স্পেনে হু হু  করে বাড়ছে মৃত্যু-আক্রান্ত

করোনাভাইরাস

ঢাকা অফিস ॥ বিশ্বব্যাপী নভেল করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের মধ্যে ইতালির পরে সবচেয়ে উপদ্রব হয়ে উঠছে ইউরোপের আরেক দেশ স্পেন। দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৯৪ জনের মৃত্যু হয়েছে, যেখানে আগের দিন মৃত্যু হয়েছিল ৩২৪ জনের। এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে স্পেনে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৭২০ জনে। স্পেনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য মতে, রোববার মৃত্যুর পাশাপাশি বেড়েছে নতুন রোগীও। এখন আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৮ হাজার ৫৭২ জন, যেখানে শনিবার ছিল ২৪ হাজার ৯২৬ জন। আক্রান্তদের মধ্যে দুই হাজার ৫৭৫ জন সুস্থ হয়েছেন। এখনও হাসপাতালের আইসিইউতে আছেন এক হাজার ৭৮৫ জন। বিশ্বব্যাপী মহামারী আকার নেওয়া এই রোগ প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় সব পদক্ষেপ নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন স্পেনের প্রধানমন্ত্রী পেদ্রো সানচেজ। শনিবার দেশবাসীকে সতর্ক করে তিনি বলেছেন, “সবচেয়ে খারাপ সময় আসতে বাকি।” করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে গত ১৪ মার্চ স্পেন সরকার সারা দেশে ১৫ দিনের জরুরি অবস্থা জারি করে। তা আরও ১৫ দিন বাড়ানোর ভাবনা চলছে বলে রোববার বেশ কয়েক স্পেনিশ সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে। নতুন করে নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্তের দিক দিয়ে খুব ভালো অবস্থায় নেই জার্মানিও। ইউরোপের প্রভাবশালী দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় এক হাজার ৯৪৮ জনের দেহে এই ভাইরাস সংক্রমণ ধরা পড়েছে। জার্মানির রোগ নিয়ন্ত্রণ সংস্থা রবার্ট কোচ ইনস্টিটিউটের তথ্য মতে, দেশটিতে করোনাভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৮ হাজার ৬১০ জন। শনিবার আগের দিনের চেয়ে নতুন আক্রান্তের হার বেড়েছে ১২ শতাংশ। জার্মানিতে এই ভাইরাসে নতুন আটজনের মৃত্যুতে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫৫ জনে। সিএনএনের তথ্য মতে, করোনাভাইরাস মোকাবেলায় এখন সারা দেশে ‘লকডাউন’ ঘোষণার কথা ভাবছে জার্মান সরকার। গেল সপ্তাহে বাভেরিয়া ও সারল্যান্ড রাজ্যে লোকজনের চলাচলে বিধি-নিষেধ আরোপ করা হয়। পরবর্তী করণীয় নিয়ে রোববারই দিনের শেষভাগে রাজ্য সরকারগুলোর প্রধানদের সঙ্গে বসছেন জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মেরকেল।

যুক্তরাজ্যেও নভেল করোনাভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা হু হু করে বাড়ছে। দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা পাঁচ হাজার ছাড়িয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় এক হাজারের বেশি নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে বলে সিএনএনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। যুক্তরাজ্যে এই ভাইরাসে মৃত্যু হয়েছে ২৩৩ জনের। ফ্রান্সে একদিনে মৃত্যুর সংখ্যা শত ছাড়িয়েছে। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়েল তথ্য মতে, শনিবার পর্যন্ত দেশটিতে মোট ৫৬২ জনের মৃত্যু হয়েছে, যা আগের দিনের চেয়ে ১১২ জন বেশি। নভেল করোনাভাইরাসের কবলে পড়েছে যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কও। ওই শহরে এরইমধ্যে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন আট হাজার ১১৫ জন, মৃত্যু হয়েছে ৬০ জনের। এখন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন এক হাজার ৪৫০ জন, তাদের অন্তত ৩৭০ জন আছেন নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে। আর নিউ ইয়র্ক রাজ্যে আক্রান্ত হয়েছেন ১২ হাজার ২৬০ জন, মৃত্যু হয়েছে ৭০ জনের। যুক্তরাষ্ট্রের স্টেটগুলোর মধ্যে সবচেয়ে খারাপ অবস্থা এখন এই নিউ ইয়র্কে।

আরো খবর...