রোহিত শর্মার মধ্যে ধোনিকে খুজে পান রায়না

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ নেতৃত্বের যে দিকগুলো মহেন্দ্র সিং ধোনিকে করে তুলেছে আলাদা, সেই গুণগুলো রোহিত শর্মার মধ্যেও দেখতে পান সুরেশ রায়না। ভারতের এই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যানের মতে, রোহিতই হতে যাচ্ছেন ভারতীয় দলের পরবর্তী ধোনি। রোহিতের বয়স যদিও হয়ে গেছে ৩৩, ভারতের এখনকার অধিনায়ক বিরাট কোহলির বয়স ৩১। ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সের অসাধারণ ধারাবাহিকতা ও ভারতীয় ক্রিকেটে প্রভাব মিলিয়ে কোহলির নেতৃত্ব সহসা শেষ হওয়ার সম্ভাবনা সামান্যই। তবে রায়না মুগ্ধ রোহিতের অধিনায়কত্ব দেখে। ‘দা সুপার ওভার পডকাস্ট’-এ রায়না বললেন, ভারতের সফলতম অধিনায়ক ধোনির ছায়া রোহিতের ভেতর দেখতে পান তিনি। “ আমি বলব, রোহিত ভারতীয় দলের পরবর্তী ধোনি। আমি রোহিতকে দেখেছি, সে খুবই শান্ত, সবার কথা শুনতে পছন্দ করে। সে অন্য ক্রিকেটারদের বিশ্বাস জোগাতে ভালোবাসে। সবকিছুর ওপরে, সে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিতে পছন্দ করে। কোনো অধিনায়ক যখন সামনে থেকে নেতৃত্ব দেয় এবং একই সঙ্গে ড্রেসিং রুম আবহকেও সম্মান করে, তখন বুঝতে হবে তার মধ্যে সবকিছুই আছে।” “ সে মনে করে, দলের সবাই অধিনায়ক। আমি তাকে দেখেছি। বাংলাদেশে এশিয়া কাপ জয়ের সময় তার নেতৃত্বে খেলেছি। দেখেছি যে শার্দুল (ঠাকুর), ওয়াশিংটন সুন্দর ও (যুজবেন্দ্র) চেহেলদের মতো তরুণদের সে কতটা বিশ্বাস জোগায়।” রায়না এশিয়া কাপের কথা বললেও বাংলাদেশে এশিয়া কাপে রোহিত নেতৃত্ব দেননি। তিনি হয়তো বোঝাতে চেয়েছেন ২০১৮ নিদাহাস ট্রফির কথা। শ্রীলঙ্কায় সেই টুর্নামেন্টে রোহিতের নেতৃত্বে শিরোপা জিতেছিল ভারত। ওই বছর সংযুক্ত আরব আমিরাতে এশিয়া কাপেও ভারত চ্যাম্পিয়ন হয় রোহিতের নেতৃত্বে। সব মিলিয়ে নানা সময়ে কোহলির অনুপস্থিতিতে ১০ ওয়ানডেতে নেতৃত্ব নিয়েছেন রোহিত, ভারত জিতেছে ৮টিতেই, ১৯ টি-টোয়েন্টিতে জয় ১৫টিতে। এ ছাড়া আইপিএলেও রোহিত সফলতম অধিনায়ক। ৮ বছরের মধ্যে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স ৪টি শিরোপা জিতেছে তার অধিনায়কত্বে। অনেক ক্রিকেট বিশেষজ্ঞই নেতৃত্বগুণে কোহলির চেয়ে এগিয়ে রাখেন রোহিতকে। সতীর্থরাও রোহিতের নেতৃত্বে খুব স্বচ্ছন্দ বলে শোনা গেছে নানা সময়। রায়নার কথায়ও সেটি ফুটে উঠল স্পষ্ট। “ ক্রিকেটাররা তার (রোহিত) ব্যক্তিত্ব উপভোগ করে, তার পাশে নিজেদের উজার করে দিতে ভালোবাসে। কারও ব্যক্তিত্ব যখন কেউ উপভোগ করে, তখন তা অবশ্যই দারুণ ইতিবাচক। এখানেই রোহিত খুব ভালো।” “ধোনি অসাধারণ ছিল। রোহিত ধোনির চেয়েও বেশি আইপিএল ট্রফি জিতেছে। দুজনই প্রায় একইরকম। দুজনই অধিনায়ক হিসেবে অন্যদেরটা শুনতে পছন্দ করে। অধিনায়ক যখন শুনতে পছন্দ করে, অনেক সমস্যার সমাধান হয়ে যায়, বিশেষ করে অনেকের মানসিক সমস্যার। আমার চোখে, তারা দুজনই দুর্দান্ত।”

 

আরো খবর...