যুবলীগ নেতা সঞ্জু গরীব দুঃখি মানুষের কথা চিন্তা করে বস্ত্র, খাদ্য ও নগদ অর্থ বিতরণ করে এক মহানুভবতার পরিচয় দিয়েছেন

কুষ্টিয়া শহরের বাড়াদিতে বস্ত্র, খাদ্য ও নগদ অর্থ বিতরণকালে আতাউর রহমান আতা

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়া সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও শহর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আতাউর রহমান আতা বলেছেন, বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের ফলে সৃষ্ট সংকটে সরকারের পাশাপাশি অনেক সুহৃদয় ও বিত্তবান মানুষেরা নিজেদের সামর্থ অনুযায়ী মানুষের মাঝে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়ে যে মহানুভবতার পরিচয় দিয়েছেন তা প্রশংসার দাবী রাখে। বুধবার সকাল সাড়ে ১০টায় কুষ্টিয়া শহরের বাড়াদী বাজার এলাকার বাড়াদি গ্রামের সম্ভ্রান্ত পরিবারের সন্তান, বিশিষ্ট সমাজ সেবক, জাতীয় সংসদ ভবনের ঠিকাদার, যুবলীগ নেতা আবু জাহিদ সঞ্জু নিজ অর্থায়নে পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে পৌর ১৬ নং ওয়ার্ডের দুস্থ্য মানুষের মাঝে বস্ত্র, খাদ্য সামগ্রী ও নগদ অর্থ বিতরকালে তিনি এ কথা বলেন। উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আতা বলেন, সরকারের আন্তরিক সদিচ্ছার ফলে দেশে এখনও পর্যন্ত না খেয়ে মারা যাওয়ার ঘটনা দেশের কোথাও ঘটেনি। আগামীতেও এ ধরনের কোন খবর শোনা যাবে না কেনননা সরকারের সদিচ্ছার কারনেই সুষ্ঠুভাবে ত্রান সামগ্রী এবং খাদ্য সামগ্রী দেশব্যাপী বিতরন করা হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, করোনা ভাইরাসে আজ সারা বিশ^ময় এক বিভিষিকাময় অবস্থার সৃষ্টি করেছে। এর ফলে বৈশি^ক সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে। আর এই সমস্যা নিরসনে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা সার্বক্ষনিক মনিটরিং করছেন। তিনি বলেন, কুষ্টিয়ায় বহু সংখ্যক মানুষেরা সরকারের দেয়া  সুযোগ সুবিধা গ্রহন করে নিজেদের স্বাভাবিক রাখার চেষ্টা করছেন। সামনের দিনগুলোতে এভাবে সুন্দর একটি সময় অতিবাহিত করতে পারবেন। আতাউর রহমান আতা বলেন- যুবলীগ নেতা আবু জাহিদ সঞ্জু প্রতিবারের ন্যায় এবারও তার এলাকার গরীব দুঃখি মানুষের কথা চিন্তা করে ঈদ সামগ্রী, বস্ত্র ও নগদ অর্থ বিতরণ করে এক মহানুভবতার পরিচয় দিয়েছেন। করোনার শুরুর থেকে এলাকার মানুষকে সচেতন করতে লিফলেট বিতরন, হ্যান্ডসেনিটাইজার ও সাবান এবং চাল, ডাল, তেল আটা দিয়ে সাধারণ মানুষকে ঘরের রাখা কাজ করে চলেছেন। একজন জনদরদী মানুষ না হলে এই দির্ঘ সময় নিজ অর্থায়নে গরীব দুঃখিদের পাশে দাঁড়ানো সম্ভব হতো না।  আতাউর রহমান আতা বলেন-সমাজে অনেক বিত্তবান মানুষ থাকলেও সেবা মানুষিকতা নিয়ে এগিয়ে আসার তৌফিক সকলকে দেন না সৃষ্টিকর্তা। যা এই বাড়াদী অঞ্চলের কৃতিসন্তান, ঠিকাদার ও যুবলীগ নেতা আবু জাহিদ সঞ্জু পেয়েছেন। তিনি সমাজের বৃত্তবানদের করোনা মোকাবিলায় সরকারের পাশাপাশি নিজ উদ্যোগে সহযোগিতা নিয়ে এগিয়ে আসার আহবান জানান।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন কুষ্টিয়া প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক আনিসুজ্জামান ডাবলু, কুষ্টিয়া সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক রেজাউল হক, কুষ্টিয়া শহর আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক ও পৌর কাউন্সিলর মীর রেজাউল ইসলাম বাবু, কুষ্টিয়া নাগরিক পরিষদের সভাপতি সাইফ-উদ দৌল¬া তরুন, আওয়ামীলীগ নেতা ফারুক আহমেদ খোকন।

যুবলীগ নেতা আবু জাহিদ সঞ্জু বলেন, আমি সব সময় এলাকার মানুষের কল্যানে কিছু করার চেষ্টা অব্যাহত রাখি। প্রতিবছরই ঈদে এলাকার মানুষের পাশে দাঁড়াই। আজো তারই ধারাবাহিকতায় এই সামান্য ঈদ উপহার হিসেবে এলাকার ৭শ’ গবীর অসহায় মানুষের মাঝে বস্ত্র, ২শ মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী এবং ১শ মানুষের হাতে নগদ টাকা তুলে দিতে পেরে আত্মতৃপ্ত হচ্ছি। আগামীতে এই ধরনের সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে এবং যে কোন অভাবী ও দুস্থ্য মানুষের প্রয়োজনে আমি তাদের পাশে দাঁড়াবো।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পৌর ১৬ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ময়েন উদ্দিন, আওয়ামীলীগ নেতা ও ইসলামিয়া কলেজ ম্যানেজিং কমিটির সদস্য রাজু আহমেদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল¬াহ, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল হোসেন, ১৬ নং ওয়ার্ড আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক তনজু আহমেদ, ছাত্রলীগ নেতা ফারুক হোসেন, আবু শাহেদ রঞ্জু, মনজু আহমেদ, সাইফুল ইসলাম, শফি বিশ্বাস, বিশিষ্ট ব্যবসায় নাসির উদ্দিন, সাদ্দাম হোসেন, বাবুল মন্ডল ও সোহেল রানা প্রমুখ।

আলোচনা শেষে প্রধান অতিথি উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউর রহমানসহ অতিথিবৃন্দ দুস্থ্যদের মাঝে বস্ত্র, খাদ্য ও নগদ অর্থ বিতরন করেন।

আরো খবর...