সুখবর নিয়ে ঢাকায় দেব

বিনোদন বাজার ॥ এর আগেও দুবার ঢাকায় এসেছেন টলিউড অভিনেতা দেব। এবার এসেছেন দুটি নিজস্ব কারণে। প্রথম তার অভিনীত কলকাতার সিনেমা ‘পাসওয়ার্ড’র মুক্তি। অন্যটি সরাসরি প্রথমবার বাংলাদেশের সিনেমায় কাজের খবর দিতে।

মঙ্গলবার (২৬ নভেম্বর) সন্ধ্যায় ঢাকার এক অভিজাত ক্লাবে প্রথমবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি বসেছিলেন তিনি। সেখানেই এই খবর দেন দেব। সম্মেলনের শুরুতেই বলেন, ‘অনেক হয়েছে দুই দেশের গল্প, তর্ক, বিতর্ক।

দেব বলেন, এবার আমাদের এক হয়ে লড়াই করতে হবে বাঙালিয়ানা রক্ষার জন্য। বাংলা ভাষার সিনেমা রক্ষার জন্য আমাদের এক হওয়ার কোনও বিকল্প নেই।’ দেব জানালেন, ২৯ নভেম্বর প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে মুক্তি পাচ্ছে তার অভিনীত কলকাতার ছবি ‘পাসওয়ার্ড’। এছাড়াও এবারই প্রথম তিনি অভিনয় করতে যাচ্ছেন বাংলাদেশের ছবিতে। ছবিটির নাম ‘মিশন সিক্সটিন’। যেখানে তিনি ছাড়া পুরো ছবির টিম হলো বাংলাদেশের। ছবিটি প্রযোজনা করছে শাপলা মিডিয়া। সংবাদ সম্মেলনে দেবের সঙ্গে কলকাতা থেকে আরও এসেছেন ‘পাসওয়ার্ড’ ছবির নায়িকা রু´িণী মৈত্র ও পরিচালক কমলেশ মুখোপাধ্যায়। আরও ছিলেন বাংলাদেশের নতুন নায়ক শান্ত, প্রযোজক সমিতির সভাপতি খোরশেদ আলম খসরু, পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজারসহ অনেকেই।

বাংলাদেশ সম্পর্কে আবেগঘন কণ্ঠে বলেন, ‘বাংলাদেশ আমার দ্বিতীয় বাড়ি। যতবার এখানে এসেছি কিংবা বিশ্বের যেখানেই গেছি- এখানকার মানুষ কতোটা ভালো, কেমন আপ্যায়ন করেন- সেটা শুধু দুচোখ ভরে দেখেছি আর মুগ্ধ হয়েছি। এই দেশের মানুষের মতো অতিথিপরায়ণ গোটা পৃথিবীতে নেই। এটা আগেও বহুবার বলেছি। ধন্যবাদ বাংলাদেশ।’ এটুকু বলতেও দ্বিধা করেননি দেব, ‘আমাকে নিয়ে পশ্চিমবঙ্গে যতটা আগ্রহ দেখেছি, তারচেয়ে বেশি উৎসাহ দেখেছি বাংলাদেশের দর্শকদের কাছে।’ বাংলা ছবি বাঁচানোর লক্ষ্যে দেবের আহ্বান, ‘এখনই সময়, একসঙ্গে একহয়ে দুই বাংলায় একই দিনে ছবি রিলিজের। কারণ ইন্ডাস্ট্রিকে বাঁচানোর জন্য সবাইকে এক হতে হবে। এই বাংলা ভাষার লোক পৃথিবীজুড়ে ছড়িয়ে আছে- তাদের জন্য আমাদের এই লড়াইটা করতে হবে। এবারের লড়াই বাঙালিয়ানার।

এসব বক্তব্যের শেষে তিনি জানান, বাংলাদেশের প্রথম ছবি ‘মিশন সিক্সটিন’-এ অভিনয়ের কথা। অনুরোধ করেন, ২৯ নভেম্বর থেকে ‘পাসওয়ার্ড’ ছবিটি হলে গিয়ে দেখার।

আরো খবর...