সহপাঠীকে ধর্ষণের মামলায় খুলনার কর কমিশনারের ছেলে রিমান্ডে

ঢাকা অফিস ॥ বিয়ের প্রলোভন দিয়ে সহপাঠীকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার খুলনার কর কমিশনারের ছেলে শিঞ্জন রায়কে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য একদিনের পুলিশ হেফাজতে পাঠিয়েছে আদালত। পুলিশের করা রিমান্ড আবেদনের শুনানি করে গতকাল রোববার খুলনার মহানগর হাকিম মো. শাহীদুল ইসলাম এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন। শুক্রবার দুপুরে ওই ছাত্রী বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে শিঞ্জন রায়ের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। শিঞ্চন খুলনার কর কমিশনার প্রশান্ত কুমার রায়ের ছেলে। ওই ছাত্রী ও শিঞ্জন খুলনার নর্থ ওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটির আইন বিভাগের শিক্ষার্থী। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সোনাডাঙ্গা থানার এসআই তৌহিদুর রহমান বলেন, শুক্রবার শিঞ্জনকে আদালতে হাজির করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাঁচ দিনের রিমান্ডের নেওয়ার আবদেন করা হয়।শুনানি শেষে বিচারক একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। মামলার বরাতে ওসি বলেন, এক বছর আগে শিঞ্জন মেয়েটিকে প্রেমের প্রস্তাব দেন। এরপর বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে শিঞ্জন তাকে বাসাসহ বিভিন্ন স্থানে নিয়ে ধর্ষণ করে। মেয়েটি বর্তমানে ছয়মাসের অন্তঃসত্ত্বা। শিঞ্জনের বিয়ের খবর পেয়ে ওই ছাত্রী বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে নগরীর মুজগুন্নী আবাসিক এলাকার ১৬নম্বর রোডের বাড়িতে গিয়ে তার সঙ্গে দেখা করেন। এ সময় মেয়েটি বিয়ের বিষয়ে জিজ্ঞাস করলে শিঞ্জন তাকে সেখান থেকে জোর করে একটি অটোরিকশায় তুলে দিতে গেলে স্থানীয়দের নজরে আসে। পরে থানায় খবর দেওয়া হলে পুলিশ গিয়ে তারা দুই জনকেই সোনাডাঙ্গা মডেল থানায় নিয়ে যায়। এদিকে আদালতের নির্দেশে গত শনিবার বিকালে ডাক্তারি পরীক্ষা শেষে ওই ছাত্রীকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টার থেকে তার মায়ের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে ওসি মমতাজুল জানান।

আরো খবর...