সকলের সহযোগিতা এবং সচেতনতার মাধ্যমে ঘুর্ণিঝড়ে ক্ষতির পরিমান কমিয়ে আনা সম্ভব

কুষ্টিয়ায় ঘুর্ণিঝড় ‘আমফান’ মোকাবিলায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভায় ডিসি আসলাম হোসেন

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে গতকাল সোমবার সকাল ১০টায় ঘুর্ণিঝড় ‘আমফান’ মোকাবিলায় জেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির এক জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। জেলা প্রশাসক মো. আসলাম হোসেনের সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন কুষ্টিয়া জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও চেম্বার সভাপতি হাজী রবিউল ইসলাম, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক মৃনাল কান্তি দে, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মুহাম্মদ ওবায়দুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট লুৎফুন্নাহার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান, জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার জায়েদুর রহমান, জেলা ত্রাণ ও পূর্ণবাসন কর্মকর্তা আব্দুর রহমান, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তাসহ দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেন বলেন, করোনা ভাইরাসের মহাসংকটের পাশে ঘুর্নিঝড় ‘আমফান’ আমাদের মাঝে উপস্থিত হতে চলেছে। এই ঘুর্ণিঝড় খুবই মারাত্বক আকার ধারন করে বাংলাদেশের উপকুলে আঘাত হানবে যা সিডরের চেয়ে মারাত্বক ক্ষয়ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তিনি বলেন, এই ভয়াবহ ঘুর্নিঝড় মোকাবিলায় আমাদের ব্যাপক প্রস্তুতি থাকতে হবে। প্রয়োজনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আশ্রয় কেন্দ্র হিসেবে প্রস্তুত রাখতে হবে। ঝড়ে বিদ্যুৎ বিপর্যয় ঘটলে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে তার জন্য আগাম প্রস্তুতি গ্রহণ করতে হবে। জেলা প্রশাসক বলেন, আমাদের করোনা বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে সেই সাথে ঝড়ে ক্ষয়ক্ষতি বেশি হলে জরুরী প্রয়োজনে খাদ্য সংকট দেখা দিলে কন্ট্রোল রুমে যোগাযোগ করার  আহবান জানানো হয়েছে। তিনি সকলের সার্বিক সহযোগিতা এবং সচেতনতার মাধ্যমে ঘুর্ণিঝড় মোকাবিলায় সফল হওয়ার আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন।

আরো খবর...