মুজিববর্ষ হবে মুজিবাদর্শ বিশ^ব্যাপী সঞ্চারিত করার বর্ষ

ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারী (ড. রাশিদ আসকারী) বলেছেন, মুজিববর্ষ হবে মুজিবাদর্শ বিশ^ব্যাপী সঞ্চারিত করার বর্ষ। তিনি বলেন- বঙ্গবন্ধু শুধু বঙ্গবন্ধু নন, তিনি আজ বিশ^বন্ধু। এজন্য তাঁর জন্মশতবার্ষিকী বিশ^ব্যাপী উদ্যাপিত হবে। তিনি বলেন, মুজিববর্ষ  ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ে বছরব্যাপী নানা আয়োজনের মধ্যদিয়ে আমরা উদ্যাপন করবো। ড. রাশিদ আসকারী বলেন, বঙ্গবন্ধুর সময়ে এদেশে সাড়ে ৭ কোটি বাঙালি ছিল। এখন এদেশে বাঙালির সংখ্যা প্রায় ১৮ কোটি ছাড়িয়ে যাবে। এছাড়াও প্রবাসী বাঙালি পুরো পৃথিবী জুড়ে রয়েছে। তাদের কাছে এই মহামানবের জীবন ও কৃতি তুলে ধরার দায়িত্ব আমাদের। তাই আসুন আমরা নানা মাতৃকতায় মুজিব জন্মশতবার্ষিকী উদ্যাপনের মধ্যদিয়ে আমাদের দায়িত্ব পালন করি। গতকাল ১০ জানুয়ারি ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ের আয়োজনে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ  বাঙালি, মহান মুক্তিযুদ্ধের মহানায়ক, স্বাধীনতার মহান স্থপতি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় ড. রাশিদ আসকারী এসব কথা বলেন। স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উদ্যাপন কমিটির আহবায়ক ও ছাত্র-উপদেষ্টা প্রফেসর ড. মোহাঃ সাইদুর রহমানের সভাপতিত্বে আলোচনাসভায় বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ শাহিনুর রহমান বলেন- ১৬ ডিসেম্বর আমাদের বিজয় অর্জন হলেও ১০ জানুয়ারি আমরা বিজয়ের পূর্ণতা পেয়েছি। আমরা সেদিন বিজয়ের স্বাদ গ্রহণ করেছি। তিনি বলেন, আসুন আমরা শ্রদ্ধা ও ভালবাসার মধ্যদিয়ে মুজিববর্ষ উদযাপন করি। অপর বিশেষ অতিথি ট্রেজারার প্রফেসর ড. মোঃ সেলিম তোহা বলেন, আজ ইসলামী বিশ^বিদ্যালয় পরিবার গৌরবান্বিত যে, জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উদ্যাপন জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির মাধ্যমে আর্দিষ্ট হয়ে বঙ্গবন্ধুর ১০ জানুয়ারির ঐতিহাসিক ভাষণটি ইংরেজিতে অনুবাদ করেছেন আমাদের ভাইস চ্যান্সেলর ড. রাশিদ আসকারী। আজ বিভিন্ন মাধ্যমে তা প্রকাশিত হয়েছে। তিনি বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্র্ষিকী সফলভাবে পালনের জন্য সকলের প্রতি আহাবান জানান। স্বাগত বক্তব্য রাখেন রেজিস্ট্রার (ভার:) এস এম আব্দুল লতিফ। উদযাপন কমিটির সদস-সচিব ও অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার (ভার:) ড. মোঃ নওয়াব আলী খানের পরিচালনায় সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর ড. কাজী আখতার হোসেন, কর্মকর্তা সমিতির সভাপতি মোঃ শামছুল ইসলাম জোহা, সহায়ক কর্মচারী সমিতির সভাপতি আব্রাহাম লিংকন ও সহায়ক টেকনিক্যাল কর্মচারী  সমিতির সভাপতি শেখ সালাউদ্দিন। আলোচনা সভার পূর্বে বিশ^বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে মৃত্যুঞ্জয়ী মুজিব ম্যুরালে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করা হয়। এসময় বিশ^বিদ্যালয়ের বিভিন্ন সমিতি, অনুষদ, হল, বিভাগ, অফিস, বিভিন্ন পরিষদ ও সংগঠনের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করা হয়। অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু’র স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের উপর প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শন এবং জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি প্রজেক্টরের মাধ্যমে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়। সর্বশেষ বঙ্গবন্ধুর আত্মার মাগফিতার কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। মোনাজাত পরিচালনা করেন প্রফেসর ড. আ ফ ম আকবর হোসাইন।  সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

আরো খবর...