কালুখালীর হরিণবাড়ীয়া বাজারে আগুন

কালুখালী প্রতিনিধি ॥ গতকাল মঙ্গলবার ভোর ৬টার দিকে রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার কালিকাপুর ইউপির হরিণবাড়ীয়া বাজারে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে পুড়ে ২২ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধিত হয়েছে। ঘটনার বিবরণে বাজার বনিক সমিতির সভাপতি ইউপি সদস্য বিল্লাল মন্ডল জানায় ভোর ৬টার দিকে স্থানীয় মুসল্লিরা নামাজ পড়তে গিয়ে বাজারে আগুনের ধোয়া দেখে চেঁচামেচি করলে তাৎক্ষনিক আশপাশের লোক এসে পাংশা ফায়ার সার্ভিসে খবর দেয়। খবর পেয়ে পাংশা থেকে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ঘটনাস্থলে এসে প্রায় ২ ঘন্টা পরিশ্রম করে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। স্থানীয় ব্যবসায়ীরা জানায় ঘরমালিক হারুন শেখের ৩টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ভারাটিয়া পার্টনারশীপ খোকন  ও খালেক মোল্লার পাট গোদাম থেকে বিদ্যুতের শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সুত্রপাত হয়ে তাদের ঘরে থাকা ৪শত মন পাট ও ধান চাউল সহ ভুষিমাল পুড়ে ১২ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধিত হয়। লিটন দাসের কাপড়ের দোকান পুড়ে ৩ লক্ষাধিক টাকা, আবু বক্কারের মুদিখানার মালামাল পুড়ে ২ লক্ষাধিক টাকা, আলিউজ্জামান মালিকের ভাড়াটিয়া আব্বাসের ইলেকট্রনিক্স ও জেনারেটর সহ আসবাবপত্র পুড়ে ১ লক্ষাধিক টাকা, আয়েশা খাতুনের ভাড়াটিয়া রবিউল ইসলামের কসমেটিকের দোকানের মালামাল পুড়ে ১ লক্ষাধিক টাকা ও সামাদ জোয়াদ্দারের ২টি টিনের ঘর পুড়ে লক্ষাধিক টাকার মাল পুড়ে ক্ষতি সাধিত হয়। এ সংবাদে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলিউজ্জামান চৌধুরী (টিটো), সহকারী কমিশনার (ভূমি) শেখ নুরুল আলম, কালিকাপুর ইউপি চেয়ারম্যান আতিউর রহমান নবাব, রতনদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মেহেদী হাচিনা পারভীন নিলুফা, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক খায়রুল ইসলাম খায়ের ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ক্ষতিগ্রস্থদের পাশে গিয়ে সান্তনা প্রদান করেন।

দৌলতপুরে গাঁজাসহ আটক-২

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে গাঁজাসহ নারী-পুরুষ ২জন আটক হয়েছে। সোমবার দিবাগত রাত সোয়া ১২টার দিকে উপজেলার মথুরাপুর পিপল্স ডিগ্রি কলেজের সামনে থেকে মোছা. সাথী (২৮) ও শরিফুল ইসলাম ওরফে হাফিজ (২২) নামে দু’জন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে পুলিশ। দৌলতপুর থানার ওসি এস এম আরিফুর রহমানের নির্দেশে দৌলতপুর থানা পুলিশ মথুরাপুর পিপল্স ডিগ্রি কলেজের মেইন গেটের সামনে থেকে তাদের ১কেজি গাঁজাসহ আটক করে। আটক মাদক ব্যবসায়ীরা সিরাজগঞ্জ জেলার উল্লাপাড়া উপজেলার পাথরপাড়া গ্রামের মাসুদ ওরফে হারুনের স্ত্রী এবং পাবনার ঈশ^রদী এলাকার আব্দুল হাকিম ওরফে মানিকের ছেলে। এ ঘটনায় দৌলতপুর থানায় মামলা হলে গতকাল মঙ্গলবার আসামীদের আদালতে সোপর্দ করা হয়।

গাংনীতে অভিনব কায়দায় ছাগল চুরি

গাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের গাংনীতে অভিনব কায়দায় ছাগল চুরির ঘটনা ঘটেছে। গতকাল মঙ্গলবার বিকেল ৩ টার সময় আকাশে  কালো মেঘের ঘন ঘটা। ঘনঘন বজ্রপাত ও মেঘের ভয়ংকর ডাকের ভয়ে লোকজন তখন নিজ নিজ ঘরে অবস্থান নিয়েছে। এমন সময় হঠাৎ করেই পূর্ব পরিকল্পিতভাবে ছাগল চোর মাইক্রোযোগে ছাগল তুলে নিয়ে লাপাত্তা হয়ে যায়। এমন অভিনবভাবে মাইক্রোযোগে ছাগল চুরির ঘটনাটি ঘটেছে গাংনী পৌর এলাকার চৌগাছা রিফুজীপাড়ার মৃত ছাকেমউদ্দীনের ছেলে নুর ইসলামের বাড়ীর সামনে থেকে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ঘন কালো আকাশ, প্রবল বেগে বৃষ্টিপাত । হঠাৎ সাহারবাটি এলাকা থেকে আসা একটি মাইক্রোবাস এসে রাস্তার পার্শ্বে দাঁড়ায়। মুহূর্তের  মধ্যে  দু’জন গাড়ী থেকে নেমে ১ টি  খাসি ছাগল  তুলে নিয়ে গাংনী শহরের দিকে দ্রুতগতিতে পালিয়ে যায়। এসময় ছাগল চোরদের পিছু ধাওয়া করেও ছাগল উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। অভিনব কায়দায় ছাগল চুরির কারণে ছাগল পালনকারীরা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন।

আলমডাঙ্গা প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে শ্রেষ্ঠ ৩ পুজামন্ডপকে পুরষ্কৃত

আলমডাঙ্গা অফিস ॥ আলমডাঙ্গা প্রেসক্লাব পক্ষ থেকে  শ্রেষ্ঠ ৩ পুজামন্ডপকে পুরষ্কৃত করা হয়েছে। মন্ডপগুলীর সাজসজ্জা, সুশৃঙ্খল পরিবেশ, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি, মন্ডপ আধিকারিকদের আন্তরিকতা ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির সূচক বিবেচনায় ৩টি পুজামন্ডপকে পুরষ্কৃত করা হয়েছে। আলমডাঙ্গা  প্রেসক্লাবের পর্যবেক্ষণের নিরিখে কালিদাসপুর দুর্গামন্ডপ ১ম, স্টেশনপাড়া দুর্গামন্ডপ ২য় ও মাদ্রাসাপাড়া দুর্গামন্ডপ ৩য় শ্রেষ্ঠ স্থান অর্জন করে। গতকাল রাতে আনুষ্ঠানিকভাবে শ্রেষ্ঠ ওই ৩ মন্ডপ কমিটির হাতে পুরষ্কারের  ক্রেস্ট তুলে দেওয়া হয়।  প্রেসক্লাবের সভাপতি শাহ আলম মন্টুর সভাপতিত্বে পুরষ্কার প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন আলমডাঙ্গা থানা অফিসার ইনচার্জ মুন্সি আসাদুজ্জামান। প্রেসক্লাবের যুগ্ন সম্পাদক প্রশান্ত বিশ্বাসের উপস্থাপনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহসভাপতি রহমান মুকুল, সহ-সভাপতি ইউনুস আলী মন্ডল, আতিক বিশ্বাস, গোলাম সরোয়ার সদু, তানভীর  সোহেল, কালিদাসপুর দুর্গামন্ডপের সভাপতি সুশীল কুমার   ভৌতিকা, সম্পাদক মণিন্দ্রনাথ দত্ত, স্টেশনপাড়া দুর্গামন্ডপের সভাপতি সুবেন্দ্র সিংহ রায়, সম্পাদক বিধান কুমার রায়, কাউন্সিলর মতিয়ার রহমান ফারুক, মাদ্রাসাপাড়া দুর্গামন্ডপের সভাপতি নন্দ কুমার সাহা, উপজেলা তথ্য কর্মকর্তা সিগ্ধা দাস প্রমুখ। এ সময় প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দ বলেন, আলমডাঙ্গার সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বন্ধন আরও বেশি সুদৃঢ় করতে, আন্তঃ সম্প্রদায়ের সম্পর্ক আরও বেশি সুনিবিড় ও মানবিক করতে আলমডাঙ্গা  প্রেসক্লাব এ পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। প্রধান অতিথি আলমডাঙ্গা থানা অফিসার ইনচার্জ মুন্সি আসাদুজ্জামান বলেন, বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ। আলমডাঙ্গার সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির ঐতিহ্য অনেক পুরাতন ও গৌরবের। আলমডাঙ্গার সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির এই বাঁধন আরও সুদৃঢ় করতে, এ ঐতিহ্য আরও উচ্চকিত করতে আলমডাঙ্গার সাংবাদিকরা যে নজির সৃষ্টি করল তা সারা দেশের জন্য উদাহরণ হয়ে থাকবে।

আলমডাঙ্গায় বাস-ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের সংবাদ সম্মেলন

আলমডাঙ্গা অফিস ॥ আলমডাঙ্গায় শ্রমিক ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ সাংবাদিক সম্মেলনে করেছেন। চুয়াডাঙ্গা জেলা ট্রাক-ট্যাংকলরি-কাভার্ড ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের ৯৫৭ আলমডাঙ্গা শাখার অবৈধ ইউনিয়নের নামধারী শ্রমিক কর্তৃক ১৮৯৫ এবং ৫৯৫ শ্রমিকদের উপর হামলার প্রতিবাদে এ মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে শ্রমিক ইউনিয়নের অফিসে এ সাংবািিদক সম্মেলন করা হয়েছে। চুয়াডাঙ্গা জেলা বাস-ট্রাক-সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের আলমডাঙ্গা শাখার সভাপতি লিখিত এ সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখ করেন- গত ৫ অক্টোবর চুয়াডাঙ্গা জেলা ট্রাক-ট্যাংকলরি-কাভার্ড ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের আলমডাঙ্গা শাখা ৯৫৭ অবৈধ শ্রমিক ইউনিয়রের কমিটি ঘোষনা করেছে। তারা লাল ব্রীজের নিকট একটি অফিস করেছে। তাদের কমিটিতে অধিকাংশই নামধারী শ্রমিক। যা ৬অক্টোবর পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে। আমাদের ৫৯৫’র ৭জন সদস্য নাম ওই অবৈধ কমিটি রাখে। ৫৯৫ এর ৭ জন সদস্যই অবৈধ ওই কমিটি থেকে পদত্যাগ করেছে। গত ৬ অক্টোবর নামধারী কমিটির লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ১৮৯৫ এবং ৫৯৫’র সদস্যদের উপর করে। পরে আলমডাঙ্গা থানা পুলিশ উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে। এসব অবৈধ শ্রমিক যে কোন সময় হামলা করতে পারে। পিিরবহণ শ্রমিকদের মধ্যে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে পারে। ভবিষ্যতে ট্রাক ও পরিবহনে চাঁদাবাজী করার জন্য তারা ওই নামধারী শ্রমিক দিয়ে অবৈধ কমিটি (৯৫৭) রেজিঃ নং সাইনবোর্ড উত্তোলন করেছে। আমরা আলমডাঙ্গা থানা মটর শ্রমিকের পক্ষ থেকে জোর দাবী জানাচ্ছি ওই কমিটি বিলুপ্ত করে নামধারী শ্রমিকদের সাইনবোর্ডটি অপসারণ করা হোক। যদি দাবী না মানা হয়, তারা যদি পূনরায় আমাদের সাংগঠনিক কার্য্যকলাপে বাধা প্রদান করে শ্রমিকদের উপর হামলা করে তাহলে আমরা কর্ম বিরতিতে যেতে বাধ্য থাকবো। শ্রমিক নেতৃবৃন্দ সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

বাংলাদেশ না, বিদেশ থেকে গ্যাস এনে ভারতে দেয়া হবে – পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ঢাকা অফিস ॥ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন বলেছেন, আমরা বাংলাদেশের গ্যাস ভারতে দিচ্ছি না। আমরা বিদেশ থেকে গ্যাস এনে এটাকে সিলিন্ডারাইজেসন করে ভারতে দেব। মঙ্গলবার সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে নির্মাণাধীন আউটার স্টেডিয়াম পরিদর্শনকালে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ সব কথা বলেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমরা বাংলাদেশের গ্যাস ভারতে দিচ্ছি না। এখানে তথ্যটা ভুল। আমরা কোত্থেকে গ্যাস বিক্রি করব? মূলত আমরা বিদেশ থেকে গ্যাস এনে এটাকে এলএনজি প্রক্রিয়াজাত করে সিলিন্ডারে ঢুকাব। অর্থাৎ বিদেশ থেকে গ্যাস এনে এটাকে সিলিন্ডারাইজেসন করে আমরা ভারতে দেব। এতে আমাদের মার্কেট বড় হবে। আমাদের দেশের উন্নতি হবে। আমাদের লাভ, আমরা রি-এক্সপোর্ট করতেছি। তিনি বলেন, অনেকের ধারণা আমরা আমাদের গ্যাস দিয়ে দিচ্ছি। নো ওয়ে। আমরা এটা রি-এক্সপোর্ট করব, এটা দুনিয়ার সব দেশেই হয়। পরে বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো সিলেটে ট্যুরিস্ট বাস চালুর উদ্বোধন করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। নগরীর জিন্দাবাজারে সিলেট ট্যুরস অ্যান্ড ট্রাভেলসের উদ্যোগে এই ট্যুরিস্ট বাস দুটি চালুর উদ্বোধন করেছেন ড. একে আবদুল মোমেন।

 

গাংনীতে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত-১০

গাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের গাংনীতে মোটরসাইকেল ও অটোভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষে ১০জন আহত হয়েছে। আহতরা হলেন-গাংনী  ষোলটাকা গ্রামের আব্দুস সাত্তারের ছেলে  কফেল উদ্দীন (৫৫), জুগিরগোফা গ্রামের ইসমাইল হোসেনের ছেলে  ঠান্ডু মিয়া (৬০), আব্দুল লতিফের ছেলে আব্দুল হান্নান (৬৫), জমির আলীর ছেলে সুরুজ আলী (৩০), আব্দুল গফুরের ছেলে অটোভ্যান চালক  লিটন আলী (৩৫), মোটরসাইকেল চালক জুগিন্দা গ্রামের  শুকুর আলীর ছেলে আহাদ আলী (৩০), মোটরসাইকেল যাত্রী একই গ্রামের ফরিদ আলীর ছেলে হাফিজুল ইসলাম (৩০) ও হাফিজুলের ছোট ভাই উজ্জল হোসেন (২৪)। এছাড়াও আরো দু’জন সামান্য আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছে। আহতদের গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। তবে ঠান্ডু, আব্দুল হান্নান, সুরুজ ও আহাদ আলীর শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাদের রাতে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে মেহেরপুর-কুষ্টিয়া সড়কের গাংনীর ঝিনেরপুল নামক স্থানে মোটরসাইকেল ও অটোভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষে আহতের ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা জানান,আহাদ আলী তার মোটরসাইকেলে দু’জন যাত্রীকে নিয়ে দ্রুতগতিতে গাংনী শহর থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। সে ঝিনেরপুল নামক স্থানে পৌঁছালে,বিপরীত দিক থেকে আসা একটি অটোভ্যানের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষে দূর্ঘটনা ঘটে।

শিক্ষার মান উন্নয়নে পোড়াদহ হাই স্কুলে অভিভাবক ও ছাত্র সমাবেশ

মিলন আলী ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার পোড়াদহ হাই স্কুলে শিক্ষার মান উন্নয়নে পরিচালনা কমিটি, অভিভাবক ও ছাত্রদের নিয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আসলাম হোসেনের সভাপতিত্বে অভিভাবক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কুষ্টিয়া জজ  কোর্টে অতিরিক্ত পি.পি বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি, আওয়ামী লীগ নেতা আলিমুজ্জামান বিশ্বাস রাজু। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, ঐতিহ্যবাহী এই বিদ্যাপিঠের অতীতের ঐতিহ্য, সুনাম ,শিক্ষাবান্ধব  পরিবেশ সৃষ্টির জন্য আমাদের সকলকে এক সাথে কাজ করতে হবে। জেলার মধ্যে এক সময় আমাদের বিদ্যালয়ে লেখাপড়া পাশাপাশি  খেলাধুলার সুনাম ছিল ঈষান্বিত পর্যায়ে। সভাপতির বক্তব্যে প্রধান শিক্ষক আসলাম হোসেন বলেন এবার এস.এস.সি পরীক্ষায় এই বিদ্যালয় হতে ১৩ জন শিক্ষার্থী জি.পিএ-৫ প্লাস  পেয়েছে, যার মধ্যে ৮জন শিক্ষার্থী কুষ্টিয়া চেম্বার অব কমার্স  থেকে বৃত্তি পেয়েছে। প্রধান বক্তা ছিলেন সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক আক্তারুজ্জামান বিশ্বাস, বিদ্যুৎসাহী সদস্য জহুরুল ইসলাম, অভিভাবক সদস্য আনোয়ার হোসেন, শাহাজান শেখ, খালেদ হাসান, আল মামুন, জেলা ছাত্রলীগের উপ-গনশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক সজিব আলী।

প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যদিয়ে কুষ্টিয়ায় শেষ হল সনাতন ধর্মাবলম্বীদের দুর্গাপূজা

নিজ সংবাদ ॥ প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যদিয়ে কুষ্টিয়াসহ সারাদেশে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় অনুষ্ঠান শারদীয় দুর্গাপূজা গতকাল শেষ হয়েছে। শান্তিপূর্ণ পরিবেশে যথাযথ ধর্মীয় মর্যাদায় পূজামন্ডপে পূজা-অর্চণা, শ্রদ্ধাঞ্জলী নিবেদন এবং প্রসাদ বিতরণের মাধ্যমে দেবী দূর্গা ভক্তরা পাঁচ দিনব্যাপী দুর্গোৎসব উদযাপন করেন। সার্বজনীন এই উৎসবের প্রত্যেক দিনই সনাতনী হিন্দু সম্প্রদায়র সকল বয়সের নারী-পুরুষ মন্ডপে-মন্ডপে গিয়ে আনন্দ উৎসবে মেতে উঠেন। পাশাপাশি দূর্গতি নাশিনী দেবীদূর্গার কৃপা লাভের আশায় তারা আরাধনা করেন। প্রতিবারের ন্যায় এ বছরও দুর্গাপূজা উপলক্ষে জেলাব্যাপী কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা গড়ে তোলা হয়। প্রতিটি পূজামন্ডপে বিপুলসংখ্যক আনসার, ব্যাটালিয়ান পুলিশ ও র‌্যাবসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করা হয়। বসানো হয় মেটাল ডিটেক্টও ও ক্লোজ সার্কিট টেলিভিশন ক্যামেরা (সিসিটিভি)। পাঁচ দিনব্যাপী শারদীয় দুর্গোৎসবের শেষ দিন মঙ্গলবার ছিল বিজয়া দশমী। উমার (দেবীদূর্গা) ফিরে যাওয়ার দিন। ‘অকাল বোধনে’ কৈলাস থেকে শরতের পঞ্চম তিথিতে ঘোড়ায় চড়ে উমা আসেন পিতৃগৃহে । পাঁচ দিন পর দশমী তিথিতে আবার ফিরে যান কৈলাসে। এদিকে মঙ্গলবার দিন- শেষে দেবী দুর্গার বিদায়বেলায় আনন্দ- বেদনার মিশ্রণ অনুভূতিতে ‘মা দূর্গা’র ভক্তদের হৃদয় সিক্ত করে তুলে। গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১০টার মধ্যে দশমীবিহিত পূজা সমাপন ও দর্পণ বিসর্জন দেয়া হয়। দশমীতে বিভিন্ন পূজামন্ডপে সিঁন্দুর খেলায় মেতে উঠেন ‘মা দুর্গা’ ভক্তরা। বিকাল ৪টা হতে প্রতিমা বিসর্জনের উদ্দেশ্যে শহরে বিজয়া শোভাযাত্রা বের হয়। ঢাক-কাশরীর বাদ্যি-বাজনার তালে-তালে শোভাযাত্রাটি প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে  ঘোড়াই ঘাটে গড়াই নদী তীরে গিয়ে শেষ হয়।

গাংনীতে তেল পাম্পে বোমা হামলা

গাংনী প্রতিনিধি ॥ গাংনী উপজেলার পশ্চিম মালসাদহ গ্রামে হোসেন ফিলিং স্টেশন নামের একটি তেল পাম্পে বোমা হামলা করেছে দুর্বৃত্তরা। সোমবার দিবাগত মধ্যরাতে বোমা হামলার ঘটনা ঘটে। তবে এ ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি। স্থানীয়রা জানান- মধ্যরাতে হোসেন ফিলিং স্টেশনে দু’বার পরপর বিকট শব্দে বোমা ফিস্ফোরণের শব্দ হয়। গাংনী থানার ওসি ওবাইদুর রহমান জানান, বোমা হামলার খবর পেয়ে পুলিশের একটিদল ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে বিম্ফোরিত বোমার আলামত উদ্ধার করেছে। তেল চাঁদার দাবীতে ব্যর্থ হয়ে বোমা হামলা চালিয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ঘটনায় জড়িতদের সনাক্ত করে আটকের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

দৌলতপুরে বিসর্জনের মধ্যদিয়ে শেষ হলো শারদীয় দুর্গোৎসব

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ শারদীয় দুর্গোৎসবের গতকাল ছিল শেষ দিন। নানা আচারের মধ্যদিয়ে সোমবার মহানবমী পালিত হয়। আর প্রতিমা বিষর্জনের মধ্যদিয়ে গতকাল মঙ্গলবার সমাপ্তি ঘটেছে সনাতন ধর্মালম্বীদের সর্ববৃহৎ এই ধর্মীয় উৎসব। তাই গতকাল সকাল থেকে সব মন্দিরে ছিল বিষাদের সুর। কারন বিজয় দশমীর দিনে বিষর্জনের মধ্য দিয়ে মর্ত্য ছেড়ে কৈলাসে স্বামী গৃহে ফিরে যান দূর্গতিনাশিনী মা দূর্গা। পেছনে ফেলে যান ভক্তদের পাঁচ দিনের আনন্দ-উল্লাস আর বিজয়ার আনন্দ অশ্র“। এদিকে দশমীতে কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের ১৩টি মরিন্দরে অনুষ্ঠিত দূর্গার শান্তিপূর্ণ বিষর্জন হয়েছে। যদিও বৈরী আবহাওয়া ছিল বিকেল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত। বৃষ্টি উপেক্ষা করে ভক্ত ও দর্শনার্থীর পাশাপাশি আয়োজকরা মা দূর্গাকে বিষর্জন দেয়। পঞ্জিকামতে জগতের মঙ্গলকামনায় দেবী দূর্গা এবার ঘোটকে অর্থাৎ ঘোড়ায় চড়ে মর্ত্যালোকে এসেছিলেন। গতকাল স্বর্গালোকে ফিরে যান ঘোটকে চড়েই। দৌলতপুর উপজেলার হিসনা নদী, পদ্মা নদী, মাথাভাঙ্গা নদীসহ বিভিন্ন নদী ও জলাশয়ে ভক্তবৃন্দ আনন্দ উল্লাস ও অশ্র“সজল নয়নে মা’কে বিদায় জানায়। এদিকে শারদীয় দূর্গোৎসব উপলক্ষ্যে দৌলতপুরের প্রতিটি পূজা মন্ডপকে সাজানো হয়েছে আকর্ষনীয় করে। দূর্গা পূজাকে শান্তিপূর্ন ও নির্বিঘœ করতে প্রতিটি মন্ডপে আইনশৃংখলা বাহিনীর পক্ষ থেকে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হয়েছিল।

আব্দালপুর ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি আরব আলীর বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ

কুষ্টিয়া সদর উপজেলার বিষ্ণুদিয়া বাগপাড়া জামে মসজিদ উন্নয়নের নামে প্রায় অর্ধলক্ষ টাকা আত্মসাৎ

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়া সদর উপজেলার আব্দালপুর ইউনিয়নের বিষ্ণুদিয়া বাগপাড়া জামে মসজিদ উন্নয়নের নামে প্রায় অর্ধলক্ষ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। মসজিদ কমিটির লোকজনকে না জানিয়ে অর্থ তুলে নেয়া হয়েছে সদর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস থেকে। এদিকে মসজিদের অর্থ আত্মসাতের খবরে এলাকার ধর্মপ্রাণ মুসুল্লী ও সাধারন মানুষ ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। অবলিম্বে তারা দোষীদের শাস্তি দাবি করেছেন। জানা গেছে, ২০১৮-১৯ অর্থ বছরে সদর উপজেলার বিষ্ণুদিয়া বাগপাড়া জামে মসজিদের উন্নয়নের জন্য সরকার থেকে ৪৩ হাজার ৫০০ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়। মসজিদ কমিটি ও স্থাণীয় মুসুল্লীদের না জানিয়ে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসে ভুয়া কমিটি জমা দিয়ে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আরব আলী অর্থ তুলে নিয়েছেন। এ অর্থ মসজিদ উন্নয়নের জন্য ব্যয় না করে আত্মসাৎ করেছেন বলে কমিটির পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে। আরব আলী ক্ষমতাসীন দলের নেতা হওয়ায় কেউ ভয়ে মুখ খুলতে পারছেন না।

মসজিদ কমিটির নেতা কামাল হোসেন জানান, সরকারি অর্থ বরাদ্দ হয়েছে এবং তা উত্তোলনও করা হয়েছে বলে আমরা খবর পেয়েছি। তবে সেই অর্থ মসজিদ কমিটি পাইনি। এ অর্থ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের একজন নেতার কাছে রয়েছে। তবে আওয়ামী লীগের নেতা হওয়ায় ভয়ে কেউ কিছু বলতে পারছে না। কয়েকবার টাকা চাইলেও তিনি দেননি।

স্থানীয়রা জানান, শুধু এই প্রতিষ্ঠানের অর্থ নয় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আরব আলী প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নের কথা বলে এমপির কাছ থেকে অনুদান নিয়ে এসে আত্মসাৎ করেন। মসজিদ, মন্দির ও গোরস্থানের টাকাও তুলে তিনি নিজের কাছে রাখেন। স্থানীয় একটি মন্দিরের টাকাও তিনি মেরে দিয়েছেন। উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সাইদুর রহমান বলেন, মসজিদ উন্নয়নের নামে কেউ অর্থ নয়-ছয় করলে ব্যবস্থা নেয়া হবে। ভুয়া কমিটি দিয়ে যদি কেউ টাকা তুলে প্রয়োজনে তদন্ত করে দেখা হবে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার জুবায়ের হোসেন চৌধুরী বলেন, বিষয়টি গুরুতর। অভিযোগ পেলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

অভিযোগের বিষয়ে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আরব আলীর সাথে ফোনে কথা হলে বলেন,‘ কোন টাকা আত্মসাৎ করিনি। কাজ হয়েছে। এলাকার প্রতিপক্ষ আমার বিরুদ্ধে এসব অপপ্রচার চালাচ্ছে।’

দলীয় শ্রদ্ধাঞ্জলী ও গার্ড অব অনার প্রদান

বিএনপি নেতা খন্দকার সাজেদুর রহমান বাবলুর দাফন সম্পন্ন

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়া জেলা বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক, জেলা মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা খন্দকার সাজেদুর রহমান বাবলুর দাফন সম্পন্ন হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১০টায় কুষ্টিয়া হাউজিং ঈদগাহে নামাজের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাযা শেষে কেন্দ্রীয় পৌর গোরস্থানে দাফন সম্পন্ন হয়। জানাযা নামায পূর্বে সহকারী কমিশনার (ভুমি) নেতৃত্বে পুলিশের একটি চৌকস দল খন্দকার সাজেদুর রহমান বাবলুকে রাষ্ট্রীয় সম্মান গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়। এসময় উপজেলা প্রশাসন, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড, মুক্তিযোদ্ধা সাংসদ, রেড ক্রিসেন্টসহ বিভিন্ন সংগঠনের পকষ থেকে পুষ্পমাল্য প্রদান করা হয়। এর আগে সকাল ৯টায় মরহুম খন্দকার সাজেদুর রহমান বাবলুকে শেষ শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য কুষ্টিয়া জেলা বিএনপির কার্যালয়ে আনা হলে এক হৃদয়-বিদারক দৃশ্য সৃষ্টি হয়। সেখানে তার কফিনে দলীয় পতাকা দিয়ে ঢেকে দেওয়া হয়। এরপর জেলা ও উপজেলা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের পক্ষ থেকে পুস্পমাল্য দিয়ে তার প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সহ সভাপতি বাবু নিতাই রায় চৈাধরী, বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক এমপি সৈয়দ মেহেদী আহমেদ রুমী, খুলনা বিভাগীয় বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক এমপি নজরুল ইসলাম মঞ্জু ও সহসাংগঠনিক সম্পাদক অনিন্দ ইসলাম অমিত ও জয়ন্ত কুমার কুন্ডু, বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির স্থানীয় সরকার বিষয়ক সম্পাদক জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাবেক এমপি অধ্যক্ষ সোহরাব উদ্দিনসহ অনান্য নেতৃবৃন্দ।

নামাজা ও দাফন অনুষ্ঠানে বিএনপি নেতা-কর্মীসহ শত শত মানুষ উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, সোমবার দুপুর দেড়টায় ঢাকার ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি ইন্তেকাল করেন।

কালুখালীতে ইলিশ রক্ষা বিষয়ক সচেতনতা সভা

কালুখালী প্রতিনিধি ॥ গতকাল মঙ্গলবার রাজবাড়ীর কালুখালীতে ইলিশ রক্ষা বিষয়ক সচেতনতা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিকাল ৪ টায় উপজেলার কালিকাপুর ইউপির হরিণবাড়ীয়া বাজারে স্থানীয় জেলে ও গন্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত সচেতনতা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা মৎস্য অফিসার মোঃ আব্দুস সালাম। তিনি তার বক্তব্যে বলেন ইলিশ রক্ষা অভিযান সফলতার কারণে আমরা বাজার থেকে কম দামে ইলিশ মাছ কিনতে পারছি। সতর্ক করে বলেন যারা ইলিশ প্রজনন  মৌসুমে নদীতে অবৈধভাবে মাছ ধরবে তাদেরকে আটক করে আইনি আওতায় শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে। এবং ব্যবহৃত নৌকা ধ্বংশ করা হবে। তিনি আরও বলেন দেশের প্রতি আন্তরিকতা দিয়ে মাছ নিধন থেকে সকলকে দূরে থাকতে অনুরোধ করেন। এসময় অন্যান্যের মধ্যে কালুখালী প্রেসক্লাবের সভাপতি মুহাম্মদ ফজলুল হক, বাজার বণিক সমিতির সভাপতি ইউপি সদস্য মোঃ বিল¬াল মন্ডল, সাধারণ সম্পাদক রিপন মন্ডল, ক্ষেত্র সহকারী হাসানুজ্জামান হিমু, লিফ আশরাফ সিদ্দিকি বাচ্চু, মিজানুর রহমান সহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

বন্যার্তদের মাঝে দৌলতপুর আসনের এমপির ত্রাণ বিতরণ

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে বন্যার্তদের মাঝে ত্রান বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। বন্যার পানি কমতে শুরু করায় বন্যা কবলিত অসহায় মানুষের মাঝে স্বস্থি ফিরতে শুরু করেছে। তবে তাদের দূর্ভোগ দূর্দশা এখনও রয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত উপজেলার রামকৃষ্ণপুর ও চিলমারী ইউনিয়নে বন্যার্ততেদর মাঝে কুষ্টিয়া-১ দৌলতপুর আসনের এমপি আ, কা, ম সরওয়ার জাহান বাদশা জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সাথে নিয়ে ত্রান বিতরণ করেছেন। রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নে ৪ মেট্রিক টন চাল ও ২০০ প্যাকেট শুকনো খাবার ত্রান হিসেবে বানভাসীদের দেওয়া হয়েছে। চিলমারী ইউনিয়নে বানভাসীদের দেওয়া হয়েছে ৫ মেট্রিক টন চাল। কুষ্টিয়া-১ দৌলতপুর আসনের এমপি আ, কা, ম সরওয়ার জাহান বাদশা বন্যার্তদের মাঝে এ ত্রান সামগ্রী বিতরণ করেন। এসময় তার সাথে উপস্থিত ছিলেন, কুষ্টিয়া অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আজাদ জাহান, দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তার, দৌলতপুর প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সাইদুর রহমানসহ অন্যান্য কর্মকর্তা।

আবরার হত্যা মামলায় নেই মূল অভিযুক্তরা – রিজভী

ঢাকা অফিস ॥ বুয়েটছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যা মামলায় ১৯ জনের বিরুদ্ধে যে মামলা হয়েছে, তাতে ‘অন্যতম অভিযুক্তদের’ নাম নেই বলে দাবি করেছেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, “আবরার ফাহাদ হত্যার ঘটনায় সোমবার রাতে চকবাজার থানায় যে মামলা হয়েছে সেখানে আসামি হিসেবে ১৯ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। রহস্যজনকভাবে ১৯ জনের মধ্যে এই হত্যাকান্ডের ঘটনায় অন্যতম অভিযুক্তদের নাম নেই।” আবরার হত্যার ঘটনায় তার বাবা বরকতুল্লাহ সোমবার চকবাজার থানায় ১৯ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা করেন। মামলার ১০ আসামিকে এরই মধ্যে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার তাদের পাঁচদিনের রিমান্ডেও পাঠিয়েছে আদালত। রোববার রাত ২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শেরে বাংলা হলের সিঁড়ি থেকে তড়িৎ কৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র আবরার ফাহাদের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। সহপাঠীদের বরাতে সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়, শিবির সন্দেহে ছাত্রলীগেরকর্মীরা তাকে পিটিয়ে হত্যা করেছে। অভিযোগ উঠেছে, শেরে বাংলা হলের ২০১১ নম্বর কক্ষে ডেকে নিয়ে গিয়ে পেটানো হয়। রুহুল কবির রিজভী বলেন, “শেরে বাংলা হলের ২০১১ নম্বর রুম তথা টর্চার সেলটি কার? তাকে বাঁচাতে বুয়েট প্রশাসন উঠে পড়ে লেগেছে কেন?” বুয়েট কর্তৃপক্ষের সমালোচনা করে তিনি বলেন, “নির্লজ্জ বুয়েট প্রশাসন এই হত্যাকান্ডকে সামান্য অনাকাঙ্খিত মৃত্যু বলে বিবৃতি দিয়েছে। তারা খুনিদেরকে আড়াল করতে সিসিটিভিতে ধারণকৃত ২০ মিনিটের ভিডিও এডিট করে মাত্র দেড় মিনিটের একটি ক্লিপ দিয়েছে আন্দোলনরত ছাত্রদের। “এই প্রশাসন কতখানি বিবেকহীন হয়ে পড়েছে, তারা এত বড় একটি নৃশংস হত্যাকান্ড, কাপুরুষোচিত হত্যাকান্ডকে হালকাভাবে দেখিয়ে বাঁচাতে চাচ্ছে অপরাধীদেরকে, বাঁচাতে চাচ্ছে হত্যাকারীদেরকে।” রিজভী বলেন, “দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছাত্রলীগের ক্যাডারদের হাতে জিম্মি হয়ে পড়েছে। ছাত্রলীগের অতীত ঐতিহ্যকে ম্লান করে দিয়ে এর ডাকনাম এখন হয়ে পড়েছে চাপাতি লীগ। “ছাত্রলীগ নামক এই দানব জঙ্গি লীগকে নিষিদ্ধ ঘোষণা না করলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে লেখাপড়ার পরিবেশ ফিরবে না, শিক্ষার্থীদের জীবনের নিরাপত্তা থাকবে না।” গত ৫ অক্টোবর ফেইসবুকে দেওয়া সর্বশেষ পোস্টে আবরার ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে ফেনী নদীর পানি প্রত্যাহারসহ সাম্প্রতিক কয়েকটি চুক্তির সমলোচনা করেন। এর আগেও ফেইসবুকে তার বিভিন্ন পোস্টের কারণেই তাকে শিবির বলে সন্দেহ করা হয় এবং সে কারণেই তাকে ২০১১ নম্বর কক্ষে ডেকে নিয়ে ‘জিজ্ঞাসাবাদ’ করা হয় বলে ছাত্রলীগ সংশ্লিষ্টদের ভাষ্য। বিএনপি নেতা রিজভী তিনি ফেনী নদীর নাম ‘আবরার নদ’ রাখার দাবি জানান। ভারতের সঙ্গে চুক্তির প্রতিবাদে বিরুদ্ধে ধাপে ধাপে কর্মসূচি পালন করা হবে জানান তিনি। “আমরা এই চুক্তির প্রতিবাদ করছি, বিভিন্ন অঙ্গসংগঠন প্রতিবাদ করছে। এই চুক্তির প্রতিবাদে গতকালও একটা বিশাল মিছিল হয়েছে। এটা চলতে থাকবে।” সংবাদ সম্মেলনে দলের যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, কেন্দ্রীয় নেতা আবদুস সালাম আজাদ, মুনির হোসেন, সেলিমুজ্জামান সেলিম, খন্দকার আবু আশফাক, কাজী সাইদুল আলম বাবুল উপস্থিত ছিলেন।

বুয়েট শিক্ষার্থী ফাহাদের মৃত্যুতে ইবি শাপলা ফোরামের শোক

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ^বিদ্যালয়ের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদ এর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন বাঙ্গালী জাতীয়তাবাদ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষক ফোরাম, ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ের শাপলা ফোরামের সভাপতি প্রফেসর ড. মোঃ রেজওয়ানুল ইসলাম। শোকবার্তায় তিনি বলেন, আবরার হত্যায় দায়ীদের দ্রুত আইনের আওতায় এসে বিচার নিশ্চিত করতে হবে। প্রফেসর ড. মোঃ রেজওয়ানুল ইসলাম মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

সংবাদ সম্মেলনে আ’লীগ সাঃ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের

শেখ হাসিনার আমলে অপরাধ করে কেউ ছাড় পায়নি, পাবেও না 

ঢাকা অফিস ॥ আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, অপরাধীদের শাস্তি পেতেই হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমলে অপরাধ করে কেউ ছাড় পায়নি, পাবেও না। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমলে অপরাধ করে কেউ ছাড় পায়নি। অপরাধী সবাইকেই শাস্তি পেতে হয়েছে। আওয়ামী লীগের মন্ত্রী, এমপি এবং দলের নেতাদের বিরুদ্ধেও অপরাধের দায়ে সাংগঠনিক ও প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেয়ার নজির রয়েছে।’ গতকাল মঙ্গলবার ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন। এ সময় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, সংগঠনিক সম্পাদক ও নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, উপ-দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়–য়া, দলের কেন্দ্রীয় নেতা এডভোকেট কামরুল ইসলাম ও আনোয়ার হোসেন উপস্থিত ছিলেন। ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপির শাসনামলে তাদের দলের একজন অপরাধীর বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ও প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে এমন নজির নেই। বরং তাদের শাসনামলে হাওয়া ভবন সৃষ্টি করে দেশকে দুর্নীতির স্বর্গরাজ্যে পরিণত করা হয়েছিল।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বুয়েট ছাত্র আবরার হত্যাকান্ড খুবই দুঃখজনক। কেউ ভিন্ন মতাবলম্বী হলেও তাকে মেরে ফেলা যায় না। এ ঘটনায় ৫ মিনিটের মধ্যে ৬ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। কয়েকজনকে বহিস্কার করা হয়েছে। জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেয়া হবে। অপরাধী কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। চলমান সন্ত্রাস, দুর্নীতি ও মাদক বিরোধী অভিযান অব্যাহত থাকবে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমাদের দলের সবাই ভাল তা বলি না। নানা কারণে আগাছা-পরগাছা দলে অনুপ্রবেশ করেছে। ছাত্রলীগ অনেক ভাল কাজও করেছে। তবে গুটি কয়েক লোকের কারণে আওয়ামী লীগের বা ছাত্র লীগের অর্জন ¤¬ান হয়ে যেতে পারে না। চাঁদের গায়েও খুঁত আছে। বর্তমান সরকারের অনেক অর্জন রয়েছে। শেখ হাসিনার উন্নয়নের সুফল দেশবাসী ভোগ করছে। দেশে অনেক উন্নয়নমূলক কাজ হয়েছে।’ সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, ছাত্রলীগও এদেশের স্বাধীনতা সংগ্রাম থেকে শুরু করে গণতান্ত্রিক আন্দোলনে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছে। তার পরেও আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাঁর দলের কেউ অপরাধ করলে তাকে ছাড় দিচ্ছেন না। সাংবাদিকদের অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে আন্দোলনের একটু ঢেউও নেই, বিএনপির আন্দোলনে জনগণ সাড়া দিচ্ছে না। বিএনপির জনপ্রিয়তা এবার রংপুর নির্বাচনে প্রমান হয়েছে। বিএনপি মহাসচিব দীর্ঘদিন ক্ষমতার বাইরে থেকে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। তিনি কখন কি বলেন, তা নিজেও জানেন না। ওবায়দুল কাদের বলেন, জাতির পিতাকে হত্যার পর দেশে একুশ বছরের অপশাসনে মূল্যবোধের অবক্ষয় হয়েছে, সেখান থেকে জাতির পিতার কন্যা শেখ হাসিনা দেশকে তুলে এনে সুশাসন প্রতিষ্ঠা করেছেন।

আবরার ফাহাদকে হত্যার প্রতিবাদে কুষ্টিয়ায় ইশা ছাত্র আন্দোলনের বিক্ষোভ

ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন কুষ্টিয়া জেলা শাখার উদ্যোগে আবরার হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল মঙ্গলবার কুমারখালী থানার কয়া ইউনিয়নের রায়ডাঙ্গা ঈদগাহ ময়দান থেকে আবরার ফাহাদের জানাজা ও  দোয়ার পর বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। বিক্ষোভ মিছিলটি মূল সড়ক প্রদক্ষিণ করে আবরার ফাহাদের বাসভবনের সামনে এসে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্যমে সমাপ্ত হয়। সমাবেশটি ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন কুষ্টিয়া জেলার সভাপতি ছাত্রনেতা মু. আনোয়ারুল করীম বিপ্লবের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মু. মিজানুর রহমানের পরিচালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ কুষ্টিয়া জেলার সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আহাম্মাদ আলী। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ইসলামী আন্দোলন কুষ্টিয়া জেলার সেক্রেটারী আলহাজ্ব শেখ এনামুল হক, জয়েন্ট সেক্রেটারী মু. আব্দুল মোমিন, কুমারখালী থানার সেক্রেটারী মু. গোলাম তাওহীদ, ইশা ছাত্র আন্দোলন কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা সভাপতি ছাত্রনেতা মু. নাজমুছ ছলিহীন, কুষ্টিয়া জেলার সহ-সভাপতি মু. আসাদুল্লাহিল গালিব, কয়া ইউনিয়ন শাখার সভাপতি ছাত্রনেতা মু. রাকিবুল ইসলাম প্রমূখ। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় নেতৃবৃন্দ ও এলাকার জনসাধারণ। এদিকে আবরার ফাহাদের মৃত্যুতে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ কুষ্টিয়া জেলা শাখা শোক প্রকাশ করেছে। ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ কুষ্টিয়া জেলা সভাপতি আলহাজ্ব আহাম্মাদ আলী ও সেক্রেটারী আলহাজ্ব শেখ এনামুল হক এক  যৌথ বিবৃতিতে শোক প্রকাশ করেন। তারা সকাল ১০টায় আবরার ফাহাদের গ্রামের বাড়িতে জানাজায় শরীক হয়ে সার্বিক খোজ খবর  নেন এবং পরিবারের সকলকে সান্তনা দেয়ার পাশাপাশি হত্যাকারীদের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ শাস্তি ফাঁসির দাবি করেন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

ফাহাদের খুনিদের বিচারের দাবি ইবি শিক্ষার্থীদের

ইবি প্রতিনিধি ॥ বুয়েটের মেধাবী শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের খুনিদের বিচারের দাবিতে মহাসড়ক অবরোধের সময় ইবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহাঙ্গীর শিক্ষার্থীদের সাথে অসুলভ আচরণ ও হুমকি দেয়ার প্রতিবাদে তাকে প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। আগামি ২৪ ঘন্টার মধ্যে তাকে শিক্ষার্থীদের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা ও প্রত্যাহারকরনসহ তিন দফা দাবিতে মঙ্গলবার বিকেলে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করে শিক্ষার্থীরা। এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে ব্যাপক পুলিশি উপস্থিতি লক্ষ্য করা  গেছে। আন্দোলনরত শিক্ষার্থী সূত্রে জানা যায়, বিশেষ ট্রাইব্যুনাল গঠন করে আবরার ফাহাদের খুনিদের বিচার করা, হত্যায় জড়িত অমিত সাহাকে মামলায় এজাহারভুক্তকরন এবং ইবি থানার ওসিকে ২৪ ঘন্টার মধ্যে প্রত্যাহারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশে নামে ইবির সাধারণ শিক্ষার্থীরা। বিকেলের দিকে জিয়া হল মোড় থেকে সাধারণ শিক্ষার্থীরা সবকটি হল ঘুরে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে মৃত্যুঞ্জয়ী মুজিবের পাদদেশে সমাবেশ ও মানববন্ধন করে। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক তালাবদ্ধ করে দেয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে। এসময় প্রধান ফটকের বাইরে ইবি থানা ও কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত পুলিশকে সতর্ক অবস্থানে দেখা গেছে। কুষ্টিয়ার এএসপি  মোস্তাফিজুর রহমানও এসময় উপস্থিত ছিলেন। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, “ওসির প্রত্যাহারের বিষয়টি সম্পূর্ণ অযৌক্তিক। মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ঘটনার শুরু থেকে অমিত সাহার নাম শোনা গেলেও অদৃশ্য কারনে তাকে মামলার এজাহারভুক্ত করা হয়নি। তাকে অবিলম্বে এজহারভুক্ত করার দাবি জানায় তারা। বক্তারা বলেন, দেশের চলমান বিচার প্রক্রিয়া অত্যন্ত জটিল ও সময় সাপেক্ষ তাই বিশেষ ট্রাইব্যুনাল গঠন করে আবরারের খুনিদের বিচার দ্রুত সময়ের মধ্যে কার্যকর করতে হবে। বক্তারা আরো বলেন, গত সোমবার দুপুরে আবরারের খুনিদের বিচার দাবিতে মহাসড়ক অবরোধের সময় ইবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর শিক্ষার্থীদের সাথে অসুলভ আচরণ করেন এবং হুমকির স্বরে কথা বলেন। এজন্য তাকে আগামি ২৪ ঘন্টার মধ্যে প্রত্যাহারের দাবি জানায় বক্তারা। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে ওসিকে প্রত্যাহার করা না হলে লাগাতার আন্দোলনের  ঘোষণা দেন শিক্ষার্থীরা।

আখাউড়ায় আইনমন্ত্রী আনিসুল হক

বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে আবরার ঘটনায় জড়িতদের

ঢাকা অফিস ॥ আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক আবরার হত্যাকাণ্ডকে অত্যন্ত মর্মান্তিক ও দুঃখজনক ঘটনা বলে মন্তব্য করেছেন। তিনি বলেন, ‘এই ঘটনা যারা ঘটিয়েছে তাদের বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে এবং তাদের উপযুক্ত শাস্তি দেওয়া হবে।’ মঙ্গলবার সকালে আখাউড়া রেলস্টেশনে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বক্তব্যকে মন্তব্য করে আইনমন্ত্রী বলেন, ‘উনারা (বিএনপির নেতারা) যে বেসুরাে গান গাচ্ছেন তাতে জনগণ কান দিবে না। উনাদের কর্মকা- দেশবাসী জানেন। আমরা এদেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছি। জননেত্রী শেখ হাসিনা এদেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করেছেন। এইসব আইনের শাসন উনারা নষ্ট করেছিলেন। তাই উনাদের আগে সুধরাতে হবে। পরে অন্যরা সুধরাবে।’ এ সময় উপস্থিত ছিলেন আইন সচিব গোলাম সারওয়ার, আখাউড়া পৌর মেয়র মো. তাকজিল খলিফা কাজল, আখাউড়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আবুল কাশেম ভূইয়া, উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাহমিনা আক্তার রেইনা, আখাউড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক ও অধ্যক্ষ মো. জয়নাল আবেদীন, কসবা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রাশেদুল কাওয়ার ভূইয়া জীবন, আখাউড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক সেলিম ভূইয়া, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহাবুদ্দিন বেগ শাপলু, সাধারণ সম্পাদক শাখাওয়াত হোসেন নয়ন প্রমুখ।