রেলওয়ের জমি থেকে দখলদার উচ্ছেদ হবেই – রেলমন্ত্রী

ঢাকা অফিস ॥ রেলওয়ের দখলকৃত জমিসহ রেলের কোয়ার্টার বা বাংলো থেকে দখলদার উচ্ছেদ করা হবে বলে জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম।গতকাল রোববার সকালে পঞ্চগড় থেকে ঢাকায় যাওয়ার পথে সৈয়দপুর বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে এ কথা বলেন তিনি।রেলমন্ত্রী বলেন, রেলওয়ের জমি থেকে দখলদার উচ্ছেদ হবেই। রেলওয়ের উন্নয়নের জন্যই এটা করা হচ্ছে। পরবর্তী সময়ে এগুলো আস্তে আস্তে শৃঙ্খলার মধ্যে আনতে ব্যবস্থা নেয়া হবে।তিনি বলেন, যারা রেলওয়ের জমি বা কোয়ার্টার দখল বা বিক্রির সঙ্গে জড়িত, তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা অবশ্যই গ্রহণ করা হবে। রেলওয়ের সম্পদ কারও ব্যক্তিগত সম্পদ নয়। এটা জনগণের, তথা রাষ্ট্রের সম্পদ।‘তাই এ সম্পদ কুক্ষিগত করে কেউ ব্যক্তিস্বার্থ হাসিল করতে চাইলে তাদের কোনোভাবেই ছাড় দেয়া হবে না।’সৈয়দপুরে রেলওয়ের প্রায় ৩০০ একর জমি জবরদখল হয়ে আছে। এসব জায়গায় প্রায় এক লাখ মানুষ বসতি স্থাপন করেছেন। ২৮ সেপ্টেম্বরের মধ্যে রেলের এই জায়গা ছেড়ে দেয়ার জন্য নোটিশ দেয়া হয়েছে।এ বিষয়ে রেলমন্ত্রী বলেন, এবার উচ্ছেদ নোটিশ দেয়ার ফলে যারা দালালদের মাধ্যমে অবৈধভাবে দখল করে আছেন, তারা নতুন করে এ জায়গা ইজারা পাওয়ার জন্য আবেদন করবেন। যারা অবৈধভাবে আছেন, তাদের আবেদনের সুযোগ আছে। দালালমুক্ত হয়ে তারা আবেদন করলে সরকার তা ভেবে দেখবে।তিনি আরও বলেন, রেলওয়ের জমি ও অন্যান্য স্থাপনা নানাভাবে বেদখল হয়ে গেছে। উচ্ছেদের যে বিষয়টি এসেছে, তা অবশ্যই করা হবে। রেলওয়ের উন্নয়নের প্রয়োজনেই এমনটা করা হচ্ছে।নূরুল ইসলাম বলেন, বারবার উচ্ছেদ অভিযানের নোটিশ দেয়া হলেও তা বারবারই থমকে যায়। কিন্তু এবার কোনোভাবেই উচ্ছেদ অভিযান বন্ধ করা হবে না। যেকোনো মূল্যে অবৈধ দখলমুক্ত করতে উচ্ছেদ করা হবেই। এ ক্ষেত্রে কোনো ধরনের টালবাহানার সুযোগ নেই।

আরো খবর...