স্বাধীন বাংলার নিউক্লিয়াস কাজী আরেফ হত্যার ২১তম দিবস স্মরণ সভা পরিবর্তিত স্থান বিজয় উল্লাস চত্বর

মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ও স্বাধীন বাংলার পতাকা রূপকার নিউক্লিয়ার সদস্য সন্ত্রাস ও সাম্প্রদায়িকতামুক্ত দেশ গড়ার স্বপ্নদ্রষ্টা জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জাসদ’র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি কাজী আরেফসহ ৫জাসদ নেতাকে হত্যা দায়ে মৃত্যুদন্ড প্রাপ্ত পলাতক আসামীদের গ্রেফতার ও রায় কার্যকরের দাবিতে নৃশংস এই হত্যাকান্ডের ২১তম দিবস পালিত হচ্ছে আজ। ১৯৯৯ সালের ১৬ ফেব্র“য়ারী সংগঠিত নৃশংস এই হত্যা দিবস স্মরণে কাজী আরেফ স্মৃতি সংসদের আয়োজনে রবিবার বিকেল ৩টায় অনুষ্ঠিতব্য শিশু-কিশোর চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা ও আলোচনা সভাটির পূর্ব নির্ধারিত রবীন্দ্র মৈত্রী বিশ^বিদ্যালয়ের উন্মুক্ত মঞ্চের পরিবর্তে কুষ্টিয়া পৌর বিজয় উল্লাস চত্বরে অনুষ্ঠিত হবে বলে নিশ্চিত করেছেন আয়োজক কতৃপক্ষ। ১৯৯৯ সালে ১৬ ফেব্র“য়ারী তৎকালীন সন্ত্রাস কবলিত রক্তাক্ত জনপদ খ্যাত কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার আড়িয়া ইউনিয়নের কালিদাসপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এক সন্ত্রাস বিরোধী সমাবেশ চলাকালে প্রকাশ্যে সন্ত্রাসীরা মহান মুক্তিযুদ্ধের এই সংগঠক জাতীয় নেতা কাজী আরেফ আহামেদসহ জেলা জাসদের সভাপতি বীরমুক্তিযুদ্ধা লোকমান হোসেন,সাধারন সম্পাদক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযুদ্ধা এ্যাডঃ ইয়াকুব আলী,স্থানীয় নেতা ইসরাইল হোসেন তফসের ও শমসের মন্ডল মোট ৫জাসদ নেতাকে ব্রাশফায়ারে হত্যাকরে।

আরো খবর...