মিরপুরে তফসির রিজিয়া সুলতানা ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ঈদ সামগ্রী বিতরণ

মিরপুর প্রতিনিধি ॥ তফসির রিজিয়া সুলতানা ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে মিরপুর উপজেলার গোবিন্দগুনিয়া গ্রামে  করোনা ভাইরাসের (কোভিড-১৯) কারণে দীর্ঘদিন কর্মহীন হয়েপড়া গরীব, অসহায় মানুষের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়। ঈদ সামগ্রী বিতরনের উদ্বোধন করেন, মিরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামারুল আরেফিন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন তফসির রিজিয়া সুলতানা ফাউন্ডেশনের পরিচালক মোঃ মাহফুজুর রহমান (ফরিদ), প্রধান উপদেষ্টা  মোঃ সুলতানুল ইসলাম। এ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, মোঃ  তৌহিদুল ইসলাম, শফিউল ইসলাম, সাদিদুল ইসলাম,  হাবিবুল, সাদ্দাম, বাশার, শাহীন, ইকরাম, জনিসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ। বিতরণকালে মিরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামারুল আরেফিন বলেন- বর্তমানে আমরা এক অচেনা শত্র“র (করোনা ভাইরাসের) সাথে যুদ্ধ করছি। করোনা ভাইরাসের কারণে দীর্ঘদিন কাজকর্ম না থাকায় গরীব ও অসহায় মানুষ খুবই কষ্টের  মধ্যে দিয়ে দিন কাটাচ্ছে। তিনি আরও বলেন, এ দূর্যোগ মুহুর্তে গরীব ও অসহায় মানুষে মধ্যে ঈদ সামগ্রী বিতরন একটি মহৎ উদ্যোগ। তফসির রিজিয়া সুলতানা ফাউন্ডেশনের এ মহতি উদ্যোগকে আমি সাধুবাদ জানান। গরীব ও অসহায় মানুষে মধ্যে ঈদ সামগ্রী বিতরণ করার উদ্যোগ গ্রহন করায় আমি তফসির রিজিয়া সুলতানা ফাউন্ডেশনের পরিচালক মোঃ মাহফুজুর রহমান (ফরিদ) ও প্রধান উপদেষ্টা সমাজ সেবক  মোঃ সুলতানুল ইসলামকে আন্তরিক ভাবে ধন্যবাদ জানায়। আমি আশা করব আগামীতে তফসির রিজিয়া সুলতানা ফাউন্ডেশন সমাজের পিছিয়ে পড়া মানুষের জন্য বিভিন্ন ধরনের উন্নয়ন মুলক কাজ করবে। আমি তফসির রিজিয়া সুলতানা ফাউন্ডেশনের উত্তোরোত্তর সাফল্য ও সমৃদ্ধি কামনা করছি। তফসির রিজিয়া সুলতানা ফাউন্ডেশনের প্রধান উপদেষ্ট সমাজ সেবক মোঃ সুলতানুল ইসলাম বলেন, আমি ছোট বেলা থেকে স্বপ্ন দেখতাম বড় হয়ে মানুষের কল্যাণে নিজেকে নিয়োজিত করব। যুবক বয়সে জাতীয় তরুণ সংঘের সাথে যুক্ত হয়ে যুবকদের নিয়ে গণশিক্ষা কার্যক্রমসহ বিভিন্ন ধরনের উন্নয়নমুলক কাজ করেছি। সরকারী চাকরী করার কারণে দীর্ঘদিন স্বাধীনভাবে অনেক কাজই করার সুযোগ করতে পারেনি। এখন অবসর জীবনে আমার কাছে মনে হচ্ছে জীবনের বাকী সময়টুকু আমি সমাজের পিছিয়ে পড়া মানুষের কল্যাণের জন্য ব্যয় করব যা আমি ছোট বেলা থেকেই স্বপ্ন দেখতাম। এ কাজের জন্য আমি সকলের নিকট দোয় প্রার্থী।

আরো খবর...