রোমাঞ্চকর ম্যাচে হেরে শ্রীলঙ্কায় হোয়াইটওয়াশড উইন্ডিজ

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ প্রতিটি বলে উত্তেজনা। একটি বাউন্ডারিতে সমীকরণ সহজ হচ্ছে তো একটি উইকেটে ম্যাচ হেলে যাচ্ছে শ্রীলঙ্কার দিকে। হোয়াইটওয়াশড হওয়া এড়াতে চেষ্টার কমতি ছিল না ওয়েস্ট ইন্ডিজের। তবে শেষরক্ষা করতে পারেনি কাইরন পোলার্ডের দল। রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে জিতে তাদের হোয়াইটওয়াশ করে ছেড়েছে দিমুথ করুনারতেœর দল। তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতে ৬ রানে জিতেছে শ্রীলঙ্কা। ৩০৭ রান তাড়ায় ৩০১ রানে থেমেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দ্বিতীয়বারের মতো তাদের বিপক্ষে ৩-০ ব্যবধানে সিরিজ জিতল শ্রীলঙ্কা। প্রথমবার জিতেছিল ২০১৫ সালে। ২০০৫ সালের পর থেকে শ্রীলঙ্কায় কোনো ওয়ানডে না জেতা ওয়েস্ট ইন্ডিজ ব্যাটিং অর্ডারে এনেছিল অনেক পরিবর্তন। তিনে উঠে এসেছিলেন নিকোলাস পুরান। গ্রেফ দ্বিতীয়বারের মতো চারে নেমেছিলেন পোলার্ড। কাজে প্রায়ই লেগেই গিয়েছিল এইসব পরিবর্তন। চোটের জন্য নিজের পঞ্চম ওভার অসমাপ্ত রেখে মাঠ ছাড়েন নুয়ান প্রদিপ। তার অভাব কী দারুণভাবেই না পূরণ করলেন অ্যাঞ্জলো ম্যাথিউস। দারুণ বোলিংয়ে ৫৯ রানে ৪ উইকেট নিয়ে গড়ে দিলেন ব্যবধান। ২০১৫ সালের পর প্রথমবারের মতো ওয়ানডেতে কোটা পূরণ করলেন এই অলরাউন্ডার। পাল্লেকেলে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শনিবার টস জিতে ব্যাট করতে নেমে সম্মিলিত চেষ্টায় লড়াইয়ের পুঁজি গড়ে শ্রীলঙ্কা। প্রথম আট ব্যাটসম্যানের সবাই যান দুই অঙ্কে। পঞ্চাশ পর্যন্ত যান কেবল কুসল মেন্ডিস ও ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা। ৪৮ বলে ৬ চার ও এক ছক্কায় ৫৫ রান করেন মেন্ডিস। ধনাঞ্জয়া ৪৭ বলে খেলেন ৫১ রানের কার্যকর ইনিংস। কাছাকাছি স্ট্রাইক রেটে ৪৪ রান করেন অধিনায়ক করুনারতেœ ও কুসল পেরেরা। শেষের দিকে থিসারা পেরেরা ও ভানিদু হাসারাঙ্গার ঝড়ো ব্যাটিংয়ে তিনশ ছাড়ায় স্বাগতিকদের সংগ্রহ। ৬৫ রানে ৪ উইকেট নিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সেরা বোলার আলজারি জোসেফ। রান তাড়ায় ১১১ রানের উদ্বোধনী জুটিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ভালো শুরু এনে দেন শেই হোপ ও সুনিল আমব্রিস। ৬০ বলে ৬০ রান করা আমব্রিসকে ফিরিয়ে শুরুর জুটি ভাঙেন হাসারাঙ্গা। ব্যাটে-বলে নিজেকে মেলে ধরা এই অলরাউন্ডার জেতেন সিরিজ সেরার পুরস্কার। সংক্ষিপ্ত স্কোর: শ্রীলঙ্কা: ৫০ ওভারে ৩০৭ (ফার্নান্দো ২৯, করুনারতেœ ৪৪, কুসল পেরেরা ৪৪, মেন্ডিস ৫৫, ম্যাথিউস ১২, ধনাঞ্জয়া ৫১, থিসারা ৩৮, হাসারাঙ্গা ১৬, উদানা ২, সান্দাক্যান ০, প্রদিপ ০*; কটরেল ১০-১-৫৮-১, হোল্ডার ১০-০-৬৮-২, জোসেফ ১০-০-৬৫-৪, চেইস ১০-০-৫১-১, ওয়ালশ ৩-০-২০-০, পোলার্ড ৭-০-৩৬-১) ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ৫০ ওভারে ৩০১/৯  (হোপ ৭২, আমব্রিস ৬০, পুরান ৫০, পোলার্ড ৪৯, ব্রাভো ৮, হোল্ডার ৮, অ্যালেন ৩৭, ওয়ালশ ২, চেইস ০, জোসেফ ০*, কটরেল ১*; প্রদিপ ৪.৩-১-২২-০, থিসারা ৭.৩-০-৫৪-০, উদানা ১০-০-৭৬-১, ম্যাথিউস ১০-০-৫৯-৪, সান্দাক্যান ৩-০-৩১-০, হাসারাঙ্গা ১০-০-৪১-১, ধনাঞ্জয়া ৫-০-১৩-০)। ফল: শ্রীলঙ্কা ৬ রানে জয়ী। সিরিজ: ৩ ম্যাচের সিরিজে শ্রীলঙ্কা ৩-০ ব্যবধানে জয়ী

ম্যান অব দা ম্যাচ: অ্যাঞ্জলো ম্যাথিউস। ম্যান অব দা সিরিজ: ভানিদু হাসারাঙ্গা।

 

আরো খবর...