যেভাবে চেহারা পাল্টে ফেলেন দীপিকা

বিনোদন বাজার \ অ্যাসিড আক্রান্ত এক নারীর ভূমিকায় অভিনয় করেছেন দীপিকা পাড়ুকোন। কিন্তু তার এ যাত্রা সহজ ছিল না। নিজের মুখকে অ্যাসিড আক্রান্ত মুখে রূপান্তর করতে বেশ কষ্টই করতে হয়েছে তাকে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলোতে বলা হয়, স¤প্রতি দীপিকা অভিনীত ‘ছপাক’ ছবি মুক্তি পায়। এতে দীপিকা অ্যাসিড আক্রান্ত ল²ী আগরওয়ালের ভূমিকায় অভিনয় করেন। ছবিতে তার চরিত্রের নাম মালতি।ছবির টিম থেকে পাওয়া খবর অনুযায়ী, দীপিকার চেহারা ‘অ্যাসিড আক্রান্ত’ করতে প্রসেথটিকসে মেকআপের সাহায্য নেওয়া হয়। আর এই মেকআপ করতে দীপিকার লেগেছে কমপক্ষে ৪ ঘণ্টা। রোজ ৪ ঘণ্টার টানা মেকআপেই তিনি হয়ে উঠতেন আগরওয়াল। খ্যাতনামা মেকআপ শিল্পী ক্লোবার উটন দীপিকার মেকআপ করতেন।স¤প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে দীপিকার চেহারা পরিবর্তনের ভিডিও। ঠিক কিভাবে দীপিকা হয়ে উঠেছিলেন অ্যাসিড আক্রান্ত নারী তাই ধরা পড়েছে ভিডিওতে।দীপিকা বলছেন, ছবির শুটিং শুরু হওয়ার পর ভেবেছিলেন এই অভিনয় তিনি করতে পারবেন না। চরিত্রটি করা এতটাই শক্ত ছিল যে তিনি মাঝপথেই তা ছেড়ে দিতে চেয়েছিলেন।এই নায়িকা আরও জানান, দ্বিতীয় দিনের শুটিংয়ে আমার প্যানিক অ্যাটাক হয়। মনের উপর এতটাই চাপ পড়েছিল। মালতীর মেকআপ নেওয়ার পর আমি ঘামতে শুরু করি। বুঝতে পারি আমার পা দিয়ে রক্ত ঝরছে। নিজে অনুভব করছিলাম, ল²ী আগরওয়াল তো কতটা কষ্ট সহ্য করছে। বহুকষ্টে আবার নিজেকে বোঝাই। ওদের মনের জোর দেখেই নিজেকে অনুপ্রাণিত করেছিলাম।

আরো খবর...