মেসির গোলে জয়ে ফিরল বার্সেলোনা

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ দুই দলই যেন মেতে উঠেছিল সুযোগ নষ্টের মহড়ায়। লক্ষ্যেই সেভাবে রাখতে পারছিল না শট। জমজমাট লড়াইয়ে ব্যবধান গড়ে দিলেন লিওনেল মেসি। পেনাল্টি থেকে গোল করে দলকে ফেরালেন জয়ের পথে; সঙ্গে তুললেন লা লিগার শীর্ষেও। কাম্প নউয়ে লা লিগার ম্যাচে শনিবার রাতে ১-০ গোলে জিতেছে বার্সেলোনা। আগের ম্যাচে এল ক্লাসিকোয় রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে হেরেছিল কিকে সেতিয়েনের দল। সব ধরনের প্রতিযোগিতায় টানা ছয় জয় পাওয়া সোসিয়েদাদ শুরুতে চেপে ধরে বার্সেলোনাকে। শুরুর ধাক্কা সামাল দিয়ে ধীরে ধীরে আক্রমণে যায় স্বাগতিকরা। তবে একেবারে রক্ষণে ঢুকতে পারেনি সফরকারীরা। তবে সুযোগ পেলেই ভীতি ছড়িয়েছে। লিওনেল মেসির দারুণ পাস থেকে প্রথম ১৫ মিনিটে দুটি সুযোগ আসে মার্টিন ব্রাথওয়েটের সামনে। কোনোটিই কাজে লাগাতে পারেননি তিনি। ৩৩তম মিনিটে প্রথম বড় পরীক্ষার সামনে পড়েন মার্ক-আন্ড্র্রে টের স্টেগেন। ছুটে এসে বল নিয়ন্ত্রণে নেন বার্সেলোনা গোলরক্ষক। একটুর জন্য নাগাল পাননি সোসিয়েদাদের পোর্তো। ৪০তম মিনিটে দারুণ সুযোগ এসে যায় মেসির সামনে। সবশেষ ৭ ম্যাচের ছয়টিতেই জালের দেখা না পাওয়া এই ফরোয়ার্ড ব্যর্থ আবারও। বিপজ্জনক জায়গা থেকে একটুর জন্য লক্ষ্যে থাকেনি তার শট। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেও সুযোগ আসে মেসির সামনে। ডান পায়ের শট লক্ষ্যে রাখতে পারেননি অধিনায়ক। ৬০তম মিনিটে আবার গোলের জন্য শট নেন, এবারও একটুর জন্য লক্ষ্যে থাকেনি। একের পর এক আক্রমণে সোসিয়েদাদকে কাঁপিয়ে দেয় বার্সেলোনা। ৬৫তম মিনিটে ইভান রাকিতিচের শট কর্নারের বিনিময় ঠেকান গোলরক্ষক। পরের মিনিট মেসির ক্রসে পিকে ঠিকঠাক হেড নিতে পারেননি। বিপজ্জনক জায়গায় তাকে খুঁজে পেয়েছিলেন মেসি। ৬৭তম মিনিটে আবার সুযোগ আসে রাকিতিচের সামনে। জর্দি আলবার নিচু ক্রসে একটুর জন্য পা ছোঁয়াতে পারেননি এই মিডফিল্ডার। পাল্টা আক্রমণে গিয়ে সুযোগ তৈরি করে সোসিয়েদাদও। তবে লক্ষ্য শট রাখতে পারেনি তারাও। ৮১তম মিনিটে মেসির সফল স্পট কিকে এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। মিকেল ওইয়ারসাবালের হ্যান্ডবলের জন্য ভিএআরের সাহায্য নিয়ে পেনাল্টি দিয়েছিলেন রেফারি। যোগ করা সময়ে জালে বল পাঠিয়েছিলেন জর্দি আলবা। তবে মেসির কাছ থেকে বল পাওয়ার সময় আনসু ফাতি অফ সাইডে থাকায় ভিএআরের সাহায্য নিয়ে গোল দেননি রেফারি। ২৭ ম্যাচে ৫৮ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে ফিরেছে বার্সেলোনা। এক ম্যাচ কম খেলে ৫৬ পয়েন্ট নিয়ে তাদের পেছনেই রয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ।

আরো খবর...