২২ বছর বয়সে কেজি স্কুল করে সাফল্য দেখিয়েছিল উদীয়মান যুবক সাকিব

করোনার পাদুর্ভাবের মানবতার জীবন যাপন করছে শিক্ষকবৃন্দ

মিলন আলী ॥ কুষ্টিয়ার সদর উপজেলার পাটিকাবাড়ী ইউনিয়নের ডাবিরাভিটা গ্রামের রবিউল ইসলামের শিক্ষানুরাগী ছেলে বিএ শিক্ষার্থী  খেজুরতলা ও ডাবিরাভিটা গ্রামে আধুনিক শিক্ষারমান সম্প্রসারন করার জন্য নিজ অর্থায়নে খেজুরতলা প্রভাতী ক্যাডেট স্কুল স্থাপন করেন ২০১৮ সালে। উদীয়মান শিক্ষার্থী সাকিবের ছোট বেলা থেকে স্বপ্ন ছিল একটি আধুনিকমানের ক্যাডেট স্কুল প্রতিষ্ঠা করে অল্প খরচে গ্রামের স্বল্প আয়ের কৃষক শ্রেনী মানুষের সন্তানদের শিক্ষাদানে উপযুক্ত পরিবেশ সৃষ্টি করা। তারই ফলশ্র“তিতে প্রভাতী ক্যাডেট স্কুলটি প্রতিষ্ঠার সাথে সাথেই অন্যান্য কেজি স্কুল ও সরকারী স্কুলগুলোকে ছাড়িয়ে তুলনামুলক ভালো ফলাফল করাই ২০২০ সালে এসে এই স্কুলের উল্লেখযোগ্য সংখ্যক শিক্ষার্থী ভর্তি হয়। সচেতন অভিভাবকেরা নব্যপ্রতিষ্ঠিত এই স্কুলের শিক্ষকদের নিরলস প্রচেষ্টা ও শিক্ষার গুনগতমান ভালো দেখে তাদের সন্তানদের এই প্রতিষ্ঠানে ভর্তি করেন। কিন্তুু বৈশিক মহামারী করোনা ভাইরাসের প্রভাবে  স্কুলটির শিক্ষার পরিবেশ থুবড়ে পড়ে। আকাশ ভেঙ্গে পড়ে স্কুলটির পরিচালক সাকিবের। মানবতার জীবন যাপন করছে অন্যান্য শিক্ষক শিক্ষিকাবৃন্দ। এ ব্যাপারে সাকিব বলেন মহান আল্লাহ পাকের অশেষ কৃপাই আমার প্রতিষ্ঠানে প্লে- থেকে ৫ম শ্রেণী পর্যন্ত আধুনিক শিক্ষার পাঠ্য বইয়ের পাশাপাশি কোরআন হাদিসের শিক্ষা বাধ্যতামুলক করা হয়।

আরো খবর...