ষষ্ঠী পূজার মধ্যদিয়ে দৌলতপুরে ১৩টি মন্দিরে শুরু হয়েছে শারদীয় দুর্গোৎসব

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ সনাতন ধর্মালম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দূর্গা পূজা। কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে এ বছর ১৩টি মন্দিরে শারদীয় দূর্গোৎসব অনুষ্ঠিত হচ্ছে। গতকাল শুক্রবার ষষ্ঠী পূজার মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে শারদীয় দূর্গোৎসবের মূল আনুষ্ঠানিকতা। সকালে অল্পারম্ভ, বিহিত পূজা ও বোধনের মধ্য দিয়ে ষষ্ঠীর দিনের দূর্গা পূজার আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়। বৃহস্পতিবার ছিল শারদীয়া দূর্গোৎসবের মহাপঞ্চমী তিথী। এদিন সন্ধ্যায় ছিল পূজার ঘট স্থাপন। অশুভনাশিনী, মানবকল্যাণ ও শক্তির দেবী জগৎজননী দেবী দুর্গা এবার কৈলাস  থেকে মর্তে এসেছেন ঘোড়ায় চড়ে। মা’কে বরণের মধ্যদিয়েই বেজে উঠেছে সনাতন ধর্মাবলম্বী ও বাঙালি হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মীয় অনুষ্ঠান শ্রীশ্রী দুর্গা পূজার ঢাক। সেই সঙ্গে শুরু হয়েছে জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সব মানুষের আনন্দ উৎসব। এদিকে প্রতিটি পূজা মন্ডপকে সাজানো হয়েছে। আর এসকল মন্ডপে শোভা পাচ্ছে দেবী দূর্গা। দূর্গা পূজা উপলক্ষে প্রতিটি মন্ডপে আইনশৃংখলা বাহিনীর পক্ষ থেকে বাড়িতি নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তার।

আরো খবর...