ভেড়ামারার নারী শ্রমিক হত্যায় একজনের মৃত্যুদন্ড

অতিরিক্ত দায়রা জজ ১ম আদালতের রায়

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়া ভেড়ামারা থানায় নিজ বাড়ি থেকে নিখোজ হওয়ার পর ইটভাটার নারী শ্রমিক শাপলা (২২) কে হত্যার অভিযোগে নিহতের মায়ের দায়ের করা মামলায় প্রতিবেশী রবিউল ইসলাম ওরফে রবি ঘরামী (৬২) নামের একজনকে মৃত্যুদন্ড ও ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। গতকাল বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় আসামী ভেড়ামারা উপজেলার বারোমাইল টিকটিকিপাড়া গ্রামের মৃত: রেজন আলীর ছেলে রবিউল ইসলাম ওরফে রবি ঘরামীর উপস্থিতিতে কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত জেলা দায়রা জজ ১ম আদালতের বিচারক মো: তহিদুল ইসলাম এক জনাকীর্ণ আদালতে এ রায় প্রদান করেন। আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৩ সালের ২১ এপ্রিল সন্ধ্যায় ভিকটিম নারী শ্রমিক শাপলা নিজ বাড়ি থেকে নিঁখোজ হন। পরদিন দুপুর দেড়টায় পশর্^বর্তী লিচু বাগান থেকে নিহতের লাশ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। ভেড়ামারা থানা পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। এঘটনায় নিহতের মা ইটভাটা শ্রমিক শাহানা বেগম বাদি হয়ে অজ্ঞাত আসামীদের বিরুদ্ধে ভেড়ামারা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। ভেড়ামারা থানার মামলা নং ১২, তারিখ- ২২-৪-২০১৩ ইং। সংশ্লিষ্ট আদালতের সরকারী কৌশুলী (বিশেষ পিপি) এ্যাড. আব্দুল হালিম জানান, পুলিশ মামলাটি তদন্ত শেষে আসামী রবি ঘরামীকে হত্যাকান্ডে জড়িত সনাক্তকরণসহ ২০১৩ সালের ১২ডিসেম্বর আদালতের চার্জশীট দিলে দায়রা ২০৭/২০১৪ নং-মামলায় নথিভূক্ত হয়ে বিচার কাজ শুরু হয়। রাষ্ট্রপক্ষের একাধিক স্বাক্ষীর স্বাক্ষ্য গ্রহন ও উভয়পক্ষের শুনানী শেষে আসামী রবি ঘরামীর বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সন্দেহাতিতভাবে প্রমানীত হওয়ায় আদালত এ রায় প্রদান করেন। আসামী পক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন এ্যাড. এস. এম বদিউজ্জামান।

আরো খবর...