হিসনা নদীর হারানো গৌরব ও অতীত ঐতিহ্য ফিরে আনা হবে

দৌলতপুরে পোনা মাছ অবমুক্তকালে এমপি বাদশা

শরীফুল ইসলাম ॥ কুষ্টিয়া-১ দৌলতপুর আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড. আ. ক. ম. সরওয়ার জাহান বাদশা দখলে দুষনে ভরাট হওয়া হিসনা নদীর হারানো গৌরব ফিরে আনা হবে বলে জানিয়েছেন। বৃহস্পতিবার পোনা মাছ অবমুক্ত কার্যক্রমের উদ্বোধনকালে সংসদ সদস্য সরওয়ার জাহান বাদশা এ প্রতিশ্র“তি দিয়ে বলেন, হিসনা নদীতে এক সময় পানি প্রবাহমান থাকতো আর সেই পানি দিয়ে ফসলের জমিতে সেচ দিয়ে ফসল ফলাতো কৃষক। দেশী বিভিন্ন প্রজাতির মাছে ভরা থাকতো হিসনা নদী আর সেই নদীতে জেলেরা স্বাধীনভাবে জাল ফেলে মাছ ধরে জীবিকা নির্বাহ করতো। এখন সেই হিসনা নদী দখল হয়ে হারিয়েছে তার গৌরব ও অতীত ঐতিহ্য। তিনি বলেন, আমি আবার হিসনা নদীর গৌরব ফিরে আনার জন্য সংশ্লিষ্ট দপ্তরে আবেদন করেছি এবং তা কার্যকর করার প্রক্রিয়া অব্যাহত রেখেছি। বেলা ১১টায় উপজেলার মথুরাপুর আশ্রয়ন প্রকল্পের পুকুরে পোনা মাছ অবমুক্ত কার্যক্রমের উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কুষ্টিয়া-১ দৌলতপুর আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড. আ. ক. ম. সরওয়ার জাহান বাদশা এসব কথা বলেন। দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তারের সভাপতিত্বে পোনা মাছ অবমুক্তকরণ কার্যক্রমে বিশেষ অতিথি ছিলেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ্যাড. এজাজ আহমেদ মামুন, দৌলতপুর প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. আব্দুল মালেক ও ভাইস চেয়ারম্যান সাক্কির আহমেদ। উপস্থিত ছিলেন দৌলতপুর মৎস্য কর্মকর্তা খন্দকার মো. সহিদুর রহমান। দৌলতপুর মৎস্য দপ্তরের উদ্যোগে মথুরাপুর আশ্রয়ন প্রকল্পের তিনটি পুকুরে পোনা মাছ অবমুক্ত করা হয়। এসময় স্থানীয় মৎস্যজীবীরা উপস্থিত ছিলেন। চলতি ২০১৯-২০ অর্থ বছরে উন্মুক্ত ও প্রাতিষ্ঠানিক জলাশয়ে পোনা মাছ অবমুক্তকরণ কর্মসূচীর আওতায় দৌলতপুর উপজেলার ১০টি জলাশয়ে বিভিন্ন প্রজাতির মোট ৩৫০ কেজি পোনা মাছ অবমুক্ত করা হবে। এরমধ্যে গতকাল মথুরাপুর আশ্রয়ন প্রকল্পের তিনটি পুকুরে ১০০ কেজি পোনা মাছ অবমুক্ত করা হয়। এ কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে দৌলতপুর মৎস্য দপ্তর।

 

আরো খবর...