সীমিত পরিসরে সিনেমা হল খুলে দেয়া হয়েছে

বিনোদন বাজার ॥ করোনাভাইরাস জয় করে মার্চ মাসে স্বাভাবিকভাবেই দিন কাটানো শুরু করেছিল চীনের জনগণ। দুই মাস বন্ধ রাখার পর খুলে দেওয়া হয়েছিল দেশটির প্রায় ৭০ হাজার সিনেমা হল। কিন্তু আবারও করোনার হামলা পড়বে এই আশঙ্কায় সিনেমা হলগুলো বন্ধের নির্দেশ দেয় বেইজিং ফিল্ম ব্যুরো। করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ধাক্কা সামলাতেই চীনের সব সিনেমা হল এতদিন বন্ধ ছিল। অবশেষে দেশটির বেইজিংয়ে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ কমে যাওয়ায় সীমিত পরিসরে সিনেমা হল খুলে দেয়া হয়েছে। এই সপ্তাহে চীনের আরও অন্য অনেক শহরের সিনেমা হলগুলোও খুলতে শুরু করেছে। চীনে এখনো অল্প বিস্তর মানুষ করোনায় আক্রান্ত হলেও বেইজিংয়ে গত দুই সপ্তাহে নতুন করে করোনা সংক্রমণের ঘটনা ঘটেনি। লোকাল ট্রান্সমিশনও হয়নি। অনেক বিধিনিষেধই তুলে নেয়ার কথা ভাবছে কর্তৃপক্ষ। সেজন্যই খুলে দেয়া হচ্ছে এই শহরটির সিনেমা হল। সিনেমা হলে যেতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। সিনেমা দেখার জন্য টিকিট আগেই কিনে রাখতে হবে। ধারণক্ষমতার ৩০ শতাংশ মানুষ একসঙ্গে হলে বসে সিনেমা দেখতে পারবে। হলের ভেতরে সব রকম খাবার ও পানীয় নিষিদ্ধ। শুধু তাই নয়, ইন্ডিয়া টুডের বরাতে জানা গেছে, হলে ঢোকার আগে শরীরের তাপমাত্রা মেপে নেয়া হবে। অনলাইন ট্র্যাভেল রেকর্ড এন্ট্রি করে ঢুকতে হবে দর্শকদের।

আরো খবর...