মালয়েশিয়ায় পাচারের সময় শিশুসহ ২৫ রোহিঙ্গা উদ্ধার

ঢাকা অফিস ॥ সাগর পথে মালয়েশিয়া পাচার করার সময় মহেশখালীর সোনাদিয়া চর থেকে নারী ও শিশুসহ ২৫ রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার সকালে সোনাদিয়া দ্বীপে অভিযান চালিয়ে তাদের উদ্ধার করে পুলিশ। দালালের মাধ্যমে তাদেরকে মালয়েশিয়া পাচার করা হচ্ছিল। উদ্ধার হওয়া রোহিঙ্গাদের একজন জানান, তাদেরকে সাগর পথে মালয়েশিয়া নিয়ে যাওয়ার চুক্তিতে একজন দালালকে টাকা দেয় তারা। এ লক্ষ্যে দুইদিন আগে রাতের আঁধারে তাদেরকে একটি নৌকায় উঠানো হয়। বেশ কিছু সময় সমুদ্রে নৌকা চালানোর পর শনিবার রাতে তাদেরকে মহেশখালীর সোনাদিয়া দ্বীপে এনে নামিয়ে দেয়া হয়। এখান থেকে তাদেরকে অন্য নৌকায় করে মালয়েশিয়া নিয়ে যাওয়া হবে বলেও জানানো হয়। তবে দালালদের সঠিক নাম পরিচয়ও জানে না তারা। সোনাদিয়ার স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সোনাদিয়ার পশ্চিম পাড়া এলাকার লুৎফু দালালের মাধ্যমে তারা সোনাদিয়া এসেছে। এদিকে খবর পেয়ে রোববার সকালে সোনাদিয়ায় অভিযান চালায় পুলিশ। মহেশখালী থানার ওসি জানান, খবর পেয়েই ওখানে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। পাচার হতে যাওয়া রোহিঙ্গাদের উদ্ধারে অভিযান চলছে। অভিযানে থাকা মহেশখালী থানার এসআই মো. নুরুল হক যুগান্তরকে জানান, সোনাদিয়ার মগ চর এলাকা থেকে মোট ২৫ জন রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ১২ জন নারী, ১১ জন পুরুষ ও ২ জন শিশু রয়েছে। তিনি জানান, স্থানীয়ভাবে সোনাদিয়ার লুৎফু দালালের কথা শোনা গেলেও উদ্ধার হওয়া লোকজন তাদেরকে নিয়ে আসা দালালের নাম-ঠিকানা বলতে পারছে না।

আরো খবর...