শৈলকুপা সরকারি ডিগ্রি কলেজ শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ মিছিল ও সড়ক অবরোধ

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ॥ ঝিনাইদহের শৈলকুপায় সরকারি ডিগ্রি কলেজে ক্লাসে শিক্ষক অনুপস্থিত, অনিয়মিত ক্লাসগ্রহণ, বিজ্ঞান বিষয়ের প্রাক্টিক্যাল না নেওয়া ও পর্যাপ্ত শিক্ষকের দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ ও সড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীরা। এ সময় ক্ষোভে ফুঁসে ওঠা সাধারণ শিক্ষার্থীরা কলেজ ক্যাম্পাসের ফটকে বসে উপজেলা শহরের প্রধান সড়ক অবরোধ করে ন্যায়সংগত দাবি বাস্তবায়নের জন্য বিক্ষোভ দেখায়। ফলে দীর্ঘসময় অফিসপাড়া জুড়ে বিশাল যানজটের সৃষ্টি হয়। শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, সরকারি ডিগ্রি কলেজ অধ্যক্ষসহ বেশিরভাগ শিক্ষক নিয়মিত কলেজে আসেনা, রুটিন মোতাবেক ক্লাস হয়না। এছাড়া বিজ্ঞান বিভাগের কোন প্রাক্টিক্যাল ক্লাস এবং শীতকালীন খেলাধুলাসহ আনুসাঙ্গিক সমগোত্রীয় বিষয়ে কোন লেখাপড়ার বালাই নেই। শিক্ষার্থীদের দাবি তারা বেশিরভাগ সরকারি সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। বিতর্ক, বার্ষিক ক্রীড়া না থাকলেও আছে ক্লাস ফাঁকির পাঁয়তাড়া। অধ্যক্ষের গাফিলতির কারনে পূরনো শিক্ষাব্যবস্থার তেমন পরিবর্তন নেই কলেজটিতে। আধুনিক শিক্ষা কার্যক্রমসহ অনার্স কলেজ খোলার দাবিও রেখেছে শিক্ষার্থীরা। বস্তুুত বিভিন্ন অনিয়ম দুর্নীতিতে জেঁকে বসা কলেজের দিকে খেয়াল নেই উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের। যে কারনে দিনের পর দিন সরকারি ডিগ্রি কলেজের শিক্ষার গুনগত মান কমতে শুরু করেছে কলেজটিতে। সকাল ১০টায় কলেজ গেট থেকে শুরু হওয়া বিক্ষোভ মিছিলটি সময় বাড়ার সাথে সাথে জনাকীর্ণ সাধারণ শিক্ষার্থীদের বিশাল মিছিলে পরিনত হয়। তাদের দাবি আধুনিক শিক্ষা ব্যবস্থার সকল সরকারি সুযোগ সুবিধা বঞ্চিত কলেজ ক্যাম্পাসের সব ধরনের অনিয়ম দূর করে নিয়মিত পাঠদান শুরু করা হোক। সকাল সাড়ে ১১টায় উপজেলা চেয়ারম্যান শিকদার মোশারফ হোসেন, অধ্যক্ষ প্রফেসর আব্দুস  সোবহান, ভাইস চেয়ারম্যান জাহিদুন্নবী কালু, শৈলকুপা থানার তদন্ত কর্মকর্তা মহসিন হোসেনসহ আওয়ামী অঙ্গ সংগঠনের সাবেক ও বর্তমান নেতৃবৃন্দ আগামী ১৫দিনের মধ্যে তাদের দাবি পূরনের আশ্বাস দিলে অবরোধ তুলে নেয় শিক্ষার্থীরা।

আরো খবর...