষমতার বাইরে চলে গেছে। মানুষ চাল কিনে খেতে পারছে না। অথচ গ্রামে যান কৃষকরা বলবে আমরা ধানের দাম পাচ্ছিনা ৩০০ টাকা ৪০০ টাকা। অথচ চাল কিন্তু ৫০ টাকা ৬০ টাকার নিচে নাই। প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফর সম্পর্কে মির্জা ফখরুল বলেন, প্রধানমন্ত্রী ঢাকঢোল পিটিয়ে ভারত সফরে গেলেন আমরা আশা করেছিলাম সেখানে আমাদের তিস্তা নিয়ে চুক্তিগুলো সম্পন্ন হবে এবং আমরা আমাদের ন্যায্য হিস্যা পাব। কিন্তু তিস্তা নদীর এক ফোঁটা পানি চুক্তি হয়নি অথচ অন্যদিকে আমার ফেনী নদীর পানি তাদেরকে দেয়ার জন্য চুক্তি করে আসা হয়েছে। আজকে গ্যাস আমদানি করে আগরতলাতে পাঠানো হচ্ছে অর্থাৎ আমদানি করে রপ্তানি করা হচ্ছে। জনগণ এত বোকা নয় যে তা বুঝতে পারবে না। ব্রাক্ষণবাড়িয়ায় রেল দূর্ঘটনার কথা উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, আমরা দুর্ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করছি যারা আহত এবং নিহত হয়েছেন সেই সমস্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাই। ব্যর্থ সরকার কোন কিছুই নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে না। এর আগেও আমরা বহুবার দেখেছি রেল দুর্ঘটনা ঘটেছে। সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদের ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক শওকত মাহমুদের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে আরো বক্তব্য দেন, বিএনপি’র ভাইস চেয়ারম্যান ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ফজলুর রহমান, আব্দুল কুদ্দুস, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি রুহুল আমিন গাজী, সাধারণ সম্পাদক এম আবদুল্লাহ, বিএনপির সহ প্রচার সম্পাদক কৃষিবিদ শামীমুর রহমান শামীম, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম প্রমুখ।

শহর আওয়ামী লীগের সম্মেলনে ময়েন উদ্দিনের নেতৃত্বে বিশাল মিছিল

গতকাল মঙ্গলবার ইসলামিয়া কলেজ মাঠে কুষ্টিয়া শহর আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। আর এই সম্মেলন ১৬ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও আগামী কমিটির সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী সমাজসেবক ময়েন উদ্দিনের নেতৃত্বে এক বিশাল মিছিল সম্মেলন স্থলে যোগ  দেয়। সম্মেলন শুরুতে আওয়ামী লীগ নেতা ময়েন উদ্দিনের অফিস মঙ্গলবাড়ীয়া থেকে এক বিশাল মিছিল আতাউর রহমান আতা ভাইকে পুনরায় শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দেখতে চাই এই  ¯ে¬াগানে মিছিলটি সম্মেলনে যোগ দেয়। এ বিষয়ে আওয়ামী লীগ নেতা ময়েন উদ্দিন বলেন- শহর আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনকে সফল ও সার্থক করতে আমার নেতৃত্বে একটি বিশাল মিছিল সম্মেলনস্থলে উপস্থিত হয় । আমি কুষ্টিয়া শহর আওয়ামী লীগের নবগঠিত কমিটির পুনরায় নির্বাচিত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা তাইজাল আলী খান ও সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান আতাকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাচ্ছি। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

সাতটি বিদ্যুৎকেন্দ্র উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

ঢাকা অফিস ॥ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সারাদেশের আরও ২৩টি উপজেলা শতভাগ বিদ্যুতায়নের আওতায় আনতে আজ বুধবার সাতটি বিদ্যুৎ কেন্দ্রের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন। বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (বিপিডিবি) সূত্র জানায়, প্রধানমন্ত্রী সকাল ১০টায় তাঁর সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সাতটি বিদ্যুৎকেন্দ্রের উদ্বোধন করবেন। বিপিডিবি পরিচালক (জনসংযোগ) সাইফুল হাসান চৌধুরী বলেন, সাতটি বিদ্যুৎকেন্দ্র হলো ৩০০ মেগাওয়াটের আনোয়ারা পাওয়ারপ্লান্ট, ১১৩ মেগাওয়াট রংপুর পাওয়ারপ্লান্ট, ১১০ মেগাওয়াটের কর্ণফুলী পাওয়ারপ্লান্ট, ১০৫ মেগাওয়াটের শিকলবাহা বিদ্যুৎকেন্দ্র, ৫৪ মেগাওয়াটের পটিয়া পাওয়ারপ্লান্ট, ৮ মেগাওয়াটের তেঁতুলিয়া পাওয়ারপ্লান্ট এবং ১০০ মেগাওয়াটের গাজীপুর পাওয়ারপ্লান্ট। তিনি বলেন, আগামী ২০২১ সালের মধ্যে বিদ্যুতের উৎপাদন ২৪ হাজারে উন্নীত করার লক্ষ্যে সরকার দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। পল্লী বিদ্যুৎ বোর্ড (বিআরইবি) সূত্র জানায়, শতভাগ বিদ্যুতায়নের আওতায় আসা ২৩ টি উপজেলা হলো, বগুড়া জেলার গাবতলী, শ্রীপুর ও শিবগঞ্জ উপজেলা, চট্টগ্রামের লোহাগড়া উপজেলা, ফরিদপুর জেলার মধুখালী, নগরকান্দা ও সালথা উপজেলা, গাইবান্দা জেলার ফুলছড়ি, গাইবান্ধা সদর ও পলাশবাড়ি উপজেলা, হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর ও নবীগঞ্জ উপজেলা, ঝিনাইদহ জেলার কালিগঞ্জ ও মহেশপুর উপজেলা, কিশোরগঞ্জ জেলার করিমগঞ্জ উপজেলা, নাটোর জেলার বড়াইগ্রাম, লালপুর ও সিংড়া উপজেলা, নেত্রকোনা জেলার বারহাট্টা ও মহোনগঞ্জ উপজেলা, পিরোজপুর জেলার ভান্ডারিয়া, কাউখালী ও ইন্দুরকানী উপজেলা। অন্যদের মধ্যে গণভবনে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিদ্যুৎ, জ¦ালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদসহ এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত থাকবেন।

স্পিকারের সাথে আইসিআরসি প্রতিনিধিদলের সাক্ষাৎ

ঢাকা অফিস ॥ জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সাথে তার কার্যালয়ে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন ইন্টারন্যাশনাল কমিটি অব দ্য রেডক্রস (আইসিআরসি) প্রতিনিধিদলের প্রধান পিয়ের দ্যোখব। গতকাল মঙ্গলবার জাতীয় সংসদ ভবনে স্পিকারের কার্যালয়ে এই সৌজন্য সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হয়। সাক্ষাৎকালে তারা বাংলাদেশের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা, রেডক্রসের কার্যক্রম, হুইল চেয়ার বাস্কেটবল টুর্ণামেন্টসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করেন। স্পিকার বলেন, রেসক্রসের সাথে বাংলাদেশের সম্পর্ক দীর্ঘদিনের। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে ১৯৭১সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের সময়কাল থেকে রেডক্রস বাংলাদেশে কার্যক্রম চালিয়ে আসছে। দুর্যোগ মোকাবেলায় এ সংস্থা অতীতের ন্যায় ভবিষ্যতেও জনগণের কল্যাণে কাজ করে যাবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। রেডক্রস দুর্যোগ মোকাবেলায় গতিশীল এবং কার্যকর ভূমিকা রাখছে উল্লেখ করে পিয়ের দ্যোখব বলেন, বাংলাদেশ দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় রোল মডেল। প্রাকৃতিক ও মানবসৃষ্ট দুর্যোগ মোকাবেলায় তৃণমূলের জনগণের অংশগ্রহণ উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখে। তরুণ সংসদ সদস্যদের নিয়ে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিষয়ক একটি কর্মশালা আয়োজনের আগ্রহ প্রকাশ করেন তিনি। এ সময় পিয়ের প্রতিবন্ধীদের নিয়ে আগামী ডিসেম্বরে ঢাকায় অনুষ্ঠিতব্য ‘হুইল চেয়ার বাস্কেটবল টুর্ণামেন্ট’ সম্পর্কে স্পিকারকে অবহিত করেন। শিরীন শারমিন বাংলাদেশে রেডক্রসের কার্যক্রমের প্রসংশা করেন এবং তরুণ সংসদ সদস্যদের নিয়ে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিষয়ক কর্মশালা আয়োজনের প্রস্তাবকে স্বাগত জানান। এ সময় সংসদ সচিবালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

খনি দুর্নীতির মামলায় খালেদার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন ১৫ জানুয়ারি

ঢাকা অফিস ॥ বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে বড়পুকুরিয়া কয়লাখনি দুর্নীতি মামলার অভিযোগ গঠনের শুনানি আগামী ১৫ জানুয়ারি পরবর্তী দিন ধার্য করেছেন আদালত। গতকাল মঙ্গলবার ঢাকার ২ নম্বর বিশেষ জজ রুহুল আমিন এই দিন নির্ধারণ করেন। এই আদালতে অভিযোগ গঠনের জন্য দিন নির্ধারিত ছিল গতকাল মঙ্গলবার। কিন্তু খালেদা জিয়া অসুস্থ থাকায় এবং হাসপাতালে ভর্তি থাকায় আদালতে হাজির করেনি পুলিশ। আদালত মামলার অভিযোগ গঠনের শুনানি গতকাল মঙ্গলবার মুলতবি রেখে নতুন দিন ধার্য করেন। এই মামলার অপর আসামিরা হলেনÑসাবেক স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণমন্ত্রী ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, সাবেক কৃষিমন্ত্রী এম কে আনোয়ার, সাবেক তথ্যমন্ত্রী এম শামসুল ইসলাম, মো. সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী অবসরপ্রাপ্ত এয়ার ভাইস মার্শাল আলতাফ হোসেন চৌধুরী, হোসাফ গ্রুপের চেয়ারম্যান মোয়াজ্জেম হোসেন, সাবেক জ¦ালানি ও খনিজ সম্পদ সচিব নজরুল ইসলাম, পেট্রোবাংলার সাবেক পরিচালক মুঈনুল আহসান, সাবেক জ¦ালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী এ কে এম মোশাররফ হোসেন। মামলার নথি থেকে জানা যায়, ২০০৮ সালের ২৬ ফেব্র“য়ারি শাহবাগ থানায় খালেদা জিয়াসহ ১৬ জনের বিরুদ্ধে বড়পুকুরিয়া কয়লাখনি দুর্নীতি মামলা দায়ের করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। পরে ওই বছরের ৫ অক্টোবর পুলিশ তদন্ত করে ১১ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করে। এ মামলা দায়েরের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন খালেদা জিয়া। ২০০৮ সালের ১৬ অক্টোবর হাইকোর্ট বেঞ্চ বড়পুকুরিয়া কয়লাখনি মামলার কার্যক্রম স্থগিত করেন।

রাঙ্গাঁর কুশপুত্তলিকা দাহ গণ ঐক্যের

ঢাকা অফিস ॥ গণতন্ত্রের আন্দোলনে শহীদ নূর হোসেনকে ‘মাদকাসক্ত’ বলায় জাতীয় পার্টির মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গাঁর কুশপুত্তলিকা পুড়িয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ গণ ঐক্য। গতকাল মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে রাঙ্গাঁ ‘বেসামাল’ বলে জাতির কাছে ক্ষমা চাওয়ারও আহ্বান জানানো হয়। মানববন্ধনে বাংলাদেশ অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট ফোরামের সভাপতি কবীর চৌধুরী তন্ময় বলেন, নব্বইয়ের গণঅন্দোলনে নূর হোসেনকে মাদকাসক্ত বলায় মনে হচ্ছে মসিউর রহমান রাঙ্গাঁ ‘বেসামাল’ কথাবার্তা বলছেন। তিনি দ্রুত তাকে জাতির কাছে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানান। রাঙ্গাঁর বিতর্কিত বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়ে গত সোমবার নূর হোসেনের পরিবারও জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে অবস্থান নেয়। নূর হোসেনের মা মরিয়ম বিবি বলেছেন, রাঙ্গাঁকে জাতির সামনে ক্ষমা চাইতে হবে। একই দাবি তুলেছে ডাকসুর বর্তমান নেতৃত্বসহ রাঙ্গাঁর দল জাতীয় পার্টির নির্বাচনী জোটের সঙ্গী ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতারাও, যারা নব্বইয়ের গণআন্দোলনে সক্রিয় ছিলেন। আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ২০১৪-১৮ সালের সরকারের প্রতিমন্ত্রী রাঙ্গাঁর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ হয়েছে তার জেলা রংপুরেও। এইচ এম এরশাদের গড়া দল জাতীয় পার্টির মহাসচিব রাঙ্গাঁ রোববার দলের এক অনুষ্ঠানে বলেন, হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে ক্ষমতাচ্যুত করতে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে মাদকাসক্ত নূর হোসেনকে পেছন থেকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। অবৈধভাবে ক্ষমতা দখলকারী সামরিক শাসক এইচ এম এরশাদকে হটাতে আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও বামসহ দেশের প্রায় সব রাজনৈতিক দল সম্মিলিতভাবে ১৯৮৭ সালে ঢাকা অবরোধের কর্মসূচি দিয়েছিল; সেদিন পুলিশের গুলিতে নিহত হন পরিবহন শ্রমিক নূর হোসেন। বুকে-পিঠে ‘স্বৈরাচার নিপাত যাক-গণতন্ত্র মুক্তি পাক’ লিখে সেদিন মিছিলে নেমেছিলেন আওয়ামী লীগকর্মী নূর হোসেন; সেদিন তার আত্মদান এরশাদবিরোধী আন্দোলনে দিয়েছিল নতুন মাত্রা। ১৯৮৭ সালে আন্দোলন নতুন মাত্রা পাওয়ার পর তিন বছরের মাথায় গণঅভ্যুত্থানে ১৯৯০ সালে ক্ষমতা ছাড়তে হয় এরশাদকে।

গাংনীর হাড়িয়াদহ-মহিষাখোলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অভিভাবক সমাবেশ অনুষ্ঠিত

গাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার হাড়িয়াদহ-মহিষাখোলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অভিভাবক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সকালে দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-বাংলাদেশ-এর সহযোগিতায় সমাবেশ-এর আয়োজন করে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। সমাবেশ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রহিদুল ইসলাম। সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন হাড়িয়াদহ-মহিষাখোলা মাধ্যমিক বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি সমাজ সেবক আনিছুর রহমান মিয়া। বিদ্যালয়ের ধর্মীয় শিক্ষক মোহাম্মদ মকবুল হোসেন-এর সঞ্চালনায়-বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক যথাক্রমে রফিকুল ইসলাম ও জামাল আহমেদ। এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ইলিয়াস হোসেন, দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-বাংলাদেশ-এর রাইপুর ইউনিয়ন সমন্বয়কারী সাহাজুল সাজু। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী সোহাগ হোসেন। পরে মুক্ত আলোচনায় বক্তব্য রাখেন অভিভাবকবৃন্দ। সবশেষে অতিথিবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

নুসরাতের ১২ খুনি ফেনী থেকে কুমিল্লা কারাগারে

ঢাকা অফিস ॥ ফেনীর সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যা মামলায় ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত ১৬ জনের মধ্যে ১২ জনকে গতকাল মঙ্গলবার সকালে ফেনী জেলা কারাগার থেকে কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়েছে। একই মামলায় দন্ডপ্রাপ্ত দুই নারী উম্মে সুলতানা পপি ও কামরুন নাহান মনিকে আজ বুধবার চট্টগ্রাম কারাগারে পাঠানো হবে। অন্যদিকে, এ মামলায় মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ-উদ-দৌলা ও মাদ্রাসার সহসভাপতি রুহুল আমিনের বুধবার ফেনী আদালতে হাজিরা থাকায় তাঁদের গতকাল মঙ্গলবার স্থানান্তর করা হয়নি। আদালতের কার্যক্রম শেষে বুধবার বিকেলে তাঁদের কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানোর কথা রয়েছে। কারাগারের জেলার দিদারুল আলম জানান, ফেনী কারাগারে কনডেম সেল না থাকায় ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত আসামিদের কোন কারাগারে পাঠানো হবে নির্দেশনা চেয়ে কারা মহাপরিদর্শক (আইজি-প্রিজন) বরাবর চিঠি দেওয়া হয়েছিল। সে হিসেবে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের চিঠির নির্দেশনা অনুসারে আসামিদের অন্য কারাগারে পাঠানো হচ্ছে। গত ২৪ অক্টোবর ফেনী নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মামুনুর রশিদ নুসরাত হত্যা মামলায় ১৬ আসামির সবাইকে মৃত্যুদন্ড ও প্রত্যেককে এক লাখ টাকা করে জরিমানা ধার্য করা হয়। গত ৬ এপ্রিল সকালে সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার ছাত্রী নুসরাত আলিমের আরবি প্রথম পত্র পরীক্ষা দিতে মাদ্রাসায় গেলে দুর্বৃত্তরা তাঁকে ডেকে কৌশলে মাদ্রাসার ছাদে নিয়ে যায়। পরে তাঁর গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। এ ঘটনায় দগ্ধ নুসরাত ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১০ এপ্রিল রাতে মারা যান। পরের দিন ১১ এপ্রিল বিকেলে সোনাগাজীতে তাঁর জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

ঝিনাইদহে ট্রাকের ধাক্কায় স্ত্রী নিহত, হাসপাতালে স্বামী

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ॥ ঝিনাইদহের গোয়ালপাড়া বাজারে ট্রাক চাপায় এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের স্বামীসহ দুইজন আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার সকাল দিকে এ ঘটনা ঘটে। ঝিনাইদহ ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার দিলীপ কুমার সরকার দুর্ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। নিহতের নাম বুলু বেগম (৫৪)। তিনি শৈলকুপা উপজেলার বগুড়া গ্রামের উসমান গনির স্ত্রী। এ ঘটনায় উসমান গনি ও তাদের ভ্যান চালক আহত হয়েছেন। আহতদেরকে উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। দিলীপ কুমার সরকার জানান, সকালে হাটগোপালপুর বাজার থেকে একটি ইঞ্জিনচালিত ভ্যানে কয়েকজন ঝিনাইদহের দিকে যাচ্ছিলেন। ভ্যানটি গোয়ালপাড়া বাজারে এলাকায় পৌঁছালে পেছন দিক থেকে আসা একটি ট্রাক সেটিকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই ভ্যানে থাকা এক নারী যাত্রী নিহত এবং চালকসহ আহত হয় দুইজন। তিনি আরও জানান, ট্রাকটি ঢাকা থেকে সোনার বাংলা ট্রান্সপোর্টের মাল নিয়ে ঝিনাইদহে আসছিল। ঘাতক ট্রাকটিকে আটক করেছে পুলিশ।

 

শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর কুষ্টিয়া জোন’র নব নির্মিত অফিস ভবন উদ্বোধন

নিজ সংবাদ ॥ নির্বাহী প্রকৌশলীর কার্যালয় শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর, কুষ্টিয়া জোন এর নব নির্মিত অফিস ভবন উদ্বোধন করা হয়েছে।  গতকাল ১২ নভেম্বর মঙ্গলবার বিকেল ৪টায় প্রধান অতিথি থেকে নব নির্মিত অফিস ভবন’র উদ্বোধন করেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ এমপি। প্রধান অতিথির বক্তব্যে মাহবুবউল আলম হানিফ অনুষ্ঠানের আয়োজন দেখে অসন্তোষ প্রকাশ করেন। পেন্টিং এর কাজ দেখে সমালোচনা করে মাহবুবউল আলম হানিফ দায় সারা কাজ আখ্যা দিয়ে বলেন, নিজের ঘর ভালো না হলে, অন্যোর ঘর কিভাবে ভালো হবে। রূপপুরের বালিশ ক্রয়ের উদাহরণ দিয়ে তিনি বলেন, আমলাদের কারণে সরকারের সমালোচনা হবে তা মেনে নেয়া হবে না। দায় সারা কাজ না করে, সরকারি কর্মকর্তাদের যথাযথভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানান মাহবুবউল আলম হানিফ।

শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর’র খুলনা সার্কেল, খুলনা’র তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী তৌহিদ উদ্দিন আহমেদ এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক মোঃ আসলাম হোসেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দৌলতপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য আ ক ম সরওয়ার জাহান বাদশা, পুলিশ সুপার এস এম তানভীর আরাফাত পিপিএম (বার), জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী রবিউল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব সদর উদ্দিন খান, সাধারণ সম্পাদক আজগর আলী, শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি তাইজাল আলী খান প্রমুখ। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর কুষ্টিয়া’র নির্বাহী প্রকৌশলী আ.ট.ম. মারুফ আল-ফারুকী। পরে নব নির্মিত ভবন প্রাঙ্গনে বৃক্ষ রোপণ করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ এমপি।

চার দিনের সফরে নেপালে রাষ্ট্রপতি

ঢাকা অফিস ॥ প্রেসিডেন্ট বিদ্যা দেবী ভান্ডারীর আমন্ত্রণে চার দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে নেপাল গেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। গতকাল মঙ্গলবার বেলা ১১টা ৫০ মিনিটে বাংলাদেশ বিমানের একটি ভিভিআইপি ফ্লাইটে রাষ্ট্রপতি শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে রওনা হন। মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, সড়ক পরিবহন মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী বিমানবন্দরে রাষ্ট্রপতিকে বিদায় জানান। তিন বাহিনীর প্রধানসহ বেসামরিক-সামরিক কর্মকর্তারাও এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিমানবন্দরে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে তিনি কাঠমান্ডুতে পৌঁছালে নেপালের প্রেসিডেন্ট বিদ্যা দেবী ভান্ডারী তাকে স্বাগত জানান। রাষ্ট্রপতিকে বহনকারী বাংলাদেশ বিমানের ভিভিআইপি ফ্লাইট স্থানীয় সময় বেলা ১টায় কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছায়। রাষ্ট্রপতির স্ত্রী রাশিদা খানমও এই সফরে তার সঙ্গে রয়েছেন। বিমানবন্দরে রাষ্ট্রপতিকে ‘স্ট্যাটিক গার্ড’ দেওয়া হয়। নেপালের ইনফ্রাস্টাকচার মিনিস্টার এবং নেপালে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মাশফি বিনতে শামস সেখানে উপস্থিত ছিলেন। পরে রাষ্ট্রপতিকে মোটর শোভাযাত্রা করে নিয়ে যাওয়া হয় ভিভিআইপি বে’তে। সেখানে আবদুল হামিদকে স্বাগত জানান নেপালের প্রেসিডেন্ট বিদ্যা দেবী ভান্ডারী। তার মেয়ে উষা কিরণ ভা-ারী বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতিকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। ভিভিআইপি বেতে রাষ্ট্রপতিকে গার্ড অব অনার দেওয়া হয়। একুশবার তোপধ্বনি করা হয় আবদুল হামিদের সম্মানে। বাজানো হয় দুই দেশের জাতীয় সংগীত। ভিভিআইপি বে সাজানো হয়েছিল দুই দেশের পতাকা দিয়ে। বিমানবন্দরের আনুষ্ঠানিকতা শেষে মোটর শোভাযাত্রা করে আবদুল হামিদকে হোটেল ফেয়ারফিল্ড ম্যারিয়টে নিয়ে যাওয়া হয়। এই সফরে তিনি সেখানেই থাকবেন। বিমানবন্দর থেকে হোটেল পর্যন্ত পুরো সড়কের দুই পাশ সাজানো হয় দুই দেশের রাষ্ট্রপ্রধানের ছবি সম্বলিত প্ল্যাকার্ড দিয়ে। রাস্তার দুই পাশে দাঁড়ানো শিশুরা দুই দেশের পতাকা নাড়িয়ে আবদুল হামিদকে স্বাগত জানায়। বিভিন্ন স্থানে বসানো হয় তোরণ, রাস্তার মোড়ে প্রদর্শন করা হয় নেপালের ঐতিহ্যবাহী নাচ। বুধবার নেপালের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতির দ্বিপক্ষীয় বৈঠক হবে। প্রেসিডেন্টের বাসভবন ‘শীতল নিবাসে’ বিদ্যা দেবীর দেওয়া নৈশভোজেও অংশ নেবেন আবদুল হামিদ। নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলি, ভাইস প্রেসিডেন্ট নন্দ বাহাদুর পুন, পার্লামেন্টের উচ্চ কক্ষ ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির চেয়ারপার্সন গনেশ প্রসাদ তিমিলসিনা, পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রদীপ কুমার গিওয়ালি, নেপালের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও ক্ষমতাসীন নেপাল কমিউনিস্ট পার্টির কো-চেয়ারম্যান পুষ্প কমল দহল (প্রচন্ড), বিরোধী দল নেপালি কংগ্রেস পার্টির প্রেসিডেন্ট ও বিরোধী দলীয় নেতা শের বাহাদুর দেউবা বুধবার বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতির প্রতি সাক্ষাৎ করবেন। নেপালের ইতিহাসে প্রথম নারী হিসেবে ২০১৫ সালে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন বিদ্যা দেবী ভা-ারী। ক্ষমতাসীন দল কমিউনিস্ট পার্টি অব নেপাল (ইউনিফাইড মার্কসিস্ট লেনিনিস্ট) বা সিপিএন-ইউএমএলের ভাইস চেয়ারপারসন ছিলেন তিনি। সফরকালে আবদুল হামিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলি, ভাইস প্রেসিডেন্ট নন্দ বাহাদুর পুন, পার্লামেন্টের উচ্চ কক্ষ ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির চেয়ারপার্সন গনেশ প্রসাদ তিমিলসিনা, পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রদীপ কুমার গিওয়ালি, নেপালের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও ক্ষমতাসীন নেপাল কমিউনিস্ট পার্টির কো-চেয়ারম্যান পুষ্প কমল দহল (প্রচন্ড), বিরোধী দল নেপালি কংগ্রেস পার্টির প্রেসিডেন্ট ও বিরোধী দলীয় নেতা শের বাহাদুর দেউবা। রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ এই সফরে পোখারা এবং কাঠমান্ডুর বিভিন্ন ঐতিহাসিক নিদর্শন ঘুরে দেখবেন। সফর শেষে ১৫ নভেম্বর তার দেশে ফেরার কথা রয়েছে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষার নতুন সূচি

ঢাকা অফিস ॥ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ২০১৯ সালের সালের স্নাতক (সম্মান) দ্বিতীয় বর্ষের পরীক্ষার নতুন সূচি প্রকাশ করা হয়েছে। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে অধীনে দ্বিতীয় বর্ষের পরীক্ষা ৯ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হওবার কথা থাকলেও ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের কারণে তা পেছানো হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ তথ্য ও পরামর্শ দপ্তরের পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) মো.ফয়জুল করিম জানান, পরিবর্তিত সময়সূচি অনুযায়ী আগামী ১৪ নভেম্বর থেকে শুরু হয়ে পরীক্ষা শুরু হয়ে ২৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত চলবে। পরীক্ষা শুরু হবে বেলা ১টা থেকে। পরীক্ষার বিস্তারিত সময়সূচি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট (িি.িহঁ.ধপ.নফ) ও (িি.িহঁনফ.রহভড়/২০২) থেকে জানা যাবে।

নূর হোসেনের পরিবারের কাছে রাঙ্গার দুঃখ প্রকাশ

ঢাকা অফিস ॥ স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে শহীদ নূর হোসেনকে ‘ইয়াবাখোর’ বলার জন্য অনুতপ্ত হয়ে দুঃখ প্রকাশ করেছেন জাতীয় পার্টির (জাপা) মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা। তিনি বলেছেন, অনিচ্ছাকৃতভাবে আমার মুখ থেকে নূর হোসেন সম্পর্কে কিছু অযাচিত কথা বেরিয়ে গেছে, যা তার মা ও পরিবারের সদস্যদের মনে আঘাত করেছে। এর জন্য আমি আন্তরিকভাবে দুঃখিত ও অনুতপ্ত।’ মঙ্গলবার দুপুরে বনানীতে জাপা চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে সাংবাদিকদের কাছে একথা বলেন মহাসচিব। এর সঙ্গে যোগ করে বলেন, আমি আশা করি, এই বিষয়ে আর কোনো ভুল বোঝাবুঝির অবকাশ থাকবে না। মসিউর রহমান রাঙ্গা তার বক্তব্যের কারণ ব্যাখ্যা করে বলেন, গত ১০ নভেম্বর গণতন্ত্র দিবসের আলোচনা সভায় আমার কিছু বক্তব্য নিয়ে কোনো কোনো মহল এবং বিশেষ করে নূর হোসেনের পরিবারের মধ্যে বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। প্রতিবছর নূর হোসেনের মৃত্যুবার্ষিকীর দিনে কয়েকটি সংগঠনের আলোচনা, বক্তব্য ও বিবৃতিতে জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে হেয় প্রতিপন্ন করা হয়। এমনকি তাকে অশ্রাব্য ভাষায় গালাগালিও করা হয়। এর ফলে জাতীয় পার্টির কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। এবারও তার ব্যতিক্রম ঘটেনি। জাপা মহাসচিব বলেন, তারই পরিপ্রেক্ষিতে কর্মীদের উত্তেজনার মধ্যে বক্তব্য দেয়ার সময় অনিচ্ছাকৃতভাবে আমার মুখ থেকে নূর হোসেন সম্পর্কে কিছু অযাচিত কথা বেরিয়ে গেছে। তবে অসতর্কভাবে বলে ফেলা আমার বক্তব্যে যে আঘাত লেগেছে তার জন্য আমি নূর হোসেনের মায়ের কাছে আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি। একই সাথে আমার যে বক্তব্যে বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে সেসব বক্তব্য প্রত্যাহার করে নিচ্ছি। তিনি উল্লেখ করেন, নূর হোসেনের পরিবারের প্রতি এরশাদও সমব্যথী ছিলেন। জাপা মহাসচিবের এ বক্তব্য প্রকাশ ও প্রচারের জন্য গণমাধ্যমে বিজ্ঞপ্তি আকারে পাঠিয়েও দিয়েছেন।

স্বেচ্ছাসেবক লীগ ঢাকা মহানগর উত্তর শাখার সম্মেলনে ওবায়দুল কাদের

বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনাকে কটাক্ষ করলে জনগণ ক্ষমা করবে না 

ঢাকা অফিস ॥ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কটাক্ষ করলে বাংলাদেশের জনগণ কাউকে ক্ষমা করবে না। তিনি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু ও তাঁর কন্যা শেখ হাসিনাকে নিয়ে কেউ কটাক্ষ করলে জাতি কাউকে ক্ষমা করবে না। বাংলাদেশে শেখ হাসিনা সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রী। বঙ্গবন্ধু ও তাঁকে নিয়ে কটাক্ষ করলে বাংলাদেশের বহু মানুষের অনুভূতিকে কটাক্ষ করা হয়। তাঁকে কটাক্ষ করলে জনগণ কাউকে ক্ষমা করবে না।’ ওবায়দুল কাদের গতকাল মঙ্গলবার রাজধানীর ফার্মগেট কৃষিবিদ ইন্সটিটিউশন মিলনায়তনে স্বেচ্ছাসেবক লীগ ঢাকা মহানগর উত্তর শাখার সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, শেখ হাসিনা ও নূর হোসেনকে নিয়ে কেউ কেউ কটাক্ষ করছেন। এ ধরনের কটাক্ষ রাজনৈতিক অনুভূতিতে আঘাত করে। ষড়যন্ত্রকারীদের ষড়যন্ত্র এখনও চলছে। তাদের ষড়যন্ত্র থেমে নেই। অনেকেই শেখ হাসিনা সম্পর্কে ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য দিয়ে যাচ্ছেন। এরকম বক্তব্য সহ্য করা হবে না। এ রকম কটাক্ষ রাজনৈতিক পরিবেশকে নষ্ট করে। তিনি বলেন, নূর হোসেনের গণতন্ত্রের সংগ্রাম সম্পর্কে দেশ ও জাতি জানে। নূর হোসেনের প্রতিও কেউ কেউ আজকে বিরূপ মন্তব্য করেন। আমাদের নেত্রীর বদৌলতে যারা রাজনীতিতে অক্সিজেন পেয়েছেন, তারা নেত্রীকেও কটাক্ষ করেন। কথা মুখ থেকে ফসকে গেলে মুখে আর ফিরে আসে না। যত দুঃখ প্রকাশ করা হোক, যতই অ্যাপোলাইজ করা হোক এ ধরণের দায়িত্বহীন মন্তব্য, কটাক্ষ আমাদের রাজনৈতিক পরিবেশকে নষ্ট করে। ওবায়দুল কাদের বলেন, ১৫ আগস্টের হত্যাকান্ডের দায় বিএনপি কোনোভাবে এড়াতে পারে না। ওই খুনিদের নিরাপদে বিদেশে পাঠিয়েছে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা। এই খুনিদেরকে বিদেশী দূতাবাসে চাকরি দিয়ে পুরস্কৃত করেছে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান। এই খুনিদের যাতে বিচার না হয় তার জন্য ইনডেমিনিটি জারি করেছিলেন তিনি। দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, শুদ্ধি অভিযানের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে চলবেন। দলের বিরুদ্ধে কলহ করবেন না। আমরা আদর্শের রাজনীতি করবো। আমরা বঙ্গবন্ধুর কর্মী । কেউ ব্যক্তিগত কটূক্তি করবেন না। কটূক্তিকারীকে আমরা সহ্য করবো না। স্বেচ্ছাসেবক লীগ ঢাকা মহানগর উত্তর শাখার সভাপতি মো. মোবাশ্বের চৌধুরীর সভাপতিত্বে সম্মেলনে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, স্বেচ্ছাসেবক লীগ সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক নির্মল রঞ্জন গুহ, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি মতিউর রহমান মতি, সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্য সচিব গাজী মেজবাউল হোসেন সাচ্চু প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

কুষ্টিয়া পৌরসভার সার্বিক সহযোগিতায়

পূর্ণিমা তিথিতে টেগর লজে ৩৩তম রবীন্দ্রসন্ধ্যা অনুষ্ঠিত

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়া পৌরসভার সার্বিক সহযোগিতায় ও জাতীয় রবীন্দ্র সঙ্গীত সম্মিলন পরিষদ কুষ্টিয়া শাখার আয়োজনে, পূর্ণিমা তিথিতে ৩৩তম রবীন্দ্রসন্ধ্যা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ বারের বিষয় ছিলো রবীন্দ্রনাথের বিচিত্র পর্যায়ের গান। গতকাল ১২ নভেম্বর মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭ টায় কুষ্টিয়া টেগর লজে এ রবীন্দ্রসন্ধ্যা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কুষ্টিয়া পৌরসভার মেয়র আনোয়ার আলী। প্রধান অতিথির বক্তব্যে পৌরসভার মেয়র আনোয়ার আলী বলেন, রবীন্দ্রনাথ আমাদের জীবনে ওতপ্রতভাবে জড়িত। আশা করি পূর্ণিমা তিথির অনুষ্ঠান এই টেগরলজে শতবর্ষ উদযাপন করা হবে। অতিথি আলোচক হিসেবে আলোচনা করেন সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট কুষ্টিয়ার সাধারণ সম্পাদক শাহীন সরকার। সভাপতিত্ব করেন জাতীয় রবীন্দ্র সঙ্গীত সম্মিলন পরিষদ কুষ্টিয়া শাখার সহ-সভাপতি খলিলুর রহমান মজু। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন জাতীয় রবীন্দ্র সঙ্গীত সম্মিলন পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য অশোক সাহা। স্বাগত বক্তব্য রাখেন জাতীয় রবীন্দ্র সঙ্গীত সম্মিলন পরিষদ কুষ্টিয়া শাখার সাধারণ সম্পাদক আকলিমা খাতুন ইরা। সঞ্চালনায় ছিলেন খন্দকার মালেকুল মাকসুদ প্রবাল। আলোচনা শেষে শিল্পীবৃন্দ সঙ্গীত পরিবেশনা করেন। এ সময় ভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক ব্যাক্তিত্বসহ কুষ্টিয়া পৌরসভা ও পৌরসভায় পরিচালিত বিভিন্ন প্রকল্পের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

ইবিতে ‘এ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ

কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষে ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ‘এ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়েছে। গতকাল ১২ নভেম্বর সন্ধ্যায় ভিসি অফিসে ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারী (ড. রাশিদ আসকারী)’র নিকট ইউনিটটির ফল হস্তান্তর করা হয়। এসময় রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস. এম. আব্দুল লতিফ, থিওলজি এন্ড ইসলামিক স্টাডিজ অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. আ. ফ. ম. আকবর হোসাইন, ‘এ’ ইউনিট সমন্বয়কারী ও আল-কুরআন এন্ড ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. মোঃ লোকমান হোসেন, আল-হাদীস এন্ড ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আশরাফুল আলম এবং  ছাত্র উপদেষ্টা ও প্রক্টর (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর ড. পরেশ চন্দ্র বর্ম্মন সেখানে উপস্থিত ছিলেন। ‘এ’ ইউনিটের পরীক্ষায় ২৪০ আসনের জন্য আবেদন করেন ২ হাজার ২২৩ জন, যাদের মধ্যে ১ হাজার ৮৮০ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন। উত্তীর্ণ হয়েছেন ৪৬৪ জন ভর্তিচ্ছু। ফলাফল সংক্রান্ত তথ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট (িি.িরঁ.ধপ.নফ)-এ পাওয়া যাবে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

সারাদেশে আয়কর মেলা শুরু হচ্ছে কাল

ঢাকা  অফিস ॥ করসেবা প্রদান ও কর সচেতনতা বাড়াতে দশমবারের মত সারাদেশব্যাপী আয়কর মেলার আয়োজন করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। আগামীকাল বৃহস্পতিবার থেকে মেলা শুরু হবে। রাজধানী ঢাকাসহ বিভাগীয় শহরে সপ্তাহব্যাপী মেলা চলবে ২০ নভেম্বর পর্যন্ত। রাজধানীর মেলা হবে মিন্টো রোডের অফিসার্স ক্লাব প্রাঙ্গণে। এ ছাড়া সব জেলা শহরে চার দিন এবং ৪৮টি উপজেলায় দুই দিন মেলা হবে। পাশাপাশি উপজেলা পর্যায়ে ৮টি গ্রোথ সেন্টারে এক দিন ভ্রাম্যমাণ মেলা অনুষ্ঠিত হবে। এবারের মেলার শ্লোগান হচ্ছে ‘সবাই মিলে দেব কর, দেশ হবে স্বনির্ভর’ এবং প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে ‘কর প্রদানে স্বতঃস্ফ’র্ত অংশগ্রহণ, নিশ্চিত হোক রূপকল্প বাস্তবায়ন’। গতকাল মঙ্গলবার রাজধানীর সেগুনবাগিচা রাজস্ব ভবন সভাকক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এনবিআর চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূইয়া এসব তথ্য জানান। তিনি বলেন, প্রতিবছরের মত করদাতারা এবারের মেলায়ও আয়কর বিবরণীর ফরম দাখিল থেকে শুরু করে কর পরিশোধের জন্য ব্যাংক বুথ পাবেন। তাঁদের জন্য মেলায় সহায়তাকেন্দ্রে অপেক্ষা করবেন কর কর্মকর্তারা। একই ছাদের নিচে সব সেবা মিলবে। করদাতা শুধু প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সঙ্গে আনলেই হবে। তিনি জানান, মেলায় ই-টিআইএন নিবন্ধন ও আয়কর বিবরণী গ্রহণ,কর পরিশোধ, আয়কর বিবরণী পূরণে সহায়তা এবং কর শিক্ষা প্রদানের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা থাকবে। চেয়ারম্যান বলেন, কর-রাজস্ব আহরণের ক্ষেত্রে আয়কর মেলা অনুপ্রেরণামূলক বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। সেখানে করদাতারা উৎসবমূখর পরিবেশে আয়কর বিবরণী দাখিল ও কর পরিশোধ করতে পারেন। তাই প্রতিবছর মেলার পরিধি বিস্তৃত হচ্ছে। করদাতাদের সুবিধার্তে এবারের মেলায় কর সংক্রান্ত সকল তথ্য সম্বলিত একটি ওয়েবসাইট এবং কর পরিশোধে মোবাইল ব্যাংকিং সেবা চালু করা হয়েছে বলে তিনি জানান। ওয়েবসাইট থেকে আয়কর বিবরণী ফরম ও চালান ফরম ডাউনলোড করার পাশাপাশি সব ধরনের নিদের্শিকা পাওয়া যাবে। তাই করমেলার ন্যায় অধিকাংশ সুবিধা ঘরে বসেই ভোগ করতে পারবেন করদাতারা। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে মোশাররফ হোসেন বলেন, যারা বেশি আয়কর দেন, তারা যেন স্বচ্ছতার সাথে সেটি পরিশোধ করেন, এজন্য আমরা উদ্যোগ নিয়েছি। যেসব একাউন্টিং ফার্ম তাদের করের হিসাব করেন, সেসব ফার্মের হিসাব কার্যক্রম অডিট করা হবে। যদি কোন ফার্ম হিসাবের ক্ষেত্রে অনিয়ম করেন, তাদের শাস্তির আওতায় আনা হবে। অপর এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি জানান, চলতি করবর্ষে ৩০ লাখ আয়কর বিবরণী দাখিল হবে বলে প্রত্যাশা করছে এনবিআর। ক্যাসিনো বিরোধী অভিযানে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য ও নথি পাওয়া গেছে, যা আগামী দিনে রাজস্ব বাড়াতে সহায়তা করবে বলে জানান মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া। এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, ক্যাসিনো বিরোধী অভিযানে বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের ব্যাংক হিসাব তলব করা হয়। ওইসব হিসাবে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য ও নথি পাওয়া গেছে, যা আগামী দিনে রাজস্ব বাড়াতে সহায়তা করবে। তবে যেসব তথ্য পেয়েছি তা জনসমক্ষে বলতে চাচ্ছি না। দেশের ১৬ কোটি মানুষের মধ্যে চার কোটি মানুষ সামর্থ্যবান উল্লেখ করে তিনি বলেন, এ সামর্থ্যবানদে মধ্যে আয়কর দেন সব মিলিয়ে এক কোটি লোক। আমরা এটি বাড়াতে চাচ্ছি। আগামীতে আয়কর থেকে রাজস্ব আহরণ ৪০ শতাংশ করতে চাই, এ লক্ষ্যেই কাজ করছি। মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া বলেন, জর্দা ব্যবসায়ী গাউস মিয়া প্রতিবছর সেরা করদাতা হন। এটি নিয়ে অনেকে প্রশ্ন তুলেছেন। নিয়ম অনুযায়ী কেউ কর দিয়ে সেরা করদাতা হতেই পারেন। তবে আগামীতে এসব বিষয়ে আরও বেশি যাচাই-বাছাই করা হবে। আয়কর বিবরণী প্রস্তুতকারী অ্যাকাউন্টিং ফার্মগুলোকে শাস্তির আনা হবে উল্লেখ করে এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের আয়কর বিবরণী স্বচ্ছতা বাড়াতে অ্যাকাউন্টিং ফার্মগুলোকে জবাবদিহিতার আওতায় আনতে কাজ করছি। আগামীতে যেসব ফার্ম কোম্পানি রিপোর্টিংয়ে অনিয়ম করবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। উল্লেখ্য, এবারের মেলাও বরাবরের মত নতুন করদাতারা ইলেকট্রনিক কর শনাক্তকরণ নম্বর (ই-টিআইএন) নিতে পারবেন। আবার পুনঃনিবন্ধন করে ই-টিআইএন নিতে পারবেন পুরনো করদাতারা। এ ছাড়া মেলায় ই-পেমেন্টের জন্য পৃথক বুথ থাকবে। মুক্তিযোদ্ধা, নারী, প্রতিবন্ধী ও প্রবীণ করদাতাদের জন্য থাকবে আলাদা বুথ। এদিকে, বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর হোটেল রেডিসন ব্লু ওয়াটার গার্ডেনে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের জাতীয়ভাবে সেরা করদাতাগণকে ট্যাক্স কার্ড ও সম্মাননা প্রদান করা হবে। উল্লেখ্য, প্রতিবছর ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত আয়কর বিবরণী জমা দেওয়া যায়।

বেপজা গভর্নর বোর্ডের ৩৪তম সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

কৃষির সাথে সাথে আমাদের শিল্পের উন্নয়ন করা অপরিহার্য

ঢাকা অফিস ॥ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কেবল কৃষির ওপর নির্ভরশীল না থেকে কর্মসংস্থান এবং রপ্তানি বৃদ্ধির মাধ্যমে আর্থসামাজিক উন্নয়নের জন্য ব্যাপক শিল্পায়নের পথে যাওয়ায় জন্য সংশ্লিষ্ট কতৃর্পক্ষের প্রতি আহবান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘আমাদের অর্থনীতি কৃষি নির্ভর, কিন্তু এককভাবে এই কৃষি নির্ভর না থেকে কৃষির সাথে সাথে আমাদের শিল্পের উন্নয়ন করা অপরিহার্য। আর সে উন্নয়ন করতে পারলে আমাদের কর্মসংস্থান বৃদ্ধি পাবে, রপ্তানি বৃদ্ধি পাবে, দেশের অভ্যন্তরীণ চাহিদা মিটবে এবং মানুষের আর্থসামাজিক উন্নয়ন হবে।’ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গতকাল মঙ্গলবার সকালে তাঁর কার্যালয়ে (পিএমও) বাংলাদেশ রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ এলাকা কর্তৃপক্ষ’র (বেপজা) গভর্নর বোর্ডের ৩৪তম সভার প্রারম্ভিক ভাষণে একথা বলেন। সভায় সভাপতিত্বও করেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী তাঁর ভাষণে খাদ্য উৎপাদন বৃদ্ধির ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, ‘আমাদের লক্ষ্য রাখতে হবে খাদ্য উৎপাদন যেন কোনভাবে হ্রাস না পায়। জনসংসংখ্যা বৃদ্ধির সাখে সাথে খাদ্য উৎপাদন বৃদ্ধি করা, খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করাটাও আমাদের লক্ষ্য।’ ‘কারণ পৃথিবীতে খাদ্য চাহিদা কোনদিন কমবে না, এটা উত্তোরত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে, কাজেই সেদিকে লক্ষ্য রেখেই আমরা শিল্পাঞ্চলগুলো (বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল) বিশেষভাবে করে দিচ্ছি। যাতে করে একটি নির্দিষ্ট জায়গায় শিল্প প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠতে পারে। কেননা পরিবেশ রক্ষার দিকে ও আমাদের বিশেষভাবে দৃষ্টি দিতে হবে, ’যোগ করেন তিনি। দেশের মানুষের ক্রয় ক্ষমতা বৃদ্ধি এবং জীবন-জীবিকার মান উন্নয়নে তাঁর সরকার কাজ করে যাচ্ছে, উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমি মনে করি সে লক্ষ্য বাস্তবায়নে বেপজা যথেষ্ট অবদান রেখে চলেছে। সেখানে দেশি-বিদেশি বিনিয়োগকারীরা আসছে এবং বিনিয়োগ হচ্ছে।’ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড.একে আব্দুল মোমেন. স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন, বস্ত্র এবং পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী, বিদ্যুৎ, জ্বালানী এবং খনিজ সম্পদ বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু, নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এবং শ্রম ও কর্মসংস্থান বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বেগম মুন্নুজান সুফিয়ান বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন। প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো.নজিবুর রহমান অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব সাজ্জাদুল হাসান, প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম এবং সংশ্লিষ্ট সচিববৃন্দ এ সময় উপস্থিত ছিলেন। তাঁর সরকার প্রদত্ত সুযোগ-সুবিধা, সস্তা শ্রম ও শ্রমবান্ধব তরুণ জনগোষ্ঠী এবং দেশে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা বজায় থাকায় বাংলাদেশকে বিদেশি বিনিয়োগের আকর্ষণীয় গন্তব্য হিসেবেও আখ্যায়িত করেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘দেশে বিনিয়োগের চাহিদা বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং বাংলাদেশ এখন সমগ্র বিশ্বের কাছে বিনিয়োগের সব থেকে আকর্ষণীয় স্থান।’ ‘যেকারণে বেপজার পাশাপাশি সরকার সারাদেশে বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তুলছে, ’বলেন তিনি। সরকার প্রধান বলেন, ‘আমাদের জনসংখ্যার একটি বড় অংশই কর্মক্ষম যুবক শ্রেণী। যাদের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে আমরা আরো দক্ষ করে গড়ে তুলতে পারি। আর সেই পদক্ষেপের অংশ হিসেবে একেবারে উপজেলা পর্যায় পর্যন্ত আমরা কারিগরি শিক্ষার ব্যবস্থা করেছি এবং বিশেষায়িত বিশ্ববিদ্যালয়ের মাধ্যমে আজকের তরুনদেরকে যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে সময়োপযোগী শিক্ষা ও প্রশিক্ষণের মাধ্যমে উপযুক্তভাবে গড়ে তোলা হচ্ছে।’  শেখ হাসিনা বলেন, ‘দেশের কর্মক্ষম এই নবীন জনগোষ্ঠীর কারণেও বাংলাদেশে বিদেশী বিনিয়োগের অন্যতম একটি আকর্ষণীয় স্থান হয়ে উঠেছে। এই দিকটায় আমাদের লক্ষ্য রাখতে হবে।’ প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘দীর্ঘদিন বিভিন্ন চড়াই-উতরাই পার হয়ে দেশে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা বজায় রাখতে সক্ষম হওয়ায় এবং গণতন্ত্রের ধারাবাহিকতা অব্যাহত আছে বলেই বিনিয়োগের ক্ষেত্রটা আরো আকর্ষণীয় হয়ে উঠেছে।’ দেশে-বিদেশি বিনিয়োগের জন্য তাঁর সরকার নানারকম সুযোগ-সুবিধাও প্রদান করছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘বেপজায় যারা বিনিয়োগ করে তাঁরা বিশেষ সুবিধা যেমন পেয়ে থাকে তেমনি এখানকার শ্রমিকরাও ভাল বেতন পায়।’ প্রধানমন্ত্রী বলেন, বহু শহিদের রক্তের বিনিময়ে এই স্বাধীনতা। আমরা বাংলাদেশকে উন্নত-সমৃদ্ধ করে গড়ে তুলবো এবং বাংলাদেশ দারিদ্র্য ও ক্ষুধা মুক্ত হবে, যেটা ছিল জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের লক্ষ্য। শেখ হাসিনা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর রেখে যাওয়া বাংলাদেশের পররাষ্ট্র নীতির প্রসঙ্গ টেনে বলেন, বাংলাদেশের অবস্থানটা আন্তর্জাতিক বিশ্বে আজকে এমন একটা পর্যায়ে পৌঁছেছে যে, ‘সকলের সঙ্গে বন্ধুত্ব, কারো সঙ্গে  বৈরিতা নয়,’ এই নীতিমালার ভিত্তিতে চলায় আজকে সকলের সঙ্গেই বাংলাদেশের একটা সুসম্পর্ক রয়েছে।