মিরপুরে যৌতুকের দাবীতে দুই সন্তানের জননীকে হত্যার অভিযোগ, শাশুড়ী আটক

আমলা অফিস ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুরের পৌর এলাকায় দুই সন্তানের জননী সানজিদা খাতুনের (২৫) ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত সানজিদার মা-বাবার অভিযোগ, যৌতুকের টাকা না পেয়ে তার স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন সানজিদাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে ঘরের ডাবের সাথে লাশ ঝুলিয়ে রাখে। এই হত্যার সাথে জড়িত সন্দেহে নিহতের শাশুড়ী খাদিজা বেগমকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল শুক্রবার সকালে মিরপুর  পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের সুলতানপুরে এই ঘটনা ঘটে। মিরপুর থানার ওসি (তদন্ত) আব্দুল আলিম জানান, নিহত সানজিদার বাবা সাইদুল ইসলাম শুক্রবার সকালে থানায় অভিযোগ করেন সানজিদাকে তার শশুর বাড়ীর লোকজন হত্যা করে ঘরের ডাবের সাথে ঝুলিয়ে রেখেছে এমন অভিযোগের ভিত্তিতে আমরা সানজিদার শশুরবাড়ি থেকে তার ঝুলন্ত  লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করেছি। এবং এই হত্যার সাথে জড়িত সন্দেহে সানজিদার শাশুড়ী খাদিজা বেগমকে আটক করা হয়েছে। সানজিদার স্বামী ট্রাক চালক খোকন পলাতক রয়েছে। সানজিদার বাবা সাইদুল ইসলাম জানান, ৬ বছর আগে সানজিদার সাথে একই গ্রামের ট্রাক চালক খোকনের বিয়ে হওয়ার পর থেকেই তার শশুর বাড়ির লোকজন বিভিন্ন সময় যৌতুকের জন্য চাপ দিয়ে আসছিল । সর্বশেষ শুক্রবার সকালে সানজিদাকে তার স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির লোকজন যৌতুকের ১ লক্ষ টাকা আনতে বলে, সে অপারগতা জানালে সানজিদাকে পিটিয়ে হত্যা করে তার শ্বশুর বাড়ীর লোকজন। নিহত সানজিদার মরিয়ম নামের ৪ বছরের একটি কন্যা ও ওমর ফারুক নামের ১ বছরের একটি পুত্র সন্তান রয়েছে।

আরো খবর...