রান উতসবের ম্যাচে ভারতের রেকর্ড গড়া জয়

ক্রীড়া প্রতিবেদক \ ছোট মাঠ, উইকেট ব্যাটিং স্বর্গ। ইডেন পার্ক তাই প্রায়ই হয়ে ওঠে বোলারদের বধ্যভূমি আর ব্যাটসম্যানদের প্রিয় প্রাঙ্গন। তেমনই আরেকটি রান উৎসবের ম্যাচে শেষ পর্যন্ত হেরে গেল নিউ জিল্যান্ড। দেশের বাইরে নিজেদের রান তাড়ার নতুন রেকর্ড গড়ে জিতল ভারত। পাঁচ ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে নিউ জিল্যান্ডকে ৬ উইকেটে হারিয়েছে ভারত। অকল্যান্ডে শুক্রবার তিন ব্যাটসম্যানের ঝড়ো ফিফটিতে নিউ জিল্যান্ড ২০ ওভারে করেছিল ২০৩ রান। ভারত জিতেছে ১ ওভার বাকি রেখে। ভারতের রান তাড়ায় ওপেনিংয়ে দারুণ ফিফটি করেছেন লোকেশ রাহুল। বিরাট কোহলি খেলেছে কার্যকর ইনিংস। দুর্দান্ত অপরাজিত ফিফটিতে ম্যাচ জিতিয়ে ফিরেন শ্রেয়াস আইয়ার। দেশের বাইরে এই প্রথম দুইশ রান তাড়ায় জিতল ভারত। আগের রেকর্ড ছিল ২০১৮ সালে, ব্রিস্টলে ইংল্যান্ডের ১৯৮ রান টপকে জয়। টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামা নিউ জিল্যান্ডকে উড়ন্ত সূচনা এনে দেন কলিন মানরো ও মার্টিন গাপটিল। পাওয়ার পে¬র ৬ ওভারে দুজন দলকে এনে দেন ৬৮ রান। মার্টিন গাপটিলকে ফিরিয়ে উদ্বোধনী জুটি ভাঙেন শিবম দুবে। অষ্টম ওভারে তখন ৮০ রান তুলে ফেলেছে কিউইরা। ১৯ বলে ৩০ করে গাপটিল আউট হন সীমানায় রোহিত শর্মার দারুণ ক্যাচে। শুরুর গতি দ্বিতীয় উইকেটে ধরে রাখেন মানরো ও কেন উইলিয়ামসন। ৩৬ বলে মানরো স্পর্শ করেন তার দশম টি-টোয়েন্টি ফিফটি। মানরোর ইনিংস থামে ৪২ বলে ৫৯ রান করে শার্দুল ঠাকুরের বলে। পরের ওভারে রবীন্দ্র জাদেজার বলে আলগা শটে শূন্য রানেই বিদায় নেন বিপজ্জনক কলিন ডি গ্রান্ডহোম। তবে জোড়া ধাক্কায় খুব কাবু হয়নি নিউ জিল্যান্ড। উইলিয়ামসন ও রস টেইলর টর্নেডো জুটিতে এগিয়ে নেন দলকে। ২৮ বলে ৬১ রানের জুটি গড়েন দুই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান। অধিনায়ক উইলিয়ামসন ফেরেন চারটি করে চার ও ছক্কায় ২৬ বলে ৫১ রান করে। টেইলর দলকে পার করান দুইশ। অপরাজিত থাকেন তিনটি করে চার ও ছক্কায় ২৭ বলে ৫১ রান করে। অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি, প্রায় ৬ বছর পর টি-টোয়েন্টি ফিফটি করলেন টেইলর। সবশেষটি ছিল ২০১৪ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে, চট্টগ্রামে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। মাঝের সময়টায় ফিফটি না করলেও অবশ্য রান পেয়েছেন তিনি। ভারতের শক্তিশালী ব্যাটিংয়ে সামনে কিউইদের সেই রানও যথেষ্ট হয়নি। রোহিত শর্মা যদিও আউট হয়ে যান একটি ছক্কা মেরেই। দ্বিতীয় উইকেটে রাহুল ও কোহলির জুটি দলকে গড়ে দেয় জয়ের ভিত। ৫১ বলে ৯৯ রানের জুটি গড়েন দুজন। দশম টি-টোয়েন্টি ফিফটিতে রাহুল করেছেন ২৭ বলে ৫৬। গাপটিলের অসাধারণ ক্যাচে কোহলি ফেরেন ৩২ বলে ৪৫ রান করে। পরপর দুই ওভারে এই দুজনকে হারালেও পথ হারায়নি ভারতের ইনিংস। শিবম দুবে ও মনিশ পান্ডেকে নিয়ে দলকে জয়ের ঠিকানায় নিয়ে যান শ্রেয়াস। মনিশের সঙ্গে ৩৪ বলে ৬২ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়েছেন শ্রেয়াস, যেখানে মনিশের রান কেবল ১৪, শ্রেয়াসের অবদান ৪৮। ২৯ বলে ৫৮ রানের ম্যাচ জেতানো ইনিংসে ম্যাচের সেরা শ্রেয়াস। সংক্ষিপ্ত স্কোর: নিউ জিল্যান্ড: ২০ ওভারে ২০৩/৫ (গাপটিল ৩০, মানরো ৫৯, উইলিয়ামসন ৫১, ডি গ্র্যান্ডহোম ০, টেইলর ৫৪*, সাইফার্ট ১, স্যান্টনার ২*; বুমরাহ ৪-০-৩১-১, শার্দুল ৩-০-৪৪-১, শামি ৪-০-৫৩-১, চেহেল ৪-০-৩২-১, দুবে ৩-০-২৪-১, জাদেজা ২-০-১৮-১)। ভারত: ১৯ ওভারে ২০৪/৪ (রোহিত ৭, রাহুল ৫৬, কোহলি ৪৫, শ্রেয়াস ৫৮*, দুবে ১৩, মনিশ ১৪*; সাউদি ৪-০-৪৮-০, স্যান্টনার ৪-০-৫০-১, বেনেট ৪-০-৩৬-০, টিকনার ৩-০-৩৪-১, সোধি ৪-০-৩৬-২)। ফল: ভারত ৬ উইকেটে জয়ী

সিরিজ: ৫ ম্যাচ সিরিজে ভারত ১-০তে এগিয়ে ম্যান অব দা ম্যাচ: শ্রেয়াস আইয়ার

আরো খবর...