রোহিঙ্গাদের জন্য বিদেশী সাহায্য কমে গেছে – পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ঢাকা অফিস ॥ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের জন্য বিদেশী সাহায্য আগের তুলনায় এখন কমে গেছে। তাদের থাকা-খাওয়া নিয়ে সরকার ভীষণভাবে চিন্তিত। গতকাল শুক্রবার শ্রীমঙ্গলে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে রোহিঙ্গা ইস্যুতে তিনি এসব কথা বলেন। আজ দুপুরে ৩৫টি দেশের রাষ্ট্রদূত ও ৭টি আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সহযোগী সংস্থার প্রতিনিধিদের নিয়ে চায়ের দেশ হিসেবে পরিচিত শ্রীমঙ্গলে যান মন্ত্রী। প্রতিনিধিদের মধ্যে যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, ভারত, স্পেন, ফ্রান্স, নিউজিল্যান্ড, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও মিশরসহ ৩৫টি দেশের রাষ্টদূত ও তাদের পরিবারে সদস্যরা রয়েছেন। আব্দুল মোমেন বলেন, বর্ষা মৌসুমে বাংলাদেশের পাহাড়ী এলাকাগুলোতে প্রাকৃতিক বিপর্যয় ঘটে। বিভিন্ন সময় ভূমিধস হয়। এ কারণে রোহিঙ্গাদের নিরাপদ আবাসন নিয়ে দুশ্চিন্তা আরো বাড়ছে। তাই, রোহিঙ্গাদেরকে তাদের দেশে ফেরত পাঠানো এখন সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু। মন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গারা যাতে নিজেদের দেশে ফেরত যায় সে ব্যাপারে আমরা সব ধরনের তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছি। রোহিঙ্গারা নির্ধারিত এলাকা ছেড়ে যাতে অন্য কোথাও না যায় সে ব্যবস্থাও নিচ্ছে সরকার। এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গা শিশুদের বাংলা শিখিয়ে তো লাভ নেই, একদিন তো তারা নিজেদের দেশ মায়ানমারে ফিরে যাবে সেখানে তারা তাদের নিজেদের ভাষায় শিক্ষিত হবে। ৩৫টি দেশের রাষ্ট্রদূত ও ৭টি আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সহযোগী সংস্থার প্রতিনিধিদের নিয়ে এই ভ্রমণের কারণে এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

আরো খবর...