হাসপাতালের লাইসেন্সেও মনগড়া রিপোর্ট

করোনাকালে দেশের চিকিৎসা ব্যবস্থার বেহাল চিত্র একের পর এক বেরিয়ে আসছে। বেসরকারি হাসপাতালগুলো নিজের মতো করে চলছে, যেন দেখার কেউ নেই। ফলে সাধারণ রোগীরাই হচ্ছেন ভোগান্তির শিকার। গতকাল আমাদের সময়ের এক প্রতিবেদনে জানা যায়, বেসরকারি হাসপাতালে নানা অনিয়মের বিরুদ্ধে ধারাবাহিক অভিযানের অংশ হিসেবে রাজধানীর মালিবাগের ডা. সিরাজুল ইসলাম  মেডিক্যাল কলেজে গত মঙ্গলবার টানা চার ঘন্টার বেশি সময় ধরে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের টাস্কফোর্স, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রতিনিধিকে নিয়ে অভিযান চালায় র‌্যাব। অভিযানে হাসপাতালটি থেকে মেয়াদোত্তীর্ণ রি-এজেন্ট ও বিপুল পরিমাণ সার্জিক্যাল সামগ্রী জব্দ করা হয়। মাইক্রোবায়োলজি ল্যাবে নমুনা পরীক্ষা করা হতো মনগড়া। অন্য ল্যাবে পরীক্ষায় ও আইসিইউতে ব্যবহার হতো মেয়াদোত্তীর্ণ উপাদান। রাজধানীর হাসপাতালেই যখন এ অবস্থা তখন সারাদেশের হাসপাতালগুলোতে কত ধরনের অনিয়ম হয়ে থাকে, তা সহজেই অনুমান করা যায়। গতকাল অন্য একটি প্রতিবেদনে জানা যায়, চট্টগ্রাম নগরীর প্রবর্তক মোড়ে সেন্ট্রাল সিটি হাসপাতাল। ১৫ দিনের লাইসেন্সে ৫ বছর ধরে চলছে হাসপাতালটি। সে হাসপাতালটি কোনো ধরনের নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে অনেকটা গায়ের জোরে চালিয়ে যাচ্ছে কর্তৃপক্ষ। এতে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন সংশ্লিষ্টরা। কিন্তু এসব প্রতিরোধে যাদের দায়িত্ব পালনের কথা, তাদের ভূমিকা প্রশ্নবিদ্ধ। তারা কেন এতদিনেও ব্যবস্থা নিতে পারল না। আসলে আমাদের স্বাস্থ্যব্যবস্থার পরতে পরতে সমস্যা রয়েছে। এ সমস্যাগুলো এখন সমাধান না করলে ভবিষ্যতে আরও বড় রকমের ক্ষতির সম্মুখীন হব আমরা। যারা জোর করে অনুমোদনহীন হাসপাতাল পরিচালনা করছে সেসব হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিতে হবে। যারা মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ বিক্রি করছে, তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া দরকার। ঢাকার রিজেন্ট হাসপাতাল থেকে করোনা ভাইরাস পরীক্ষার হাজার হাজার ভুয়া রিপোর্ট টাকার বিনিময়ে দেওয়ার কথা আমরা সবাই জানি। তাই বলব, কেউ  যেন মেয়াদোত্তীর্ণ কোনো পণ্য বিক্রি ও উপাদান ব্যবহার না করতে পারে এবং মনগড়া রিপোর্ট দিতে না পারে সেজন্য অসাধু হাসপাতাল ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত রাখতে হবে। অন্যথায় মানুষের জীবন ও স্বাস্থ্য নিয়ে, রাষ্ট্রীয় অর্থ নিয়ে মানুষের সঙ্গে প্রতারণা চলতেই থাকবে। জনস্বার্থে সরকার অবিলম্বে স্বাস্থ্য খাতের সব অনিয়ম-দুর্নীতি দূর করবে এমনটাই প্রত্যাশা।

আরো খবর...