হাইব্রিড ডালিয়ার কাটিং উতপাদন কৌশল

কৃষি প্রতিবেদক ॥ ডালিয়ার কাটিং তৈরি করার বিষয়ে অনেকেই বর্ণনাসহ প্রকাশ করার জন্য অনুরোধ করেছেন। আজকের এই লেখা তাদের জন্য। এ সময়ে দেশে বেশ বৃষ্টি হচ্ছে। এই বৃষ্টি থেমে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ডালিয়া ফুলের কাটিং তৈরি করে ফেলতে হবে। এসময়ে কাটিং তৈরি করতে পারলে তা আগাম ফুল দেবে। বিষয়টিকে সহজে বোঝার জন্য কয়েকটি ধাপে বর্ণনা করছি। প্রথম ধাপে মাতৃগাছ আগে থেকেই তৈরি করে নিতে হবে। ডালিয়াগাছ মাটির ওপর থেকে ৬-৮ ইঞ্চি রেখে কেটে দিতে হবে এবং ঘন ঘন কেটে কাটিং তৈরির উপযোগী করে নিতে হবে। দ্বিতীয় ধাপে কাটিং কাটতে হবে ৩ ইঞ্চি বড় করে। কোনো একটা গিঁটের এক সুতো নিচ (৪ মিমি) থেকে বে¬ড দিয়ে কেটে নিতে হবে। এরপর ছোট দুটি পাতা এবং একটু বড় দুটি পাতা রেখে নিচের দিকের সব পাতা গোড়া থেকে কেটে ফেলতে হবে। এই কাটিং ছত্রাকনাশক মিশ্রিত পানিতে কিছুক্ষণ ডুবিয়ে নিতে হবে। দেশীয় ডালিয়ার চারা তৈরি করার জন্য রুমটিং হরমোনের তেমন প্রয়োজন হয় না তবে হরমোন দিতে পারলে বেশি শিকড় আসে ফলে গাছ দ্রুত বাড়ে ও ভালো ফুল দেয়। হাইব্রিড ডেকোরেটিভ ডালিয়া বিশেষ করে কেনিয়া জায়েন্ট গ্র“পের ডালিয়ার কাটিং তৈরি করার সময় রুমট হরমোন খুব জরুরি হয়ে পড়ে। কারণ এসব ডালিয়ার চারায় সহজে শিকড় আসতে চায় না। ভারত থেকে অবৈধ পথে আসা বিভিন্ন রুট হরমোন দেশের বিভিন্ন নার্সারিতে পাওয়া যায় (সুরডেক্স, রুমটেক্স, অরডিক্স ইত্যাদি)। এগুলো পাউডার আকারে থাকে। তৃতীয় ধাপে এই পাউডার এক চামচ নিয়ে তার মধ্যে সমপরিমাণ পানি দিয়ে একটা লেই তৈরি করে সেই লেইয়ের মধ্যে কান্ডের গোড়ার ১/২ (০.৫) ইঞ্চি পরিমাণ ডুবিয়ে নিয়ে শুকিয়ে নিতে হবে। চতুর্থ ধাপে কাটিং বসানোর মিডিয়া ডোমার বা সিলেট বালু হলে সবচেয়ে ভালো হবে। এই বালু টবে দিয়ে পানি দিয়ে ১০০% কমপ্যাকশন করে নিতে হবে। এরপর একটা কাঠি দিয়ে ০.৭৫-১.০ ইঞ্চি পরপর প্রায় ১ ইঞ্চি গভীর করে ছিদ্র করতে হবে। ছিদ্র করতে বলপেনের সাহায্য নেয়া যেতে পারে। এরপর এই ছিদ্রতে কাটিং বসিয়ে দিতে হবে। পঞ্চম ধাপে কাটিং বসানোর পর পাতায় হালকা করে ¯েপ্র করে পানি দিতে হবে এবং ৬ ঘণ্টা পরে বালু ভাসিয়ে পানি দিয়ে টবটা একটু নাড়াচাড়া দিতে হবে যেন প্রত্যেকটা ডালের গোড়া শক্তভাবে বালুর সঙ্গে লেগে যায়। কাটিং রাখতে হবে ছায়ায়। শুষ্ক আবহাওয়ায় ২ ঘণ্টা পরপর কাটিংয়ে পানি ¯েপ্র করে দিতে হবে এবং দুদিন পরপর বালু ভিজিয়ে পানি দিতে হবে। এভাবে যতœ নিলে সাধারণত জাতভেদে ৮ থেকে ১২ দিনের মধ্যেই কান্ডে ভালোভাবে শিকড় চলে আসে। ষষ্ঠ ধাপে কাটিংয়ে শিকড় চলে এলে প্রথমে ছোট পটে (পোলার আইসক্রিমের বা ওয়ানটাইম কপি পট বা ওয়ানটাইম প¬াস্টিক গ¬াসে) চালুনি করা ৫০% মাটি এবং ৫০% পচা গোবর সারের মিশ্রণে বসিয়ে দিতে হবে। পটটি প্রথম ৩/৪ দিন ছায়ায় রাখতে হবে এরপর ২/৩ ঘণ্টা রোদ পড়ে এমন স্থানে রাখতে হবে। পানি দিতে হবে পরিমিতভাবে। এই পটে ১৫/২০ দিন পর্যন্ত রেখে গাছ একটু বড় করে তারপরে মূল বেড বা টবে লাগিয়ে দিতে হবে। কাটিং পটে পানি দেয়ার বিষয়ে বিশেষ সতর্ক থাকতে হবে। বেশি পানি হলে গাছ পচে যাবে। এই কাটিংয়ে ৭ দিন পরপর কোনো ছত্রাকনাশক ¯েপ্র করতে হবে। এই ধাপগুলো অনুসরণ করলে যে কেউ ভালোমানের ডালিয়ার চারা তৈরি করতে পারবেন। লেখক ঃ আরিফ খান

আরো খবর...