রাজপথে আন্দোলন ছাড়া খালেদা মুক্তি পাবে না – সেলিমা

ঢাকা অফিস ॥ আলোচনা নয় রাজপথে আন্দোলন ছাড়া, এ সরকারের পতন ছাড়া বেগম জিয়া মুক্তি পাবে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সেলিমা রহমান। গতকাল শুক্রবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে বাংলাদেশ ছাত্র ফোরামের উদ্যোগে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ১৪তম কারাবন্দি দিবস উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন। সেলিমা রহমান বলেন, আজ আমরা ঘোর অন্ধকারের মধ্যে বাস করছি। আমাদের গণতন্ত্র মাতা বিনা চিকিৎসায় কারাগারে বন্দি। যিনি জামিনের যোগ্য হওয়ার পরেও বর্তমান সরকার রাজনৈতিক প্রতিহিংসায় তাকে মুক্তি দিচ্ছে না। তিনি বলেন,আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নামে বর্তমান সরকার মিথ্যা প্রচারণা চালিয়েছে, মিথ্যা মামলা দিয়ে তাকে দেশে আসতে দিচ্ছে না। কারণ তারা তারেক রহমানকে ভয় পায় যে, সে দেশে আসলে আরেকটি জিয়াউর রহমানের আবির্ভাব ঘটবে। তাই তাকে দেশে আসতে দিচ্ছে না। তার নামে মিথ্যা প্রচারণা চালাচ্ছে। ছাত্র সমাজের উদ্দেশে তিনি বলেন, এদেশে যতগুলো আন্দোলন হয়েছে। সবগুলোর মূলে ছিল ছাত্র সমাজ। তাই ছাত্র সমাজকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে এক একজনকে বীরের ভূমিকা পালন করতে হবে। এক একজন সৈনিককে জিয়া হয়ে রাজপথে লড়াই করতে হবে। যেমন শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান লড়াই করে গেছেন। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া লড়াই করে গেছেন। ঠিক সেইভাবে আমাদের লড়াই করতে হবে। তাহলে দেশে গণতন্ত্র ফিরে আসবে, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি পাবেন। তিনি বলেন, আর আলোচনা নয়, যদি আমরা এই সরকারকে পতন করতে না পারি। তাহলে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে পারব না। দেশে গণতন্ত্র ফিরে আসবে না। আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনতে পারব না। আন্দোলনের মাধ্যমে এ সরকারের পতন করে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে। তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনতে হবে। বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য মীর হেলালের সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য রাখেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, যুগ্ম মহাসচিব হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদির ভূইয়া জুয়েল, সাবেক ছাত্রদল নেতা নাজমুল হাসান, বিএনপি চেয়ারপারসনের বিশেষ সহকারী শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস প্রমুখ।

আরো খবর...