ঝাউদিয়া বাজার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অভিভাবক সমাবেশে আতাউর রহমান আতা

সন্তানের নৈতিক চরিত্র গঠন ও আনুষ্ঠানিক শিক্ষায় অভিভাবক হিসেবে মায়ের গুরুত্ব অপরিসীম

সুজন কর্মকার ॥ কুষ্টিয়া সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও শহর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান আতা বলেছেন, সন্তানের নৈতিক চরিত্র গঠন ও আনুষ্ঠানিক শিক্ষায় অভিভাবক হিসেবে মায়ের গুরুত্ব অপরিসীম। মাকে যত গুরুত্ব দিয়ে আমাদের শিক্ষার ভীত তৈরী করা যায় ততটাই শিক্ষা বাস্তব মুখী ও গুনগত মানের হবে। তিনি বলেন, একটি মান সম্মত শিক্ষা ছাড়া কোন জাতির উন্নয়ণ সম্ভব নয়। তাই ছাত্র-শিক্ষক-অভিভাবকদের এগিয়ে আসতে হবে নিজ নিজ প্রচেষ্টায়। এর জন্য সৃজনশীল পরীক্ষা পদ্ধতি একটি ভালো পদক্ষেপ। শিক্ষার্থীদের যুগোপযোগী শিক্ষায় শিক্ষিত করে গড়ে তুলতে হবে। যাতে করে তারা সু-শিক্ষাই শিক্ষিত হয়ে দেশের কল্যাণে কাজ করতে হবে। কুষ্টিয়া সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আতা আরো বলেন, শিক্ষকদের বাস্ততমুখী হয়ে কঠোর শ্রম ও গবেষনার মাধ্যমে নতুন নতুন তথ্য উপাত্ত শিক্ষার্থীদের মাঝে তুলে ধরতে হবে। শিক্ষকদের দায়ীত্ব পালনে সততা ও নিষ্ঠার পরিচয় দিতে হবে। ঝাউদিয়া বাজার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে, শিক্ষার মান উন্নয়নে অভিভাবক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আতাউর রহমান আতা এসব কথা বলেন। গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১০টায় কুষ্টিয়া সদর উপজেলার ঝাউদিয়া বাজার মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে শিক্ষার মান উন্নয়নে এ অভিভাবক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। ঝাউদিয়া বাজার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি প্রকৌশলী মোঃ নজরুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে অভিভাবক সমাবেশে বিশেষ অতিথি ছিলেন শহর আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মীর রেজাউল ইসলাম বাবু, ঝাউদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান কেরামত আলী বিশ্বাস, ঝাউদিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি বখতিয়ার হুসাইন, সাধারণ সম্পাদক জহুরুল ইসলাম ঠান্টু প্রমুখ। অভিভাবক সমাবেশ সঞ্চালনায় ছিলেন ঝাউদিয়া বাজার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক উত্তম কুমার বিশ্বাস।

কুষ্টিয়ায় স্কুল ছাত্রী ধর্ষন ও পৃথক মাদক মামলায় ৪জনের যাবজ্জীবন

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়া মডেল থানার একটি মাদক মামলায় দুই যুবকের এবং মিরপুর থানার স্কুল ছাত্রী ধর্ষন অভিযোগে অন্য একটি মামলায় দুই যুবকের যাবজ্জীবন কারাদন্ডাদেশসহ অর্থদন্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। গতকাল মঙ্গলবার বেলা ১১টায় কুষ্টিয়া জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক অরূপ কুমার গোস্বামী একজন আসামীর উপস্থিতিতে ফেন্সিডিল/মাদক মামলায় এবং বেলা ১২টায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আদালতের বিচারক মুন্সি মো: মশিয়ার রহমান দুই আসামীর উপস্থিতিতে আদালতে এই রায় ঘোষনা করেন। মাদক মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত ও প্রত্যেকের ৫০হাজার টাকা অর্থদন্ডপ্রাপ্ত হলেন-চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদার শিবনগর গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে সাদিকুল ইসলাম ওরফে সাদিক (৩০) এবং পলাতক আসামী চন্দবাস গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে হাবিবুর রহমান ওরফে হবি। এছাড়া স্কুলছাত্রী ধর্ষন মামলায় যাবজ্জীন সাজাপ্রাপ্ত এবং প্রত্যেকের ১লক্ষ টাকা অর্থদন্ডপ্রাপ্ত আসামীদ্বয় হলেন- মিরপুর উপজেলার চিথলিয়া গ্রামের শহীদ উদ্দিনের ছেলে মাসুদ রানা(২৬) এবং খলিল উদ্দিনের ছেলে তরিকুল ইসলাম ওরফে গোসাই(২৮)।  আদালত সূত্রে জানায়, ২০১৭ সালের ১৩ অক্টোবর দুপুরে কুষ্টিয়া শহরের চাউলের বর্ডার এলাকা থেকে ৩০০ বোতল ফেন্সিডিলসহ আসামীদের গোয়েন্দা পুলিশ আটক করে তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরসহ কুষ্টিয়া মডেল থানায় সোপর্দ করেন। একই বছর ২৮ডিসেম্বর তদন্ত শেষে আদালতে চার্জশীট দেয় পুলিশ।

অন্যদিকে ২০১৩ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর বেলা সাড়ে ৩টার দিকে স্কুল ছাত্রী মিরপুুর উপজেলার ভাড়ল গ্রাম থেকে নানী বাড়ি চিথলিয়া গ্রামে যাওয়ার পথে আসামীরা ওই ছাত্রীকে তুলে নিয়ে যায় এবং উপজেলার কাটদহচর এলাকায় মাঠের মধ্যে একটি হ্যাচারীর পাশের্^ ওড়না ও গামছা দিয়ে হাত/মুখ বেঁধে জোরপূর্বক ধর্ষন করেন। এঘটনায় ওই ছাত্রীর নানী সামেলা খাতুন বাদি হয়ে মিরপুর থানায় ধর্ষন মামলা করেন। মামলাটি তদন্ত শেষে ২০১৪ সালের ১ জানুয়ারী আদালতে চার্জশীট দেয় পুলিশ।

কুষ্টিয়ায় বর্ণাঢ্য আয়োজনে চ্যানেল আই’র জন্মদিন পালন

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়ায় বর্ণাঢ্য আয়োজনে বে-সরকারী টিভি চ্যানেল “চ্যানেল আই”-এর ২০ বর্ষ পূর্তি দিবস পালিত হয়েছে।

গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১০টায় আমার চ্যানেল আই দর্শক ফোরাম কুষ্টিয়ার আয়োজনে কুষ্টিয়া পৌরসভার বিজয় উল¬াস চত্বর হতে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালী বের হয়। র‌্যালীটি শহর প্রদক্ষিণ শেষে পৌর বিজয় উল¬াস চত্বরে এসে আলোচনা সভা ও কেক কাটা হয়।

চ্যানেল আই কুষ্টিয়া প্রতিনিধি আনিসুজ্জামান ডাবলুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক মোঃ আসলাম হোসেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দৈনিক সময়ের কাগজ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ও কুষ্টিয়া প্রেসক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নুরুন্নবী বাবু, চ্যানেল টোয়েন্টিফোরের স্টাফ রিপোর্টার ও কুষ্টিয়া প্রেসক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শরীফ বিশ^াস, ডিবিসি চ্যানেল ও দৈনিক সমকালের কুষ্টিয়া প্রতিনিধি সাজ্জাদ রানা, দৈনিক মাটির ডাক পত্রিকার সম্পাদক ও কুষ্টিয়া প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি  লুৎফর রহমান কুমার, মাটির পৃথিবীর সম্পাদক ও কুষ্টিয়া প্রেসক্লাবের নির্বাহী সদস্য এম. এ জিহাদ,  দৈনিক প্রথম আলোর কুষ্টিয়া প্রতিনিধি ও কুষ্টিয়া প্রেসক্লাবের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক তৌহিদী হাসান শিপলু, দৈনিক যুগান্তর পত্রিকার কুষ্টিয়া প্রতিনিধি ও কুষ্টিয়া প্রেসক্লাবের কোষাধ্যক্ষ এ এম জুবায়েদ রিপন, যমুনা টেলিভিশনের কুষ্টিয়া প্রতিনিধি মাহাতাব উদ্দিন লালন, দৈনিক নয়াদিগন্ত পত্রিকার কুষ্টিয়া প্রতিনিধি আ ফ ম নুরুল কাদের,  দৈনিক দিনের খবর পত্রিকার সম্পাদক ফেরদৌস রিয়াজ জিল¬ু, মোহনা টিভির কুষ্টিয়া প্রতিনিধি এস এম আকরাম, দৈনিক মানবজমিন পত্রিকার কুষ্টিয়া প্রতিনিধি দেলোয়ার হোসেন মানিক,  দৈনিক আলোকিত বাংলাদেশ পত্রিকার কুষ্টিয়া প্রতিনিধি এ এইচ এম আরিফ মেহমুদ, বাংলা টিভির কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি ও কুষ্টিয়া প্রেসক্লাবের দপ্তর সম্পাদক এম লিটন উজ জামানসহ গণমাধ্যম কর্মী, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

দৌলতপুরে বন্যার চরম অবনতি

বিপদসীমার ওপর প্রবাহিত হচ্ছে পানি

রামকৃষ্ণপুর ও চিলমারী ইউনিয়নের ২ হাজার বন্যার্ত পরিবারের মাঝে শুকনো খাবার বিতরণ

শরীফুল ইসলাম ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে বন্যার চরম অবনতি হয়েছে। রামকৃষ্ণপুর ও চিলমারী ইউনিয়নের কোন গ্রামে বা বাড়ি আঙিনায় বন্যার পানি যেতে আর বাঁকী নেই। দুই ইউনিয়ন এখন পুরো পানিবন্দী হওয়ার পাশাপাশি প্লাবিত হয়ে পড়েছে। যেদিকে তাকানো যায় শুধু পানি আর পানি। কৃষকের স্বপ্নের অর্থকরী ফসল মাসকলাই বন্যার পানিতে তলিয়ে যাওয়ার পর এবার বাড়ি ঘরে পানি ঢুকে বন্যাকবলিত অসহায় মানুষকে সীমাহীন দূর্ভোগে ফেলেছে। পানি ও খাবারে সংকট দেখা দিয়েছে। গবাদি পশুর খাদ্যের তীব্র সংকট তীব্র আকার ধারণ করেছে।

গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে বন্যাকবলিত দৌলতপুর উপজেলার দুই ইউনিয়নে সরকারিভাবে ঢাকা থেকে দুই হাজার প্যাকেট শুকনা খাবার বিতরণ করা হয়েছে। দুপুরে কুষ্টিয়া-১ আসনের (দৌলতপুর) সাংসদ আ ক ম সরওয়ার জাহান ও জেলা প্রশাসক আসলাম  হোসেন চরাঞ্চলের বানভাসি মানুষের কাছে তা পৌঁছে দেন।

এছাড়াও দৌলতপুর উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাড. এজাজ আহমেদ মামুন, দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তার, কুষ্টিয়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আনিসুজ্জামান ডাবলুসহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধিগন ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমে অংশ নেন।

এদিকে ফিলিপনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এ কে এম ফজলুল হক কবিরাজ জানান, ফিলিপনগর বড়মসজিদ ও প্রাথমিক বিদ্যালয় এলাকা দিয়ে বাঁধ উপচে বন্যার পানি প্রবেশ করতে থাকলে এমপি আ, কা, ম সরওয়ার জাহান বাদশা’র নির্দেশে বালির বস্তা দিয়ে তা দ্রুত নিয়ন্ত্রন করা হয়।

পদ্মা নদীর পানি অস্বাভাবিকভাবে বৃদ্ধির ফলে চিলমারী ইউনিয়নের ১৮টি গ্রাম এবং রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নে ১৯টি গ্রাম বন্যা কবলিত হয়ে সব মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েছে। পানির স্রোত ও উচ্চতা প্র“তদিনই বাড়ছে।

দুপুরে যখন চিলমারী ইউনিয়নের সরকারপাড়া এলাকায় ত্রাণের নৌকা পৌঁছায়, তখন বানভাসি মানুষ ঘিরে ধরে। শত শত মানুষ ত্রাণের জন্য হাত বাড়ায়। সবাইকে ত্রাণ দিতে না পারায় ঘোষণা দেওয়া হয়, কাল আবার দেওয়া হবে।

ত্রাণ পেয়ে ৬০ বছরের বৃদ্ধা রামেছা খাতুন বলেন, বাড়ি পানিতে ডুবে গেছে। খাবার পেয়ে ভালো লাগছে। বৃদ্ধা ছানোয়ারা খাতুন বলেন, ‘প্রতিবন্ধী ছেলেকে নিয়ে বাড়ি ছেড়ে পাশের একটু উঁচু জায়গায় আশ্রয় নিয়েছি। আজ ত্রাণ পেয়ে কয়েক দিন খেতে পারব।’

চিলমারী ও রামকৃষ্ণপুরের বিস্তীর্ণ এলাকা পানিতে টইটম্বুর। চিলমারীর খারিজারথাক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সোমবার রাতে পানির স্রোতে অর্ধেকের বেশি অংশ বিলীন হয়ে গেছে। এ ছাড়া এলাকায় ৫০টির বেশি বাড়ি ভেঙে পানির স্রোতে  ভেসে গেছে।

বন্যাকবলিত পানিবন্দী মানুষের দূর্ভোগ দূর্দশা চরম আকার ধারণ করেছে। বিশুদ্ধ পানি ও গো-খাদ্যের সংকট দেখা দিয়েছে। গত দু’সপ্তাহ ধরে দুই ইউনিয়নের প্রায় সব মানুষ পানিবন্দী অবস্থায় থাকলেও তাদের সেভাবে ত্রান সহায়তা বা আর্থিক সহায়তা দেওয়া হয়নি।

এছাড়াও উপজেলার মরিচা ইউনিয়নের বৈরাগীরচর এলাকায় বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধ ভেঙ্গে পদ্মার পানি প্রবেশ করে বিভিন্ন এলকা প্লাবিত হয়েছে। ভুরকা এলাকায় স্লুইচ গেট ভেঙ্গে বন্যার পানি ঢুকে ভুরকা, বালিরদিয়াড়, মাজদিয়াড়, বৈরাগীরচর উত্তরপাড়া ও বৈরাগীরচরো বিভিন্ন এলাকা প্লাবিত হয়েছে। ডুবে গেছে কৃষকের ফসল ও বাড়ি-ঘর। বন্যাকবলিত মরিচা ইউপি চেয়ারম্যান শাহ আলমগীর জানান, তার ইউনিয়নের ভুরকা এলাকায় স্লুইচ গেট ভেঙ্গে পদ্মার পানি প্রবেশ করে বিভিন্ন এলাকা প্লাবিত হয়েছে। ডুবে গেছে কৃষকের বিভিন্ন ধরণের ফসল ও বাড়ি-ঘর।

এদিকে পদ্মা নদীর পানি হার্ডিঞ্জ ব্রীজ পয়েন্টে বিপদসীমার ওপর প্রবাহিত হচ্ছে। প্রতি ঘণ্টায় পানি বাড়ছে এক সেন্টিমিটার করে। গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১০টায় পানি পরিমাপ করার পর দেখা যায় হার্ডিঞ্জ ব্রীজ পয়েন্টে বিপদসীমা অতিক্রম করেছে।

কুষ্টিয়ার পানি উন্নয়ন বোর্ডের দেওয়া তথ্য মতে, পদ্মা নদীতে হার্ডিঞ্জ ব্রীজ পয়েন্টে পানি প্রবাহের বিপদসীমা ১৪ দশমিক ২৫ সেন্টিমিটার। গতকাল মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় পানি প্রবাহের মাত্রা ছিল ১৪ দশমিক ২৭ সেন্টিমিটার। গত ২৪ ঘণ্টায় পদ্মার হার্ডিঞ্জ ব্রীজ পয়েন্টে পানি বেড়েছে ১৬ সেন্টিমিটার।

কুষ্টিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী পীযুষ কৃষ্ণ কুন্ডু জানান, এই মুহূর্তে পানি বিপদসীমার দু’সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। প্রতি ঘণ্টায় কখনো ১ সেন্টিমিটার আবার কখনো ২-৩ সেন্টিমিটার করে পানি বাড়ছে। আমরা প্রতিনিয়িত মনিটরিং করছি। বিশেষজ্ঞরা বলছেন বিগত বেশ কয়েক বছরের মধ্যে এবার বন্যার রুদ্ররুপ ধারণ করেছে। খারতের ফারাক্কার সব গেটে খুলে দেওয়ায় বন্যার এ ভয়বহ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।

কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেন বলেন, তিন হাজার খাবার প্যাকেট পাওয়া গেছে। আরও বরাদ্দ মন্ত্রণালয়ে চাওয়া হয়েছে। নগদ টাকাও চাওয়া হয়েছে। সাংসদ সরওয়ার জাহান বলেন, ‘সরকার থেকে সব রকম সহায়তা দিতে নিয়মিত মন্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ রাখা হচ্ছে। আমি নিজে  নৌকায় ঘুরে ত্রাণ দিচ্ছি।’

এবার বিখ্যাত গায়ক উদিত  নারায়ণের সঙ্গে রানু

বিনোদন বাজার ॥ নব্বই দশকের সাড়া জাগানো গায়ক উদিত নারায়াণ। ৩৬ ভাষায় ২৬ হাজারেরও অধিক গান গেয়েছেন তিনি। সেই বিখ্যাত গায়কের সঙ্গে এবার গান গাইলেন রানু মন্ডল। জনপ্রিয় সংগীত পরিচালক ও গায়ক হিমেশের সঙ্গে এর আগে দুটি গানে কণ্ঠ দিয়েছেন রানু। এবার তিনি গান গাইলেন উদিত নারায়াণের সঙ্গে।

হিমেশ রেশমিয়ার স্টুডিওতে এই নতুন গানে কণ্ঠ দিয়েছেন রানু মন্ডল। ২৮ সেপ্টেম্বর লতা মঙ্গেশকরের জন্মদিনে গানটির রেকর্ডিং হয়েছে। আর সেই রেকর্ডিংয়ের কিছু অংশের ভিডিও পোস্ট করেছেন হিমেশ নিজেই। অল্প সময়ের মধ্যেই ভাইরাল হয়ে যায় ভিডিওটি।

নতুন এই গানটির নাম ‘ক্যাহ রাহি হ্যায় নজদিকিয়াঁন’। হিমেশের পরিচালনায় রানুর তৃতীয় গান এটি। জানা গেছে, এই গানটিও হিমেশের ‘হ্যাপি হার্ডি অ্যান্ড হীর’ সিনেমার জন্যই তৈরি করা হচ্ছে। উদিত-রানু ছাড়াও এই গানে আরও কণ্ঠ দিয়েছেন হিমেশ রেশমিয়া ও পায়েল দেব।

মূলত রানাঘাট স্টেশনের প্ল্যাটফর্মে বসে গাওয়া ‘এক প্যায়ার কা নাগমা হ্যায়’ ভাইরাল হওয়ার পর সোশ্যাল মিডিয়ায় স্টার হয়ে যান রানু মন্ডল। এ গানই তাকে পৌঁছে দিয়েছে বলিউডের দরজায়। সংগীত ভুবনে এখন এক আলোচনার নাম রানু। একের পর এক গান গেয়ে চলেছেন তিনি। এরই মধ্যে দর্শক শ্রোতারা শুনেছেন ‘তেরি মেরি কাহানি’ গানটি। শিগগিরই প্রকাশ হবে তার গাওয়া পূজার গান।

হৃত্বিক তো কখনো ক্ষমা চায়নি : কঙ্গনা

বিনোদন বাজার ॥ হৃত্বিকের সঙ্গে কঙ্গনার সমস্যা যেনো সমাধান হচ্ছেই না। কিছুদিন পর পর পুরোনো এই ঘটনা উঠে আসে সামনে। বিচ্ছেদের পর যেন কঙ্গনা-হৃত্বিকের সম্পর্কের জটিলতা বেড়েই চলছে। সেই জটিলতা ও বিতর্কই আবারো উসকে দিলেন কঙ্গনা।

সম্প্রতি এক সংবাদ সম্মেলনে কঙ্গনাকে প্রশ্ন করা হয়, ‘যদি কোনও দিন ঘুম থেকে উঠে দেখেন আপনি হৃত্বিক রোশন হয়ে গিয়েছেন, তা হলে কী করবেন’ প্রশ্ন শুনেই থমথমে হয়ে যায় কঙ্গনার মুখ। তবে উত্তর যেন তৈরিই ছিল কঙ্গনার। ‘হৃত্বিকের জায়গায় থাকলে আমি সবার আগে কঙ্গনার কাছে কৃতকর্মের জন্য ক্ষমা চাইতাম। হৃত্বিক তো কখনো ক্ষমা চায়নি।’

এই মন্তব্যের ফলেই যেন আবার নতুন করে কঙ্গনা-হৃত্বিকের বিচ্ছেদ নিয়ে জলঘোলা তৈরি হয়। শুধু তাই নয়, এদিন আরও একটি বিতর্ক দানা বাঁধে। পরোক্ষভাবে সালমান খানকেও এদিন আক্রমণ করতে ছাড়লেন না কঙ্গনা। তাকে প্রশ্ন করা হয়, সালমান হয়ে ঘুম থেকে উঠতেন তা হলে কী করতেন, কঙ্গনার অকপট উত্তর, ‘মিডিয়ার কান ধরে মুলে দেব। কারণ সালমান খান করলে কেউ কিছু বলে না। আমি করলেই যত দোষ।’

হৃত্বিকের সঙ্গে সম্পর্কের কারণে অনেক কাজেও সুবিধা পেয়েছেন কঙ্গনা। এই ধরনের কথায় কঙ্গনা বলেন, ‘আমার ক্যারিয়ারে কিভাবে উঠেছে এটি সবার জানা। অন্য নায়িকাদের মতো বড় কোনো নায়কের সঙ্গে অভিনয় করে আমি এই পর্যায় আসিনি। নিজের পরিশ্রমেই এসেছি। এখন পর্যন্ত প্রযোজকরা আমার ওপর সেই ভরসা করতে পারেন। সেটিকে আমি শ্রদ্ধা করি। এই সময় এসে যদি এই ধরনের কথাও শুনতে হয় সেটি দুঃখজনক। আর যারা এগুলো বলেন তাদের উচিত আমার সম্পর্কে ভালো করে জেনে আসা।’

 

‘দ্বিতীয় বিয়ের’ গুঞ্জন, যা বললেন অপু বিশ্বাস

বিনোদন বাজার ॥ কিছুদিন ধরেই গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হচ্ছে যে, ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় নায়িকা অপু বিশ্বাস দ্বিতীয় বিয়ে করতে যাচ্ছেন। খুব শিগগিরই দুই হাত চার হাত হতে যাচ্ছে বলেও কোনো কোনো সংবাদ মাধ্যম খবর প্রকাশ করে।

এসব খবরে অপু বিশ্বাসের দ্বিতীয় বিয়ে নিয়ে তার দর্শকদের মনে কৌতুহল জাগে। অনেকে ধরে নেন যে, শাকিব খানের সঙ্গে বিচ্ছেদ যন্ত্রণা ভুলে অপু নতুন সংসার গড়তে যাচ্ছেন।

ঢালিউড সিনেমার এক নায়ককে ঘিরে অপুর বিয়ের গুঞ্জন ডালপালা মেলা শুরু করেছে। অনেকে বলাবলি করছেন ওই নায়কের গলায়ই মালা দিতে যাচ্ছেন ঢালিউড কুইন। কিন্তু সব গুঞ্জন ও জল্পনাকে উড়িয়ে দিয়েছেন অপু বিশ্বাস।

সোমবার গনমাধ্যমকে তিনি বলেন, দ্বিতীয় বিয়ে নিয়ে যেসব খবর প্রচার হয়েছে তার সবগুলোই ভিত্তিহীন। এগুলো নিছকই গুজব।

তিনি বলেন, ‘বিয়ে নিয়ে এই মুহূর্তে কোনোরকম পরিকল্পনাই নেই। যা ছড়িয়েছে বা ছড়ানো হচ্ছে সবই গুজব। খুবই দুর্বল গুজব। কারণ আমি এখন আব্রাম খান জয় ও ক্যারিয়ার নিয়ে মনযোগী। বিয়ে নিয়ে ভাবনা নেই।’

ঢাকাই সিনেমার নায়কের সঙ্গে দ্বিতীয় বিয়ে হওয়ার সম্ভাবনার খবরের বিষয়ে অপু বিশ্বাস বলেন, ‘আমি নিজেও জানি না এমন খবর কিভাবে ছড়ালো। সামনে আমার ‘শ্বশুড়বাড়ি জিন্দাবাদ’ ছবিটি মুক্তি পাবে। এখানে বাপ্পী চৌধুরীর সঙ্গে জুটি বেঁধেছি আমি। হতে পারে আমাদের ভক্তরা আলোচনা তৈরি করতেই এ ধরনেই ‘ফান পোস্ট’ দিচ্ছেন ফেসবুকে।’

তিনি বলেন, ফেসবুক থেকেই বিষয়টি ফুলিয়ে ফাঁপিয়ে বাপ্পীর সঙ্গে আমার বিয়ের খবর কিছু অখ্যাত গণমাধ্যমে প্রকাশ হয়েছে। যার কোনো ভিত্তি নাই।

চোখধাঁধানো সাজে বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বরিয়া

বিনোদন বাজার ॥ চোখধাঁধানো সাজে প্যারিস ফ্যাশন উইকের মঞ্চে হাজির হয়েছিলেন বলিউডের জনপ্রিয় তারকা সাবেক বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন ।

ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন বেগুনি রঙা গাউনের পুরোটা জুড়েই ফুলের ছাপ। পেছন দিকটা দীর্ঘ। এই পোশাক নজর কেড়েছিল সবার। লাল লিপস্টিকে আরও ঝলমলে লেগেছে এই তারকাকে। সব মিলিয়ে চোখধাঁধানো সৌন্দর্য।

প্যারিস ফ্যাশন উইকে প্যারিস দ্য প্যারেড শোতে এমন জমকালো সাজে দেখা দিলেন ঐশ্বরিয়া।

ফরাসি সৌন্দর্য প্রসাধনী প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান লরিয়াল প্যারিসের দূত তিনি। গাউনটি ডিজাইন করেছেন ইতালিয়ান ফ্যাশন ডিজাইনার জিয়ামবাত্তিস্তা ভাল্লি।

এবারই প্রথম প্যারিস ফ্যাশন উইকে ক্যাটওয়াক করলেন ৪৫ বছর বয়সী এই তারকা।

শনিবার এটি অনুষ্ঠিত হয় ঐতিহাসিক ইনস্টিটিউট মোনাই ডি প্যারিস ভবনের চত্বরে। এতে নারীর ক্ষমতায়নের বার্তা দেওয়া হয়।

প্যারিস ফ্যাশন উইকে ঐশ্বরিয়া শিগগিরই মনিরতœমের পরিচালনায় ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপটের ছবি ‘পনিয়িন সেলভান’-এর শুটিং শুরু করবেন।

মাসুদ রানা ছবি থাকছেন আলোচিত মডেল পিয়া!

বিনোদন বাজার ॥ মাসুদ রানা সিরিজের ছবি নির্মাণের জন্য ‘মাসুদ রানা’ চরিত্রে প্রতিভা খোঁজের প্রতিযোগিতা ‘কে হবে মাসুদ রানা’ নির্বাচিত হয়েছেন রাসেল রানা।

সম্প্রতি চ্যানেল আইতে প্রচারিত এ প্রতিযোগিতার গ্র্যান্ড ফিনালে অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিজয়ী হন রাসেল রানা।

তবে গুঞ্জন চলছিল মাসুদ রানা সিরিজে কে হচ্ছেন ‘ক্যাপ্টেন রূপা’?

জানা গেল, ‘ক্যাপ্টেন রূপা’ চরিত্রতে অভিনয় করছেন আলোচিত ও সমালোচিত মডেল পিয়া জান্নাতুল।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পিয়া জান্নাতুল নিজেই।

এক গণমাধ্যমকে তিনি বললেন, মাসুদ রানায় আমিও আছি, আর অভিনয় করছি ‘ক্যাপ্টেন রূপা’ চরিত্রে।

সম্প্রতি ছবিটির প্রডাকশন হাউজের সঙ্গে এ বিষয়ে প্রাথমিক কথাবার্তাও সেরেছেন তিনি। সেখান থেকে ইতিবাচক সাড়াও মিলেছে।

পিয়া আরও বলেন, ছোটবেলা থেকেই আমি মাসুদ রানা সিরিজের ভক্ত। বিশেষ করে সিরিজটির ‘ক্যাপ্টেন রূপা’ চরিত্রটি আমার মনে দাগ কেটেছে।

ক্যাপ্টেন রূপা চরিত্রে অভিনয়কে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিতে প্রস্তুত পিয়া।

উল্লেখ্য, রাসেল রানা এই প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হলেও তাকে দিয়ে মাসুদ রানা চরিত্রটিতে অভিনয় করানো হবে কি না, তা নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ রয়ে গেছে।

কারণ প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া এরই মধ্যে এ প্রতিযোগিতার সঙ্গে তাদের কোনো সম্পর্ক নেই বলে জানিয়েছে। তবে বিজয়ী রাসেল রানা ইউনিলিভার বাংলাদেশ লিমিটেড ও চ্যানেল আইয়ের পক্ষ থেকে একটি নতুন টয়োটা গাড়ি পুরস্কার হিসেবে পেয়েছেন।

তবে মাসুদ রানার চরিত্রে অভিনয় করার সুযোগ না মিললেও বিজয়ীকে নিয়ে চ্যানেল আইয়ের পক্ষ থেকে একটি ছবি নির্মাণ করা হবে বলে জানা গেছে।

জানা গেছে, মাসুদ রানা একটি বিশাল বাজেটের ছবি হবে। ছবিটি আন্তর্জাতিক বাজারেও মুক্তি পাবে। এই ছবির একটি গান শুধু বাংলাদেশি দর্শকদের দেখানো হবে।

রনি ও বিন্দিয়ার ‘কলিজার টুকরা’

বিনোদন বাজার ॥ খুব শিগগিরই ‘সিডি চয়েস মিউজিক’ ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশ হবে কন্ঠশিল্পী জিএম রহমান রনি ও বিন্দিয়া খানের ‘কলিজার টুকরা’ গানের মিউজিক ভিডিও। গানটির কথা লিখেছেন নবাগত মডেল ইকরাম কিং, সুর, সংগীত করেছেন জিএম রহমান রনি। গানটিতে মডেল হিসেবে দেখা যাবে ইকরাম কিং ও সুস্মিতা সিনহাকে।

এ প্রসঙ্গে জিএম রহমান রনি বলেন, অনেক যতœ করে কাজটি করা। গানটি যদি দর্শকশ্রোতাদের ভালোলাগে তাহলেই আমার পরিশ্রম স্বার্থক হবে। সিডি চয়েস মিউজিকের কর্ণধার এমদাদ সুমন ভাইকে বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানাচ্ছি আমাদের ‘কলিজার টুকরা’ গানটি প্রকাশ করার জন্য।

নবাগত মডেল ইকরাম বলেন, এটি আমার প্রথম কাজ। চেষ্টা করেছি নিজের সবটুকু দিয়ে কাজটি ভালো করার, বাকী বিচারের দায়িত্ব দর্শকদের। মডেল সুস্মিতা বলেন, কাজটি অনেক ভালো হয়েছে। তাছাড়া গানের সুর, সংগীতায়োজন ও গায়কী সবকিছু আমার ভালোলেগেছে। দর্শক ভালোভাবেই গ্রহন করলেই আমাদের প্রচেষ্ঠা সফল হবে।

তিন তারকার ‘তোলপাড়’

বিনোদন বাজার ॥ অভিনেত্রী অপর্ণা ঘোষ ‘তোলপাড়’ নামে নতুন একটি ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করছেন। গত শনিবার (২৮ সেপ্টেম্বর) থেকে অপর্ণা ধারাবাহিকটির কাজ শুরু করেছেন। নাটকটি পরিচালনা করছেন মুসাফির রনি ও রচনা করেছেন জাকির হোসেন উজ্জ্বল। অপর্ণার সঙ্গে আরো দুটো গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করছেন ডা. এজাজুল ইসলাম ও শামীমা নাজনীন।

অপর্ণা ঘোষ বলেন, ‘গল্প এবং চরিত্র ভালো লাগায় ধারাবাহিকটিতে অভিনয় করছি। মেয়েদের একটি হোস্টেলের জীবনযাত্রা নিয়েই তোলপাড়ের গল্প আবর্তিত হবে। এজাজ ভাই, শামীমা আপা অনেক উঁচু মাপের অভিনেত্রী। তাদের সঙ্গে কাজ করাটা ভীষণ উপভোগ করি আমি।’

এজাজুল ইসলাম বলেন, ‘খুব ভালো একটি কাজ হচ্ছে। নাটকের গল্প এবং নির্দেশনায় নাটকটি দর্শকের কাছে গ্রহণযোগ্যতা পাবে তা প্রচারে এলেই প্রমাণিত হবে। আমি একজন শিল্পী হিসেবে তোলপাড়ে কাজ করে সন্তুষ্ট।’

শামীমা নাজনীন বলেন, ‘খুব চমৎকার একটি গল্পের নাটক এটি। আমরা সবাই বেশ আন্তরিকতা নিয়ে কাজটি করছি।’

প্রতারণা মামলার মুখে নেইমারের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগকারী

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ নেইমারের বিরুদ্ধে যিনি ধর্ষণের অভিযোগ করেছিলেন, সেই নারীকে প্রতারণার অভিযোগে বিচারের মুখোমুখি করার আদেশ দিয়েছে ব্রাজিলের একটি আদালত। অভিযোগকারী নাজিলা ত্রিনদাদের আইনজীবী কসমো আরাউহো রোববার বলেন, তারা আদালতের এ সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল করবেন। গত মে মাসে ব্রাজিলের মডেল ত্রিনদাদে সাও পাওলো পুলিশের কাছে নেইমারের বিরুদ্ধে প্যারিসের একটি হোটেলে তাকে ধর্ষণ করার অভিযোগ করেন। অভিযোগ অস্বীকার করে ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড বলেছিলেন দুইজনের সম্মতিতেই তাদের সম্পর্ক হয়েছিল। পরে প্রমাণের অভাবে আগস্টে মামলাটির কার্যক্রম থামিয়ে দেওয়ার সুপারিশ মেনে নেন আরেক বিচারক।

মিডলসেক্সের জন্য উইন্ডিজ ছাড়লেন কামিন্স

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ মিডলসেক্সে খেলার জন্য ওয়েস্ট ইন্ডিজ ছাড়লেন মিগুয়েল কামিন্স। ইংলিশ কাউন্টি ক্লাবটির সঙ্গে তিন বছরের কলপ্যাক চুক্তি করেছেন এই পেসার। ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে ১৪টি টেস্ট ও ১১টি ওয়ানডে খেলেছেন কামিন্স। সবশেষ খেলেন গত আগস্টে ভারতের বিপক্ষে অ্যান্টিগা টেস্টে। ২৯ বছর বয়সী পেসার গত মাসে বিদেশি কোটায় খেলেন মিডলসেক্সের হয়ে। চ্যাম্পিয়নশিপে ৩ ম্যাচে নেন ৮ উইকেট। কলপ্যাক চুক্তি করায় দেশের হয়ে আর খেলবেন না তিনি এবং তাকে কাউন্টি ক্রিকেটে বিদেশি খেলোয়াড় হিসেবে ধরা হবে না। এর আগে ফিদেল অ্যাডওয়ার্ডস হ্যাম্পশায়ারের সঙ্গে ও রবি রামপল ডার্বিশায়ারের সঙ্গে কলপ্যাক চুক্তি করেছিলেন। মিডলসেক্সের কোচ স্টুয়ার্ট ল ২০১৭-১৮ সালে ছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের কোচ। সে সময়ই কামিন্স তার নজর কাড়ে। কোচের সুপারিশেই এই পেসারকে দলে নিয়েছে কাউন্টি দলটি।

ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েটের ‘মুক্তি’

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ বোলিং অ্যাকশনের পরীক্ষায় উতরে গেছেন ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট। তাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বোলিংয়ে বাধা নেই ওয়েস্ট ইন্ডিজের এই অনিয়মিত অফ স্পিনারের। চলতি বছরের শুরুতে কিংস্টনে ভারতের বিপক্ষে ক্যারিবিয়ানদের দ্বিতীয় টেস্ট প্রশ্নবিদ্ধ হয় ব্র্যাথওয়েটের বোলিং। গত ১৪ সেপ্টেম্বর লাফবোরোতে বোলিং অ্যাকশনের পরীক্ষা দেন ব্র্যাথওয়েট। আইসিসি জানায়, এই অফ স্পিনারের সব ধরনের ডেলিভারিতেই কনুই নির্ধারিত সীমা ১৫ ডিগ্রির চেয়ে কম বাঁকে। এর আগে ২০১৭ সালে দেশের মাটিতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টে প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছিল ব্র্যাথওয়েটের বোলিং। সেবারও লাফবোরোতে পরীক্ষা দিয়ে উতরে যান। ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলে ব্র্যাথওয়েট মূলত ওপেনার। ৫৮ টেস্টে ৫৬.৯৪ গড়ে ১৮ উইকেট আছে তার।

ভারত একাদশে পান্তের জায়গায় ঋদ্ধিমান

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ স্কোয়াডে দুই কিপার থাকায় জমজমাট একটা লড়াই অপেক্ষা করছিল ঋদ্ধিমান সাহা ও রিশাভ পান্তের মাঝে। মাঠে না নেমেই সে লড়াইয়ের প্রথম ধাপে জয়ী ঋদ্ধিমান। একাদশে জায়গা হারিয়েছেন পান্ত, কিপিংয়ে এগিয়ে থাকা ঋদ্ধিমানকে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে প্রথম টেস্টের একাদশে বেছে নিয়েছে ভারত।২২ মাস পর কোনো আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে যাচ্ছেন ঋদ্ধিমান। বিশাখাপত্তনমে ম্যাচের আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে ঋদ্ধিমানের একাদশে ফেরার ব্যাপারটি নিশ্চিত করেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি।“সাহা ফিট এবং খেলার জন্য প্রস্তুত। যখনই সুযোগ পেয়েছে সে আমাদের জন্য ভালো খেলেছে। ব্যাট হাতেও। চোটের জন্য তার এতো লম্বা সময় বাইরে থাকাটা দুর্ভাগ্যজনক। আমার মতে, সে বিশ্বের সেরা উইকেটকিপার। তাই এই কন্ডিশনে আর অতীতে যা করেছে তার জন্য সে একাদশে থাকবে।”ঋদ্ধিমানের চোটে জায়গা পাওয়ার পর ব্যাট হাতে নিজেকে মেলে ধরেন পান্ত। ভারতের প্রথম উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান হিসেবে ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ায় করেন টেস্ট সেঞ্চুরি। তবে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে শট নির্বাচনের জন্য সাম্প্রতিক সময়ে সমালোচনার মুখে ছিলেন এই তরুণ। প্রধান কোচ রবি শাস্ত্রি, ব্যাটিং কোচ বিক্রম রাঠোর প্রকাশ্যেই পান্তের সমালোচনা করেন।গত ডিসেম্বরে অ্যাডিলেইড টেস্টে খেলার সময় চোট পাওয়া অফ স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন ফিরছেন একাদশে। স্পিন আক্রমণে তার সঙ্গী রবীন্দ্র জাদেজা।প্রথম টেস্টের ভারত একাদশ: বিরাট কোহলি, অজিঙ্কা রাহানে, রোহিত শর্মা, মায়াঙ্ক আগারওয়াল, চেতেশ্বর পুজারা, হনুমা বিহারী, রবিচন্দ্রন অশ্বিন, রবীন্দ্র জাদেজা, ঋদ্ধিমান সাহা (উইকেটকিপার), ইশান্ত শর্মা, মোহাম্মদ শামি।

রোগ প্রতিরোধে শীতের সবজি

কৃষি প্রতিবেদক ॥ এখন শীতের বাজার সবজিতে ভরপুর। এর মধ্যে রয়েছে টমেটো, বাঁধাকপি, মটরশুঁটি, ফুলকপি, গাজর, শিম, বরবটি, করলাসহ বিভিন্ন ধরনের সবজি। এসব সবজি শরীরের বিভিন্ন পুষ্টি উপাদানের চাহিদা মেটানোর পাশাপাশি  রোগপ্রতিরোধ ও নিরাময়ে বিশেষ ভূমিকা পালন করে। এবার শীতের কয়েকটি সবজির গুণাগুণ তুলে ধরা হলো ঃ

টমেটো : টমেটো এ সময়ের একটি আলোচিত সবজি। প্রোস্টেট ক্যানসার প্রতিরোধে টমেটো ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। টমেটোর মধ্যে রয়েছে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট উপাদান লাইকোপেন। এ লাইকোপেন দেহকোষ থেকে বিষাক্ত ফ্রিরেডিক্যালকে সরিয়ে প্রোস্টেট ক্যানসারসহ মূত্রথলি, অগ্ন্যাশয় ও অন্ননালির ক্যানসার প্রতিরোধে সহায়তা করে। গবেষকরা বলেছেন, যারা সপ্তাহে অন্তত চারবার টমেটো খায় তাদের ক্ষেত্রে প্রোস্টেট ক্যানসারের ঝুঁকি শতকরা ২০ ভাগ কমে যায়। আর সপ্তাহে ১০ বার খেলে ঝুঁকি ৫০ ভাগ কমে আসে। তবে এ উপকার  পেতে হলে তারা পাকা টমেটো এবং রান্না করা কিংবা সস করা টমেটো খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন।

ফুলকপি ঃ ফুলকপির উল্লেখযোগ্য পুষ্টি উপাদান হলো ক্যালসিয়াম লৌহ, খনিজসহ ভিটামিন বি-১ ও বি-২। ক্যালসিয়াম হাড়ের গঠনে, মাংসপেশির সংকোচনজনিত ব্যথা দূরীকরণে আর লৌহ রক্ত তৈরিতে সাহায্য করে। প্রতি ১০০ গ্রাম ফুলকপিতে ক্যালসিয়ামের পরিমাণ ৪১ আর লৌহ ১.৫ মিলিগ্রাম।

মটরশুঁটি ঃ বাজারে উপস্থিত আরেকটি পছন্দের শস্যদানা-জাতীয় সবজি হলো মটরশুঁটি। মটরশুঁটিতেও রয়েছে ফুলকপির মতো প্রয়োজনীয় পুষ্টি উপাদান ও ভিটামিন। প্রতি ১০০ গ্রাম মটরশুঁটিতে ক্যালসিয়ামের পরিমাণ ২৬ আর লৌহ ১.৫ মিলিগ্রাম।

গাজর ঃ রূপে-গুণে অনন্য একটি সবজি খাবার হিসেবে গাজরের ব্যবহারও নানাবিধ। কাঁচা ও রান্না করা উভয় অবস্থায়ই গ্রহণ করা যায়। মূলজাতীয় সবজির মধ্যে গাজরে রয়েছে সর্বোচ্চ পরিমাণ বিটাক্যারোটিন। প্রতি ১০০ গ্রাম গাজরে এই বিটাক্যারোটিনের পরিমাণ প্রায় ১৮৯০ মাইক্রোগ্রাম (সূত্র : বিদেশি ম্যাগাজিন) এবং ক্যালসিয়াম প্রায় ৮০ মিলিগ্রাম। তা ছাড়া গাজরে রয়েছে লাইকোপেন নামক উপাদান যা ক্যানসার প্রতিরোধে বিশেষভাবে সহায়ক। গাজরের গুণ অনেক। গাজর ত্বক ও চুলকে সূর্য্যরশ্মির ক্ষতিকর প্রভাব থেকে রক্ষা করে। গাজর মহিলাদের ছত্রাক সংক্রমণের ঝুঁকি কমায়। চোখের ছানি, রাতকানা, হৃদরোগসহ ক্যানসার প্রতিরোধে গাজর অগ্রণী ভূমিকা পালন করে।

শিম ও ঢেঁড়স ঃ শিম ও ঢেঁড়সে অন্যান্য সবজির মতো পুষ্টি উপাদান ও ভিটামিন রয়েছে। তবে শিম ও ঢেঁড়সে রয়েছে প্রচুর ক্যালসিয়াম। প্রতি ১০০ গ্রাম শিম ও  ঢেঁড়সে ক্যালসিয়ামের পরিমাণ যথাক্রমে ২১০ ও ১১৬ মিলিগ্রাম।

উল্লেখ্য, সবজির মধ্যে সর্বোচ্চ ক্যালসিয়াম রয়েছে ডাঁটায়। প্রতি ১০০ গ্রাম ডাঁটায় ক্যালসিয়াম ২৬০ মিলিগ্রাম।

ধনে ও লেটুস ঃ শীতকালীন পাতার মধ্যে এ দুটি পাতাই সহজে কাঁচা অবস্থায় খাওয়া যায়। ফলে প্রকৃত পুষ্টিগুণ প্রায় পুরোটাই এ ক্ষেত্রে বজায় থাকে। বিশেষ করে ভিটামিন সির গুণাগুণ অক্ষুন্ন থাকে। এ দুটি পাতায়ই রয়েছে প্রচুর বিটাক্যারোটিন, ক্যালসিয়াম, লৌহ ও ভিটামিন বি-১, বি-২ ইত্যাদি।

সবজি ও শাকপাতার একই ধরনের কিছু গুণাগুণ : শাকসবজিতে থাকে প্রচুর পরিমাণে আঁশ। এ আঁশ কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে সক্রিয়ভাবে সাহায্য করে।

কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে শাকসবজির কোনো বিকল্প নেই। শাকসবজিতে রয়েছে প্রচুর ভিটামিন-এ, সি, বি-১ ও বি-২; যা শরীরে ভিটামিন চাহিদা মিটিয়ে রাতকানাসহ বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধ করে। ভিটামিন-এ লিভারে ছয় মাস পর্যন্ত সঞ্চিত থাকে বলে শীতের সময় নিয়মিত শাকসবজি খেলে তা বছরের বাকি সময়ের ভিটামিন-এ’র চাহিদা পূরণে সক্ষম হতে পারে।

এ ছাড়া শাকসবজিতে থাকে প্রচুর অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট উপাদান, যা ত্বকের বার্ধক্যরোধে ভূমিকা রাখে। ত্বক সজীব রাখে। এ ছাড়া শাকসবজির অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট হৃদরোগ প্রতিরোধে সহায়ক। শাকসবজির আঁশ ও অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট উপাদান অন্ননালির ক্যানসারসহ বিভিন্ন ক্যানসার প্রতিরোধে কার্যকর ভূমিকা পালন করে। আঁশজাতীয় খাবার শরীরে খাদ্যের চর্বি শোষণে বাধা প্রদান করে। তাই শাকসবজি গ্রহণে শরীর মুটিয়ে যাওয়া থেকে রক্ষা পায়। শাকসবজিতে থাকে ভিটামিন-ই, যা শরীর ঠিক রাখে। ভিটামিন-ই হৃদরোগ প্রতিরোধসহ যৌবন অটুট রাখতে সাহায্য করে।