লালা ব্যবহার নিষিদ্ধ করার সুপারিশ বলে

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ করোনাভাইরাসের কারণে স্বাস্থ্য ঝুঁকির কথা ভেবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বলে লালা ব্যবহার নিষিদ্ধ করার সুপারিশ করেছে আইসিসির ক্রিকেট কমিটি। অনিল কুম্বলের নেতৃত্বাধীন ক্রিকেট কমিটি সোমবার ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৈঠকে এর সঙ্গে ম্যাচ অফিসিয়াল নিয়েও কিছু সুপারিশ করেছে। আগামী জুনের শুরুতে বৈঠকে ক্রিকেট কমিটির সুপারিশগুলো বিবেচনা করবে আইসিসির প্রধান নির্বাহীদের কমিটি। বলে লালা ব্যবহারে ভাইরাস সংক্রমণ হওয়ার ঝুঁকির বিষয়ে আইসিসির মেডিকেল অ্যাডভাইজরি কমিটির প্রধান পিটার হারকোর্টের কাছে জানতে চেয়েছিল ক্রিকেট কমিটি। হারকোর্টের পরামর্শে কমিটি বলে লালা ব্যবহার নিষিদ্ধ করার সুপারিশ করতে সম্মত হয়। বলে ঘাম ব্যবহারে ভাইরাস সংক্রমণ হওয়ার ঝুঁকি কম বলে পরামর্শ পেয়েছে ক্রিকেট কমিটি। তাই বলে ঘাম ব্যবহার নিষিদ্ধ করার সুপারিশের প্রয়োজনীয়তা দেখছে না তারা। তবে মাঠ ও এর আশপাশে উন্নত স্বাস্থ্যবিধি প্রণয়নের সুপারিশ করা হয়। ২০০২ সাল থেকে টেস্ট ম্যাচের ক্ষেত্রে ম্যাচ রেফারি, দুই অনফিল্ড আম্পায়ার ও তৃতীয় আম্পায়ার থাকেন নিরপেক্ষ। শুধু চতুর্থ আম্পায়ার হয় স্থানীয়। ওয়ানডের ক্ষেত্রে ম্যাচ রেফারি, একজন অনফিল্ড আম্পায়ার, তৃতীয় আম্পায়ার থাকেন নিরপেক্ষ; একজন অনফিল্ড আম্পায়ার ও চতুর্থ আম্পায়ার স্থানীয়। আর টি-টোয়েন্টিতে শুধু ম্যাচ রেফারি হয় নিরপেক্ষ। বাকিরা স্থানীয়। কিন্তু কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে ভ্রমণ বিধিনিষেধের কারণে স্থানীয় ম্যাচ অফিসিয়াল নিয়োগের সুপারিশ করা হয়েছে। ওই বোর্ডের স্থানীয় এলিট ও আন্তর্জাতিক প্যানেল রেফারির মধ্য থেকে ম্যাচ অফিসিয়াল নিয়োগ আইসিসির মাধ্যমেই হবে। যে দেশে কোনো এলিট প্যানেল ম্যাচ অফিসিয়াল নেই, সেখানে সেরা স্থানীয় আন্তর্জাতিক প্যানেল ম্যাচ অফিসিয়ালদের নিয়োগ করা হবে। এছাড়াও প্রতি সংস্করণের প্রতি ইনিংসে বাড়তি একটি ডিআরএস রিভিউ যুক্ত করার সুপারিশও করেছে ক্রিকেট কমিটি। ক্রিকেট কমিটির প্রধান ও সাবেক ভারতীয় স্পিনার কুম্বলে জানান, নিরাপদে ক্রিকেট ফেরানোর জন্য সবগুলো সুপারিশই করা হয়েছে অন্তর্বর্তীকালীন ব্যবস্থা হিসেবে।

আরো খবর...