মুজিবনগরে সিঁড়িঘর থেকে ব্যবসায়ীর হাত-পা বাঁধা লাশ উদ্ধার

মেহেরপুর প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের মুজিবনগর উপজেলার মহাজনপুর বাজার থেকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় সুবল চন্দ্র (৬২) নামের এক ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত সুবল মহাজনপুর গ্রামের বুদু কুরির ছেলে। সুবল মহাজনপুর বাজারের একজন সার, সিমেন্ট ও গ্যাস ব্যবসায়ী। গত শনিবার রাত ৯টার দিকে নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের পাশে সিঁড়িঘর থেকে  সুবল চন্দ্রের লাশ উদ্ধার করে মুজিবনগর থানা পুলিশ। স্থানীয়রা জানান- সুবল তার তিনতলা বিশিষ্ট নিজ বাসভবনের নিচতলায় সার, সিমেন্ট ও গ্যাসের ব্যবসা করে আসছিলেন। গত শনিবার সন্ধ্যারাতে তার স্ত্রী খাবার খাওয়ার জন্য স্বামী সুবলকে ডাকতে আসেন। গোডাউনে না পেয়ে পরিবারের সদস্যরা খোঁজাখুজি করে গোডাউনের পাশে সিঁড়িঘর থেকে সুবল চন্দ্রের হাত-পা বাঁধা এবং শরীরে সিমেন্টের বস্তা ও গ্যাস সিলিন্ডার চাপা দেয়া লাশ দেখতে পায়। পারিবারিক সূত্র জানায়, সুবল চন্দ্রের সাথে সন্ত্রাসীরা প্রায়ই চাঁদা দাবি করে আসছিল। চাঁদা না পেয়ে তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে মনে হচ্ছে। রাতে বাজারের অন্যান্য দোকান-পাট খোলা থাকা সত্ত্বেও কিভাবে সুবলকে সন্ত্রাসী হত্যা করতে পারলো এমন প্রশ্ন তার পরিবারের সদস্যদের। মুজিবনগর থানার ওসি আব্দুল হাশেম জানান- লাশ রবিবার সকালে উদ্ধার করে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। সুবলকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে বলে মনে হচ্ছে। তার শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। হত্যাকান্ড কি কারণে,কে বা কাহারা ঘটিয়েছে। তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। পাশাপাশি হত্যাকারীদের আটক করতে পুলিশের একাধিকদল মাঠে রয়েছে। এ ঘটনায় অজ্ঞাত নামাদের নামে একটি হত্যা মামলা হয়েছে।

আরো খবর...