মাদ্রিদের জালে প্রথম গোলটি ছিল ‘হাস্যকর’

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ রিয়াল মাদ্রিদের জালে ক্লাব ব্র“জের প্রথম গোলটি তাদের জন্য যেমন ছিল সৌভাগ্যের ছোঁয়া, তেমনি স্বাগতিকদের জন্য ঠিক তার উল্টোটা। জিনেদিন জিদানের কাছে অবশ্য এর কোনোটিই নয়, বরং হাস্যকর। তবে মঙ্গলবার রাতে গ্র“প পর্বের ম্যাচটিতে প্রথমার্ধে দুই গোলে পিছিয়ে পড়ার পর ঘুরে দাঁড়িয়ে সমতা আনায় শিষ্যদের ওপর খুশি জিদান। সান্তিয়াগো বের্নাবেউয়ে ‘এ’ গ্র“পে ২-২ ড্র ম্যাচের নবম মিনিটে জিদানের মতে হাস্যকর গোলটি করেন ইমানুয়েল বোনাভেনচুরা। বাঁ দিক থেকে সতীর্থের বাড়ানো বল ডি-বক্সে পেয়ে ঠিকমতো শট নিতে পারেননি তরুণ ফরোয়ার্ড। বল তার অন্য পায়ে লেগে গড়াতে গড়াতে গোললাইন পেরিয়ে যায়। আগেই পড়ে যাওয়া থিবো কোর্তোয়া কিছুই করতে পারেননি। বিরতির আগে ম্যাচের দ্বিতীয় গোলটিও করেন ইমানুয়েল। দ্বিতীয়ার্ধে সের্হিও রামোস ও কাসেমিরোর গোলে স্বস্তিতে মাঠ ছাড়ে রিয়াল। চলতি মৌসুমে প্রতিযোগিতায় নিজেদের প্রথম ম্যাচে পিএসজির মাঠে ৩-০ গোলে হেরেছিল রিয়াল। এবার করল ড্র। ঘরের মাঠে ইউরোপের শীর্ষ প্রতিযোগিতায় এই নিয়ে টানা তিন ম্যাচ জয়শূন্য রইলো তারা। ক্লাব ব্র“জের বিপক্ষে ম্যাচের ফল নিয়ে স্বাভাবিকভাবেই সন্তুষ্ট নন জিদান। তবে ম্যাচের ইতিবাচক দিকগুলোতে নজর রাখতে চান এই ফরাসি। “ফলটা ভালো না। কিন্তু (পিছিয়ে পড়ার পর আমাদের) প্রতিক্রিয়াটা ভালো হয়েছে। প্রথমার্ধের খেলা নিয়ে আমরা খুশি হতে পারি না কারণ এমন ৪৫ মিনিট আমরা এর আগে কখনও কাটাইনি।” “এক পয়েন্ট নিয়ে আমি খুশি নই কারণ আমরা তিন পয়েন্ট পেতে চেয়েছিলাম। প্রথম যে গোলটা আমরা হজম করলাম তা ছিল হাস্যকর। কোন জায়গাতে প্রতিপক্ষ সবচেয়ে বেশি শক্তিশালী তার ওপর আমরা মনোযোগ দেইনি। তারা প্রথম গোল করল, আক্রমণে উঠল এবং এরপর দ্বিতীয় গোলটা করল…আপনাকে সবসময় ইতিবাচক দিকগুলো নিয়ে ভাবতে হবে।”

আরো খবর...