মিটফোর্ডে ভেজাল ওষুধ তৈরি ও বিক্রি

জরিমানা আট লাখ, ২ জনের কারাদ

ঢাকা অফিস ॥ রাজধানীর মিটফোর্ড এলাকায় নকল ওষুধ, স্যাভলন ও ডিটারজেন্ট প্রস্তুত ও বাজারজাত করার অভিযোগে গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত অভিযান পরিচালনা করেছে পুলিশের এলিট ফোর্স র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিযন (র‌্যাব)। অভিযানকালে মিটফোর্ডের আরমানিটোলা ও সরদার মার্কেট এলাকার পাঁচ প্রতিষ্ঠানকে আট লাখ জরিমানা ও দুইজনকে কারান্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। ওষুধ প্রশাসন অধিদফতর ও র‌্যাব-১০ এর সহযোগিতায় সেখানে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আক্তারুজ্জামান। এ সময় বিপুল পরিমাণ নকল ওষুধ, ডিটারজেন্ট তৈরির নিম্নমনের মতো কাঁচামাল জব্দ ও ধ্বংস করা হয়। অভিযান শেষে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আক্তারুজ্জামান বলেন, ‘মিটফোর্ডে নকল হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও ওষুধ বিক্রি হচ্ছে এমন তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালানো হয়। অভিযানে নকল সেকলো, নকল ডায়াবেটিস টেস্টিং কিট জব্দ করা হয়। নকল হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিক্রি হচ্ছিল। এসব কারণে ভ্রাম্যমাণ আদালত মো. মাহমুদুল (২২) ও সাকিলকে (১৮) তিন মাসের কারাদ- দেন। এছাড়াও বিভিন্ন দোকান ও গোডাউনের মালিক এবং কর্মরত পাঁচজনকে আট লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। র‌্যাব-১০ জানায়, অভিযানকালে এসিআই কোম্পানির স্যাভলনের মতো করে স্যালভন বা অন্য নামে নকল পণ্য প্রস্তুত করা হচ্ছিল। এছাড়া, সার্ফ এক্সেল, চাকা বা রিনের মতো কোম্পানির ডিটারজেন্ট নকল করে প্যাকেটজাত ও বিক্রির অভিযোগে দুজনকে জেলসহ প্রায় ৫০ লাখ টাকা মূল্যের পণ্য জব্দ করা হয়েছে।

আরো খবর...