ইবিতে ৩ নভেম্বর জেল হত্যা দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচী গ্রহন

ইসলামী  বিশ্ববিদ্যালয়ে ৩ নভেম্বর ৪৫তম জেল হত্যা দিবস উপলক্ষ্যে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বিভিন্ন কর্মসূচী গ্রহন করেছেন। কর্মসূচীর মধ্যে রয়েছে আজ রবিবার সকাল ১১টায় প্রশাসন ভবন সামনে হতে ভাইস-চ্যান্সেলর  প্রফেসর ড. মোঃ  হারুন-উর-রশিদ  আসকারী’র নেতৃত্বে শোক র‌্যালি। এ সময় উপস্থিত থাকবেন প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর  প্রফেসর  ড. মোঃ শাহিনুর  রহমান, ট্রেজারার প্রফেসর ড. মোঃ সেলিম তোহা ও রেজিস্ট্রার (ভারঃ) এস.এম আব্দুল লতিফ এবং বিভিন্ন অনুষদের সম্মানিত ডিনবৃন্দ, প্রভোস্টবৃন্দ, সভাপতিবৃন্দ, প্রক্টর, ছাত্র-উপদেষ্টা ও অফিস প্রধানসহ সকল পর্যায়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনসমূহ। শোক র‌্যালিটি  ক্যাম্পাসের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে প্রশাসনভবনের সামনে ৪৫তম জেল হত্যা দিবস উপলক্ষে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় মিলিত হবে। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখবেন  ভাইস-চ্যান্সেলর  প্রফেসর ড. মোঃ  হারুন-উর-রশিদ  আসকারী। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখবেন প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর  প্রফেসর  ড. মোঃ শাহিনুর  রহমান, ট্রেজারার প্রফেসর ড. মোঃ সেলিম  তোহা। স্বাগত বক্তব্য রাখবেন রেজিস্ট্রার (ভার:) এসএম আব্দুল লতিফ। জেল হত্যা দিবস উপলক্ষে  আলোচনাসভায়  সভাপতিত্ব করবেন কমিটির সম্মানিত আহবায়ক ছাত্র-উপদেষ্টা ও প্রক্টর (চলতি দায়িত্ব) প্রফেসর  ড. পরেশ চন্দ্র বর্মণ। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

গাংনীর সেই এতিম শিশুদের সহায়তা দিলেন পৌর কাউন্সিলর মিজান

মেহেরপুর প্রতিনিধি  ॥ মেহেরপুরের গাংনীর কসবা গ্রামের সেই এতিম শিশুদের প্রতি সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন শিশির পাড়ার কয়েকজন যুবক। শনিবার বিকাল সাড়ে ৪টায় এতিম শিশুদের দোকানের জন্য মুদিয় মালামাল তুলে দেন গাংনী পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আওয়ামীলীগ নেতা মিজানুর রহমান মিজান। এসময় আল আমিন হোসেন, বাবু, হৃদয়, মাজেদুল হক, হুসাইন, সাকিব, নাঈম, সাহেব ও মিরাজ উপস্থিত ছিলেন। মানবিক কারনে এতিম শিশুদের পাশে দাঁড়ানোর আহবান জানিয়ে গাংনী পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আওয়ামীলীগ নেতা মিজানুর রহমান বলেন- আমাদের সকলের উচিৎ এতিম শিশুদের জন্য সহায়তা করা। এই এতিম শিশুদের মানুষের মত মানুষ করতে পারলে এরাই একদিন প্রতিষ্ঠিত হয়ে সমাজের সেবা করবে। তিনি আরো বলেন বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে এই এতিম শিশুদের নিয়ে সংবাদ প্রকাশিত হওয়ায় তিনিসহ শিশিরপাড়া গ্রামের কতিপয় যুবক শিশুদের সহায়তার হাত বাড়ানোর ইচ্ছা পোষন করে। সেই ইচ্ছা ও মানবিকতার স্থান থেকে শিশুদের দোকানের মালামাল সহায়তা দেয়া হয়েছে। সমাজের বিত্তবানদের এতিম শিশুদের সহায়তায় এগিয়ে আসার আহবান জানান তিনি। আল আমিন হোসেন, বাবু, হৃদয়, মাজেদুল হক, হুসাইন, সাকিব, নাঈম, সাহেব ও মিরাজ জানান, এতিম শিশুদের সম্প্রতি কিছু আর্থিক সহায়তা দেয়া হয়েছিলো। মানবতার কারনে শিশুটির দোকানে কিছু মালামাল সহায়তা দেয়া হলো।

ঝিনাইদহ হলিধানী ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি আব্দুর রশিদ বহিস্কার

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ॥ ঝিনাইদহের হলিধানী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও যুদ্ধাধাপরাধী মামলায় গ্রেফতার আব্দুর রশিদ মিয়াকে দল থেকে বহিস্কার করা হয়েছে। গ্রেফতারের পর তাকে দল থেকে বহিস্কার করা হয়। শনিবার সকালে এ তথ্য নিশ্চিত করেন ঝিনাইদহ সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং উপজেলা চেয়ারম্যান এড আব্দুর রশিদ ও সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম হিরন। হলিধানী ইউনিয়নের বর্তমান ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে হাজী আব্দুল হাশেমকে। তিনি হলিধানী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ছিলেন। হলিধানী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আজিজ মাস্টার স্বীকার করেছেন হাজী হাশেমকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এদিকে হলিধানী বালিকা বিদ্যালয়, হলিধানী মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও হলিধানী মাদ্রাসার সভাপতি পদ থেকেও মানবতা বিরোধী অপরাধ মামলার আসামী আব্দুর রশিদকে অপসারণের প্রক্রিয়া চলছে বলে ঝিনাইদহ জেলা শিক্ষা অফিস ও যশোর শিক্ষা বোর্ডের একটি সুত্র জানান। সুত্র মতে, কোন রাজাকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সভাপতি থাকবে না। এলাকাবাসির অভিযোগ এ সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক নিয়োগের নামে লাখ লাখ টাকার বাণিজ্য করা হয়। এদিকে হলিধানীতে রাজাকারের নামে প্রতিষ্ঠিত প্রতিবন্ধি স্কুলটি অপসারনের দাবি জানিয়েছে এলাকাবাসি। প্রতিবন্ধি স্কুলেও শিক্ষক নিয়োগের নামে লাখ লাখ টাকার বাণিজ্য করে।

কালুখালীতে শান্তিপূর্ণভাবে জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত

ফজলুল হক ॥ রাজবাড়ী জেলাধীন কালুখালীতে সারা দেশের ন্যায় শান্তিপূর্ণভাবে জেএসসি  ও জেডিসি পরীক্ষা ২০১৯ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকাল ১০ টা থেকে শুরু হয়ে দুপুর ১টা পর্যন্ত পরীক্ষা চলাকালীন সার্বিক দায়িত্ব পালন করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) শেখ নুরুল আলম এছাড়াও হোগলাডাঙ্গী মাদরাসা কেন্দ্রে সহকারী কমিশনার (ভূমি) রাজবাড়ী মোঃ আসাদুজ্জামান। এ বছরে  উপজেলার ৩টি কেন্দ্রের মধ্যে কালুখালী উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রে বাংলা ১ম পত্রে ১৫৭৬ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ১৫৪১জন অংশগ্রহণ করে। মৃগী বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ১০৩০ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ১০১৩জন অংশগ্রহণ করে। এছাড়াও জেডিসি পরীক্ষায় হোগলাডাঙ্গী এমআই কামিল মডেল মাদরাসা কেন্দ্রে কুরআন মাজিদ বিষয়ে ৩৯৮ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৩৭৬জন অংশগ্রহণ করে। পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে স্ব স্ব কেন্দ্রে দায়িত্ব পালন করেন কেন্দ্র সচিব এমএ খালেক, শাজাহান আলী, মাওঃ মোঃ আব্দুর রব এবং সহ-সচিব হিসেবে মোঃ রিজাউল আলম, মোখলেছুর রহমান, শিহাব উদ্দিন মোল¬া, ফরিদ শেখ, সুভাষ চন্দ্র মন্ডল ও হল সুপার হিসেবে আইয়ুব আলী, মোঃ ইয়াকুব আলীসহ আইন শৃঙ্খলা পুলিশ বাহিনীর সদস্যরা দায়িত্ব পালন করেন।

গাংনীতে জাতীয় সমবায় দিবস পালিত

গাংনী প্রতিনিধি ॥ সারাদেশের ন্যায় মেহেরপুরের গাংনীতে ৪৮তম জাতীয় সমবায় দিবস পালিত হয়েছে। গতকাল শনিবার এ উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। গাংনী উপজেলা প্রশাসন ও সমবায় দপ্তর এবং সমবায়ীবৃন্দ র‌্যালি ও আলোচনা সভার আয়োজন করে। উপজেলা পরিষদ সভাক্ষে অনুষ্ঠিত এ আয়োজনে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার দিলারা রহমান। এদিন  সকাল ১০টার দিকে গাংনী উপজেলা শহরে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করা হয়। পরে উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন মেহেরপুর-২ (গাংনী) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য মোহাম্মদ সাহিদুজ্জামান খোকন। বিশেষ অতিথির বক্তব্য গাংনী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও মেহেরপুর জেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক এমএ খালেক। এ সময় বক্তব্য রাখেন গাংনী পৌরসভার মেয়র আশরাফুল ইসলাম, জেলা আ.লীগের সহ-সভাপতি সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব সিরাজুল ইসলাম স্যার, গাংনী উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফারহানা ইয়াসমিন, আ.লীগ নেতা মোখলেছুর রহমান মুকুল। স্বাগত বক্তব্য রাখেন গাংনী উপজেলা সমবায় অফিসার মিলন কুমার দাশ।

বাংলাদেশে জঙ্গিবাদ কমেছে – যুক্তরাষ্ট্র

ঢাকা অফিস ॥ বাংলাদেশে জঙ্গি হামলার গতি ও মাত্রা ধারাবাহিকভাবে কমেছে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। শুক্রবার ‘কান্ট্রি রিপোর্টস অন টেরোজিম-২০১৮’ শীর্ষক বৈশ্বিক বার্ষিক জঙ্গিবাদবিষয়ক মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এই প্রতিবেদনে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ২০১৮ সালের জঙ্গিবাদ পরিস্থিতি সম্পর্কে পর্যবেক্ষণ তুলে ধরা হয়েছে। এতে বাংলাদেশ অংশে বলা হয়েছে, ২০১৮ সালে বাংলাদেশে জঙ্গি হামলার গতি ও মাত্রা ধারাবাহিকভাবে কমেছে। যদিও পৃথক ঘটনায় একজন সেক্যুলার লেখক খুন ও একজন বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যাপক গুরুতর আহত হয়েছেন। বাংলাদেশের নিরাপত্তাবাহিনী সন্ত্রাসবিরোধী অভিযান চালিয়ে হামলা পরিকল্পনা নস্যাৎ, সন্দেহভাজন জঙ্গি নেতাদের গ্রেফতার, অস্ত্র, গোলাবারুদ ও বিস্ফোরক দ্রব্য জব্দ করেছে। তবে জঙ্গিদের সফল বিচারের ক্ষেত্রে বিচারিক বাধা ও সন্ত্রাসবিরোধী অভিযানের সফলতাকে আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর বিচারবহির্ভূত হত্যাকান্ড ম্লান করেছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে। জঙ্গিবাদ এবং জঙ্গিদের ভূ-স্বর্গ হিসেবে বাংলাদেশকে ব্যবহার করতে না দিতে জঙ্গিদের বিরুদ্ধে সরকার ‘জিরো টলারেন্স নীতি’ অব্যাহত রেখেছে বলে প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে। প্রায়ই জঙ্গি হামলার জন্য বাংলাদেশ সরকার স্থানীয় জঙ্গিগোষ্ঠীকে দায়ী করেছে। কিন্তু বাংলাদেশে ২০১৫ সাল থেকে প্রায় ৪০টি হামলার দায় স্বীকার করেছে ভারতীয় উপমহাদেশের জঙ্গিগোষ্ঠী আল-কায়েদা ইন ইন্ডিয়ান সাব কন্টিনেন্ট (একিউআইএস) ও আইএস। মার্কিন এই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ থেকে অনুসারী দলে টানতে ও নিজেদের মতাদর্শ ছড়িয়ে দিতে জঙ্গিগোষ্ঠীগুলো সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমকে ব্যবহার করছে। আইএস এবং একিউআইএস তাদের বিভিন্ন ধরনের প্রকাশনা, ভিডিও ও ওয়েবসাইটে বাংলাদেশি জঙ্গিদের উপস্থাপন করেছে। গত বছরের ১১ জুন সন্দেহভাজন জঙ্গিরা মুন্সিগঞ্জের সেক্যুলার লেখক ও রাজনৈতিক কর্মী শাজাহান বাচ্চুকে খুন করে। এ ঘটনায় এখনও তদন্ত চলমান থাকলেও খুনীরা একিউআইএসের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট নয় বলে বাংলাদেশের নিরাপত্তাবাহিনীর সদস্যদের ধারণা। সিলেটের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক জাফর ইকবালকে ইসলামের শক্র ঘোষণা দিয়ে গত ৩ মার্চ তার ওপর হামলা চালায় নিজেকে একিউআইএসের সদস্য দাবি করা এক ব্যক্তি। তবে একিউআইএস কিংবা অন্য কোনো জঙ্গিগোষ্ঠীর সঙ্গে ওই ব্যক্তির সম্পর্ক নেই বলে বাংলাদেশ সরকারের তদন্তে জানা গেছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের সন্ত্রাসবাদবিরোধী ২০০৯ সালের একটি আইন ২০১২ এবং ২০১৩ সালে সংশোধন করার পরও ২০১৮ সালে বাস্তবায়নাধীন ছিল। গত বছরের ৫ এপ্রিল বাংলাদেশ সরকার সন্ত্রাসবাদবিরোধী আইনে প্রথমবারের মতো ঢাকা এবং চট্টগ্রামে দু’টি সন্ত্রাসবাদবিরোধী বিশেষ আদালত গঠন করে। ঢাকার বিশেষ আদালতে প্রথম মামলা হিসেবে ২০১৬ সালের ডিসেম্বরে হলি আর্টিসান বেকারি জঙ্গি হামলায় সংশ্লিষ্ট ছয়জনের বিচার শুরু হয়। আইনি ও পদ্ধতিগত বেশ কিছু সীমাবদ্ধতা থাকলেও বাংলাদেশ সন্দেহভাজন বিদেশি জঙ্গিদের অন্য অভিযোগে বিদ্যমান আইনেই গ্রেফতার করছে। যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তায় সীমান্ত এবং বন্দরে প্রবেশ নিয়ন্ত্রণে কড়াকড়ি আরোপ করেছে বাংলাদেশ। ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরের নিরাপত্তা প্রক্রিয়া নিয়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের উদ্বেগ থাকলেও ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে ইন্টারন্যাশনাল সিভিল এভিয়েশন অর্গানাইজেশন তাদের বিমান সুরক্ষা মানের ৭৭ দশমিক ৪৬ শতাংশ কার্যকর বলে সম্মতি দেয়। যা আন্তর্জাতিক এই বিমান পরিবহন সংস্থার ২০১২ সালের এক নিরীক্ষা মানের চেয়ে ২৬ শতাংশেরও বেশি। ইন্টারপোলের সঙ্গে আইনপ্রয়োগের তথ্য বিনিময় করলেও জঙ্গিদের পর্যবেক্ষণের জন্য বাংলাদেশের নির্দিষ্ট কোনো ওয়াচলিস্ট নেই বলে প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে। এছাড়া বাংলাদেশে ইন্টারেক্টিভ কোনো এপিআই ব্যবস্থা নেই। মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের এই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের র‌্যাব, কাউন্টার টেরোরিজম ও ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট এবং বাংলাদেশ পুলিশের অন্যান্য শাখা সন্দেহভাজন জঙ্গিদের গ্রেফতার ও অভিযান অব্যাহত রেখেছে। এসব অভিযানে অনেক সন্দেহভাজন জঙ্গি নিহত হয়েছে। অনেক সময় এসব হত্যাকান্ডকে ক্রসফায়ার কিংবা গোলাগুলি বলে জানানো হচ্ছে। তবে পর্যবেক্ষকরা সন্ত্রাসবাদবিরোধী কিছু অভিযানের সত্যতা ও গুরুত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। যুক্তরাষ্ট্রের জঙ্গিবাদবিরোধী সহায়তা কার্যক্রমে অংশগ্রহণ অব্যাহত রেখেছে বাংলাদেশ। এছাড়া সঙ্কট মোকাবেলা, প্রমাণ সংগ্রহ, ক্রাইম সিন তদন্ত, অবকাঠামো সুরক্ষা, নেতৃত্বের বিকাশ এবং প্রশিক্ষকদের প্রশিক্ষণের পাশাপাশি সাইবার ও ডিজিটাল তদন্ত সক্ষমতা বাড়াতে প্রশিক্ষণ নিচ্ছে দেশটি। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিচার বিভাগের বিচারিক দক্ষতার প্রশিক্ষণ, কমিউনিটি পুলিশিং সহায়তা এবং স্বাক্ষ্য আইনের আধুনিকায়নের বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রযুক্তিগত পরামর্শও পেয়েছে বাংলাদেশ। সন্দেহভাজন সন্ত্রাসী ও জঙ্গিদের জন্য একটি অ্যালার্ট তালিকা তৈরিতে যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তা নিচ্ছে ঢাকা। যাতে দেশটির প্রবেশদ্বারে এই সন্দেহভাজনদের চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নেয়া যায়। বাংলাদেশে জঙ্গিবাদে বিদেশি অর্থায়নের ব্যাপারেও প্রতিবেদনে আলোচনা করা হয়েছে। কোনো বিদেশি সংস্থা কিংবা গোষ্ঠী; যারা সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে জড়িত তাদের কাছে থেকে অর্থ সংগ্রহে আইনি নিষেধাজ্ঞার কথাও বলা হয়েছে। জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে সচেতনতা  তৈরি করতে ধর্মীয় নেতা ও ইমামদের সঙ্গে সমন্বয় করে বাংলাদেশের ধর্ম মন্ত্রণালয় এবং জঙ্গিবাদ, প্রতিরোধ ও নির্মূল সংক্রান্ত জাতীয় কমিটি কাজ করছে। জঙ্গিবাদের প্রচারণা ঠেকাতে এবং ইসলাম যে জঙ্গিবাদ সমর্থন করে না তা ধর্মীয় নেতাদের মাধ্যমে তুলে ধরতে কাজ করছে পুলিশ।

ঝিনাইদহে জাতীয় সমবায় দিবস পালিত

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ॥ “বঙ্গবন্ধুর দর্শন, সমবায়ে উন্নয়ন” শ্লোগানকে সামনে রেখে ঝিনাইদহে ৪৮তম সমবায় দিবস পালিত হয়েছে। জেলা সমবায় বিভাগের আয়োজনে শনিবার সকালে শহরের পুরাতন ডিসি কোর্ট চত্বর থেকে একটি র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালীটি শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিন করে সদর উপজেলা পরিষদ চত্বরে গিয়ে শেষ হয়। পরে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা সমবায় অফিসার সৈয়দ নূরুল কুদ্দুসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ। বিশেষ অতিথি ছিলেন পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) কনক কুমার দাস, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাম্মী ইসলাম, জেলা সমবায় ইউনিয়নের সভাপতি মিজানুর রহমান। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে সদর উপজেলা সমবায় জাফর ইকবাল, জেলা সমবায় অফিসের পরিদর্শক রুহুল আমিন মোল্লাসহ অন্যান্যরা বক্তব্য রাখেন। এসময় বক্তারা বলেন, আসুন সবাই বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও সমবায় ভাবনাকে পাথেয় করে বাংলাদেশের সমবায় আন্দোলনকে সোনার বাংলা গড়ার হাতিয়ার হিসেবে যথার্থ অর্থে কাজে লাগায়। আর উন্নয়নের মহাসড়কে বাংলাদেশের অগ্রযাত্রাকে অব্যাহত রাখার ক্ষেত্রে সমবায়ের অন্তর্নিহিত শক্তির অপরিহার্যতা প্রমান করে টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করি।

 গাংনীতে সোলার ফ্যান বিতরণ

গাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের গাংনীতে সোলার হোম সিস্টেম  বৈদ্যুতিক পাখা (ফ্যান) বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে গাংনী উপজেলা অডিটোরিয়ামে পাখা বিতরণ করা হয়। সোলার রুরাল সার্ভিসেস ফাউন্ডেশনের সৌজন্যে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস পাখা বিতরণের আয়োজন করে। উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের ৩৪২জন পরিবারের মাঝে পাখা বিতরণ করা হয়। বিতরণ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা প্রকৌশলী নিরঞ্জন চক্রবর্তি। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে পাখা বিতরণ করেন মেহেরপুর-২ (গাংনী) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য মোহাম্মদ সাহিদুজ্জামান খোকন। বিশেষ অতিথি ছিলেন গাংনী পৌরসভার মেয়র আশরাফুল ইসলাম, গাংনী উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান একেএম শফিকুল ইসলাম, আ.লীগ নেতা মোখলেছুর রহমান মুকুল। এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন  তেঁতুলবাড়ীয়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান নাজমুল হুদা বিশ্বাস, আ.লীগ নেতা মনিরুজ্জামান আতু, মুক্তিযোদ্ধা আমিরুল ইসলাম, গাংনী পৌরসভার কাউন্সিলর নবীরুদ্দীন, গাংনী উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি আমিরুল ইসলাম অন্ডাম, আ.লীগ নেতা মোক্তারুল ইসলাম প্রমুখ।

খোকসায় জাতীয় সমবায় দিবস উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

খোকসা প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার খোকসায় ”বঙ্গবন্ধুর দর্শন, সমবায়ে উন্নয়ন” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে খোকসায় ৪৮তম জাতীয় সমবায় দিবসে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল শনিবার দুপুরে উপজেলা প্রশাসন, সমবায় অধিদপ্তর ও স্থানীয় সমবায়দের আয়োজনে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালী উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে শুরু হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক দক্ষিণ শেষে উপজেলা চত্বরে এসে শেষ হয়। র‌্যালী শেষে জাতীয় পতাকা ও সমবায় পতাকা উত্তোলন করা হয়। পরে  উপজেলা পরিষদ হল রুমে আলোচনা সভার সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মৌসুমী জেরিন কান্তা। স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা সমবায় অফিসার সাঈদ হাসান। প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও বেতবাড়ীয়া ইউপি চেয়ারম্যান বাবুল আকতার। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা বিআরডিবি কর্মকর্তা, উপজেলার সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ফজলুল হক, উপজেলা কমিউনিটি পুলিশের সভাপতি ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আরিফুল আলম তশর, খোকসা প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক শেখ সাইদুল ইসরাম প্রবীন, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন-সাধারন সম্পাদক জিল্লুর রহমান, সমবায়ী আব্দুল মমিন, ফতেমা খাতুন, জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ। এবার খোকসা উপজেলায় সমবায় সমিতির বিশেষ অবদান রাখায় সমবায় সমিতিকে পুরস্কার প্রদান করা হয়। সভায় উপজেলার বিভিন্ন সমবায় সমিতির প্রতিনিধি, সমবায়ী, সুধী, সাংবাদিক উপস্থিত ছিলেন।

আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ও যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদকের সাথে

হাটশ হরিপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সিরাজুল ইসলাম’র সৌজন্য সাক্ষাত

নিজ সংবাদ ॥ বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এবং বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক, মাহবুবউল আলম হানিফ এমপির সাথে সৌজন্য সাক্ষাত করেছেন কুষ্টিয়ার হাটশ হরিপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোঃ সিরাজুল ইসলাম সিরাজ। গত ১ নভেম্বর সকাল ১০ টায় বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এর সাথে সৌজন্য সাক্ষাত করেন সিরাজুল ইসলাম সিরাজ।

এর আগে ২৯ অক্টোবর দুপুরে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও কুষ্টিয়া (সদর) ৩ আসনের সংসদ সদস্য মাহবুবউল আলম হানিফের সাথে সৌজন্য সাক্ষাত করেন কুষ্টিয়া সদর উপজেলার হাটশ হরিপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোঃ সিরাজুল ইসলাম সিরাজ। এই সময় মোঃ সিরাজুল ইসলাম সিরাজ হাটশ হরিপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরেন।

গত ১৮ অক্টোবর হাটশ হরিপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সন্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সম্মেলনে মোঃ সিরাজুল ইসলাম সিরাজ সভাপতি প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন জমা দেন। মোঃ সিরাজুল ইসলাম সিরাজ নিজেকে যোগ্য প্রার্থী দাবী করে জানান, বর্তমানে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যে শুদ্ধি অভিযান পরিচালনা হচ্ছে, তাতে আশা করছি প্রবীণ নেতাদের মূল্যায়ন হবে। উল্লেখ্য যে, মোঃ সিরাজুল ইসলাম সিরাজ ১৯৭৫ এরপর থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত হাটশ হরিপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

 

ভেড়ামারায় ৪৮তম জাতীয় সমবায় দিবস পালিত

আল-মাহাদী ॥ বঙ্গবন্ধুর দর্শন, সমবায়ে উন্নয়ন’ এই প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় ৪৮তম জাতীয় সমবায় দিবস পালিত হয়েছে। গতকাল শনিবার সকালে উপজেলা পরিষদ চত্ত্বরে র‌্যালী এবং জাতীয় ও সমবায় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে সমবায় দিবসের অনুষ্ঠান শুরু হয়। উপজেলার বিভিন্ন সমবায় সমিতির নারী-পুরুষ সদস্যদের অংশগ্রহনে উপজেলা প্রশাসন, উপজেলা সমবায় বিভাগ ও সমবায়ীবৃন্দের আয়োজনে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালী  পৌরশহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিন করে উপজেলা পরিষদ চত্ত্বরে শেষ করে পরে উপজেলা পরিষদ মিলনাতায়নে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় সাতবাড়ীয়া-ধরমপুর পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতি’র সভাপতি মোঃ শামসুল হকের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,  ভেড়ামারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহেল মারুফ। জাতীয় মহিলা সংস্থার সমন্বয়কারী মোঃ আসমান আলী’র উপস্থাপনায় উক্ত সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ভেড়ামারা উপজেলা জাসদের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আনসার আলী, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ মিজানুর রহমান, ভেড়ামারা থানা’র এস.আই মোঃ রিফাজ উদ্দিন। উক্ত আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন, উপজেলা সমবায় অফিসার মোঃ এনামূল হক। আলোচনা সভা শেষে ভেড়ামারা কাঠেরপুলের শাপলা বহুমূখী সমবায় সমিতি লিঃ, জুনিয়াদহ মির্জাপুরের শাপলা সার্বিক গ্রাম উন্নয়ন সমবায় সমিতি লিঃ ও ভেড়ামারার আউশ বহুমূখী সমবায় সমিতি লিঃ এর সভাপতি/সম্পাদকের হাতে পুরস্কার তুলে দেন অতিথিবৃন্দ।

কুমারখালিতে জাতীয় সমবায় দিবস উদযাপন

কুমারখালি অফিস ॥ কুষ্টিয়ার কুমারখালিতে নানা আয়োজনের মধ্যদিয়ে উদযাপিত হলো ৪৮তম জাতীয় সমবায় দিবস। ‘বঙ্গবন্ধুর দর্শন, সমবায়ে উন্নয়ন’  শ্লোগানে গতকাল শনিবার সকালে উপজেলা পরিষদ চত্ত্বর হতে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের হয়ে শহর প্রদক্ষিণ করে। পরে আবুল হোসেন তরুণ অডিটোরিয়ামে এ উপলক্ষে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা। এতে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা মোঃ আনিছুর রহমান। আলোচনা করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাজীবুল ইসলাম খান, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা দেবাশীষ কুমার দাস, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলী সহ আরো অনেকে।

ইবিতে নৃত্য প্রশিক্ষণ কর্মশালার সমাপনী অনুষ্ঠানে ভিসি

ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ে হবে আকাশের মতো উদার সংস্কৃতি চর্চা

ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারী বলেছেন, ললিতকলার জ্ঞান ও চর্চা বর্জিত একজন মানুষ শিক্ষিত হলেও ক্রমাগত সে একটি পশুতে রূপান্তরিত হয়। আমরা সুজন বিদ্বান চাই। সেকারণে শিল্পকলা চর্চার প্রয়োজনীয়তার কথা বিবেচনা করে সুকুমারবৃত্তি চর্চা ও বোধবুদ্ধি বিকাশের জন্য আমরা কিছু পরিকল্পনা গ্রহণ করেছি। ইতোমধ্যে চারুকলা বিভাগ খোলা হয়েছে। আমরা সংস্কৃতি চর্চায় বর্তমান প্রজন্মকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই। আমরা কোন অন্ধকার প্রকোষ্ঠে থাকতে চাইনা। ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ে হবে আকাশের মতো উদার সংস্কৃতি চর্চা। গতকাল (২ নভেম্বর) বিশ^বিদ্যালয়ের বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান মিলনায়তনে ছাত্র-শিক্ষক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র আয়োজিত পাঁচ দিনব্যাপী নৃত্য প্রশিক্ষণ কর্মশালার সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ শাহিনুর রহমান বলেন, নৃত্যের বিভিন্ন মুদ্রার মাধ্যমে আমরা আমাদের ইতিহাস, সংস্কৃতি এবং অগ্রযাত্রাকে তুলে ধরতে পারি। শুধু লেখাপড়ার মধ্যে নিজেদের সীমাবদ্ধ না রেখে খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক অঙ্গনে বিচরণের জন্য শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি। অপর বিশেষ অতিথি ট্রেজারার প্রফেসর ড. মোঃ সেলিম তোহা বলেন, আমাদের যতই মেধা থাক প্রশিক্ষণ ছাড়া আমরা সফলতার চরম পর্যায়ে যেতে পারবো না। প্রশিক্ষণের বিকল্প নেই। এছাড়াও রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস. এম. আব্দুল লতিফ বিশেষ অতিথির বক্তব্য প্রদান করেন। স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন সমাপনী অনুষ্ঠানের সভাপতি নৃত্য প্রশিক্ষণ কর্মশালা আয়োজন কমিটির আহ্বায়ক প্রফেসর ড. মোঃ জাকারিয়া রহমান। অতিথির বক্তব্য প্রদান করেন ভারতের নৃত্য প্রশিক্ষক সোমা গিরি। নৃত্য প্রশিক্ষক সোমা গিরিকে ক্রেস্ট উপহার দেন ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারী। অনুষ্ঠানে কর্মশালায় অংশগ্রহণকারীদের মাঝে সনদ বিতরণ করা হয়। সবশেষে নৃত্য পরিবেশিত হয়। উপ-রেজিস্ট্রার চন্দন কুমার দাস এবং মার্কেটিং বিভাগের শিক্ষার্থী ইসরাত আঞ্জুম অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

দৌলতপুরের চিলমারীতে দরিদ্র শিক্ষার্থী ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে নগদ অর্থ বিতরণ

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার প্রত্যন্ত জনপদ চিলমারী ইউনিয়নের বন্যার্তদের মাঝে এবং এই এলাকার হাইস্কুল, মসজিদ, মাদ্রাসা, ঈদগাহের উন্নয়নে নগদ অর্থ বিতরন করা হয়েছে। ঢাকাস্থ চিলমারী কল্যাণ সমিতি ও কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার এস এম তানভীর আরাফাতের সহযোগিতায় গতকাল চিলমারী ইউনিয়নের জোতাশাহী মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সুবিধা বঞ্চিত শিক্ষার্থীদের মাঝে নগদ অর্থ ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রধানদের হাতে নগদ অর্থ তুলে দেওয়া হয়। ঢাকাস্থ চিলমারী কল্যাণ সমিতির সভাপতি সাইফুল ইসলাম মনির সভাপতিত্বে ও সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমান বিপুলের সঞ্চালনায় ও পরিচালনায় এসময় উপস্থিত ছিলেন এফবিসিসিআইয়ের মেম্বর ও চরঅঞ্চল কল্যাণ সমিতির উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য আমিনুল ইসলাম বাচ্চু, অর্থ সম্পাদক বজলুর রহমান বুলু, সাংগঠনিক সম্পাদক মখলেছুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বাবলুর রহমান, সহ-অর্থ সম্পাদক রবিউল ইসলাম, উপদেষ্টা মন্ডলীর অন্যতম সদস্য সার্জেন্ট জাহিদুল হক রাজাসহ সংগঠনের অন্যান্য সদস্যবৃন্দ।

আইন কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োগ

কুষ্টিয়া শেখ রাসেল স্মৃতি সংসদের পক্ষ থেকে এ্যাড. অনুপ কুমার নন্দীসহ এ্যাড. সেলিম ও নাজমুনকে অভিনন্দন

কুষ্টিয়া জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. অনুপ কুমার নন্দী দ্বিতীয়বারের মতো পিপি কুষ্টিয়া নিয়োগ পাওয়ায় তাঁকে কুষ্টিয়া জেলা ক্রীড়া সংস্থাভূক্ত পূর্ব মজমপুর শেখ রাসেল স্মৃতি সংসদের পক্ষ থেকে ফুলের শুভেচ্ছা জানানো হয়েছে। সেই সাথে শেখ রাসেল স্মৃতি সংসদের সহ-সভাপতি এ্যাড. সেলিম সোহরাব খান এপিপি এবং সংসদের  নির্বাহী সদস্য এ্যাড. নাজমুন নাহার দ্বিতীয়বারের মতো এজিপি নিয়োগ পাওয়ায় তাঁদেরকেও সংসদের পক্ষ থেকে ফুলের শুভেচ্ছা জানানো হয়। গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় এ্যাড. অনুপ কুমার নন্দীর আমলাপাড়ার ব্যক্তিগত চেম্বারে এ ফুলের শুভেচ্ছা জানানো হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন শেখ রাসেল স্মৃতি সংসদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও কুষ্টিয়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আনিসুজ্জামান ডাবলু, সাধারণ সম্পাদক মোঃ রাশিদুজ্জামান খান টুটুল, চ্যানেল ২৪ কুষ্টিয়া স্টাফ রিপোর্টার শরিফ বিশ^াস, সংসদের সহ-সভাপতি শরিফুল ইসলাম বিকুল, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মাছুদুর রহমান মাছুদ, যুগ্ম-সম্পাদক রকিবুল ইসলাম, কোষাধ্যক্ষ শাহ্ আলম সান্টু, ক্রীড়া সম্পাদক মোঃ মামুনুর রহমান মামুন, নির্বাহী সদস্য তাইন রিজভী সুজন, তোয়া ও সুমন প্রমুখ। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

আমার সততার পরীক্ষা দেওয়ার প্রয়োজন নেই – মেনন

ঢাকা অফিস ॥ বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন বলেছেন, তার সততার পরীক্ষা নতুন করে দেওয়ার প্রয়োজন নেই। শনিবার সকালে ঢাকার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে ওয়ার্কার্স পার্টির দশম কংগ্রেসের উদ্বোধন পর্বে একথা বলেন তিনি। জুয়ার আখড়া বন্ধে সম্প্রতি র‌্যাবের অভিযানে ঢাকার মতিঝিলের ইয়ংমেন্স ফকিরাপুলে অবৈধ ক্যাসিনো পাওয়া গিয়েছিল, এই ক্লাবটির সভাপতি হলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য মেনন। একাদশ সংসদ নির্বাচন নিয়ে মেননের এক বক্তব্যের জন্য তার জোটসঙ্গী আওয়ামী লীগের নেতাদের সমালোচনায় সরব হওয়ার মধ্যে ক্যাসিনো চালিয়ে ক্লাবের অবৈধ আয়েও তার যোগসাজশ রয়েছে বলে মন্তব্য আসে। গত ২৫ সেপ্টেম্বর সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. ইউনুছ আলী আকন্দ তাকে একটি আইনি নোটিস পাঠান। গত সংসদ নির্বাচনে ঢাকা-৮ আসনে মেননের সঙ্গে ভোটের লড়াইয়ে নামা জাতীয় পার্টির প্রার্থী ইউনুস আলীর অভিযোগ, মেনন নিজেই ওই ক্যাসিনো উদ্বোধন করেছিলেন। ক্ষুব্ধ মেনন কংগ্রেসে বলেন, “আজকে দুর্নীতির বিরুদ্ধে শুদ্ধি অভিযানের লড়াই চলছে। আমি আজকে যেহেতু ঢাকা-৮ আসনের এমপি সেই আসন ঘিরেই ক্যাসিনো কান্ডে তোলপাড়। মিথ্যা সূত্র উদ্ধৃতি দিয়ে আজকে পত্রিকায় কথা বলা হচ্ছে। “আজকে আমার কর্মীদের বলে যেতে চাই, আমার সমস্ত চরিত্র সারা জীবনের অর্জন। আমি আমার জীবনে সৎ ছিলাম, সৎ আছি। আমার সততার পরীক্ষার প্রয়োজন আছে বলে আমি মনে করি না।” পাকিস্তান জাতীয় পরিষদের স্পিকার বিচারপতি আব্দুল জব্বার খানের ছেলে মেনন গত শতকের ষাটের দশকে ছাত্র আন্দোলনের নেতা হিসেবে ছিলেন ডাকসুর ভিপি। ছাত্র ইউনিয়নের তৎকালীন সভাপতি মেনন তারপর থেকে চিনপন্থি কমিউনিস্ট পার্টির নেতা হিসেবে রাজনীতিতে সক্রিয়। এরশাদবিরোধী আন্দোলনে তিন জোটের নেতা মেনন ১৯৯২ সাল থেকে ওয়ার্কার্স পার্টির নেতৃত্বে রয়েছেন, এখন তিনি দলের সভাপতি। সরকারের দুর্নীতিবিরোধী অভিযানের প্রেক্ষাপটে মেনন বলেন, “অর্থনেতিক দুর্বৃত্তপনা রাজনীতিতে জিম্মি করে ফেলেছে। তার প্রমাণ আজকের শুদ্ধি অভিযান। দুর্বৃত্তদের দমন করা না গেলে তারা নিয়ামক শক্তি হয়ে উঠবে।” অবাধ মত প্রকাশের পরিবেশ তৈরির দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, “বৈষম্যের বিরুদ্ধে আমরা কথা বলছি না, আমরা কথা বলতে পারছি না। ঋণখেলাপির বিরুদ্ধে কথা বলতে গেলে পার্লামেন্টে নোটিস গ্রহণ করা হয় না। ক্যসিনো বন্ধের আলোচনা হয় না। এটাই বাস্তব। “আজকে সকল মতকে এগিয়ে আসতে দিন। মতপ্রকাশের অধিকার দিয়ে দৃঢ়ভাবে প্রস্তুত করুন ডিজিটাল বাংলাদেশ।” শুরু বাম ফ্রন্টে থাকলেও দেড় যুগ আগে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলে যোগ দেয় ওয়ার্কার্স পার্টি। এই কারণে দলের মধ্যে দেখা দিয়েছে বিভক্তি। এবার কংগ্রেসের আগেও মেননের বিরুদ্ধে আদর্শচ্যুতির অভিযোগ তুলে দল ছেড়েছেন সাত নেতা। তাদের উদ্দেশে মেনন বলেন, “আমাদের নৌকায় তুলে দিয়ে এখন তারা বলছেন, তারা নৌকা মানেন না। নতুন ঐক্যের কথা বলছেন। আমি তাদের বলতে চাই, ওয়ার্কার্স পার্টিই একমাত্র প্রাসঙ্গিক বামপন্থি দল। “আমাদের কিছু বন্ধু আমার মতাদর্শ বিচ্যুতির কথা বলেছেন, কমিউনিস্ট আন্দোলনের শতবর্ষে কমিউনিস্ট ঐক্যের কথা বলছেন। আমি বলছি, চক্রান্ত করে, ষড়যন্ত্র করে আর যাই হোক,  ঐক্য হয় না। কমিউনিস্ট ঐক্য দূরে থাক, কোনো গণতান্ত্রিক ঐক্য হয় না, ঐক্য হয় রাজপথের লড়াইয়ে।” আওয়ামী লীগের সঙ্গে জোট গঠনের পর এ নিয়ে তৃতীয়বার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন মেনন; শেখ হাসিনার গত সরকারে মন্ত্রীও করা হয়েছিল তাকে। তবে তার আগের সরকারে মন্ত্রিত্বের প্রস্তাব পেলেও দল সায় না দেওয়ায় শপথ নেওয়া হয়নি তার।  মেনন বলেন, “বিএনপি-জামাত যখন তান্ডব চালাচ্ছিল সারা দেশে, সে প্রেক্ষিতে রাজনৈতিক প্রয়োজনে আমি মন্ত্রিত্ব নিয়েছিলাম। সেটা কোনো ব্যক্তির সিদ্ধান্ত ছিল না। “ওয়ার্কার্স পার্টি কৌশল জানে, সে কৌশল হল কোন পথে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে।”

বিএনপি থেকে পদত্যাগ করছেন মেয়র আরিফসহ কেন্দ্রীয় ৪ নেতা

ঢাকা অফিস ॥ সিলেট জেলা ও মহানগর যুবদলের আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণার পর নবগঠিত কমিটিতে যুবদলের সাবেক নেতাদের মূল্যায়ন না করায় কেন্দ্রীয় পদ থেকে পদত্যাগ করতে যাচ্ছেন সিলেট সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা এমএ হক, তাহসীনা রুশদীর লুনা, ক্ষুদ্র ঋণবিষয়ক সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাকসহ কয়েক নেতা। দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের কাছে কেন্দ্রীয় পদ থেকে অব্যাহতি চেয়ে লিখিত আবেদন করবেন তারা। শুক্রবার রাতে এক জরুরি সভায় এই সিদ্ধান্ত নেন সিলেটের নেতারা। পদত্যাগের বিষয়ে মেয়র আরিফ বলেন, লন্ডন থেকে যুবদলের কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। এ কারণে রাজপথে যারা আন্দোলন-সংগ্রাম করছেন, তাদের জেলা ও মহানগর যুবদলের কমিটিতে মূল্যায়ন করা হয়নি। এমনকি যারা দলের পক্ষে আন্দোলন করে নির্যাতিত হয়েছেন, তাদেরও মূল্যায়ন করা হয়নি। এ কারণে আমরা আজ কেন্দ্রীয় পদ থেকে পদত্যাগ চেয়ে একটি লিখিত আবেদন করব। পদত্যাগের তালিকায় প্রায় ৮-১০ জন কেন্দ্রীয় নেতা আছেন বলে জানান মেয়র। এ সময় তিনি বলেন, আমরা পদত্যাগ করলেও বিএনপির সঙ্গে থাকব। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার যুবদলের সভাপতি সাইফুল ইসলাম নীরব ও সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাহউদ্দিন টুকু সিলেট জেলা ও মহানগর শাখার কমিটি ঘোষণা করেন। কমিটিতে কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সাবেক সহ-সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান পাপলুকে জেলার আহ্বায়ক করে ২৯ সদস্যবিশিষ্ট কমিটি ঘোষণা করা হয়। এ ছাড়া নজিবুর রহমান নজিবকে মহানগর যুবদলের আহ্বায়ক করে ২৭ সদস্যের একটি কমিটি ঘোষণা করা হয়।

নতুন আইনে প্রথম সাতদিন মামলা হবে না – কাদের

ঢাকা অফিস ॥ সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে নতুন সড়ক পরিবহন আইন কার্যকর হয়েছে। তবে কার্যকরের প্রথম সাতদিন নতুন আইনে কোনো মামলা হবে না। এই সময়ে প্রচারণা চালাবে সরকার। গতকাল শনিবার সকালে নারায়ণগঞ্জের সাইনবোর্ড এলাকায় নতুন সড়ক পরিবহন আইন বাস্তবায়নে বিআরটিএ’র কার্যক্রম পরিদর্শনে এসে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন। সেতুমন্ত্রী বলেন, নতুন সড়ক পরিবহন আইন পুরোপুরি বাস্তবায়িত হলে দুর্ঘটনা কমে যাওয়াসহ সড়কে শৃঙ্খলা ফিরে আসবে। এই আইন কার্যকরের জন্য এখন সারা বাংলাদেশে সচেতনতামূলক প্রচারণা চালানো হচ্ছে। এই সময়ে কোনও পরিবহনের বিরুদ্ধে নতুন আইনে মামলা দায়ের না করার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ভূমিদস্যু, সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজ প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, সারাদেশে তৃণমূল পর্যায়ে শুদ্ধি অভিযান চলছে। এরই মধ্যে জেলা ও তৃণমূল পর্যায়ে ভূমিদস্যু, মাদক ব্যবসায়ী, সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজদের তালিকা তৈরি করা হয়েছে। তাদের আইনের আওতায় আনা হবে। এ সময় বিআরটিএ’র চেয়ারম্যান ড. আহসানুল করিম, হাইওয়ে পুলিশের অতিরিক্ত আইজি ব্যারিস্টার মাহবুবুর রহমান, নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন, পুলিশ সুপার মো. হারুন-অর-রশিদসহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন। বহুল আলোচিত সড়ক পরিবহন আইন ১ নভেম্বর থেকে কার্যকর হয়েছে। আইনে রয়েছে নিয়োগপত্র ছাড়া কোনো ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান কোনো ব্যক্তিকে গণপরিবহনের চালক হিসেবে নিয়োগ করতে পারবে না। নিয়োগপ্রাপ্ত চালক তার কাগজপত্র গাড়িতে প্রদর্শন করবেন। এ ছাড়া কন্ডাকটর লাইসেন্স ছাড়া কন্ডাকটর নিয়োগ করা যাবে না। ড্রাইভিং লাইসেন্স ছাড়া গাড়ি চালালে ছয় মাসের কারাদ- বা অনধিক ২৫ হাজার টাকা অর্থদন্ড বা উভয় দন্ডের বিধান রাখা হয়েছে। আগে এ অপরাধের সর্বোচ্চ শাস্তি ছিল চার মাসের কারাদন্ড বা ৫০০ টাকা অর্থদন্ড। লাইসেন্স ছাড়া গাড়ি চালালে অনধিক ছয় মাসের জেল বা অনধিক ৫০ হাজার টাকা জরিমানা বা উভয় দন্ডের বিধান রয়েছে। ফিটনেসবিহীন গাড়ি চালালে ছয় মাসের জেল বা অনধিক ২৫ হাজার টাকা অর্থদন্ড বা উভয় দন্ড দেওয়া হবে। এছাড়া নতুন আইনে শিক্ষানবিশ লাইসেন্স ছাড়া কর্তৃপক্ষের দেওয়া যে কোনো লাইসেন্সের বিপরীতে ১২ পয়েন্ট দেওয়া থাকবে। অপরাধ করলে তা কাটা যাবে। লালবাতি অমান্য, ওভারটেক, গতিসীমা অমান্য, বিপরীত দিক থেকে গাড়ি চালানো, ওজনসীমা লঙ্ঘন, নেশাগ্রস্ত হয়ে গাড়ি চালালে পয়েন্ট কাটা যাবে চালকের। এ বিধান আগে ছিল না।

শেখ রাসেলের ৫৫তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে ইবিতে আলোচনাসভা এবং পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠান

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেলের ৫৫তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ে আলোচনা সভা এবং পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিশ^বিদ্যালয়ের শেখ রাসেল হলের উদ্যোগে গতকাল শনিবার সন্ধ্যা ৬টায় শুরু এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারী। তিনি বলেন- যে ঘৃণ্য ও পৈশাচিক উদ্দেশ্যে শেখ রাসেলকে হত্যা করা হয়েছে, তা ব্যর্থ হয়েছে। তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান চাইতেন দার্শনিক বাট্রা-রাসেলের মানবতাবাদী আদর্শ এবং জ্ঞানের স্পৃহা যেন তাঁর কনিষ্ঠ পুত্রের মধ্যে সঞ্চারিত হয়। ভাইস চ্যান্সেলর শিক্ষার্থীদের নিজেদের মধ্যে জ্ঞানের স্পৃহা জাগিয়ে তোলা এবং দেশ ও মানুষের প্রতি ভালোবাসা ও পরস্পরের প্রতি সৌহার্দ্য প্রদর্শনের আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো: শাহিনুর রহমান বলেন, দেশবিরোধী চক্র শিশু রাসেলকেও ছাড় দেয়নি। নির্মমভাবে তাঁকে হত্যা করে। তাঁর প্রতি গভীর শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা নিবেদন করছি। অপর বিশেষ অতিথি ট্রেজারার প্রফেসর ড. মোঃ সেলিম তোহা বলেন, মুক্তিযুদ্ধের আদর্শ বাংলার মাটি থেকে চিরতরে মুছে ফেলার জন্য পৃথিবীর ইতিহাসে এমন নজিরবিহীন হত্যাকা- পরিচালনা করা হয়েছিল, যে হত্যাকান্ডের মধ্যদিয়ে জাতির পিতার পরিবারের প্রায় সকলকে বর্বরোচিতভাবে হত্যা করা হয়েছিল। শেখ রাসেল হলের প্রভোস্ট প্রফেসর ড. মোঃ রবিউল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য প্রদান করেন রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস. এম. আব্দুল লতিফ। হলের আবাসিক শিক্ষক প্রদীপ কুমার অধিকারী, মোঃ আনিসুর রহমান, লিটন বরণ সিকদার প্রমুখ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে শেখ রাসেলের ৫৫তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে আয়োজিত রচনা প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন ইলেক্ট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোঃ আব্দুল্লাহ-আল-মাসুদ। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

বর্ণাঢ্য আয়োজনে কুষ্টিয়ায় জাতীয় সমবায় দিবস পালিত

নিজ সংবাদ ॥ ‘‘সমবায় শক্তি, সমবায়ই মুক্তি, বঙ্গবন্ধুর দর্শন, সমবায়ে উন্নয়ন’’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে নিয়ে কুষ্টিয়ায় বর্ণাঢ্য র‌্যালী ও আলোচনায় ৪৮তম জাতীয় সমবায় দিবস পালিত হয়েছে। গতকাল শনিবার সকালে কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে জেলা সমবায় বিভাগের আয়োজনে সমবায়ীদের নিয়ে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালী বের হয়। র‌্যালী শেষে কুষ্টিয়া টাউন হলে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। কুষ্টিয়া জেলা সমবায় অফিসার কাজী মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক মোঃ আসলাম হোসেন। তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন-ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত দেশ থেকে মধ্যম আয়ের দেশে সমবায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলেছে। বঙ্গবন্ধুর লালিত স্বপ্ন এদেশের জনগনের ভাগ্য পরিবর্তনে তারই সুযোগ্য কন্যা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিরলসভাবে কাজ করে চলেছেন। সমবায় শক্তি, সমবায় মুক্তি তাই সমবায়ের চাকা ঘুরাতে পারে উন্নত দেশ গড়তে। সরকারের ঘোষিত সকল উন্নয়ন কাজের সাথে সম্পৃক্ত থেকে তা বাস্তবায়নের ঘোষনা দেন। তিনি আরও বলেন কুষ্টিয়ার যে সকল সমবায় সমিতি রয়েছে তাদের পাশে থেকে দক্ষ্য নেতৃত্বে সমাজ উন্নয়ন ও সমাজের পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর উন্নয়নে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগীতা করার আশ^াস প্রদান করেন। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আজগর আলী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নুরানী ফেরদৌস দিশা, জেলা সমবায় ইনষ্টিটিউট এর অধ্যক্ষ জিয়াউল হক ও সমবায়ীদের নেতা নিজামুল হক চুন্নু, রেজাউল হক প্রমুখ। এসময় বিভিন্ন ক্যাটাগরীতে ১২টি সমবায় সমিতির হাতে পুরস্কার তুলে দেয়া হয়।

জেএসসি-জেডিসি ও এসএসসি ভোকেশনাল (নবম শ্রেণী) পরীক্ষা

কুষ্টিয়ায় প্রথমদিন অনুপস্থিত ১ হাজার ১০ জন পরীক্ষার্থী, বহিস্কার-১

নিজ সংবাদ  ॥ অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের সমাপনী পরীক্ষা জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষা প্রথমদিনের পরীক্ষায় কুষ্টিয়ায় অনুপস্থিত ছিলো ১ হাজার ১০ জন পরীক্ষার্থী। এদিকে অসদুপায় অবলম্বনের দায়ে দৌলতপুর উপজেলায় এসএসসি ভোকেশনাল (নবম শ্রেণী) পরীক্ষায় বিপ্লব নামের এক পরীক্ষার্থীকে বহিস্কার করা হয়েছে। জেলা প্রশাসকের শিক্ষা অফিস থেকে বহিস্কারের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। শনিবার থেকে শুরু হওয়া জেএসসিতে যশোর বোর্ডে প্রথম পরীক্ষা ছিলো বাংলা ১ম পত্র আর ডেডিসিতে মাদ্রাসা বোর্ডের প্রথম পরীক্ষা ছিলো কুরআন মাজিদ ও তাজবীদ শিক্ষা। কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসকের শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা গেছে, প্রথম দিনের পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়। প্রথম দিনে বাংলা ১ম পত্র পরীক্ষায় কুষ্টিয়ায় জেএসসি পরীক্ষার্থী ছিলো ৩২ হাজার ৩শ ২১ জন। এর মধ্যে পরীক্ষায় উপস্থিত ছিলো ৩১ হাজার ৬শ ২৬ জন। আর অনুপস্থিত ছিলো ৬শ ৯৭ জন। জেডিসি পরীক্ষায় প্রথম দিনে কুরআন মাজিদ ও তাজবীদ শিক্ষা পরীক্ষায় কুষ্টিয়ায় পরীক্ষার্থী ছিলো ২ হাজার ৪শ ৭৭ জন। এর মধ্যে পরীক্ষায় উপস্থিত ছিলো ২ হাজার ২শ ৮১ জন। আর অনুপস্থিত ছিলো ১৯৬ জন।  অন্যদিকে এসএসসি ভোকেশোনাল (নবম শ্রেণী) পরীক্ষায় প্রথমদিন কুষ্টিয়ায় পরীক্ষার্থী ছিলো ৩ হাজার ৫৩৮ জন। এর মধ্যে পরীক্ষায় উপস্থিত ছিলো ৩ হাজার ৪শ ২১ জন। আর অনুপস্থিত ছিলো ১শ ১৭ জন। এদিকে জেলা প্রশাসকের শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা গেছে, এ বছর কুষ্টিয়া জেলায় সর্বমোট ৪২ হাজার ৬শ ৯৭জন শিক্ষার্থী জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষায় অংশ নেবে। এর মধ্যে  জেএসসি পরীক্ষার্থী ৩৫ হাজার ৩১৫ জন এবং জেডিসি পরীক্ষার্থী ২ হাজার ৭৮০ জন। জেলার ৬টি উপজেলায় ২৯টি মূল কেন্দ্রের সাথে আরো ৩০টি ভেন্যু কেন্দ্র সর্বমোট ৫৯টি কেন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষা এবং ৯টি কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হবে জেডিসি পরীক্ষা। মূল কেন্দ্র ও ভেন্যু কেন্দ্র সব মিলিয়ে ৬৮টি কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হয় পরীক্ষাা। এসএসসি ভোকেশনাল (নবম শ্রেণী) পরীক্ষায় অনুষ্ঠিত হয় ১২টি কেন্দ্রে ও ৩টি ভেন্যু কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা মোট ৪ হাজার ৬শ ২ জন।