গাংনীতে যুবলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

গাংনী প্রতিনিধি ॥ নানা আয়োজনের মধ্যদিয়ে মেহেরপুরের গাংনীতে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের ৪৭তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে বিশাল র‌্যালি ও আলোচনা সভা সোমবার বিকেলে গাংনী বাসষ্ট্যান্ড শহীদ রেজাউল চত্বরে অনুষ্ঠিত হয়।

জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন ও শান্তির প্রতীক পায়রা উড়িয়ে কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন মেহেরপুর-২ (গাংনী) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মকবুল হোসেন। পরে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। গাংনী উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মোশারফ হোসেনের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, গাংনী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও মেহেরপুর জেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ খালেক।

বিশেষ অতিথি ছিলেন গাংনী পৌরসভার সাবেক মেয়র ও আ.লীগের নেতা আহমেদ আলী, জেলা কৃষকলীগের নেতা ফজলুল হক, জেলা আ.লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক শহিদুল ইসলাম শাহ,গাংনী উপজেলা আ,লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম, মুক্তিযোদ্ধা সাবেক কমান্ডার নজরুল ইসলাম, গাংনী পৌর আ’লীগের সভাপতি ছানোয়ার হোসেন বাবলু, সাধারণ সম্পাদক আনারুল ইসলাম বাবু, জেলা জেপি নেতা আব্দুল হালিম প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বর্তমান সাংসদ মোহাম্মদ সাহিদুজ্জামান খোকনকে রাজাকার পুত্র আখ্যায়িত করে বক্তব্য প্রদান করেন। এবং এমপিকে নিয়ে নানা কটুক্তিমূলক বক্তব্য দেয়া হয়। এমপি  খোকন ও গাংনী পৌরসভার মেয়র আশরাফুল ইসলামকে গাংনী থেকে বিতাড়িত করারও ঘোষণা দেন বক্তারা।

গাংনী উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ শফি কামাল পলাশের সঞ্চালনায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, মটমুড়া ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি আবুল হাশেম, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল বারী, ষোলটাকা ইউনিয়ন আ,লীগের সভাপতি আব্দুল মান্নান, রাইপুর ইউনিয়ন আ,লীগের সভাপতি শামসুজ্জামান মঙ্গল, যুবলীগ নেতা রবিউল ইসলাম রবি, আ’লীগ নেতা ইয়াছিন রেজা হাসান, যুবলীগ নেতা আনোয়ার পাশা, শফিউল ইসলাম শফি, হবিবুর রহমান হবি, জিল্লুর রহমান, আব্দুল জলিল, ছইফতুল্লাহ, ইউনুছ আলী, ছাত্রলীগ নেতা তৌহিদুল ইসলাম, বিপ্লব হোসেন, ইমরান হোসেন, জীবন আকবর ও অনিক প্রমুখ।

কালুখালীতে যুবলীগের ৪৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

কালুখালী প্রতিনিধি ॥ রাজবাড়ীর কালুখালীতে আওয়ামী যুবলীগের ৪৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে গতকাল কেক কেটে ও র‌্যালীর মধ্যদিয়ে দিনের শুরু হয়। সকাল ১০টায় বর্ণাঢ্য র‌্যালী বের করে উপজেলা শহর প্রদক্ষিন করে উপজেলা আওয়ামীলীগের কার্যালয়ে এসে কেক কাটা হয়। এসময় উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক মনিরুজ্জামান চৌধুরী (মবি) এর সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে যুগ্ম আহবায়ক রাকিবুল ইসলাম লাবু, সোহেল আলী মোল্লা, সদস্য জামির হোসেন জয়, সেলিম উর রেজা, শেখ মোঃ ফারুক, হাফিজুর রহমান লাল্টু, গোলাম মোস্তফা, সুমন, রিপন প্রামানিক এছাড়াও উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আব্দুল খালেক মাষ্টার, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক খায়রুল ইসলাম খায়ের, রতনদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান ও রতনদিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মেহেদী হাচিনা পারভীন নিলুফা,  উপজেলা শ্রমিকলীগের আহবায়ক মীর্জা বুলবুল, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম সুমন, উপজেলা মহিলা যুবলীগের সভানেত্রী সাবিনা ইয়াসমিনসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের যুবলীগের নেতাকর্মীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

পবিত্র ঈদ-ই-মিলাদুন্নবী উদযাপন উপলক্ষে

কুষ্টিয়া পল্লী বিদ্যুৎ সমিতিতে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহ্ফিল

আমলা অফিস ॥ পবিত্র ঈদ-ই-মিলাদুন্নবী উৎযাপন উপলক্ষে কুষ্টিয়া পল্লী বিদ্যুৎ সমিতিতে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহ্ফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার সকালে কুষ্টিয়া পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির উদ্যোগে এ আলোচনা সভা ও দোয়া মাহ্ফিল অনুষ্ঠিত হয়। কুষ্টিয়া পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির জেনারেল ম্যানেজার হারুন-অর-রশিদের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কুষ্টিয়া জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব রবিউল ইসলাম। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কুষ্টিয়া সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জুবায়ের হোসেন চৌধুরী, কুষ্টিয়া পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির সাবেক সভাপতি অধ্যক্ষ রেজাউল করীম, সহ-সভাপতি জুমারত আলী। এসময় অনান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কুষ্টিয়া পল্লী বিদ্যুত সমিতির সাবেক এলাকা পরিচালক শফিউল আলম সান্টু, এলাকা পরিচালক কাঞ্চন কুমার হালদার, সুলতান মাহমুদ, ভেড়ামারা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার এবিএম মিজানুর রহমান, মিরপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার এনামুল হক, দৌলতপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন কুমারখালী পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার কামাল জিয়াউল ইসলাম। পরে এক দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে কুষ্টিয়া পল্লী বিদ্যুত সমিতি চত্ত্বরে একটি মসজিদ নির্মানের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন অতিথিরা।

মোহনা টিভি’র ১০ম জন্মদিনে ইবি দর্শক ফোরামের র‌্যালি, কেক কাটা ও আলোচনা সভা

মোহনা টেলিভিশনের ১০ম জন্মদিন উপলক্ষ্যে ইসলামী বিশ^বিদ্যালয় দর্শক ফোরামের আয়োজনে গতকাল সোমবার বিশ^বিদ্যালয়ের টি.এস.সি.সি’র ১১৬ নম্বর কক্ষে কেক কাটা এবং সংক্ষিপ্ত আলোচনা অনুষ্ঠান হয়।

মোহনা টেলিভিশনের ১০ম জন্মদিনে ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ের প্রীতি ও শুভেচ্ছা জানিয়ে ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারী বলেন, মোহনা টেলিভিশন বাংলাদেশের বেসরকারী প্রাইভেট টিভিচ্যানেলগুলোর মধ্যে অন্যতম প্রসিদ্ধ টেলিভিশন চ্যানেল হিসাবে ইতোমধ্যে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। মোহনা টেলিভিশনের সকল কর্মকান্ড মহান মুক্তিযুদ্ধের অসাম্প্রদায়িক চেতনায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অমর অবিনাশী আদর্শে পরিচালিত হয়। মোহনা টেলিভিশনের চেয়ারম্যান সংসদ-সদস্য কামাল আহমেদ মজুমদারের সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করে তিনি আরও বলেন, ইসলামী বিশ^বিদ্যালয় পরিবার আগেও মোহনা টেলিভিশনের সাথে ছিল, এখনও আছে এবং ভবিষ্যতেও থাকবে। প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ শাহিনুর রহমান বলেন, মোহনা টেলিভিশনটি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে পরিচালিত হচ্ছে এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের অগ্রযাত্রায় চ্যানেলটি সম্পৃক্ত। চ্যানেলটি বাংলাদেশের চলমান ঘটনাগুলো বস্তুনিষ্ঠতার সঙ্গে পরিবেশন করে। ট্রেজারার প্রফেসর ড. মোঃ সেলিম তোহা বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, বাঙালি সংস্কৃতির ভাবধারা, অসাম্প্রদায়িক বোধ এসবকে একত্রিত করে মোহনা টেলিভিশন তার অসীম মোহনীয় শক্তি দিয়ে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ, টক-শো, নাটক এবং সঙ্গীতানুষ্ঠানসহ নানান বিনোদনমূলক অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে খুবই দ্রুত সময়ের মধ্যে বাংলাদেশের একটি জনপ্রিয় চ্যানেলে পরিণত হয়েছে। কেক কাটা এবং সংক্ষিপ্ত আলোচনা অনুষ্ঠানে ইন্সটিটিউট অব ইসলামিক এডুকেশন এন্ড রিসার্চ (আইআইইআর)-এর পরিচালক প্রফেসর ড. মোহাঃ মেহের আলী, ছাত্র-উপদেষ্টা ও প্রক্টর (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর ড. পরেশ চন্দ্র বর্ম্মন, মোহনা টিভি’র কুষ্টিয়া প্রতিনিধি মিলন খন্দকার, ইসলামী বিশ^বিদ্যালয় সাংবাদিকবৃন্দ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। এর আগে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে মোহনা টেলিভিশনের ১০ম জন্মদিন উপলক্ষ্যে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

ঈদে মিলাদুন্নবী (সা:) উপলক্ষে কুন্টিয়াচর মাজিহাট মাদ্রাসায় আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল

মিলন আলী ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুর থানার কুর্শা ইউপির কুন্টিয়াচর মসজিদের ইমাম মাওলানা হারিজ উদ্দীনের সভাপতিত্বে কুর্শা ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি, সাবেক  চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান প্রধান অতিথি হিসাবে কুন্টিয়ার, মাজিহাট সুন্নিয়া মাদ্রাসায় ঈদে মিলাদুনবী (সা:) উপলক্ষে আলোচনা সভা আনন্দ শোভাযাত্রা ও দোয়ার মাহফিল কাঙ্গালীভোজ ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হয়।  দোয়া অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন কুর্শা ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারন সম্পাদক আব্দুল কাদের, কুন্টিয়াচর মসজিদের ইমান হাজী ফরিদ মাস্টার, আ’লীগ নেতা শহিদুল ইসলাম, মন্টু মন্ডল, মাওলানা ইলিয়াছ আলী, মাওলানা মাসুদুর রহমান, মাওলানা শাহ জালাল, মাওলানা ওয়ালীউল্লাহ, আজিজুল হক, সাবেক মেম্বর আশরাফুল হক, সাহাজার আলী ভেল্টু মেম্বর, মহর আলী মেম্বর, আবেদ আলী। বিশেষ দোয়া পরিচালনা করেন মাওলানা হাফেজ হারিসুর রহমান।

দৌলতপুর কলেজে ঈদে মিলাদুন্নবী ও কলেজের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার অন্যতম শ্রেষ্ঠ বিদ্যাপিঠ দৌলতপুর কলেজে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী ও কলেজের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন করা হয়েছে। এ উপলক্ষে রবিবার বেলা ১১টায় দৌলতপুর কলেজের লালন শাহ্ ভবন মিলনায়তনে আলোচনা সভা ও বিশেষ দোয়া মাহ্ফিল অনুষ্ঠিত হয়। দৌলতপুর কলেজের অধ্যক্ষ মো. ছাদিকুজ্জামান খান-এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, দৌলতপুর কলেজের উপাধ্যক্ষ মো. আজিজুল হক, রসায়ন বিভাগের প্রধান মো. নওয়াব আলী, অর্থনীতি বিভাগের প্রধান মো. শামসুর রহমান, বাংলা বিভাগের প্রধান মো. ওহিদুল ইসলাম, বাংলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সরকার আমিরুল ইসলাম, ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সাজেদা খাতুন, গণিত বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও শিক্ষক প্রতিনিধি লুৎফুন নাহার ছাবিনা ও রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক ও শিক্ষক প্রতিনিধি মো. নুরুল ইসলাম। সভাপতির বক্তব্যে দৌলতপুর কলেজের অধ্যক্ষ মো. ছাদিকুজ্জামান খান দৌলতপুর কলেজ প্রতিষ্ঠাকালীন যে সকল শিক্ষকবৃন্দ আছেন তাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এবং দৌলতপুর কলেজ প্রতিষ্ঠার পেছনে যাদের অবদান আছে তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করে বলেন, দৌলতপুর কলেজ একটি মহিমান্বিত দিনে অর্থাৎ ১৯৮৫ সালের ১২ রবিউল আউয়াল তারিখে প্রতিষ্ঠা লাভ করে। অনেক প্রতিকুল পরিবেশ মোকাবেলা করে দৌলতপুর কলেজ আজ খুলনা বিভাগের একমাত্র এবং দেশের অন্যতম শ্রেষ্ঠ বিদ্যাপিঠ মডেল কলেজে রূপান্তর হয়েছে। এর পেছনে আপনারা যারা দৌলতপুর কলেজে শিক্ষকতা করছেন তাদের অবদানের পাশাপাশি আমার আন্তরিক চেষ্টায় সফলতার উচ্চ শিখরে উঠতে সক্ষম হয়েছে। তিনি দৌলতপুর কলেজকে সামনের দিকে আরও এগিয়ে নেওয়ার জন্য শিক্ষকদের আন্তরিক সহযোগিতা এবং দৌলতপুর কলেজের প্রয়াত প্রতিষ্ঠাতাদের আত্মার শান্তি কামনা করেন। আলোচনা অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন প্রভাষক শরীফুল ইসলাম। শেষে বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া পরিচালনা করেন দৌলতপুর কলেজ মসজিদের ঈমাম মাও. মো. মনিরুল ইসলাম। আলোচনা ও দোয়া মাহ্ফিলে দৌলতপুর কলেজের সকল শিক্ষক-শিক্ষিকা ও কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন।

ভেড়ামারা আ’লীগের নব-নির্বাচিত সভাপতি ও সম্পাদককে প্রেসক্লাবের ফুলেল শুভেচ্ছা

আল-মাহাদী ॥ কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলা আওয়ামীলীগ’র নব-নির্বাচিত সভাপতি বিশিষ্ট রাজনৈতিক আলহাজ্ব রফিকুল আলম চুনু এবং সাধারন সম্পাদক পদে পুনরায় নির্বাচিত ভেড়ামারা পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব শামিমুল ইসলাম ছানাকে নৌকা সাদৃশ্য ফুলের তোড়া দিয়ে শুভেচ্ছা প্রদান করেছেন ভেড়ামারা প্রেসক্লাবের আহবায়ক কমিটির সাংবাদিকবৃন্দ। গতকাল সোমাবার দুপুর ১২টার দিকে সাংবাদিক  নেতৃবৃন্দ কোচষ্টান্ড সংলগ্ন রফিকুল আলম চুনুু’র রাজনৈতিক কার্যালয়ে যান এবং নব-নির্বাচিত সভাপতি সম্পাদকের হাতে নৌকা সাদৃশ্য ফুলের তোড়া তুলে দেন। এ সময় আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দের সাথে কুশল বিনিময় করেন সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ। ভেড়ামারা প্রেসক্লাবের আহবায়ক  দৈনিক যুগান্তর পত্রিকার ভেড়ামারা প্রতিনিধি রেজাউল করিম’র নেতৃত্বে ভেড়ামারা প্রেসক্লাবের যুগ্ন আহবায়ক ইসমাইল হোসেন বাবু, সাপ্তাহিক কুষ্টিয়ার মুখ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সাম্পাদক ডাঃ আমিরুল ইসলাম মান্নান,  দৈনিক মানবজমিন পত্রিকার সাংবাদিক শাহ্ জামাল, দৈনিক খোলা কাগজ এবং আন্দোলনের বাজার পত্রিকার প্রতিনিধি এস.এম. আবু ওবাইদা-আল-মাহাদী, সাংবাদিক ফিরোজ মাহমুদ, মাসুদ রানা, অধ্যাপক ফারুক  হোসেন, মিলন আলী, নোমান জহির রাজা, মাহমুদ্দোল্লাহ সোহেল, জাহিদ হাসান, জহিরুল কবির নবীন, সাগর হোসেন পবন, জহুরুল ইসলাম, সাংবাদিক রেজাউর রহমান তনু প্রমুখ সাংবাদিক উপস্থিত ছিলেন।

রোহিঙ্গা গণহত্যা

জাতিসংঘের আদালতে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে মামলা

ঢাকা অফিস ॥ রোহিঙ্গা গণহত্যার জন্য জাতিসংঘের সর্বোচ্চ আদালতে বিচারের মুখোমুখি হতে যাচ্ছে মিয়ানমার। নেদারল্যান্ডসের দি হেগের দি ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অব জাস্টিসে (আইসিজে) মিয়ানমারের বিরুদ্ধে সোমবার এই মামলা করেছে ওআইসিভুক্ত দেশ গাম্বিয়া। রোহিঙ্গা নিপীড়নের জন্য সমালোচনার মুখে থাকা মিয়ানমার এর মধ্য দিয়ে প্রথম আন্তর্জাতিক কোনো আদালতে বিচারের মুখোমুখি হতে যাচ্ছে। আইসিজে হল জাতিসংঘের প্রধান বিচারিক অঙ্গ; ১৯৪৫ সালে গঠনের পরের বছর থেকে এই আদালত কার্যকর। যুক্তরাজ্যের দৈনিক গার্ডিয়ান জানায়, গাম্বিয়া তাদের ৪৬ পৃষ্ঠার অভিযোগে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে রাখাইন রাজ্যে বসবাসরত রোহিঙ্গা মুসলমানদের নির্বিচারে হত্যা, ধর্ষণ এবং তাদের আবাস ধ্বংসের কথা বলেছে। ২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট রাখাইনে নিরাপত্তা বাহিনীর বেশ কিছু স্থাপনায় ‘বিদ্রোহীদের’ হামলার পর রোহিঙ্গাদের গ্রামে গ্রামে শুরু হয় সেনাবাহিনীর অভিযান। সেই সঙ্গে শুরু হয় বাংলাদেশ সীমান্তের দিকে রোহিঙ্গাদের ঢল। গত দ্ইু বছরে সাত লাখের বেশি রোহিঙ্গা প্রাণ বাঁচাতে বাংলাদেশে এসে আশ্রয় নেয়। তাদের কথায় উঠে আসে নির্বিচারে হত্যা, ধর্ষণ, জ্বালাও-পোড়াওয়ের ভয়াবহ বিবরণ, যাকে জাতিগত নির্মূল অভিযান বলে জাতিসংঘ। রোহিঙ্গা নির্যাতনের বিচারে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতেও (আইসিসি) মিয়ানমারের বিরুদ্ধে নালিশ গেছে। তার মধ্যেই জাতিসংঘের আদালতে মামলা করল আফ্রিকার দেশ গাম্বিয়া।গার্ডিয়ান লিখেছে, যদি আইসিজে মামলাটি বিচারের জন্য গ্রহণ করে, তবে এটাই হবে গণহত্যার নিজস্ব তদন্তে আইসিজের প্রথম উদ্যোগ। এর আগে তদন্তের ক্ষেত্রে তারা অন্য সংস্থার উপর নির্ভর করত।আইসিজের বিধি অনুসারে, জাতিসংঘের সদস্যভুক্ত এক দেশ অন্য দেশের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক আইন ভঙ্গের অভিযোগ তুলতে পারে। গণহত্যা প্রতিরোধ ও এর শাস্তি বিধানে ১৯৮৪ সালে স্বাক্ষরিত কনভেনশন লঙ্ঘনের অভিযোগ করা হয়েছে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে। ১৯৫৬ সালে ওই ‘জেনোসাইড কনভেনশনে’ সই করে মিয়ানমার। রোহিঙ্গা গণহত্যার জন্য মিয়ানমারকে বিচারের আওতায় আনতে যে ১০টি সংগঠন গাম্বিয়াকে সহায়তা করছে, তাদের একটি হল হিউম্যান রাইটস ওয়াচ ।

৮ম বারের মতো স্বীকৃতি পেলেন মডেল থানার আতিক

পুলিশ এবং সরকারের ভাবমূর্তি অক্ষুন্ন রাখার অঙ্গিকার

আমলা অফিস ॥ টানা ৮ম বারের মতো ভালো কাজের স্বীকৃতি সরূপ কুষ্টিয়া মডেল থানার এস আই আতিকুর রহমান আতিককে সম্মাননা প্রদান করেছে জেলা পুলিশ। এ জন্য তাকে জেলা পুলিশের পক্ষ হতে ক্রেষ্ট ও নগদ অর্থ প্রদান করা হয়েছে। গতকাল সোমবার জেলা পুলিশের মাসিক সভায় কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার এসএম তানভীর আরাফাত এর নিকট হতে এ অর্জন করার পুরস্কার গ্রহন করেন এস আই আতিকুর রহমান আতিক। জেলাব্যাপি মাদক নির্মূল ও সন্ত্রাস দমনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করা এবং ভালো কাজের স্বীকৃত স্বরূপ তিনি জেলা পুলিশের মধ্যে দ্বিতীয় হওয়ার গৌরব অর্জন করেছেন। ইতিপূর্বে এস আই আতিকুর রহমান আতিক ভালো কাজের স্বীকৃতি স্বরূপ ৭বার পুরষ্কার অর্জন করেন। তিনি কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার আমলা পুলিশ ক্যাম্পের আইসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তৎকালীন সময়ে তিনি ওই এলাকায় একের পর এক সাঁড়াশী অভিযান চালিয়ে অপরাধীদের  চোখের ঘুম হারাম করে দেন। এলাকায় শান্তিসহ আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির উন্নতি ঘটে। আমলা ক্যাম্প থেকে তিনি আলামপুর ক্যাম্প, পরে কুষ্টিয়া মডেল থানায় যোগদান করেছেন। এখানেও তিনি বিভিন্ন অভিযানে সফলতা পেয়েছেন। এবার দিয়ে তিনি ৮ম বারের মতো এ পুরষ্কার অর্জন করেছেন। এস আই আতিকুর রহমান আতিক সন্ত্রাসী এবং মাদকের বিরুদ্ধে জিহাদ ঘোষনা করে বলেন, অপরাধীদের সাথে আমার কোন আপোষ নেই। সকলের সহযোগিতা, ভালবাসা এবং দোয়া আমার সাথে থাকলে ডিপার্টমেন্ট (পুলিশ) এবং সরকারের ভাবমূর্তি অখুন্ন রাখবো ইনশাল্লাহ।

মিরপুরে গরীব ও অসহায় মানুষের জন্য বস্ত্র বিতরণ কেন্দ্রের উদ্বোধন

আমলা অফিস ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুরে গরীব ও অসহায় মানুষের বস্ত্রসহ বিভিন্ন সামগ্রী বিতরণ কেন্দ্রের উদ্বোধন করা হয়েছে। বাংলাদেশ  কেমিস্ট এন্ড ড্রাগিস্ট সমিতি উপজেলা শাখার উদ্যোগে গতকাল সোমবার সকালে পৌর মুক্তিযোদ্ধা পার্কে এ বিতরণ বিতরণ কেন্দ্রের উদ্বোধন করা হয়। বাংলাদেশ কেমিস্ট এন্ড ড্রাগিস্ট সমিতি উপজেলা শাখার সভাপতি নজরুল করিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পৌর মেয়র হাজী এনামুল হক। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জিয়ানুল হক খান বাবলু  চৌধুরী, আলম মন্ডল, বিএম হাসনাত রুবায়েত, পোড়াদহ আঞ্চলিক উপ-কমিটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক, মনিরুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক এম এ হাকিম প্রমুখ।

পোড়াদহে ট্রেনে কেটে অজ্ঞাত ব্যক্তির মৃত্যু

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়ার পোড়াদহে ট্রেনে কাটা পড়ে এক অজ্ঞাত ব্যক্তি (৫০)-এর মৃত্যু হয়েছে। শনিবার দিবাগত রাতে কুষ্টিয়া জেলার মিরপুর উপজেলার পোড়াদহ রেলওয়ে জংশন ষ্টেশনে এ ঘটনা ঘটে। পোড়াদহ রেলওয়ে থানার অফিসার ইনচার্য জসিম উদ্দিন খন্দকার জানান, শনিবার দিবাগত রাত ৩টা ১২ মিনিটের সময় ঢাকা হতে খুলনাগামী আন্তঃনগর চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেন পোড়াদহ জংশন ষ্টেশনের ২নং প্লাটফর্মে এসে পৌছায়। এ সময় ট্রেনটির নিচে কাটা পড়ে ঐ অজ্ঞাত ব্যক্তির মৃত্যু হয়। পরে লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল রিপোর্ট শেষে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করা হয়। ময়না তদন্তের পর গত ১০ নভেম্বর রবিবার দুপুরে কুষ্টিয়া পৌর গোরস্থানে তার লাশ দাফন করা হয়েছে। মৃত্যু ঐ ব্যক্তির পরনে সাদা শার্ট, সাদা গেঞ্জি ও চেক লুঙ্গি পরিহিত ছিল।

নানা আয়োজনে কুষ্টিয়ায় মোহনা টেলিভিশনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

নিজ সংবাদ ॥ “প্রতিষ্ঠাতার শুভক্ষণে উৎসবে মাটি” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে কুষ্টিয়ায় মোহনা টেলিভিশনের নবম বর্ষপূর্তি ও দশম বর্ষে পদার্পণ উপলক্ষে বর্ণাঢ্য আয়োজনে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। মোহনা টিভি দর্শক  ফোরাম আয়োজিত অনুষ্ঠানে কুষ্টিয়ায় কর্মরত বিভিন্ন গণমাধ্যমের সাংবাদিকরা পত্রিকার সম্পাদকসহ সর্বস্তরের জনসাধারণ এতে অংশগ্রহণ করেন। মোহনা  টেলিভিশনের কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি এসএম আকরামের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন কুষ্টিয়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক, দৈনিক আন্দোলনের বাজার পত্রিকার সম্পাদক ও চ্যানেল আই প্রতিনিধি আনিসুজ্জামান ডাবলু, এসএ টিভির কুষ্টিয়া প্রতিনিধি ও এডিটরস ফোরামের সাধারণ সম্পাদক নুর আলম দুলাল, টেলিভিশন জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি ও বাংলা ভিশনের কুষ্টিয়া প্রতিনিধি হাসান আলী, টেলিভিশন জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ও সময় টেলিভিশনের কুষ্টিয়া প্রতিনিধি এসএম রাশেদ, সমকাল ও ডিবিসি নিউজ এর কুষ্টিয়া প্রতিনিধি সাজ্জাদ রানা, একাত্তর টেলিভিশনের কুষ্টিয়া প্রতিনিধি শাহিন আলী, দৈনিক দিনের খবর পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক  ফেরদৌস রিয়াজ জিল্লু, যমুনা টেলিভিশনের কুষ্টিয়া প্রতিনিধি মাহাতাব উদ্দিন লালন, দৈনিক মাটির পৃথিবীর সম্পাদক এমএ জিহাদ, ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি আবুল কাশেম, দৈনিক দিনের খবর পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক অ্যাড. আবু হায়দার লিপু, দীপ্ত টিভির কুষ্টিয়া প্রতিনিধি দেবেশ চন্দ্র সরকার, নতুন সময় টেলিভিশনের কুষ্টিয়া প্রতিনিধি সনি আজিম, দৈনিক দিনের খবর পত্রিকার সহ-সম্পাদক এস এম মেহেদী হাসান ম্যাক, দৈনিক দিনের খবর পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক, এসএ টিভি ক্যামেরাপার্সন মোঃ হাবিব, একাত্তর টেলিভিশনের ক্যামেরাপার্সন কোহিনুর ইসলাম, যমুনা  টেলিভিশনের ক্যামেরাপার্সন রাকিব হাসান, এটিএন নিউজের ক্যামেরাপার্সন রুবেল হোসেন,  মোহনা টেলিভিশনের ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থানা প্রতিনিধি মিলন খন্দকার, বিশিষ্ট পাখি বিশেষজ্ঞ ও কুষ্টিয়া বার্ড ক্লাবের সভাপতি এসআই  সোহেলসহ প্রমুখ। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানে বক্তারা দেশের অন্যতম জনপ্রিয়  বেসরকারি স্যাটেলাইট টেলিভিশন চ্যানেল মোহনা টিভির সর্বাঙ্গীন সাফল্য কামনা করেন।

মন্ত্রিসভায় পিপিপি সংশোধন আইনের খসড়া অনুমোদিত

ঢাকা অফিস ॥ বিদ্যমান আইনে সরকার টু সরকার প্রকল্প গ্রহণ এবং তা বাস্তবায়নের বিধান রেখে ‘বাংলাদেশ সরকারি-বেসরকারি অংশীদারিত্ব (সংশোধান) আইন-২০১৯’র খসড়ার চূড়ান্ত নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে গতকাল সোমবার অপরাহ্নে বাংলাদেশ সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এ অনুমোদন দেয়া হয়। বৈঠকের পরে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দোকার আনওয়ারুল ইসলাম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন। তিনি বলেন, ‘জনগণের জীবন-মান উন্নয়ন, আর্থসামাজিক অগ্রগতি ত্বরান্বিত করা এবং অবকাঠামো গড়ে তোলার লক্ষ্যে দেশি-বিদেশি বিনিয়োগ আকৃষ্ট করার মধ্যদিয়ে বেসরকারি খাতের সঙ্গে অংশীদারিত্ব সৃষ্টির লক্ষ্যে ‘বাংলাদেশ সরকারি-বেসরকারি অংশীদারিত্ব আইন-২০১৫’ তথা ‘পিপিপি আইন’ প্রণয়ন করা হয়।’ সচিব বলেন, ‘পিপিপি আইন,২০১৫ তে জি টু জি প্রকল্পের কোন বিধান ছিল না। কিন্তু পিপিপি আইন,২০১৫ প্রবর্তিত হওয়ার পর সরকার বিভিন্ন দেশের সঙ্গে সমঝোতার ভিত্তিতে পিপিপি প্রকল্প (জি টু জি পিপিপি) বাস্তবায়নের উদ্যোগ গ্রহণ করে।’

দৌলতপুরে ৯টি অস্ত্র ও গুলিসহ অস্ত্র ব্যবসায়ী আটক

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে র‌্যাব অভিযান চালিয়ে ৯টি অস্ত্র, ৪টি ম্যাগাজিন ও ১৪ রাউন্ড গুলিসহ কাফিরুল ইসলাম (৪০) নামে শীর্ষ এক অস্ত্র ব্যবসায়ীকে আটক করেছে। শনিবার রাত সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার তারাগুনিয়া থানা মোড় এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। আটক অস্ত্র ব্যবসায়ী পাশর্^বর্তী মেহেরপুর জেলার গাংনী উপজেলার শওড়াতলা গ্রামের আব্দুস শুকুরের ছেলে। দৌলতপুর থানার ওসি এস এম আরিফুর রহমান জানান, র‌্যাব-৫ নাটোর ক্যাম্পের অভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার তারাগুনিয়া থানামোড় সংলগ্ন পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের সামনে অভিযান চালায়। এ সময় অস্ত্র ব্যবসায়ী কাফিরুল ইসলামকে অস্ত্রভর্তি একটি ব্যাগসহ আটক করা হয়। পরে ব্যাগে তল্লাশি করে ২টি বিদেশি পিস্তুল, ৬টি ওয়ান শুটার গান, ১টি ওয়ান শুটার সাদৃশ্য কাটা রাইফেল, ৪টি ম্যাগাজিন ও ১৪ রাউন্ড বিভিন্ন ধরনের গুলি উদ্ধার করা হয়। রাতেই র‌্যাব সদস্যরা আটক অস্ত্র ব্যবসায়ীকে অস্ত্রসহ দৌলতপুর থানায় সোপর্দ করে। এ ঘটনায় মামলা হলে রবিবার দুপুরে অস্ত্র ব্যবসায়ী কাফিরুল ইসলামকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।

দৌলতপুরে যুবলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে আওয়ামী যুবলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন করা হয়েছে। গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় উপজেলার আল্লারদর্গা দলীয় কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে যুবলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন করা হয়। দৌলতপুর যুবলীগের সভাপতি বুলবুল আহমেদ টোকেন চৌধুরীর সভাপতিত্বে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, দৌলতপুর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদের, যুগ্ম সম্পাদক বখতিয়ার রহমান বাচ্চু, যুবলীগ নেতা ওয়াসিম কবিরাজ, সালাউদ্দিন বাবু, ফজলুর রহমানসহ যুবলীগের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। আলোচনা শেষে দৌলতপুর যুবলীগের সভাপতি বুলবুল আহমেদ টোকেন চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদেরের নেতৃত্বে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর কেক কাটা হয়। এতে দৌলতপুর যুবলীগের সর্বস্তরের নেতা-কর্মী অংশ নেয়।

মেহেরপুরে মোহনা টেলিভিশনের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন

গাংনী প্রতিনিধি ॥ নানা আয়োজনের মধ্যদিয়ে মেহেরপুরের গাংনীতে মোহনা টেলিভিশনের ১০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত হয়েছে। গতকাল সোমবার সকাল ১১ টার দিকে চৌগাছা দারুল ইয়াতিম খানা ও মাদ্রাসায় আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল কেক কাটা ও বৃক্ষ রোপন কর্মসূচীর মধ্যদিয়ে ১০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন করা হয়। মোহনা টেলিভিশনের মেহেরপুর জেলা প্রতিনিধি ফারুক আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন মাওলানা মোহাম্মদ রইস উদ্দীন। এসময় মাওলানা দেলোয়ার হোসেন সহ এতিম খানার শিক্ষক শিক্ষার্থী, গাংনী উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি ইত্তেফাক সংবাদদাতা আমিরুল ইসলাম অল্ডামসহ প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। পরে এতিম শিক্ষার্থীদের দিয়ে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর কেক কাটা হয়। কেক কাটা শেষে মোহনা টেলিভিশনের প্রয়াত পরিচালক জিয়া উদ্দীন মজুমদারের রুহের মাগফেরাত কামনা ও বিশেষ দোয়া এবং মোনাজাত করা হয়। এছাড়া মাদ্রাসা চত্বরে ফলজ ও বনজ গাছের চারা রোপন করা হয়।

সভাপতি এনামুল ॥ সম্পাদক তাহা

মিরপুর পৌর আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন

আমলা অফিস ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুর পৌর আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ মিরপুর পৌর শাখার উদ্যোগে গতকাল সোমবার বিকেলে মিরপুর মহিলা ডিগ্রী কলেজ চত্বরে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি হাজী এনামুল হকের সভাপতিত্বে সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব সদর উদ্দিন খান। সম্মেলন উদ্বোধন করেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অ্যাডঃ আব্দুল হালিম। প্রধান বক্তা ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আজগর আলী। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি হাজী রবিউল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক ডাঃ আমিনুল হক রতন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামারুল আরেফিন, জেলা আওয়ামীলীগের মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক মানিক কুমার ঘোষ, যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক খন্দকার ইকবাল মাহমুদ, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি পোড়াদহ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ আনোয়ারুজ্জামান মজনু বিশ্বাস। উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল্লাহ-আল-মতিন লোটাসের পরিচালনায় এ সময়ে জেলা আওয়ামীলীগের সহ-প্রচার সম্পাদক আব্দুল লতিফ দিঘা, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি সদরপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রবিউল হক রবি, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আতাহার আলী, আমলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম মালিথা, সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল আলম বিশ্বাস, কামাল হোসেন,  জেলা যুবলীগের সভাপতি রবিউল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক বি এম জুবায়ের রিগান, দপ্তর সম্পাদক রাশেদুজ্জামান ছন্দ, অর্থ-সম্পাদক আব্দুল জলিল, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডঃ মর্জিনা খাতুন, উপজেলা পরিষদের আবুল কাশেম জোয়ার্দ্দার, মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান মর্জিনা খাতুন, ফুলবাড়ীয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী আব্দুস সালাম, ধুবইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহাবুর রহমান মামুন, চিথলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন পিস্তুল, বহলবাড়ীয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সোহেল রানা বিশ্বাস, বাহলবাড়ীয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি এনামুল হক বাবলা, বহলবাড়ীয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি নাজরুল ইসলাম মানিক, মালিহাদ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আকরাম হোসেন, আমবাড়ীয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল বারী টুটুল, পোড়াদহ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম সবেদ, উপজেলা যুবলীগের সধারণ সম্পাদক আব্দুল হালিম বিশ্বাস, উপজেলা কৃষকলীগের সভাপতি জমির উদ্দিন, উপজেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি শারমিন আক্তার নাসরিন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। সম্মেলন শেষে পুনরায় হাজী এনামুল হককে সভাপতি ও এস এম মুশফিকুর রহমান তাহাকে সাধারণ সম্পাদক করে ত্রি-বার্ষিক কমিটি গঠন করা হয়।

 

দৌলতপুরে সৌদি প্রবাসীর বাড়ি থেকে বোমা উদ্ধার

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে সৌদি প্রবাসী আসাদুল ইসলামের বাড়ি থেকে একটি বোমা উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার বোয়ালিয়া ইউনিয়নের গোয়ালগ্রামের প্রবাসী আসাদুল ইসলামের বাড়ির উঠান থেকে লাল টেপ দিয়ে মুড়ানো বোমাটি উদ্ধার করা হয়। স্থানীয়রা জানায়, রবিবার গভীর রাতে কে বা কারা পেনসিল ব্যাটারি সংযুক্ত লাল টেপ দিয়ে মুড়ানো একটি বোমা সৌদি প্রবাসী আসাদুল ইসলামের বাড়ির উঠানে রেখে যায়। গতকাল সকালে বোমাটি উঠানে পড়ে থাকতে দেখে বাড়ির লোকজন দৌলতপুর থানা পুলিশকে জানায়। খবর পেয়ে পাশর্^বর্তী শ্যামপুর ক্যাম্পের পুলিশ বোমাটি উদ্ধার করে ক্যাম্পে নিয়ে তা নিস্ক্রিয় করে। তবে কারা বোমাটি ওই বাড়িতে রেখেছে পুলিশ তা জানাতে পারেনি।

ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্যদিয়ে কুষ্টিয়া বারো শরীফ দরবারে ঈদে মিলাদুন্নবী সাঃ উদযাপন

নিজ সংবাদ ॥ যথাযোগ্য মর্যাদা ও ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্যদিয়ে কুষ্টিয়ায় পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী সাঃ উদযাপন করা হয়েছে। বারো শরীফ দরবার কমিটির উদ্যোগে শনিবার সন্ধ্যা ৭টায় শিশু কিশোরদের হাম, নাতসহ বিভিন্ন বিষয়ে প্রতিযোগীতা আয়োজন করা হয়। এছাড়া বাদ এশা মিলাদ মাহফিল, মাজার গিলাফ চড়ানো আয়োজন করা হয়। অন্যদিকে পরের দিন রবিবার ১২ রবিউল আওয়াল ভোর ৬টায় বারো শরীফ দরবার থেকে একটি র‌্যালী বের হয়। এতে মাজার শরীফের শতশত ভক্তনুসারী অংশ গ্রহন করেন। ঈদে মিলাদুন্নবী সাঃ উপলক্ষে বারো শরীফ দরবার কমিটি মাজার প্রাঙ্গন সুসজ্জ্বিত করা হয়।

খোকসায় সন্ত্রাসী হামলায় নামাজরত মুয়াজ্জিমসহ পৃথক ঘটনায় ৭জন আহত

খোকসা প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার খোকসায় গভীর রাতে মসজিদে নামাজরত মুয়াজ্জিমের উপর সন্ত্রাসী হামলাসহ তিনটি পৃথক ঘটনায় কমপক্ষে সাতজন আহত হয়েছে। জানা গেছে, রবিবার দিনগত গভীর রাতে উপজেলার ওসমানপুর ইউনিয়ননের হিজলাবট জামে মসজিদে নামাজরত মুয়াজ্জিম মোঃ এমদাদুল ইসলাম (৬০) এর উপর সন্ত্রাসীরা হামলা চালায়। এ সময় তিনি (মুয়াজ্জিম) মসজিদের ভিতরে তাহাজ্জতের নামাজ আদায়রত ছিলেন। রক্তাক্ত আহত মুয়াজ্জিমের আত্মচিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন বয়োবৃদ্ধ মুয়াজ্জিম মোঃ এমদাদুল ইসলাম জানান, ফজরের আজানের কিছুটা সময় বাঁকী থাকায় তিনি তাহাজ্জতের দুই রাকাত নামাজ আদায়ের জন্য নিয়ত করে দাঁড়ান। এমন সময় পেছন থেকে তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করা হয়। তিনি আহত অবস্থায় চিৎকার করলে কালো জ্যাকেট পড়া এক সন্ত্রাসী পালিয়ে যায়। তবে সন্ত্রাসীরা এক জোড়া স্যান্ডেল ফেলে গেছে বলে তিনি জানান। তিনি ৫০ বছর ধরে নিজের গ্রামের এই সমজিদে মুয়াজ্জিম হিসেবে বিনা পারিশ্রমিকে কাজ করছেন বলেও জানান। তার কোন শক্র নেই বলেও তিনি দাবি করেন।

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনিসুর রহমান জানান, সন্ত্রাসী হামলায় আহত মুয়াজ্জিম এমদাদুল ইসলাম সৎ মানুষ। সারাজীবন তিনি মসজিদ নিয়ে পরে আছেন। তার উপর হামলার ঘটনা অত্যন্ত দুঃখজনক। খোকসা থানার সহকারী পুলিশ পরিদর্শক (এসআই) আব্দুর রহমান জানান, সকালে খবর পেয়ে তিনি এলাকায় গিয়েছিলেন। আহত মুয়াজ্জিমকে থানায় অভিযোগ দিতে বলেছেন। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ কামরুজ্জামান সোহেল জানায়, মুয়াজ্জিমের উপর ধারালো অস্ত্রদিয়ে আঘাত করা হয়েছিল। তার একটি ক্ষতে প্রায় ১৭টি সেলাই লেগেছে। তবে তিনি সুস্থ্য আছেন।

এ ছাড়া উপজেলা আমবাড়িয়া দাখিল মাদ্রাসা পরিচালনা পরিষদের নির্বাচন কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় জিকু খান নামে এক প্রার্থী আহত হয়েছেন। সোমবার সকালে উপজেলা পরিষদের প্রধান গেটে প্রতিপক্ষের লোকেরা তার উপর হামলা করে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগে চিকিৎসাধীন জিকু খান জানান, আগামী ১৪ নভেম্বর মাদ্রাসা পরিচালনা পরিষদের নির্বাচন। নির্বাচন সামনে রেখে প্রতিপক্ষ তাদের হুমকী ধামকী দিচ্ছে। এ নিয়ে তিনি থানায় মামলা করতে যাওয়ার পথে উপজেলা পরিষদের ভিতরে তার উপর হামলা করা হয়। তিনি মামলা করবেন। আমবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আমিনুর রহমান খান পরে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানাবেন বলে জানান। এ ছাড়া রাস্তায় পাতা শুকানো কেন্দ্র করে উপজেলার মানিকাট গ্রামে দুই পক্ষের মধ্যে হামলা পাল্টা হামলার ঘটনায় শ্যামলী (৫০), মানিক (২৬), মতিন (৩২) ও তার স্ত্রী সেলিনা (২৫) এবং প্রতিপক্ষের আনোয়ার (৩৫) আহত হয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

কুষ্টিয়া জেলা আইনশৃংখলা কমিটির সভায় ডিসি আসলাম হোসেন

মাদক ও সন্ত্রাস দমনে নিজেদের দায়িত্ববোধ বাড়াতে হবে

আরিফ মেহমুদ ॥ কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক মোঃ আসলাম হোসেন বলেছেন, মাদকদ্রব্য পরিবার, দেশ তথা রাষ্ট্রে অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরী করছে। আগামীর নেতৃত্বদানকারী আজকের প্রজন্মকে মাদকের ছোয়া থেকে বাইরে রাখতে বেশি বেশি করে সচেতন হতে হবে। জেলাকে মাদকের ভয়াবহতা মুক্ত করতে নিজেদের দায়িত্ববোধ থেকেই মাদকের মুল উৎপাটন ও জঙ্গী হামলা সহ সন্ত্রাস দমন করতে হবে। এলাকায় কোন অপরিচিতি কিংবা সন্দেভাজন কাউকে দেখলেই আপনার নিকটস্থ পুলিশ প্রশাসনকে খবর দিন। সচেতনতায় বড় ধরনের বিপদ থেকে রক্ষা করতে পারে। কোন বহনকারীকে সাজা দেয়ার আগে তার তথ্য মতে মাদকের নাটের গুরু গডফাদারকে আইনের আওতায় আনা হবে। সে যে দলেরই হোক না কেন। জেলায় মাদকের ব্যবহার কমাতে মাদকদ্রব্য অধিদপ্তরসহ আইনশংখলা বাহিনী নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছে। তাদেরকে সার্বিক সহযোগিতা করতে এগিয়ে আসতে হবে। গতকাল  সোমবার সকালে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জেলা আইন-শৃংখলা কমিটির মাসিক সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, মাদক নির্মুলে ও বাজার দর নিয়ন্ত্রণে বিশেষ করে সারা দেশের ন্যায় কুষ্টিয়াতেও পেঁয়াজের দাম নিয়ন্ত্রের বাইরে চলে যাচ্ছে। কোন সংকটের কারনে দাম বৃদ্ধি পাচ্ছে নাকি ব্যবসায়ীরা সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট করতে ইচ্ছাকৃতভাবে পেঁয়াজের দাম বাড়িয়ে সংকট তৈরী করছে বিষয়টি খতিয়ে দেখতে যে মোবাইল কোর্টসহ অভিযান চলছে, তা আগের মতই চলবে। এক্ষেত্রে আইনের প্রয়োগ যেন যথার্থই হয় সেদিকে লক্ষ্য রেখে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করতে হবে। এতে কিছু মানুষ ক্ষুদ্ধ হলেও অভিযুক্তকে তাৎক্ষনিক সাজা প্রদান করায় দেশের অধিকাংশ মানুষই এই মোবাইল কোর্টকে গ্রহন করেছেন।

তিনি ইউএনও এবং নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের উদ্দেশ্যে বলেন, মনে রাখতে হবে অভিযান চলাকালীন সময়ে নানান পরিচয় দিয়ে তোমাকে যেন তার পক্ষে ব্যবহার করতে না পারে।

তিনি বলেন, জনজীবনে দূর্ভোগ সৃষ্টি করে কোন বিশৃংখলা করতে দেয়া হবে না। দূর্ভোগ সৃষ্টিকারীদের কঠোরহস্তে দমন করা হবে। জননিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আইনশৃংখলা রক্ষা বাহিনীর পাশাপাশি আপনাদের সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। আইনশৃংখলা রক্ষা বাহিনীর একার পক্ষে  গোটা জেলাকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষা করা সম্ভব নয়। কোনভাবেই জেলায় কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটতে দেয়া হবে না।

সভায় কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার এস এম তানভীর আরাফাত বলেন, জেলাকে মাদকের ভয়াবহতামুক্ত করতে নাটের গুরু গডফাদারকে আইনের আওতায় আনা হবে। কিন্তু মাদকের চেয়ে বর্তমানে জেলায় কিশোর গ্যাংয়ের প্রভাব ঘটেছিল। ভয়াবহ রূপ নিয়েছিল তাদের কর্মতৎপরতা। আপনাদের সার্বিক সহযোগিতায় সেটি বর্তমানে নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। কিশোর অপরাধ বন্ধে এবং সচেতনতা বৃদ্ধিতে তৃণমূল পর্যায়ে উঠান বৈঠকসহ অভিভাবক বৈঠক করা হয়েছে।  এতেও যদি বন্ধ না হয় তাহলে আইনের সর্বচ্চ প্রয়োগ করা হবে। বিগত মাসের প্রতিবেদন তুলে ধরে তাকে সার্বিক সহযোগিতা করেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট লুৎফুন নাহার। সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ রওশন আরা বেগম, কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডাঃ নুরুন্নাহার বেগম, মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ সফিকুর রহমান খান,  দৌলতপুর উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাড. এজাজ আহমেদ মামুন, ভেড়ামারা উপজেলা চেয়ারম্যান আক্তারুজ্জামান মিঠু, কুষ্টিয়া পৌরসভার প্যানেল মেয়র মতিয়ার রহমান মজনু, কুষ্টিয়া সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জুবায়ের হোসেন চৌধুরী, দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শারমিন আক্তার, কুমারখালি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাজিবুল ইসলাম খান, ভেড়ামারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সোহেল মারুফ, মিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লিংকন বিশ^াস, খোকসা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মৌসুমী জেরিন কান্তা, জেল সুপার জাকের হোসেন, জেলা আনসার ভিডিপি কমান্ডার তরফদার আলমগীর হোসেন, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার আলহাজ¦ রফিকুল আলম টুকু, গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী আরিফুজ্জামান, কুষ্টিয়া জিলা স্কুলে প্রধান শিক্ষক এফতে খাইরুল ইসলাম, বিআরটিএ’র ইন্সপেক্টর ওমর ফারুক, বিএফএ-সাধারণ সম্পাদক আব্দুল লতিফ, বড় বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মোকারম হোসেন মোয়াজ্জেম, কুষ্টিয়া চেম্বার অব কমার্সের প্রতিনিধি এস এম কাদেরী শাকিল, পল্লীবিদ্যুতের জিএম হারুন-অর-রশিদ, জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা জাহেদুল হক, জেলা তথ্য কর্মকর্তা তৌহিদুজ্জামান, জেলা শিশু কর্মকর্তা মখলেছুর রহমান বাজার মনিটরিং অফিসার রবিউল ইসলাম প্রমুখ। সভায় এছাড়াও নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সংযোগ বজায় রাখা, আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর নিয়মিত টহল অব্যাহত রাখা, পল্লী বিদ্যুতের ট্রান্সফরমার চুরি প্রতিরোধ, ইভটিজিং, কুষ্টিয়া সরকারী কলেজে বহিরাগতদের উপদ্রব বন্ধে ব্যবস্থা গ্রহন, যৌন হয়রানী এবং চলচ্চিত্রে অশ্লীলতা প্রতিরোধ, অবৈধ যান চলাচল নিয়ন্ত্রণ, মানব পাচাররোধ, বকেয়া বিদ্যুৎ বিল আদায়, ফরমালিন সনাক্তকরণে ফলের স্যাম্পল সংগ্রহকরণ ইত্যাদি বিষয়ে বিশদ আলোচনা করা হয়।